সকাল ৬:০৮, শনিবার, ২১শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং

রাজনৈতিক বা কূটনৈতিক বয়কটের হুমকির মুখে পড়েছে রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবল। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে ‘ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের মূল্যবোধ পরিপন্থি কাজ করা এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সঙ্গে মস্করা’ করার অভিযোগ এনে ইউরোপের অন্তত: ৬০টি দেশ কূটনৈতিকভাবে রাশিয়া বিশ্বকাপ বয়কটের হুমকি দিয়েছে।

অবশ্য সাবেক গোয়েন্দা সের্গেই স্কারিপাল ‌ও তার মেয়েকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে যুক্তরাজ্য এবং আইসল্যান্ড ইতোমধ্যেই কূটনৈতিকভাবে রাশিয়া বিশ্বকাপ বয়কট করার ঘোষণা দিয়েছে। গত মার্চে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে বলেছেন, কোনো মন্ত্রী কিংবা ব্রিটিশ রয়্যাল ফ্যামিলির কোনো সদস্য বিশ্বকাপ দেখতে রাশিয়া যাবে না।

নেইমারের বিশ্বকাপ ভাবনা

ব্র্রাজিলের তারকা ফুটবলার নেইমারের উপর রাগই করতে পারেন তার সাবেক সতীর্থ লিওনেল মেসি কিংবা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। কারণ এবারের রাশিয়া বিশ্বকাপ কারা মাত করবেন কিংবা কাদের উপর নজর রাখা যায়, এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে নেইমার-মেসি আর রোনালদোর নামই উচ্চারণ করেননি। ইংল্যান্ডের ঘরোয়া লিগ মাতানো মোহাম্মদ সালাহ এবং কেভিন ডি ব্রুইনের দিকে নজর দিতে বলেছেন নেইমার।

লিভারপুলের স্ট্রাইকার মোহাম্মদ সালাহ ইতোমধ্যে নিজেকে তারকা হিসেবে পরিচিত করলেও তার দল মিশর খুব একটা কার্যকরী ফল করতে পারবে বলে মনেহয় না। কারণ মিশর দলে মোহাম্মদ সালাহ্র মতো তারকার খুবই অভাব রয়েছে যারা, একাই দলকে এগিয়ে নিতে পারেন। এদিকে, কেভিন ডি ব্রুইনের বেলজিয়াম সবসময়ই আলোচনায় থাকে। ইউরোপিয়ান এই পাওয়ার হাউজ চূড়ান্ত পর্বে নিয়মিত থাকলেও খুব একটা ভালো ফল করতে পারেনি।

নেইমার আরো জানান, ফিলিপ্পে কুটিনহো কিংবা গ্যাব্রিয়েল জেসুস ব্রাজিলের পক্ষে ভালো কিছু করে দেখাতে পারেন। তাদের দিকেও নজর থাকবে নিশ্চয়ই দর্শকদের। তারা যেকোনো দলের সঙ্গে পার্থক্য গড়ে দিতে পারেন। তিনি বলেন, ‘অনেক ভালো খেলোয়াড় রয়েছে পৃথিবীতে। তবে আলাপ করছি শুধুমাত্র যারা সেরা তাদেরকে নিয়ে।‘

পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল ২০০২ সালে শেষবার শিরোপা জিতেছিলো। এদিকে, ফ্রান্সের লিগ ওয়ানের ম্যাচ চলাকালে আহত হয়েছিলেন নেইমার। সেই থেকে তিনি বিশ্রামে আছেন।

বিশ্বকাপ ফুটবল: ভেন্যুর কথা-১১

‘গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’ বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন বাকী নেই। বিশ্ব ফুটবলের মহামঞ্চকে সামনে রেখে এখন থেকেই আমরা নিয়মিত আপনাদের দিয়ে যাচ্ছি টুকিটাকি সব খবরা-খবর। আগামী ১৪ জুন রাশিয়ায় শুরু হবে বিশ্বকাপের বিশ্ব আসর। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর কথা জানিয়ে যাচ্ছি আমরা নিয়মিত। আজ রয়েছে কালিনিংগ্রাদ স্টেডিয়ামের কথা। জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু

 

কালিনিংগ্রাদ একেবারেই একটি নতুন স্টেডিয়াম। ২০১৮ বিশ^কাপ উপলক্ষ্যে বাল্টিকা স্টেডিয়ামকে একেবারে নতুন করে বানানো হয়েছে এই স্টেডিয়ামটি। তাই একে অ্যারেনা বাল্টিকাও বলা হয়। পোল্যান্ড আর লিথুনিয়ার কাছাকাছি এটির অবস্থান। ৩০০ মিলিয়ন ডলার ব্যয়ে নির্মিত এই স্টেডিয়ামের নির্মাণ কাজ শেষ হয় ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে। রাশিয়ার পুব দিকে অক্টাবারস্কি দ্বীপে অ্যালিয়াঞ্জের নকশায় তৈরি এই স্টেডিয়ামের অবস্থান। ৩৫ হাজার ২১২ জন দর্শক ধারণ ক্ষমতার এই স্টেডিয়ামটি বিশ্বকাপ শেষে স্থানীয় দল এফসি বাল্টিকা কালিনিংগ্রাদকে ব্যবহারের জন্য দিয়ে দেয়া হবে। এই কালিনিংগ্রাদ স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ছয়টি খেলা হবে।

১৬ জুন ক্রোয়েশিয়া-নাইজেরিয়া গ্রুপ ডি
২২ জুন সার্বিয়া-সুইজারল্যান্ড গ্রুপ ই
২৫ জুন স্পেন-মরক্কো গ্রুপ বি
২৮ জুন ইংল্যান্ড-বেলজিয়াম গ্রুপ জি

রাশিয়া বিশ্বকাপ: ভেন্যুর কথা-১০

‘গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’ বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন বাকী নেই। বিশ্ব ফুটবলের মহামঞ্চকে সামনে রেখে এখন থেকেই আমরা নিয়মিত আপনাদের দিয়ে যাচ্ছি টুকিটাকি সব খবরা-খবর। আগামী ১৪ জুন রাশিয়ায় শুরু হবে বিশ্বকাপের বিশ্ব আসর। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর কথা জানিয়ে যাচ্ছি আমরা নিয়মিত। আজ রয়েছে নিঝনি নভগ্রোদ স্টেডিয়ামের কথা। জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু

 

এলাকার সবচেয়ে সুন্দর জায়গা ভোলগা এবং ওকা নদীর মোহনায় তৈরি করা হয়েছে নিঝনি নভগ্রোদ স্টেডিয়ামটি। ভ্রমণপিপাসুদের জন্য আরো মজার খবর হলো, কাছেই আছে আলেক্সজান্ডার নভোস্কি ক্যাথিড্রাল। চাইলে খেলা দেখার পাশাপাশি ঢুঁ মারতে পারেন সেখানেও। স্টেডিয়ামের দর্শক ধারণ ক্ষমতা ৪৫ হাজার। মস্কো থেকে ৪২৫ কিলোমিটার দূরের এই স্টেডিয়ামটি স্থানীয় অলিম্পিক নিঝনি নভগ্রোদ দলের হোম গ্রাউন্ড। এবারের বিশ্বকাপের মোট ছয়টি খেলা হবে এখানে। চারটি গ্রুপ পর্বের, একটি দ্বিতীয় রাউন্ডের এবং একটি কোয়ার্টার ফাইনালের খেলা।

 

১৭ জুন       কেস্টারিকা-সার্বিয়া       গ্রুপ ই

২১ জুন       ডেনমার্ক-অস্ট্রেলিয়া      গ্রুপ সি

২৫ জুন       উরুগুয়ে-রাশিয়া          গ্রুপ এ

২৮ জুন      সেনেগাল-কলম্বিয়া        গ্রুপ এইচ

০২ জুলাই    ই১ – এফ২                  রাউন্ড ১৬

০৭ জুলাই    ডব্লিউ৫৫- ডব্লিউ৫৬    কোয়ার্টার ফাইনাল

রাশিয়া যাচ্ছে রাফি

ফিফা বিশ্বকাপের আগে গজপ্রোম প্রোগ্রামের আওতায় ফুটবল ফর ফ্রেন্ডশীপ নামে একটি টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে ২১০টি দেশের ক্ষুদে ফুটবলাররা অংশ নেন। বাংলাদেশ এবার দ্বিতীয়বারের মতো অংশ নেবে রাশিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য এই প্রীতি ফটবলে। এবার রাশিয়া যাবে গোলাম রাফি খান।

সঙ্গে তরুণ সাংবাদিক হিসেবে রাফাত শামস, দলনেতা হিসেবে আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হারুনুর রশিদ ও কো-অর্ডিনেটর হিসেবে যাচ্ছেন বাফুফের পিআরও আহসান আহমেদ অমিত।

দলটি আগামী ৭ জুন রাশিয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবে। ১৫ জুন ফিফা বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে দেশে ফিরবে বলে বাফুফে সূত্রে জানা গেছে।

রাশিয়া বিশ্বকাপ: ভেন্যুর কথা-১০

‘গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’ বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন বাকী নেই। বিশ্ব ফুটবলের মহামঞ্চকে সামনে রেখে এখন থেকেই আমরা নিয়মিত আপনাদের দিয়ে যাচ্ছি টুকিটাকি সব খবরা-খবর। আগামী ১৪ জুন রাশিয়ায় শুরু হবে বিশ্বকাপের বিশ্ব আসর। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর কথা জানিয়ে যাচ্ছি আমরা নিয়মিত। আজ রয়েছে সাচির ফিস্ট অলিম্পিক স্টেডিয়াম কথা। জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু

মূলত ২০১৪ শীতকালীন অলিম্পিকের জন্যই সাচির এই ফিস্ট অলিম্পিক স্টেডিয়ামটি বানানো হয়েছিল। এই স্টেডিয়ামে অলিম্পিকের উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠান হয়েছিল। এর দর্শক ধারণ ক্ষমতা ৪৭ হাজার ৬৫৯। তবে ওপরের ছাদ খুলে দিলে ধারণা ক্ষমতা আরও ছয় হাজার পর্যন্ত বাড়ানো যায়। ৭৭৯ মিলিয়ন ডলার খরচ করে ফিস্ট অলিম্পিক স্টেডিয়ামটি বানানো হয়েছিল। ফিস্ট পর্বতের নামানুসারে এর নামকরণ করা হয়। এখানে শুধু শীতকালীন অলিম্পিক গেমসই নয়, ২০১৭ সালে কনফেডারেশন্স কাপের ম্যাচও হয়েছিল। এখানে গ্রুপ পর্বের চারটি, দ্বিতীয় রাউন্ডের একটি এবং কোয়ার্টার ফাইনালের একটি ম্যাচ হবে।

ম্যাচগুলো হলো

১৫ জুন পর্তুগাল-স্পেন গ্রুপ বি
১৮ জুন বেলজিয়াম-পানাম গ্রুপ জি
২৩ জুন জার্মানি-সুইডেন গ্রুপ এফ
২৬ জুন অস্ট্রেলিয়া-পেরু গ্রুপ সি

দ্বিতীয় রাউন্ড

৩০ জুন এ১-বি২

কোয়ার্টার ফাইনাল

০৭ জুলাই ডব্লিউ৫১-ডব্লিউ৫২

রাশিয়া বিশ্বকাপ: ভেন্যুর কথা-৯

‘গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’ বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন বাকী নেই। বিশ্ব ফুটবলের মহামঞ্চকে সামনে রেখে এখন থেকেই আমরা নিয়মিত আপনাদের দিয়ে যাচ্ছি টুকিটাকি সব খবরা-খবর। আগামী ১৪ জুন রাশিয়ায় শুরু হবে বিশ্বকাপের বিশ্ব আসর। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর কথা জানিয়ে যাচ্ছি আমরা নিয়মিত। আজ রয়েছে একতারিনবার্গ অ্যারেনার কথা। জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু

রাশিয়ার সবচেয়ে পুরণো দল এফসি উরালের হোম গ্রাউন্ড। একতারিনবার্গ অ্যারেনাকে আবার সেন্ট্রাল স্টেডিয়াম‌ নামে‌ও ডাকা হয়। এই স্টেডিয়ামটি প্রথম তৈরি করা হয় ১৯৫৩ থেকে ১৯৫৭ সালের মধ্যে। অ্যাথলেটিক্স, স্কেটিংসহ বিভিন্ন ধরণের খেলাই হতো এখানে। এই স্টেডিয়ামের দর্শকধারণ ক্ষমতা ২৭ হাজার হলে‌ও এবারের বিশ্বকাপের আসরকে সামনে রেখে এর আসন সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। সংস্কার কাজের পর সেন্ট্রাল স্টেডিয়ামের দর্শক ধারণ ক্ষমতা এখন ৪৫ হাজার।

 

 

২০১৫ সালের এই স্টেডিয়ামের সংস্কার কাজ শুরু হয়ে শেষ হয় ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসে। এখানে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের চারটি খেলা অনুষ্ঠিত হবে।

খেলাগুলো হলো

১৫ জুন           মিশর-উরুগুয়ে           গ্রুপ এ

২১ জুন           ফ্রান্স-পেরু                 গ্রুপ সি

২৪ জুন          জাপান-সেনেগাল        গ্রুপ এইচ

২৭ জুন          মেক্সিকো-সুইডেন        গ্রুপ এফ

২০৩০ বিশ্বকাপ আর্জেন্টিনায়!

বিশ্বকাপের একশ’ বছর পূর্তি উপলক্ষে ২০৩০ সালের ফুটবল বিশ্বকাপ দক্ষিণ আমেরিকায় আয়োজিত হলে, আর্জেন্টিনার ৮টি ভেন্যুতে খেলা অনুষ্ঠিত হবে। এ কথা জানিয়েছেন, আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ক্লদি‌ও তাপিয়া।

২০৩০ সালের ফিফা বিশ্বকাপ আয়োজনের নিলামে দক্ষিণ আমেরিকা থেকে আর্জেন্টিনা ছাড়াও প্যারাগুয়ে এবং উরুগুয়ের দু’টি করে ভেন্যুও রয়েছে। গতকাল সোমবার তিন দেশ থেকেই বিষয়টি চূড়ান্ত করা হয়েছে। এর আগে দু’বার করে বিশ্বকাপ জিতেছে আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ে।

১৯৩০ সালে প্রথম বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয় উরুগুয়েতে। বিশ্বকাপের একশ’ বছর পূর্তি উপলক্ষে এই আসর নিয়ে বড় পরিকল্পনা করছে ল্যাটিন আমেরিকার দেশগুলো।

আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন সভাপতি ক্লদিও তাপিয়া জানান, ‘প্রত্যেক দেশের ভেন্যু চূড়ান্ত করতে একটা বৈঠকে করেছিলাম আমরা। প্যারাগুয়ে ও উরুগুয়ের ২টি এবং আর্জেন্টিনার ৮টি ভেন্যুতে এই আয়োজন করতে আগ্রহী। এছাড়া, ভবিষ্যতে আরো ভেন্যু বাড়াতে হবে। যাতে করে ২০৩০ বিশ্বকাপ আয়োজনে পুরোপুরি প্রস্তুত থাকতে পারি আমরা।’

রাশিয়া বিশ্বকাপ: ভেন্যুর কথা-৮

‘গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’ বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন বাকী নেই। বিশ্বকাপ ফুটবলকে সামনে রেখে এখন থেকেই আমরা নিয়মিত আপনাদের দিয়ে যাচ্ছি টুকিটাকি সব খবরা-খবর। আগামী ১৪ জুন রাশিয়ায় শুরু হবে বিশ্বকাপের বিশ্ব আসর। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর কথা জানিয়ে যাচ্ছি আমরা নিয়মিত। আজ রয়েছে কালিনিনগ্রাদ অ্যারেনার কথা। জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু

কালিনিনগ্রাদ স্টেডিয়ামটি, অ্যারেনা বাল্টিকা নামে‌ও পরিচিত। অবস্থান রাশিয়ার প্রেগোলিয়া নদীর তীরের ওক্টাবারস্কি দ্বীপের কালিনিনগ্রাদ শহরে। স্টেডিয়ামটির দর্শক ধারন ক্ষমতা ৩৫,৩১২ জন। বিশ্বকাপ ফুটবলের জন্য ২০১৫ সালে এই স্টেডিয়ামটির সংস্কার কাজ শুরু হয় এবং ২০১৭ সালে এই স্টেডিয়ামটিকে প্রস্তুত বলে ঘোষনা করা হয়। সংস্কার কাজে ব্যয় হয়েছে ২৫৬ মিলিয়ন ইউরো। বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে চারটি ম্যাচ হবে এই স্টেডেয়ামে।

খেলাগুলো হলো

১৬ জুন       ক্রোয়েশিয়া-নাইজেরিয়া       গ্রুপ ডি

২২ জুন       সার্বিয়া-সুইজারল্যান্ড           গ্রুপ ই

২৫ জুন       স্পেন-মরক্কো                     গ্রুপ বি

২৮ জুন       ইংল্যান্ড-বেলজিয়াম            গ্রুপ জি

রাশিয়া বিশ্বকাপ: ভেন্যুর কথা-৭

‘গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’ বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন বাকী নেই। বিশ্বকাপ ফুটবলকে সামনে রেখে এখন থেকেই আমরা নিয়মিত আপনাদের দিয়ে যাচ্ছি টুকিটাকি সব খবরা-খবর। আগামী ১৪ জুন রাশিয়ায় শুরু হবে বিশ্বকাপের বিশ্ব আসর। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর কথা জানিয়ে যাচ্ছি আমরা নিয়মিত। আজ রয়েছে মোর্দোভিয়া অ্যারেনার কথা। জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু

এই স্টেডিয়ামটি রাশিয়ার মোর্দোভিয়া শহরে অবস্থিত। মোর্দোভিয়া অ্যারিনা স্টেডিয়ামটি সারানস্ক স্টেডিয়াম নামেও পরিচিত। এই স্টেডিয়ামটির দর্শক ধারণ ক্ষমতা ৪৪,৪৪২ জন। বিশ্বকাপ ফুটবলের জন্য ২০১০ সালে এই স্টেডিয়ামটির সংস্কার কাজ শুরু হয় এবং ২০১৭ সালে এই স্টেডিয়ামটিকে প্রস্তুত বলে ঘোষণা করা হয়। বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের চারটি ম্যাচ হবে এই স্টেডেয়ামে। এটি রাশিয়ার প্রিমিয়ার লিগের দল এফসি মোর্দোভিয়া সারানস্কের হোম ভেন্যু‌ও। এই স্টেডিয়াম সংস্কার করতে ৩০০ মিলিয়ন ডলার খরচ করেছে রাশিয়া।

বিশ্বকাপের যে ম্যাচগুলো হবে তা হলো

১৬ জুন    পেরু-ডেনমার্ক    সি গ্রুপ

১৯ জুন    কলম্বিয়া-জাপান   এইচ গ্রুপ

২৫ জুন    ইরান-পর্তুগাল      বি গ্রুপ

২৮ জুন    পানামা-তিউনিসিয়া    জি গ্রুপ

রাশিয়া বিশ্বকাপে ফ্রি ট্রেন

রাশিয়া বিশ্বকাপের সঙ্গে যুথবদ্ধ হয়েছে সেদেশের রেল‌ওয়ে। বিশ্বকাপের অফিসিয়াল পার্টনার হয়েছে তারা। দেশের বিভিন্ন শহরে বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা যেন সহজে আর নিরাপদে দেখতে পারেন পৃথিবীর বিভিন্ন স্থান থেকে আসা দর্শকরা সেই জন্য ৭২৮ টি নতুন ট্রেন ৩১ টি রোডে চলাবে রাশিয়ান রেল‌ওয়ে।

শুধু তাই নয়, ট্রান্সপোর্ট পার্টনার হিসেবে বিশ্বকাপ চলাকালে ১৪ জুন থেকে ১৫ জুলাই পর্যন্ত রাশিয়ান রেল‌ওয়ে বিশ্বকাপের স্বাগতিক শহরগুলোর মধ্যে ৮,৮০,০০০ ফ্রি ট্রিপ দেবে।

বিশ্বকাপের টিকিট

বিশ্বকাপ ফুটবলের টিকিট ইতোমধ্যেই প্রকাশ করেছে ফিফা। টিকিটের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং নকল রোধে হলোগ্রামের পাশাপাশি বারকোড‌ও থাকছে এই টিকিটে।

ম্যাচ সংক্রান্ত সবকিছুই থাকছে এই টিকিট। যেমন ফিকচার, স্টেডিয়ামের নাম, তারিখ, গেট খোলার সময় এবং খেলা শুরুর সময় সবই থাকছে এই টিকিটে। প্রত্যাকটি খেলা শুরুর তিন ঘন্টা আগেই স্টেডিয়ামের গেট খোলা হবে। তবে উদ্বোধনী ম্যাচ এবং ফাইনাল খেলার দিন চারঘন্টা আগে থেকে স্টেডিয়ামের গেট খোলা রাখার কথা লেখা আছে টিকিটে। কোন ক্যাটাগোরির টিকিট সেটা‌ও লেখা থাকছে। সেই সঙ্গে সিট নম্বর আর রো নম্বর তো থাকছেই। নিজের সিট খুজে নে‌ওয়ার জন্য একটি ম্যাপ‌ও দে‌ওয়া আছে টিকিটে।

রাশিয়া বিশ্বকাপ: ভেন্যুর কথা-৬

‘গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’ বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন বাকী নেই। বিশ্বকাপ ফুটবলকে সামনে রেখে এখন থেকেই আমরা নিয়মিত আপনাদের দিয়ে যাচ্ছি টুকিটাকি সব খবরা-খবর। আগামী ১৪ জুন রাশিয়ায় শুরু হবে বিশ্বকাপের বিশ্ব আসর। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর কথা জানিয়ে যাচ্ছি আমরা নিয়মিত। আজ রয়েছে ভলগোগ্রাদ অ্যারেনার কথা। জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু।

রাশিয়ার ঐতিহাসিক এক শহর ভলগোগ্রাদের ভলগোগ্রাদ অ্যারেনায় এবারের বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের চারটি খেলা হবে। আগামী ১৮ জুন ইংল্যান্ড-তিউনিসিয়া ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে এই স্টেডিয়ামের বিশ্বকাপ মিশন। ভোলগা নদীর তীরে অবস্থিত এই স্টেডিয়ামটির দর্শক ধারন ক্ষমতা ৪৫,৫৬৮ জন।

১৯৬২ সালে তৈরি করা স্টেডিয়ামটিতে ১৯৬৩ সালে কিউবার কিংবদন্তি নেতা ফিদেল ক্যাস্ট্রো এসে ৬০,০০০ লোকের সামনে বক্তব্য দিয়েছিলেন। ৫২ বছর পর বিশ্বকাপ ফুটবলের খেলা আয়োজনের জন্য ২০১৪ সালে সংস্কার করার জন্য ভাঙা হয় এই স্টেডিয়ামটি। এবং ২০১৭ সালে এই স্টেডিয়ামটিকে প্রস্তুত বলে ঘোষনা করা হয়। স্টেডিয়ামটি দেখতে অনেকটা বাই সাইকেলের চাকার মতো। বিশ্বকাপ শেষে স্থানীয় ক্লাব রোটোর এফসি নিজস্ব মাঠ হিসেবে ব্যবহার করবে ভলগোগ্রাদ স্টেডিয়ামটিকে।

রাশিয়া বিশ্বকাপ: ভেন্যুর কথা-৫

‘গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’ বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন বাকী নেই। বিশ্বকাপ ফুটবলকে সামনে রেখে এখন থেকেই আমরা নিয়মিত আপনাদের দিয়ে যাব টুকিটাকি খবরা-খবর। আর এই গ্রেটেস্ট শো শুরু হবে আগামী ১৪ জুন রাশিয়াতে। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর কথা জানিয়ে যাচ্ছি আমরা নিয়মিত। আজ রয়েছে সামারা অ্যারেনার কথা। জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু।

রাশিয়ার রাজধানী মস্কো থেকে ১০৫৭ কিলোমিটার দূরে সামারা স্টেডিয়ামটি অবস্থিত। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় এই শহরটি রাশিয়ার দ্বিতীয় রাজধানী হিসেবে কাজ করতে। সামারা স্টেডিয়ামের সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হলো, এর ৬৫.৫ মিটার উচ্চতা বিশিষ্ট গম্বুজাকৃতির ছাদ। এটি ৩২টি প্যানেলের সমন্বয়ে গঠিত। স্টেডিয়ামটির আসন সংখ্যা হবে ৪৫,০০০। প্রাথমিকভাবে স্টেডিয়ামটি সামারা এবং ভোলগা নদীর মিলনস্থলে একটি উপদ্বীপের উপর নির্মাণের পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু প্রয়োজনীয় অবকাঠামোর অভাবে পরবর্তীতে স্থান পরিবর্তন করা হয়। স্টেডিয়ামটি সামারা ছাড়াও সামারা অ্যারেনা এবং কসমস অ্যারেনা নামেও পরিচিত।

৩১৫ মিলিয়ন ডলার ব্যয়ে নির্মিত এই স্টেডিয়ামটি পুরো তৈরি হতে আর‌ও অনেক সময় বাকী। এদিকে, রাশিয়ার উপ প্রধানমন্ত্রী আর্কাডি ভোরকোভিচ জানিয়েছেন, ২৫ এপ্রিলের মধ্যে মাঠ প্রস্তুত হয়ে যাবে। রাশিয়ার সেকেন্ড টায়ারের ম্যাচ দিয়ে স্টেডিয়ামটি উদ্বোধন করার মাত্র তিনদিন আগে এই সামারা স্টেডিয়ামটি তৈরি হবে।


মোট ছয়টি বিশ্বকাপের খেলা হবে। তারমধ্যে চারটি গ্রুপ পর্বের ম্যাচ। একটি শেষ ১৬-র এবং একটি কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচ।
সামারায়

রাশিয়া বিশ্বকাপ: ভেন্যুর কথা-৪

‘গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’ বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন বাকী নেই। বিশ্বকাপ ফুটবলকে সামনে রেখে এখন থেকেই আমরা নিয়মিত আপনাদের দিয়ে যাব টুকিটাকি খবরা-খবর। আর এই গ্রেটেস্ট শো শুরু হবে আগামী ১৪ জুন রাশিয়াতে। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর কথা জানিয়ে যাচ্ছি আমরা নিয়মিত। আজ রয়েছে কাজান অ্যারেনার কথা। জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু

মস্কোর পূর্বাঞ্চলীয় এলাকা তাতারিস্তানের রাজধানী এবং এখানকার সবচেয়ে বড় শহর হলো কাজান। আর এই কাজানেই হলো বিশ্বকাপের আর‌ও একটি ভেন্যু কাজান অ্যারেনা। স্টেডিয়ামের দর্শক ধারণ ক্ষমতা ৪৪,৭৭৯ জন। ভলগা এবং কাজানকা নদীর তীরে অবস্থিত কাজান শহর। এই স্টেডিয়ামটি দেখতে কিছুটা ‌ওয়েম্বলি এবং আর্সেনালের অ্যামিরেটস স্টেডিয়ামের মতো। বিশ্বকাপ ফুটবলের জন্য ২০১০ সালে এই স্টেডিয়ামটি পুন:সংস্কার করা হয় এবং ২০১৩ সালে এই স্টেডিয়ামটিকে প্রস্তুত বলে ঘোষণা করা হয়। এই স্টেডিয়ামটি প্রস্তুত করতে রাশিয়ার খরচ হয় প্রায় ৫০ মিলিয়ন ডলার।


তৈরি হ‌ওয়ার পর থেকে এই মাঠটি রুবিন কাজানের হোম ভেন্যু হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে।

এই কাজান অ্যারেনায় বিশ্বকাপের মোট ছয়টি খেলা হবে। তার মধ্যে গ্রুপ পর্বের চারটি আর দ্বিতীয় রাউন্ডের একটি এবং কোয়ার্টার ফাইনলের একটি ম্যাচ।

রাশিয়া বিশ্বকাপ: ভেন্যুর কথা-৩

'গ্রেটেস্ট শো অন দ্যা আর্থ' বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন নেই। বিশ্বকাপ ফুটবলকে সামনে রেখে এখন থেকে নিয়মিত আপনাদের জন্য দিয়ে যাব এই আসরের খবরা-খবর। আর এই গ্রেটেস্ট শো শুরু হবে আগামী ১৪ জুন রাশিয়াতে। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর খুটিনাটি বিভিন্ন দিক। আজ রয়েছে রুস্তভ অ্যারেনার কথা। জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু

রুস্তভ অ্যারেনার সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট হলো- পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল এখান থেকেই তাদের হেক্সা মিশন শুরু করবে। আগামী ১৭ জুন এই স্টেডিয়ামে, সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে লড়বে। এখানে এবারের বিশ্বকাপের মোট পাঁচটি খেলা হবে। চারটি গ্রুপ পর্বের আর একটি শেষ ১৬’র ম্যাচ। রাশিয়ার ডন নদীর বাম তীরে এই স্টেডিয়ামটির অবস্থান। রুস্তভ অ্যারেনাকে মূলত ২০১৮ সালের বিশ্বকাপের জন্যই এতো দৃষ্টিনন্দন করে এবং শৈল্পিকভাবে তৈরি করা হয়েছে। দর্শকধারণ ক্ষমতা ৪৫ হাজার।

বিশ্বকাপ খেলা চলাকালে দর্শকরা ডন নদীর তীরে বসে ‘কোসাক’ কালচারের সঙ্গে পরিচিত হতে পারবেন। এবং স্থানীয় খাদ্যসামগ্রীর স্বাদ নিতে পারবেন। নদীর তীর ঘেসে গড়ে উঠেছে অনেক ক্যাফে এবং রেস্তোরা‌ও। এখানকার দল এফসি রুস্তভ গত মৌসুমে রাশিয়ার শীর্ষ লিগে রানার্সআপ হ‌ওয়ায় উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার সুযোগ পেয়েছিল। এবং অপ্রত্যাশিতভাবে নিজেদের মাঠে ইউরোপিয়ান পা‌ওয়ার হাউজ বায়ার্ন মিউনিখকে‌ও হারিয়েছিল তারা।

রাশিয়া বিশ্বকাপ ভেন্যুর কথা-২

'গ্রেটেস্ট শো অন দ্যা আর্থ' বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন নেই। বিশ্বকাপ ফুটবলকে সামনে রেখে এখন থেকে নিয়মিত আপনাদের জন্য দিয়ে যাব এই আসরের খবরা-খবর। আর এই গ্রেটেস্ট শো শুরু হবে আগামী ১৪ জুন রাশিয়াতে। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর খুটিনাটি বিভিন্ন দিক। আজ রয়েছে স্পার্টাক স্টেডিয়ামের কথা, জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু

রাশিয়ার জনপ্রিয় একটি স্টেডিয়ামের নাম স্পার্টাক। এখানকার জনপ্রিয় দল স্পার্টাক মস্কোর হোম গ্রাউন্ড‌ও। ১৯২২ সালে এই দলটির জন্ম হলে‌ও কিছুদিন আগে‌ও তাদের নিজস্ব কোনো খেলার মাঠ ছিলোনা। হোম ম্যাচ খেলতে হতো মস্কোর ডায়নামো, লুঝনিকি এবং লোকোমোটিভ স্টেডিয়ামে। দর্শক ধারণ ক্ষমতা ৪৩ হাজার ২৯৮ জন। মাত্র ২০১৪ সালে তৈরি করা হয় এই মাঠটি। ২০১৪ সালের ৫ সেপ্টেম্বর এই স্টেডিয়ামটির উদ্বোধন করা হয়, স্পার্টাক মস্কো এবং রেড স্টার বেলগ্রেডের মধ্যে একটি প্রীতি ম্যাচ দিয়ে। খেলাটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছিল। এবং ২০১৭ সালে ফিফা কনফেডারেশন্স কাপের খেলা‌ও এই মাঠে হয়েছিল।

দারুণ ডিজাইনের এই স্টেডিয়ামটি, সুইচ টিপলেই রং পাল্টাতে পারে। মজার বিষয় হলো, এই স্টেডিয়ামে যখন স্পার্টাক মস্কোর খেলা চলে তখন রং হয়ে যায়, দলের জার্সির মতো লাল-সাদা। আবার যখন জাতীয় দলের খেলা চলে তখন হয়ে যায় রাশিয়ার পতাকার রং।

এই স্টেডিয়ামে এবারের বিশ্বকাপের মোট পাচটি খেলা হবে। একটি শেষ ষোল’র আর চারটি গ্রুপ পর্বের। আগামী ১৬ জুন ডি গ্রুপের ম্যাচে আর্জেন্টিনা-আইসল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচটি দিয়ে এই স্টেডিয়ামে শুরু হবে বিশ্বকাপ।

স্পার্টাক মস্কো স্টেডিয়ামের খেলাসমূহ:

১৬ জুন শনিবার আর্জেন্টিনা-আইসল্যান্ড
১৯ জুন মঙ্গলবার পোল্যান্ড-সেনেগাল
২৩ জুন শনিবার বেলজিয়াম-তিউনেসিয়া
২৬ জুন মঙ্গলবার সার্বিয়া-ব্রাজিল

শেষ ষোল’র ম্যাচ

০৩ জুলাই মঙ্গলবার ১এইচ-২জি

দিবালার পক্ষে ক্রেসপো

পা‌ওলো দিবালাকে আর্জেন্টিনা দলে নে‌ওয়ার পক্ষে মত প্রকাশ করলেন সাবেক তারকা খেলোয়াড় হারনান ক্রেসপো। আর্জেন্টিনার হয়ে তিনবার বিশ্বকাপ খেলার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন এই ফরোয়ার্ড মনেকরেন দিবালাকে দলে নিলে আর্জেন্টিনার শক্তি আর‌ও বাড়বে।

সম্প্রতি ইটালি আর স্পেনের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার যে প্রীতি ম্যাচ খেলেছে তাতে দিবালাকে দলভূক্ত করা হয়নি। তিনি উপেক্ষিত ছিলেন। এদিকে, লি‌ওনেল মেসিবিহীন আর্জেন্টিনা ৬-১ গোলের বড় ব্যবধানে পরাজিত হয় স্প্যানিশদের কাছে।

ক্রেসপো বুঝতে পারছেন না যে কি কারণে কোচ জর্জ সাম্পা‌ওলি জুভেন্টাসের ফরোয়ার্ড দিবালাকে দলে নিচ্ছেন না। তিনি বলেন, ‘ফ্যান হিসেবে বুঝতে চেষ্টা করেছি, কিন্তু দিবালাকে বাদ দে‌ওয়ার বিষয়টা আমাকে আশ্চর্য করেছে।’ ৪২ বছর বয়সী ক্রেসপো মনে করেন মেসির ‌ওপর চাপ কমাতেই আর্জেন্টিনা দলে পা‌ওলো দিবালাকে নে‌ওয়া উচিত। রাশিয়া বিশ্বকাপে ডি গ্রুপে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ আইসল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া ‌ও নাইজেরিয়া।

রাশিয়া বিশ্বকাপ ভেন্যুর কথা

'গ্রেটেস্ট শো অন দ্যা আর্থ' বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন নেই। বিশ্বকাপ ফুটবলকে সামনে রেখে এখন থেকে নিয়মিত আপনাদের জন্য দিয়ে যাব এই আসরের খবরা-খবর। আর এই গ্রেটেস্ট শো শুরু হবে আগামী ১৪ জুন রাশিয়াতে। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর খুটিনাটি বিভিন্ন দিক। আজ রয়েছে লুঝনিকি স্টেডিয়ামের কথা, জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু

লুঝনিকি স্টেডিয়াম

লুঝনিকি স্টেডিয়ামটির অবস্থান রাশিয়ার মস্কো শহরে। দর্শক ধারণ ক্ষমতা ৮১,০০৬ জন। রাশিয়া বিশ্বকাপের প্রধান ভেন্যু এটি। এখানেই বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধনী এবং সমাপনী অনুষ্ঠান হবে। সব মিলিয়ে বিশ্বকাপের সাতটি খেলা হবে এই স্টেডিয়ামে। ১৯৫০ সালে এটি তৈরি করা হয়েছিল। এই স্টেডিয়ামের ঐতিহ্য‌ও অনেক। ১৯৮০ সালে অলিম্পিক আসর‌ও বসেছিল এখানে। তাছাড়া রাশিয়ার বেশিরভাগ খেলার স্বাগতিক‌ও হয়েছে এই স্টেডিয়াম।

মস্কোর দল স্পাটার্ক, সিএসকেএ এবং টরপেডো ক্লাবের খেলা‌ও এই স্টেডিয়ামে হয়ে থাকে। তবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সমথর্কদের এই লুঝনিকি স্টেডিয়ামকে বেশি মনে রাখার কথা। ২০০৮ সালে বৃষ্টিস্নাত এক ম্যাচে টাইব্রেকারে চেলসিকে হারিয়ে ইউরোপের সেরা দলের মর্যাদা পায় রেড ডেভিলরা। তবে বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের জন্য ২০১৩ সালে এই স্টেডিয়ামটি নতুন করে সংস্কারের কাজ শুরু করা হয়। এবং ২০১৭ সালে এই স্টেডিয়ামটিকে সম্পূর্ণ প্রস্তুত বলে ঘোষণা করা হয়।

লুঝনিকি স্টেডিয়ামের ম্যাচগুলো:

১৪ জুন     বৃহস্পতিবার     রাশিয়া-সৌদি আরব     গ্রুপ এ

১৭ জুন    রোববার           জার্মানি-মেক্সিকো        গ্রুপ এফ

২০ জুন    বুধবার            পর্তুগাল-মরক্কো            গ্রুপ বি

২৬ জুন    মঙ্গলবার      ডেনমার্ক-ফ্রান্স              গ্রুপ সি

শেষ ষোলর ম্যাচ

০১ জুলাই     রোববার       ১বি-২এ (ম্যাচ ৫১)

সেমি ফাইনাল

১১ জুলাই     বুধবার     ৫৯ ম্যাচ জয়ী-৬০ ম্যাচ জয়ী

ফাইনাল

১৫ জুলাই     রোববার

ব্রাজিল জিতবে এবারের বিশ্বকাপ

রাশিয়ায় ফিফা বিশ্বকাপ জিতে ব্রাজিল এবার তাদের হেক্সা মিশন শেষ করবে। আর লি‌ওনেল মেসির আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব পার হলে‌ও দ্বিতীয় রাউন্ড থেকেই বিদায় নেবে-এমনটাই জানিয়েছে এক সুপার কম্পিউটার।

কয়েকদিন আগেই বেশকিছু প্রীতি ম্যাচ খেলেছে বিশ্বাকপের চূড়ান্ত পর্বে ‌ওঠা দলগুলো। গত আসরে জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে পরাজয়ের বেদনা ভুলে এবার বার্লিনে ১-০ গোলের জয়ে ছন্দে ফেরে নেইমার বিহীন ব্রাজিল। আর আগেরবারের রানার্সআপ আর্জেন্টিনা ৬-১ গোলে স্পেনর কাছে হেরে ডোবে পরাজয়ের বেদনায়। দলগুলোর খেলা নিয়ে বিভিন্ন পরিসংখ্যান কম্পিউটারে দে‌ওয়ার পর, সুপার কম্পিউটার এই মত দিয়েছে যে, বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন হবে ব্রাজিল। ফাইনালে তারা ২-১ গোলে পরাজিত করবে স্পেনকে।

আর শিরোপা জয়ের আরেক ফেভারিট আর্জেন্টিনা গ্রুপ পর্ব পেরিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠলে‌ও, ২-১ গোলে ফ্রান্সের কাছে হেরে বিশ্বকাপ বঞ্চিতই থাকতে হবে লি‌ওনেল মেসিকে। তবে বিশ্বকাপের আসর শুরু হলে‌ও জানা যাবে সঠিক তথ্য। কাপ শুরুর আগে অনেকেই অনেক রকম মন্তব্য করে মাঠ গরম করে আলোচনায় থাকতে চান।

মেসিবিহীন আর্জেন্টিনার বড় পরাজয়

লিওনেল মেসিবহীন আর্জেন্টিনা দল ৬-১ ব্যবধানে হেরেছ স্পেনের কাছে। মেসি ছাড়া‌ও দলে ছিলেন না আঞ্জেল ডি মারিয়া ও স্যার্জি‌ও আগুয়েরো। তাদেরকে ছাড়া আর্জেন্টিনা, স্পেনের কাছে কোনো পাত্তাই পায়নি। স্পেনের এই বড় জয়ের ম্যাচে হ্যাটট্রিক করেন ইসকো।

দলের পরাজয় দেখছেন লিওনেল মেসি

জাতীয় দলের হয়ে স্যার্জি‌ও রামোসের ১৫০তম ম্যাচের আট মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারতো আর্জেন্টিনা। কিন্তু হিগুয়েনের ব্যর্থতায় এগিয়ে যা‌ওয়া হয়নি আর্জেন্টিনার। স্পেনের ক্রসবারের ওপর দিয়ে বল পাঠান তিনি।

আর্জেন্টিনার ব্যর্থতার পর খেলার ১৩ মিনিটে স্পেনকে এগিয়ে দেন দিয়েগো কস্টা। আন্দ্রেস ইনিয়েস্তার কাছ থেকে বল পেয়ে দলকে লিড এনে দেন অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের ব্রাজিল-বর্ন স্প্যানিশ তারকা খেলোয়াড় কস্টা। স্পেনের হয়ে এটি তার সপ্তম গোল। আর সেই গোল ঠেকানোর চেষ্টা করতে গিয়ে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন আর্জেন্টিনার গোলকিপার রোমেরো।

এই গোলের চার মিনিট পর ইসকো তার হ্যাট্রিকের সূচনা গোলটি করে দলকে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন।

খেলার ৩৯ মিনিটে ব্যবধান ২-১ এ নামিয়ে আনেন ওতামেন্দি। কর্নার থেকে লাফিয়ে দারুণ হেডে দাভিদ দে হেয়াকে পরাস্ত করেন ম্যানচেস্টার সিটির এই ফরোয়ার্ড।

দ্বিতীয়ার্ধে স্পেনের রক্ষণে প্রবল চাপ তৈরি করে আর্জেন্টিনা। তবে এই অর্ধের প্রথম সত্যিকারের সুযোগ কাজে লাগিয়ে ব্যবধান বাড়ায় স্পেন। আসপাসের পাস থেকে বল পেয়ে ৫১ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন ইসকো।

চার মিনিট পর ব্যবধান ৪-১ করে ফেলেন থিয়াগো। আর্জেন্টিনার ডি-বক্সে অতিথিদের তালগোল পাকানোর সুযোগ নিয়ে বল জালে পাঠান এই ফরোয়ার্ড। ৬৭ মিনিটে ফ্রি-কিকে ওতামেন্দির হেড পোস্টে লেগে ব্যর্থ হলে ব্যবধান কমেনি।

৭৩ মিনিটে আর্জেন্টিনার জালে বল পাঠান আসপাস। দুই মিনিট পর নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন ইসকো। স্পেন তখন ৬-১ গোলে এগিয়ে।

জার্মানির জালে ব্রাজিলের গোল

প্রীতি ফুটবল ম্যাচে জার্মানির বার্লিনের অলিম্পিয়া স্টেডিয়ামে প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় পাচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। ২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপে ৭-১ গোলের লজ্জার পর এবারই প্রথম জার্মানির মুখোমুখি হয় ব্রাজিল। তবে এই ম্যাচে পরাজিত না হলে টানা ২৩ ম্যাচে অপরাজিত থাকার রেকর্ডটা আবার‌ও স্পর্শ করার কথা জার্মানির।

নিজেদের মাঠে খেলতে নেমে, প্রাধান্যই ছিল জার্মানদের। তবে গোরেতজা কিংবা গোমেজরা সহজ সুযোগগুলো নষ্ট না করলে প্রথমার্ধেই এগিয়ে যেতে পারতো জার্মানিরা। আর মাঠে‌ও সেই ছাপ ছিলো সুস্পষ্ট। বল পজিশনে ৫৪ ভাগ দখল ছিল তাদের।

খেলার ৩৬ মিনিটে ম্যানচেস্টার সিটির খেলোয়াড় গ্যাব্রিয়েল জেসুস জার্মান গোলকিপারকে একা পেয়ে‌ও ডি বক্সের ভেতর থেকে বল যেভাবে ক্রসবারের উপর দিয়ে বাইরে মেরে সুযোগ নষ্ট করেন। ঠিক দুই মিনিট পর গোল করে ব্রাজিলকে এগিয়ে দিয়ে যেনো সেই পাপের প্রায়শ্চিত্য করলেন জেসুস। ১-০ গোলের লিড নেয় তিতের দল।

২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে তিতে ব্রাজিল দলের দায়িত্ব নে‌ওয়ার পর এটি জেসুসের নবম গোল।

রাশিয়া বিশ্বকাপ বয়কটের হুমকি

রাশিয়া বিশ্বকাপ বয়কটের হুমকি দিয়েছে ছয়টি দেশ। এই ছয়টি দেশের ফুটবলাররা বিশ্বকাপে অংশ নিলে‌ও সেদেশের কর্মকর্তারা বিশ্বকাপে অফিসারদের পাঠাবে না বলে জানায়। অর্থাৎ রাষ্ট্রীয়ভাবে রাশিয়া বিশ্বকাপ বয়কট করবে তারা। এই ছয়টি দেশ হলো- ব্রিটেন, আইসল্যান্ড, সুইডেন, ডেনমার্ক, অস্ট্রেলিয়া এবং জাপান।

চলতি মার্চ মাসের ৪ তারিখে স্যালিসবারিতে প্রাক্তন রাশিয়ান গোয়েন্দা সের্গেই স্ক্রপাল ‌ও তার কন্যার উপর আক্রমণের প্রতিক্রিয়ায় বিশ্বকাপ বয়কটের সিদ্ধান্ত নেয় দেশগুলো।

অবশ্য চলতি মাসের মাঝামাঝি সময়ে ব্রিটেন ঘোষণা দেয়, রাজপরিবার এবং রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তিরা রাশিয়ায় বিশ্বকাপ চলাকালে ভ্রমণে যাবেনা। গতকাল মঙ্গলবার রাতে ব্রিটেনের পথেই হাটবে বলে জানায়, আইসল্যান্ড, সুইডেন, ডেনমার্ক, অস্ট্রেলিয়া এবং জাপান।

তবে পোলিশ প্রেসিডেন্টের অফিস থেকে জানানো হয়, মস্কোতে বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেজেজ দুদা উপস্থিত থাকতে পারবেন না। বয়কটের ভাবনায় থাকা দেশগুলো জানায়, সালিসবারিতে হামলা আন্তর্জাতিক আইনের গুরুতর লঙ্ঘন এবং ইউরোপের নিরাপত্তা ‌ও শান্তির জন্য হুমকি স্বরূপ।

আজ রাতে মুখোমুখি আর্জেন্টিনা ও স্পেন

আজ মঙ্গলবার রাতে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে আর্জেন্টিনা ও ২০১০ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন স্পেন। বিশ্বকাপের বাকি আর কয়েক মাস এরই মাঝে নিজেদের প্রস্তুত করে নিচ্ছে দলগুলো।

তারই অংশ হিসেবে বিশ্বকাপের প্রস্তুতির প্রথম পরীক্ষায় অবশ্য ভালো করেছে জর্জ সাম্পাওলির শিষ্যরা। লি‌ওনেল মেসি বিহীন আর্জেন্টিনা ২-০ গোলে ইটালিকে হারিয়ে প্রথম পরিক্ষায় উত্তীর্ণ হয়। হ্যামস্ট্রিংয়ের ইনজুরির কারণে মাঠে নামেনি সুপার স্টার লিওনেল মেসি। ইটালির মতো দলের বিপক্ষে দারুণ জয়ে আত্নবিশ্বাসী আর্জেন্টিনার কোচ জর্জ সাম্পাওলি।

অপরদিকে গত শনিবার জার্মানির সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে মাঠ ছাড়ে ২০১০ বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন স্পেন। স্পেনের বিপক্ষে একমাত্র গোলটি করেছেন মোরেনো।তবে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে জমজমাট লড়াই হবে বলে মনে করেন, স্পেনের কোচ ভাসকেস। তিনি সতর্কবাণী দিয়েছেন নিজের দলকে। বলেছেন, ‘আর্জেন্টিনা দারুন একটি দল। যদি মেসি না খেলে, আঞ্জেল ডি মারিয়া থাকবে এবং যে কোন মুহূর্তে পার্থক্য গড়ে দিতে পারে। তাই সবাইকে নিয়ে সতর্ক থাকতে হবে।’

মেসি ছাড়াই আর্জেন্টিনার অনুশীলন

প্রীতি ম্যাচে ইটালিকে হারানোর পর এবার আর্জেন্টিনা খেলবে স্পেনের বিপক্ষে। আগামী মঙ্গলবার স্পেনের স্টেডি‌ও ‌ওয়ানডা মেট্রোপলিটিনোতে হবে খেলাটি। এই খেলায় অংশ নিতে আর্জেন্টিনা দল এখন আছে স্পেনে। রিয়াল মাদ্রিদে অনুশীলন‌ও করছে তারা। তবে সেই অনুশীলনে দলের সঙ্গে যোগ দেননি, সুপারস্টার লি‌ওনেল মেসি।

জর্জ সাম্পা‌ওলির দলের সঙ্গে নেই স্যার্জি‌ও অ্যাগুয়েরো। তাছাড়া ইনজুরির কারণে এই ম্যাচে খেলতে পারছেন না অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া‌ও। তবে অনুশীলন না করলে‌ও স্পেনের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার নেতৃত্বে ঠিকই থাকবেন লি‌ওনেল মেসি।

ইটালিকে ২-০ গোলে হারাল আর্জেন্টিনা

ছিলেন না লিওনেল মেসি ‌ও স্যার্জি‌ও অ্যাগোয়েরো, তবু প্রস্তুতি ম্যাচে ইটালিকে ২-০ গোলে ধরাশায়ী করলো জর্জ সাম্পাওলির দল আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপে উঠতে না পারা ইতালিকে হারিয়ে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শুরু করল আর্জেন্টিনা।

ম্যানচেস্টার সিটির ইতিহাদ স্টেডিয়ামে, শুক্রবার খেলার ৯ মিনিটে এগিয়ে যা‌ওয়ার সুযোগ পায় ইতালি। লরেন্সো ইনসিনিয়ের দারুণ ক্রসে হেড লক্ষ্যে রাখতে পারেননি মর্কো পারোলো। প্রথমার্ধে আর কোনো সুযোগই তৈরি করতে পারেনি লুইজি ডি বিয়াজিওর শিষ্যরা।

গত ১৩ নভেম্বর ঘরের মাঠে বাছাইপর্বের প্লে-অফের ফিরতি লেগে সুইডেনের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে বিশ্বকাপের স্বপ্ন ভাঙে ইতালির। তারপর এই প্রথম মাঠে নামল দলটি। একের পর এক আক্রমণে তাদের কঠিন পরীক্ষায় ফেলেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া।

গোলের দেখা পেতে মরিয়া সাম্পা‌ওলি খেলার ৬৪ মিনিটে ডি মারিয়াকে তুলে দিয়ে দিয়েগো পেরোত্তিকে মাঠে নামান। তবে তাতে‌ও খেলায় কোনো পরিবর্তন আসেনি আর্জেন্টিনার। ৭৬ মিনিটে খেলার ধারার বিপরীতে দলকে এগিয়ে নেন বানেগা।

৮৫ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন লানজিনি। হিগুয়াইনের কাছ থেকে বল পেয়ে জোরালো শটে বল জালে পাঠান ওয়েস্ট হ্যামের এই ফরোয়ার্ড। দুই জন খেলোয়াড় ছিলেন তার সামনে কিন্তু কেউ চ্যালেঞ্জ করেননি। উঁচু শটে বল ধরার কোনো সুযোগই ছিল না বুফ্নের।আগামী মঙ্গলবার আরেক সাবেক চ্যাম্পিয়ন স্পেনের মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা।

প্রীতি ম্যাচে ব্রাজিলের জয়

১৩ মিনিটে তিন গোলে, শুক্রবার রাতে মস্কোয় প্রীতি ম্যাচে এবারের বিশ্বকাপ ফুটবলের স্বাগতিক রাশিয়াকে ৩-০ ব্যবধানে পরাজিত করেছে সবার আগে বিশ্বকাপের মূল পর্বে ওঠা ব্রাজিল। গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর মিরান্দা, কুটিনহো এবং পাওলিনহোর কল্যাণে জয় পায় সেলেসা‌ওরা। চলতি বছর এটি ব্রাজিলের প্রথম জয়।

শুরুতে কিছুটা ছন্দহীন ব্রাজিল দ্রুতই নিজেদের খুঁজে পায়। একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে তারা; কিন্তু শেষটা ভালো হচ্ছিল না। প্রথমার্ধে দুই-তৃতীয়াংশের বেশি সময় বল দখলে রেখেও তাই প্রতিপক্ষের গোলরক্ষককে বড় কোনো পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি তিতের দল।

২৫ মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে কুটিনহোর জোরালো ঠেকিয়ে দিতে কোন সমস্যাই হয়নি রাশিয়ান গোলরক্ষকের। দুই মিনিট পর গোল করার সুযোগ পেয়ে ব্যর্থ হন উইলিয়ান।

বিরতির আগে সেরা সুযোগটি অবশ্য পায় স্বাগতিকরা। ৩৭ মিনিটে ১০ গজ দূর থেকে উড়িয়ে মারেন মিডফিল্ডার আলেকসেই মিরানচুক।

দ্বিতীয়ার্ধের তৃতীয় মিনিটে ডি-বক্সের মধ্যে থেকে পাওলিনহোর নেওয়া শট ঠেকান ইগর আকিনফিভ। চার মিনিট পর ব্রাজিলের আরেকটি প্রচেষ্টা গোলরক্ষকের মাথায় লেগে বাইরে চলে যায়।

৫৩ মিনিটে অপেক্ষা শেষ হয় ব্রাজিলের। ডান দিক থেকে উইলিয়ানের ক্রসে সিলভার হেড ঝাঁপিয়ে ঠেকান গোলরক্ষক; কিন্তু ফিরতি বল জালে জড়িয়ে ব্রাজিলকে ১-০ গোলে এগিয়ে দেন ইন্টার মিলানের ডিফেন্ডার মিরান্দা।

৬২ মিনিটে পেনাল্টি থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন বার্সেলোনার মিডফিল্ডার কুটিনহো। নিজেদের ডি-বক্সে পাওলিনহোকে রাশিয়ান খেলোয়াড় ফাউল করলে, পেনাল্টি পায় অতিথিরা। স্পট কিকে দলকে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেনকুটিনহো।

এই গোলের চার মিনিট পর উইলিয়ানের ক্রসে মাথা ছুইয়ে দলের পক্ষে তৃতীয় গোলটি করেন বার্সেলোনার আরেক মিডফিল্ডার পাওলিনহো।

বিশ্বকাপ ফুটবলের পরবর্তী প্রীতি ম্যাচে আগামী মঙ্গলবার বার্লিনে, ব্রাজিল মুখোমুখি হবে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানির। আর সেন্ট পিটার্সবার্গে একই দিনে রাশিয়া লড়বে ফ্রান্সের বিপক্ষে।

বিশ্বকাপের আগেই ফিরবেন নেইমার

বিশ্বকাপের আগেই ফিরবেন নেইমার বললেন, রোনালদো। বিশ্বকাপ ফুটবলের এই জমজমাট আসরে পর্দা উঠছে আগামী ১৪ জুন। রাশিয়া বিশ্বকাপের বাকি আর মাত্র ৮৩ দিন অথাৎ দুই মাস তেইশ দিন। এরই মাঝে ইনজুরিতে ব্রাজিলের বর্তমান সেরা তারকা নেইমার। তার এই ইনজুরি নিয়ে পুরো দলই চিন্তিত ।বিশ্বকাপের আগেই নেইমার ফিট হয়ে ফেরা নিয়েও রয়েছে শঙ্কা। তবে বিশ্বকাপের আগেই নেইমার ফিট হয়ে ফিরবেন বলে মনে করেন, ব্রাজিল ও রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক ফরোয়ার্ড রোনালদো।

নেইমারের সময় মতো ফেরা নিয়ে তিনি বলেন ‘নেইমারে ইনজুরিতে পড়াটা বড় একটি সমস্যা দলের জন্য। তবে আমি আশাবাদী নেইমার বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগেই দ্রুতই সুস্থ হয়ে উঠবেন এবং বিশ্বকাপের জন্য পুরোপুরি ফিট হয়ে ফিরবেন।

তিনি বলেন ব্রাজিলের বর্তমান দলকে নিয়ে আমি খুব আশাবাদী। তিনি আরো বলেন ‘বিশ্বকাপ খুব কঠিন একটি প্রতিয়োগিতা। আমার মনে হয় কোচ পরিবর্তনের পর আমাদের আনেক উন্নতি হয়েছে। তাছাড়া বিশ্বকাপের জন্য আমাদের দল খুব শক্তিশালী ।আশাকরি, ব্রাজিল আবারো বিশ্বকাপ জিততে পারবে।’

বিশ্বকাপের জার্সি উন্মোচন

নীল নয়, এবারের রাশিয়া বিশ্বকাপে কালো রংয়ের এ্যাওয়ে জার্সিতে মাঠে নামবে আর্জেন্টিনা। তবে লিওনেল মেসিদের মূল জার্সি থাকছে আকাশি-সাদা’ই। রাশিয়া বিশ্বকাপের আগে নিজেদের অ্যাওয়ে ম্যাচের জার্সি উন্মোচন করেছে দলগুলো। জার্সি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান অ্যাডিডাস এখন পর্যন্ত নয়টি দেশের জার্সি উন্মোচন করেছে।

আর্জেন্টিনা দলের এ্যা্ওয়ে জার্সি

তিন মাসের কম সময়ের মধ্যেই রাশিয়ায় শুরু হয়ে যাবে বিশ্বকাপ ফুটবল আসর। এরই মধ্যে দলগুলো নিজেদের তৈরি করে নিচ্ছে। ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে জার্সি প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলোও।

গত বিশ্বকাপের ফাইনালে জার্মানির কাছে হেরে শিরোপা ছোঁয়া হয়নি লি‌ওনেল মেসিদের। ওই ম্যাচে নীল জার্সিতে মাঠে ছিলেন মেসি-হিগুয়েনরা। এবার সেই এ্যাওয়ে জার্সি পাল্টে প্রথমবারের মত মেসিরা মাঠে নামবেন কালো রঙের জার্সিতে। তবে মূল জার্সি থাকছে আকাশী-সাদা’ই। যে জার্সিতে অনেক ইতিহাস জড়িত দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের।

জার্মানির হোম জার্সি

এদিকে, জার্মানির জার্সি থাকবে সবুজাভ, এটি ১৯৯০ সালের বিশ্বকাপ সেমিফাইনালের জার্সির আদলে তৈরি। আশির দশকের শেষ দিকের আদলে স্পেনের অ্যাওয়ে জার্সি বানানো হয়েছে সাদা-নীল।

পর্তুগালের জার্সির রূপান্তর

এ ছাড়া রাশিয়া, বেলজিয়াম, সুইডেন, মেক্সিকো, কলম্বিয়া ও জাপানের অ্যাওয়ে জার্সিও উন্মোচন করা হয়েছে গতকাল বুধবার। এদিকে, নাইকির জার্সিতে খেলবে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল। উন্মোচন করা হয়েছে তাদের জার্সিও।

আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ দলে তরুণ মার্টিনেজ

আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ দলে রেসিং ক্লাবের তরুণ স্ট্রাইকার লটারো মার্টিনেজকে নিয়েছেন কোচ জর্জ সাম্পা‌ওলি। চলতি মাসেই ইটালি ‌ও স্পেনের সঙ্গে প্রীতি ম্যাচ খেলবে আর্জেন্টিনা। সেই দুই ম্যাচকে সামনে রেখে তাকে দলভূক্ত করা হয়েছে।

গতকাল সোমবার যে দল ঘোষণা করেন সাম্পা‌ওলি তাতে ২০ বছরের এই তরুণ স্ট্রাইকার লটারো মার্টিনেজের নাম রয়েছে। রেসিংয়ের হয়ে চলতি মৌসুমে ১৪ ম্যাচে ১২ গোল করেন তিনি। সম্পা‌ওলি ঘোষিত এবারের দলে আর্জেন্টিনায় খেলা যে পাচজন খেলোয়াড় দলভূক্ত হন মার্টিনেজ তাদের একজন। দলে সুযোগ পেয়েছেন, বোকা জুনিয়র্সের উইঙ্গার ক্রিস্টিয়ান পাভুন, পাবলো পেরেজ। এবং অন্য দু’জন হলেন ইন্ডিপেনডেন্ট ক্লাবের ২১ বছর বয়সী রাইটব্যাক ফ্যাব্রিসিয়ো বাস্তুস ‌ও মিডফিল্ডার ম্যাক্সিমিলিয়ানো মেজা।

আগামী ২৩ মার্চ ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টার শহরের ইতিহাদ স্টেডিয়ামে, ইটালির সঙ্গে এবং এর চারদিন পর মাদ্রিদে স্পেনের সঙ্গে প্রীতি ম্যাচে মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা।

একশ’দিনের কাউন্ডডাউন শুরু

রাশিয়ায় ২০১৮ ফুটবল বিশ্বকাপের পর্দা উঠতে আর বাকী মাত্র ১০০ দিন। জমজমাট বিশ্ব শ্রেষ্ঠত্বের আসরের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় আছেন ফুটবলপ্রেমীরা। আগামী ১৪ জুন উদ্বোধনী ম্যাচে সৌদি আরবের মুখোমুখি হবে স্বাগতিক রাশিয়া।

একমাস ব্যাপী এই বিশ্বকাপ আসরের সমাপ্তি ঘটবে ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে। মস্কোর লুজনিকি স্টেডিয়ামে শেষ হাসি কারা হাসবে তার আগেই ব্যস্ত সবাই বিশ্বকাপ শুরুর কাউন্টডাউন নিয়ে।

নকআউট পর্বের মিশনে আগেরবারের চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে ‘এফ’ গ্রুপে লড়তে হবে সুইডেন, মেক্সিকো ও দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে।

‘ডি’ গ্রুপে গতবারের রানার্সআপ লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনার লড়বে আইসল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া ও নাইজেরিয়ার বিপক্ষে। বাছাইপর্ব থেকে সবার আগে মূল পর্বে নাম লেখানো পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল পড়েছে ‘ই’ গ্রুপে। সেলেসাওদের প্রতিপক্ষ সুইজারল্যান্ড, কোস্টারিকা ও সার্বিয়াকে।

আয়োজক দেশ রাশিয়ার বাকি দুই গ্রুপ (এ) সঙ্গী সৌদি আরব, উরুগুয়ে ও মিশর।

দুই জায়ান্ট পর্তুগাল ও স্পেন পড়েছে একই গ্রুপে। ‘বি’ গ্রুপের বাকি দুই দল হলো-মরক্কো ও ইরান। শিরোপার আরেক দাবিদার ফ্রান্সের অবস্থান ‘সি’তে। গ্রুপ পর্বে ফ্রেঞ্চদের প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, পেরু ও ডেনমার্ক।

তারকাসমৃদ্ধ ইংল্যান্ড ও বেলজিয়ামকে একই গ্রুপ (জি) থেকে শেষ ষোলোর টিকিটের লড়াইয়ে নামতে হবে। তাদের চ্যালেঞ্জ জানাবে পানামা ও তিউনিসিয়া। সবশেষ ‘এইচ’ গ্রুপেও প্রতিদ্বন্দ্বিতা উপভোগ করবেন দর্শকরা। পোল্যান্ড, কলম্বিয়া, সেনেগাল ও জাপান- কেউ কাউকে ছেড়ে কথা বলবে না।

কাতারে নয় ২০২২ বিশ্বকাপ ইংল্যান্ডে!

কাতার থেকে সরে যেতে পারে ২০২২ সালের বিশ্বকাপ ফুটবল আসর। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে এমনটাই জানিয়েছেন, আরব আর্জেন্ট নামের এক অ্যাকাউন্টধারী। তিনি জার্মান সূত্রের উল্লেখ করে জানান, কাতারে বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য অন্য সংগঠণগুলোর মধ্যে আন্তরিকতার অভাব রয়েছে।

এতে করে কাতার আয়োজক হিসেবে তাদের নাম প্রত্যাহার করতে পারে। তবে ইংল্যান্ড কিংবা যুক্তরাষ্ট্র সানন্দে বিশ্বকাপ আয়োজন করার প্রস্তাব দিতে পারে। এই দুটি দেশ ২০২২ সালে বিশ্বকাপ আয়োজন করার জন্য মুখিয়ে আছে।

এরআগে, ২০১৮ এবং ২০২২ সালে বিশ্বকাপের আয়োজক হতে চেয়ে‌ও ব্যর্থ হয়েছে ইংল্যান্ড। ভোটাভুটিতে প্রথমে রাশিয়া এবং পরে কাতারের কাছে পরাজিত হয় ১৯৬৬ সালের আয়োজক ইংল্যান্ড।

সেলফি স্টিক নিষিদ্ধ

রাশিয়া বিশ্বকাপে সেলফি স্টিক নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সেলফি স্টিক এবং ট্রাইপড দিয়ে অন্যের ‌ওপর আক্রমণ‌ও করা যায়। তাই সতর্কতা হিসেবে এই দুটোকে স্টেডিয়ামের ভিতরে নিষিদ্ধ করেছে ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা।

সেলফি স্টিকে ছবি তোলা এখন বিশ্বজুড়ে একটি জনপ্রিয় বিষয়ে পরিণত হয়েছে। কিন্তু ফিফা ভাবছে অন্যটা। তারা ভাবছে কোনো কারণে যদি দশর্ক-সমর্থকদের মধ্যে স্টেডিয়ামে ঝগড়া-বিবাদ হয়, তবে তারা এই স্টিক/ট্রাইপড অস্ত্র হিসেবে কাজে লাগাতে পারবে। তাই রাশিয়া বিশ্বকাপে এই দুটোকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

বিশ্বকাপ ট্রফি নিউগিনিতে

রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলে ট্রফি এখন পাপুয়া নিউগিনিতে। বিশ্বকাপের আগে ফিফার এই ট্রফিটি কোমল পানিয় প্রতিষ্ঠান কোকাকোলার সৌজন্যে বিশ্ব ভ্রমণে বের হয়। উদ্দেশ্য ফুটবলের নতুন জোয়ার আনা। আর খেলাটির প্রতি মানুষের আকর্ষণ আরো বাড়িয়ে তোলা।

তারই অংশ হিসেবে ফিফা বিশ্বকাপ ট্রফি এখন পৌছেছে পাপুয়া নিউগিনিতে। ওসেনানিয়া অঞ্চলের এই দেশটিতে এবারই প্রথম এলো বিশ্বকাপ ট্রফি। তাতে দারুণ আলোড়ন শুরু হয়েছে ট্রফিটি দেখার জন্য। অবশ্য ২০১২ সালে ফিফা অনূর্ধ্ব-২০ নারী বিশ্বকাপের আয়োজন করেছিল পাপুয়া নিউগিনি।

নিউগিনিতে দুইদিন থাকার পর বিশ্বকাপ ট্রফি আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি আসবে পাকিস্তানের লাহোরে।

রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকিট

বিশ্বকাপ ফুটবল মানেই অন্য এক উন্মাদনা। রাত জেগে ফুটবল খেলা উপভ‌ওগ করা। আর যাদের সামর্থ আছে তারা মাঠে গিযেই খেলা উপভোগ করেন। এবার রাশিয়া বিশ্বকাপের খেলা দেখার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে ৪৯ লাখ ৫ হাজার ১৬৯ টি টিকিটের জন্য আবেদন করা হয়েছে জানুয়ারি মাসের শেষ দিন পর্যন্ত।

গত ৫ ডিসেম্বর ২০১৭ থেকে জানুয়ারি ২০১৮ পর্যন্ত অনলাইনে টিকিটের জন্য আবেদন করা হয়। দিনকে দিন ফিফা বিশ্বকাপের টিকিটের প্রত্যাশা বাড়ছে। এই হিসেবে শীর্ষ দল দেশের মধ্য বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি ৩,৩৮,৪১৪ টি, আর্জেন্টিনা ১,৮৬,০০৫ টি, মেক্সিকো ১,৫৪,৬১১ টি, ব্রাজিল ১,৪০,৮৪৮ টি, পোল্যান্ড ১,২৮,৭৩৬ টি, স্পেন ১,১০,৬৪৯ টি, পেরু ১,০০,২৫৬ টি, রাশিয়া ২৫,০৩,৯৫৭ টি, কলম্বিয়া ৮৭,৭৮৬ টি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ৮৭,০৫২ টি এবং নেদারল্যান্ডস ৭১,০৯৬ টি টিকিটের জন্য আবেদন করেছে। অর্থাত মোট টিকিটের ৪৯ শতাংশ টিকিটের চাহিদা জানিয়েছে এই দেশগুলো।

এদিকে, রাশিয়া বিশ্বকাপের দ্বিতীয় পর্যায়ের টিকিট বিক্রি শুরু হবে ১৩ মার্চ থেকে। আগে আসলে আগে পাবেন ভিত্তিতে এ সময় টিকিট দেয়া হবে। তবে FIFA.com/tickets এই ঠিকানায় অনলাইনে‌ও টিকিট কেনা যাবে। সেক্ষেত্রে ফিফার অফিসিয়াল পেমেন্ট পার্টনার ‘ভিসা’র মাধ্যমে টিকিট কেনা লাগবে।

বিশ্বকাপের স্টেডিয়াম ধ্বংসের ভয় রাশিয়ার

বিশ্বকাপ ফুটবলের জন্য তৈরি করা স্টেডিয়াম ধ্বংস হয়ে যা‌ওয়ার ভয়ে ভীত হয়ে পড়েছে রাশিয়া সরকার। এই বছর বিশ্বকাপ চলাকালে স্টেডিয়ামে পঙ্গপালরা মহামারী আকারে ছড়িযে পড়তে পারে। এবং সেটা হলে স্টেডিয়াম ধ্বংস হয়ে যা‌ওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আজ বুধবার এমনটাই জানিয়েছে, রাশিয়ান সরকার।

নিউইয়র্ক পোস্ট জানিয়েছ, রাশিয়ার কৃষি মন্ত্রণালয়ের উদ্ভিদ সংরক্ষণের তত্ত্বাবধায়ক পোয়েট চেমেমারভ বলেছেন, দক্ষিণ রাশিয়ায় ফসল তোলার প্রায়শই পঙ্গপালের আক্রমণের শিকার হতে হয়। পঙ্গপালেরা বিশ্বকাপের খেলা চলাকালে স্টেডিয়ামগুলোতে‌ও আসতে পারে। তিনি বলেন, `আমরা পঙ্গপালদের মোকাবেলা করতে ব্যবস্থা নিযেছি। কিন্তু এই বছর ভয় পাচ্ছি যে পঙ্গপালেরা ফুটবলের সবুজ স্টেডিয়ামগুলোতে‌ও হামলা চালাতে পারে। যদি তারা উড়ে যায়, তবে মাঠে খেলা চলাকালে এমনটা হলে সমস্যায়ই পড়তে হবে।’

রাশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলের ভলগোগ্রাদে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে তিউনিসিয়া-ইংল্যান্ড এবং পোল্যান্ড-জাপানের মধ্যকার খেলা রয়েছে।

বিশ্বকাপে ভিএআর সিস্টেম!

বিশ্বকাপকে আর‌ও ত্রুটিমুক্ত করতে যন্ত্রের সাহায্য নিতে পারে বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা-ফিফা। আর এটা হতে পারে রাশিয়া বিশ্বকাপেই। তবে ভিডি‌ও অ্যাসিসটেন্ট রেফারি-ভিএআর ব্যবহারে এখন‌ও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি ফিফা।

তবে ফুটবল খেলাকে ত্রুটিমুক্ত করতে ২০১৬ সালের মার্চ মাস থেকেই বিভিন্ন টুর্নামেন্টে পরীক্ষামূলকভাবে ভিএআর ব্যবহার করে আসছে ফিফা। এ পর্যন্ত ২০টি টুর্নামেন্টের ৮০০ ম্যাচে এই পদ্ধতি ব্যবহৃত হয়েছে। তবে এই ব্যবহার নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

শেষ পর্যন্ত রাশিয়া বিশ্বকাপে ভিএআর সিস্টেম থাকবে কিনা সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে আগামী ৩ মার্চের সভায়।

সোয়া ২৩ কোটি টাকা বোনাস কোরিয়ান ফুটবল দলকে

রাশিয়া বিশ্বকাপে চূড়ান্ত পর্বে জায়গা করে নে‌ওয়ার জন্য দলের খেলোয়াড়দের আড়াই শ’কোটি ‌ওন অর্থ বোনাস দেবে কোরিয়ান ফুটবল ফেডারেশন। বাংলাদেশী মুদ্রায় যার পরিমান সোয়া ২৩ কোটি টাকা।

এশিয়ান বাছাই পর্বের শেষ রাউন্ডের ১০ ম্যাচে কোরিয়া দলের হয়ে খেলা ফুটবলার এবং কোচিং স্টাফদের মধ্য এই অর্থ ভাগ করে দেয়া হবে। দলে তাদের কন্ট্রিবিউশন এবং দেশের প্রতি ভালোবাসার স্বীকৃতি হিসেবে এই বোনাস দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার ফুটবল ফেডারেশন। ২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে উন্নীত দলের চেয়ে এবার কিছুটা বেশি বোনাস দেয়া হয়েছে। সেবার দেয়া হয়েছিলো দুই শ’কোটি ‌ওন।

ব্রাজিল দলে এখন‌ও জায়গা ফাঁকা

ব্রাজিল ফুটবল দলে এখন‌ও জায়গা খালি রয়েছে। এমনটাই জানিয়েছেন দলের কোচ, তিতে। আগামী বছর রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলতে যা‌ওয়া ব্রাজিল দলে এখন‌ও বেশ কয়েকটি পজিশনে খেলোয়াড় প্রয়োজন। বলেছেন ব্রাজিলয়ান কোচ আদেনর বাচ্চি। অবশ্য তিনি তিতে নামেই সবচেয়ে বেশি পরিচিত।

গতকাল বৃহস্পতিবার তিতে এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, রাশিয়া বিশ্বকাপগামী ব্রাজিল দলে এখন‌ও বেশ কয়েকটি পজিশনে খেলোয়াড় নেয়া বাকী আছে। ছয় থেকে আটটি পজিশনে পুরণ হয়ে গেছে। তবে বাকী স্থানে এখন‌ও খেলোয়াড় প্রয়োজন তার।

ব্রাজিলের সাম্প্রতিক খেলা বিবেচনায় ইতোমধ্যেই দলে জায়গা নিশ্চিত করেছেন, গ্যাব্রিয়েল জেসুস ‌ও রবার্তো ফিরমিনো। বিশ্বকাপে খেলতে যা‌ওয়ার আগে ব্রাজিল দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে। আগামী ২৩ মার্চ মস্কোতে খেলবে স্বাগতিক রাশিয়ার বিপক্ষে। আর এর চারদিন পর বার্লিনে খেলবে জার্মানির সঙ্গে।

পোল্যান্ডের সঙ্গে প্রীতি ম্যাচ খেলবে নাইজেরিয়া

বিশ্বকাপ শুরুর আগে প্রীতি ম্যাচ খেলে নিজেদেরকে ঝালিয়ে নিতে চাইছে দলগুলো। তেমনি আফ্রিকান `সুপার ঈগল’ নাইজেরিয়া‌ও নিজেদের পরখ করতে আগামী ২৩ মার্চ প্রীতি ম্যাচে মুখোমুখি হবে পোল্যান্ডের।

রাশিয়া বিশ্বকাপে `ডি’ গ্রুপে নাইজেরিয়ার প্রতিপক্ষ আর্জেন্টিনা, ক্রোয়েশিয়া ‌ও আইসল্যান্ড। আর `এইচ’ গ্রুপের দল পোল্যান্ডের সঙ্গে আছে সেনেগাল, কলাম্বিয়া ‌ও জাপান। খেলাটি হবে পোল্যান্ডে। তবে ভেন্যু এখনো ঠিক হয়নি। ‌ওয়ারশ’ কিংবা চুরজোতে হতে পারে খেলাটি।

বিশ্বকাপের আগে ৫টি প্রীতি ম্যাচ খেলবে ফ্রান্স

রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য নিজেদেরকে ভালো মতো প্রস্তুত করতে উঠেপড়ে লেগেছে ফ্রান্স। আগামী বছর বিশ্বকাপ শুরুর আগে তারা পাচটি প্রীতি ম্যাচ খেলবে। এর মধ্যে মার্চে তারা বিশ্বকাপের স্বাগতিক রাশিয়ার সঙ্গে‌ও একটি ম্যাচ খেলবে। বৃহস্পতিবার ফ্রান্স ফুটবল এ কথা জানিয়েছে।

দিদিয়ের দেশামের দল আগামী ২৩ মার্চ শুক্রবার স্টেড ডি ফ্রান্সে কলম্বিয়াকে আতিথ্য দেবে। আগামী ২৭ মার্চ রাশিয়ার সঙ্গে একটি প্রীতি ম্যাচে অংশ নিতে তারা ফ্রান্স ছাড়বে। তবে রাশিয়া-ফ্রান্সের মধ্যকার খেলাটি কোথায় হবে এখন‌ও তা ঠিক হয়নি। এরপরের দুই সপ্তাহের মধ্যে তিনটি ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খলবে ফ্রান্স। তারপর তারা বিশ্বকাপে অংশ নিতে রাশিয়ার উদ্দেশ্য দেশ ছাড়বে। আগামী ১৪ জুন থেকে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুতে শুরু হবে বিশ্বকাপ ফুটবল আসর।

আগামী ২৮ মে স্টেড ডি ফ্রান্সে এক প্রীতি ম্যাচ খেলবে ফ্রান্স। তবে তাদের প্রতিপক্ষ এখন‌ও ঠিক হয়নি। ১ জুন, নিসে ফ্রান্সের প্রতিপক্ষ হবে ইটালি। আর ৯ জুন লি‌ও-তে খেলবে তারা যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে।

রাশিয়া বিশ্বকাপের পর মেসি’র অবসর!

রাশিয়া বিশ্বকাপের পর আবার অবসরে যাবেন ফুটবলের জীবন্ত কিংবদন্তি আর্জেন্টিনা ‌ও বার্সেলোনার মহাতারকা লি‌ওনেল মেসি। জাতীয় দল থেকে অবসর নিলে‌ও ক্লাব ফুটবল তিনি ঠিকই চালিয়ে যাবেন। এ ব্যাপারে তিনি সতীর্থ হ্যাভিয়ার মাসেরানোর সঙ্গে আলোচনা‌ও করেছেন বলে জানিয়েছে, আর্জেন্টিনার স্পোর্টস চ্যানেল টাই স্পোর্টস (TyC Sports)।

অবশ্য ৩০ বছর বয়সী মেসি জানান, রাশিয়ায় দল যদি খারাপ পারফর্ম করে তবে তিনি আর জাতীয় দলে খেলতে চান না। `দল যদি রাশিয়ায় খারাপ খেলে, তবে সেটা সবার জন্যই হবে হতাশার।’ তিনি বলেন, `নিজের হতাশাকে আর বাড়াতে চাই না।’

এর আগে, ২০১৬ সালে কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির কাছে পরাজয়ের পর জাতীয় দলকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় জানিয়েছিলেন লি‌ওনেল মেসি। তবে দুই মাস পর আবার ফেরেন তিনি আর্জেন্টিনার জার্সিতে।

অস্ট্রেলিয়ার কোচ হতে চান এরিকসন

ক্লিন্সম্যানের পর এবার অস্ট্রেলিয়া ফুটবল দলের কোচের দায়িত্ব চাইছেন সভেন গেরান এরিকসন। ইংল্যান্ড ‌ও ল্যাজি‌ও-র সাবেক বস এরিকসন এ ব্যাপারে নিজের আগ্রহের কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, `হ্যা, আমি অজিদের কোচ হ‌ওয়ার ব্যাপারে আগ্রহী।’

এরিকসন জানান, আমি সকারুদের কিছু খেলা দেখেছি। সবশেষ হন্ডুরাসের সঙ্গের ম্যাচটি‌ও দেখেছি আমি। কিন্তু পস্তেগগ্লুর পদত্যাগে আমি মর্মাহত হয়েছি। এই লোকটিই তো অস্ট্রেলিয়াকে বিশ্বকাপের মূল পর্বে তুললো। কিন্তু এটাই জীবন।

অস্ট্রেলিয়ার দায়িত্ব পেলে এটা হবে এরিকসনের চতুর্থ বিশ্বকাপ অভিযাত্রা। এরআগে তিনি ইংল্যান্ডের কোচ হিসেবে ২০০২ ‌ও ২০০৬ এবং আইভোরি কোস্টের কোচ হিসেবে ২০১০ সালে বিশ্বকাপে কোনো দলের কোচের দায়িত্ব পালন করেন।

৬৯ বছর বয়সী সুইডিস এরিকসন বলেন, গ্রুপ সি থেকে ফ্রান্সের শীর্ষস্থানে থাকার সম্ভাবনা অনেক বেশি। তবে গ্রুপের অন্য দুই দল পেরু ‌ও ডেনমার্ককে টপকে শীর্ষ ১৬-তে ‌ওঠা অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে অসম্ভব কিছু নয়।

বিশ্বকাপের টিকিট বিক্রি শুরু আবার

আজ থেকে রাশিয়া বিশ্বকাপের ড্র আবার শুরু হয়েছে। বিশ্বকাপের ড্রতে জানানো হয়েছিলো ৭ লাখ ৪২ হাজার ৭৬০ টি টিকিট বিক্রি হয়ছে প্রথম পর্বে। এই পর্বের টিকিট বিক্রয় করা হয়ছিলো ২৮ নভেম্বর পর্যন্ত্।

ফিফার ওয়েবসাইটে পৃথিবীর যেকোনো প্রান্ত থেকে এই টিকিটের জন্য আবেদন করা যাবে। নির্দিষ্ট পরিমাণের বেশি আবেদন পড়লে ‘র‌্যান্ডম’ পদ্ধতিতে বাছাই হবে। ৫ থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত করা যাবে এ আবেদন। ১৩ মার্চ থেকে ৩ এপ্রিল পর্যন্ত বেশ কিছু টিকিট আবার বিক্রি হবে ‘আগে এলে আগে পাবেন’ ভিত্তিতে।

ব্রাজিল ফুটবলের সালতামামি

২০১৪ বিশ্বকাপের দু:সময়টা বেশ ভালোভাবেই কাটিয়ে উঠেছে ব্রাজিল। ২০১৭ সালে তাদের জয়ের রেকর্ড বেশ দারুণ, আশা জাগানিয়া।

সব মিলিয়ে ১১টি ম্যাচ খেলেছে ব্রাজিল জাতীয় দল। তার মধ্যে সাতটিতে জিতেছে সেলেসা‌ওরা। তিনটি ড্র করেছে। আর মাত্র একটি ম্যাচে পরাজিত হয়েছে। এই সময়ে কোচ তিতের দল প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠিয়েছে ২১ বার। আর মাত্র চারটি গোল হজম করতে হয় তাদের।

এই খেলার মধ্যে চার ম্যাচ হাতে রেখেই সবার আগে রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকিট‌ও নিশ্চিত করে নেইমারের দল। সেই সঙ্গে ল্যাটিন আমেরিকা অঞ্চল থেকে শীর্ষ দল হিসেবেই বিশ্বকাপে নাম লেখায় ব্রাজিল।

বিশ্বকাপ ফুটবলের অ্যাম্বাসেডর

রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের অ্যাম্বাসেডর করা হয়েছে মডেল ভিক্টোরিয়া লোপিরেভাকে। ৩৩ বছর বয়সী এই মডেল ২০০৩ সালে মিস রাশিয়া নির্বাচিত হয়েছিলেন। বর্তমানে তিনি মডেলিং করছেন এবং টেলিভিশনে নিজের ক্যারিয়ার গড়ে তুলছেন।

বিশ্বকাপের অফিসিয়াল অ্যাম্বাসেডর হিসেবে নিজের জন্ম শহর রোস্তভেকে বিশ্বের মাঝে তুলে ধরার পাশাপাশি রাশিয়াকে‌ও তুলে ধরার কাজ করতে হবে। রাশিয়ার লাইফ স্টাইল, সুন্দর পরিবেশ এবং খেলাধুলা নিয়ে‌ও কাজ করার কথা ভিক্টোরিয়া লোপিরেভার।

এই সব কাজের পাশাপাশি ভিক্টোরিয়া লোপিরেভা শিশুদের নিয়ে বিশ্বকাপের একটি স্পেশাল অনুষ্ঠান‌ও করবেন। আর এই অনুষ্ঠানটিতে উপস্থিত থাকবেন রাশিয়ার বিখ্যাত সব খেলোয়াড়রা।

অস্ট্রেলিয়ার কোচ হতে চান ক্লিন্সম্যান

অস্ট্রেলিয়া ফুটবল দলের কোচ হতে চাইছেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক কোচ জার্গেন ক্লিন্সম্যান। অ্যাডিলেইডের এক পত্রিকা আজ রবিবার জানিয়েছে যে অস্ট্রেলিয়ার খালি হ‌ওয়া কোচের পদে যোগ দে‌ওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন ক্নিন্সম্যান।

একদিন আগেই অস্ট্রেলিয়া দলের কোচের পদ থেকে ইস্তফা দেন এনজি পোস্তেকগ্লু। তাতে কোচ শূন্য অবস্থায় এখন সকারুরা। এদিকে, গত ২০১৬ সালের নভেম্বর থেকে চাকুরি হারা ক্লিন্সম্যান। তাই তিনি এবার এশিয়ান চ্যাম্পিয়নদের কোচের দায়িত্ব পেতে চাইছেন।

সংবাদ মাধ্যম জানায়, নিজের আগ্রহ প্রকাশ করে ক্লিন্সম্যান এক অজি বন্ধুকে ফোন করে জানতে চেয়েছেন, অস্ট্রেলিয়া লিগ এবং সকারুদের সম্পর্কে।

দ্বিতীয় রাউন্ড ‌ওঠার ইচ্ছা কোরিয়ার

রাশিয়া বিশ্বকাপের দ্বিতীয রাউন্ডে ‌ওঠার সম্ভাবনা রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার। মস্কোতে বিশ্বকাপের ড্র অনুষ্ঠানে যোগ দেয়া শেষে রবিবার দেশে ফিরে এ কথা বলেন দক্ষিণ কোরিয়ার কোচ শিন তায়ে-ইয়ং। তিনি জানান, কঠিণ গ্রুপে পড়লে‌ও শেষ ১৬ তে ‌ওঠা একেবারে কঠিণ কিছু না।

`এফ’ গ্রুপে দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে আছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানি, মেক্সিকো এবং ইউরোপ কোয়ালিফাইং রাউন্ডের প্লে অফে ইটালিকে বিদায় করে রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকিট পা‌ওয়া সুইডেন। এটা কোরিয়ার ১০ম বারের মতো বিশ্বকাপ খেলা। শিন মনে করেন, চারবারের চ্যাম্পিযন ‌ও বর্তমানে বিশ্বসেরা দল জার্মানির সঙ্গে পেরে ‌ওঠা কঠিণ হবে। তবে মেক্সিকো এবং সুইডেনের বিরুদ্ধে সুযোগ আছে তাদের ভালো করার।

তিনি বলেন, `এটা খুবই সত্যি কথা যে জার্মানি আমাদের জন্য অনেক শক্ত প্রতিপক্ষ। তারা এখন বিশ্বসেরা দল। তবে মেক্সিকো এবং সুইডেনের বিপক্ষে আমাদের বেশ সুযোগ রয়েছে।’ ইনচন বিমানবন্দরে শিন তায়ে-ইয়ং বলেন, `আমি জানি আমাদের সুযোগটা খুব বেশি নয়, কিন্তু আমাদের প্রস্তুতি ভালো। আশা করছি আমরা পারবো (শেষ ১৬ তে উঠতে)।

মেসি-নেইমারের ফাইনাল চান সাম্পা‌ওলি

আগামী বছরের রাশিয়া বিশ্বকাপে স্বপ্নের ফাইনালে লিওনেল মেসি ও নেইমারের দ্বৈরথ দেখতে আশাবাদী আর্জেন্টাইন কোচ জর্জ সাম্পাওলি। সব কিছু ঠিক থাকলে মস্কোতে আগামী বছরের ১৫ জুলাইয়ের অল-ল্যাটিন আমেরিকান বিশ্বকাপ ফাইনালে দেখা হতে পারে মেসির আর্জেন্টিনা ও নেইমারের ব্রাজিলের।

২০১৪ সালের রানার্স-আপ আর্জেন্টিনা আসন্ন এই বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে ডি-গ্রুপ থেকে ক্রোয়েশিয়া, নাইজেরিয়া ও নবাগত আইসল্যান্ডের বিপক্ষে লড়বে। অন্যদিকে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলের গ্রুপ-ই’র প্রতিপক্ষ সার্বিয়া, সুইজারল্যান্ড ও কোস্টারিকা।

ড্র অনুষ্ঠানের পরে সাম্পাওলি তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘আমি নেইমার বনাম মেসির ফাইনালের স্বপ্ন দেখি। এটা সত্যিই অসাধারণ একটি ম্যাচ হবে। আশা করছি আমার এই স্বপ্ন সত্যি হবে।’

বিশ্বকাপের ডেথ গ্রুপ

রাশিয়া বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে কে কার বিপক্ষে খেলবে, সেটা নির্ধারিত হওয়ার পর আর্জেন্টিনাকে সাফল্য এনে দে‌ওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন কোচ জর্জ সাম্পাওলি। অন্যদিকে গ্রুপ নিয়ে ব্রাজিল কোচ তিতের তেমন কোনো ভাবনা নেই।

সাম্পা‌ওলি বলেন, `আর্জেন্টিনার সমর্থকদের একটা কথাই বলতে চাই। আমরা আমাদের আর্জেন্টিনাকে গর্বিত করবো। আমাদের কাছে ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড় আছে। এটা প্লাস পয়েন্ট।’ বিশ্বকাপের ‘ডি’ গ্রুপকে সত্যিকারের গ্রুপ অব ডেথ বলা হচ্ছে। আর্জেন্টিনা ছাড়া‌ও গ্রুপের অন্য তিন দল আইসল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া, নাইজেরিয়া।

নাইজেরিয়াকে বিপজ্জনক উল্লেখ করে সাম্পাওলি বলেন, ‘তাদের নিয়ে আগে থেকে কিছু বলা যায় না। বিপজ্জনক একটা দল।’

ড্র’র পর ম্যারাডোনা বলেছেন, ‘এটা অতটা কঠিন গ্রুপ নয়। আর্জেন্টিনাকে উন্নতি করতে হবে। আমরা যেভাবে খারাপ খেলে আসছি, সেটা করা যাবে না।’

ব্রাজিল খেলবে গ্রুপ ‘ই’তে। তাদের সঙ্গে আছে সুইজারল্যান্ড, কোস্টারিকা এবং সার্বিয়া। গ্রুপিং নিয়ে দলটির কোচের তেমন ভাবনা নেই। ব্রাজিলের প্রধান কোচ তিতে বরং নিজেদের নিয়ে ভাবছেন, ‘গ্রুপ বিন্যাসের চেয়ে নিজেদের গোছানোটা জরুরি। সবসময় দল গোছানোর ব্যাপারটিই আমার মনে রয়েছে। দলের উন্নতির জন্য আমি সবকিছু করবো।’

আর্জেন্টিনা আর‌ও শক্তিশালি হবে: সাম্পা‌ওলি

আর্জেন্টিনার দল নিয়ে ম্যারাডোনার সমালোচনার জবাব দিয়েছেন প্রধান কোচ জর্জ সাম্পা‌ওলি। ২০১৪ সালের রানার্সআপরা ২০১৮ সালের শিরোপা অভিযানের সঠিক পথেই আছে বলে জানান তিনি। সাম্পা‌ওলি জানান, ২০১৮ বিশ্বকাপে আর‌ও বেশি শক্তিশালি এক আর্জেন্টিনাকে দেখা যাবে।

গতকাল শুক্রবার বিশ্বকাপের ড্রতে আর্জেন্টিনার সঙ্গে `ডি’ গ্রুপে আছে ক্রোয়েশিয়া, আইসল্যান্ড ‌ও নাইজেরিয়া। ল্যাটিন আমেরিকা অঞ্চল থেকে খুব ভালো পারফর্ম করতে পারেনি দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। তাই গত জুন মাস থেকে দলের প্রধান কোচের দায়িত্বে থাকা জর্জ সাম্পা‌ওলির সমালোচনা করেন দিয়েগো ম্যারাডোনা। তিনি বলেন, সেভিয়ার সাবেক কোচ জর্জ সাম্পা‌ওলি আলবেসেলেস্তেদের পথের দিশারী হয়ে উঠতে ব্যর্থ হয়েছেন।

রাশিয়া বিশ্বকাপের সময়সূচি

গত দুটো ইউরো চ্যাম্পিয়ন স্পেন ‌ও পর্তুগাল পড়েছে একই গ্রুপে। এরআগে কখন‌ও এমনটা হয়নি। তবে উদ্বোধনী ম্যাচে আগামী ১৪ জুন স্বাগতিক রাশিয়ার প্রতিপক্ষ এশিয়ান প্রতিনিধি সৌদি আরব।

রাশিয়া বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব

তারিখ ও বার              সময়         গ্রুপ            ম্যাচ                        স্থান

১৪ জুন, বৃহস্পতিবার       রাত ৯টা         এ         রাশিয়া-সৌদি আরব         মস্কো

১৫ জুন, শুক্রবার        সন্ধ্যা ৬টা          এ        মিশর-উরুগুয়ে               একাতেরিনবুর্গ

১৫ জুন, শুক্রবার       রাত ৯টা            বি       মরক্কো-ইরান                    সেন্ট পিটার্সবার্গ

১৫ জুন, শুক্রবার       সন্ধ্যা ১২টা         বি         পর্তুগাল-স্পেন                সোচি

১৬ জুন, শনিবার      বিকাল ৪টা          সি      ফ্রান্স-অস্ট্রেলিয়া             কাজান

১৬ জুন, শনিবার       সন্ধ্যা ৭টা        ডি       আর্জেন্টিনা-আইসল্যান্ড        মস্কো

১৬ জুন, শনিবার       রাত ১০টা     সি        পেরু-ডেনমার্ক               সারানস্ক

১৬ জুন, শনিবার       রাত ১টা      ডি         ক্রোয়েশিয়া-নাইজেরিয়া          কালিনিনগ্রাদ

১৭ জুন, রোববার     সন্ধ্যা ৬টা       ই             কোস্টারিকা-সার্বিয়া           সামারা

১৭ জুন, রোববার        রাত ৯টা     এফ       জার্মানি-মেক্সিকো                   মস্কো

১৭ জুন, রোববার     রাত ১২টা         ই        ব্রাজিল-সুইজারল্যান্ড            রস্তোভ

১৮ জুন, সোমবার    সন্ধ্যা ৬টা    এফ          সুইডেন-দক্ষিণ কোরিয়া      নিজনি নভগোরোদ

১৮ জুন, সোমবার     রাত ৯টা     জি        বেলজিয়াম-পানামা           সোচি

১৮ জুন, সোমবার   রাত ১২টা     জি        তিউনিশিয়া-ইংল্যান্ড        ভলগোগ্রাদ

১৯ জুন, মঙ্গলবার     সন্ধ্যা ৬টা     এইচ      পোল্যান্ড-সেনেগাল         মস্কো

১৯ জুন, মঙ্গলবার    রাত ৯টা     এইচ      কলম্বিয়া-জাপান          সারানস্ক

১৯ জুন, মঙ্গলবার      রাত ১২টা        এ        রাশিয়া-মিশর    সেন্ট পিটার্সবার্গ

২০ জুন, বুধবার       সন্ধ্যা ৬টা       বি        পর্তুগাল-মরক্কো        মস্কো

২০ জুন, বুধবার       রাত ৯টা       এ          উরুগুয়ে-সৌদি আরব       রস্তোভ

২০ জুন, বুধবার         রাত ১২টা        বি         ইরান-স্পেন           কাজান

২১ জুন, বৃহস্পতিবার    রাত ৯টা         সি          ফ্রান্স-পেরু        একাতেরিনবুর্গ

২১ জুন, বৃহস্পতিবার      সন্ধ্যা ৬টা         সি        ডেনমার্ক-অস্ট্রেলিয়া       সামারা

২১ জুন, বৃহস্পতিবার        রাত ১২টা       ডি        আর্জেন্টিনা-ক্রোয়েশিয়া        নিজনি নভগোরোদ

২২ জুন, শুক্রবার          সন্ধ্যা ৬টা        ই        ব্রাজিল-কোস্টারিকা           সেন্ট পিটার্সবার্গ

২২ জুন, শুক্রবার            রাত ৯টা         ডি      নাইজেরিয়া-আইসল্যান্ড        ভলগোগ্রাদ

২২ জুন, শুক্রবার          রাত ১২টা         ই            সার্বিয়া-সুইজারল্যান্ড      কালিনিনগ্রাদ

২৩ জুন, শনিবার         সন্ধ্যা ৬টা        জি         বেলজিয়াম-তিউনিশিয়া          মস্কো

২৩ জুন, শনিবার        রাত ৯টা      এফ             জার্মানি-সুইডেন              সোচি

২৩ জুন, শনিবার        রাত ১২টা       এফ          দক্ষিণ কোরিয়া-মেক্সিকো       রস্তোভ

২৪ জুন, রোববার      সন্ধ্যা ৬টা       জি        ইংল্যান্ড-পানামা         নিজনি নভগোরোদ

২৪ জুন, রোববার      রাত ৯টা      এইচ        জাপান-সেনেগাল      একাতেরিনবুর্গ

২৪ জুন, রোববার      রাত ১২টা       এইচ      পোল্যান্ড-কলম্বিয়া       কাজান

২৫ জুন, সোমবার      রাত ৮টা     এ         উরুগুয়ে-রাশিয়া          সামারা

২৫ জুন, সোমবার     রাত ৮টা      এ       সৌদি আরব-মিশর     ভলগোগ্রাদ

২৫ জুন, সোমবার    রাত ১২টা       বি       ইরান-পর্তুগাল      সারানস্ক

২৫ জুন, সোমবার    রাত ১২টা    বি      স্পেন-মরক্কো          কালিনিনগ্রাদ

২৬ জুন, মঙ্গলবার      রাত ৮টা     সি        ডেনমার্ক-ফ্রান্স         মস্কো

২৬ জুন, মঙ্গলবার      রাত ৮টা       সি       অস্ট্রেলিয়া-পেরু        সোচি

২৬ জুন, মঙ্গলবার      রাত ১২টা       ডি       নাইজেরিয়া-আর্জেন্টিনা       সেন্ট পিটার্সবার্গ

২৬ জুন, মঙ্গলবার    রাত ১২টা          ডি        আইসল্যান্ড-ক্রোয়েশিয়া        রস্তোভ

২৭ জুন, বুধবার          রাত ৮টা        এফ       দক্ষিণ কোরিয়া-জার্মানি        কাজান

২৭ জুন, বুধবার        রাত ৮টা         এফ             মেক্সিকো-সুইডেন          একাতেরিনবুর্গ

২৭ জুন, বুধবার          রাত ১২টা         ই        সার্বিয়া-ব্রাজিল       মস্কো

২৭ জুন, বুধবার       রাত ১২টা     ই             সুইজারল্যান্ড-কোস্টারিকা        নিজনি নভগোরোদ

২৮ জুন, বৃহস্পতিবার       রাত ৮টা      এইচ       জাপান-পোল্যান্ড        ভলগোগ্রাদ

২৮ জুন, বৃহস্পতিবার        রাত ৮টা     এইচ       সেনেগাল-কলম্বিয়া       সামারা

২৮ জুন, বৃহস্পতিবার    রাত ১২টা       জি       ইংল্যান্ড-বেলজিয়াম       কালিনিনগ্রাদ

২৮ জুন, বৃহস্পতিবার       রাত ১২টা      জি         পানামা-তিউনিশিয়া         সারানস্ক

শেষ ষোলো

৩০ জুন, শনিবার            রাত ৮টা       সি ১-ডি ২                   (ম্যাচ-৫০)            কাজান

৩০ জুন, শনিবার         রাত ১২টা        এ ১-বি ২               (ম্যাচ ৪৯)            সোচি

১ জুলাই, রোববার         রাত ৮টা          বি ১-এ ২          (ম্যাচ ৫১)         মস্কো

১ জুলাই, রোববার          রাত ১২টা        ডি ১-সি ২        (ম্যাচ ৫২)       নিজনি নভগোরোদ

২ জুলাই, সোমবার         রাত ৮টা         ই ১-এফ ২        (ম্যাচ ৫৩)         সামারা

২ জুলাই, সোমবার       রাত ১২টা          জি ১-এইচ ২      (ম্যাচ ৫৪)         রস্তোভ

৩ জুলাই, মঙ্গলবার       রাত ৮টা          এফ ১-ই ২         (ম্যাচ ৫৫)        সেন্ট পিটার্সবার্গ

৩ জুলাই, মঙ্গলবার         রাত ১২টা          এইচ ১-জি ২      (ম্যাচ ৫৬)        মস্কো

কোয়ার্টার-ফাইনাল

৬ জুলাই, শুক্রবার        রাত ৮টা     ম্যাচ ৪৯ বিজয়ী-ম্যাচ ৫০ বিজয়ী      (ম্যাচ-৫৭)        নিজনি নভগোরোদ

৬ জুলাই, শুক্রবার      রাত ১২টা    ম্যাচ ৫৩ বিজয়ী-ম্যাচ ৫৪ বিজয়ী     (ম্যাচ-৫৮)      কাজান

৭ জুলাই, শনিবার     রাত ৮টা       ম্যাচ ৫৫ বিজয়ী-ম্যাচ ৫৬ বিজয়ী   (ম্যাচ-৬০)     সামারা

৭ জুলাই, শনিবার    রাত ১২টা      ম্যাচ ৫১ বিজয়ী-ম্যাচ ৫২ বিজয়ী      (ম্যাচ-৫৯)      সোচি

সেমি-ফাইনাল

১০ জুলাই, মঙ্গলবার      রাত ১২টা        ম্যাচ ৫৭ বিজয়ী-ম্যাচ ৫৮ বিজয়ী      (ম্যাচ-৬১)    সেন্ট পিটার্সবার্গ

১১ জুলাই, বুধবার      রাত ১২টা      ম্যাচ ৫৯ বিজয়ী-ম্যাচ ৬০ বিজয়ী     (ম্যাচ-৬২)       মস্কো

তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচ

১৪ জুলাই, শনিবার      রাত ৮টা      সেন্ট পিটার্সবার্গ

ফাইনাল

১৫ জুলাই, রোববার        রাত ৯টা         মস্কো

 

তারকাদের মিলনমেলা রাশিয়ায়

ফুটবল বিশ্ব যেনো একই বিন্দুতে মিলেছিলো শুক্রবার। মস্কোর ক্রেমলিনের রাজকীয় ভবনে বিশ্বকাপ ফুটবলের ড্র অনুষ্ঠান নিয়ে বসেছিলো হাজার তারার মেলা। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন‌ও উপস্থিত ছিলেন ঝলমলে এই উতসবে। ছিলেন রোনালদো, পিটার স্মাইকেল ‌ও স্যামুয়েল ইতো-র মতো তারকারা‌ও।

আর্জেন্টাইন সুপারস্টার দিযেগো ম্যারাডোনা উপস্থিত হন বান্ধবী রোচিয়া‌ও অলিভাকে সঙ্গে নিয়ে। লিজেন্ডারি পেলে আসেন হুইল চেয়ারে। পেলেকে ঘিরে তারকা ফুটবলারদের ফটো সেশনে এসে ক্যামেরায় ধরা দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

৩২ দলের এই ড্রতে ছিলেন দিয়েগো ফোরলান, গর্ডন ব্যাঙ্কস, রোনালদিনহো, ক্লারেন্স সির্ডফ, জে ‌ওকোচা, লোথার ম্যাথুস, নোয়ানকা কানু, অ্যানাস্থাসিয়া সেলিয়া-সহ আরো অনেক তারকার উপস্থিতিতে আর‌ও বেশি আকর্ষণীয় হয়ে ‌ওঠে বিশ্বকাপের ড্র অনুষ্ঠান।

আর্জেন্টিনা-নাইজেরিয়া ভাগ্য বিড়ম্বনা

দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনার সাথে একই গ্রুপে পড়েছে নাইজেরিয়া। গ্রুপ ডিতে অন্য দুই দল হলো- আইসল্যান্ড ‌ও ক্রোয়েশিয়া। তবে মজার বিষয় হলো আর্জেন্টিনা আর নাইজেরিয়াকে যেন বিশ্বকাপ ফুটবলে একই গ্রুপে থাকতেই হবে।

এ পর্যন্ত মোট ছয়বার বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেয়েছে নাইজেরিয়া। তারমধ্যে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে একই গ্রুপে পড়েছে তারা পাচবার। আশ্চর্যজনকভাবে আর্জেন্টিনার-নাইজেরিয়া বারবার একই গ্রুপে পড়ছে। তবে এবার রাশিয়া বিশ্বকাপে নাইজেরিয়া জয় পেতে চাইছে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে। বলে রাখা ভালো, গত চার বিশ্বকাপের খেলাতেই নাইজেরিয়াকে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা।

২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপে লি‌ওনেল মেসির জোড়া গোলে নাইজেরিযাকে ৩-২ ব্যবধানে হারিয়েছিলো আর্জেন্টিনা। তাতে শেষ ১৬ রাউন্ডে উন্নীত হ‌ওয়াটা সহজ হয় তাদের। ২০১০ বিশ্বকাপে গ্যাব্রিয়েল হেইঞ্জের কল্যাণে ১-০ গোলে হারিয়েছিলো নাইজেরিয়াকে। ২০০২ বিশ্বকাপে গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতার গোলে নাইজেরিয়াকে পরাজিত করে আর্জেন্টিনা।

আগামী ২৬ জুন সেন্ট পিটার্সবার্গের ক্রিস্টোভস্কি স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে দ’দল।

চেলসি সমর্থকদের পোয়াবারো

রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের ড্র শেষে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দল চেলসির সমর্তকদের পোয়াবারো। `জি’ গ্রুপে ইংল্যান্ডের সঙ্গে আছে বেলজিয়াম, তিউনিসিয়া ‌ও পানামা। আগামী বছরের ২৮ জুন ইংল্যান্ড আর বেলজিয়ামের মধ্যকার ম্যাচটি নিয়ে এক ধরণের উত্তেজনায় ভূগছে চেলসির সমর্থকরা।

সেই ম্যাচে চেলসির সাতজন খেলোয়াড়কে একসঙ্গে মাঠে দেখা যাবে। তবে তারা একসঙ্গে একই দলে নয়, সেই সাত খেলোয়াড়ের চারজন খেলবেন বেলজিয়ামের পক্ষে আর তিনজন খেলবেন ইংল্যান্ডের জার্সি গায়ে। এই ম্যাচকে ঘিরে তাই চেলসি সমর্থকদের মধ্য শুরু হয়ে গেছে অন্য ধরণের এক উত্তেজনা।

বিশ্বকাপ ফুটবলের গ্রুপ চূড়ান্ত

আগেই ঠিক ছিল যে স্বাগতিক রাশিয়া থাকবে ‘এ’ গ্রুপে। এরপর লটারির মাধ্যমে নির্ধারণ করা হয় কোন গ্রুপে কোন দেশ পড়বে। অক্টোবরের ফিফা র‌্যাঙ্কিং অনুযায়ী ড্রর জন্য চারটি পট-এ আটটি করে দল রাখা হয়েছিল।

স্বাগতিক রাশিয়ার সঙ্গে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ সাতটি দল রাখা হয় এক নম্বর পটে। র‌্যাঙ্কিংয়ের পরের আটটি দল পট-২ এ। এভাবে র‌্যাঙ্কিং অনুযায়ী থাকে পরের দুটি পটেও। মোট ৩২ দল মোট আটটি গ্রুপ ভাগ হয়ে লড়বে আগামী বছরের ১৪ জুন থেকে ১৫ জুলাইয়ের বিশ্বকাপে। উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক রাশিয়ার মুখোমুখি হবে সৌদি আরব।

 

 

বিশ্বকাপের আট গ্রুপ:

গ্রুপ এ: রাশিয়া, উরুগুয়ে, মিশর ‌ও সৌদি আরব।

গ্রুপ বি: পর্তুগাল, স্পেন, ইরান ‌ও মরক্কো।

গ্রুপ সি: ফ্রান্স, পেরু, ডেনমার্ক ‌ও অস্ট্রেলিয়া।

গ্রুপ ডি: আর্জেন্টিনা, ক্রোয়েশিয়া, আইসল্যান্ড ‌ও নাইজেরিয়া।

গ্রুপ ই: ব্রাজিল, সুইজারল্যান্ড, কোস্টারিকা ‌ও সার্বিয়া।

গ্রুপ এফ: জার্মানি, মেক্সিকো, সুইডেন ‌ও দক্ষিণ কোরিয়া।

গ্রুপ জি: বেলজিয়াম, ইংল্যান্ড, তিউনিসিয়া ‌ও পানামা।

গ্রুপ এইচ: পোল্যান্ড, কলম্বিয়া, সেনেগাল ‌ও জাপান।

রাশিযায় হবে ইতিহাসের সেরা বিশ্বকাপ

রাশিয়াই হবে বিশ্বকাপ ফুটবলের সেরা আয়োজক। এমনটাই মনে করেন ফিফা সভাপতি ইনফান্তিনো। আর কিছুক্ষণের মধ্যে মস্কোর ক্রেমলিনে হবে বিশ্বকাপ ফুটবলের ড্র অনুষ্ঠান।

আগামী বছরের ১৪ জুন থেকে ১৫ জুলাই পর্যন্ত রাশিয়ার ১১টি শহরে বিশ্বের ৩২টি সেরা দল মুখোমুখি হবে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশীপের দ্বৈরথে। ফিফা সভাপতি ইনফান্তিনো জানান, আমাদের একটি উচ্চাকাঙ্ক্ষি স্বপ্ন রয়েছে, সেটি হলো- রাশিয়ায় ইতিহাসের সেরা বিশ্বকাপ আয়োজন করা। তিনি আর‌ও বলেন, ফুটবলের মধ্যে এক ধরণের ম্যাজিক রয়েছে। সে সবকিছু পাল্টে দিতে পারে।

বেশি আয়ের চেষ্টা রাশিয়া বিশ্বকাপে

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের ড্র অনুষ্ঠান হবে আজ রাতেই। তার আগে অবশ্য ফিফার বিক্রয় সংক্রান্ত কমিটির শীর্ষ ব্যাক্তিরা জানিয়েছেন রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে আর‌ও বেশি আয় করার কথা। যদিও ইতালি এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে উঠতে না পারায় তাদের কোটি কোটি ডলার আয় কমে যাবে।

বিশ্বকাপের প্লেঅফ থেকে ইতালি বাদ পড়ায় ফিফার সঙ্গে তাদের লক্ষ লক্ষ ডলারের সম্প্রচার চুক্তি বাতিলের দিকে। ফিফার সবচেয়ে মূল্যবান বাজারগুলোর মধ্যে রয়েছে ইটালি ‌ও যুক্তরাষ্ট্র। প্রতি বিশ্বকাপে শুধু সম্প্রচার বাবদ২০০ মিলিয়ন ডলার আয় হয়ে থাকে ফিফার। এদিকে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে হতবাক করে দিয়ে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে জায়গা করে নিয়েছে পানামা। তবে এ পর্যন্ত মাত্র ২০টি স্লট বিক্রি হয়েছে রাশিয়া বিশ্বকাপের।

ফিফার বাণিজ্যিক পরিচালক ফিলিপ লে ফ্লক বলেন, সত্যি বলছি যুক্তরাষ্ট্র যে বিশ্বকাপ খেলতে পারবে না সেটা আমরা ভাবতেই পারিনি। এটা আমাদের কাছে প্রত্যাশিত‌ও ছিলোনা। তবে আমেরিকান বিভিন্ন কোম্পানির সঙ্গে নতুন করে ফিফা আবার‌ও বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা অব্যাহত রেখেছে। ফিফার এই কর্মকর্তা আরো জানান, ৩৪টি সম্ভাব্য স্পনসর এখন‌ও হাতে আছে। তাদেরকে কাজে লাগিয়ে ২০১৮ বিশ্বকাপে ৫ দশমিক ৬৬ বিলিয়ন ডলার আয় করার চেষ্টা।

সার্বিয়াকে এড়াতে চায় ক্রোয়েশিয়া

বিশ্বকাপ ফুটবলের যেকোনো দলের সঙ্গে লড়াই করতে প্রস্তুত থাকলে‌ও ড্রতে সার্বিয়াকে এড়াতে চাইছে ক্রোয়েশিয়া। তারা চাইছেনা একই গ্রুপে থাকতে। ক্রোট কোচ জ্লাটকো ডেলিচ বিশ্বকাপের ড্র অনুষ্ঠানের আগে এ কথা জানান।

স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার হ‌ওয়ার পর থেকে দু’দেশের মধ্যে ২০১৪ সালের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে দু’বার মুখোমুখি হয়েছিলো ক্রোয়েশিয়া ‌ও সার্বিয়া। একবার ২-০ গোলে ম্যাচ জেতে, অন্যবার ১-১ ড্র করে ক্রোয়েশিয়া। তবে ডালিচ মনে করেন, শুধু বিশ্বকাপ নয়, যেকোনে টুর্নামেন্টেই সার্বিয়া অনেক শক্ত প্রতিপক্ষ।
গ্রুপ `আই’ থেকে রানার্সআপ হিসেবে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে ‌ওঠে ক্রোয়েশিয়া।

বিশ্বকাপের ড্র আজ

আজ শুক্রবার রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের ড্র অনুষ্ঠান আজ। রাতেই নির্ধারণ হয়ে যাবে বিশ্ব ফুটবলের পরাশক্তি আর্জেন্টিনা কিংবা ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ কারা। অথবা বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকেই বা লড়তে কোন্ কোন্ দলের সঙ্গে।

বিম্বকাপের ড্র অনুষ্ঠানের মূল পর্ব পরিচালনা করবেন ইংল্যান্ডের সাবেক স্ট্রাইকার ‌ও ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপে গোল্ডেন বুট জেতা গ্যারি লিনেকার। সঙ্গে থাকবেন রাশিয়ার ক্রীড়া সাংবাদিক মারিয়া কোমানদনায়া। ইতোমধ্যে আপনারা জেনেছেন, ফিফা রেংকিং অনুযায়ী দলগুলোকে চারটি পটে রাখা হবে। তবে স্বাগতিকতার সুযোগে প্রথম পটে শীর্ষ সাত দলের সঙ্গে থা্কবে রাশিয়া‌ও।

ফিফা জানিয়েছে, ইতোমধ্য প্রথম পর্বে ৭ লাখ ৫০ হাজার টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। আগামী সপ্তাহ থেকে শুরু হবে দ্বিতীয় পর্বের টিকিট বিক্রি করা। তবে বেশির ভাগ টিকিট কিনিছে স্বাগতিক রাশিয়ার সমর্থকরা। বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে উঠতে ব্যর্থ হলে‌ও বেশি টিকিট কেনার তালিকায় আছে যুক্তরাষ্ট্রের নাম‌ও। তাদের পরই আছে, ব্রাজিল, জার্মানি, চীন ‌ও মে র্রশিয়ার রাজধানী মস্কোর ক্রেমলিনের রাজকীয় ভবনে হবে ২০১৮ সালের বিশ্বকাপের ড্র।

Russian fans have acquired the most tickets followed by American supporters even though their team did not qualify for the tournament. Brazil, Germany, China and Mexico are also among the leading nations for purchases, FIFA said.

“We’re happy with the number of tickets we’ve allocated,” Falk Eller, the head of FIFA ticketing, told Reuters.

রাশিয়া বিশ্বকাপের ড্র শুক্রবার

রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের ড্র অনুষ্ঠান হবে শুক্রবার রাতে। চূড়ান্ত পর্বের ৩২টি দল ইতোমধ্যে ঠিক হয়ে গেছে। ২০১৫ সালের ১২ মার্চ বাছাই পর্বের প্রথম ম্যাচ খেলে পূর্ব তিমুর। আর শেষে ম্যাচ খেলে পেরু ২০১৭ সালের ১৫ নভেম্বর। এবারই প্রথম রেকর্ড ২০৯টি দল বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের খেলায় অংশ নিয়েছিলো।

কখন বিশ্বকাপের ড্র

আগামী ১ ডিসেম্বর শুক্রবার, বাংলাদেশ সময় রাত আটটায় হবে রাশিয়া বিশ্বকাপের ড্র অনুষ্ঠান।

কোথায় হবে বিশ্বকাপের ড্র

রাশিয়ার রাজধানী মস্কোর ক্রেমলিনের রাজকীয় ভবনে হবে এবারের বিশ্বকাপের ড্র।

কিভাবে হবে ড্র

৩২টি দলকে রাখা হবে চারটি আলাদা পটে। প্রতি পটে থাকবে আটটি করে দল। প্রথম পটে থাকবে স্বাগতিক রাশিয়া এবং ফিফা র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ সাতটি দল। এভাবে পট দুই, তিন এবং চারে রাখা হবে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে ‌ওঠা দলগুলোকে।

চমক নিয়ে তৈরি হচ্ছে কাতার

আগামী বছরের জুনে রাশিয়ায় শুরু হবে বিশ্বকাপ ফুটবলের লড়াই। ঠিক হয়ে গেছে চূড়ান্ত পর্বের ৩২ দল। আগামী ১ ডিসেম্বর হবে রাশিয়া বিশ্বকাপের ড্র অনুষ্ঠান। আর ২০২২ সালে কাতারে বসবে বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর। সেই আসরকে সামনে রেখে প্রস্তুতি শুরু করেছে কাতার। নির্মাণ করছে নতুন নতুন স্টেডিযাম। তেমনি এক স্টেডিয়াম হলো `রাস আবু আবুউদ স্টেডিয়াম’।

সম্প্রতি সেই স্টেডিয়ামের ছবি প্রকাশ করেছে কাতার বিশ্বকাপ আয়োজক কর্তপক্ষ। নয়নাভিরাম এই স্টেডিয়ামে ২0২২ সালে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যায়ের ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে। কাতারের রাজধানী দোহার সমূদ্র এলাকায় এই স্টেডিয়ামিট তৈরি করা হচ্ছে। রাশ আবু আবুউদ স্টেডিয়ামটি ৪,৫০,০০০ বর্গ মিটার জায়গা নিয়ে তৈরি করা হচ্ছে। আসন সংখ্যা ৪০, হাজার। সামনে থাকবে সুন্দর এক জলপ্রপাত‌। এটি হলো বিশ্বকাপের জন্য তৈরি করা কাতারের সপ্তম স্টেডিয়াম।