নিউজিল্যান্ডকে বড় ব্যবধানে হারালো ভারত

নিউজিল্যান্ডকে বড় ব্যবধানে হারালো ভারত

আগের ম্যাচে নেপালের কাছে বিধ্বস্ত হবার পর এবার ভারতের বিপক্ষে বড় পরাজয় বরণ করেছে নিউজিল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দল। ফলে টুর্নামেন্টের মূল পর্বের খেলা থেকে ছিটকে গেল কিউইরা। মাহিপাল লোমরোরের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে নিউজিল্যান্ডকে ১২০ রানের বড় ব্যবধানে হারায় ভারত। এই পরাজয়ে প্লেট পর্বে খেলার সান্ত্বনাই পেতে হচ্ছে কিউইদের। অপরদিকে এই জয়ে মূল পর্বে খেলা নিশ্চিত হয়ে গেলো ভারতীয় যুবাদের।

নেপালের বিপক্ষে দুঃস্বপ্নের স্মৃতি ভুলতে এইদিন ভারতের বিপক্ষে মাথে নামে নিউজিল্যান্ড যুবারা। ভারতের দেওয়া ২৫৯ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই দারুণ বিপর্যয়ে পরে তারা। দলীয় ১৬ রানেই টপ অর্ডারের চার ব্যাটসম্যানকে হারায় দলটি। তবে পঞ্চম উইকেট জুটিতে ফিন অ্যালেন ও ক্রিস্টিয়ান লিওপার্ড দলের হাল ধরেন। ৪৯ রানের জুটি গড়ে প্রাথমিক চাপ সামলে নেবার চেষ্টা করেন। কিন্তু দলীয় ৬৫ রানে অ্যালেনের বিদায়ের পর আবার নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে তারা।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪০ রান করেন ক্রিস্টিয়ান লিওপার্ড। ৪০ বলে ৩টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে এই রান করেন এই ব্যাটসম্যান। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান আসে টালর স্কট ও ফিন অ্যালেনের ব্যাট থেকে। এই দুই ব্যাটসম্যানই ২৯ বলে ১৯ রান করে করেন। তবে টালর স্কট ১টি চার ও ২টি ছক্কা ও ফিন অ্যালেন ৬টি চারের সাহায্যে এই রান করেন। এছাড়া আনিকেত পারিখ করেন ২৬ রান। ভারতের পক্ষে মাহিপাল লোমরোর ৪৭ রানে ৫ উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা বোলার। এছাড়া আভেশ খান ৩৬ রানে ৪টি উইকেট পান।

রোববার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং করতে নামে ভারত। দলীয় ১৯ রানে দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পরে যায় তারা। তবে তৃতীয় উইকেট জুটিতে দলের হাল ধরেন রিশাভ পান্ত ও সারফরাজ খান। ৮৯ রানের দারুণ এক জুটি প্রাথমিক চাপ সামলে নেন এ দুই ব্যাটসম্যান। দলীয় ১০৮ রানে ডেল ফিলিপের বলে পান্ত আউট হলে আরমান জাফরকে নিয়ে ৪৮ রানের জুটি গড়েন সারফরাজ। এরপর দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পরে তারা। তবে শেষ দিকে মাহিপাল লোমরোরের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ২৫৮ রান সংগ্রহ করে ভারত।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৪ রান করেন সারফরাজ খান। ৮০ বলে ৯টি চারের সাহায্যে এই রান করেন তিনি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান আসে রিশাভ পান্তের ব্যাট থেকে। ৮৩ বলে ৭টি চার এবং ২টি ছক্কার সাহায্যে ৫৭ রান করেন তিনি। এছারার আরমান জাফর ৪৬ ও মাহিপাল লোমরোর ৪৫ রান করেন। নিউজিল্যান্ডের পক্ষে জ্যাক গিবসন ৫০ রানে ৩টি উইকেট পান। এছাড়া নাথান স্মিথ ও রাচিন রবীন্দ্র ২টি করে উইকেট নেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD