বিকাল ৪:২৮, সোমবার, ২৪শে জুলাই, ২০১৭ ইং

বাংলাদেশ শরীরগঠন ফেডারেশনের সার্বিক টেকনিক্যাল সহযোগিতায় এবং মাসল ম্যানিয়া ফিটনেস ক্লাবের ব্যবস্থাপনায় ও কনফিডেন্স গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় বৃহস্পতিবার শুরু হয়েছে দুই দিনব্যাপি “মি.মাসল ম্যানিয়া-২০১৬” শরীরগঠন প্রতিযোগিতা। এনএসসি টাওয়ার অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত এবারের প্রতিযোগিতায় ৬০, ৬৫, ৭০, ৭৫, ৮০ ও ৮০ কেজি প্লাস মোট ৬টি ওজন শ্রেনীতে বিভিন্ন ক্লাব ও জিম থেকে মোট ৪০জন প্রতিযোগি অংশ গ্রহন করছেন।
বৃহস্পতিবার প্রতিযোগিতার প্রথম দিনে প্রিজাজিং (বাছাই) পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। প্রতি গ্রুপ থেকে সেরা ৫জন করে বডিবিল্ডার চুড়ান্ত পর্বে খেলার সুযোগ পান। শুক্রবার বেলা ৩টা থেকে প্রতিযোগিতার চুড়ান্ত পর্বের খেলা অনুষ্ঠিত হবে।
প্রতিযোগিতায় ছয়টি ওজন শ্রেনীতে যে ছয়জন প্রথম স্থান অধিকার করবেন তাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে সেরাদের সেরা পর্ব। এ পর্বে যিনি প্রথম হবেন তার খেতাব হবে “মি. মাসল ম্যানিয়া-২০১৬”। পুরস্কার হিসেবে তিনি প্রাইজমানি পাবেন ৫০ হাজার টাকা ও ক্রেস্ট। এছাড়া প্রতি ওজন শ্রেনীতে ১ম হওয়া বডিবিল্ডার পাবেন ২০ হাজার টাকা করে ও মেডেল, ২য় ১০ হাজার টাকা ও মেডেল ৩য় ৫ হাজার টাকা ও মেডেল। আর ৪র্থ ও ৫ম স্থান অধিকারী পাবেন শুধু মাত্র মেডেল।

উন্মুক্ত শরীরগঠন প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন রায়হানুর রহমান

ওয়ালটন স্বাধীনতা দিবস পুরুষ উন্মুক্ত শরীরগঠন প্রতিযোগিতায় ওভারঅল চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন এডোনাইজ ফিটনেস সেন্টার লি. ঢাকার মো. রায়হানুর রহমান।
এনএসসি টাওয়ার অডিটরিয়ামে তিনদিনব্যাপী প্রতিযোগিতা আজ মঙ্গলবার শেষ হয়েছে। প্রতিযোগিতায় ৬০, ৬৫, ৭০, ৭৫, ৮০ ও ৮০+ কেজি দৈহিক ওজন শ্রেণিতে প্রথম হন যথাক্রমে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মো. ইসমাইল হোসেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মো. আরমান আলী, গ্যালাক্সি জিম-১, ডেমরা, ঢাকার মো. আল আমিন শরীফ, হ্যামার জিম, উত্তরা, ঢাকার মো. আসলাম, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মো. পাভেল আহমেদ এবং এডোনাইজ ফিটনেস সেন্টার লি. ঢাকার মো. রায়হানুর রহমান।
প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের পুরস্কার তুলে দেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. শ্রী বীরেন শিকদার এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের ১ম সিনিয়র অতিরিক্ত পরিচালক এবং ফেডারেশনের সহ-সভাপতি এফ এম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন)।

শরীরগঠনে দলগত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ আনসার

৩ দিন ব্যাপী জাতীয় ২৭তম সিনিয়র এবং ১২তম মাস্টার পুরুষ শরীরগঠন প্রতিযোগিতায় দলগত চ্যাম্পিয়ান হয়েছে বাংলাদেশ আনসার দল এবং এবং দলগত রানারআপ হয়েছে চট্টগ্রামের মানস জিম। প্রতিযোগিতায় সারাদেশ থেকে ৮০টি ক্লাবের ২৫০ জন বডিবিল্ডার অংশ নিয়েছে। এবার সিনিয়র বিভাগে ৫৫, ৬০, ৬৫, ৭০, ৭৫, ৮০ ও প্লাস ৮০ কেজি ওজন শ্রেণীতে মিস্টার বাংলাদেশ হয়েছেন যথাক্রমে বাংলাদেশ আনসারের মো. আরিফুর রহমান; মানস জিম, চট্টগ্রাম-এর মো. সাইফুল ইসলাম তালুকদার; বাংলাদেশ আনসারের আনোয়ার হোসেন; ফার্স ক্লাব, ঢাকা-এর মো. জুবায়ের; বাংলাদেশ আনসারের মোহাম্মদ নাজমুস সাকিব ভূঁইয়া; বাংলাদেশ আনসারের সুমন দাস ও টিম নিউট্রিটেক, ঢাকা-এর হাসিব মোহাম্মদ হলি এবং মাস্টার বিভাগে এডোনাইজ ফিটনেস সেন্টার লি. ঢাকা-এর মো. মাহছুদুর রহমান।
body-biulding-(home)
জাতীয় শরীরগঠন প্রতিযোগিতায় দলগত চ্যাম্পিয়ান হয়েছে বাংলাদেশ আনসার দল এবং দলগত রানারআপ মানস জিম, চট্টগ্রাম দল। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের পুরস্কৃত করেছেন জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস।
প্রতিযোগিতার প্রত্যেক ক্যাটাগোরীর ৭জন মিস্টার বাংলাদেশ এবং ওপেন ওয়েট ক্যাটাগরি থেকে ১জন মাস্টার বাংলাদেশ খেতাব অর্জনকারী প্রত্যেকে জিএনসি লাইভ ওয়েল এর পক্ষ থেকে এক বছরের জন্য পাবেন মাসিক ২ হাজার টাকার ফুড সাপ্লিমেন্ট।

জাতীয় সিনিয়র ও মাস্টার পুরুষ শরীরগঠন শুরু

বাংলাদেশ শরীরগঠন ফেডারেশনর ব্যবস্থাপনায় সোমবার থেকে শুরু হয়েছে জাতীয় ২৭তম সিনিয়র এবং ১২তম মাস্টার পুরুষ শরীরগঠন প্রতিযোগিতা। এই প্রতিযোগিতার প্লাটিনাম স্পন্সর হিসেবে রয়েছে ওয়ালটন। জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অডিটোরিয়ামে সকালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ শরীরগঠন ফেডারেশনের সভাপতি ও প্রতিরা বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মেজর জেনারেল (অব:) মো. সুবিদ আলী ভুঁইয়া। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রতিযোগিতার প্লাটিনাম স্পন্সর ওয়ালটন গ্রুপের ফার্স্ট সিনিয়র এডিশনাল ডিরেক্টর এফ.এম. ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন)। আরো উপস্থিত ছিলেন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলামসহ অন্যান্য পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাগণ। গতকাল রোববার বিকেলে দৈহিক ওজন গ্রহণের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে তিনদিন ব্যাপি জাতীয় ২৭তম সিনিয়র এবং ১২তম মাস্টার পুরুষ শরীরগঠন প্রতিযোগিতা। অবশ্য মূল প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে গতকাল থেকে। সিনিয়র বিভাগের খেলাগুলো অনুষ্ঠিত হবে মোট ৭টি ওজন শ্রেণীত। আর যাদের বয়স ৪০ বছরের উর্ধ্বে তারা অংশগ্রহণ করছেন উন্মুক্ত মাস্টার বিভাগে। সিনিয়র বিভাগের ওজন শ্রেণীগুলো হল- ৫৫ কেজি, ৬০ কেজি, ৬৫ কেজি, ৭০ কেজি, ৭৫ কেজি, ৮০ কেজি ও ৮০+ কেজি। প্রতিযোগিতার প্রথম থেকে ষষ্ঠ পর্যন্ত স্থান লাভকারী প্রত্যেককে পুরস্কৃত করা হবে।