রাত ৩:২২, শুক্রবার, ২৪শে মে, ২০১৮ ইং
/ ক্রিকেট

ফুটবল থেকে অবসর নে‌ওয়ার পর অভিনেতা হবেন পর্তুগাল ‌ও রিয়াল মাদ্রিদের তারকা ফরোয়ার্ড ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। স্পেনের টেলিভিশন জাগনসে জোসেফ পেডরেরোলের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাতকারে তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার একথা জানান।
http://www.lasexta.com/programas/jugones/viku_201805245b06d4d90cf2748acf96ca3f.html

সেই সাক্ষাতকারে পাচবারের বিশ্বসেরা খেলোয়াড় রোনালদো ভবিষ্যত পরিকল্পনার পাশাপাশি তার মায়ের সম্পর্কে‌ও জানান। তবে রোনালদো প্রধান কোনো চরিত্রে অভিনয় করতে চাননা। তিনি বলেন, ‘ফুটবল ছাড়ার পর আমি অভিনেতা হতে চাই। আমি এ ব্যাপারে অনুশীলন‌ও করেছি, কারণ বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে ঘোষকের দায়িত্বে ছিলাম। তবে অভিনয়ের বিষয়ে আমার কোনো পড়ালেখা নেই। তাছাড়া আমি তো প্রধান কোনো চরিত্রে‌ও অভিনয় করতে চাইনা।’

আর গোল করার পর পর জার্সি খুলে উদযাপন করতে ভালবাসেন রোনালদো। কারণ হিসেবে জানান, এটা নারীরা ভালোবাসে। তিনি বলেন, ‘এটা নারীদের পছন্দ। আমার গার্লফেন্ড বলে তখন নাকি দারুণ লাগে আমাকে।’ অবশ্য যারা এমনটা বলে তারাই জানে কেন বলে, এ বিষয়ে আমার কোনো পছন্দ-অপছন্দ নেই।’

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রাইজমানি

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের উত্তাপে গরম এখন কিয়েভের মাঠ। রিয়াল মাদ্রিদ ‌ও লিভারপুল দু’দলই এখন ইউক্রেনের কিয়েভে। হার-জিত যাই থাক না কেনো প্রচুর অর্থ পুরস্কার পাবে স্প্যানিশ ‌ও ইংলিশ জায়ান্টরা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের জন্য উয়েফা আগের বছর থেকেই ১.৩ বিলিয়ন ইউরো প্রাইজমানি দিয়ে আসছে ক্লাবগুলোকে।

গত বছর রিয়াল মাদ্রিদ শিরোপা জিতেছিল জুভেন্টাসকে হারিয়ে। হলে কি হবে, তাদের চেয়ে বেশি প্রাইজমানি কিন্তু পেয়েছিল ইটালিয়ান জায়ান্টরা। চ্যাম্পিয়ন রিয়াল পেয়েছিল ৮৯.৫ মিলিয়ন ইউরো (৫৪.২ মিলিয়ন পারফরমেন্সে এবং ৩৫.৩ মিলিয়ন বাজার মূল্যের ‌ওপর)।অন্যদিকে জুভেন্টাস পেয়েছিল ১০১.১ মিলিয়ন ইউরো (৫০.৬ মিলিয়ন ডলার বাজার মূল্য এবং ৫১.১ মিলিয়ন ইউরো পারফরমেন্সে)।
এবারের জয়ী দল রানার্সআপের চেয়ে ১১ মিলিয়ন ইউরো বেশি প্রাইজমানি পাবে। তবে পারফরমেন্সের হিসেবে রিয়ালের চেয়ে বেশি অর্থ পাচ্ছে লিভারপুল। তারা পাচ্ছে ৫২ মিলিয়ন ইউরো। আর রিয়াল পাচ্ছে ৫০.৭ ইউরো।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের উত্তাপ কিয়েভে

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের বরফ গলতে শুরু করেছে, চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের উত্তাপে। ২৪ জন খেলোয়াড় নিয়ে ইতোমধ্যেই ইংলিশ দল লিভারপুল এবং স্প্যানিশ জায়ান্ট পৌছে গেছে কিয়েভে। তবে আগামীকাল শনিবার রাতের ফাইনালে যে দলই জিতুন না কেনো জয় হবে কিয়েভেরই।

তবে এই রমজান মাসে মোহাম্মদ সালাহর জন্যই তৃতীয়বার চ্যাম্পিয়ন হতে চাইছে ইংলিশরা। এই ‌ওরেজোনােক (ফাইনাল ম্যাচকে) সামনে রেখে কিয়েভ মেতেছে রঙে আর উৎসবে। দশর্ক-সমর্থকদের বিপুল উপস্থিতিতে ব্যবসা কেন্দ্রগুল‌ো জমজমাট হয়ে উঠেছে।

কিয়েভের মেয়র ভিতালি ক্লিসচেকো হেভি‌ওয়েট বক্সিংয়ে তিনবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ছিলেন। জীবনে ৪৭ লড়াইয়ের মাত্র দুটি হেরেছেন। নিজের জীবনের সাফল্যের মতো তিনি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালটা‌ও সাফল্যের ছোয়ায় রঙিন করতে চান। তাই তিনি মজা করে বলেন, ‘পৃথিবীর সব মেয়ররা এখন আমাকে হিংসা করছেন’।

লিভারপুলের তিন তারকা মোহাম্মদ সালাহ, সাদি‌ও মানে ‌ও রবার্টো ফিরমিনো দলের সঙ্গে প্রশিক্ষনে অংশ নেন।

এদিকে, রিয়াল মাদ্রিদ মাত্র ৫০ মিনিট অনুশীলন করেছে। জিনেদিন জিদান দলের তিন গোলকিপার কোস্টারিকান কেইলর নাভাস, স্প্যানিশ কিকো ক্যাসিলাস ‌ও জিজুর সন্তান লুকা জিদানকে নিয়ে আলাদা সময় কাটান।

টিম টু ওয়াচ: ইংল্যান্ড

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, ইংল্যান্ডের কথা।

১৯৩০ সালে ফুটবলে বিশ্বকাপ প্রচলন হলে‌ও, ১৯৬৬ সালে ফুটবলের জনক ইংল্যান্ড প্রথমবারের মতো আয়োজন করেই ঘরে তুলে নেয় বিশ্বকাপ ট্রফিটি। রানার্স আপ হয় পশ্চিম জার্মানি। এই টুর্নামেন্ট দিয়েই প্রথম মাসকট পায় বিশ্বকাপ ফুটবল।

ইউরো ফুটবলে কখনো চ্যাম্পিয়নশিপ পায়নি ইংল্যান্ড, তবে দুবার সেমি-ফাইনালে উঠেছে। তাই ১৯৬৬ সালের পর আরেকবার বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন বুনছে ইংলিশরা। এবার রাশিয়া বিশ্বকাপে অন্যতম ফেবারিটও তারা। এই মিশনে ইংলিশরা ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। অনেকটা তারুণ্যনির্ভর দল গড়েছ ইংল্যান্ডের। তবে কোচ গ্যারেথ সাউথগেটের দলে নেই তারকা খেলোয়াড় জ্যাক উইলশায়ার, জো হার্ট এবং রায়ান বারট্রান্ড। চলতি মৌসুমে ওয়েস্টহ্যামের হয়ে বাজে পারফরমেন্সের জন্য দল থেকে বাদ পড়েন এক সময়ের প্রথম পছন্দের গোলরক্ষক হার্ট। তার জায়গায় দলে সুযোগ পেয়েছেন বার্নলির নিক পোপ। রক্ষণভাগ থেকে বিস্ময়করভাবে বাদ পড়েছেন সাউদাম্পটন লেফট ব্যাক বারট্রান্ড। প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে সুযোগ পেয়ছেন লিভারপুলে খেলা তরুণ টেন্ট আলেক্সান্ডার-আরনল্ড। দলকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে পৌঁছে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন এ তারকা খেলোয়াড়।

আসন্ন রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলে ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দেবেন স্ট্রাইকার হ্যারি কেন। টটেনহ্যাম হটস্পারের হ্যারি কেন’ই হলেন ইংল্যান্ড দলের তালিসমান। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ২৩ ম্যাচে খেলে করেছেন ১২ টি গোল। এছাড়া তিনি ২০১৫-১৬,২০১৬-১৭ মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগে গোল্ডন বুট ‍বিজয়ী‌ও। তিনি ২০১৭ সালে ইংল্যান্ডের বর্ষসেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন। তাই র্নিদ্বিধায় বলা যায়, ইংল্যান্ড দলের সব আলোচনার কেন্দ্রে আছেন হ্যারি। তিনিই ইংল্যান্ডে সাফল্যের প্রাণ ভোমরা।

এদিকে ফরোয়ার্ডে হ্যারির সাথে থাকবেন জ্যামি ভার্ডি, মার্কস র‌্যাশফোর্ড, ড্যানি ওয়েলবেক মতো তারকারা। আর মাঝমাঠ সামলাবেন ডালে আলি, জর্ডান হেন্ডারসন, এরিক ডিয়ার, জেস লিনগার্ড, রাহিম স্টার্লিং, রুবেন লোফটাস-চেক। রাশিয়া বিশ্বকাপে এবার গ্যারেথ সাউথগেট ভরসা রাখছেন বেশিরভাগ তরুণ ফুটবলারের উপর। তাই সে হিসেবে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের গোলপোস্ট সামলাবেন জ্যাক বাটল্যান্ড। তার সামনে থাকবেন ট্রেন্ট আলেক্সান্ডার-আরনোল্ড, গ্যারি কাহিল, কাইল ওয়াকার, জন স্টোনস, হ্যারি ম্যাগুইর, ড্যানি রোজ, অ্যাশলে ইয়ং, ফিল জোন্স, কাইরান ট্রিপিয়ার, ফ্যাবিয়ান ডেলফ। তাদেরকে টপকে বিশ্বের যে কোন দলের ফরোয়ার্ডদের গোল করতে বেগ পেতে হবে। সেটা নিশ্চিত করেই বলা য়ায়।

গ্রুপ ‘জি’ এর লড়াইয়ে ১৮ জুন তিউনিশিয়ার বিপক্ষে নামবে ইংল্যান্ড। ২৪ জুন নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে পানামার মুখোমুখি হবে একারের বিশ্ব সেরা দলটি। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে শক্তিশালী বেলজিয়ামের বিরুদ্ধে লড়বে সাউথগেটের শিষ্যরা।

জাপানই পছন্দ ইনিয়েস্তার

বার্সেলোনাকে বিদায় জানানোর পর জাপানই পছন্দ করছেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা। তিনি যোগ দিচ্ছেন জাপানের দল ‘ভিসেল কোবে’তে। এর আগে, চীনের দল ‘চংকুইন দাংদাই’য়ে যোগ দে‌ওয়ার কথা শোনা গিয়েছিল ইনিয়েস্তার।

আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা আগামী তিন বছরের জন্য ‘ভিসেল কোবে’তে যোগ দিচ্ছেন বলে জানা যায়। বার্সেলোনার জার্সি স্পন্সর রাকুটেনের মালিক হিরোশি মিকিতানি জাপানের ঐ ক্লাবটির মালিক। জাপানের দলে যোগ দে‌ওয়ার বিষয়টি বার্সার সাবেক অধিনায়ক ইনিয়েস্তা বুধবার নিজের টুইটার একাউন্টে নিশ্চিত করেন। প্রতি মৌসুমের জন্য ২৫ মিলিয়ন ইউরো পা‌ওয়ার কথা তার।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ: ফাইনালের আগে

আগামী শনিবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শিরোপা দ্বৈরথে ইউক্রেনের কিয়েভে স্পেনের রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ডের লিভারপুল। খেলার দেখার আগে জানা যাক, এই দুই জায়ন্টের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের হিসেব-নিকেশ।

স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ এর আগে ১২ বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জিতেছে। ১৯৫৬, ১৯৫৭, ১৯৫৮, ১৯৫৯, ১৯৬০, ১৯৬৬, ১৯৯৮, ২০০০, ২০০২, ২০১৪, ২০১৬ এবং ২০১৭। এরমধ্যে শেষ ছয় ফাইনালে উঠেই চ্যাম্পিয়ন হয় লা ব্ল্যাঙ্কোরা। জুভেন্টাসের পর রিয়াল মাদ্রিদই একমাত্র দল যারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে টানা তিনবার ফাইনালে ‌ওঠে। জুভেন্টাস ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত ফাইনালে ‌ওঠে।

ইংল্যান্ডের লিভারপুল এর আগে ৫বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জিতেছিল। ১৯৭৭, ১৯৭৮, ১৯৮১, ১৯৮৪ ‌ও ২০০৫ সালে। `অল রেড’দের বর্তমান দলের কোনো খেলোয়াড়েরই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল খেলার অভিজ্ঞতা নেই।

এবারের আগে, ইউরোপিয়ান ফুটবলের আসরে মোট ৫বার মুখোমুখি হয়েছে দু’দল। তার মধ্যে লিভারপুল জিতেছে তিনবার আর দু’বার রিয়াল মাদ্রিদ। লিভারপুলের ছয় গোলের বিপরীতে রিয়ালের গোল চারটি।

এবারেরর রিয়াল মাদ্রিদ-লিভারপুল ম্যাচটি যেনো ১৯৮১ সালের পুনরাবৃত্তি। সবার‌ও এই দু’দল মুখোমুখি হয়িছলো ফাইনালে। প্যারিসে, খেলার ৮২ মিনিটে এলান কেনেডির গোলে শিরোপা জেতে লিভারপুল। ফাইনালর উঠে সেটাই ছিল রিয়ালের শেষ পরাজয়।

ফাইনালের এই ম্যাচে জিতলে রিয়াল মাদ্রিদ একমাত্র দল হিসেবে দুইবার টানা তিনবার করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জেতার রেকর্ড গড়বে। এর আগে, আয়াক্স (১৯৭১-৭৩) এবং বায়ার্ন মিউনিখ (১৯৭৪-৭৬) টানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জিতেছিল।

১৩ পয়েন্ট নিয়ে এইচ গ্রুপে রানার্সআপ হয়ে দ্বিতীয় পর্বে ‌ওঠে রিয়াল মাদ্রিদ। এই গ্রুপে শীর্ষস্থানে ছিল টটেনহ্যাম হর্টপার। আর রিয়ালের পেছনে ছিল বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ‌ও অ্যাপোয়েল। দ্বিতীয় রাউন্ডে নেমইমারের প্যারিস সেন্ট জার্মেইকে ৫-২ গোল গড়ে (৩-১ হোম ‌ও ২-১ অ্যা‌ওয়ে) পরাজিত করে জিনেদিন জিদানের দল। কোয়ার্টার ফাইনালে জুভেন্টাসকে ৪-৩ গোল গড়ে (৩-০ অ্যা‌ওয়ে ‌ও ১-৩ হোম) পরাজিত করে। জার্মানির বায়ার্ন মিউনিখকে ৪-৩ গড়ে (২-১ হোম ‌ও ২-২ অ্যা‌ওয়ে) হারিয়ে ফাইনালে ‌ওঠে স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

এদিকে, লিভারপুল প্লে অফে জার্মান দল হফেনহেইমকে হারায় প্রথমে। ই গ্রুপে ১২ পয়েন্ট নিয়ে সেভিয়া, স্পার্টাক মস্কো এবং মারিবরের আগে থেকে দ্বিতীয় রাউন্ডে ‌ওঠে। শেষ ১৬’র ম্যাচে পোর্তোকে ৫-০ গড়ে (৫-০ অ্যা‌ওয়ে ‌ও ০-০ হোম) পরাজিত করে তারা। ম্যানচেস্টার সিটিকে কোয়ার্টার ফাইনালে ৫-১ গড়ে( ৩-০ হোম ‌ও ২-১ অ্যা‌ওয়ে) এবং রোমাকে ৭-৬ গোল গড়ে (৫-২ হোম ‌ও ২-৪ অ্যা‌ওয়ে) পরাজিত করে ফাইনালে ‌ওঠে লিভারপুল।

ইনজুরিতে বাদ আর্জেন্টিনার রোমেরো

গোলরক্ষক নাহুয়েল গুজম্যানকে আবার‌ও আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ দলে ডেকেছেন কোচ হোর্হে সাম্পা‌ওলি। না ডেকে উপায়ই বা কি, হাঁটুর ইনজুরির কারণে যে খেলতেই পারবেন না দলের এক নম্বর গোলকিপার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের স্যার্জিয়ো রোমেরো। আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন-এএফএ রোমেরোর ইনজুরির কথা নিশ্চিত করেছে।

৩১ বছর বয়সী রোমেরো আর্জেন্টিনার হয়ে ৯৪টি ম্যাচ খেলেছেন। ২০১৪ বিশ্বকাপে গোলবারের নিচে দারুণ দক্ষতার পরিচয় দিয়ে আলবিসেলেস্তেদর তিনি ফইনালে তোলেন। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে জার্মানির কাছে এক গোলে পরাজিত হয় দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। এএফএ জানায়, রোমেরো আর্জেন্টিনার প্রথম পছন্দের গোলকিপার। তার ডান হাঁটুতে অস্ত্রোপচার করা লাগবে।

গোলরক্ষক নাহুয়েল গুজম্যান

২১ মে রাতে ঘোষিত চূড়ান্ত দলে রোমেরোসহ গোলরক্ষক ছিলেন তিনজন। বাকি দুজন উইলফ্রেডো কাবাল্লেরো এবং ফ্রাঙ্কো আরমানি। দুজনই অনভিজ্ঞ। কাবাল্লেরো মাত্র দুটি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। আরমানির এখনো অভিষেকই হয়নি। রোমেরোর পরিবর্তে মেক্সিকোর দল টাইগার্সে খেলা নাহুয়েল ঐ দুই গোলকিপারের সঙ্গে যোগ দেবেন। ৩২ বছর বয়সী গুজম্যান ২০১৫ সাল থেকে জাতীয় দলের হয়ে মাত্র ছয়টি ম্যাচ খেলেছেন। গত বছর সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে সবশেষ ম্যাচ খেলেন তিনি। তাতে ৬-০ গোলে জিতেছিল লি‌ওনেল মেসির দল।

বিশ্বকাপ ফুটবলে অংশ নিতে আগামী ২৯ মে হাইতি এবং ৯ জুন ইসরায়েলের বিপক্ষে দুটো প্রীতি ম্যাচ খেলবে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিযন আর্জেন্টিনা। ১৬ জুন রাশিয়া বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে তারা। গ্রুপ ডি’তে তাদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়া এবং নাইজেরিয়া।

হেলিকপ্টারে করে অনুশীলনে নেইমার

অনুশীলনে নেমেছে ব্রাজিল দলও। রিও ডি জেনিরোর গ্রাঞ্জা কোমারি ট্রেনিং কমপ্লেক্সে এক সপ্তাহের অনুশীলন করবে তিতের দল। এরপরই সেলেসাওরা জুন মাসে প্রীতি ম্যাচ খেলার জন্য বিশ্ব ভ্রমণে রওনা দেবে।

বিশ্বকাপের হেক্সা জয়ের মিশনে নামা সেলেসাওদের সবাই ছিলেন অনুশীলনে। বিশ্বের সবচেয়ে দামী খেলোয়াড় নেইমার হেলিকপ্টারে করে অনুশীলন ক্যাম্পে আসেন। সঙ্গে ছিলেন ডগলাম কস্টা, রেনাতো আউগাস্তো এবং থিয়াগো সিলভা। ফিটনেস পরীক্ষার মধ্যদিয়ে অনুশীলন শুরু হয়।

তবে দলের কোচ তিতে এবং সাপোর্টিং স্টাফদের নজর ছিলো নেইমারের দিকে। গত ফেব্রুয়ারিতে পায়ের ইনজুরিতে পড়ার পর থেকে এখনও খেলতে নামেননি এই ব্রাজিলিয়ান ও প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের ফরোয়ার্ড। তবে গত সপ্তাহেই তিনি পিএসজির মাঠে বল পায়ে অনুশীলনে নেমেছিলেন।

বিশ্বকাপ দলের অনুশীলনে মেসি

আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ দলের সঙ্গে অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন অধিনায়ক ‌ও পাচবারের বিশ্বসেরা খেলোয়াড় লি‌ওনেল মেসি। বিশ্বকাপ দলের সঙ্গে বার্সেলোনার সুপারস্টারের যোগ দে‌ওয়ার বিষয়টি আর্জেন্টিনা আজ মঙ্গলবার নিশ্চিত করেছ। বুয়েন্স আইরেসে হোর্হে সাম্পা‌ওলির দল শুরু করেছে এই অনুশীলন ক্যাম্প।

নিজের ক্লাব বার্সেলোনাকে ঘরোয়া ফুটবলে দুটি শিরোপা এনে দেয়া আর্জেন্টিনার মহাতারকা মেসি ৩৪ গোল করে রেকর্ড পঞ্চমবারের মতো ইউরোপিয়ান গোল্ডেন শ্যূ জেতেন। বুয়েন্স আইরেসের এজাইজাতে আগে থেকেই বিশ্বকাপ দলের ১৬ খেলোয়াড় নিয়ে অনুশীলন ক্যাম্প পরিচালনা করছিলেন কোচ সম্পাওলি। মেসি যোগ দেওয়ায় ক্যাম্প আরো প্রাণ পেলো।

আগামী ১৬ জুন গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে নবাগত আইসল্যান্ডের বিপক্ষে লড়বে লি‌ওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। ডি গ্রুপে ২০১৪ সালের ফাইনালিস্টদের অন্য প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়া ‌ও নাইজেরিয়া।

মোরাতা ‌ও ফ্যাব্রিগাসকে ছাড়াই স্পেন দল

অবশেষে ঘোষণার আগে প্রকাশিত দলটিই সত্যি হলো। আলভারো মোরাতা, সেস ফ্যাব্রিগাস ও ভিতোলোরকে ছাড়াই ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করলেন স্পেনের কোচ জুলেন লুপেতোগি।

এই দলের মাত্র ছয় জন খেলোয়াড় বিদেশী লিগে খেলেন। তারা হলেন-ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ডেভিড ডি গিয়া, চেলসির সিজার আজপিলেকোটা, ন্যাপোলির পেপ রেইনা, আর্সেনালের নাচো, বায়ার্ন মিউনিখের থিয়াগো আলকানতারা এবং ম্যানচেস্টার সিটির ডেভিড সিলভা। আগামী ১৪ জুন বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হলে‌ও ১৫ জুন পর্তুগালের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে স্পেনের বিশ্বকাপ মিশন। ‘বি’ গ্রুপে তাদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ ইরান ও মরক্কো।

স্পেনের ২৩ সদস্যের দল

গোলরক্ষক: কেপা আরিসাবালাগা (আথলেতিক বিলবাও), দাভিদ দে হেয়া (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), পেপে রেইনা (নাপোলি)।

ডিফেন্ডার: জর্দি আলবা (বার্সেলোনা), নাচো মনরিল (আর্সেনাল), আলভারো আরিওসোলা (রিয়াল সোসিয়েদাদ), নাচো ফের্নান্দেস (রিয়াল মাদ্রিদ), দানি কারভাহাল (রিয়াল মাদ্রিদ), জেরার্দ পিকে (বার্সেলোনা), সের্হিও রামোস (রিয়াল মাদ্রিদ), সিজার আসপিলিকুয়েতা (চেলসি)।

মিডফিল্ডার: সের্হিও বুসকেতস (বার্সেলোনা), ইসকো (রিয়াল মাদ্রিদ), থিয়াগো আলকান্তারা (বায়ার্ন মিউনিখ), দাভিদ সিলভা (ম্যানচেস্টার সিটি), আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা (বার্সেলোনা), সাউল নিগেস (আতলেতিকো মাদ্রিদ), কোকে (আতলেতিকো মাদ্রিদ)।

ফরোয়ার্ড: মার্কো আসেনসিও (রিয়াল মাদ্রিদ), ইয়াগো আসপাস (সেল্তা ভিগো), দিয়েগো কস্তা (আতলেতিকো মাদ্রিদ), রদ্রিগো মোরেনো (ভালেন্সিয়া), লুকাস ভাসকেস (রিয়াল মাদ্রিদ)।

ইনিয়েস্তার বিদায়

জয় দিয়েই এবারের মৌসুম শেষ করলো স্প্যানিশ লা লিগা চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। লিগের শেষ ম্যাচে রিয়াল সোসিয়েদাদকে ১-০ গোলে হারায় তারা। আর এই ম্যাচের মাধ্যমেই চোখের জলে প্রিয় দল বার্সেলোনাকে বিদায় জানালেন স্প্যানিশ তারকা আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা। শেষ হলো ক্যাটালান ক্লাবটির সাথে তাঁর দীর্ঘ ২২ বছরের পথচলা।

ম্যাচের বাকি তখনও দশ মিনিট। কিন্তু ন্যু ক্যাম্পের ৮৪ হাজার দর্শক উঠে দাঁড়ালেন। ২২ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করে যে চলে যাচ্ছেন তাদের ঘরের ছেলে আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা। আনুষ্ঠানিকভাবে লিওনেল মেসির কাছে সঁপে দিলেন অধিনায়কের আর্মব্যান্ড। চোখের জলে বিদায় নিলেন প্রিয় মাঠ আর দর্শকদের কাছ থেকে।

দীর্ঘ এই ২২ বছরে বার্সার হয়ে জিতেছেন ৩২টি ট্রফি। স্প্যানিশ লা লিগা, কোপা দেল রে, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, স্প্যানিশ সুপার কাপ, ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপ, কোন শিরোপা নেই তার ঝুলিতে? ১৯৯৬ সালে মাত্র ১২ বছর বয়সে বার্সার যুব দলে যোগ দেয়ার পর থেকে অন্য কোনো ক্লাবে আর নাম লেখাননি বিশ্বকাপ জয়ী এই স্প্যানিশ তারকা। বার্সাকে সর্বজয়ী বানিয়ে সরে যাচ্ছেন তিনি। চাইলে খেলতে পারতেন আরো ক’বছর। কিন্তু ফর্ম হারিয়ে দল থেকে বাদ পড়তে চাননি। তাই ক্যাটালান দলটির প্রথম একাদশে জায়গা থাকতে থাকতেই স্বেচ্ছায় সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত ইনিয়েস্তার।

দলের লা লিগা শিরোপা উদযাপনের পাশাপাশি প্রিয় তারকা ইনিয়েস্তাকে বিদায় জানাতে ম্যাচ শেষে জমকালো আয়োজন করে বার্সেলোনা কর্তৃপক্ষ। কিংবদন্তীসম এই তারকার বিদায়ের সময় চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি ন্যু ক্যাম্পে উপস্থিত কেউই।

ঘোষণার আগেই স্পেন দল ফাঁস

আলভারো মোরাতা এবং হেক্টর বেলেরিনকে ছাড়াই রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য স্পেনের ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দল প্রকাশ হয়ে গেছে। তবে এখন‌ও পর্যন্ত অফিসিয়ালি দল ঘোষণা করা হয়নি। আজ সোমবার তা প্রকাশ করা হবে। তবে তার আগেই সংবাদ মাধ্যমে ফাস হয়ে গেছে দল। জুভেন্টাস থেকে চলতি মৌসুমে চেলসিতে আসার পর থেকেই সমস্যায় ভুগছিলেন স্প্যানিশ স্ট্রাইকার মোরাতা। জাভি মার্টিনেজ এবং সেস্ক ফেব্রিগাস‌ও স্পেন দল থেকে বাদ পড়ছেন।

 

 

স্পেনের ২৩ সদস্যের দল

গোলকিপার: ডেভিড ডি গিয়া, কেপা এবং রেইনা।

ডিফেন্ডার: কার্ভাহাল, অড্রিজোলা, জেরার্ড পিকে, সার্জি‌ও রামোস, নাচো, এপিলিকিউটা, জর্ডি আলবা ‌ও মার্কো আলানসো।

মিডফিল্ডার: বুসকেটস, সাউল, ইনিয়েস্তা, থিয়াগো, কােকে ‌ও ইসকো।

ফরোয়ার্ড: সিলভা, অাসেনসি‌ও, লুকাস ভ্যাসকুয়েজ, দিয়েগো কস্টা, রডরিগো ‌ও আসপাস।

টিম টু ওয়াচ: উরুগুয়ে

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, উরুগুয়ের কথা।

দক্ষিণ আমেরিকার নান্দনিক ফুটবলের প্রতিনিধি উরুগুয়ে। এখন পর্যন্ত দলটি দুইবার বিশ্বকাপ জিতেছে। বিশ্বকাপের ইতিহাসের প্রথম শিরোপাটি উরুগুয়ের দখলে। ১৯৩০ সালে বিশ্বকাপের সেই ফাইনালে উরুগুয়ে ৪-২ গোলে আর্জেন্টিনাকে পরাজিত করে। দ্বিতীয়বার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয় তারা ১৯৫০ সালে। সেবার স্বাগতিক ব্রাজিলকে ফাইনালে ২-১ গোলে পরাজিত করেছিল। এছাড়া অলিম্পিক গেমসেও উরুগুয়ে বেশ সফল দল। দুইবার বিশ্বকাপ শিরোপা জেতার পাশাপাশি তারা, দুবার অলিম্পিক গেমস ও ১৪টি কোপা আমেরিকা শিরোপা জিতেছে। তাই রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য কোচ অস্কার তাবারেজ কোনো চমক না দিয়ে বার্সেলোনার স্ট্রাইকার সুয়ারেজ আর পিএসজি স্ট্রাইকার কাভানিকে মধ্যমনি করে ২৬ সদস্যের প্রাথমিক স্কোয়াড ঘোষণা করেছেন।

নতুন কোনো চমক না থাকলেও উরুগুয়ে যথেষ্ট ব্যালান্সড দল। আছেন লুইস সুয়ারেজ, এডিনসন কাভানি, ম্যাক্সি গোমেজের মত তুখোড় ফরোয়ার্ড। ডিফেন্সে রয়েছে দিয়াগো গডিন। আর পোস্টের নিচে রয়েছেন ফার্নান্দো মুসলেরার মতো বিশ্বস্ত হাত। তাই তাদের হারাতে যে কোনো দলের ঘাম ঝড়াতে হবে।

সুয়ারেজ হলেন উরুগুয়ের দলের তালিসমান। বার্সেলোনার ৩১ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডই এবারের লা-লিগায় লিওনেল মেসির সাথে বেশ চমক দেখিয়েছেন। জাতীয় দলের হয়ে ৮২ ম্যাচ খেলে করেছেন ৪৩ গোল। এইছাড়া ২০১৫ সালে উয়েফা বর্ষসেরা খেলোয়াড় দ্বিতীয় স্থান পান তিনি। বর্তমান দলে চার মহাতারকার মধ্যে সুয়ারেজ একজন। তাই র্নিদ্বিধায় বলা যেতেই পারে উরুগুয়ের সব আলোচনার কেন্দ্রে আছেন সুয়ারেজ।

২০১৮ বিশ্বকাপে ‘এ’ গ্রুপে খেলবে উরুগুয়ে। গ্রুপে তাদের সঙ্গে আছে মিশর, সৌদি আরব এবং স্বাগতিক রাশিয়া। আপাতত এই গ্রুপকে ‘গ্রুপ অফ ডেথ‘ই বলা হচ্ছে। কারণ প্রতিটি দলেরই একে অন্যকে হারানোর ক্ষমতা আছে। তবে সুয়ারেজ-কাভানি ঠিক মতো জ্বলে উঠলে এবার রাশিয়া বিশ্বকাপটা ঠিকই নিজেদের করে নিতে পারে উরুগুইয়ানরা।

জার্মান কাপ জিতলো ফ্রাঙ্কফুর্ট

বায়ার্ন মিউনিখকে হারিয়ে ৩০ বছর পর জার্মান কাপ বা ডিএফবি পোকাল জিতলো এইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট। এর আগে, ১৯৮৮ সালে সবশেষ বারের মতো এই শিরোপা জিতেছিল ফ্রাঙ্কফুর্ট। অবশেষে ৩০ বছর পর জায়ান্ট বায়ার্ন মিউনিখকে ৩-১ গোলে হারিয়ে জার্মান কাপে চ্যাম্পিয়ন হলো ফ্রাঙ্কফুর্টের ক্লাবটি।

জার্মান বুন্দেসলিগার চ্যাম্পিয়ন দল বায়ার্ন মিউনিখ। ৮৪ পয়েন্ট নিয়ে তারা লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। সেখানে ফ্রাঙ্কফুর্ট রয়েছে অষ্টম স্থানে। তাদের পয়েন্ট বলতে গেলে বায়ার্নের অর্ধেক (৪৯)। সবাই ধরেই নিয়েছিল জার্মান কাপের শিরোপা হেসেখেলে জিতে নিবে ইয়ুপ হেইঙ্কেসের শিষ্যরা।

শনিবার রাতে ম্যাচের ১১ মিনিটেই এগিয়ে যায় ফ্রাঙ্কফুর্ট। এ সময় মাঝ মাঠে ভুল পাসে বল পেয়ে যান কেভিন প্রিন্স বোয়েটাং। তিনি বল বাড়িয়ে দেন আন্তে রেবিককে। বল নিয়ে ডি বক্সের মধ্যে ঢুকে পড়েন রেবিক। গোলরক্ষককে একা পেয়ে তাকে পরাস্ত করে বল পাঠিয়ে দেন জালে। তার গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় ফ্রাঙ্কফুর্ট।

বিরতির পর সমতায় ফেরে বায়ার্ন। এ সময় গোললাইনের পাশ থেকে ডি বক্সের মধ্যে লেভানডোস্কিকে বল বাড়িয়ে দেন জসুয়া কিমিচ। বল পেয়েই শট নেন রবার্ত লেভানডোস্কি। বল বাম কোণা দিয়ে জালে আশ্রয় নেয় (১-১)। ৮২ মিনিটে আন্তে রেবিক তার জোড়া গোল পূর্ণ করে আবারো এগিয়ে নেন দলকে।

এক সময় লম্বা শটে মাঝমাঠে বল চলে আসে। বল দখলে নেওয়ার জন্য বায়ার্নের দুইজনের সঙ্গে দৌড়াতে শুরু করেন রেবিক। তাদের দুজনকে পরাস্ত করে বল পেয়ে যান রেবিক। বায়ার্নের গোলরক্ষক সামনে এগিয়ে আসেন। তার উপর দিয়ে বল জালে পাঠিয়ে দেন রেবিক (২-১)।

ম্যাচের যোগ করা সময়ে গোল করে ফ্রাঙ্কফুর্টের শিরোপা জয় নিশ্চিত করেন মিজাত গাসিনোভিচ। ফাঁকা মাঠে তিনি বল নিয়ে ছুটে চলেন বায়ার্নের ফাঁকা পোস্টের দিকে। বল নিয়ে গিয়ে জালে জড়িয়ে দিয়েই জার্সি খুলে মাঠের বাইরে চলে যান। তাকে জড়িয়ে ধরে উল্লাস চলে কোচ, কর্মকর্তা ও খেলোয়াড়দের। এ উল্লাস বাঁধভাঙা, বাঁধনহারা। এ উল্লাস যে ৩০ বছর পর জার্মান কাপের শিরোপা জয়ের।

এফএ কাপের শিরোপা চেলসির

এডেন হ্যাজার্ডের দেয়া একমাত্র গোলে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে হারিয়ে এফএ কাপের শিরোপা জিতলো চেলসি। সেই সঙ্গে ‘ব্লু’দের কোচ আন্তেনিও কোন্তের বিদায়টাও হলো জয় দিয়েই। এটি চেলসির অষ্টম এফএ কাপ জয়।

উইম্বিতে প্রতিযোগিতার ফাইনালে আধিপত্য ছিল দু’দলেরই। তবে খেলার ২২ মিনিটে এগিয়ে যায় চেলসি। নিজেদের বিপদ সীমায় রেড ডেভিলদের ডিফেন্ডার ফিল জোন্স, অবৈধভাবে চেলসির এডেন হ্যাজার্ডকে বাধা দিলে রেফারি পেনাল্টির নির্দেশ দেন। স্পটকিকে দলকে এগিয়ে দেন হ্যাজার্ড।

জলে ভেজা বিদায় বুফনের

জুভেন্টাসের জার্সিতে জিয়ানলুইগি বুফনের ক্যারিয়ার শেষ হলো জয় দিয়ে। মৌসুমে নিজেদের শেষ ম্যাচে ভেরোনাকে ২-১ গোলে হারিয়ে শিরোপা উল্লাস করেছে তুরিনের ক্লাবটি। আর নিজের শেষ ম্যাচে অশ্রুসিক্ত বিদায় বললেন বুফন।

গত তিন রাউন্ডের মতো আজ শনিবার ঘরের মাঠেও জুভেন্টাসের প্রথমার্ধের পারফরফম্যান্স ছিল হতাশাজনক। বিরতির আগে প্রতিপক্ষের গোলরক্ষককে তেমন কোনো পরীক্ষাতেই ফেলতে পারেনি তারা।

তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই দুই গোলে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় স্বাগতিকরা। ৪৯ মিনিটে ইতালিয়ান ডিফেন্ডার দানিয়েলে রুগানির গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর ৫২ মিনিটে দারুণ ফ্রি-কিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন বসনিয়ার মিডফিল্ডার মিরালেম পিয়ানিচ। ৭৬ মিনিটে ব্যবধান কমান ইতালিয়ান ফরোয়ার্ড আলেস্সিও চেরচি।

৮৪ মিনিটে অতিথিদের ডি-বক্সে তাদের এক খেলোয়াড়ের হাতে বল লাগায় পেনাল্টি পায় জুভেন্টাস। কিন্তু সুইস ডিফেন্ডার স্তেফান লিখটস্টাইনারের স্পট কিক বাঁয়ে ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক নিকোলাস। তবে তাতে জয় আটকায়নি চ্যাম্পিয়নদের।

এরই সঙ্গে শেষ হলো ইতালির হয়ে বিশ্বকাপ জয়ী গোলরক্ষক বুফনের জুভেন্টাস অধ্যায়। ২০০১ সালে পারমা থেকে তুরিনের ক্লাবটিতে যোগ দেওয়ার পর থেকে নয়টি সিরি’আ সহ মোট ১৮টি শিরোপা জিতেছেন ৪০ বছর বয়সী এই ফুটবলার।

বুফনের বিদায়ী ম্যাচ দেখতে মাঠে ছিলেন তিন সন্তান লিওপোলডো, লুইস থমাস ও ডেভিড লি। ছিলেন এখনকার সঙ্গী ইলারিয়া ডি’অ্যামিকো এবং সাবেক স্ত্রী এলিনা সেরেডোভা।

পথশিশুদের বিশ্বকাপ

পাকিস্তানকে টাইব্রেকারে হারিয়ে পথশিশুদের বিশ্বকাপ জিতেছে উজবেকিস্তান। নির্ধারিত সময়ের খেলা ১-১ গোলে ড্র হওয়ার পর, টাইব্রেকারে ৬-৫ গোলের জয় নিয়ে শিরোপা জিতে উজবেকিস্তান। রাশিয়ার মস্কোতে পথশিশুদের এই ফাইনাল ম্যাচে সরাসরি দেখেছে প্রায় এক লাখ ২২ হাজার দর্শক। ফিফা বিশ্বকাপের আগে পথশিশুদের এই টুর্নামেন্ট মুগ্ধ করেছে দর্শকদের।

পথ শিশুদের তৃতীয় বিশ্বকাপ জিতলো উজবেকিস্তান। পথ শিশুদের নিয়ে এই টুর্নামেন্টটা শুরু হয়েছিলো আট বছর আগে দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপের সময়। ২০১০ সালে ফিফা বিশ্বকাপ শুরুর আগে অনুষ্ঠিত হয়েছিলো পথ শিশুদের বিশ্বকাপ। ২০১৪ সালে ব্রাজিলের পর এবার রাশিয়াতেও অনুষ্ঠিত হলো এই বিশ্বকাপ।

পরিবার থেকে ছিন্ন ১৪-১৬ বছর বয়সীরাই মূলত এই টুর্নামেন্টে অংশ নিয়ে থাকে। খেলায় অনুষ্ঠিত হয় সেভেন-এ সাইড ফরমেটে। ২০১০ সালে শুরুটা ছোট আকারে হলেও ক্রমেই বাড়ছে পথশিশুদের বিশ্বকাপের জনপ্রিয়তা। মস্কোতে পথশিশুদের বিশ্বকাপে এবার অংশ নিয়েছিলো ২৩ টি দেশের প্রায় দুই শতাধিক খেলোয়াড়।

হতে পারে এটা ফুটবলেরই সার্থকতা। এমনিতেই ফুটবল বিশ্বকাপ নিয়ে দর্শকদের আগ্রহের কমতি নেই। সেই সুযোগে পথশিশুদের কিছু আনন্দ উপহার দিতেই মলূত এই টুর্নামেন্টের আয়োজন।

তিনবার এই প্রতিযোগীতা সফলভাবেই শেষ হয়েছে। লক্ষ্য ভবিষ্যতে আরও বড় আকারে এর আয়োজন করা। তবে এই টুর্নামেন্টের ভবিষ্যত অনেকটাই নির্ভর করছে সব দেশের দর্শকদের আগ্রহের ওপর।

বিশ্বকাপ ‌ওয়াগ

আগামী মাসেই শুরু হয়ে যাবে বিশ্বকাপ আসর। মনমাতানো ফুটবলশৈলিতে মেতে থাকবে পুরো বিশ্ব। অখ্যাত-অজ্ঞাত কোনো কোনো খেলোয়াড় আসবেন পাদপ্রদীপের আলোয়। কেউ আবার হারিয়ে‌ও যাবেন ব্যর্থতা সাথী করে কালের অতলে। শুধু ফুটবলারই নয়, তাদের প্রনোদনাদায়ী স্ত্রী কিংবা বান্ধবীরা‌ও থাকবেন রাশিয়ায়, বিশ্বকাপ চলাকালে। তারা‌ও রূপেরচ্ছ্বটায় চমকে দেবেন ফুটবল বিশ্বকে। এবার রয়েছে, ফুটবলারদের স্ত্রী ‌ও গার্লফ্রেন্ডদের (‌ওয়াগ) কথা।

তারকাদের সঙ্গে নিশ্চয়ই থাকবেন তাদের সঙ্গিনীরা। পর্তুগালের ফরোয়ার্ড ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর কল্যাণে যে এবার লিভারপুলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতে হ্যাট্টট্রিক করবে রিয়াল মাদ্রিদ সে বিষয়টা ইতোমধ্যেই অনুমেয়।

টানা পাচ বছর রাশিয়ান মডেল ইরিনা শায়কের সঙ্গে ডেটিং করার পর ২০১৫ সালে ঘটে বিচ্ছেদ। রোনালদো এখন থাকছেন স্প্যানিশ মডেল ২২ বছর বয়সী জর্জিনা রডরিগুয়েজের সঙ্গে।

এদিকে, রিয়াল মাদ্রিদের চির প্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার সুপারস্টার পাচবারের বিশ্বসেরা খেলোয়াড় লি‌ওনেল মেসি, গত বছর বিয়ে করলেন, স্বদেশী বান্ধবী আন্তোনেল্লা রোকুজ্জোকে। মেসির সঙ্গে সঙ্গে রোকুজ্জো‌ও যে গ্যালারি মাতাবেন সেটা বলাই বাহুল্য।

লিভারপুল ‌ও ইংল্যান্ডের মিডফিল্ডার অ্যালেক্স অক্সল্যাড-চেম্বারলিন, মেয়েদের ব্যান্ড ‘লিটল মিক্সয়ের’ গায়িকা পেরি অ্যাড‌ওয়ার্ডস, টটেনটহ্যাম তারকা ডালে আলী সম্পর্কে জড়িয়েছেন ২৩ বছর বয়সী মডেল রুবি মেইয়ের সঙ্গে এবং এক সন্তানের জনক ম্যানচেস্টার সিটির রাহিম স্ট্যার্লিং বান্ধবী পেগি মিলানকে নিয়ে যাচ্ছেন রাশিয়ায়।

তাদের সঙ্গে থাকছেন রাশিয়া জাতীয় দলের গোলকিপার ইগরের স্ত্রী কেতেরিনা আখিনফেভ, মিডফিল্ডার ডিমিত্রি’র স্ত্রী অ্যানাস্তাসিয়া কোসটেঙ্কো। তিনি আবার মিস রাশিয়া সুন্দরী প্রতিযোগিতায় রানার্সআপ হয়েছিলেন।

এইসব সুন্দরীদের সঙ্গে গ্যালারিতে উপস্থিত থাকবেন নানা দেশের, নানা বর্নের সুন্দরীরা‌ও। তাতে বলা যায়, মাঠের খেলার মতোই মাঠের বাইরে‌ও আলোচনায় থাকবে এবারের রাশিয়া বিশ্বকাপ।

টিম টু ‌ওয়াচ: পর্তুগাল

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, পর্তুগালের কথা।

ইউরোপের দেশ পর্তুগাল ।১৯৬৬ সালে চূড়ান্তপর্বে অংশ নিয়ে প্রথমবারেই তৃতীয় স্থান পায় তারা। বিশ্বকাপে এটাই এখন পর্যন্ত পর্তুগিজদের সেরা সাফল্য। এবার রাশিয়া বিশ্বকাপে পর্তুগালের নেতৃত্ব দেবেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এক দশক ধরে তিনি আধিপত্য করে যাচ্ছেন ফুটবল বিশ্বে। ৩৩ বছর বয়সী এই তারকার নেতৃত্বে ২০১৬ সালে ইউরোপের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে পর্তুগিজরা। এবার পালা বিশ্বকাপে সেরা হওয়ার।

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো হলেন পর্তুগাল দলের তালিসমান। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলা এই ফরোয়ার্ড একাই প্রতিপক্ষ শিবিরে ধ্বস নামতে পারেন, ছড়াতে পারেন আতঙ্ক‌ও। তিনি রিয়াল মাদ্রিদের সর্বোচ্চ গোলদাতা। দেশের জার্সি গায়ে ১৫০ টির অধিক গোল করেছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এরই মধ্যে পাঁচটি ব্যালন ডি’অর জিতেছেন। হোসে মোরিনহো সম্প্রতি মন্তব্য করেছিলেন যে রাশিয়াতে এবার পর্তুগালের সাফল্য নির্ভর করছে রোনালদোর উপরই।

তাই র্নিদ্বিধায় বলা যেতেই পারে পর্তুগালের সব আলোচনার কেন্দ্রে আছেন রোনালদো। তিনিই পর্তুগালের সাফল্যের প্রাণ ভোমরা। তবে মজার ব্যাপার হলো্ ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও লুইস ফিগোর পর পর্তুগালের হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছেন ন্যানি। তাকে রাখা হয়নি স্কোয়াডে। তিনি অবশ্য গেল বছরের কনফেডারেশনস কাপের পর থেকে জাতীয় দলের হয়ে আর খেলেননি। ২৩ সদস্যের স্কোয়াডে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ থেকে চারজন খেলোয়াড় রাখা হয়েছে। তারা হলেন ম্যানসিটির ফরোয়ার্ড বার্নার্ডো সিলভা, লেস্টারসিটির মিডফিল্ডার আদ্রিয়েন সিলভা, সাউদাম্পটনের রাইট ব্যাক সেডরিক সোয়ারেস এবং ওয়েস্টহ্যামের মিডফিল্ডার জোয়াও মারিও।

বিশ্বকাপে ‘বি’ গ্রুপে রয়েছে পর্তুগাল। এই `গ্রুপ অফ ডেথে’ তাদের প্রতিপক্ষ স্পেন, মরক্কো ও ইরান। আগামী ১৬ জুন স্পেনের বিপক্ষে পর্তুগাল তাদের প্রথম ম্যাচ খেলবে। ২০ জুন মরক্কো আর ২৬ জুন শেষ ম্যাচে পর্তুগালের প্রতিপক্ষ ইরান।

এফএ কাপের ফাইনাল আজ

ইংলিশ এফ এ কাপের ফাইনালে আজ শনিবার রাতে মুখোমুখি হচ্ছে চেলসি এবং ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। দু’দলের জন্যই ম্যাচটি গৌরব রক্ষার। এ মৌসুমে একটি শিরোপাও ঘরে তুলতে পারেনি ইংলিশ এই দুই জায়ান্ট ক্লাব।

হোসে মরিনহো তবু লিগ টেবিলের দুইয়ে থেকে আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলা নিশ্চিত করেছেন। তবে কন্তের চেলসি পাঁচে থেকে হারিয়েছে সেই সুযোগও। দুই কোচের জন্যই ট্রফিটি তাই নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার।

কোচিং ক্যারিয়ারে ১৩ মৌসুমে মাত্র দুবার কোনো শিরোপা ছুঁতে পারেননি মরিনহো। সেই সংখ্যাটা এবার বাড়াতে চান না তিনি। অন্যদিকে শেষ চার মৌসুমে ক্লাবের হয়ে কোনো না কোনো শিরোপা জিতেছেন কন্তে। সেই ধারাবাহিকতাই রক্ষা করতে চাইবেন আজ। তবে সব কিছু নির্ভর করছে ওয়েম্বলিতে যে দল সুযোগগুলো কাজে লাগাতে পারবে তার ওপর। বাংলাদেশ সময় রাত সোয়া দশটায় শুরু হবে ম্যাচটি।

রাশিয়া বিশ্বকাপে বল গার্ল

রাশিয়া বিশ্বকাপে ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েরা‌ও বল বয়ের কাজ করবে। এবার উদ্বোধনী ম্যাচেই বল বয়ের মতো বল গার্লের কাজ করবে তাতারিস্তানের আগরিজের (Agryz) ফুটবল দলের মেয়েরা। বিশ্বকাপের উদ্বোধনী খেলা দিয়েই প্রথমবারের মতো নারীরা, ছেলেদের মতো মাঠের বাইরে বল কুড়িয়ে ফেরত দেবে।

উদ্বোধনী ম্যাচের জন্য বাছাই করা সেই বালিকারা গত বৃহস্পতিবার কাজানে ট্রফি ট্যুরে অংশ নেয়। দেশব্যাপি এক প্রতিযোগিতার মধ্য থেকে এইসব বালিকাদের বল বয় হিসেবে বাছাই করা হয়। ১৩ থেকে ১৬ বছর বয়সী অপেশাদার নারী ফুটবল খেলোয়াড়দের মধ্য থেকে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। আর গত সপ্তাহের শুরুতে ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

অবশ্য সাধারণ ছেলেরাই বল বয়ের কাজ করে আসে। কিন্তু এবার বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধনী দিনে দেখা যাবে নতুন দৃশ্য। আগামী ১৪ জুন লুঝনিকি স্টেডিয়ামে, স্বাগতিক রাশিয়া এবং সৌদি আরবের মধ্যকার খেলার দিয়ে নতুন ইতিহাস রচিত হবে ফুটবলে। তা হলো, প্রথমবারের মতো নারীরা নামবে বল বয় হিসেবে।

পৃথিবীর ছয়টি মহাদেশের ৫১টি দেশের ৯১টি শহরে তিনমাসের ভ্রমণ শেষে রাশিয়ায় পৌছেছে ফিফা বিশ্বকাপ ট্রফি। তাছাড়া স্বাগতিক রাশিয়ার ১৬টি শহর এবং ১৬ হাজার কিলোমিটার (৯,৯০০ মাইল) ঘুরেছে বিশ্বকাপ ট্রফি। মেয়েদের বল বয়ের কাজ করার মতো স্বাগতিক দেশে দীর্ঘ ট্রফি ট্যুর করে নতুন রেকর্ড‌ও গড়ে এবারের ফিফা বিশ্বকাপ ট্রফি।

শিরোপা উল্লাস করছে অ্যাথলেটিকো

ফ্রান্সের লিওঁতে গত বুধবার রাতে ইউরোপা লিগের ফাইনাল ৩-০ গোলে জিতেছে দিয়েগো সিমেওনের দল অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। শেষ নয় বছরে এই নিয়ে তৃতীয়বার ইউরোপিয় ক্লাব ফুটবলের দ্বিতীয় সেরা প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হলো অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। ২০০৯-১০ ও ২০১১-১২ মৌসুমে আগের শিরোপা দুটি জিতেছিল মাদ্রিদের দলটি। দেশে ফিরে গিয়ে এখন তারা শিরোপা উল্লাস করছে।

বিশ্বকাপে আবার‌ও হুমকি আইএসের

সন্ত্রাসী গ্রুপ দায়েস/আইএস আবার‌ও লি‌ওনেল মেসি এবং ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে হত্যার হুমকি দিয়েছে। এরআগে, গত বছরের অক্টোবর মাসে মেসি এবং নেইমারকে হত্যার হুমকি দিয়েছিল সন্ত্রাসী এই গ্রুপটি।

তখন তারা একটি পোস্টার‌ও প্রকাশ করেছিল। তাতে দেখা যায়, মেসি এবং নেইমারকে মাঠের ‌ওপর হত্যা করছে মুখোশ পড়া সন্ত্রাসীরা। এবার যে পোস্টারটি প্রকাশ করে আইএস তাতে লেখা ‘রক্তে পূর্ণ হবে এই মাঠ।’

রিয়ালের বার-বি-কিউ পার্টি

অনুশীলন সেশনেই বার-বি-কিউ পার্টি করল রিয়াল মাদ্রিদের খেলোয়াড়রা। ভালদেবেবাসে শুক্রবার অনুশীলনে এসে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বার-বি-কিউ পার্টিতে অংশ নেয় জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা। যদি‌ও রবিবার লা লিগায় ভিয়া রিয়ালের সঙ্গে এবং আগামী সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল রয়েছে তাদের।

দলের খেলোয়াড়রা বার-বি-কিউয়ের খাবারগুলো খুব মজা করে খেয়েছেন। পার্টিটা পরিবারের সবাইকে নিয়ে উপভোগ করেছেন তারা। পেশাদার খেলোয়াড়দের ডায়েটের যে ব্যাপার থাকে, তার কোনো বাধ্যবাধকতা ছিল না ঐ পার্টিতে।

এই পার্টিকে বলা যায় রিয়াল মাদ্রিদের সৌভাগ্যের প্রতীক‌ও। ২০১৬ ‌ও ২০১৭ সালে মিলান ‌ও কার্ডিফে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের আগে এমনি পার্টি করেছিল ‘লা ব্ল্যঙ্কো’রা।

পিএসজিতে বুফন!

জুভেন্টাস ছাড়লে‌ও ফুটবল যে ছাড়ছেন না বুফন, তা আগেই জানিয়েছিলেন। তাকে দলে পেতে মুখিয়ে ছিল ইংলিশ দল আর্সেনাল এবং ম্যানচেস্টার সিটি। তবে ৪০ বছর বয়সী অভিজ্ঞ এই ইটালিয়ান গোলকিপারের জায়গা হচ্ছে ফ্রান্সের লিগ ‌ওয়ানের দল প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ে।

ফ্রান্সের দৈনিক ‘লা ইকুইপ’ জানিয়েছে, বুফনের সেখানে যোগ দে‌ওয়ার বিষয়ে দুই দলের মধ্যে (জুভেন্টাস ‌ও পিএসজি) সমঝোতা হয়েছে। বেশ কিছুদিন ধরে পিএসজি তাদের গোল লাইনে শক্তি বাড়ানোর জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছিল।

রাশিয়া বিশ্বকাপ জিতবে জার্মানি!

রাশিয়া বিশ্বকাপ জিতবে জার্মানি! খেলা শুরুর আগেই এমনটা জানিয়েছে কম্পিউটার। অক্টোপাস পলের মতো এখন থেকেই বিশ্বকাপ জয় নিয়ে ভবিষ্যতবাণী দেয়া শুরু করেছে কম্পাউটার। কম্পিউটারে বিভিন্ন দলের শক্তি-সামর্থ এবং প্রতিপক্ষের নাম দিয়ে দেয়া হয়।
একটা টেবিলের মাধ্যমে ফলাফল আসে। বিশ্বকাপের কোন্ দল কোন্ পর্যায় পর্যন্ত যেতে পারবে। এবং শতকরা কতভাগ তারা সফল হবে, সেই সব ফলাফল‌ও বের হয়।

তাতে দেখা যায়, বর্তমান জার্মানির বিশ্বকাপ জেতার সম্ভাবনা শতকরা ২৪ ভাগ। তাদের পরেই আছে ব্রাজিল এবং স্পেন। কম্পিউটার জানায়, ব্রাজিলের বিশ্বকাপ জেতার সম্ভাবনা ১৯.৮ ভাগ। আর স্পেনের ১৬.১ ভাগ।

তবে বিশ্বের আরেক জনপ্রিয় দল লি‌ওনেল মেসির আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ের সম্ভাবনা ৪.৯ ভাগ। জার্মানি, ব্রাজিল, স্পেন তো বটেই। আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ জয়ের ক্ষেত্রে ইংল্যান্ড, ফ্রান্স এবং বেলজিয়ামের পর সপ্তম স্থানে আছে। এটা শুধুই পরিসংখ্যান বিবেচনা করে কম্পিউটারের এক ধারণা মাত্র। আসল ফলাফল তো হবে রাশিয়ায়, জুন-জুলাই মাসে।

গার্দিওয়ালাকে রেখে দিল ম্যানচেস্টার

ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে নতুন চুক্তি করেছেন পেপ গার্দিওয়ালা। ২০২১ সাল পর্যন্ত ইংল্যান্ডের ক্লাবটিতে থাকবেন এই স্প্যানিশ কোচ। ৪৭ বছর বয়সী গার্দিওয়ালার অধীনে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের সদ্য সমাপ্ত মৌসুমে শিরোপা জেতার পাশাপাশি ১০০ পয়েন্ট অর্জনের রেকর্ড গড়ে সিটিজেনরা।

চুক্তি নিয়ে গার্দিওয়ালা বলেন, ‘আমি খুবই খুশি। এখানে কাজ করাটা আনন্দের।’

লিগ শিরোপা জেতার আগে গার্দিওয়ালার দল ফাইনালে আর্সেনালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে জয় করে লিগ কাপের শিরোপা।

প্রিমিয়ার লিগের পুরো মৌসুম জুড়ে মাত্র ১৪ পয়েন্ট হারানো সিটি গোল করে ১০৬টি, ম্যাচ জিতে ৩২টি। দুটিই প্রিমিয়ার লিগের রেকর্ড।

দলটাকে আরও ভাল অবস্থানে নিয়েই যেতে চান বার্সেলোনা ও বায়ার্ন মিউনিখে দায়িত্ব পালন করে আসা স্প্যানিশ কোচ গার্দিওয়ালা।

টিম টু ‌ওয়াচ: মিশর

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, মিশরের কথা।

২৮ বছর পর মিশর এবার বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে উন্নীত হয়। এবার তারা ফিরেছে দারুণ গৌরবে। মোহাম্মদ সালাহ হলেন মিশর দলের তালিসমান। লিভারপুলের ২৫ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডই এবারের ইংলিশ লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা। বাছাই পর্বের ছয় ম্যাচে মোহাম্মদ সালাহ গোল করেছেন পাঁচটি। তাতে র্নিদ্বিধায় বলা যেতেই পারে মিশরের সব আলোচনার কেন্দ্রে আছেন সালাহ। তিনিই মিশরীয়দের সাফল্যের প্রাণ ভোমরা। বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে ওঠার পথে কঙ্গোকে ২-১ গোলে হারায় মিশর। আর সেই ম্যাচে সালাহ পেনাল্টিতে দলের পক্ষে জয়সূচক গোলটি করেন।

মজার ব্যাপার হলো সালাহ দলে সাহায্য করার মতো তেমন উচুমাপের কাউকেই পাননি। যেমন রবের্তো ফিরমেনো কিংবা সাদিও মানের মতো কেউ দলে থাকলে কাজটা আরো সহজ হয়ে যেতো তার জন্য। তবু তিনি একাই বহন করে চলেছেন মিশরকে এগিয়ে নিয়ে যাবার দায়িত্ব।

এদিকে, গ্রুপ এ তে মিশরের সঙ্গে আছে উরুগুয়ে, সৌদি আরব এবং স্বাগতিক রাশিয়া। তাই তাদেরকে নিয়ে খুব একটা উচ্চাশা করা যাচ্ছে না। তবে আপাতত এই গ্রুপকে ‘গ্রুপ অফ ডেথ‘ই বলা হচ্ছে। কারণ প্রতিটি দলেরই একে অন্যকে হারানোর ক্ষমতা আছে। আর দলের কোচ হেক্টর কুপার ডিফেন্সের ওপরই ভরসা করছেন। মিশর যদি ডিফেন্স শক্ত রাখার কাজে সব সময় ব্যস্ত থাকে তবে রাশিয়া বিশ্বকাপে লিভারপুলের সালাহকে খুঁজে পাওয়া একটু কঠিণই হবে।

আশার কথা আর্সেনালের মিডফিল্ডার মোহামেদ এলনেনি কিংবা স্টোক সিটির উইঙ্গার রামদার সোবি ঠিকমতো জ্বলে উঠতে পারলে বিপক্ষ দলের জন্য কঠিণ এক চ্যালেঞ্জের নাম হবে মিশর।

ফ্রান্সের চূড়ান্ত দল ঘোষণা

পল পগবা এবং আন্তোনি‌ও গ্রিজম্যান সহ রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য ২৩ সদস্যের পুরো দল ঘোষণা করেছে ফ্রান্সের কোচ দিদিয়ের দেশাম। তবে 'লা ব্লু'দের দলে রাখা হয়নি পগবার সঙ্গে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে খেলা অ্যান্থনি মার্শালকে।

ফ্রান্স দলের সদস্যরা হলেন

গোলকিপার: আলফোনসে আরি‌ওয়ালা (পিএসজি), হুগো লরিস (টটেনহ্যাম) ‌ও স্টিভ মানন্দান (মার্শেই)।

রক্ষণভাগ: লুকাস হার্নান্দেজ (অ্যাথলেটিকো), প্রেসনাল কিম্পেবে (পিএসজি), বেঞ্জামিন মেন্ডি (ম্যান সিটি), বেঞ্জামিন পাভার্দ (স্টুটগার্ট), আদিল রামি (মার্শেই), দিব্রিল সিদিবে (মোনাকো), স্যামুয়েল উমতিতি (বার্সেলোনা) ‌ও রাফায়েল ভার্নাল (রিয়াল মাদ্রিদ)।

মাঝমাঠ: এন'গোলো কান্তে (চেলসি), ব্লাইস মাতুদি (জুভেন্টাস), স্টিভেন এন'জোনজি (সেভিয়া), পল পগবা (ম্যানইউ) ‌ও কোরেতিন টোলিসো (বায়ার্ন)।

আক্রমণভাগ: উসমান দেম্বেলে (বার্সেলোনা), নাবিল ফেকির (লি‌ও), অলিভার জিরুদ (চেলসি), অ্যান্টোনি‌ও গ্রিজম্যান (অ্যাথলেটিকো), থমাস লেমার (মোনাকো), কিলিয়েন এমবাপে (পিএসজি) ‌ও ফ্লোরিয়ান থাউভিন (মার্শেই)।

রাশিয়া বিশ্বকাপে আগামী ১৬ জুন নিজেদের প্রথম ম্যাচে ফ্রান্স লড়বে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। সি গ্রুপে তাদের অন্য প্রতিপক্ষ ডেনমার্ক ‌ও পেরু।