ঢাকাWednesday , 21 February 2024
  1. অলিম্পিক এসোসিয়েশন
  2. অ্যাথলেটিক
  3. আইপিএল
  4. আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আরচারি
  7. এশিয়া কাপ
  8. এশিয়ান গেমস
  9. এসএ গেমস
  10. কমন ওয়েলথ গেমস
  11. কাবাডি
  12. কুস্তি
  13. ক্রিকেট
  14. টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ
  15. টেনিস

শেষ বলের নাটকীয়তায় নিউজিল্যান্ডকে হারাল অস্ট্রেলিয়া

Sahab Uddin
February 21, 2024 6:15 pm
Link Copied!

ওয়েলিংটনের স্কাই স্টেডিয়ামে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে রানবন্যার এক ম্যাচ দেখল দর্শকরা। প্রথমে ব্যাট করে ২১৫ রানের বিশাল পুঁজি পায় স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। জবাবে শেষ বলে চার মেরে দলের জয় নিশ্চিত করেন টিম ডেভিড।
তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) মাঠে নামে নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া। টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকে অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের পেটাতে থাকে কিউই ব্যাটসম্যানরা। ফিন অ্যালেন ও ডেভন কনওয়ের ওপেনিং জুটি থেকে আসে ৬১ রান।

এই জুটি ভাঙ্গার পরও থামেনি নিউজিল্যান্ড ব্যাটিং তাণ্ডব। রাচিন রবীন্দ্রকে নিয়ে কনওয়ে এগিয়ে নিতে থাকেন নিউজিল্যান্ডের ইনিংস। ১১৩ রান আসে কনওয়ে-রবীন্দ্র জুটি থেকে। দুইজনই অর্ধশতক পূর্ণ করেন। কনওয়ে ৪৬ বলে ৬৩ এবং রবীন্দ্র ৩৫ বলে করে ৬৮ রান। শেষ দিকে ফিলিপস ও চ্যাম্পম্যানের ব্যাটে ৩ উইকেট হারিয়ে ২১৫ রানের বিশাল পুঁজি পায় স্বাগতিকরা। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ১টি করে উইকেট পেয়েছেন মিচেল মার্শ, মিচেল স্টার্ক এবং প্যাট কামিন্স।

জবাব দিতে নেমে ভালো শুরু পায় অস্ট্রেলিয়াও। দুই ওপেনার ট্রাভিস হেড এবং ডেভিড ওয়ার্নারের ওপেনিং জুটি থেকে আসে ২৯ রান। হেড আউট হওয়ার পরও তাণ্ডব চালিয়ে যাচ্ছিলেন ওয়ার্নার। তিনে নামা অধিনায়ক মিচেল মার্শও ভালোভাবেই সঙ্গ দিচ্ছিলেন ওয়ার্নারকে। দু’জনের আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে পাওয়ার প্লে’র ৬ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে ৫৬ রান তোলে অজিরা।

২০ বলে ৩২ রান করে আউট হন ওয়ার্নার। এরপর দলের ইনিংস টেনেছেন মার্শ। মাঝে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল কিছুটা ঝড়ের আভাস দিয়েছিলেন তবে বেশিক্ষণ টেকেননি তিনি। ১১ বলে ২৫ রান করে বিদায় নেন ম্যাক্সওয়েল। ২০ বলে ২০ রান করে জশ ইংলিশও বিদায় নেন। এই সময় মার্শকে সঙ্গ দিতে ক্রিজে নামেন টিম ডেভিড। মাঝে ফিফটি হাঁকান অজি অধিনায়ক মার্শ।

টিম ডেভিড ক্রিজে নেমে অস্ট্রেলিয়ার সামনে থাকা কঠিন সমীকরণকে সহজ করে দেন। শেষ ওভারে ১৬ রান দরকার ছিল অস্ট্রেলিয়ার। সাউদির ওভারের প্রথম তিন বলে তিন রান আসে। সাথে একটি ওয়াইড হয়। শেষ তিন বলে অজিদের প্রয়োজন ছিল ১২ রান। চতুর্থ বলে ছক্কা মারেন ডেভিড। এর পরের বলে দুই রান নিয়ে শেষ বলে স্ট্রাইক নেন তিনি। শেষ বলে চার মেরে অস্ট্রেলিয়াকে জয় উপহার দেন এই হার্ড-হিটার। ১০ বলে ৩ ছয় ও দুই চারে ৩১ রানে অপরাজিত ছিলেন ডেভিড। আর মার্শ অপরাজিত ছিলেন ৪৪ বলে ৭২ রানে।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে ২ উইকেট নেন মিচেল স্যান্টনার। এছাড়া ১টি করে উইকেট শিকার করেন অ্যাডাম মিলনে এবং লকি ফার্গুসন। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ অ্যাকল্যান্ডে ২৩ ফেব্রুয়ারি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, Bangladesherkhela.com এর দায়ভার নেবে না।