রকিবুল-তানভীরে দ্বিতীয় দিনও ওয়ালটনের

রকিবুল-তানভীরে দ্বিতীয় দিনও ওয়ালটনের

রকিবুল হাসানের ডাবল সেঞ্চুরি ও তানভীর হায়দারের সেঞ্চুরিতে ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোনের বিপক্ষে দ্বিতীয় দিনটিও নিজেদের করে নিয়েছে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন। বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) চতুর্থ রাউন্ডে ৮ উইকেটে ৫৮৮ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছে ওয়ালটন। জবাবে ২ উইকেটে ১৪২ রানে দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে ইস্ট জোন।
ইমতিয়াজ হোসেন ৩৭ ও তাসামুল হক ৯ রানে অপরাজিত আছেন। মুমিনুল হক ৮৯ রান করে আউট হয়েছেন। পথম ইনিংসে ওয়ালটনের থেকে এখনো ৪৪৬ রানে পিছিয়ে আছে ইস্ট জোন।
কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ওয়ালটনের হয়ে প্রথম দিনে অপরাজিত থাকা রকিবুল (১১৯) ও তানভীর (১০) বুধবার দ্বিতীয় দিনে ব্যাট করতে নামেন। মধ্যাহ্ন বিরতির পর পর্যন্ত তারা অবিচ্ছিন্ন থেকে ২৪০ রান সংগ্রহ করেন। এ যাত্রায় রকিবুল ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকান। আর তানভীর হায়দার সেঞ্চুরি হাঁকান।
দলীয় ৫৩১ রানে তাসামুল হকের বলে ব্যক্তিগত ২২৮ রানে আউট হন রকিবুল। এরপর দলীয় ৫৪২ রানে ব্যক্তিগত ১১০ রান করে আউট হন তানভীর হায়দার। তার উইকেটটি নেন তাসামুল হক। ৫৫৪ রানের মাথায় আউট হন শরীফউল্লাহ (১০)। তাকে সাজঘরে ফেরান রাহাতুল ফেরদৌস। ওয়ালটনের সংগ্রহ যখন ৫৬৮ রান তখন রান আউটে কাটা পড়েন মোহাম্মদ শরীফ।
এরপর আল-আমিন (১০) ও মোহাম্মদ শহীদ (১৮) দলীয় স্কোরকে টেনে নেন ৫৮৮ রান পর্যন্ত। এর পরই ইনিংস ঘোষণা করে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোন। বল হাতে ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোনের হয়ে রাহাতুল ফেরদৌস ৩টি উইকেট নেন। ২টি করে উইকেট নেন তাসামুল হক ও সাইফউদ্দিন।
রানের পাহাড় মাথায় নিয়ে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১ রানেই ফিরে যান ইস্ট জোন ওপেনার সাদমান হোসেন। এরপর দ্বিতীয় উইকেটে তাসামুলের সঙ্গে ১৩১ রানের জুটি গড়েন মুমিনুল। কিন্তু মাত্র ১১ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস করেন মুমিনুল। ৯২ বলে ১০ চারে ৮৯ রানের ইনিংসটি সাজান এই বাঁহাতি। ওয়ালটনের হয়ে একটি করে উইকেট নিয়েছেন মোহাম্মদ শরীফ ও শুভাগত হোম।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD