পর্দা নামছে বিপিএল তৃতীয় আসরের

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) তৃতীয় আসরের পর্দা নামছে আজ মঙ্গলবার। ২৪ দিনের দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স আর বরিশাল বুলস উঠে এসেছে চূড়ান্তপর্বের এই ফাইনালে। সবকিছু ঠিক থাকলে এখন শুধু দেখার অপেক্ষা কে হচ্ছে নতুন বিপিএল চ্যাম্পিয়ন? সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে ফাইনাল খেলাটি।
২২ নভেম্বর রংপুর রাইডার্স বনাম চিটাগাং ভাইকিংসের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে শুরু হওয়া এবারের টুর্নামেন্টটিতে প্রথম রাউন্ডে তিন পর্বে ১০টি করে ম্যাচ খেলেছে ৬টি দল। রাউন্ডের সেরা ৪ দল উঠেছিল শেষ চারে। শেষ চারের লড়াই শেষে ফাইনালে উঠেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স আর বরিশাল বুলস।
ফাইনালের আগে দু’দলেরই আত্মবিশ্বাস তুঙ্গে। এর মধ্যে অনেকটা চমকে দিয়েই কুমিল্লা দল দিন দিন উন্নতি করছে। শেষ চারে প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে রংপুর রাইডার্সকে হারিয়ে সরাসরি ফাইনালের টিকিট পেয়েছে প্রথমবার বিপিএল খেলতে আসা দলটি। তাই ফাইনালে প্রস্তুতির জন্য বরিশালের চেয়ে একদিন সময় বেশী পেয়েছে মাশরাফিরা।
সম্মিলিত পারফরম্যান্সের ওপরই ফাইনাল নির্ভর করছে- এমন মন্তব্য করে এই ম্যাচ নিয়ে মাশরাফি বলেছেন, ‘পুরো টুর্নামেন্টে আমরা একটি দল হিসেবে খেলছি; মাঠে এবং মাঠের বাইরে। আমরা সবাই পেশাদারিত্ব বজায় রাখছি। তাতেই এবার সফল হয়েছি। প্রথমদিকে আমরা অতটা ভাল খেলতে পারিনি। তবে এর পর থেকে আমরা দুর্দান্ত এক দলে পরিণত হয়েছি। তাই এতদূর আসার পর নিশ্চয়ই খালি হাতে ফিরতে চাইব না। আগের ম্যাচগুলোতে আমরা যেভাবে খেলেছি ওই ধারা অব্যাহত রাখতে পারলে অবশ্যই ফাইনালেও ভাল কিছু করা সম্ভব।’
বরিশালও রয়েছে দুর্দান্ত ফর্মে, শেষ চারে তাদের দুই দফায় পরীক্ষা দিতে হয়েছে। ঢাকা ডায়নামাইটসকে হারিয়ে উঠেছে কোয়ালিফায়ারে। আর সেই কোয়ালিফায়ারে হারিয়েছে রংপুর রাইডার্সকে। বরিশালের বড় বিয়োগের মধ্যে শুধু ক্রিস গেইল চলে গেছেন। তবে গেইলহীন বরিশালও রংপুরের বিপক্ষে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছে। মাত্র ৪৯ বলে সাব্বির ৭৯ রান করে জ্বলে উঠেছেন। তাই গেইল না থাকলেও ফাইনাল ম্যাচ নিয়ে আত্মবিশ্বাসী বরিশাল বুলস।
ফাইনাল ম্যাচ নিয়ে কোয়ালিফায়ারে ৪৪ রান করা ব্যাটসম্যান শাহরিয়ার নাফীস বেজায় আশাবাদী। তিনি বলেছেন, ‘গেইল দলে নেই, তাতে কোনো সমস্যা হবে না। ওকে ছাড়াও আমরা জিতেছি। যদি সবাই মিলে পারফর্ম করি, তবে কালকেও (মঙ্গলবার) আমরা জিততে পারব। আমরা লিগপর্ব এবং কোয়ালিফায়ারে ভাল খেলে ফাইনালে এসেছি। সেই খেলাটাই ধরে রাখতে চাই। ফাইনাল ভেবে নয়, আমরা নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে চাই। তাহলেই আশা করি আমাদের পক্ষে ফল আসবে।’
প্রস্তুত দুই দল, প্রস্তুত মাঠ আর প্রস্তুত দুই দলের কোটি সমর্থক। এখন বাকি শুধু লড়াইয়ের। সেই লড়াইয়ে দেখা মিলবে বিপিএল তৃতীয় আসরের নতুন চ্যাম্পিয়নের। আর যে দলই চ্যাম্পিয়ন হোক এবার তাদের জন্যই হবে বিপিএলে এটি প্রথম শিরোপা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD