রিও অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যা থাকছে

রিও অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যা থাকছে

‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন’ আর্থ বলে কথা। এর উদ্বোধনি অনুষ্ঠানটাই চোখ ধাঁধিয়ে যায়। বেইজিং অলিম্পিকে চীন দেখিয়েছিল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কত নতুনত্ব আনা যায়। বেইজিংয়ের পথ ধরে লন্ডন অলিম্পিকের উদ্বোধনীতেও ছিল এই জৌলুসের মাত্রা। এবার লন্ডন অলিম্পিকের চেয়ে জাঁকজমকপূর্ণ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করতে চায় ব্রাজিল।

তবে রিও অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান কতটা আকর্ষণীয় হবে, সেটা নিয়েই তৈরী হয়েছে প্রশ্ন। কারণ, চীন ও লন্ডন যেখানে একশ মিলিয়নের বেশি খরচ করেছিল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পেছনে সেখানে ব্রাজিল খরচ করছে মাত্র ৫০ মিলিয়ন ডলার। তবে তারা আশা করছে জাঁকজমকপূর্ণই হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

সময়টা ৫ আগস্ট হলেও স্থানের বিচারে বাংলাদেশ সময় শনিবার ভোর ৫টায় শুরু হবে অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। স্বাভাবিকভাবেই সবার আগ্রহের কেন্দ্রে থাকে, এবারের অনুষ্ঠানে নতুন কী কী থাকছে। মূলতঃ প্রত্যেকটি গেমসেই ফুটিয়ে তোলা হয় স্বাগতিক দেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য, সংস্কৃতি। সে আলোকে এবার রিও অলিম্পিক গেমসের উদ্বোধনী সাজানো হয়েছে লাতিনের ইতিহাস-ঐতিহ্য দিয়েই।

এছাড়া ব্রাজিলিয়ান সুপার মডেল জিসেল বুন্দচেনের ক্যাটওয়াক, সে দেশের সঙ্গীতের জনপ্রিয় নাম কায়তানো বেলোসো, গিলবার্তো গিলদের পারফরম্যান্সও দেখা যাবে। তেমনই অলিম্পিক উদ্বোধন প্রথমবার দেখা যাবে কোনও রূপান্তরকামী পারফরর্মার, ব্রাজিলের ফ্যাশন ব্যক্তিত্ব লি টি। আর ব্রাজিলের ঐতিহ্যবাহী সাম্বা নৃত্যতো থাকছেই। থাকছে অনেক চমক। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখতে হাজির থাকবেন প্রায় ৭৮ হাজার দর্শক। বিশ্বের তিন বিলিয়ন মানুষ টিভিতে সরাসরি এই অনুষ্ঠানটি দেখবেন। সরাসরি দেখাবে স্টার স্পোর্টস।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD