আর ভুল করবেন না আফ্রিদি

আর ভুল করবেন না আফ্রিদি

আরব আমিরাতের বিপক্ষে মহা ভয়ই পেয়ে গিয়েছিলেন পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট দলের অধিনায়ক শহিদ আফ্রিদি। মাত্র ১৭ রানের মধ্যে তিন উইকেট পড়ে যাওয়ার পর ভয় পাওয়াটাই স্বাভাবিক। মিরপুরের মত উইকেটে ১২৯ রান তাড়া করা সত্যিই মহা এক পাহাড় টপকানোর সামিল। ওই তিন উইকেটের পর যদি আরও দু’একটি উইকেট পড়তো, তাহলে সত্যি বিপদেই পড়তো তারা। যদিও শেষ পর্যন্ত শোয়েব মালিক আর উমর আকমলের দৃঢ়তায় কোনমতে রক্ষা পায় পাকিস্তান।
কেন এমন হচ্ছে পাকিস্তানের? দেশটির ক্রিকেট কর্মকর্তাদের কাছে এটা এক বড় প্রশ্ন। অবশেষে অধিনায়ক আফ্রিদি উপলব্ধি করতে সক্ষম হলেন যে, সামনের ম্যাচগুলোতে আর কোন ভুল করা যাবে না। করলেই মহা বিপদ অপেক্ষা করছে তার দলের সামনে। বিশেষ করে বড় দলগুলোর বিপক্ষে তো কোন ভুলই করা যাবে না।
বাংলাদেশের বিপক্ষে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে আফ্রিদির নেতৃত্বেই হেরেছে পাকিস্তান। গত বছর এপ্রিলে ১ ম্যাচের ওই সিরিজে বাংলাদেশ আবিষ্কার করেছিল মুস্তাফিজুর রহমানকে। যদিও বুধবার পাকিস্তানের বিপক্ষে ইনজুরির কারণে থাকছেন না মুস্তাফিজ। যা তাদের জন্য বড় একটা স্বস্তিও বটে। তবুও আফ্রিদি সতর্ক। বাংলাদেশ যেহেতু রয়েছে দুর্দান্ত ফর্মে, শ্রীলংকার মত দলকে হারিয়েছে এবং সবচেয়ে বড় কথা তারা খেলবে নিজেদের মাটিতে। সুতরাং, সতর্ক না হয়েও উপায় নেই আফ্রিদির।
আরব আমিরাতের বিপক্ষে নিজেদের ঢিলেমির বিষয়টা প্রকাশ্যে এনে আফ্রিদি বলেন, ‘আমিরাতের বিপক্ষে ম্যাচটা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে গা ঢিলে দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। আপনি মাঠে হালকা চালে খেলতে পারবেন না, সাজঘরেও আয়েশি মেজাজে থাকতে পারবেন না। এবারের এশিয়া কাপে এখনো পর্যন্ত আমরা ভুল করছি প্রচুর। বড় দলগুলোর বিপক্ষে যে ম্যাচ দুটো বাকি আছে, সেগুলোতে ভুল করলে চলবে না।’
মাত্র ১৭ রানে তিন উইকেট পড়ে যাওয়ার পর তো বিপদ ক্রমেই ঝেঁকে বসছিল আমিরাতের ওপর। ওই বিষয়টা স্মরণ করিয়ে দিয়ে আফ্রিদি বলেন, ‘আমি ব্যাটসম্যানদের বলেছিলাম, খুব সাধারণ ক্রিকেট খেলতে। কোনভাবেই বড় শট খেলার দরকার নেই। আমরা যখন বোলিংয়ে ছিলাম, দ্রুত তাদের তিন উইকেট তুলে নেয়ার পর ভেবেছিলাম তাদেরকে ৯০ কিংবা ১০০ রানের মধ্যে বেধে ফেলতে পারবো। কিন্তু সত্যি তারা ভালো খেলেছে।’
তবে আরব আমিরাতের বিপক্ষে ম্যাচটা ভারত ম্যাচের আগে হলে নাকি তাদের জন্য আরও ভালো হতো। আফ্রিদি বলেন, ‘এই ম্যাচটা ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের আগে হলে আমরা নিজেদের গুছিয়ে নিতে পারতাম।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD