ঢাকাSunday , 18 February 2024
  1. অলিম্পিক এসোসিয়েশন
  2. অ্যাথলেটিক
  3. আইপিএল
  4. আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি
  5. আন্তর্জাতিক
  6. আরচারি
  7. এশিয়া কাপ
  8. এশিয়ান গেমস
  9. এসএ গেমস
  10. কমন ওয়েলথ গেমস
  11. কাবাডি
  12. কুস্তি
  13. ক্রিকেট
  14. টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ
  15. টেনিস

ইংল্যান্ডকে গুঁড়িয়ে রেকর্ড রানে জিতলো ভারত

Sahab Uddin
February 18, 2024 6:00 pm
Link Copied!

যশস্বী জয়সওয়ালের অপরাজিত ২১৪ রানে ভর করে ভারত ইংল্যান্ডকে ৫৫৭ রানের পাহাড়সম লক্ষ্য দেয়। জবাবে ভারতীয় ওপেনারের রানও করতে পারেনি সফরকারীদের ১১ ব্যাটার। প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান রবীন্দ্র জাদেজা ৫ উইকেট নিয়ে ৪০তম ওভারে ১২২ রানে তাদের অলআউট করতে ভূমিকা রাখেন। তাতে ভারত তাদের টেস্ট ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৪৩৪ রানের জয় পায়। তাতে দুই ম্যাচ হাতে রেখে ২-১ এ এগিয়ে গেলো স্বাগতিকরা। এটি ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ব্যবধানে হার। আর বেন স্টোকসের ইংল্যান্ড এনিয়ে দ্বিতীয়বার টানা দুটি টেস্ট ম্যাচ হারলো। সবশেষ ২০২৩ সালে লর্ডস ও এজবাস্টনে অস্ট্রেলিয়ার কাছে টানা দুই ম্যাচ হেরেছিল তার দল।

ভারত চারশ ছাড়ানোর পর ইনিংস ডিক্লেয়ার করে। চা বিরতির আগেই ১৮ রানে ২ উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। বাকি এক সেশনেও তারা কোনও প্রতিরোধ গড়তে পারেনি। শেষ বিকালে পড়ে বাকি ৮ উইকেট।

জাদেজা ১২.৪ ওভারে ৪১ রান দিয়ে ৫ উইকেট নেন। টেস্ট ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বার একই ম্যাচে সেঞ্চুরি ও ফাইফারের কীর্তি গড়েন এই অলরাউন্ডার। ইংল্যান্ডের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৩ রান করেন দশম ব্যাটার মার্ক উড।

মায়ের অসুস্থতার কারণে মাঝপথে টেস্ট থেকে সরে দাঁড়ানো রবিচন্দ্রন অশ্বিন ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে ৮.২ ওভারে মাঠে নামেন। ৬ ওভার বল করে একটি উইকেটও নেন তিনি।

এর আগে ভারত চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করে ২ উইকেটে ১৯৬ রানে।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় টেস্টেও ডাবল সেঞ্চুরির আরেকটি নজির গড়েছেন ওপেনার জয়সওয়াল। অনবদ্য ডাবল সেঞ্চুরিতে এলিট লিস্টেও ঢুকে গেছেন তিনি। তবে রোহিত শর্মা ৪ উইকেটে ৪৩০ রানে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা না করলে হয়তো তার আগ্রাসী ইনিংসটি অনন্য মাত্রা পেতো! সেটি হতো এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ড!

এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ১২টি ছক্কার মালিক ছিলেন পাকিস্তানি গ্রেট ওয়াসিম আকরাম। ১৯৯৬ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৫৭ রানে অপরাজিত ছিলেন ১২টি ছক্কায়। এবার তাকে স্পর্শ করেছেন জয়সওয়াল।

২৩৬ বলে ১৪ চার ও ১০ ছক্কায় ২১৪ রানে অপরাজিত ছিলেন জয়সওয়াল। অথচ শনিবার ১০৪ রানের পর পিঠের চোটের কারণে আর ব্যাট করতে পারেননি। চতুর্থ দিন মাঠে নামলেন ঠিকই। নেমে বিরাট কোহলি ও বিনোদ কাম্বলির পর তৃতীয় ভারতীয় ব্যাটার হিসেবে টানা দুই টেস্টে হাঁকিয়েছেন ডাবল সেঞ্চুরি। এর আগে বিশাখাপত্তনমে খেলেছেন ২০৯ রানের ইনিংস।

ইংলিশ বোলারদের বিপক্ষ ব্যাটটাকে তরবারি বানিয়েছিলেন জয়সওাল। ডাবল সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন ৮৬.৫৮ স্ট্রাইক রেটে ২৩১ বলে। টেস্টে বয়সের হিসেবেও জয়সওয়ালের এই ইনিংসটি রেকর্ডের তালিকায় ঢুকে গেছে। তৃতীয় সর্বকনিষ্ঠ হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরির মালিক হয়েছেন তিনি (২২ বছর ৫৩ দিন)। ২১ বছর ৫৪ দিন নিয়ে এই তালিকার চূড়ায় ভারতের বিনোদ কাম্বলি। ২১ বছর ৩১৮ দিন বয়স নিয়ে দুইয়ে আছেন কিংদবন্তি স্যার ডন ব্র্যাডম্যান। ইনিংস ঘোষণার আগে জয়সওয়ালের সঙ্গে ৬৮ রানে অপরাজিত ছিলেন সরফরাজ খান।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, Bangladesherkhela.com এর দায়ভার নেবে না।