ফাইনালে ভারত

ফাইনালে ভারত

টানা তিন জয়ে এশিয়া কাপ ক্রিকেটের ফাইনালে পৌঁছে গেছে ফেভারিট ভারত। স্বাগতিক বাংলাদেশ ও পাকিস্তানকে হারানো পর মঙ্গলবার বিরাট কোহলির অপরাজিত ফিফটিতে তারা হারিয়েছে শ্রীলংকাকে, ৫ উইকেটে। এশিয়া কাপে তারাই এখন পর্যন্ত একমাত্র অপরাজিত দল। ভারত নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলবে দুর্বল আরব আমিরাতের বিরুদ্ধে। ম্যাচটি হবে বৃহস্পতিবার।
কোহলি দলের বিপদের সময় অসাধারণ দৃঢ়তা দেখিয়েছেন। তিনি ৪৭ বল খেলে ৭টি চারের সাহায্যে ৫৬ রানে অপরাজিত থাকেন। ভারত ৪ বল বাকি থাকতে ৫ উইকেট হাতে রেখে ১৪২ রান করে জয় তুলে নেয়।
মিরপুরে স্টেডিয়ামে শ্রীলংকার ছুঁড়ে দেয়া ১৩৯ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে টিম ইন্ডিয়া দলীয় ১৬ রানেই দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও শিখর ধাওয়ানকে হারিয়ে চাপের মধ্যে পড়ে যায়। লংকান বোলার কুলাসেকারাই দুই ব্যাটসম্যানকে ফেরান। এরপর দলকে টেনে নেন বিরাট কোহলি ও সুরেশ রায়না। তারা স্কোরবোর্ডে ৫৪ রান যোগ করেন। ইনিংসের ১২তম ওভারে বিদায় নেন রায়না (২৫)। তখন দলীয় স্কোর ৭০। সেখান থেকে দলকে জয়ের কাছাকাছি নিয়ে যান দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান কোহলি ও যুবরাজ সিংহ। তারা চতুর্থ উইকেট জুটিতে তুলে নেন ৫১ রান। এরপর দ্রুত যুবরাজ সিং ও পান্ডিয়ার উইকেট হারায় ভারত। যুবরাজ সিং মাত্র ১৮ বলে তিন করে ছক্কা ও চার মেরে ৩৫ রান করেন। ছয় বলের ব্যবধানে পান্ডিয়াও (২) হেরাথের বলে বোল্ড হয়ে মাঠ ছাড়েন। অবশ্য কোহলি ছিলেন ক্রিজে। তিনি আর অধিনায়ক ধোনি (অপরাজিত ৭) দলের জয় নিশ্চিত করেন।
টি-টোয়েন্টিতে রোহিত ৫৩তম ম্যাচে নামেন আর ১৬তম ম্যাচে নামেন ধাওয়ান। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে কুলাসেকারা বিদায় করেন ধাওয়ানকে (১)। উইকেটের পেছনে ধরা পড়েন তিনি। চতুর্থ ওভারে আবারো কুলাসেকারা আঘাত হানেন। ১৪ বলে ১৫ রান করা আরেক ওপেনার রোহিত শর্মাকে ফিরিয়ে দেন ডানহাতি এ পেসার।
এরপর রায়না-কোহলি-যুবরাজে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ভারত। এর আগে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন শ্রীলংকা বাঁচা-মরার ম্যাচে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামে। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারালেও শ্রীলংকা রানের চাকা ঠিকভাবেই ঘোরাতে থাকে। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে তারা ১৩৮ রান তোলে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD