চট্টগ্রাম আবাহনীর নতুন যাত্রার কাণ্ডারি হতে চান পাভলিক

চট্টগ্রাম আবাহনীর নতুন যাত্রার কাণ্ডারি হতে চান পাভলিক

চট্টগ্রাম আবাহনীর নতুন যাত্রার কাণ্ডারি হতে চান স্লোভাকিয়ার কোচ জোসেফ পাভলিক। আজ মঙ্গলবার বাফুফে ভবনে আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে উপস্থাপন করে চলতি মৌসুমে শিরোপা প্রত্যাশী দল গড়া বন্দর নগরীর ক্লাবটি।
সংবাদ সম্মেলনে পাভলিক বলেন, ‘আমি উপলব্ধি করতে পারছি সেরা দল হওয়ার জন্যই আমাকে আনা হয়েছে। আর আমি সেই চ্যালেঞ্জ গ্রহণে প্রস্তুত।’
চট্টগ্রাম আবাহনীই চলতি মৌসুমে প্রথম দল হিসেবে কোনও বিদেশি কোচকে উপস্থাপন করলো। ক্লাব কর্মকর্তারা এটিও বলছেন, পাভলিকই ক্লাবের ইতিহাসে প্রথম বিদেশি কোচ। দুই দিন আগে বাংলাদেশে আসা পাভলিক মাত্র দুটি সেশন পরিচালনা করেছেন। দল সম্পর্কে তার পুরোপুরি ধারণা এখনও হয়নি। তবে আপাতদৃষ্টিতে তিনি খুশি- ‘আমার দল নিয়ে আমি খুশি। জেনেছি বেশ কজন জাতীয় দলের খেলেয়াড় আছে। আর মাত্রই শুরু করেছি, কিছু দিন গেলে আমি বুঝতে পারবো কোন কোন জায়গায় আমাকে উন্নতি করতে হবে। আমি এটি জানি লিগ ফুটবল দুনিয়ার সব জায়গায় অত্যন্ত কঠিন এক প্রতিযোগিতা। চ্যাম্পিয়ন হতে চায় আমার ক্লাব। আমি এখানে আসতে পেরে আনন্দিত।’
এশিয়ান ফুটবল সম্পর্কে মোটামুটি ধারণা আছে পাভলিকের। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি মালয়েশিয়ায় এর আগে ক্যাম্প করেছি, আমার জানা চার-পাঁচ জন খেলোয়াড় খেলে মালয়েশিয়ান লিগে। এশিয়ান ফুটবলারদের খেলার স্টাইল ও অন্যান্য বিষয়গুলো আমার অজানা নয়।’
নিজের পছন্দের ফর্মেশন কী এমন প্রশ্নের উত্তরে কৌশলী উত্তর দিয়েছেন স্লোভাক কোচ। তিনি বলেন, ‘আসলে এখনও ফর্মেশন চূড়ান্ত করার পর্যায়ে আমি পৌঁছায়নি। ৪-৪-২ না ৪-৪-৩ এটি নির্ভর করবে দল সম্পর্কে আমার পুরো ধারণা হওয়ার পর। ফর্মেশন একটি আপেক্ষিক ব্যাপার, কোচরা এটি পরিবর্তন করতে পারেন। তবে কোচ হিসেবে আামি ডিফেন্স, অফেন্স সবখানেই একটি ভারসাম্য দেখতে পছন্দ করি।’
খেলোয়াড়ি জীবনে তিনবার শিরোপা জয়ের স্বাদ নিয়েছেন পাভলিক। স্লোভাক প্রিমিয়ার লিগের খ্যাতিমান ক্লাব এফসি নিতরার সঙ্গেই কাজ করেছেন বেশি। বিশ্বের অনেক ভালো খেলোয়াড় তৈরি করেছে ক্লাবটি। বিশেষ করে বর্তমানে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চেলসির হয়ে খেলা মিডফিল্ডার মিরোস্লাভ স্টচ নিতরাতেই কাটিয়েছেন তার বাল্যকাল। আর ২০০৫ সাল থেকে পাভলিক তার কোচিং শুরু করেন।
চট্টগ্রাম আবাহনীর ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান রুহুল আমিন তরফদার বলেন, ‘আমরা চাই পাভলিকের কাছে আমাদের ফুটবলাররা শিখবে আধুনিক ফুটবলের কলা কৌশল। এতে উপকৃত হবে দেশের ফুটবল।’
অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাফুফে সহ-সভাপতি বাদল রায়, চট্টগ্রাম আবাহনীর চেয়ারম্যান এম এ লতিফ, সদস্য সচিব শামসুল হক চৌধুরী ও বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD