দুপুর ২:০৩, রবিবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০১৭ ইং

কোপা দেল রের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে নেইমারের দেওয়া একমাত্র গোলে রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে স্বস্তির জয় পেয়েছে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা। তবে এই জয়ে রাতে হলুদ কার্ড পেতে হয়েছিলো নেইমারকে। এবার সেই হলুদ কার্ডের বিপক্ষে আপিল করেছে বার্সেলোনা।

ম্যাচটিতে নেইমারকে ডাইভ দেওয়ার অভিযোগে হলুদ কার্ড দেওয়া হয় বলে জানা যায়। ঘটনাটি ঘটে ম্যাচের ৬২ মিনিটে। এই সময় বল নিয়ে সোসিয়েদাদের ডি বক্সের মধ্যে ঢুকে পড়েন লুইস সুয়ারেজ। আর সুয়ারেজের পাস দেয়া বল নেইমার দ্রুত তার দখলে নিতে এগিয়ে আসেন।

সেই সঙ্গে  সোসিয়েদাদের গোলরক্ষকও এগিয়ে আসেন। আর তখন পড়ে যায় নেইমার। আর রেফারির মনে হয়েছিল নেইমার ইচ্ছা করে ডাইভ দিয়েছেন পেনাল্টি পাওয়ার জন্য। আর তখন তিনি পেনাল্টি না দিয়ে বিপরীতে নেইমারকে হলুদ কার্ড দেখান।

অবশ্য এই বিষয়টি নিয়ে পরে বেশ সমালোচনাও হয়। বার্সার দাবি নেইমার ইচ্ছে করে ডাইভ দেয়নি। হঠাৎ ডান পায়ের সঙ্গে হাত লেগে পড়ে যায়। তাই বার্সেলোনা নেইমারের হলুদ কার্ডের বিপক্ষে আপিল করেছে। তার হলুদ কার্ডের বিষয়টি স্পেনের কম্পিটিশন কমিটির কাছে তুলে ধরেছে তারা। সে সঙ্গে তারা তাদের সকল প্রমাণ জমা দিয়েছে।

রিয়াল মাদ্রিদের টানা দ্বিতীয় হার

সব প্রতিযোগিতায় টানা ৪০ ম্যাচে অপরাজিত থেকে আগের ম্যাচে সেভিয়ার বিপক্ষে হেরেছে রিয়াল মাদ্রিদ। স্প্যানিশ লা লিগায় ওই হারের পর কোপা দেল’রের ম্যাচে এবার সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে হেরেছে দলটি।

অপরাজিত থাকার স্প্যানিশ রেকর্ড গড়ার পর এবার শেষ দুই ম্যাচেই হারের স্বাদ পেল স্পেন তথা ইউরোপের অন্যতম সেরা ক্লাবটি।

সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে গতকাল রাতে কোপা দেল’রের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে সেল্টা ভিগোকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পায় রিয়াল। কিন্তু ঘরের মাঠের ওই লড়াইয়ে শেষ হাসি হাসতে পারেনি লস ব্লাঙ্কোসরা। চেনা মাঠে তাদের হারিয়ে দিয়েছে সফরকারীরা।

বার্নাব্যুতে ম্যাচের প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি কোনো দলই। প্রথমার্ধে বেশ কিছু সুযোগ তৈরি করলেও গোলের দেখা পাননি রোনালদো-বেনজেমারা।ফলে গোলশূন্য থেকেই প্রথমার্ধের খেলা শেষ করতে হয়েছে তাদের।

বিশ্রাম শেষে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর দর্শকদের স্তব্ধ করে সেল্টাকে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন ল্যাগো অ্যাসপাস। তবে ম্যাচের ৬৯ মিনিটে মার্সেলোর গোলে উচ্ছ্বাস ফেরে রিয়াল শিবিরে। কিন্তু সেই উচ্ছ্বাস বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি স্বাগতিকদের। ম্যাচের ৭০ মিনিটে জনি ক্যাস্ট্রোর গোলে ফের পিছিয়ে পড়ে লস ব্লাঙ্কোসরা।

এরপর আর কোনো গোল হয়নি ম্যাচটিতে। ম্যাচের বাকি সময়ে রোনালদো-বেনজেমারা বেশ কিছু সুযোগ পেলেও সেগুলো থেকে গোল আদায় করতে পারেননি তারা। ফলে শেষ পর্যন্ত ২-১ ব্যবধানের হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে জিনেদিন জিদানের প্রশিক্ষিত দলটিকে।

 

বার্সাতেই থাকবো, যদি তারা চায় : মেসি

কয়েকদিন পরপরই ওঠে এই প্রশ্নটা। বার্সায় মেসি কতদিন থাকবেন? আসলেই তিনি ন্যু ক্যাম্পে থাকবেন না কি থাকবেন না? যতবারই প্রশ্নটা উঠেছে, ততবারই এই আর্জেন্টাইন গ্রেট ফুটবলার জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি বার্সেলোনাতেই থাকতে চান। এখানে থেকেই ক্যারিয়ারের ইতি টানতে চান।

এবার আবারও উঠলো প্রশ্নটা। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটি রেকর্ড পরিমাণে অর্থের প্রস্তাব নিয়ে হাজির হয়েছে মেসি এবং বার্সেলোনার দুয়ারে। বিশাল অংকের প্রস্তাব পেলেও তিনি সবগুলো সৌজন্যতার সঙ্গেই দুরে ঠেলে দেন। এবার দুরে ঠেলে দিলেন। জানিয়ে দিলেন, ন্যু ক্যাম্পেই থাকতে চান তিনি। তবে এখানে কথা আছে। মেসি নিজেই সেটা জানালেন, ‘যদি তারা চায়।’ তারা বলতে, বার্সেলোনা।

গত সপ্তাহেই বার্সা প্রেসিডেন্ট হোসে মারিয়া বার্তেম্যু জানিয়েছেন, তিনি মেসির সঙ্গে নতুন চুক্তির বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে না পারার ব্যপারে শঙ্কিত। মেসির সঙ্গে বার্সার বর্তমান চুক্তি শেষ হওয়ার কথা আগামী বছর। এরপর নতুন চুক্তি করার জন্য এখনও মেসির সঙ্গে কোনো আলোচনাই করছে না বার্সা কর্তৃপক্ষ। তার ওপর সভাপতির এই শঙ্কা প্রকাশের মধ্য দিয়ে বার্সায় ২৯ বছর বয়সী মেসির ভবিষ্যৎ সত্যিই অনিশ্চিত হয়ে গেলো।

স্প্যানিশ মিডিয়ার খবর, মেসিও বার্সার ওপর এই মুহূর্তে বেশ নাখোশ। কারণ, তার সঙ্গে চুক্তি নবায়নের বিষয়ে কোনো চূড়ান্ত আলোচনাই করছে না ন্যু ক্যাম্প কর্তৃপক্ষ। একই সময়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে তার সাবেক গুরু পেপ গার্দিওলার পক্ষ থেকে লোভনীয় প্রস্তাব তো রয়েছেই। আরও গুঞ্জন রয়েছে স্প্যানিশ মিডিয়ায়- সেটা হলো, এই মৌসুম শেষ হলেই মেসিকে বিক্রি করে দেবে বার্সেলোনা। তাকে কেনার দৌড়ে রয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ম্যানচেস্টার সিটি এবং সর্বশেষ মেসির এই বক্তব্যে সেই কথারই প্রতিফলন দেখা যাচ্ছে।

‘কোচ’ ম্যাগাজিনের পক্ষ থেকে মেসির কাছে জানতে চাওয়া হয়েছে, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে যাওয়া সম্পর্কে। তিনি সরাসরি জানিয়ে দেন, ‘আমি সব সময়ই বলে আসছি যে, বার্সেলোনা আমাকে সব কিছু দিয়েছে। এ কারণে আমি এখানে ততদিন থাকতে চাই, যতদিন তারা আমাকে চাইবে।’

ইউরোপের সবচেয়ে দামি ফুটবলার নেইমার

সিআইইএস ইউরোপের সবচেয়ে দামি ফুটবলারের একটা তালিকা প্রকাশ করেছে। সেই তালিকার শীর্ষে রয়েছেন বার্সেলোনা সুপারস্টার নেইমার। আর দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন তারই সতীর্থ লিওনেল মেসি। সেরা পাঁচে নেই ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

নেইমারের মূল্য প্রায় ২১৬ মিলিয়ন ইউরো। আর মেসির বাজার মূল্য ধরা হয়েছে ১৪৯ মিলিয়ন ইউরো। বর্তমান ট্রান্সফার মূল্য অনুযায়ী এ তালিকা করা হয়েছে।

ব্যালন ডি`অরজয়ী এবং ফিফার বর্ষসেরা তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর মূল্য ১১১ মিলিয়ন ইউরো। এবং তার সতীর্থ গ্যারেথ বেলের দাম ৭৩.৮ মিলিয়ন ইউরো।

সিআইইএস-এর তালিকা অনুযায়ী ইউরোর সবচেয়ে দামি ফুটবলারদের নাম :

নেইমার দ্য সিলভা (২১৬ মিলিয়ন ইউরো), লিওনেল মেসি (১৪৯ মিলিয়ন ইউরো), পল পগবা (১৩৬.৪ মিলিয়ন ইউরো), অ্যান্টোনিও গ্রিজমান (১৩২ মিলিয়ন ইউরো), লুইস সুয়ারেস (১২৭ মিলিয়ন ইউরো), হ্যারি কেন (১২২ মিলিয়ন ইউরো), ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো (১১১ মিলিয়ন ইউরো), মাইকেল আন্টোনিও (১০০ মিলিয়ন ইউরো), ডেলি আলি (৯৬ মিলিয়ন ইউরো), ইডেন হাজার্ড (৮৯ মিলিয়ন ইউরো), গ্যারেথ বেল (৭৩.৮ মিলিয়ন ইউরো)।

ইব্রার গোলে শেষরক্ষা ম্যানচেস্টারের

সফরকারী দল হিসেবে মাঠে নামা লিভারপুলের শুরু থেকেই দাপটটা ছিল বেশি। ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলে এগিয়ে ছিল অলরেডরা। তবে ইব্রাহিমভিচের শেষ দিকের গোলে শেষ রক্ষা পায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিভারপুলের বিপক্ষে পগবার ভুলটা নিশ্চিতভাবে মাফ করতে পারবে না ম্যানইউ সমর্থকরা। নিজের ভুলের জন্য লিভারপুলকে পেনাল্টি দেওয়ার পাশাপাশি সহজ সুযোগ মিস করেন তিনি।

শুরুতেই স্বাগতিক দর্শকদের উল্লাসে ভাসাতে পারতেন পগবা। ১৮ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে ডি বক্সের ভিতরে দারুণ এক বল পেয়েছিলেন তিনি। তবে তার বাম পায়ের শট গোলপোস্টের বাইরে দিয়ে বেরিয়ে যায়। ২৭ মিনিটে বড় ভুলটি করেন পগবা। লিভারপুলকে পেনাল্টি উপহার দেন তিনি। ডি বক্সের ভিতরে হেড দিতে বল হাতে লাগে এ ফরাসি তারকার। আর লিভারপুলকে এগিয়ে যাওয়ার সূবর্ণ সুযোগ মিস করেননি মিলনার।

এর পর আক্রমণ প্রতিআক্রমণেই খেলা এগিয়ে যায়। দ্বিতীয়ার্ধেও বেশ কিছু সুযোগ হাতছাড়া হওয়ার পর গোল পেতে ৮৪ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয় রেড ডেভিলসদের। ইব্রাহিমভিচের হেড লিভারপুলের জালে জড়ালে উল্লাসে ভাসে স্বাগতিকরা।

এরপর আর গোল না হলে ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় দুই দলকে। এ ড্রতে ২১ ম্যাচে ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে  পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে থাকলো লিভারপুল। সমান সংখ্যক ম্যাচে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আছে ষষ্ঠ স্থানে। আর ৫২ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে চেলসি।

টটেনহ্যামের টানা ষষ্ঠ জয়

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে হ্যারি কেনের হ্যাটট্রিকে ওয়েস্ট ব্রমকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে টানা ষষ্ঠ জয় পেলো টটেনহ্যাম। এই জয়ে লিগের পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় স্থানে উঠে গেছে স্পার্সরা।

লন্ডনের হোয়াইট হার্ট লেনে ম্যাচের প্রথমার্ধের ১২ মিনিটে প্রতিপক্ষের জালে প্রথম বল পাঠান কেন। ম্যাচের ২৬ মিনিটে স্বাগতিকদের ব্যবধান দ্বিগুণ হয় ওয়েস্ট ব্রমের গ্যারেথ ম্যাকলের আত্মঘাতী গোলে।

ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধের ৭৭ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলে স্কোরলাইন ৩-০ করেন কেন। ইংলিশ এই ফরোয়ার্ড ৮২ মিনিটে নিজের তৃতীয় গোল পূর্ণ করে হ্যাটট্রিকের স্বাদ পায়। আর এতে ৪-০ গোলের বড় ব্যবধান নিয়ে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা। এই জয়ে ২১ ম্যাচে ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে  পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় স্থানে উঠে গেছে টটেনহ্যাম।

মেসির সমালোচনা করায় বরখাস্ত বার্সা পরিচালক

‘মেসি বার্সেলোনার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একজন খেলোয়াড়। কিন্তু সতীর্থদের ছাড়া মেসি ততটা ভালো পারফর্মার নন!’ – এমন মন্তব্য করে বোমাই ফাটিয়েছিলেন ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনার স্পোর্টস ইনিস্টিটিউশনাল রিলেশন বিভাগের প্রধান পেরে গ্রাটাকস। আর এর ফলাফল পেতে ২৪ ঘণ্টাও দেরি হয়নি। বরখাস্তই করা হয়েছে বার্সেলোনার এ পরিচালককে।

শুক্রবার রাতে কাতালান এই ক্লাবটির স্পোর্টস ইনিস্টিটিউশনাল রিলেশন বিভাগের প্রধান পদ থেকে তাকে বরখাস্ত করা হয় গ্রাটাকসকে। শুক্রবার কোপা ডেল রের শেষ আটের ড্র অনুষ্ঠান শেষে গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘নেইমার, সুয়ারেজ, ইনিয়েস্তা, পিকে এবং অন্যান্য সতীর্থদের ছাড়া ততটা ভালো খেলোয়াড় নন। তবে অবশ্যই মেসি সেরা খেলোয়াড়। শুধু এটাই।’

তবে গ্রাটাকসের বক্তব্য নিয়ে ততটা মাথা ঘামাননি দলের কোচ লুইস এনরিক।  গ্রাটাকসের বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘আমি এসব বিষয় খেলার মধ্যে আনতে চাই না। আমি তার কথা শুনেছি। তিনি বলেছেন মেসিই সেরা খেলোয়াড়।’

তবে বার্সেলোনা কর্তৃপক্ষ এটাকে সহজভাবে নেয়নি। শুক্রবার বার্সেলোনার পক্ষে থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ‘গ্রাটাকসের কথা ও আমাদের মতামত এক হতে পারেনি।’

উল্লেখ্য, গ্রাটাকসকে স্পোর্টস ইনিস্টিটিউশনাল রিলেশন বিভাগের প্রধান পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হলেও তাকে বার্সেলোনায় রাখছে কর্তৃপক্ষ। তাদের লা মেসিয়া প্রকল্পের ‘মাসিয়া ৩৬০’তে কাজ করবেন তিনি।

ইতিহাসের সবচেয়ে তলানিতে বাংলাদেশের ফুটবল

এশিয়া কাপ বাছাই পর্বের প্লে-অফের ফিরতি পর্বে ভুটানের কাছে ৩-১ ব্যবধানে পরাজয়কে মনে করা হচ্ছিল বাংলাদেশের ফুটবলের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেয়ার মত। লজ্জাজনক ওই পরাজয়ের পর অনেক কথাই উঠছে। বাফুফে কর্মকর্তাদের পদত্যাগ দাবি করা হচ্ছে সচেতন মহল থেকে। যদিও তারা ঠিকই গদি আঁকড়ে পড়ে রয়েছেন, নতুন নতুন পরিকল্পনা দিচ্ছেন, ক্যালেন্ডার ঘোষণা করছেন।

কিন্তু ভুটানের কাছে সেই পরাজয়ের ঢেউ যে কোথায় গিয়ে আছড়ে পড়তে পারে, তা হয়তো কারো কল্পনাতেই ছিল না। সেই প্রভাবটা খুব বাজেভাবেই পড়েছে ফিফা র্যাংকিংয়ের ওপর। ফিফা র্যাংকিংই বলছে ইতিহাসের সবচেয়ে তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে বাংলাদেশের ফুটবল। আজ (১২ জানুয়ারি) প্রকাশিত ফিফা র্যাংকিংয়ে দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশের অবস্থান ১৯০তম।

এর আগে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল সর্বনিম্ন ১৮৮তম স্থানে। গত জুন-জুলাইতে এই অবস্থানে নেমেছিল বাংলাদেশের ফুটবল। যদিও বছরটা শেষ করেছিল ১৮৫তম স্থান নিয়ে; কিন্তু নতুন বছরের শুরুটা হলো স্রেফ একটা দুঃসংবাদ নিয়ে। ৫ ধাপ পিছিয়ে বাংলাদেশ চলে গেলো ১৯০তম স্থানে। ফিফার সদস্য মোট ২১১টি দেশ। সর্বনিম্ন ২০৫তম স্থানে রয়েছে মোট ৭টি দেশ।

তবে এ ক্ষেত্রে একটা ভিন্ন জায়গায় স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারে বাফুফে কর্মকর্তারা। কারণ, সাফ অঞ্চলে বাংলাদেশের চেয়েও খারাপ অবস্থায় রয়েছে শ্রীলংকা এবং পাকিস্তান। এ দুই দেশের অবস্থান যথাক্রমে ১৯৬ এবং ১৯৭তম। এশিয়ান অঞ্চলে সর্বশেষ ১৯৮তম স্থানে রয়েছে মঙ্গোলিয়া।

যে ভুটানের কাছে বাংলাদেশে হেরেছিল, তাদের অবস্থান ১৭৬তম। তারা এগিয়েছে এক ধাপ।  সাফ অঞ্চলে সবচেয়ে এগিয়ে ভারত। তাদের অবস্থান ১২৯তম। গত ১১ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে তারা। সর্বশেষ ২০০৫ সালে ১২৭তম স্থানে ছিল তারা। এরপর পেছাতে পেছাতে এক সময় ভারতের অবস্থান পৌঁছে গিয়েছিল ১৭১তম স্থানে। সেটা ২০১৪ সালে। ২০১৫ সালেও ছিল ১৬৬তম স্থানে। সেখানে ২০১৬ সালেই তারা এক লাফে চলে আসলো ১৩৫তম স্থানে। এবার এলো ১২৯তম স্থানে। ইতিহাসে সবচেয়ে ভালো র্যাংকিং, ১০০, ১৯৯৩ সালে।

ফিফা র্যাংকিংয়ে কিন্তু শীর্ষস্থানগুলোতে কোনোই পরিবর্তন আসেনি। নতুন বছরের শুরুতে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। দ্বিতীয় স্থানে আছে নেইমারের ব্রাজিল। তৃতীয় স্থানে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি এবং চতুর্থ স্থানে আছে কোপা চ্যাম্পিয়ন চিলি। ইউরো চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল আগের অবস্থান ৮ম স্থান ধরে রেখেছে। শীর্ষ ৩৪টি স্থানে কোনই পরিবর্তন আসেনি এবারের ফিফা র্যাংকিংয়ে।

সাবিনা-স্বপ্নাদের সংবর্ধনা বৃহস্পতিবার

পুরুষ ফুটবল দল যেখানে পদে পদে খাবি খাচ্ছে সেখানে একের পর এক সাফল্য আসছে নারী ফুটবলে। অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল দল এএফসি এশিয়ান কাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। জাতীয় দল প্রথমবারের মতো হয়েছে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে রানার্সআপ।

জাতীয় দল দেশে ফেরার পর বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন তাদের সংবর্ধনা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। বাফুফে সভাপতির সে প্রতিশ্রুতি পূরণ হচ্ছে বৃহস্পতিবার। বাফুফে গোটা দলকে সংবর্ধনা দেবে ওই দিন। জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ (এনএসসি) টাওয়ার অডিটরিয়ামে দুপুর ১২ টায় হবে এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠান।

উল্লেখ্য যে, গত ২৬ ডিসেম্বর থেকে ৪ জানুয়ারি ভারতের শিলিগুড়িতে অনুষ্ঠিত চতুর্থ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে বাংলাদেশ ১-৩ গোলে হেরেছে ভারতের কাছে। এবারই প্রথম এ টুর্নামেন্টের ফাইনালে খেলেছে বাংলাদেশ। আগের ৩ আসরের দুটিতে সেমিফাইনালে উঠে নেপালের কাছে হেরে বিদায় নেয় লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।

আর্জেন্টিনায় ভেঙে ফেলা হলো মেসির মূর্তি

বিশ্বফুটবলের এক যাদুকরের নাম লিওনেল মেসি। ২০১৬ সালে আর্জেন্টিনা কোপা আমেরিকা ফাইনালে হারের পর আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে আকস্মিক অবসরের ঘোষণা দেন। তাকে ফিরিয়ে আনতে দেশটির রাজধানী বুয়েন্স অ্যাইরেসে উন্মোচন করা হয় মেসির অবিকল একটি ব্রোঞ্জের মূর্তি।

মূর্তিটি উন্মোচন করেন বুয়েন্স অ্যাইরেসের মেয়র হোরাশিও লরেত্তা। যেটাতে দেখা যাচ্ছিলো চিরচেনা ভঙ্গিতে বল নিয়ে ছুটছেন মেসি। বুয়েন্স অ্যাইরেসের লা প্লাটা নদীর তীরে মেসির মূর্তিটি শোভা পাচ্ছিলো। তবে সোমবার মেসির এই মূর্তিটিকে নষ্ট করে দিয়েছে নিন্দুকেরা। ওই মূর্তির কোমরের উপর পর্যন্ত কেটে ফেলা হয়েছে। আর কেটে ফেলা অংশটুকুও সেখানে নেই।

এ প্রসঙ্গে বুয়েন্স অ্যাইরেস সিটি কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ‘লিওনেল মেসির মূর্তিটি নষ্ট করা হয়েছে। এই ফুটবলারের মূর্তির উপরের অংশ কেটে ফেলা হয়েছে। কেটে ফেলা অংশটুকুও আর সেখানে পাওয়া যায় নি। সিটি কর্তৃপক্ষ আরও বলেন, ‘দ্রুতই মূর্তিটি সংস্কারের কাজ শুরু করা হবে।’

চট্টগ্রাম আবাহনীর কোচ হচ্ছেন সাইফুল বারী টিটু

শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের দায়িত্ব নেয়ার মধ্য দিয়ে ২০১১-১২ মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগে কোচিং শুরু করেছিলেন সাইফুল বারী টিটু। সদ্য শেষ হওয়া প্রিমিয়ার লিগে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের দায়িত্বে ছিলেন জাতীয় দলের সাবেক এ কোচ। মাঝে এক মৌসুম ছিলেন মোহামেডানে। আগামী মৌসুমে তাকে দেখা যাবে চট্টগ্রাম আবাহনীর ডাগ-আউটে। ১৮ ফেব্রুয়ারি শুরু হতে যাওয়া শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ দিয়েই চট্টলার দলটিতে অভিষেক হবে তার।

আলোচনা হয়েছে-এর বেশি কিছু বলতে রাজী হননি সাইফুল বারী টিটু ‘সব কিছু চূড়ান্ত না হলে তো কিছু বলা যায় না। আমার সাথে ক্লাবটির কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা হয়েছে। আলোচনা ইতিবাচকই হয়েছে। দেখা যাক, কী হয়!’

যদিও ক্লাবটির ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান তরফদার মো. রুহুল আমিন রোববার টিটুকে কোচ নিয়োগ দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, ‘আগামী মৌসুমের জন্য আমরা সাইফুল বারী টিটুকে কোচের দায়িত্ব দিচ্ছি। শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ দিয়েই তিনি দায়িত্ব শুরু করবেন।’

শেষ মুহূর্তের গোলে চতুর্থ রাউন্ডে আর্সেনাল

ইংলিশ ফুটবলের দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ প্রতিযোগিতা এফ এ কাপের তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচে দ্বিতীয় সারির দল প্রেস্টন নর্থ এন্ডের মাঠে হোঁচট খেতে বসেছিল আর্সেনাল। তবে শেষ দিকে অলিভিয়ে জিরুদের দেওয়া গোলে ২-১ ব্যবধানে স্বস্তির জয়ে এফএ কাপের চতুর্থ রাউন্ডে উঠেছে আর্সেন ওয়েঙ্গারের শিষ্যরা।

প্রতিপক্ষের মাঠে শুরুতেই পিছিয়ে পড়ে আর্সেনাল। ৭ম মিনিটে বাঁ-দিকে ছয় গজ বক্সের ঠিক বাইরে থেকে কোনাকুনি শটে গোলটি করেন ইংলিশ ফরোয়ার্ড ক্যালাম রবসন।

দ্বিতীয়ার্ধের ১ম মিনিটে ডি বক্সের ঠিক বাইরে থেকে জোরালো শটে দলকে সমতায় ফেরান ওয়েলসের মিডফিল্ডার অ্যারন র্যা মজি। অবশেষে ৮৯তম মিনিটে লুকাজ পেরেসের বাড়ানো বল থেকে প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠিয়ে জয় নিশ্চিত করেন ফরাসি স্ট্রাইকার জিরুদ।

এদিকে দিনের আরেক ম্যাচে রিডিংকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে চতুর্থ রাউন্ডে ওঠে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

জিদানের বর্ষপূর্তিতে রিয়ালের দুর্দান্ত জয়

সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে বুধবার রাতে জিনেদিন জিদানের বর্ষপূর্তির দিনে দুর্দান্ত জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। সেভিয়াকে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়ে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা ৩৮ ম্যাচ অপরাজিত থাকলো মাদ্রিদের ক্লাবটি। গত বছর এই দিনে মূল কোচ হিসেবে জিদান দায়িত্ব নেওয়ার পর উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ ও সম্প্রতি ক্লাব বিশ্বকাপ জেতে ক্লাবটি।

ইনজুরির কারণে গ্যারেথ বেল আগে থেকেই দলের বাইরে ছিলেন। আর ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ছিলেন বিশ্রামে।এদিকে করিম বেনজেমাকেও বেঞ্চে রেখে একাদশ সাজান জিদান।  রক্ষণের দুই ভরসা রামোস ও পেপেও ছিলেন না। অনেকটা ভেবে চিন্তেই দল সাজাতে হয় জিদানকে।

তবে বেশি ম্যাচ খেলার সুযোগ না পাওয়া রদ্রিগেজ ছিলেন এইদিন মূল দলে। ঘরের মাঠে প্রথমার্ধের ১১ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে বল জালে পাঠান কলম্বিয়ার এই মিডফিল্ডার।

ম্যাচের ৩০ মিনিটে  ক্রুসের কর্নারে লাফিয়ে হেডে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ভারানে। প্রথমার্ধ শেষ হবার দুই মিনিট আগে ৪৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করে জয় নিশ্চিত করে ফেলেন রদ্রিগে। পরবর্তীতে ৩-০ ব্যবধানের সহজ জয় নিয়েই মাঠ ছাড়েন জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা। আর এ জয়ে কোপা দেল রের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার পথে এগিয়ে গেলো ইউরোপ চ্যাম্পিয়নরা।

পারলেন না বাংলাদেশের মেয়েরা

ইতিহাসকে আর রাঙাতে পারলো না বাাংলাদেশের নারী ফুটবল দল। প্রথমবারের মতো মেয়েদের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উঠেই ইতিহাস গড়েছিলেন সাবিনা-স্বপ্নারা। ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হতে পারলে ওই ইতিহাসকে আরো রাঙাতে পারতো নারী ফুটবল দল।

কিন্তু প্রতিপক্ষ ভারত বলে সেটা হলো না। আগের তিনবারের চ্যাম্পিয়নদের কাছে বাংলাদেশ হেরেছে ৩-১ গোলে। প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয়েছিল ১-১ গোলে।

বিস্তারিত আসছে…

এগিয়ে গিয়েও জিততে পারলো না লিভারপুল

দুইবার এগিয়ে গিয়েও শেষ পর্যন্ত আর জেতা হয়নি লিভারপুলের। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে সোমবার সান্ডারল্যান্ডের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা।

প্রতিপক্ষের ম্যাচের ১৯ মিনিটে ড্যানিয়েল স্টারিজের গোলে এগিয়ে যায় লিভারপুল। ক্রোয়েশিয়ার ডিফেন্ডার দেইয়ান লোভরেনের ফ্লিক গোলমুখে পেয়ে হেডে বল জালে পাঠান ড্যানিয়েল স্টারিজ। কিন্তু ছয় মিনিট পরেই সমতায় ফেরে স্বাগতিকরা। ডিফেন্ডার রাগনার ক্লাভান নিজেদের ডি-বক্সে  মিডফিল্ডার দিদিয়ের এনদংকে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় সান্ডারল্যান্ড।পেনাল্টিতে গোল করে দলকে এগিয়ে নিয়ে যায় ডিফো।

দ্বিতীয়ার্ধের ৭২ মিনিটে  লিভারপুলকে  আবারো এগিয়ে নেন সাদিও মানে। কিন্তু তার হ্যান্ডবলেই ম্যাচে দ্বিতীয় পেনাল্টি পায় স্যান্ডারল্যান্ড। এবারও জালে বল পাঠাতে কোনো ভুল করেননি ডিফো। ৩ পয়েন্টের আশায় শেষ সময়ে লিভারপুলের কোনো প্রচেষ্টাই আর কাজে আসেনি। ২০ ম্যাচে ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে রয়েছে ক্লপের শিষ্যরা।

মালদ্বীপকে গুঁড়িয়েই স্বপ্নের ফাইনালে বাংলাদেশ

লক্ষ্যটা ছিল ফাইনালে ওঠা। সেটা যে এত দাপটের সঙ্গে পূরণ হবে ভাবা যায়নি আগে। মালদ্বীপকে গুঁড়িয়ে দিয়েই মেয়েদের সাফ ফুটবলের ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশকে প্রথমবারের মতো সাফ ফুটবলের ফাইনালে তুলতে হ্যাটট্রিক করেছেন সিরাত জাহান স্বপ্না। জোড়া গোল সাবিনা খাতুনের। এই দুই ফরোয়ার্ডের সঙ্গে গোলের খাতায় নাম লেখালেন ডিফেন্ডার নার্গিস খাতুনও। ৬-০ গোলের বিশাল জয়ে স্বপ্ন পূরণের শেষ ধাপে পৌঁছে গেছে গোলাম রব্বানী ছোটনের দল। সেখানে প্রতিপক্ষ তিন বারের চ্যাম্পিয়ন শক্তিশালী ভারত, যাদের রুখে দিয়েই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল সাবিনারা।

মালদ্বীপের বিপক্ষে কখনও না হারার রেকর্ড বজায় রাখল বাংলাদেশ। গত সাফে ৩-১ আর এসএ গেমসে ২-০ গোলে মালদ্বীপকে হারিয়েছিল কৃষ্ণারা।

ভারতের বিপক্ষে সব শেষ ম্যাচের রক্ষণাত্মক কৌশল ছেড়ে বেরিয়ে মালদ্বীপের বিপক্ষে আক্রমণাত্মক ফুটবলে ফেরার কথা বলেছিলেন বাংলাদেশ কোচ। শেষ পর্যন্ত সেই কৌশলেই এল সাফল্য।

তবে শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে সোমবার দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে শুরুর দিকে কিছুটা অগোছালো ফুটবল খেলা ছোটনের দল ষষ্ঠ মিনিটে ধাক্কা খেতে বসেছিল। ডিফেন্ডার শিউলি আজিম ব্যাক পাস দিতে গিয়ে বল তুলে দেন শাহুলা তাউফেজের পায়ে। বিপদসীমায় ঢুকে পড়া এই মিডফিল্ডারকে শট নেওয়ার আগে বল গ্লাভসবন্দী করেন সাবিনা আক্তার।

একাদশ মিনিটে স্বপ্নার দুর্দান্ত গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষের এক ডিফেন্ডারের কাছ থেকে বল কেড়ে নেওয়ার পর আরও দুই ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে মাপা শটে গোল করেন এই ফরোয়ার্ড।

তিন ফরোয়ার্ডে সাজানো বাংলাদেশের আক্রমণভাগের মূল খেলোয়াড় সাবিনা খাতুনকে শুরু থেকে কড়া পাহারায় রাখে ডিফেন্ডাররা। তবে সাবিনা-স্বপ্নার মিলিত প্রচেষ্টায় ২২তম মিনিটে ঠিকই ব্যবধান দ্বিগুণ করে নেয় বাংলাদেশ। সতীর্থের লম্বা করে বাড়ানো বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বাঁ দিক থেকে আক্রমণ শানানো সাবিনার নিখুঁত পাস প্লেসিং শটে জালে জড়িয়ে দেন স্বপ্না।

মালদ্বীপের রক্ষণে চাপ ধরে রাখা বাংলাদেশ প্রথমার্ধের শেষ দিকে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নিতে পারত। ৩৫তম মিনিটে ডান দিক থেকে কৃষ্ণা রানী সরকারের শট পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়।

৪৮তম মিনিটে ম্যাচ নিজেদের মুঠোয় নিয়ে নেয় বাংলাদেশ। স্বপ্নার বাড়ানো ক্রসে দারুণ শটে লক্ষ্যভেদ করেন সাবিনা। চার মিনিট পর মালদ্বীপকে আরও কোণঠাসা করে ফেলে বাংলাদেশ। ডান দিক থেকে স্বপ্নার বাড়ানো বলে ডিফেন্ডার নার্গিস খাতুনের ঝুলিয়ে নেওয়া শট ক্রসবারের ভেতরের কানায় লেগে ঠিকানা খুঁজে পায়।

প্রথমবারের মতো সেমি-ফাইনালে ওঠা মালদ্বীপের ম্যাচে ফেরার আশা ৫৮তম মিনিটে একেবারে শেষ করে দেয় বাংলাদেশ। মার্জিয়ার বাড়ানো বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে সাবিনাকে বাড়ান স্বপ্না। সাবিনার ফিরতি পাস থেকে পাওয়া বল মাপা শটে জালে পৌঁছে দিয়ে হ্যাটট্রিকের আনন্দে মাতেন স্বপ্না।

মার্জিয়াকে মরিয়ম ফেলে দিলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পট কিক থেকে স্কোরলাইন ৬-০ করেন সাবিনা। প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের এই ফরোয়ার্ডের গোল হলো ৭টি।

৬৪তম মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে মার্জিয়ার ফ্রি কিক পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। ফিরতি বলে পাওয়া সুযোগটি কাজে লাগাতে পারলে হ্যাটট্রিকের আনন্দে ভাসতে পারতেন সাবিনা কিন্তু উড়িয়ে মেরে তা নষ্ট করেন।

আফগানিস্তানকে ৬-০ গোলে হারিয়ে শুরু করা বাংলাদেশ দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিক ভারতকে গোলশূন্য ড্রয়ে রুখে দেয়। দুই দলের পয়েন্ট সমান হলেও গোল পার্থক্যে এগিয়ে থেকে প্রথমবারের মতো গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমি-ফাইনালে উঠে বাংলাদেশ।

সোমবার প্রথম সেমি-ফাইনালে নেপালকে ৩-১ ব্যবধানে হারিয়ে টানা চতুর্থবারের মতো ফাইনালে ওঠে ভারত। প্রতিযোগিতাটির টানা তিনবারের চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে আগামী বুধবার শিরোপা লড়াইয়ে নামবে বাংলাদেশ।

ফকিরাপুল-সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব ম্যাচ ড্র

মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে সোমবার (০২ জানুয়ারি) বিকেলে মুখোমুখি হয় সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব ও ফকিরাপুল ইয়াংমেন্স ক্লাব। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটি গোলশূন্য ভাবে ড্র হয়েছে।
পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠার সুযোগ ছিল ফকিরাপুলের। এই ম্যাচে জয় পেলে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে যাওয়ার সুযোগ ছিল দলটির। কিন্তু জয় না পাওয়ায় শীর্ষে যাওয়া হয়নি তাদের। ফলে, শীর্ষেই রইলো সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব।
এই ড্রয়ের ফলে ১২ ম্যাচের ৫টিতে জিতে ও ৭টিতে ড্র করে ২২ পয়েন্ট সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের। অন্যদিকে ১২ ম্যাচের ৫টিতে জিতে, ৬টিতে ড্র করে ও ১টিতে হেরে ২১ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করছে ফকিরাপুল ইয়াংমেন্স ক্লাব।
২০ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে অগ্রণী ব্যাংক স্পোর্টস ক্লাব। লিগে আরও দুটি করে ম্যাচ পাবে এই তিনটি দল।

দুই সাবিনায় মজেছে শিলিগুড়ি

ম্যাচে সাবিনা খাতুন একাই করেছিলেন ৫ গোল। ফলে মাঠে আসা দর্শকদের সঙ্গে অন্যান্য দেশের সাংবাদিকরাও সাবিনাকে জাত স্ট্রাইকারের সার্টিফিকেট দিচ্ছেন। আর ভারতের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্রয়ের ম্যাচের নায়ক তো বাংলাদেশের গোলরক্ষক সাবিনা আক্তার ।
মেয়েদের সাফ চ্যাম্পিয়ানশিপে প্রথমে কেউই বাংলাদেশকে হাতে গোনেনি। স্বাগতিক ভারতের পর নেপাল ও ইউরোপীয় বংশোদ্ভুত খেলোয়াড়দের সমন্বয়ে গঠিত আফগানিস্তানকেই এগিয়ে রেখেছিল সবাই । কিন্তু টুর্নামেন্টর দিন যতই গেছে, বেড়েছে বাংলাদেশের মেয়েদের কদর। ডেথ গ্রুপে থেকেও গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিফাইনালে নাম লেখানোই শিলিগুড়ির দর্শকদের মুখে এখন বাংলাদেশের মেয়েদের প্রশংসা। নিয়মিত মাঠে আসা দর্শকেরা তো দুই সাবিনা ও কৃষ্ণাদের জার্সি নম্বর আলাদা করেই চিনতে পারছে । এছাড়া বিদেশি সাংবাদিকদের মুখে মুখেও সাবিনা খাতুন, সাবিনা আক্তারদের প্রশংসা।
ভারত ম্যাচের পর কথা হয়েছিল সরকারি চাকরিজীবী অমল সেনের সঙ্গে । স্ট্রাইকার সাবিনা ও গোলরক্ষক সাবিনাকে তো দক্ষিণ এশিয়ার সেরাদের তালিকায় রাখলেন তিনি, ‘আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ তো অনেক ভালো খেলেই বড় জয় পেয়েছে । ভারতকেও তো জিততে দিল না তারা । আমার বিশ্বাস বাংলাদেশ ফাইনালে খেলবে নিশ্চিত। বাংলাদেশের দুই সাবিনা (গোলরক্ষক সাবিনা ও স্ট্রাইকার সাবিনা ) তো দক্ষিণ এশিয়ার সেরাদের কাতারে ।’ ভারতের বিপক্ষে ছাড়া প্রতিপক্ষ সব দেশের বিপক্ষেই বাংলাদেশকে সমর্থন দিবেও বলে জানালেন অমল সেন।
প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৬-০ গোলের জয় দিয়ে শূরু হয়েছিল বাংলাদেশের যাত্রা । ম্যাচে সাবিনা খাতুন একাই করেছিলেন ৫ গোল। ফলে মাঠে আসা দর্শকদের সঙ্গে অন্যান্য দেশের সাংবাদিকরাও সাবিনাকে জাত স্ট্রাইকারের সার্টিফিকেট দিচ্ছেন। আর ভারতের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্রয়ের ম্যাচের নায়ক তো বাংলাদেশের গোলরক্ষক সাবিনা আক্তার। ফলে ভারতের দর্শকদের চোখে তিনিই ভিলেন। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে নিশ্চিত পাঁচটি গোল রক্ষা করেছিলেন সাবিনা। সব কিছু মিলিয়ে দুই সাবিনাতে মজেছে শিলিগুড়ি ।

সকার ক্লাবের ‘চ্যাম্পিয়নের’ আনন্দ

ম্যাচের পর সকার ক্লাবের খেলোয়াড়রা যেভাবে উল্লাস করলেন এবং ছবিতে পোজ দিলেন তাতে লিগের খোঁজ-খবর না রাখা কারো মনে প্রশ্ন জাগতেই পারে- ফেনীর দলটি কি চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেলো? ঠিক তা নয়, মুক্তিযোদ্ধাকে হারানোর পরই তাদের এ উচ্ছ্বাস। জয়টি যে তাদের নতুন করে জীবন দিয়েছে। হারলে বা ড্র করলে তারা অবনমন হতো বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ থেকে। এ জয় তাদের টিকে থাকার সুযোগ করে দিয়েছে। তাই তো ম্যাচের পর তাদের এতো আনন্দ, এতো উচ্ছ্বাস। শনিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে সকার ক্লাব ২-০ গোলে হারিয়েছে মুক্তিযোদ্ধাকে। গোল করেছেন শাহরান হাওলাদার ও ঘানার থুয়াম ফ্রাঙ্ক।
এটি ছিল দুই দলের শেষ লিগম্যাচ। তবে মুক্তিযোদ্ধার শেষ হলেও হয়নি সকার ক্লাবের। তাদের এখন প্লে-অফ ম্যাচ খেলতে হবে উত্তর বারিধারা ক্লাবের সঙ্গে। দুই দলের পয়েন্টই ১৮ করে। মুক্তিযোদ্ধার ছিল তৃতীয় হওয়ার সুযোগ। জিতলে ব্রাদার্স ও শেখ জামালকে টপকে যেতো তারা; কিন্তু মাঠে তেমন কোনো কোনো আগ্রহ তাদের মধ্যে দেখা যায়নি। লিগটা শেষ করছে-এটাই যেন বড় তৃপ্তি তাদের কাছে।
মুক্তিযোদ্ধার পরাজয়ে লিগের আরো দুটি স্থান চূড়ান্ত হয়ে গেলো। চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ নির্ধারণ হয়েছিল আগেই। মুক্তিযোদ্ধার হারে তৃতীয় হলো গতবারের চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল (৩২ পয়েন্ট। আর চতুর্থ ব্রাদার্স (৩০ পয়েন্ট)। ব্রাদার্সের সমান পয়েন্ট নিয়ে গোলগড়ে মুক্তিযোদ্ধা শেষ করলো পঞ্চম স্থানে থেকে।

ভারতকে রুখে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

বছরের শেষ দিনে ভারতের শিলিগুড়ি থেকে দেশবাসিকে দারুন সুখবর উপহার দিলো নারী ফুটবলাররা। নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচে স্বাগতিকদের রুখে দিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ।
শনিবার শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ ও ভারতের ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছে। মেয়েদের ফুটবলে এটি ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম ড্র। আগের ৬ ম্যাচের সবকটিই জিতেছিল ভারত।
গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হতে বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল ড্র। প্রত্যাশিত সে ড্র করেই সাবিনা-কৃষ্ণারা নতুন উচ্চতায় নিয়ে গেলেন দেশের নারী ফুটবলকে। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় বাংলাদেশ সোমবার সেমিফাইনাল খেলবে মালদ্বীপের বিপক্ষে। ভারতকে সেমিফাইনাল খেলতে হবে নেপালের বিপক্ষে। সেমিফাইনালে অপেক্ষাকৃত সহজ প্রতিপক্ষ পাওয়ায় বাংলাদেশের ফাইলালে ওঠার সম্ভাবনাও উজ্জ্বল হলো।

অবনমনের আরও কাছে ফেনী সকার

জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলের ২১তম রাউন্ডে টিম বিজেএমসির বিপক্ষে ২-১ গোলে হেরে অবনমনের আরও কাছে চলে এলো ফেনী সকার ক্লাব। কেননা, নিজেদের ২১তম ম্যাচ শেষে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে দলটি টেবিলের একেবারে তলানিতে পড়ে আছে।
ফেনীর চেয়ে দুই পয়েন্ট এগিয়ে থেকে ১১ নম্বরে উত্তর বারিধারা। লিগে দলটির বাকি আছে আর একটি মাত্র ম্যাচ। শেষ রাউন্ডের খেলায় ফেনী যদি মুক্তিযোদ্ধা সংসদের বিপক্ষে জয় পায় আর উত্তর বারিধারা যদি মোহামেডানের বিপক্ষে হেরে যায় তাহলেই কেবল অবনমন এড়াতে পারবে সকারুরা।
অবনমনের শিকার বাদ পড়া দলকে আগামী মৌসুমে খেলতে হবে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে। আর এই ইভেন্টের শীর্ষ টিম উঠে আসবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে।
মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরুতে অবশ্য এগিয়ে ছিল সকার ক্লাব ফেনী। ১৩ মিনিটে শাহরানের গোল তাদের ১-০ তে লিড এনে দেয়।
কিন্তু, ম্যাচের শেষ পর্যন্ত তারা এই লিড ধরে রাখতে পারেনি। দ্বিতীয়ার্ধের ৫২ মিনিটে স্যামসন ইলিয়াসু বিজেএমসিকে ১-১ সমতায় ফেরান। আর ৮৮ মিনিটে নাইজেরিয়ান বেবেক ফেনীর জালে বল জড়ালে নির্ধারিত সময় শেষে ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে টিম বিজেএমসি।

সেমিফাইনালে চোখ বাংলাদেশের

ভারতের শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘার ২৬ ডিসেম্বর ২০১৬ থেকে ৪ জানুয়ারি ২০১৭ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে সাফ মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপের চতুর্থ আসর। এই আসরে অংশ নিবে বাংলাদেশ মহিলা জাতীয় ফুটবল দল। আর বাংলাদেশ দলকে এই টুর্নামেন্টে স্পন্সর করেছে দেশের স্বনামধন্য ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিকস, অটোমোবাইলস, হোম অ্যাপ্লায়েন্স ও টেলিকমিউনিকেশন পণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন।
ভারত যাওয়ার আগে শনিবার বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন, সহ-অধিনায়ক মাইনু মারমা ও প্রধান কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটন আনুষ্ঠানিক এক সংবাদ সম্মেলন দলের বিভিন্ন দিক নিয়ে কথা বলেন।
বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাকে অনুষ্ঠিত এই সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন সাফে বাংলাদেশ দলের পৃষ্ঠপোষক ওয়ালটন গ্রুপের স্পোর্টস এন্ড ওয়েলফেয়ার বিভাগের প্রধান এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন), বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও নারী শাখার চেয়ারম্যান মিস মাহফুজা আক্তার কিরণ, বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ ও ওয়ালটনের এজিএম মেহরাব হোসেন আসিফসহ অন্যান্যরা।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় বাংলাদেশ দলের প্রথম ল্য আফগানিস্তানকে হারিয়ে সেমিফাইনাল খেলা। এরপর প্রতিপ অনুযায়ী কৌশল নির্ধারণ করে ফাইনাল খেলা।
এ বিষয়ে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন বলেন, ‘আমাদের গ্রুপের দুটি দল ভারত ও আফগানিস্তান খুবই শক্তিশালী। যেহেতু আফগানিস্তানের সঙ্গে আমাদের প্রথম ম্যাচ, সেহেতু আমাদের টার্গেট হবে আফগানিস্তানকে হারিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করা। এরপর ফাইনালে যে দল আসবে তাদের বিপে খেলার জন্য কৌশল নির্ধারণ করা। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন। আমরা আমাদের সেরাটা দিয়ে খেলার চেষ্টা করব। ইনশাল্লাহ ভালো কিছু দিতে পারব।’
দলের প্রস্তুতির বিষয়ে বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটন বলেন, ‘আমাদের প্রস্তুতি কিন্তু সেপ্টেম্বর মাসেই শুরু হয়েছে। এরপর নভেম্বর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে আমরা সাফের জন্য প্রস্তুতি শুরু করি। আমাদের প্রস্তুতি ভালো। আমরা আমাদের দলের বেশ কয়েকজন সিনিয়র খেলোয়াড়কে (তাদের ব্যক্তিগত কারণে) নিতে পারছি না। সাফের জন্য ১৫ জন তরুণ ও ৫ জন অভিজ্ঞ খেলোয়াড় নিয়ে দল গঠন করা হয়েছে। ১৫ জন তরুণ খেলোয়াড়দের মধ্যেও প্রায় দশজনের অভিজ্ঞতা রয়েছে। আমাদের গ্রুপের দুটি দলই বেশ শক্তিশালী। ভারতের সঙ্গে হয়তো জয় পাওয়া কঠিন হবে। তবে তাদের বিপে লড়াই করতে পারবে আমাদের মেয়েরা। আমরা চাই আফগানিস্তানের বিপরে ম্যাচটি জিতে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করতে। এরপর ধাপে ধাপে কৌশল নির্ধারণ করে এগিয়ে যেতে।’
বাংলাদেশ দলের জন্য পুরস্কার ঘোষণা করেছে পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। পুরস্কারের বিষয়ে ওয়ালটন গ্রুপের স্পোর্টস এন্ড ওয়েলফেয়ার বিভাগের প্রধান এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) বলেন, ‘আমি মনে করি আমাদের দলটি যথেষ্ট শক্তিশালী। যদিও ভারত ও আফগানিস্তানের খেলোয়াড়রা অনেক অভিজ্ঞ। তারপরও আমার বিশ্বাস তরুণ ও অভিজ্ঞদের সম্মিলনে গঠিত দলটি ভালো কিছু করতে পারবে। বাংলাদেশ দল যদি সাফে চ্যাম্পিয়ন হতে পারে তাহলে দলের প্রত্যেককে ওয়ালটনের একটি করে ১০ সিএফটির ফ্রিজ দিব। আর যদি রানার্স-আপ হয় তাহলে প্রত্যেককে একটি করে ওয়ালটনের ৩২ ইঞ্চি এলইডি টিভি দিয়ে উৎসাহিত করব। বাংলাদেশ দলের জন্য ওয়ালটন গ্রুপের প থেকে শুভকামনা জানাচ্ছি।’
এ ছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন বাফুফের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও নারী শাখার চেয়ারম্যান মিস মাহফুজা আক্তার কিরণ।
সাফে ‘বি’ গ্রুপে বাংলাদেশের প্রতিপ শক্তিশালী ভারত ও আফগানিস্তান। ২৯ ডিসেম্বর প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপ আফগানিস্তান। আর ৩১ তারিখ দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ খেলবে স্বাগতিক ভারতের বিপ।ে
এর আগে বাংলাদেশ সাফের তিনটি আসরে অংশ নিয়েছিল। তার মধ্যে ২০১০ সালে ঘরের মাঠে সেমিফাইনাল খেলেছিল। ২০১২ সালে শ্রীলঙ্কার অনুষ্ঠিত সাফে অবশ্য গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। আর ২০১৪ সালে পাকিস্তানে অনুষ্ঠিত সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে সেমিফাইনালে খেলেছিল বাংলাদেশ দল।

সাফের জন্য বাংলাদেশ দল ঘোষণা

চলতি মাসের ২৬ তারিখ থেকে ভারতের শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘায় শুরু হচ্ছে চতুর্থ সাফ মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপ। এই টুর্নামেন্টে অংশ নিতে সোমবার রাতে ভারত যাবে বাংলাদেশ মহিলা জাতীয় দল।
তার আগে শনিবার সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ উপল্েয ২০ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। দলে অবশ্য তরুণ খেলোয়াড়দের প্রাধান্য বেশি। পাঁচ জন রয়েছেন সিনিয়র খেলোয়াড়।
তারা হলেন- তারকা খেলোয়াড় সাবিনা খাতুন, গোলরক সাবিনা আক্তার, রওশন আরা, মুনমুন আক্তার ও মাইনু মারমা।
২০ সদস্যের বাংলাদেশ দল :
খেলোয়াড় অবস্থান
১. সাবিনা আক্তার গোলরক
২. শিউলি আজিম ডিফেন্ডার
৩. শামসুন্নাহার ডিফেন্ডার
৪. নার্গিস খাতুন ডিফেন্ডার
৫. মাসুরা পারভীন ডিফেন্ডার
৬. সানজিদা আক্তার মিডফিল্ডার
৭. মাইনু মারমা মিডফিল্ডার
৮. মিসরাত জাহান মৌসুমী মিডফিল্ডার
৯. সিরাত জাহান স্বপ্না ফরোয়ার্ড
১০. সাবিনা খাতুন ফরোয়ার্ড
১১. মার্জিয়া মিডফিল্ডার
১২. কৃষ্ণা রাণী সরকার ফরোয়ার্ড
১৩. নিলুফা ইয়াসমিন নীলা ডিফেন্ডার
১৪. মারিয়া মান্ডা মিডফিল্ডার
১৫. আনাই মোগিনি ডিফেন্ডার
১৬. ইশরাত জাহান রতœা মিডফিল্ডার
১৭. অনুচিং মোগিনি ফরোয়ার্ড
১৮. রওশন আরা গোলরক
১৯. মুনমুন আক্তার ফরোয়ার্ড
২০. মাহমুদা আক্তার গোলরক।

অগ্রণী ব্যাংকের পঞ্চম জয়

মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে বৃহস্পতিবার একটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। দিনের একমাত্র ম্যাচে মুখোমুখি হয় ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব ও অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড স্পোর্টস ক্লাব। ম্যাচে ১-০ গোলে জয় পেয়েছে অগ্রণী ব্যাংক। লিগে এটা তাদের পঞ্চম জয়। অন্যদিকে ভিক্টোরিয়ার ষষ্ঠ হার।
বৃহস্পতিবার কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে ম্যাচের ১০ মিনিটেই এগিয়ে যায় অগ্রণী ব্যাংক। গোল করে দলকে এগিয়ে নেন জিল্লুর। তার গোলে এগিয়ে থেকেই বিশ্রামে যায় অগ্রণী ব্যাংক।
বিরতির পর অগ্রণী ব্যাংক যেমন ব্যবধান বাড়াতে পারেনি, তেমনি ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাবও পারেনি ব্যবধান কমাতে। ফলে জিল্লুর করা গোলটিই অগ্রণী ব্যাংকের জন্য উল্লাসের উপলক্ষ্য হয়ে দাঁড়ায়।
এ জয়ের ফলে ১০ ম্যাচ থেকে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে অবস্থান নিয়েছে অগ্রণী ব্যাংক। অন্যদিকে ১০ ম্যাচ থেকে ৮ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের সপ্তম স্থানে অবস্থান করছে ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব।

সাফে জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের স্পনসর ওয়ালটন

সাফ মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের স্পনসর হলো ওয়ালটন। আগামী ২৬ ডিসেম্বর ভারতের শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্গা স্টেডিয়ামে শুরু হবে এই টুর্নামেন্ট।
বৃহস্পতিবার বাফুফে ভবনে সংবাদ সম্মেলনে ওয়ালটনকে আনুষ্ঠানিকভাবে উপস্থাপন করিয়ে দেওয়া হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ, বাফুফের সদস্য ও মহিলা ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণ এবং পৃষ্ঠপোষক ওয়ালটন গ্রুপের স্পোর্টস অ্যান্ড ওয়েলফেয়ার বিভাগের প্রধান এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন)।
ওয়ালটনের পক্ষ থেকে ডন বলেন, ‘আমরা দীর্ঘদিন ধরেই বাফুফে এবং মহিলা ফুটবলের সঙ্গে আছি। ভবিষ্যতে থাকবো বলেই আশা করি। আমরা মহিলা জাতীয় ফুটবল দলকে নগদ ৫ লাখ টাকা দিচ্ছি। এছাড়াও অনুশীলন জার্সি এবং আনুষাঙ্গিক সরঞ্জাম দেব। যার মূল্যমান হবে প্রায় দুই লাখ টাকা।’
আসন্ন সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ পড়েছে গ্রুপ ‘বি’তে। এই গ্রুপে বাংলাদেশের সঙ্গে আছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারত এবং আফগানিস্তান।

কিশোর ফুটবলারদের প্রশংসায় সালাউদ্দিন

লক্ষ্য ছিল প্রথমবারের মতো সুপার মক কাপের কাপ পর্বে ওঠার। বাংলাদেশের কিশোর ফুটবলাররা সেটা পারেনি অল্পের জন্য। তবে প্লেট পর্বের শিরোপা ঠিকই ধরে রেখেছে বাংলাদেশের কিশোর ফুটবলাররা। মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিত এ টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৪ দল টানা তৃতীয়বার প্লেট পর্বে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।
প্লেট শিরোপা জিতে সোমবার গভীর রাতে দেশে ফিরেছে পারভেজ বাবুর শিষ্যরা। মঙ্গলবার বিকেলে কিশোর ফুটবলারদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন বলেছেন,‘তোমাদের এ সাফল্যে আমি আনন্দিত। তবে মনে করবা এটা শুরু। তোমাদের জন্য আমরা দীর্ঘ মেয়াদী প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের আয়োজন করবো। এখানেই তোমাদের থেমে থাকলে চলবে না। একজন ভালো ফুটবলার হতে তোমাদের অনেক পরিশ্রম করতে হবে। আমার বিশ্বাস তোমরা আগামীতে দেশের সম্মান বয়ে আনতে পারবে।’

হারের বৃত্তেই চট্টগ্রাম মোহামেডান

মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে মঙ্গলবার একটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামের দিনের একমাত্র ম্যাচে মুখোমুখি হয় টিএন্ডটি ক্লাব ও চট্টগ্রাম মোহামেডান।
ম্যাচে মোহামেডানকে ২-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছে টিএন্ডটি ক্লাব। লিগে টিএন্ডটি ক্লাবের এটা তৃতীয় জয়। অন্যদিকে চট্টগ্রাম মোহামেডানের পঞ্চম হার। ১০ ম্যাচে মাঠে নেমে মোহামেডান জয় পেয়েছে মাত্র ১টিতে। ড্র করেছে ৪টি।
মঙ্গলবার ম্যাচের ২৬ মিনিটে টিএন্ডটি ক্লাবের তানজিমুল হাসান গোল করে এগিয়ে নেন দলকে (১-০)। তার এই গোলটি ৬৮ মিনিটে চট্টগ্রাম মোহামেডানের ফরহাদ শোধ দেন (১-১)। কিন্তু সমতায় বেশিক্ষণ থাকতে পারেনি চট্টলার মোহামেডান। পরের মিনিটেই টিএন্ডটি ক্লাবের রাসেল আহমেদ গোল করে আবারো এগিয়ে নেন দলকে (২-১)। এই গোলটি আর শোধ দিতে পারেন সাদা-কালো জার্সিধারীরা। ফলে ২-১ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে মতিঝিলের টিএন্ডটি ক্লাব।
এ জয়ের ফলে ১০ ম্যাচ থেকে ১২ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের পঞ্চম স্থানে অবস্থান করছে টিএন্ডটি ক্লাব। আর ১০ ম্যাচ থেকে ৭ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের একেবারে তলানিতে অবস্থান নিয়েছে চট্টগ্রাম মোহামেডান।

রেলিগেশন শঙ্কায় ফেনী সকার

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলে রেলিগেশনের একেবারে দ্বারপ্রান্তে ফেনী সকার ক্লাব। ধারণা করা হচ্ছিল আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের বিপক্ষে জয় নিয়ে রেলিগেশন শঙ্কা কিছুটা হলেও কাটাবে তারা। কিন্তু সেটা আর হল কই? সন্তুষ্ট থাকতে হল গোলশূন্য ড্র নিয়েই।
আর এই ড্র’তে যেটা হল ২০ রাউন্ড শেষে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে থাকতে হল টেবিলের একেবারে তলানিতে, যা দলটির রেলিগেশনের শঙ্কা আরও ঘনীভূত করে তুললো।
তবে দলটির রেলিগেশন কাটানোর আশা একেবারেই শেষ হয়ে যায়নি। কেননা লিগে সকারুদের বাকি আছে আর মাত্র দুটি ম্যাচ। আর এই দুই ম্যাচের দুটিতেই জয় পেলে রেলিগেশন থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারবে কোচ লাডিবাবা লুলার শিষ্যরা।
এর আগে সোমবার আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের বিপক্ষে খেলতে নেমে শুরুটা ভালই করেছিল সকার ক্লাব ফেনী। ১৭ মিনিটে এগিয়ে যাবার দারুণ এক সুযোগও পেয়েছিল দলটি। কিন্তু সুযোগটি কাজে লাগাতে পারেননি মিডফিল্ডার হিমু। গোল পোস্টের একেবারে সামনে থেকে গোলরক্ষক মিতুল হাসানকে একা পেয়েও তাকে পরাস্ত করতে পারেননি।
পারেনি আরামবাগও। তাই গোলশূণ্য ড্র নিয়েই যেতে হয়, প্রথমার্ধের বিরতিতে। বিরতির পরেও ম্যাচের বাদ বাকি সময় জুড়ে ওই একই চিত্র। দু’দলই আক্রমণে গিয়েছে। কিন্তু জালে বল জড়াতে পারেনি কেউই।
ফলে নির্ধারিত সময় শেষে গোল শূন্য ড্র’তে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই মাঠ ছাড়তে হয় দু’দলকে।

চেনচোর জোড়া গোলে বড় জয় চট্টগ্রাম আবাহনীর

চেনচো গাইলেতসেনের জোড়া গোলে জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলে ১৯তম রাউন্ডের ম্যাচে টিম বিজেএমসিকে ৩-০ গোলে হারিয়ে মৌসুমের ১৩তম জয় তুলে নিল চট্টগ্রাম আবাহনী। আর এই জয়ে ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়স্থান অক্ষুন্ন রাখলো মামুনুল ইসলামরা। দলের হয়ে অপর গোলটি করেছেন মোহাম্মদ ইব্রাহিম। এদিকে চট্টগ্রাম আবাহনীর কাছে এই হারে ২১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের নবমস্থানে পড়ে রইলো টিম বিজেএমসি।
এর আগে সোমবার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে কিক অফের তিন মিনিটেই চট্টগ্রাম আবাহনীকে ১-০ তে এগিয়ে দেন চেনচো। ম্যাচের একেবারে শুরুতেই পিছিয়ে পড়ে প্রথমার্ধেই সমতায় ফিরতে চেয়েছে টিম বিজেএমসি। কিন্তু দলটির আক্রমণ ভাগের ব্যর্থতায় সেই লক্ষ্যে সফল হয়নি দলটি।
উল্টো প্রথমার্ধ শেষের একেবারে শেষ মুহূর্তে চেনচো দ্বিতীয়বারের মত বিজেএমসি জালে বল জড়ালে ২-০ তে লিড নিয়ে প্রথমার্ধের বিরতিতে যায় কোচ জোসেফ পাভলিকের শিষ্যরা। বিরতি থেকে ফিরে আক্রমণ ভাগকে আরও শান দিয়ে বিজেএমসি সীমানায় অল অ্যাটাক আক্রমণ রচনা করে চট্টগ্রাম আবাহনী। তাতে অবশ্য দলটি সফলও হয়েছে। কেননা ম্যাচের বয়স যখন ৬৬ মিনিট তখন জ্বলে উঠেন ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ ইব্রাহিম। তার সেই জ্বলনে ৩-০ তে পিছিয়ে পড়ে ম্যাচ থেকেই ছিটকে যায় টিম বিজেএমসি।
তবে ব্যবধান কমাতে রেফারির শেষ বাঁশি পর্যন্ত লড়ে গেছে বিজেএমসি। কিন্তু লাভ হয়নি। নির্ধারিত সময় শেষে মাঠ ছাড়তে হয়েছে ৩-০তে হারের গ্লানি নিয়েই।

গণমাধ্যমের খবরকে মিথ্যা-বানোয়াট বললেন সালাহউদ্দিন

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাহউদ্দিনের বিরুদ্ধে গণমাধ্যমের অর্থ দুর্নীতি সংক্রান্ত প্রচারিত খবরকে মিথ্যা, বানোয়াট ও ষড়যন্ত্র বলে উল্লেখ করলেন সভাপতি খোদ নিজেই। সোমবার (১৯ ডিসেম্বর) বিকেলে বাফুফে ভবনে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে গণমাধ্যমের সামনে তিনি নিজের স্বচ্ছতার অবস্থান তুলে ধরেন।
আত্মপক্ষ সমর্থণ করে এ সময় কাজী সালাহউদ্দিন বলেন, ‘এই সবই মিথ্যা ও বানোয়াট খবর। কারণ এর কোন বাস্তব ভিত্তি নেই। যেটা আমি বুঝতে পারছি, বাফুফে নির্বাচনে আমার কাছে যে গ্রুপটি হেরে গেছে, তারা বাংলাদেশ ফুটবল নিয়ে বিভিন্ন সময় ভিত্তিহীন সব অভিযোগ করে আসছে। তাদের আরও সুবিধা হয়ে গেছে ভুটানের কাছে বাংলাদেশ ওই ম্যাচটি হেরে যাওয়ায়। এটাকে উদ্দেশ্য করে পত্র পত্রিকা ও টিভিগুলো বিভিন্ন রকমের সংবাদ প্রচার করে যাচ্ছে। সেটা আপনারা করতেই পারেন। এখানে আমার কোন অভিযোগ নেই, কারণ এটি একটি গণতান্ত্রিক দেশ, আপনারা আপনাদের মতামত দেবেন এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু আমার অভিযোগ হল, কিছু কিছু জায়গায় কিছু কিছু অসত্য খবর ছাপানো হচ্ছে। যার বিরুদ্ধে আমি তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’
উল্লেখ্য গত রোববার (১৮ ডিসেম্বর) দেশের একটি দৈনিক প্রত্রিকা ও বেসরকারী টেলিভিশনে কাজী সালাহউদ্দিনের আর্থিক অস্বচ্ছতা নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রচার করে। যেখানে বলা হয়, ‘বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের চ্যাস্পিয়ন নেপালকে চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য নির্ধারিত টাকা দেয়া হয়নি। যেহেতু টুর্নামেন্টটি জাতির জনকের নামে সেহেতু এতে করে দেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর ভাব মুর্তি ক্ষুণ্ণ হয়েছে। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ সরাসরি সম্প্রচারের কথা যে সরঞ্জামাদি কেনা হয়েছে, সেখানে দুর্নীতি হয়েছে। বাংলাদেশ নারী ফুটবল উইংয়ের চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণ ও কাজী সালাহউদ্দিনের ইস্টার্ন ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট থেকে সম্প্রতি অস্বাভাবিক পরিমাণ অর্থ লেনদেন হয়েছে। ইউরো ২০১৬’র ফাইনাল ম্যাচে প্রধানমন্ত্রীর পরিবারের সদস্যরা খেলা দেখবেন উল্লেখ করে ৪টি টিকিট কেনা হয়েছে। প্রতিটি টিকিটের মূল্য ১০ হাজার ইউরো।’
এসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে সালাহউদ্দিন বলেন ‘আমার বিরুদ্ধে যদি কোন অভিযোগ থাকে তাহলে সেটা আমি নিজে মোকাবেলা করবো। কারণ আমি জানি আমরা আমাদের জায়গায় স্বচ্ছ। কিছু কিছু গণমাধ্যম বলছে সরকার আমার বিরুদ্ধ তদন্ত করবে। হ্যাঁ, সরকার সেটা করতেই পারে। আমার কোনো অসুবিধা নেই। সরকার তদন্ত করলে আমরা তার উত্তর দিয়ে দেব। আমি আবার বলছি এখানে কোন কিছুই অন্যায় হচ্ছে না।’
আর ইউরো ফুটবলের টিকিট ক্রয় ও বিক্রয় সংক্রান্ত অভিযোগটিকে অস্বীকার করে সালাহউদ্দিন জানান, ‘আমার বিরুদ্ধে বলা হয়েছে ইউরো কাপের ফাইনালের টিকিট বেচে আমি ৪০ হাজার ইউরো আয় করেছি। কোনো টিকিটই আমরা নেইনি এবং কোন টিকিট আমরা কিনিনি।’

রোনালদোর হ্যাটট্রিকে রিয়াল মাদ্রিদ চ্যাম্পিয়ন

ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপের ফাইনালে জাপানের ক্লাব কাশিমা অ্যান্টলার্সকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। এটা তাদের পঞ্চম ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা এবং গেল তিন বছরের মধ্যে দ্বিতীয় শিরোপা।
রোববার জাপানের ইয়োকোহামার নিশান স্টেডিয়ামে অতিরিক্ত সময়ে ৪-২ গোলে কাশিমা অ্যান্টলার্সকে হারিয়ে শিরোপা জিতে নেয় রিয়াল। নির্ধারিত সময়ে ম্যাচে ২-২ গোলের সমতা ছিল। অতিরিক্ত সময়ের ৯৭ ও ১০৪ মিনিটে রোনালদো গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন।
এর আগে ৬০ মিনিটের সময় পেনাল্টি থেকে আরো একটি গোল করেন রোনালদো। আর ম্যাচের ৯ মিনিটে করিম বেনজেমার গোলে লিড নিয়েছিল রিয়াল। কাশিরা অ্যান্টলার্সের গাকু শিবাসাকি ম্যাচের ৪৪ ও ৫২ মিনিটে গোল করে ম্যাচে সমতা ফেরান। অতিরিক্ত সময়ে রোনালদোর দুই গোলে ভাঙে সেই সমতা।
রোববার কাশিমা অ্যান্টলার্সের বিপক্ষে গোলের দেখা পেতে বেশি সময় নেয়নি রিয়াল। ম্যাচের ৯ মিনিটের মাথায় ডি বক্সের বাইরে থেকে শট নেন রিয়ালের লুকা মদ্রিচ। তার শট ফিরিয়ে দেন অ্যান্টলার্সের গোলরক্ষক। ফিরতে বলে জোরালো শট নিয়ে বল জালে জড়ান করিম বেনজেমা (১-০)।
৪৪ মিনিটে অ্যান্টলার্সের গাকু শিবাসাকি গোল করে ম্যাচে সমতা ফেরান (১-১)। সমতা নিয়েই শেষ হয় প্রথমার্ধের খেলা। বিরতির পর ৫২ মিনিটে গাকু শিবাসাকি নিজের জোড়া গোল পূর্ণ করে অ্যান্টলার্সকে এগিয়ে নেন (১-২)। গোটা স্টেডিয়ামকে ভাসান আনন্দে। কিন্তু ৮ মিনিট পর পেনাল্টি পায় রিয়াল। পেনাল্টি থেকে গোল করে ম্যাচে সমতা ফেরান ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো (২-২)।
এই সমতা নিয়েই শেষ হয় নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা। তাই সমতা ভাঙার জন্য ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। সেখানে ম্যাচের ৯৭ মিনিটে করিম বেনজেমার থ্রো থেকে বল পেয়ে যান রোনালদো। তিনি নিশানা ভেদ করতে ভুল করেননি (৩-২)। আর ১০৪ মিনিটের মাথায় টনি ক্রুসের সহায়তায় নিজের হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন রোনালদো। তাতে রিয়ালের জয় নিশ্চিত হয় ৪-২ গোলে।

ব্রাদার্স ইউনিয়নের জয়

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলে জয় পেয়েছে ব্রাদার্স ইউনিয়ন। রোববার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অগাস্টিন ওয়ালসনের শেষ মুহুর্তের গোলে ২-১ ব্যবধানে উত্তর বারিধারাকে হারিয়েছে ব্রার্দাস।
ম্যাচের ১১ মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল ব্রার্দাস। কিন্তু দলটির হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড অগাস্টিন ওয়ালসনের বাঁকানো ফ্রি কিক কোনোমতে পাঞ্চ করে মাঠের বাইরে পাঠান উত্তর বারিধারার গোলরক্ষক।
২৯ মিনিটে উত্তর বারিধারার ডিফেন্ডার মো. রকি ব্রাদার্সের ওয়ালসনের চিপ ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেই নিজেদের জালে বল জড়াতে যাচ্ছিলেন। কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে তার নেওয়া শট সাইড পোস্ট কাঁপিয়ে চলে আসে। ৩৮ মিনিটে ব্রাদার্স ইউনিয়ন আরো একটি সুযোগ পেয়েছিল। কাজে লাগাতে পারেনি।
অবশেষে ম্যাচের ৬১ মিনিটে ব্রাদার্সের মান্নাফ রাব্বী হেডে গোল করে সমর্থকদের আনন্দে মাতান (১-০)। তবে তাদের আনন্দ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। ৬৭ মিনিটে ব্রাদার্সের খালেকুজ্জামান সবুজ নিজেদের জালে নিজে বল জড়িয়ে উত্তর বারিধারাকে গোল উপহার দেন (১-১)।
ম্যাচের নির্ধারিত সময়ের ৩ মিনিট আগে হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড অগাস্টিন ওয়ালসনের গোলে আবারো এগিয়ে যায় ব্রাদার্স। প্রথম গোল করা মান্নাফ রাব্বী ওয়ালসনকে কাট ব্যাক করে গোল করার সুযোগ তৈরি করে দেন। ফলে ২-১ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে ব্রাদার্স ইউনিয়ন।
এ জয়ের ফলে ২০ ম্যাচ থেকে ২৭ পয়েন্ট নিয়ে ব্রাদার্স ইউনিয়ন পয়েন্ট টেবিলের পঞ্চম স্থানে অবস্থান নিয়েছে। অন্যদিকে ২০ ম্যাচ থেকে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের একাদশতম স্থানে রয়েছে উত্তর বারিধারা।

মেসির বিয়ে ২৪ জুন

বিয়ের গুঞ্জনটা কদিন ধরেই শোনা গেলেও ঠিক কবে বিয়ে করছেন সেটি নিশ্চিত করা যাচ্ছিল না। এবার তারিখটাও এক রকম ঠিক করে ফেলা হয়েছে। আগামী বছর নিজের জন্মদিনে (২৪ জুন) দীর্ঘ দিনের বান্ধবী রোকুজ্জোকে বিয়ে করবেন মেসি।

বিয়ের জন্য বিশাল কোনো প্রাসাদ, রাজকীয় হোটেল বা দ্বীপ নয়; যেখান থেকে সবকিছুর শুরু, সেখানেই ফিরে যাচ্ছেন দুজনে। বাঁধতে চলেছেন পবিত্র সম্পর্ক। নিজেদের সেই প্রথম পরিচয়ের রোজারিওতেই বিয়ে করবেন দুজনে।

আর্জেন্টিনার রোজারিওতে রোকুজ্জোর সঙ্গে দেখা হয়েছিল মেসির। ১৩ বছর বয়সে আর্জেন্টিনা ছেড়ে বার্সেলোনায় আসার পর সম্পর্কে খানিকটা বিরতি। এরপর ২০০৮ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে দুজনের মন-দেওয়া নেওয়ার শুরু। একে অপরকে বিশ্বাস করেন, ভালোবাসেন। প্রেমের সেই বন্ধনে তারা সেই থেকে এক ঘরেই থাকছেন। তাদের রয়েছে দুটি সন্তানও, থিয়াগো (৪ বছর) এবং মাতেও (১৫ মাস)।

চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

জাপানের দল শোনান বেলমারেকে ১-০ গোলে হারিয়ে অনূর্ধ্ব-১৪ পর্যায়ের ফুটবলারদের নিয়ে মালয়েশিয়াতে হওয়া সুপার মক কাপের প্লেট পর্বের চ্যাম্পিয়ন হল বাংলাদেশ। ফাইনালে বাংলাদেশকে কাঙ্ক্ষিত গোল এনে দেন সেমিফাইনালে ম্যান সিটির বিপক্ষে ২ গোল দেওয়া ফাহিম মোরশেদ।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন রোববার এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, জাপানের দল শোনান বেলমারেকে ১-০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ।  ম্যাচের ৩২তম মিনিটে অধিনায়ক ফাহিমের করা গোলটিই শেষ পর্যন্ত জয় এনে দেয় দলকে।

উল্লেখ্য, মালয়েশিয়ার সুপার মক কাপে আগের দুইবার প্লেট পর্বে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ।

শিরোপার আরো কাছে আবাহনী

নির্ধারিত ৯০ মিনিট শেষে ম্যাচ গড়িয়েছে যোগ হওয়া সময়ে। আবাহনীর বিপক্ষে ২-১ গোলে এগিয়ে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। কিন্তু বাড়িয়ে দেয়া ৪ মিনিটে বদলে গেলো সবকিছু। ১-২ গোলে পিছিয়ে থাকা আবাহনী নাটকীয়ভাবে ৩-২ ব্যবধানে ম্যাচ জিতে পৌঁছে গেলো শিরোপার আরো কাছে।

ম্যাচ শেষে ফল নিয়ে উঠলো নানা প্রশ্ন। শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের ডাগআউটে উত্তেজনা-এক কর্মকর্তার নাম ধরে খেলোয়াড়দের গালাগালি। বেশি উত্তেজিত ছিলেন শেখ জামালের দুই গোলদাতা নাইজেরিয়ান এমেকা ডার্লিংটন ও গাম্বিয়ান ল্যান্ডিং। ইনজুরি সময়ে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে ২ গোল খাওয়াটা মেনে নিতে পারছিলেন না দুই ভিনদেশি।

এমন কেন হলো? জবাবটা শুনুন ক্লাবটির ম্যানেজার কাজী জোসিম উদ্দিন জোসীর কাছ থেকে ‘আমার পক্ষ থেকে ম্যাচ ছেড়ে দেয়ার কোনো নির্দেশনা ছিল না।’ পাতানো খেলার ফিসফিসানি প্রসঙ্গে আবাহনীর ম্যানেজার সত্যজিৎ দাস রুপুর প্রতিক্রিয়া ‘কারা এসব বলে? যতসব ফালতু কথা। আমাদের ২টা নিশ্চিত পেনাল্টি দেননি রেফারি। আমরাই তো হারতে বসেছিলাম।’

৮৯ মিনিটে ইমন মাহমুদ বাবুর পরিবর্তে মাঠে নেমেছিলেন নাবিব নেওয়াজ জীবন। এর আগে গোটাদশেক ম্যাচ খেলেছেন বদলি হিসেবে। স্ট্রাইকার, কিন্তু কোনো গোল ছিল না তার নামের পাশে। বৃহস্পতিবার মাঠে নামার ৪ মিনিটের মধ্যে দুই গোল করলেন জীবন-যেন জাদুর কাঠি পেয়ে গিয়েছিলেন তিনি। জীবনের জন্য এটা বিরল কৃতিত্বই। তাতে যেন সহায়তা করলেন শেখ জামালের ডিফেন্ডাররা-অনেকটা বাধাহীনভাবেই দুইবার জালে বল পাঠিয়েছেন জীবন।

৪৩ মিনিটে জুয়েল রানার গোলে এগিয়ে গিয়েছিল আবাহনী। দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরুর ৩ মিনিটের মধ্যে শেখ জামালকে ম্যাচে ফেরান গাম্বিয়ান ল্যান্ডিং। ৮১ মিনিটে এমেকার গোলে লিড নেয় শেখ জামাল। বাকি সময়ের গল্পতো পুরোনো।

নাটকীয় এ জয়ে চট্টগ্রাম আবাহনীর সঙ্গে পার্থক্যটা আরো বাড়িয়ে নিলো আবাহনী। ২০ ম্যাচে চারবারের চ্যাম্পিয়নদের সংগ্রহ ৪৬ পয়েন্ট। এক ম্যাচ কম খেলা চট্টগ্রাম আবাহনীর পয়েন্ট ৪০। পঞ্চমবারের মতো বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে চ্যাম্পিয়ন হতে শেষ ২ ম্যাচ থেকে আবাহনীর দরকার ৪ পয়েন্ট। কোটানের দলের শেষ দুই প্রতিপক্ষ রহমতগঞ্জ ও উত্তর বারিধারা।

হ্যাটট্রিক আর গোলময় ম্যাচে বিজেএমসির হাসি

দুই হ্যাটট্রিক, ৯ গোল আর এক লাল কার্ড। সঙ্গে উত্তেজনা। একটি ফুটবল ম্যাচ জমাতে আর কি রসদ চাই? মঙ্গলবার রাতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে এমন রসদে ভরা ছিল টিম বিজেএমসি ও রহমতগঞ্জের ম্যাচ। হ্যাটট্রিক করেছেন বিজেএমসির নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড এলেটা কিংসলে ও রহমতগঞ্জের কঙ্গোর ফরোয়ার্ড সিও জুনাপিও।

লাল কার্ড দেখেছেন বিজেএমসির আরেক নাইজেরিয়ান স্যামন ইলিয়াসু। গোল-পাল্টা গোলের ম্যাচে হেসেছেন বিজেএমসির ফুটবলাররা। হ্যাটট্রিক আর গোলময় ম্যাচটি তারা জিতেছে ৫-৪ ব্যবধানে।

এলেটা কিংসলে ১৬ মিনিটে প্রথম, ৬২ মিনিটে দ্বিতীয় এবং ৮৮ মিনিটে পেনাল্টি থেকে তৃতীয় গোল করেন। ৩১ মিনিটে মেহেদী হাসান তপুর করা বিজেএমসির তৃতীয় গোলের উৎসও ছিলেন কিংসলে। রহমতগঞ্জের জুনাপিও গোল করেছেন ৫৬, ৫৮ ও ৮৭ মিনিটে। বিজেএমসির অন্য দুই গোল করেছেন  ইলিয়াসু ২৭ ও তপু ৩১ মিনিটে। রহমতগঞ্জের প্রথম গোলটি করেছেন মামুন পঞ্চম মিনিটে।

এ জয়ে ১৯ ম্যাচে ২১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ৮ নম্বরে উঠে এসেছে বিজেএমসি। সমান ম্যাচে রহমতগঞ্জের পয়েন্ট ২৭। তারা আছে চতুর্থ স্থানে।

জেএফএ বালিকা ফুটবলের ফাইনাল বুধবার

জাপান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের পৃষ্ঠপোষকতায় আয়োজিত জেএফএ অনূর্ধ্ব-১৪ জাতীয় মহিলা ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল বুধবার বিকেল ৩ টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে। ফাইনালে মুখোমুখি হবে রংপুর ও ময়মনসিংহ। দুই দলই চ্যাম্পিয়ন সুন্দর খেলা উপহার দিয়ে ফাইনাল জিততে চায়।

ময়মনসিংহের কোচ মকবুল হোসেন বলেন,‘গতবারের মত এবারও চ্যাম্পিয়ন হবার আশা করি।’ রংপুরের কোচ মো. শামিম খান বলেন,‘ম্যাচটি বেশ কঠিন হলেও, আমরা জেতার জন্য চেষ্টা করবো। আশা করছি চ্যাম্পিয়ন হবো।’

ময়মনসিংহের অধিনায়ক সাজেদা আখতারের প্রত্যাশা শিরোপা ধরে রাখার।  অন্যদিকে রংপুরের অধিনায়ক লাবনী আখতার প্রতিজ্ঞাবদ্ধ সহজে হার স্বীকার না করার।

বালিকা ফুটবলের ফাইনালে রংপুর ও ময়মনসিংহ

জেএফএ অনূর্ধ্ব-১৪ বালিকা ফুটবলের ফাইনালে উঠেছে রংপুর ও ময়মনসিংহ। সোমবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত প্রথম সেমিফাইনালে রংপুর টাইব্রেকারে ৩-১ গোলে হারিয়েছে ঠাকুরগাঁওকে এবং দ্বিতীয় সেমিফাইনালে সাতক্ষীরা মাঠে না আসায় ওয়াকওভার পায় ময়মনসিংহ। বুধবার ফাইনালে মুখোমুখি হবে রংপুর ও ময়মনসিংহ।

রংপুর ও ঠাকুরগাঁওয়ের মধ্যকার সেমিফাইনালের নির্ধারিত সময় খেলা ১-১ গোলে শেষ হলে টাইব্রেকারে ম্যাচের ফল নির্ধারন হয়।  টাইব্রেকারে ঠাকুরগাঁওয়ের মুন্নী ও আশামনির  শট ঠেকিয়ে রংপুরকে ফাইনালে পৌঁছে দেন ময়ূরী।

নির্ধারিত সময়ে ১১ মিনিটে বেবির দেয়া গোলে এগিয়ে যায় ঠাকুরগাঁও। প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে গোল করে সমতা আনেন রংপুরের রায়েরা। বাকি সময়ে কোনো দল গোল করতে না পারায় ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারন হয় টাইব্রেকারে।

বার্সা দলে আলভেজ-জাভিকে মিস করছেন মেসি

লিওনেল মেসির ক্লাব ক্যারিয়ারে যাদের অবদান সবচেয়ে বেশি, তাদের মধ্যে রয়েছেন দানি আলভেজ ও জাভি হার্নান্দেজও। আর মেসির সুবিধা পাওয়া মানেই তো বার্সেলোনার কয়েক ধাপ এগিয়ে যাওয়া। কাতালান দলটি থেকে বিদায় নিয়েছেন আলভেজ-জাভি।

বার্সা দলে এখন সেই আলভেজ-জাভিকে ভীষণ মিস করছেন মেসি। রাইট ব্যাকে আলভেজ যেভাবে বল যোগ দিতেন, তেমনটা নাকি এখন মেসি পাচ্ছেন না। এছাড়া মাঝমাটেও জাভির বিকল্প পায়নি বার্সা। এ ছাড়া মেসি-নেইমার-সুয়ারেজ ছাড়া উল্লেখযোগ্য কোনো স্ট্রাইকার নেই দলটিতে। আলকাসেরকে দিয়ে প্রত্যাশা কতটা পূরণ হবে, তা সময় সাপেক্ষ।

সম্প্রতি বার্সেলোনার সঙ্গে নতুন চুক্তি হওয়ার কথা রয়েছে মেসির। তার আগে আর্জেন্টিনা সুপারস্টার জাভ-আলভেজদের মতো ফুটবলার দলে টানতে শর্ত জুড়ে দিয়েছেন! দেবেনই বা না কেন? দল জিতলে মেসি বন্দনা, আর হারলে মেসিকে নিয়ে চলে সমালোচনা-নিন্দা। তাই তিন বিভাগে তিনজন ভালো মানের তথা ভরসা রাখার মতো ফুটবলার চান মেসি। স্প্যানিশ মিডিয়া জানিয়েছে এমন তথ্যই।

আবাহনীকে রুখে দিয়েছে শেখ রাসেল

চলমান প্রিমিয়ার লিগে আবাহনীকে আবারও রুখে দিয়েছে শেখ রাসেল। দুই দলের মধ্যকার ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়। ফলে, পয়েন্ট ভাগাভাগি করতে হয় শেখ রাসেলকে।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় পর্বের ম্যাচে মুখোমুখি হয় আবাহনী এবং শেখ রাসেল। প্রথম পর্বের মুখোমুখি দেখাতে ১-১ গোলে ড্র হয়েছিল।

জর্জ কোটানের দলকে রুখে দিতে ম্যাচের প্রথম থেকেই দুর্দান্ত খেলা উপহার দিয়েছে শেখ রাসেল। সর্বোচ্চ চারবারের চ্যাম্পিয়ন আবাহনী ম্যাচের ৩৮তম মিনিটে বড় ধাক্কা খায়। ইকাঙ্গাকে ফাউল করে লাল কার্ড দেখেন লি টাক। নয়জনের দলে পরিণত হয় শিরোপার দৌড়ে এগিয়ে থাকা আবাহনী।

প্রথমার্ধে কোনো দলই গোলের দেখা পায়নি। বিরতির সময় আনুষ্ঠানিকভাবে ফুটবলকে বিদায় বলে দেন আমিনুল ইসলাম জয়। ১৩ বছর ধরে শেখ রাসেলের রক্ষণভাগ সামলানো এই ডিফেন্ডার ২০০৩ সালে যোগ দেন দলটিতে।

দ্বিতীয়ার্ধে শফিকুল হক মানিকের শিষ্যরা নয়জনের আবাহনীকে চেপে ধরে। তবে, আবাহনীর জালে বল জড়াতে পারেনি শেখ রাসেল।

১৯ ম্যাচে সর্বোচ্চ ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকলো আবাহনী। ১৮ ম্যাচে ৩৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে চট্টগ্রাম আবাহনী। ২১ পয়েন্ট নিয়ে অষ্টম স্থানে শেখ রাসেল। শনিবার প্রথম ম্যাচে শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবকে রুখে দেয় ব্রাদার্স ইউনিয়ন। সেই ম্যাচটিও গোলশূন্য ড্রয়ে শেষ হয়।

রোনালদোকে পেছনে ফেললেন মেসি

ফর্মটা নাকি জোয়ার-ভাটার মতোই। এ তো আসে-যায়! ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসি দ্বৈরথেও এ প্রসঙ্গটা চলে আসলো আরো একবার। সম্প্রতি দারুণ ছন্দে রয়েছেন মেসি। আর কিছুটা ছন্দ হারিয়ে ফেলেছেন রোনালদো! যার প্রভাব পড়েছে পরিসংখ্যানেও।

ওসাসুনার বিপক্ষে বার্সেলোনার ৩-০ ব্যবধানে জয়ের ম্যাচে জোড়া গোল করেছেন মেসি। আর তাতে চলতি মৌসুমে স্প্যানিশ লা লিগায় এককভাবে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় রোনালদোকে পেছনে ফেললেন তিনি। আর্জেন্টিনা অধিনায়ক টপকে গেছেন লুইস সুয়ারেজকেও।

এবারের মৌসুমে লা লিগায় ১১ ম্যাচ খেলেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।  রিয়াল মাদ্রিদ সুপারস্টার নামের পাশে যোগ করেছেন ১০ গোল। ১৪ ম্যাচ খেলে সমসংখ্যক (১০) গোল করেছেন লুইস সুয়ারেজও। আর ১২ ম্যাচ খেলা মেসি প্রতিপক্ষের জাল কাঁপিয়েছেন ১১ বার।

মেসি-সুয়ারেজে জয়ে ফিরলো বার্সা

সর্বশেষ সেভিয়ার বিপক্ষে তাদেরই মাঠে গিয়ে ২-১ গোলে জয় পেয়েছিল বার্সেলোনা। এরপর পরাজয় নয়, একের পর এক ম্যাচ ড্র করে শুধু পয়েন্ট হারানোর শুরু। মালাগার সঙ্গে গোলশূণ্য, রিয়াল সোসিয়েদাদের সঙ্গে ১-১, রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে ইতিমধ্যেই পয়েন্ট টেবিলে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর চেয়ে অনেক পেছনে পড়ে গেছে কাতালানরা। ট্র্যাকে ফেরার জন্য একটি জয় খুব প্রয়োজন ছিল। অবশেষে ওসাসুনার মাঠে গিয়ে মেসি এবং সুয়ারেজের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে সেই জয়টির দেখা পেলো বার্সেলোনা।

মেসি এবং সুয়ারেজরা ওসাসুনাকে হারিয়েছে ৩-০ গোলের ব্যাবধানে। তিন গোলই এসেছে মেসি এবং সুয়ারেজের কাছ থেকে। মেসি করলেন দুটি এবং সুয়ারেজ ১টি। তিনটি গোলই করেছেন তারা দু’জন। অথচ, তারা গোল মিসও করেছেন অনেকগুলো। বিশেষ করে, শুরুতে অনেকগুলো সুযোগ তৈরি করলেন মেসি নিজে, নষ্টও করলেন কিছু।

তবে মেসি-সুয়ারেজরা ছন্দে ফিরতে পেরেছেন দ্বিতীয়ার্ধে এসে। প্রথমার্ধে গোলশূন্য ড্র থাকার পর বার্সার ফুটবলারদের চিরন্তন পাসিং ফুটবল অবশেষে দলকে তিন ড্রয়ের পর এনে দিলো কাংখিত জয়টি। তবে দ্বিতীয়ার্ধে পাসিং ফুটবলের অনন্য নির্দশন আর মেসি জাদুতে লা লিগায় টানা তিন ড্রয়ের পর দুর্দান্ত এক জয় তুলে নিল বার্সেলোনা।

আজ (শনিবার) স্থানীয় সময় দুপুরেই মাঠে নামে বার্সেলোনা এবং ওসাসুনা। ৩-০ গোলের ব্যবধানে জয়ের চিত্রটা হতে পারতো ৫-০ কিংবা ৬-০। কারণ, মেসি এবং সুয়ারেজরা অনেকগুলো সহজ সুযোগ পেয়েও ওসাসুনার জালে বল জড়াতে পারেননি। কেন যেন ইচ্ছে করেই বল মেরে দিয়েছেন পোস্টের বাইরে।

খেলার সপ্তম মিনিটেই পরিস্কার সুযোগ পেয়েছিলেন লুইস সুয়ারেজ। মেসির কাছ থেকে বল পেয়ে সুয়ারেজ শটটা মেরে দেন অনেক বাইরে। এর ১২ মিনিট পর আবারও দারুণ সুযোগ। জর্দি আলবার কাছ থেকে বল পেয়ে আবারও সুয়ারেজ শট মারলেন পোস্টের বাইরে। কয়েকবার গোলের দারুণ সুযোগ মিস করেন মেসি নিজেও।

৫৯তম মিনিটে দুর্দান্ত পাসিং ফুটবলে দারুণ গোলটি করে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। মেসির বাড়ানো বল পেয়ে স্প্যানিশ ডিফেন্ডার আলবা বাঁ দিক থেকে ছোটো বক্সে পাস দেন। ফাঁকা জালে বল পাঠাতে সুয়ারেজের একটু ছোঁয়ারই প্রয়োজন ছিল।

৭২তম মিনিটে মেসির ব্যবধান দ্বিগুণ করা গোলটির উৎস ছিলেন তিনি নিজেই। বাঁ-দিকে ছুটে আসা ডেনিস সুয়ারেসকে বল বাড়িয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন। পরে বাইলাইন থেকে আলবার দুর্দান্ত কাটব্যাক পেয়ে লক্ষ্যভেদ করেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার।

এরপর আরও ব্যবধান মেসি, ম্যাচের ইনজুরি টাইমে। এ সময় একক নৈপুণ্যে ওসাসুনা ডিফেন্ডারদের বোকা বানিয়ে ছাড়েন তিনি। অসাধারণ ড্রিবলিংয়ে দু’জনকে কাটিয়ে তিন জনের মধ্যে দিয়ে বল জালে পাঠান তিনি।

এবারের লিগে মেসির এটি একাদশতম গোল। সমান ১০ গোল নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন তার সতীর্থ সুয়ারেজ ও রিয়াল মাদ্রিদের ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। একই সঙ্গে এই জয়ে শীর্ষে থাকা রিয়ালের সঙ্গে ৩ পয়েন্টের ব্যবধান কমালো বার্সেলোনা। ১৫ ম্যাচে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে কাতালুনিয়ার দলটি। এক ম্যাচ কম খেলা রিয়ালের পয়েন্ট ৩৪।

ভিক্টোরিয়াকে হারিয়ে শীর্ষে ফকিরেরপুল

মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে শুক্রবার একটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে দিনের একমাত্র ম্যাচে মুখোমুখি হয় ফকিরেরপুল ইয়াংমেন্স ক্লাব ও ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব। ম্যাচে জয় পেয়েছে ফকিরেরপুল। ১-০ গোলে ভিক্টোরিয়াকে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে অবস্থান নিয়েছে তারা।
বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুক্রবার অবশ্য প্রথমার্ধে কোনো গোলের দেখা পায়নি কোনো দল। দ্বিতীয়ার্ধের ৮৮ মিনিটের আগে কোনো দল গোলমুখ খুলতে পারেনি। ৮৯ মিনিটের সময় ফকিরেরপুলের জাহিদুল ইসলাম ডালিম গোল করে এগিয়ে নেন দলকে। তার গোলটিই শেষ পর্যন্ত ম্যাচের ভাগ্য বদলে দেয়।
এ জয়ের ফলে পয়েন্ট টেবিলেও উন্নতি হয়েছে ফকিরেরপুল ইয়াংমেন্স ক্লাবের। ৮ ম্যাচ থেকে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে অবস্থান নিয়েছে তারা। ৮ ম্যাচ থেকে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। আর ৮ ম্যাচ থেকে ৭ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের সপ্তম স্থানে রয়েছে ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব।

ড্র করে রানার্সআপ রিয়াল

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ সেরা হতে ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে ফিরতি লেগে জয়ের বিকল্প ছিল না রিয়ালের। এমন ম্যাচে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গিয়েও ঘরের মাঠে জিততে পারেনি তারা। শেষ মুহূর্তে গোল হজম করে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের সঙ্গে ড্র করেছে প্রতিযোগিতার সফলতম দলটি। আর এ ড্রতে গ্রুপে দ্বিতীয় অবস্থানে থেকেই শেষ ষোলোতে গেলো জিদানের শিষ্যরা।

টানা ৩৩ ম্যাচে অপরাজিত থাকার আত্মবিশ্বাস নিয়ে ঘরের মাঠে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে মাঠে নামে রোনালদো-বেনজামারা। ম্যাচের দশম মিনিটে দলকে এগিয়ে নেওয়ার সহজ সুযোগ পেয়েছিল বেনজামা। তবে রোনালদোর পাস থেকে পাওয়া বলে শট নিতে ব্যর্থ হন ফরাসি এই তারকা।

ম্যাচের ২৮ কারবাহালের দারুণ ক্রস থেকে বল পেয়ে গোল করে দলকে লিড এনে দেন বেনজামা। ম্যাচের ৩৯ মিনিটে সমতায় ফেরার সুযোগ পেয়েছিল ডর্টমুন্ড। তবে আন্দ্রে শুরলের ফ্রি কিক ডান দিকে ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান রিয়াল গোলরক্ষক নাভাস।ফলে ১-০ তে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় রিয়াল।

real

বিরতি থেকে ফিরে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন বেনজামা। বাঁ দিক থেকে রদ্রিগেসের দারুণ ক্রস ছয় গজ বক্সের মুখে পেয়ে আসরে নিজের চতুর্থ গোলটি করেন এই ফরাসি স্ট্রাইকার। ৬০ মিনিটে মার্সেল সিমেলজারের বাড়ানো বলে গোল করে ব্যবধান কমান আউবামেয়াং। ম্যাচের ৬৮ মিনিটে ডি বক্সের মুখে থেকে রোনালদোর জোরালো শট ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান সফরকারী দলের গোলরক্ষক। আর রদ্রিগেসের নেওয়া কর্নারে বেনজেমার হেড গোললাইন থেকে ফেরান এক ডিফেন্ডার।

এদিকে ম্যাচের ৭৮ মিনিটে গোলের সহজ সুযোগটি নষ্ট করেন রোনালদো। বাঁ-দিকে ফাঁকায় বল পেয়ে পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের নেওয়া কোনাকুনি শট গোলরক্ষককে পরাস্ত করলেও পোস্টের বাধা এড়াতে পারেনি। এই নিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে টানা চার ম্যাচে গোলশূন্য থাকলেন প্রতিযোগিতায় ৯৮ গোল নিয়ে ‘সেঞ্চুরি’ করার অপেক্ষায় থাকা আসরের সর্বোচ্চ এই গোলদাতা।

উল্টো ম্যাচের ৮৮ মিনিটে দারুণ এক প্রতি-আক্রমণে সমতাসূচক গোলটি করেন রয়েস। বাকি সময় আর গোল না হলে ২-২ গোলের ড্র নিয়েই মাঠ ছাড়ে রিয়াল। এর আগে প্রথম লেগের ম্যাচটিও ২-২ গোলে ড্র হয়েছিল।

real

রোনালদোকে ছুঁতে পারলেন না মেসি

আরদা তুরানের হ্যাটট্রিকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপপর্বের ম্যাচে বরুশিয়া মনশেনগ্লাডবাখের বিপক্ষে ৪-০ গোলের বড় জয় পেয়েছে বার্সা। ওই ম্যাচে প্রথম গোলটি করেন লিওনেল মেসি। চলতি মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপপর্বে এটি ছিল মেসির দশম গোল।

এই ম্যাচেই একটি রেকর্ড গড়তে পারতেন মেসি। আর দুটি গোল অর্থাৎ মনশেনগ্লাডবাখের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করলেই এক মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে সর্বোচ্চ ১১ গোল করা রোনালদোর রেকর্ডটি ভাঙতে পারতেন তিনি। আর অন্তত একটি গোল অর্থাৎ এই ম্যাচে জোড়া করতে পারলে রোনালদোর রেকর্ডে ভাগ বসাতে পারতেন মেসি।

আপাতত রোনালদোকে ছুঁতে পারছেন না মেসি। কারণ মনশেনগ্লাডবাখের বিপক্ষে এই ম্যাচটিই ছিল চলতি মৌসুমের আসরটির গ্রুপ পর্বে বার্সার শেষ ম্যাচ। বার্সেলোনা সুপারস্টারকে তাই আরো একটি বছর অপেক্ষা করতে হচ্ছে।

তুরানের হ্যাটট্রিকে জয়ে ফিরলো বার্সা

সময়টা ভালো যাচ্ছিল না বার্সার। এর আগে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে শেষ তিন ম্যাচ জয়শূন্য ছিল বার্সেলোনা, শেষ পাঁচ ম্যাচের চারটিতেই ড্র। অবশেষে জয়ের দেখা পেলো মেসিরা। আর্দা তুরানের হ্যাটট্রিকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বরুসিয়া মনশেনগ্লাডবাখের বিপক্ষে ৪-০ গোলের বড় জয় পেয়েছে লুইস এনরিকের দল।

আগের ম্যাচেই শেষ ষোলো নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় ঘরের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে সুয়ারেজ, টের স্টেগান, পিকেসহ নিয়মিত একাদশের কয়েকজনকে বিশ্রাম দেন কোচ। আর ইনজুরির কারণে দলে ছিলেন না নেইমার। তবে মাঠে থাকা মেসি শুরুতেই দলকে এগিয়ে দেন। ম্যাচের ১৬ মিনিটে তুরানের কাছ থেকে বল পেয়ে কোনাকুনি শটে দূরের পোস্ট দিয়ে বল জালে জড়ান আর্জেন্টিনা অধিনায়ক।

barsa

বিরতির ঠিক আগে মেসির আরেকটি প্রচেষ্টা কর্নারে মাধ্যমে রক্ষা করেন মনশেনগ্লাডবাখের গোলরক্ষক। ফলে ১-০ তে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় বার্সা।

বিরতি থেকে ফিরেই তিন মিনিটের ব্যবধানে দুই গোল করে দলে ৩-০ তে এগিয়ে দেন তুরান। ম্যাচের ৫০ মিনিটে ডেনিস সুয়ারেজের ক্রসে হেডে নিজের প্রথম গোলের পর ৫৩ মিনিটে ভিদালের বাড়ানো বলে নীচু শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন এই তুর্কি মিডফিল্ডার। আর ম্যাচের ৬৭ মিনিটে আলকাসেরের বাড়ানো বলে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন তুরান।

বাকি সময় আর গোল না হলে ৪-০ গোলের বড় ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মেসি-তুরানরা। আর এ জয়ে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ পর্ব শেষ করলো মেসিরা। ‘সি’ গ্রুপের অন্য ম্যাচে স্কটল্যান্ডের ক্লাব সেল্টিকের সঙ্গে ঘরের মাঠে ১-১ গোলে ড্র করেছে ম্যানচেস্টার সিটি।

পেরেজের হ্যাটট্রিকে আর্সেনালের বড় জয়

স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড লুকাস পেরেজের হ্যাটট্রিকে সুইজারল্যান্ডের ক্লাব বাসেলকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ইংলিশ জায়ান্ট আর্সেনাল। আর এ জয়ে গ্রুপের শীর্ষস্থানে থেকেই শেষ ষোলোতে গেলো ওয়েঙ্গারের শিষ্যরা।

আগের ম্যাচে শেষ ষোলো নিশ্চিত করা আর্সেনাল ম্যাচের শুরু থেকেই প্রতিপক্ষের মাঠে আক্রমণাত্মক হয়ে খেলতে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় ম্যাচের ৮ মিনিটে সানচেজের কাছ থেকে বল পেয়ে পেরেজের দিকে বাড়ান গিবস। আর তা থেকে গোল করে দলকে লিড এনে দেন পেরেজ। এর আট মিনিট পর নিজের দ্বিতীয় গোল করেন পেরেজ। ওজিলের বাড়ানো বলে গিবসের শট বাসেল গোলরক্ষক ফিরিয়ে দিলে ফিরতি বলে শট নিয়ে বল জালে জড়ান স্প্যানিশ এই ফরোয়ার্ড।

arsenal

বিরতি থেকে ফিরেই নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন পেরেজ। সানচেজের দিকে গিবসের বাড়ানো বল নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে দলকে ৩-০ তে এগিয়ে দেন পেরেজ। ম্যাচের ৫৩ মিনিটে আলেক্স ওবি গোল করলে ৪-০ তে এগিয়ে যায় গানাররা। তবে শেষ দিকে ম্যাচের ৭৮ মিনিটে স্বাগতিকদের হয়ে ডুমবিয়া গোল করলে শুধু পরাজয়ের ব্যবধান কমে।

এদিকে লেভানদোভস্কির একমাত্র গোলে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে হারিয়ে মধুর প্রতিশোধ নিয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। প্রথম পর্বে স্পেনের ক্লাবটির মাঠে ১-০ ব্যবধানে হেরেছিল জার্মান চ্যাম্পিয়নরা।

গোপালগঞ্জবাসীকে জয় উপহার আবাহনীর

গ্যালারিতে এক দল সমর্থকের দাবি-শেখ ফজলুল হকি মনি স্টেডিয়ামকে আবাহনীর হোম ভেন্যু করা হোক। শেখ কামালের প্রতিষ্ঠিত এ ক্লাবটির সঙ্গে জড়িয়ে আছে বঙ্গবন্ধু পরিবারের নানা স্মৃতি। সেই ক্লাবের খেলা যখন গোপালগঞ্জে আর প্রতিপক্ষ চির প্রতিদ্বন্দ্বী মোহামেডান তখন ম্যাচটি ঘিরে বঙ্গবন্ধুর জন্মভূমির মানুষের বাড়তি আগ্রহ তো থাকবেই।

ছিলও তাই। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ১৮ রাউন্ডের ম্যাচগুলো হয়েছে শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে। মঙ্গলবারই যে বেশি মানুষ হাজির হয়েছিল এ ভেন্যুতে। গ্যালারিতে ঠাঁই নেই, কয়েক হাজার দর্শক খেলা দেখেছে দেয়ালের বাইরে দাঁড়িয়ে। যার বেশিরভাগ সমর্থকই ছিল আবাহনীর।

প্রিমিয়ার লিগের চারবারের চ্যাম্পিয়নরা গোপালগঞ্জবাসীকে হতাশ করেনি। আকর্ষণীয় ফুটবল খেলেই তাদেরকে জয় উপহার দিয়ে ফিরছে ঢাকায়। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহামেডানকে এ লিগে দ্বিতীয়বার হারিয়ে শিরোপা উদ্ধারের পথে আরেক ধাপ এগিয়ে গেলো আকাশি-হলুদরা। প্রথম পর্বের ফলাফল ছিল ৩-০, এবার ২-১।

১৮ ম্যাচে আবাহনীর এটি ১২ তম জয়। এবারের লিগে এখন পর্যন্ত একমাত্র অপরাজিত দলটি ৪২ পয়েন্ট নিয়ে আরেক ধাপ পেছনে ফেললো চট্টগ্রাম আবাহনীকে। সমান ম্যাচে যাদের পয়েন্ট ৩৭। এ হারে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে রেলিগেশন অঞ্চলেই পড়ে রইলো মোহামেডান।

ম্যাচের তিনটি গোলই হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধে। ৫১ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে আবাহনীকে এগিয়ে দেন ইংলিশ ফুটবলার লি টাক। ৮০ মিনিটে ব্যবধান বাড়ান নাইজেরিয়ান সানডে চিজোবা। ইনজুরি সময়ে গোল করে ব্যবধান কমান মোহামেডানের ক্যামেরুনের ডিফেন্ডার পওমি লন্দ্রে। এ ম্যাচের মধ্যে দিয়ে শেষ হলো প্রিমিয়ার লিগের গোপালগঞ্জ পর্ব।

স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলকে সম্মাননা জানাবে প্রগতি সংঘ

ক্লাবের সুবর্ণ জয়ন্তী উৎসবে স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলকে সম্মাননা জানাবে মতিঝিল প্রগতি সংঘ। সোমবার বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের অডিটোরিয়ামে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দিয়েছেন প্রগতি সংঘের সভাপতি মো. জুবের আলম খান রবিন।

তিনি বলেছেন,‘মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে জনমত গঠনের পাশাপাশি মুক্তিযোদ্ধা ফান্ডে আর্থিক সহায়তা করা বিশে^র প্রথম মুক্তিযোদ্ধা ফুটবল দলটিকে বিজয়ের মাসে আমরা সম্মননা জানাচ্ছি। এসময় প্রগতি সংঘের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইমরুল কবীর সুমন, সিনিয়র সহসভাপতি এডভোকেট আমির হোসেন, উপদেষ্টা মো. জাহিদ হোসেন লিটন, সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন কমিটির মেম্বার সেক্রেটারী মো.শাহিদ-উল-মুনীর উপস্থিত ছিলেন।

মতিঝিলের এজিবি কলোনিতে ১৯৬৬ সালে প্রতিষ্ঠিত ক্লাবটি বিজয়ের মাসে ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে উৎসব উদযাপন শুরু করছে। দীর্ঘ পথপরিক্রমায় সংগঠনটির সঙ্গে সম্পৃক্ত ও ঢাকার মতিঝিলের বরেণ্য ৫০ জন গুণীব্যক্তিসহ মুক্তিযোদ্ধা ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠকদের এ অনুষ্ঠানে সম্মাননা জানানো হবে।

গোল ডটকমের বর্ষসেরা পগবা

ব্যালন ডি অরের সংক্ষিপ্ত তিনে না থাকলেও ফুটবল বিষয়ক জনপ্রিয় অনলাইন ভিত্তিক সাইট গোল ডটকমের বিচারে ২০১৬ সালের সেরা ফুটবলার নির্বাচিত হতে চলেছেন ফরাসি মিডফিল্ডার পল পগবা। গত মৌসুমে জুভেন্টাস ও  জাতীয় দলের জার্সি গায়ে দারুণ সময় কাটিয়েছেন।

চলতি মৌসুমে জুভেন্টাস ছেড়ে ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দেওয়া এই তারকা ফুটবলার ব্যালন ডি অরের সেরা ২৩ ফুটবলারের সংক্ষিপ্ত তালিকায় ছিলেন। মৌসুমে রেড ডেভিলদের তাবুতে যোগ দেয়ার আগে তুরিনের হয়ে ৮টি গোলের পাশাপাশি ১২টি গোলে অ্যাসিস্টও করেছেন তিনি। এদিকে ঘরের মাঠে ইউরোতে ফ্রান্সকে ফাইনালে তুলে আনার ক্ষেত্রে বেশ বড় ভূমিকা রাখেন এই মিডফিল্ডার।

উল্লেখ্য, এখন পর্যন্ত ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ১৩টি ম্যাচে পগবার গোলের সংখ্যা ২টি।

গোপালগঞ্জে ‘আবাহনী-মোহামেডান’ লড়াই

আশি কিংবা নব্বই দশক হলে এ দিনটায় দেশের বিভিন্ন স্থানে উড়তো মোহামেডান আর আবাহনীর পতাকা। চায়ের কাপে ঝড় উঠতো। দেশের দুই জনপ্রিয় ক্লাবের ম্যাচ নিয়ে আলোচনায় বুদ হয়ে থাকতো ফুটবলামোদীরা। কিন্ত ফুটবলের সেই রমরমা অবস্থা নেই। এখন কবে কোন দলের খেলা তার খবরও রাখেন না অনেকে!

তার পরেও আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচ বলে কথা। ঢাকায় দর্শক ঘরা চললেও ঢাকার বাইরে এখনো ফুটবলের টানে মাঠে ছুটে যান অনেকে। সেই ঢাকার বাইরেই প্রিমিয়ার লিগে প্রথম হতে যাচ্ছে ‘মোহামেডান-আবাহনী লড়াই।’ গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে দুই দল মর্যাদার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে মঙ্গলবার। ম্যাচটি শুরু হবে বিকাল ৩ টায়। সাদা-কালো আর আকাশি-হলুদদের লড়াই দর্শক কতটা টানতে পারবে সেটাও দেখার বিষয়।

দুই দলেরই এটি ১৮তম ম্যাচ। লিগের দ্বিতীয় পর্বের লড়াই। এ ম্যাচটি হতে পারতো শিরোপা জয়ের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ। এক দলের জন্য সেটা হলেও আরেক দলের জন্য অন্যভাবে গুরুত্বপূর্ণ। শিরোপা পুনরুদ্ধারের দৌঁড়ে অবস্থান আরও মজবুত করতে আবাহনীর জয় চাই। আর মোহামেডানের জয় প্রয়োজন রেলিগেশন অঞ্চল থেকে বের হওয়ার জন্য। ১৭ ম্যাচ শেষে ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে আবাহনী। মোহামেডান ১৭ পয়েন্ট নিয়ে আছে ১০ নম্বরে।

এ পরিসংখ্যানই বলে দিচ্ছে দুই দলের জন্য দুই রকম গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। দুই দলের প্রথম পর্বের লড়াইয়ে আবাহনী জিতেছিল ৩-০ গোলে। মোহামেডানের জন্য প্রতিশোধেরও ম্যাচ। কিন্তু উড়তে থাকা আবাহনীকে হারিয়ে তা কি পারবে মোহামেডান? তাদের মাঠের পারফরম্যান্স সে সাহস দিচ্ছে না সমর্থকদের।

সাইফকে রুখে দিয়েছে টিঅ্যান্ডটি ক্লাব

যে টিঅ্যান্ডটি ক্লাবকে গুঁড়িয়ে দিয়ে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে অভিষেক হয়েছিল সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের, সেই টিঅ্যান্ডটি ক্লাবের কাছে পয়েন্ট হারিয়ে দ্বিতীয় পর্ব শুরু করলো নবাগত দলটি। মধ্যবর্তী দলবদলের পর সোমবার শুরু হয়েছে লিগের ফিরতি পর্ব। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব ও টিঅ্যান্ডটি ক্লাবের মধ্যেকার দ্বিতীয় পর্বের প্রথম ম্যাচটি ড্র হয়েছে ১-১ গোলে।

১৮ মিনিটে মিলন বর্মনের গোলে এগিয়ে যায় টিঅ্যান্ডটি ক্লাব। ২২ মিনিটে মতিন মিয়ার গোলে সমতায় ফেরে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। ড্র করেও ৮ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে সাইফ এসসি। ৬ পয়েন্ট নিয়ে ৭ নম্বরে টিঅ্যান্ডটি ক্লাব।

লড়াকু রাসেলে ব্রাদার্সের ড্র

লড়াকু মনোবলের এক অনুপম প্রদর্শণীতে দ্বিতীয়ার্ধে দুটি গোল করে ব্রাদার্স ইউনিয়নের সঙ্গে ২-২ গোলে ম্যাচ ড্র করেছে শেখ রাসেল।
রবিবার গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এই খেলার ২৯ মিনিটে ব্রাদার্সকে এগিয়ে দেন হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড অগাস্টিন ওয়ালসন। আর ৫৯ মিনিটে তার করা দ্বিতীয় গোলে ব্রাদার্স দেখতে থাকে জয়ের স্বপ্ন।
তবে ৬৪ মিনিটে পেনাল্টিতে রাসেলকে ম্যাচে ফেরান মিন্টু শেখ, আর ক্যামেরুনিয়ান ডিফেন্ডার জঁ জুলিয়াস ইকঙ্গা ৭৫ মিনিটে দ্বিতীয় গোল করলে হারের আশঙ্কা থেকে বেরিয়ে আসে রাসেল। শেষ পর্যন্ত ম্যাচ ড্র হয়ে যায়। ১৮ ম্যাচ শেষে ব্রাদার্সের পয়েন্ট ২৩, আর রাসেলের ২০।

শিরোপা লড়াইয়ে ফিরলো চট্টগ্রাম আবাহনী

টানা তৃতীয় জয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের শিরোপা লড়াইয়ে ভালোভাবেই ফিরে এসেছে চট্টগ্রাম আবাহনী। শনিবার গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে চট্টলার দলটি ১-০ গোলে হারিয়েছে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে।

ম্যাচের একমাত্র গোলটি করেছেন নাইজেরিয়ান ডিফেন্ডার আলিসন উদুকা ২৮ মিনিটে। দুই দলের প্রথম পর্বের ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছিল।

এ জয়ে ১৮ ম্যাচে ৩৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে স্বাধীনতা কাপ চ্যাম্পিয়ন চট্টগ্রাম আবাহনী। এক ম্যাচ কম খেলা ঢাকা আবাহনী ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে আছে শীর্ষে। আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ পড়ে থাকলো আগের ৭ নম্বরেই। ১৮ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ২১ পয়েন্ট।

শেখ রাসেলের দাবা দল ঘোষণা

আসন্ন প্রিমিয়ার ডিভিশন দাবা লিগের জন্য বর্তমান চ্যাম্পিয়ন শেখ রাসেল মেমোরিয়াল স্পোর্টিং ক্লাব ৬ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে। শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্যে ক্লাবটি রাশিয়ার দুইজন সুপার গ্র্যান্ডমাস্টার আনছে।

দেশের সর্বোচ্চ রেটিংধারী গ্র্যান্ডমাস্টার জিয়াউর রহমান, দাবার কিংবদন্তী আন্তর্জাতিক মহিলা মাস্টার রানী হামিদ,  উদীয়মান খেলোয়াড় আন্তর্জাতিক মাস্টার আবু সুফিয়ান শাকিল এবং ফিদে মাস্টার মেহেদি হাসান পরাগ খেলবেন চ্যাম্পিয়ন দলে। রাশিয়ার দুই সুপার গ্র্যান্ডমাস্টারের একজন হচ্ছেন আমনতভ ফারুক।

এবার লিগে ক্লাবটির অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করবেন রানী হামিদ। ম্যানেজার হিসেবে থাকছেন মো. মোকাদ্দেছ হোসাইন। অফিসিয়াল টিম ম্যানেজমেন্টের দায়িত্বে রয়েছেন ক্লাবের সহসভাপতি শেখ মনি এবং সাধারণ সম্পাদক ক্যাপ্টেন রাফসান জানি।

চট্টগ্রাম আবাহনীর দশম জয়

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে দশম জয় পেয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী। রোববার ঘরের মাঠ এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে তারা ২-০ গোলে হারিয়েছে রহমতগঞ্জকে। চট্টগ্রাম আবাহনী প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়েছিল।

ভুটানের চেনচো গোল করে ২২ মিনিটে এগিয়ে দেন চট্টলার দলটিকে। ব্যবধান বাড়াতে মরিয়া মামুনুলরা সফল হয় ৭০ মিনিটে। অধিনায়ক নিজে গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন।

এ জয়ে ১৭ ম্যাচে ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে স্বাধীনতা কাপ চ্যাম্পিয়ন দলটি। শীর্ষে থাকা আবাহনীর সঙ্গে ব্যবধান কমিয়ে আনলেও এখনো চারবারের চ্যাম্পিয়নরা এগিয়ে ২ পয়েন্টে। একটি ম্যাচ কম খেলা আবাহনীর পয়েন্ট ৩৬। ১৭ ম্যাচে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে রহমতগঞ্জ।

প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়ে বাংলাদেশ

এশিয়ান হকি ফেডারেশন (এএইচএফ) কাপের সেমিফাইনালে সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়ে বাংলাদেশ। শনিবার হংকংয়ের কিংস পার্ক স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় ২টায় শুরু হয়েছে ম্যাচটি।

অপেক্ষাকৃত সহজ প্রতিপক্ষের বিপক্ষে বাংলাদেশকে গোলের জন্য অপেক্ষা করতে হয়েছে ২৬ মিনিট। মিলন হোসেনের ফিল্ড গোলে এগিয়ে যায় জিমি-চয়নরা। এরপর ২৯ মিনিটে রোমান সরকারের ফিল্ড গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।

ফিফা র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের উন্নতি

এএফসি এশিয়ান কাপের বাছাইপর্বের প্লে-অফে ভুটানের কাছে হারই সর্বনাশ ডেকে এনেছিল বাংলাদেশের ফুটবলের! নিজেদের ফুটবল ইতিহাসে সর্বনিম্ন র‌্যাংকিংয়ে নেমে যাওয়া তো আছেই। এজন্য আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে পারবে না তিন বছর। এটা লজ্জাও বটে। তবে এরপর না খেলেই ফিফা র‌্যাংকিংয়ে উন্নতি ঘটলো বাংলাদেশের! কীভাবে?

প্রতিপক্ষ দলগুলোর বাজে পারফরম্যান্স এ ক্ষেত্রে ভূমিকা রেখেছে। যে কারণে সবশেষ ফিফা প্রকাশিত র‌্যাংকিংয়ে পাঁচ ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। আগের অবস্থান ছিল ১৮৮তম। বাংলাদেশ এখন উঠে এসেছে ১৮৩তম স্থানে। বাংলাদেশের নামের পাশে জমা আছে ৮৪ পয়েন্ট।

এদিকে দক্ষিণ এশিয়ার অন্য দেশগুলোর মধ্যে ভারতের অবস্থান সবার ওপরে, ১৩৭তম।  আফগানিস্তান, মালদ্বীপ, ভুটান, নেপাল, শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান রয়েছে যথাক্রমে ১৪৭, ১৫৪, ১৭৬, ১৮১, ১৯৫ ও ১৯৭তম স্থানে।

ফিফার সদ্য প্রকাশিত র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। তাদের সংগ্রহ ১৬৩৪ পয়েন্ট। র‌্যাংকিংয়ে এক ধাপ এগিয়ে আসা নেইমারের ব্রাজিল ১৫৪৪ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে। বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানির অবস্থান তিনে।

জয়ে ফিরেছে চট্টগ্রাম আবাহনী

দুই ম্যাচ পর আবার জয় দেখেছে চট্টগ্রাম আবাহনী। বুধবার ঘরের মাঠ এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে তারা ২-০ গোলে হারিয়েছে উত্তর বারিধারা ক্লাবকে। প্রথমার্ধে মামুনুলরা এগিয়েছিল ১-০ গোলে। দুই দলের প্রথম পর্বের ম্যাচে চট্টগ্রাম আবাহনী জিতেছিল ৬-১ গোলে।

১০ মিনিটে লিওনেল গোল করে এগিয়ে দেন চট্টগ্রাম আবাহনীকে। শেষ বাঁশির ৩ মিনিট আগে গোল করে জয় নিশ্চিত করেন চেনচো। ‘ভুটানের রোনালদো’ হিসাবে পরিচিত চেনচো এই প্রথম গোল করলেন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে।

এ জয়ে ১৬ ম্যাচে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে চট্টলার দলটি। সমান ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে ১১ নম্বরে উত্তর বারিধারা ক্লাব। আবাহনী ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে আছে এককভাবে শীর্ষে।

মেসির জোড়া গোলে নকআউট পর্বে বার্সা

প্রথম লেগে নিজে মাঠে হ্যাটট্রিক করে দলে এনে দিয়েছিলেন বড় জয়। তবে একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে মেসি জ্বলে উঠলেও উৎসব করতে পারেনি বার্সেলোনা। মেসির জোড়া গোলে স্কটল্যান্ডের দল সেল্টিককে ২-০ গোলে হারিয়েছে বার্সা। আর এ জয়ে টেবিলের শীর্ষে থেকে শেষ ষোলো নিশ্চিত করে বার্সা।

গ্ল্যাসগোর সেল্টিক পার্কে ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক হয়ে খেলতে থাকে বার্সা। এরই ধারাবাহিকতায় ম্যাচের ১০ মিনিটে দারুণ দুটি সুযোগ পেয়েছিলেন লিওনেল মেসি; কিন্তু গোলরক্ষককে কোনো পরীক্ষাতেই ফেলতে পারেননি। তবে ম্যাচের ২৪ মিনিটে মেসিকে আর কোনো পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি সেল্টিক গোলরক্ষক। নেইমারের বাড়ানো বলে ক্ষিপ্র গতিতে রক্ষণ ভেঙে পোস্ট ঘেঁষে লক্ষ্যভেদ গোল করেন মেসি।

messi

ম্যাচের ৩৫ মিনিটে গোলের সহজ সুযোগ পান নেইমার। তবে রক্ষণের ভুলে ডি-বক্সের মধ্যে ফাঁকায় বল পেয়েও নিজে শট না নিয়ে সামনে বল বাড়ান, সতীর্থরা কেউ ছিল না সেখানে। আর ম্যাচের ৪১ মিনিটে লুইস সুয়ারেসের জোরালো হেড দারুণ নৈপুণ্যে ঠেকিয়ে দেন স্কটিশ গোলরক্ষক ক্রেইগ গর্ডন। ফলে ১-০-তে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় বার্সা।

বিরতি থেকে ফিরে বার্সা গোলরক্ষক টের স্টেগানের দৃঢ়টায় সমতায় ফিরতে ব্যর্থ হয় স্বাগতিকেরা। ৫৫তম মিনিটে ডিফেন্ডার এমিলিও আর্তুরো নিজেদের ডি-বক্সে লুইস সুয়ারেসকে টেনে ফেলে দিলে পেনাল্টি পায় বার্সেলোনা। তা থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মেসি। চলতি আসরে এখন পর্যন্ত মেসির এটি নবম গোল। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তার মোট গোল হলো ৯২টি।

৬৭তম মিনিটে হ্যাটট্রিক পূরণের সুবর্ণ সুযোগ হারান মেসি। বাঁ-দিক থেকে সতীর্থের বাড়ানো বল ধরে নেওয়া শট দূরের পোস্ট ঘেঁষে বাইরে চলে যায়। ৭১তম মিনিটে সুইডিশ ডিফেন্ডার মিকায়েল লুসটিগের সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়েন নেইমার। দুজনকেই দেখতে হয় হলুদ কার্ড। এর ফলে গ্রুপের শেষ ম্যাচে খেলতে পারবেন না নেইমার।

messi

ম্যাচের ৮৪ মিনিটে স্কোরশিটে নাম লেখাতে পারতেন সুয়ারেস। কিন্তু মেসির ছোট পাস ধরে ছয় গজ বক্সের বাইরে থেকে তার নেয়া শট পোস্টে লাগলে ব্যবধান আর বাড়েনি। ফলে বাকি সময় আর গোল না হলে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে বার্সা। অন্য ম্যাচে বরুসিয়া মনশেনগ্লাডবাখের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে নকআউট পর্বের টিকিট নিশ্চিত হয়ে গেছে ম্যানচেস্টার সিটির।

মোহামেডানের আরেকটি হার

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে পরাজয়ের সঙ্গে যেন মিতালি পাতিয়েছে মোহামেডান। আগের দুই ম্যাচে ড্রয়ের পর আবার পরাজয়ের ধারায় তারা। ষষ্ঠ পরাজয় নিয়ে বুধবার মাঠ ছেড়েছে সাদাকালোরা। চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে মোহামেডানকে ২-০ গোলে হারিয়ে মুক্তযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র।

প্রথমার্ধে মুক্তিযোদ্ধা ১-০ গোলে এগিয়েছিল। চতুর্থ মিনিটে ফ্রিকিক থেকে দুর্দান্ত গোলে মুক্তিযোদ্ধাকে এগিয়ে দেন সোহেল রানা। ইনজুরি সময়ে ব্যবধান বাড়ান মুক্তিযোদ্ধার শফিকুল ইসলাম বিপুল। দুই দলের প্রথম পর্বের ম্যাচ ড্র হয়েছিল ২-২ গোলে।

এ জয়ে ১৬ ম্যাচে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পঞ্চম স্থানে উঠলো আবদুল কাইয়ুম সেন্টুর দল। সমান ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে ১০ নম্বরেই পড়ে রইলো মিজানুর রহমান ডনের মোহামেডান।

জয় দিয়েই নকআউট পর্বে রিয়াল

পর্তুগালের ক্লাব স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে ড্র করলেই নিশ্চিত হতো রিয়ালের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্ব। তবে ড্র নয়, ২-১ গোলের জয় দিয়েই নকআউট পর্বে জায়গা করে নিলো জিদানের শিষ্যরা।

লা-লিগায় শক্তিশালী অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে উড়িয়ে দেওয়ার আত্মবিশ্বাস নিয়েই মঙ্গলবার লিসবনে কাগজে-কালমে তুলনামূলক দুর্বল স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে মাঠে নামে রোনালদো-বেলরা। তবে স্পোর্টিংয়ের রক্ষণের কাছে গিয়ে বার বার ব্যর্থ হতে থাকে রিয়ালের ফরোয়ার্ডরা।

অবশেষে ম্যাচের ২৯ মিনিটে গোল করে দলকে লিড এনে দেন ফরাসি ডিফেন্ডার ভারানে। ডান দিক থেকে লুকা মদ্রিচের ফ্রি-কিক রোনালদোর পায়ে এসে পড়লেও শট নিতে পারেননি এই তারকা। ফলে ফাঁকায় বল পেয়ে তা থেকে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ফরাসি ডিফেন্ডার।

real

বিরতি থেকে ফিরেই চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন গ্যারেথ বেল। তবে ৬৪ মিনিটে সবচেয়ে বড় ধাক্কাটি খায় স্বাগতিক শিবির।  রিয়াল তারকা কোভাসিচকে গুঁতো মেরে লাল কার্ড দেখেন পর্তুগিজ ডিফেন্ডার পেরেইরা। একজন কম নিয়েও ম্যাচের ৮১ মিনিটে সমতায় ফেরে স্পোর্টিং। ডি-বক্সে ফাবিও কোয়েন্ত্রাওয়ে হাতে বল লাগলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি, তা থেকেই বল জালে পাঠান পর্তুগিজ মিডফিল্ডার সিলভা।

অবশ্য সমতায় ফেরার স্বস্তি বেশিক্ষণ থাকেনি স্পোর্টিংয়ের। ৮৭তম মিনিটে ডান দিক থেকে সের্হিও রামোসের ক্রসে দারুণ হেডে জয়সূচক গোলটি করেন ক’দিন আগে চোট কাটিয়ে ফেরা বেনজেমা। বাকি সময় আর গোল না হলে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে রিয়াল।

কোচ নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত বাফুফের

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের কর্মকর্তাদের দ্ব›দ্ব নতুন নয়। কাজী মো. সালাউদ্দিনের নেতৃত্বে বর্তমান কমিটির বেশিরভাগ কর্মকর্তা প্রায় সাড়ে ৮ বছর বাফুফেতে রয়েছেন। নির্বাচনের কিছুদিন আগে তাদের মধ্যে ঐক্য গড়ে উঠে, নির্বাচনের কয়েক মাস যেতে না যেতেই আবার ছড়ায় অনৈক্যের ডালপালা।

কয়েকজন হয়ে যান সালাউদ্দিনের আস্থাভাজন, বাকিরা আড়ালে করেন তার সমালোচনা। দেশের ফুটবলের অধঃপতনের অন্যতম কারণ হিসেবে অনেকেই বাফুফে কর্মকর্তাদের মধ্যে ঐক্যের অভাবকে দায়ী করেন।

তৃণমূল পর্যায়ে কাজ করার জন্য কোচ নিয়োগ নিয়ে আরেকবার সামনে এসেছে বাফুফের দ্ব›দ্ব। ১৪ জন পুরুষ ও ৭ জন নারী কোচ নিয়োগ দিতে কিছুদিন আগে বিজ্ঞাপন দিয়েছে বাফুফে। ৭ ডিসেম্বর আগ্রহীদের আবেদনের শেষ সময়।

তবে হঠাৎ করেই বাফুফে থেকে ফোন করে আবেদনকারীদের মঙ্গলবার আসতে বলা হয়েছিল; কিন্তু এ প্রক্রিয়ার কিছুই জানেন না বাফুফের সহসভাপতি ও ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান বাদল রায়। যদিও এ কাজগুলো তার কমিটির অধীনেই হওয়ার কথা। তার আপত্তির কারণেই বাফুফে কোচ নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত করেছে।

ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান বাদল রায় অবশ্য নিয়োগ প্রক্রিয়াকে স্থগিত না বলে সময় পেছানো হয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন। আর কোচ নিয়োগ প্রক্রিয়াটি তার জানা ছিল কি না এমন প্রশ্নের জবাব দেননি তিনি। বলেছেন, ‘এ সব নিয়ে কিছু বলতে চাই না।’

কোচ নিয়োগের বিষয় নিয়ে বুধবার টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল স্মলির সঙ্গে বসবেন বাদল রায়। বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ বলেছেন, ‘তারা দুইজন বসে কোচ নিয়োগের বিষয়টি ঠিকঠাক করবেন। বতর্মানে আমাদের ১৮ জন কোচ আছে। তাদের কাজেরও মূল্যায়ন করা হবে এ সময়।’

পিকের সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটছে শাকিরার!

সেলিব্রিটিদের সম্পর্কের বিষয়টা যেন বর্ষার আকাশের মতো। এই মেঘ তো এই বৃষ্টি। আবার কিছুক্ষণ পর গনগনে রোদ্দুর। ইউরোপ-আমেরিকায় তো এ বিষয়টা আরো বেশি নাজুক। তাদের সম্পর্ক কখন গড়ে আর কখন ভাঙে সেটা অনেকে টেরই পাননা। তবে, এরই মাঝে কেউ কেউ উদাহরণ সৃষ্টি করেন। এই যেমন কলম্বিয়ান পপ গায়িকা শাকিরা এবং বার্সেলোনার স্প্যানিশ ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকে। ২০১০ বিশ্বকাপের সময় পরিচয় হওয়ার পর ১০ বছরের ব্যবধান সত্ত্বেও দু’জনের মধ্যে যে সম্পর্ক গড়ে উঠেছে, তা রীতিমত অনেকের কাছে ঈর্ষার বিষয়।

তবে অর্ধযুগ পর এই সম্পর্কটাও সম্ভবত ভেঙে যেতে বসেছে। তাদের দু’জনের পক্ষ থেকে কোন ইঙ্গিত পাওয়া না গেলেও ইউরোপের বিভিন্ন মিডিয়ায় এ নিয়ে চলছে জোর গুঞ্জন। সবাই একটা বিষয় অন্তত খুঁজে পেয়েছে যে, শাকিরা এবং পিকের সম্পর্ক এখন বেশ জটিল। সেই জটিলতা কেটে যাওয়ারও আপাতত সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না।

২০১০ দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপের সময় কলম্বিয়ান পপ সম্রাজ্ঞী শাকিরার সঙ্গে পরিচয় এবং প্রেম হয় জেরার্ড পিকের। বয়সে পিকের চেয়ে ১০ বছরের বড় শাকিরার। তবে বয়সের এই ব্যবধান দু’জনের সম্পর্কের ক্ষেত্রে কোন বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি। এরই মাঝে দু’জনের কোলজুড়ে এসেছে দুটি পুত্র সন্তান। নামা শাশা এবং মিলান।

স্প্যানিশ মিডিয়ায় যে গুঞ্জন ভেসে বেড়াচ্ছে, সেটা হলো- বার্সা তারকা চাচ্ছেন না শাকিরা লস এ্যাঞ্জেলেসে গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে পারফর্ম করুন। শাকিরা তাই অনুষ্ঠানে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অবশ্য শাকিরা বলেছেন, ‘বছরের বেশিরভাগ সময়টাই বার্সেলোনার অনুশীলন ও ম্যাচে কেটে যায় পিকের। তাই ওর পক্ষে স্পেনের বাইরে যাওয়া সম্ভব নয়। পিকে এই অনুষ্ঠানে ভীষণভাবেই থাকতে চেয়েছিল। ও যেতে পারবে না বলেই আমিও পারফর্ম করার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এলাম।’

পর্দার পেছনে অবশ্য অন্য কারণ বেরিয়ে আসছে। গ্র্যামি পুরস্কার অনুষ্ঠানে এক সহ-অভিনেতার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় নাচের কথা ছিল শাকিরার। এখানেই আপত্তি তোলেন পিকে। শাকিরাকে পরিস্কার জানিয়ে দেন এরকম কাজের জন্য তার মন সায় দিচ্ছে না। তাই নিয়ে কথা কাটাকাটি হয় দুজনের মধ্যে।

শাকিরা পিকেকে বলে দেন, তার ব্যক্তিগত কাজে হস্তক্ষেপ করার অধিনার নেই পিকের। অবস্থা এমনই জায়গায় পৌঁছেছে যে কলম্বিয়ান গায়িকা আর থাকতে চাইছেন না পিকের সঙ্গে।

আরেকটি স্প্যানিশ মিডিয়া জানাচ্ছে, গত কিছুদিনে বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠান বাতিল করেছেন শাকিরা। এর মধ্যে ল্যাটিন গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড তো রয়েছেই। এছাড়া রয়েছে আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ডও। শাকিরার এসব অনুষ্ঠান বাতিল করার কারণে আয়োজকদের যেমন বিশাল ক্ষতির সম্মুখিন হতে হয়েছে, তেমনি হাজার হাজার ভক্ত-দর্শকও হতাশ হয়েছেন।

শাকিরা যে শুধু অনুষ্ঠান বাতিল করছেন তা নয়, গুঞ্জনের ঢাল-পালা মেলার আরও কারণ আছে। গত কয়েক মাস ধরে পিকে আর শাকিরাকে এক সঙ্গে দেখাই যাচ্ছে না। যেখানে বার্সেলোনার ম্যাচ মানেই দুই ছেলেকে নিয়ে শাকিরার উপস্থিতি, সেখানে তাকে কয়েক মাস ধরে না দেখাটা সন্দেহজনকও বটে। একই সঙ্গে নিজের ছেলে এবং প্রেমিক পিকেকে নিয়ে ইনস্টাগ্রাম কিংবা টুইটারেও কোন ছবি পোস্ট করেননি কলম্বিয়ান পপ সম্রাজ্ঞী। এ কারণেই, গুঞ্জন উঠেছে- দু’জনের মধ্যে সম্ভবত ছাড়াছাড়িই হতে চলেছে।

যদিও এখনও পর্যন্ত কেউ বলতে পারছে না বন্ধ দরজার পেছনে আসলে কী ঘটছে। ভক্তদের প্রত্যাশা পিকে-শাকিরার সম্পর্ক আবার আগের মত হয়ে যাক এবং আবারও ভক্তরা তাদের এক সঙ্গে দেখে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলুক।ৎ

আর্জেন্টিনার মান বাঁচালেন মেসি

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে ব্রাজিলের বিপক্ষে হেরে যখন আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ নিয়ে শঙ্কা, ঠিক তখনই নিজে জ্বলে উঠে কলম্বিয়ার বিপক্ষে দলকে এনে দিলেন দুর্দান্ত জয়। এবার মাঠের বাইরেও নিজ দেশের মান বাঁচালেন এই তারকা। আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশনের কাছে নিরাপত্তারক্ষীদের পাওনা ছয় মাসের বকেয়া বেতন নিজে পরিশোধ করে দিলেন মেসি।

দীর্ঘদিন ধরে আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশন আর্থিক সংকটে চলছে। গত ছয় মাস ধরে বেতন পাননি আর্জেন্টিনা টিমের কিছু নিরাপত্তারক্ষী। ব্রাজিল ম্যাচ খেলতে বেলো হরিজন্তে ছিল টিম আর্জেন্টিনা। সংবাদকর্মী জুয়ান পাবলো ভার্সকি গোটা ঘটনা প্রকাশ্যে আনেন।

তিনি বলেন, ‘ম্যাচের আগে রুমে ছিল মেসি। এমন সময় দরজায় টোকা দিয়ে ঢোকে কয়েকজন। প্রত্যেকেই টিমের নিরাপত্তারক্ষী। তারা বলেন, লিও আপনার সঙ্গে কথা আছে। অ্যাসোসিয়েশন আমাদের গত পাঁচ-ছয় মাস কোনো বেতন দেয়নি। এখন পরিস্থিতি খুব সংকটজনক। আপনি টিমের অধিনায়ক। আপনি চেনেন আমাদের। তাই সাহায্য চাইছি।’

আর তাদের পরিস্থিতি দেখে চুপ করে থাকতে পারেননি মেসি। সঙ্গে সঙ্গে বাবাকে ফোন করেন তিনি। নিজের পকেট থেকে এই কর্মীদের টাকা মিটিয়ে দেন মেসি।

চার ঘণ্টা শুনে চার মিনিট বললেন সালাউদ্দিন

মাস দেড়েক আগে বাংলাদেশের ফুটবলের উপর দিয়ে একটি সুনামি বইয়ে দিয়েছিল ভুটান নামের দক্ষিণ এশিয়ার ছোট্ট দেশটি। এশিয়ান কাপের বাছাই পর্বের প্লে-অফ ম্যাচে বাংলাদেশকে হারিয়ে নিজেদের ফুটবল ইতিহাসে নতুন অধ্যায় যোগ করেছে পাহাড়ি দেশটি। তাদের ঐতিহাসিক ওই জয়টি নাড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের ফুটবলের ভিত।

ঠিক ‘কারো পৌষ মাস, কারো সর্বনাশ’এর মতো। ১০ অক্টোবরের পর সেই যে ফুটবল নিয়ে সমালোচনা, মিটিং, মিছিল, বিক্ষোভ, টক-শো, সংবাদ সম্মেলন, আন্দোলন শুরু তা চলছে তো চলছেই। দেশের ফুটবলের ভবিষ্যত নিয়ে শঙ্কিত অনেকে। কেউ আবার হাল ছাড়তে রাজী নন।

আশাবাদী মানুষও আছেন। কারো মতে, ব্যর্থতার দায় নিয়ে এখনই সরে যাওয়া উচিত বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন ও তার পরিষদের। কারো কারো কাছে সমধান- সালাউদ্দিন চলে গেলেই আবার ঘুরে দাঁড়াবে দেশের ফুটবল। কেউ কেউ আবার এককভাবে সালাউদ্দিনকে দায়ী করতে চান না। ব্যর্থতার জন্য গোটা কমিটিকেই দায়ী করছেন তারা।

এমন এক সময়ে শনিবার ঢাকা ক্লাবে ‘বাংলাদেশের ফুটবল: বাস্তবতা ও করনীয়’ বিষয়ে সেমিনার আয়োজন করেছিল বাংলাদেশ স্পোর্টস জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন (বিএসজেএ)। যে সেমিনারে সবার শেষে বক্তব্য রেখেছেন ফুটবলের ব্যর্থতার জন্য যাকে বেশি সমালোচনা সইতে হচ্ছে সেই বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন।

মজার বিষয় হচ্ছে, দুপুর ১২ টায় শুরু হওয়া সেমিনার শেষ হয়েছে বিকাল ৪টায়। দীর্ঘ চার ঘন্টা বিভিন্নভাবে ফুটবলের সঙ্গে সম্পৃক্তরা বক্তব্য রেখেছেন। সবার আগ্রহ ছিল সব শেষে কাজী মো. সালাউদ্দিন কি বলেন তা শোনার; কিন্তু প্রায় চার ঘণ্টা শুনে বাফুফে সভাপতি বললেন মাত্র মিনিট চারেক।

১০ অক্টোবরের পর থেকে সাবেক ফুটবলার, সংগঠ, ফুটবলবোদ্ধা- সবাই ‘ভুটান লজ্জা’র জন্য কাজী সালাউদ্দিনকে ব্যর্থ বলছেন; কিন্তু তিনি কখনোই ব্যর্থতা স্বীকার করেননি। বরং গত প্রায় ৯ বছরের ব্যর্থতা তিনি আগামী সাড়ে ৩ বছরে কাটিয়ে তুলতে চান।  সেমিনারের শেষ বক্তা হিসেবে দাঁড়িয়ে নিজের অবিচল লক্ষ্যের কথাই বলেছেন তিনি।

‘সবাই যা বলেছেন, সব শুনেছি। আমি ভয় পাই না। আমি জানতাম, যেখানেই যাবো হেনস্থা হতে হবে। এখানে কেউ সঠিক তথ্য দিয়েছেন, কেউ দিয়েছেন ভুল। এখন আমাকে ১০ মিনিট সময় দিতে হবে। প্রজেক্টরে আপনাদের সামনে ফুটবলে আমাদের গত ৮ বছরের কার্যক্রম ও ভবিষ্যত পরিকল্পনার কিছু দেখাবো।’

বাফুফের টেকনিক্যাল ডাইরেক্টর পল স্মলি প্রজেক্টরে সালাউদ্দিনের দুই মেয়াদকালের কার্যক্রম ও ভবিষ্যত পরিকল্পনাগুলো তুলে ধরেন। কাজী মো. সালাউদ্দিন সেমিনার আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেছন, ‘যা শুনলাম তা কাজে লাগানোর চেষ্টা করবো। আমি সবার সহযোগিতা চাই।’

শীর্ষে আর্জেন্টিনা দুইয়ে ব্রাজিল

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে টানা চার ম্যাচ পর জয়ের দেখা পাওয়া মেসির আর্জেন্টিনা কদিন বাদে প্রকাশিত হতে যাওয়া ফিফার নতুন র‌্যাকিংয়েও শীর্ষস্থান ধরে রাখছে। আর টানা ছয় ম্যাচে জয় পাওয়া নেইমারের ব্রাজিল উঠে আসছে দ্বিতীয় স্থানে। আগামী ২৪ নভেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন র‌্যাকিং ঘোষণা করবে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা।

ইএসপিএন জানায়, গত মঙ্গলবার কলম্বিয়ার কাছে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে আর্জেন্টিনা হারলেই শীর্ষে উঠে যেত ব্রাজিল। তবে ঘরের মাঠের ম্যাচটি ৩-০ গোলে জেতায় শীর্ষস্থান ধরে রাখবে লিওনেল মেসি-হিগুয়াইনরা। আর দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে প্রথম দল হিসেবে এক আসরে টানা ছয় ম্যাচ জেতার রেকর্ড গড়া ব্রাজিল ব্যবধান কমিয়ে আর্জেন্টিনার ঘাড়ে নিঃশ্বাস নিচ্ছে।

এদিকে ব্রাজিল দুইয়ে ওঠে আসায় তিনে নেমে যাচ্ছে বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি। চতুর্থ স্থানেই থাকবে বেলজিয়াম। আর এক ধাপ এগিয়ে পঞ্চম স্থানে উঠে আসবে টানা দুবারের কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন চিলি। ষষ্ঠ স্থানে নেমে যাবে কলম্বিয়া। সেরা দশের বাকি চারটি স্থানে আগের মতোই থাকবে ফ্রান্স, পর্তুগাল, উরুগুয়ে ও স্পেন।

আটে উঠলো শেখ রাসেল

প্রথম পর্বের হতাশাটা আস্তে আস্তে কাটিয়ে উঠছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। ১২ দলের মধ্যে ১১ নম্বরে থেকে প্রথম পর্ব শেষ করেছিল ব্লুজরা। সেখান থেকে সাবেক চ্যাম্পিয়নরা এখন ৮ নম্বরে।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জয়ের আশা ছেড়ে দেয়া দলটির লক্ষ্য এখন সম্মানজনক স্থান। সে লক্ষ্যে ভালোই এগুচ্ছে সফিকুল ইসলাম মানিকের দল। শুক্রবার চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে সকার ক্লাবকে ৩-১ গোলে হারিয়ে এক লাফে পেছনে ফেলেছে মোহামেডান ও বিজেএমসিকে।

পিছিয়ে পড়া রাসেলকে জয় এনে দিয়েছেন তরুন রুম্মন হোসেন। ৬৪ মিনিটে হেলালের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল সকার ক্লাব। ম্যাচে ফিরতে বেশি সময় নেয়নি রাসেল। ৭০ মিনিটে রুম্মন গোল করে সমতা আনেন।

ক্যামেরুনের ডিফেন্ডার ইকাঙ্গা ৮৪ মিনিটে গোল করে এগিয়ে দেন শেখ রাসেলকে। এগিয়ে যাওয়ার পর রাসেল আক্রমনের ধার আরও বাড়িয়ে দেয় এবং রুম্মন ৮৬ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় ও দলের তৃতীয় গোল করেন।

দুই দলই শেষ ৭৭ মিনিট খেলেছে ১০ জন নিয়ে। ১৩ মিনিটে রাসেল শাখাওয়াত রনি ও সকার ক্লাবের সুশান্ত ত্রিপুরা হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়লে লাল কার্ড দেখিয়ে বের করে দেন রেফারি।

এ জয়ে ১৫ ম্যাচে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের সংগ্রহ ১৫ পয়েন্ট। সকার ক্লাবের পয়েন্ট ১০। ফেনির দলটি টেবিলে ১১ নম্বরে।

ক্রিকেটের পর বিপিএল ফুটবলও চট্টগ্রামে

চট্টগ্রাম পর্ব দিয়ে গত ২৪ জুলাই শুরু হয়েছিল ২০১৫-১৬ মৌসুমের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ফুটবল। সেখানে তিন রাউন্ড খেলা শেষে লিগ চলে যায় ময়মনসিংহে। এরপর ঢাকা, সিলেট ঘুরে প্রথম লেগ শেষ হয় ঢাকাতেই। গত মাস থেকে শুরু হয়েছে বিপিএলের দ্বিতীয় লেগ। ঢাকা, ময়মনসিংহ ঘুরে আবারও লিগ ফিরছে চট্টগ্রামে। শুক্রবার থেকে চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে শুরু হবে দ্বিতীয় লেগের খেলা।
বিকেল সাড়ে ৩টায় স্বাগতিক চট্টগ্রাম আবাহনীর বিপে লড়বে লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল ধানমণ্ডি কাব। দ্বিতীয় ম্যাচে সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় মাঠে নামবে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। তাদের প্রতিপ সকার কাব ফেনী। লিগে ১৪ রাউন্ড শেষ হয়েছে। বাকি আর ৮ রাউন্ড। এরপরই ইতি টানা হবে লিগের।
১৪ রাউন্ড শেষে সবার উপরে এখন আবাহনী লিমিটেড। দলটির সংগ্রহ ৩২ পয়েন্ট। এরপর যথাক্রমে চট্টগ্রাম আবাহনী (২৮ পয়েন্ট), রহমতগঞ্জ (২৫ পয়েন্ট), শেখ জামাল (২২ পয়েন্ট), মুক্তিযোদ্ধা (২০ পয়েন্ট), আরামবাগ (২০ পয়েন্ট), ব্রাদার্স (১৮ পয়েন্ট), টিম জেএমসি (১৪ পয়েন্ট), মোহামেডান (১৩ পয়েন্ট), শেখ রাসেল (১২ পয়েন্ট), ফেনী সকার (১০ পয়েন্ট) এবং উত্তর বারিধারা (১০ পয়েন্ট)।

অগ্রণী ব্যাংকের তৃতীয় জয়

মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে শুক্রবার একটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে এদিন মুখোমুখি হয় অগ্রণী ব্যাংক স্পোর্টস কাব ও টিএন্ডটি কাব মতিঝিল।
ম্যাচে ১-০ গোলে টিএন্ডটি কাবকে হারিয়েছে অগ্রণী ব্যাংক। এ জয়ের ফলে ৬ ম্যাচের ৩টিতে জিতে ও ১টিতে ড্র করে ১০ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান নিয়েছে। অন্যদিকে ৬ ম্যাচের ১টিতে জিতে, ২টিতে ড্র করে ও ৩টিতে হেরে ৫ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে টিএন্ডটি কাব মতিঝিল।
শুক্রবার অবশ্য প্রথমার্ধে কোনো দলই গোলের দেখা পায়নি। দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচের ৮৫ মিনট পর্যন্ত ম্যাচে কেউ গোলের দেখা পায়নি। ৮৬ মিনিটে জয়সূচক একমাত্র গোলটি করেন অগ্রণী ব্যাংকের জিল্লুর। তার গোলটিই শেষ পর্যন্ত ম্যাচের ভাগ্য বদলে দেয়।

কারওয়ানবাজারের প্রথম জয়

বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে প্রথম জয় পেয়েছে কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ। বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত খেলায় কারওয়ানবাজার প্রগতি সংঘ ১-০ গোলে হারিয়েছে চট্টগ্রাম মোহামেডানকে। ম্যাচের একমাত্র গোলটি করেছেন ফরহাদ মিয়া, ৪৬ মিনিটে।

আগের চার ম্যাচের তিনটি ড্র করে ৩ পয়েন্ট পেয়েছিল কারওয়ানবাজার। প্রথম এ জয়ে ৫ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পঞ্চম স্থানে উঠেছে তারা।

৩ পয়েন্ট নিয়ে চট্টগ্রাম মোহামেডান নেমে গেছে সপ্তম স্থানে। চট্টলার দলটি এখনো জয়ের মুখ দেখেনি।

নারী সাফে আবারো এক গ্রুপে বাংলাদেশ-ভারত

আগের তিনটি আসরের মতো এবারো নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে একই গ্রুপে পড়েছে বাংলাদেশ ও ভারত। দক্ষিণ এশিয়ার নারীদের সবচেয়ে বড় এই ফুটবল টুর্নামেন্টে টানা চতুর্থবারের মতো গ্রুপ পর্বেই ভারতকে মোকাবেলা করতে হচ্ছে লাল সবুজ জার্সিধারীদের।

পার্থক্য একটাই- আগের আসরগুলোতে প্রতিবেশী এ দুই দেশ ছিল ‘এ’ গ্রুপে। এবার পড়েছে ‘বি’ গ্রুপে। গ্রুপের অন্য দেশটি হচ্ছে আফগানিস্তান। সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (সাফ) থেকে বেড়িয়ে যাওয়া এ দেশটি এবার খেলছে আমন্ত্রিত দল হিসেবে। পাকিস্তান খেলছে না বিধায় এবার টুর্নামেন্ট হচ্ছে ৭ দেশ নিয়ে। ‘এ’ গ্রুপে পড়েছে নেপাল, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ ও ভুটান।

আগামী ২৬ ডিসেম্বর থেকে ৪ জানুয়ারি ভারতের শিলিগুঁড়িতে অনুষ্ঠিতব্য এ টুর্নামেন্টের ড্র হয়ে গেল বৃহস্পতিবার। সাধারণত আয়োজক দেশ ড্রয়ের কাজটা করে থাকে। তবে দক্ষিণ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি ও সেক্রেটারি দুইজনই বাংলাদেশের বিধায় ভারত অনুরোধ করেছে ড্রটা সম্পন্ন করতে।

সাফের সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন ও সেক্রেটারি আনোয়ারুল হক হেলাল উপস্থিত ছিলেন ড্র অনুষ্ঠানে। তারাই লটারির মাধ্যমে গ্রুপিং নির্ধারণ করেন। সাফ সেক্রেটারী আনোয়ারুল হক হেলাল জানিয়েছেন, ড্র ঢাকায় হলেও অংশগ্রহণকারী সব দেশকেই উপস্থিত থাকতে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। তবে কোনো দেশ থেকে সাড়া মেলেনি।

সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন ভারত ও রানার্সআপ নেপালকে শীর্ষ বাছাই এবং দুই সেমিফাইনালিস্ট বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কাকে দ্বিতীয় শীর্ষ বাছাই ধরে লটারির মাধ্যমে দুই গ্রুপে হয়। ম্যাচের সময় এখনো নির্ধারণ হয়নি। তবে সাফ সেক্রেটারি বলেছেন, যে দিন দুটি ম্যাচ সেদিন দুপুর ২ টা ও সন্ধ্যা ৬ টায় খেলা শুরু হবে। একটি ম্যাচের দিন খেলা শুরু হবে  ২.৩০ মিনিটে।

২ জানুয়ারি দুটি সেমিফাইনাল ও ৪ জানুয়ারি ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। ডিসেম্বরে শিলিগুঁড়িতে ঠাণ্ডা থাকবে বিধায় দুপুর ২ টা ও আড়াইটার ম্যাচে কোনো সমস্যা হবে না বলে মনে করেন সাফের দুই শীর্ষ কর্মকর্তা।

নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপিং :
গ্রুপ ‘এ’ : নেপাল, শ্রীলংকা, মালদ্বীপ ও ভুটান।
গ্রুপ ‘বি’ : ভারত, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান।

ফিকশ্চার :
২৬ ডিসেম্বর : নেপাল-ভুটান
২৬ ডিসেম্বর : শ্রীলংকা-মালদ্বীপ
২৭ ডিসেম্বর : ভারত-আফগানিস্তান
২৮ ডিসেম্বর : ভুটান-শ্রীলংকা
২৮ ডিসেম্বর : মালদ্বীপ-নেপাল
২৯ ডিসেম্বর : বাংলাদেশ-আফগানিস্তান
৩০ ডিসেম্বর : নেপাল-শ্রীলংকা
৩০ ডিসেম্বর : মালদ্বীপ-ভুটান
৩১ ডিসেম্বর : বাংলাদেশ-ভারত।
০২ জানুয়ারি : দুইটি সেমিফাইনাল
০৪ জানুয়ারি : ফাইনাল

বার্সার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় নেইমার!

বছর তিনেক আগে সান্তোস ছেড়ে বার্সেলোনায় পাড়ি জমান নেইমার। কাতালান ক্লাবটির হয়ে খেলে নিজেকে প্রমাণ করেছেন তিনি। দলটিতে নিজের অবস্থান শক্ত করেছেন। লিওনেল মেসি ও লুইস সুয়ারেজের সঙ্গে জুটি বেঁধে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার মিশনে নামেন তিনি। বার্সার এই ত্রিফলা ফুটবল দুনিয়ায় পরিচিতি লাভ করেছে ‘এমএনএস’ নামে।

এদিকে পেরুর কিংবদন্তী ফুটবলার টোয়েফিলো কুউবিলাস জানান, এই মুহূর্তে বার্সার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় নেইমার। পেরুর হয়ে ৮২টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা এই মিডফিল্ডার বলেন, ‘আমি নেইমারের প্রশংসায় বলবো, সে অবিশ্বাস্য খেলোয়াড়। সে বার্সায় এসেছে তারকা হয়েই। কিন্তু নেইমার সবসময় স্বীকার করে আসছে বার্সার সেরা খেলায়াড় মেসি। আমি মনে করি, এই গুণই তাকে আরো বড় তারকা বানিয়ে দেবে। আমি বলবো, এই মুহূর্তে বার্সার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় নেইমার। তার পারফরম্যান্স সেটাই বলছে।’

বিশ্বকোপের বাছাইপর্বের ম্যাচে আজ বুধবার (বাংলাদেশ সময়) পেরুর বিপক্ষে ২-০ গোলে জয় পেয়েছে ব্রাজিল। এই ম্যাচে অবশ্য নেইমার গোল পাননি। তবে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ রেখেছেন তিনি। গোল দুটি করেছেন গ্যাব্রেইল জেসুস ও রেনেতো অগাস্তো।

বদলে যাওয়া ব্রাজিলের টানা ষষ্ঠ জয়

যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত ২০১৬ শতবর্ষী কোপা আমেরিকায় এই পেরুর কাছেই হেরে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছিল ব্রাজিল। এরপর দলে দায়িত্ব দেওয়া হয় তিতের হাতে। আর তার স্পর্শেই বদলে গেলো ব্রাজিলের চেহেরা। আগের ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনা হারানোর পর আজ পেরুকে ২-০ গোলে হারিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে টানা ষষ্ঠ জয় তুলে নিয়েছে পাঁচ বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

আগের ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে ফুরফুরে মেজাজ নিয়ে পেরুর রাজধানী লিমায় বুধবার সকালে মাঠে নামে ব্রাজিল। তবে ম্যাচের শুরুতে থেকেই  আক্রমণাত্মক হয়ে খেলতে থাকে স্বাগতিকরা। এরই ধারাবাহিকতায় ম্যাচের সপ্তম মিনিটে আন্দ্রে কারিলোর শট পোস্টে লাগলে গোল বঞ্চিত হয় স্বাগতিক শিবির।

ধীরে ধীরে খেলার নিয়ন্ত্রণ নিজেদের করে নেয় ব্রাজিল। ম্যাচের দশম মিনিটে পাওলিনয়োর শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান পেরু গোলরক্ষক। আর এর ৫ মিনিট পর রেনাতো আগুস্তোর ক্রসে মাথা ছোঁয়াতে পারেননি ফাঁকায় থাকা ফিলিপে কৌতিনিয়ো।

ম্যাচের ৩৫ মিনিটে গোলের সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেন  ফার্নান্দিনিয়ো। কর্নার থেকে ম্যানচেস্টার সিটির এই মিডফিল্ডারের হেডে বল মাটিতে ড্রপ খেয়ে ক্রসবারের উপর দিয়ে চলে যায়। ফলে গোল শূন্য অবস্থায় বিরতিতে যায় দুই দল।

বিরতি থেকে ফিরে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে নেইমার-জেসুসরা। ম্যাচের ৫৮ মিনিটে ব্রাজিলকে কাঙ্ক্ষিত গোল এনে দেন জেসুস। আর ম্যাচের ৭৮ মিনিটে জেসুসের পাসে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন রেনেতা আগুস্তো। বাকি সময় আর গোল না হলে টানা ষষ্ঠ জয়ের আনন্দ নিয়ে মাঠ ছাড়ে তিতের শিষ্যরা।

এ জয়ে দ্বাদশ রাউন্ড শেষে শীর্ষে থাকা ব্রাজিলের পয়েন্ট ২৭। দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চল থেকে শীর্ষ চারটি দল সরাসরি খেলবে রাশিয়া বিশ্বকাপে। পঞ্চম দলটিকে প্লে-অফ খেলতে হবে ওশিয়ানিয়া অঞ্চলের সেরা দলের সঙ্গে।

শেখ কামাল টুর্নামেন্টের পালে হাওয়া

একবার আয়োজনের পরই শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ নিয়ে তৈরী হয়েছিল অনিশ্চয়তা। চট্টগ্রাম আবাহনী আয়োজিত এ টুর্নামেন্টটি বাইরে রাখা হয়েছিল আগামী সাড়ে ৩ বছরের জন্য করা বাফুফের খসড়া ক্যালেন্ডারের।

একইভাবে অনিশ্চত হয়েছিল বঙ্গবন্ধু কাপের ভাগ্যও। তবে বাফুফে পরবর্তীতে এ দুটি টুর্নামেন্ট ক্যালেন্ডারে অন্তর্ভূক্ত করায় আগামী ৫-৬ মাসের মধ্যে দুটি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট পাচ্ছে ফুটবলপ্রিয় মানুষ।

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ও শেখ কামাল টুর্নামেন্ট হবে-তিন দিন আগে বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন এটি জানানোর পর আয়োজক চট্টগ্রাম আবাহনী নড়েচড়ে বসেছে শেখ কামাল টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য।

এক কথায় হাওয়া লেগে গেছে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক কাপের পালে। আজ (সোমবার) টুর্নামেন্ট নিয়ে বাফুফের সঙ্গে আলোচনাও করেছেন চট্টগ্রাম আবাহনীর কর্মকর্তারা। আগামী বছর মধ্য ফেব্রুয়ারিতে হবে ক্লাবভিত্তিক এই আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট।

তবে আসরটি ২০১৬ না হবে ২০১৭ মৌসুমের সে সিদ্ধান্তটা ঝুলে আছে। ২০১৫ সালে হয়েছিল প্রথম আসর। ঘোষণা ছিল হবে প্রতি বছরই । কিন্তু এ বছর আর হচ্ছে না। দুই পক্ষের আলোচনায় একটি সিদ্ধান্ত হয়েছে-বর্ষপঞ্জিতে ২০১৮ সাল থেকে নিয়মিতভাবে এবং একটি নির্ধারিত সময়ে অনুষ্ঠিত হবে এ টুর্নামেন্ট।

চট্টগ্রাম আবাহনীর ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান তরফদার মো. রুহুল আমিন জানিয়েছেন, ‘ক্লাব প্রতিষ্ঠাতার নামে টুর্নামেন্ট। এর পরিধি বাড়াতে হবে। এবার দক্ষিণ এশিয়ার বাইরে আসিয়ান অঞ্চলেও এ টুর্নামেন্টের নাম ছড়াতে চাই। তাই আসিয়ান অঞ্চলের ক্লাবও আনা হবে। থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়নদের আমন্ত্রণ জানাবো। এছাড়া ভারতের দুটি, আফগানিস্তান ও নেপালের লিগ চ্যাম্পিয়ন ক্লাব আসবে। আমরা সকল দেশের সর্বশেষ মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন ক্লাবকে আনতে চাই। সংশ্লিষ্ট ফেডারেশগুলোকে সেভাবে অনুরোধ করব।’

বাংলাদেশের কয়টি দল খেলবে চুড়ান্ত হয়নি। আয়োজক চট্টগ্রাম আবাহনী, প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলের খেলার সিদ্ধান্ত রয়েছে। যদি স্বাগতিকরা রানার্সআপ হয়, সেক্ষেত্রে তৃতীয় দল সুযোগ পাবে কিনা-সে সিদ্ধান্তটা এখনো বাকি।

স্পেনের বিপক্ষে দলে নেই রুনি

হাঁটুর ইনজুরির কারণে স্পেনের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে খেলা হচ্ছে না ইংলিশ অধিনায়ক ওয়েন রুনির। তার পরিবর্তে স্প্যানিশদের বিপক্ষে ইংলিশদের অধিনায়ক করা হয়েছে জর্ডান হেন্ডারসনকে।

ফিটনেস সমস্যায় এ ম্যাচে রায়ান বারট্রান্ড ও হ্যারি ক্যানকেও দলে পাচ্ছে না ইংলিশদের অন্তবর্তীকালীন কোচ গ্র্যাথ সাউথগেট। মঙ্গলবার রাতে ওয়েম্বির মাঠে লা রোজাদের মুখোমুখি হবে স্বাগতিক দলটি।

এদিকে এই ইনজুরির কারণে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগেও শঙ্কায় পড়লেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের অধিনায়ক রুনি। লিগের পরবর্তী হাইভোল্টেজ ম্যাচে আর্সেনালের মুখোমুখি হবে রেড ডেভিলসরা।

বার্সার সঙ্গে নতুন চুক্তিতে মেসির না

নেইমারের সঙ্গে নতুন চুক্তিটা সেরে ফেলছে বার্সা। লুইস সুয়ারেজও নতুন চুক্তি করেছেন। এবার মেসির সঙ্গেও পাঁচ বছরের নতুন চুক্তি করতে চাইছে বার্সেলোনা। তবে মার্কা যে জানাচ্ছে, বার্সার সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ ফুরানোর আগে নতুন চুক্তি করতে রাজি নন লিওনেল মেসি!

গত জুলাইতেই নাকি মেসি সিদ্ধান্ত নেন, আগে চুক্তির পুরো মেয়াদ শেষ করবেন। এরপরই নতুন চুক্তি নিয়ে ভাববেন। যে ভাবনার ফল অন্য কিছুও হতে পারে। এমনই খবর দিয়েছে স্পেনের প্রধান ক্রীড়া দৈনিক।

মেসি ঠিক কোন কারণে অনাগ্রহী, তারও ইঙ্গিত আছে মার্কার প্রতিবেদনে। কর–সংক্রান্ত ঝামেলায় তিনি নাকি হাঁপিয়ে উঠেছেন। বার্সাও আপাতত চুক্তির বিষয় নিয়ে আলোচনা স্থগিত রেখেছে। জানুয়ারিতে আবারও এ ব্যাপারে উদ্যোগ নেবে ক্লাবটি।

তবে ব্রিটেনের ডেইলি টেলিগ্রাফকে অবশ্য বার্সা সভাপতি বার্তেমেউ বলেছেন, ‘আমরা কয়েক মাসের মধ্যে মেসির সঙ্গে আলোচনা শুরু করব। রাশিয়া বিশ্বকাপ পর্যন্ত (২০১৮ জুলাই) ওর চুক্তি আছে। ওর ওপর আমরা খুবই সন্তুষ্ট। ও বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়।’

এক আইরিশ ফুটবল-পাগলের গল্প

অনেক দেশ আছে যেখানে ফুটবলে লাথি দেননি এমন পুরুষ মানুষ কমই আছে। আর দেশটি যদি হয় ইউরোপের তাহলেতো কথাই নেই। আয়ারল্যান্ডের জন ব্রে তেমন এক মানুষ। ফুটবলে লাথি দেয়া পর্যন্তই। খেলা বলতে যা বুঝায় তা নেই তার জীবদ্দশায়। অথচ তিনি ফুটবলের পাগল। ফুটবল খেলা দেখতে ভ্রমণ করেছেন ১০০ টিরও বেশি দেশ। স্টেডিয়ামে বসে দেখেছেন চার চারটি বিশ্বকাপ। ইউরোপের বিভিন্ন টুর্ণামেন্টতো তার কাছে দুধভাত। ৫৮ বছর বয়সী এ আইরিশ এখন বাংলাদেশে। ফুটবলের টানেই ঢাকায় ছুটে আসা তার। ৭ নভেম্বর এসেছেন, ফিরে যাবেন আগামীকাল সোমবার।

বাংলাদেশে আসলেও তার এ সফর শুধু ঢাকাকেন্দ্রীক। যে কারণে দেশের শীর্ষ প্রতিযোগিতা বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের কোনো ম্যাচ দেখা হচ্ছে না তার। প্রিমিয়ার লিগ এখন চলছে ময়মনসিংহে। পেশাদার লিগের দ্বিতীয় স্তর বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের খেলা দেখতে শনিবার তিনি ছুটে গিয়েছিলেন কমলাপুর স্টেডিয়ামে।

football

কখনো রিক্সায়, কখনো মটর সাইকেলে অনিকের পেছনে-এভাবেই ঘুড়ছেন জন। তো অনিক কে? এমন প্রশ্ন আসাই স্বাভাবিক। পুরো নাম-রেজাউল হোসাইন অনিক। কাজ করেন এশিয়াটিকের ব্র্যান্ড কমিউনিকেশনের নির্বাহী হিসেবে। জন ব্রে‘র গল্পটা শোনা যাক তার কাছেই- ‘গত ব্রাজিল বিশ্বকাপে আমি একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে স্বেচ্ছাসেবক ছিলাম। আমার ডিউটি ছিল রিও‘র মারাকানা স্টেডিয়ামে। সেখানে আমার এক আমেরিকান বন্ধুর মাধ্যমে জনের সঙ্গে পরিচয়। ফুটবল খেলা দেখতে তার দেশে দেশে ঘুরে বেড়ানোর গল্প শুনেছি। তিনি আমার কাছে শুনেছেন বাংলাদেশের ফুটবলের গল্প। তখনই তিনি বাংলাদেশে আসার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। দেশে আসার পরও তার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ ছিল। অনেক দিন ধরেই তিনি বাংলাদেশে আসার কথা বলছিলেন। বিভিন্ন কারণে আমি তাকে নিরুৎসাহিত করার চেষ্টা করেছি। গুলশানের সন্ত্রাসি হামলায় বিদেশিদের প্রাণহানির ঘটনাও তিনি জানতেন। কিন্তু তিনি ওসব পাত্তা দেননি। বাংলাদেশে চলে এসেছেন’।

জন ব্রে ইতিমধ্যে জেনেছেন, বাংলাদেশের ফুটবল এক সময় রমরমা ছিল। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ৫০/৬০ হাজার দর্শক খেলা দেখেছে শুনে অবাক হয়েছেন তিনি। এ সব গল্পই আসলে জনকে টেনেছে বাংলাদেশে। যদিও তিনি যখন ঢাকায় তখন বাংলাদেশের ফুটবল শুধুই অতীতের কঙ্কাল।

‘অনিকের কাছে আমি বাংলাদেশের ফুটবলের গল্প শুনেছি। আমি যখন এশিয়া সফরের পরিকল্পনা করি তখনই সিদ্ধান্ত নেই বাংলাদেশে আসবো। চলে এলাম। মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড ও ব্রনাইয়ের পর বাংলাদেশে এসেছি।’ আপানি কতগুলো দেশে এভাবে ফুটবল খেলা দেখতে গিয়েছেন? ‘একশ`র বেশি হবে। তবে দক্ষিণ এশিয়ায় প্রথম এলাম বাংলাদেশে। আমি ইতালি, যুক্তরাষ্ট্র, জাপান-কোরিয়া ও ব্রাজিল বিশ্বকাপ দেখেছি স্টেডিয়ামে বসে।’

football

বাংলাদেশ কেমন লাগছে? কোনো ভয় কাজ করছে? ‘আসলে বাংলাদেশ বলতে ঢাকা। আমি অন্য কোথাও যাচ্ছি না। গুলশান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, যাদুঘর, আহসান মঞ্জিল, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ভবন, মোহামেডান ক্লাব, কমলাপুর স্টেডিয়াম ও বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামসহ অনেক জায়গা ঘুরেছি। বন্ধু অনিকের বাসায়ও গিয়েছি। আমার কোনো সমস্যা হয়নি। কোনো ভয়ও পাইনি। এখানকার মানুষ অনেক আন্তরিক। সমস্যার মধ্যে যা দেখলাম তাহলো যানজট, মশা আর বিরিয়ানি। বিরিয়ানি খেয়ে আমার পেট খারাপ করেছিল, হা হা হা। ’

তো এই যে, আপনি দেশে দেশে ঘুরে বেড়ান। পরিবারের লোকজনকে সময় দেন কখন? ‘আমার ছেলে ফুটবল খেলা পছন্দই করে না। আর স্ত্রী? যখন ঘরে ফিরবো তখন আগাম বাই বাই দিয়ে রাখবে, আবার কখন কোন দেশের ফ্লাইট ধরি তাই। কিন্তু আমার এটা নেশা, আমি ফুটবল পাগল। যতদিন শরীর কাজ করবে আমি এটা করবো’-বলেন জন। শরীর না হয় কাজ করলো, কিন্তু এই যে আপনি দুনিয়া চষে বেড়াচ্ছেন এ খরচের উৎস কি? কোনো স্পন্সর আছে? ‘না, কোনো স্পন্সর নেই। আমি নিজের অর্থে ঘুরি। আমি একটি টেলিকম কোম্পানিতে চাকুরি করতাম। আমার অনেক সঞ্চয় আছে। সেখান থেকেই খরচ করি’- জবাব জন ব্রে নামের এ ফুটবল পাগলের।

স্কটল্যান্ডকে উড়িয়ে দিলো ইংল্যান্ড

ঘরের মাঠে স্কটল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে ৩-০ গোলের জয়ে তুলে নিয়েছে ইংল্যান্ড। আর এ জয়ে ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে চার ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থানও মজবুত করলো ইংলিশরা।

লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে প্রথমে এলোমেলো ফুটবল খেললেও ধীরে ধীরে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিজেদের হাতে নিতে থাকে স্বাগতিকরা। এরই ধারাবাহিকতায় ম্যাচের ২৪ মিনিটে স্টারিজের গোলে ঠিকই এগিয়ে যায় ইংল্যান্ড। ডান দিক থেকে মিডফিল্ডার কাইল ওয়াকারের ক্রসে নীচু হয়ে হেডে বল জালে জড়ান লিভারপুলের এই ফরোয়ার্ড। আর ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় রুনি-লালানারা।

england

বিরতিতে থেকে ব্যবধান বাড়াতে মরিয়া হয়ে ওঠে ইংলিশরা। ম্যাচের ৫০ মিনিটে লিভারপুলের আরেক তারকা লালানা গোল করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন। আর ম্যাচের ৬১ মিনিটে চেলসি ডিফেন্ডার ক্যাহিল গোল করলে বড় জয়ের স্বাদ নিয়েই মাঠ ছাড়ে ইংল্যান্ড। এদিকে গ্রুপের অন্য দুই ম্যাচে  মাল্টাকে ১-০ গোলে স্লোভেনিয়া আর লিথুয়ানিয়াকে ৪-০ গোলে হারিয়েছে হারানো স্লোভাকিয়া।

শেখ রাসেল-চট্টগ্রাম আবাহনীর গোলশূন্য ড্র

প্রিমিয়ার লিগের প্রথম পর্বের পুনরাবৃত্তি করতে পারেনি চট্টগ্রাম আবাহনী। দ্বিতীয় পর্বের ম্যাচে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের সঙ্গে গোলশূণ্য ড্র করে শীর্ষে ফেরার সুযোগ হারিয়েছে দলটি। প্রথম লেগে শেখ রাসেলকে ২-১ গোলে হারিয়েছিল চট্টগ্রামের দলটি।
ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভূইয়া স্টেডিয়ামে শুক্রবার শুরু থেকে আক্রমণ, প্রতিআক্রমণে জমে ওঠে ম্যাচটি। তবে প্রথমার্ধে আক্রমণে এগিয়ে ছিল চট্টগ্রাম আবাহনী। ২৪তম মিনিটে জাহিদের ফ্রি-কিক দারুণ দতায় ফিরিয়ে শেখ রাসেলের ত্রাতা গোলরক বিপ্লব ভট্টাচার্য্য। প্রথমার্ধে গোলের সেরা সুযোগটি নষ্ট করেন লিওনেল সেইন্ট প্রিয়াক্স। সতীর্থের বাড়ানো বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে গোলরককে কাটানোর পর হাইতির এই ফরোয়ার্ডের নেওয়া শট গোললাইন থেকে শেষ মুহূর্তে ফেরান আহমেদ সাইদ হাসান।
শেষ দিকে বল দখলের লড়াইয়ে শেখ রাসেলের রুম্মনের সঙ্গে সংঘর্ষের পর অ্যাম্বুলেন্সে চেপে মাঠ ছাড়েন চট্টগ্রাম আবাহনীর নির্ভরযোগ্য ডিফেন্ডার রেজাউল করিম। আঘাত পেয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়েন রুম্মনও।
দ্বিতীয়ার্ধে চট্টগ্রামকে চাপে রাখে শেখ রাসেল। কিন্তু গোল অধরা থেকে যায়। ৬৪তম মিনিটে সেবাস্তিয়ানের দূরপাল্লার শট সোজা আশরাফুল ইসলাম রানার গ্লাভসে জমে গেলে এগিয়ে যাওয়া হয়নি শেখ রাসেলের। একটু পর সেবাস্তিয়ানের আরেকটি দূরপাল্লার শট গোলরককে ফাঁকি দিলেও পোস্টে লাগে।
ছয় মিনিট পর ভালো একটি আক্রমণের সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি শেখ রাসেল। ডি বক্সের মধ্যে নাসিরুল ইসলামের কাট ব্যাক থেকে পাওয়া সুযোগ ইকাঙ্গা নষ্ট করার পর পেয়ে গিয়েছিলেন শাখাওয়াত হোসেন রনি। জাতীয় দলের এই ফরোয়ার্ড প্রতিপরে এক খেলোয়াড়ের গায়ে বল মারেন।
১৪ ম্যাচে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে চট্টগ্রাম আবাহনী। তাদের চেয়ে এক ম্যাচ কম খেলা আবাহনী ২৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে। আর ১২ পয়েন্ট নিয়ে দশম স্থানে রয়েছে শেখ রাসেল।

ময়মনসিংহেও রহমতগঞ্জের চমক

জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ময়মনসিংহ পর্বের সূচনা খেলায় হারের মুখ দেখলো শিরোপাধারী শেখ জামাল ধানমণ্ডি। আজ বৃহস্পতিবার ময়মনসিংহের রফিকউদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়ামে এবারের লিগে চমক সৃষ্টি করা রহমতগঞ্জ ১-০ গোলে পরাজিত করে শেখ জামালকে। খেলার ৬৯ মিনিটে কঙ্গোর ফরোয়ার্ড সিয়ো জুনাপিয়ো করেন জয়সূচক গোলটি।
এ জয়ে ১৪ খেলায় ২৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় অবস্থানে রইলো রহমতগঞ্জ। ২২ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে শেখ জামাল।

যেসব চ্যানেলে দেখা যাবে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচ নিয়ে বাড়তি আগ্রহ আছে বাংলাদেশি ভক্তদের। বিশ্বকাপ বাছাই ম্যাচে আগামীকাল ভোরে মেসির আর্জেন্টিনার বিপক্ষে মাঠে নামবে নেইমারের ব্রাজিল। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় ভোর ৫.৩০ মিনিটে। আর ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে সনি সিক্স ও সনি সিক্স এইচডি চ্যানেল।

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ইতিহাসে অষ্টমবারের মতো মুখোমুখি হতে প্রস্তুত ফুটবল বিশ্বের দুই পাওয়ার হাউজ ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনা। লাতিন অঞ্চল থেকে রাশিয়া বিশ্বকাপ নিশ্চিত করার দৌড়ে এরই মধ্যে ১০ ম্যাচে ২১ পয়েন্ট নিয়ে এগিয়ে রয়েছে নেইমারের ব্রাজিল। মেসির আর্জেন্টিনা রয়েছে ১০ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে ৬ নম্বরে।  প্রথম চারটি দল সরাসরি খেলবে বিশ্বকাপে। পঞ্চমটি খেলবে প্লে অফ। আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ খেলতে হলে এই ম্যাচে জয় ছাড়া বিকল্প নেই।

২০ বছর আগে লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের দেশগুলো নিয়ে শুরু হয়েছিল বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব। এরপর থেকে এই ফরম্যাটে সাতবার মুখোমুখি এই দু’দল। এ নিয়ে আটবার হবে। প্রথম ম্যাচেই ব্রাজিল জিতেছিল ৩-১ গোলে। এরপরের ম্যাচে আর্জেন্টিনা জিতেছিল ২-১ ম্যাচে। তৃতীয় ম্যাচে আর্জেন্টিনা ৩-১ এবং চতুর্থ ম্যাচে ব্রাচিল ৩-১ গোলে জয়ী।

প্রথম চারটি ম্যাচেই ছিলো হোম অ্যাডভান্টেজ। কারণ ঘরের মাঠে স্বাগতিকরাই জিতেছে সব ম্যাচ। পঞ্চম ম্যাচ ছিল গোলশূন্য ড্র। ষষ্ঠ ম্যাচে এসে, ২০০৯ সালে দিয়েগো ম্যারাডোনার আর্জেন্টিনাকে রোজারিওতে ৩-১ গোলে হারিয়েছিল ব্রাজিল। সর্বশেষ ২০১৫ সালে আর্জেন্টিনা এবং ব্রাজিলের ম্যাচ ১-১ গোলে হয়েছিল ড্র।

এবার আর্জেন্টিনার পালা, জয়ে সমতায় আনার। সেটা পারবে কিনা মেসির আর্জেন্টিনা, সেটাই দেখার বিষয়। এরই মধ্যে মেসি-নেইমাররা যোগ দিয়েছেন তাদের নিজ নিজ দলের সঙ্গে এবং লাতিন সুপার ক্ল্যাসিকোর জন্য প্রস্তুত দু’দলই।

নেইমারের বিমানে ব্রাজিলে গেলেন মেসি-মাচেরানো

বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের ম্যাচে আগামী শুক্রবার (বাংলাদেশ) মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল। ম্যাচটির ভেন্যু ব্রাজিলের বেলো হরিজন্তে। সেই লক্ষ্যে ক্লাব সতীর্থ নেইমারের বিমানে চড়ে ব্রাজিলে উড়ে গেলেন লিওনেল মেসি ও হ্যাভিয়ের মাচেরানো।

নেইমার-মেসি-মাচেরানো তিনজনই ক্লাব ফুটবলে খেলেন বার্সেলোনার হয়ে। কাতালান ক্লাবটিতে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে প্রতিপক্ষকে বধ করার খেলায় মেতে ওঠেন তারা। কিন্তু আন্তর্জাতিক ফুটবলে তারা আবির্ভূত হবেন ‘শত্রুর’ ভূমিকায়। কেউ কাউকে ছাড় দিয়ে খেলেন না, এটা হলফ করে বলা যায়।

এদিকে শুক্রবারের ম্যাচটি মেসি-মাচেরানোর আর্জেন্টিনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ বাছাই পর্বের পয়েন্ট টেবিলে খুব একটা ভালো অবস্থানে নেই তারা। ১০ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে আর্জেন্টিনা। সমসংখ্যক ম্যাচে ২১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ব্রাজিল।

মাশরাফি-তামিম দ্বৈরথে শুরু হচ্ছে বিপিএল

ফুটবলারদের উন্নত প্রশিক্ষণের জন্য এক হয়ে কাজ করবে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) এবং সাইফ পাওয়ারটেক। এ জন্য বিকেএসপিকে উন্নতমানের ইউরোপিয়ান কোচ আনার অর্থ দেবে সাইফ পাওয়ারটেক।

এ পৃষ্ঠপোষকতা করে লাভবান হবে প্রতিষ্ঠানটিও। বিনিময়ে বিকেএসপি থেকে খেলোয়াড় নিতে পারবে সাইফ পাওয়ারটেক পরিচালিত সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। যে ক্লাবটির আত্মপ্রকাশ হয়েছে এ বছেই।

তারা খেলছে পেশাদার ফুটবলের দ্বিতীয় স্তর বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে। জানা গেছে, বিকেএসপির ও সাইফ পাওয়ারটেক কর্মকর্তাদের আলোচনা ইতিবাচক হওয়ায় ১০ বছরের চুক্তি করতে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠান দুটি।

বিকেএসপির অনূর্ধ্ব-১৪, ১৬ ও ১৮ দলের প্রশিক্ষণের দায়িত্ব নিচ্ছে সাইফ পাওয়ারটেক। ইউরোপিয়ান কোচিং স্টাফ ফুটবলারদের প্রশিক্ষণ দেবে বিকেএসপিতে। খেলোয়াড়দের থাকা-খাওয়া, স্বাস্থ্য, অনুশীলন ও অবকাঠামো সহযোগিতার পাশাপাশি লেখাপড়া করাবে বিকেএসপি।

তবে এই খরচের একটা অংশ দেবে সাইফ পাওয়ারটেকও। আনুষ্ঠানিক চুক্তির পর কাজ শুরু করবে দুই পক্ষ।

রিয়ালের সঙ্গে রোনালদোর নতুন চুক্তি

বেলের সঙ্গে চুক্তি নবায়নের পর থেকে শোনা যাচ্ছিল রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে নতুনভাবে চুক্তিবদ্ধ হতে যাচ্ছেন রোনালদো। অবশেষে সোমবার রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে পাঁচ বছরের নতুন চুক্তি করলেন রোনালদো। আর চুক্তি অনুযায়ী ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত এ ক্লাবে থাকবেন সিআরসেভেন।

চুক্তি সই শেষে রোনালদো বলেন, ক্লাবের সঙ্গে নতুন চুক্তি, এটা আমার জন্য বিশেষ দিন, এই ক্লাব আমার হৃদয়। আমি রিয়াল মাদ্রিদের সভাপতি, ক্লাবকে, আমার সতীর্থদের, যারা আমাকে এই পর্যায়ে পৌঁছাতে সাহায্য করেছে তাদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। আর রিয়ালে এটিই আমার শেষ চুক্তি নয়, এখানেই আমি ক্যারিয়ার শেষ করতে চাই।

পর্তুগিজ তারকা আরও বলেন, রিয়ালের হয়ে আমি ইতিহাস গড়তে চাই। আশা করছি, এই ক্লাবের হয়ে আগামী পাঁচ বছর অনেক গোল করতে পারব এবং ট্রফি জিতব।

উল্লেখ্য, ৩১ বছর বয়সী রোনালদোকে নিয়ে গত মৌসুমে ১১ বারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। এ বছর সব পর্যায়ের খেলা মিলিয়ে ১১ গোল করেছেন রোনালদো।

সোমবার থেকে বিকেএসপিতে হকির ক্যাম্প

ইউরোপ সফর থেকে এসে ৫ দিনের বিশ্রামে ছিলেন হকি খেলোয়াড়রা। বিশ্রাম শেষে আবার তারা মাঠে নেমে পড়ছেন এশিয়ান হকি ফেডারেশন (এএইচএফ) কাপের প্রস্তুতিতে।  আগামী ১৮-২৭ নভেম্বর হংকংয়ে হবে এ টুর্নামেন্ট। বাংলাদেশ এ প্রতিযোগিতার সর্বশেষ আসরের চ্যাম্পিয়ন।

জার্মানি, পোল্যান্ড ও অস্ট্রিয়া সফরে ছিলেন ১৯ খেলোয়াড়। তাদের সঙ্গে ৪ জন যোগ করে ২৩ জন নিয়ে আগামীকাল (সোমবার) বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (বিকেএসপি) শুরু হবে আবাসিক ক্যাম্প। খেলোয়াড়দের বিকেএসপি যাওয়ার কথা ছিল রোববারই। কিন্তু সেখানে আবাসন সমস্যার কারণে একদিন পর খেলোয়াড়দের নিয়ে যাচ্ছেন সহকারী  কোচ মাহবুব হারুন।

প্রধান কোচ জার্মানির অলিভার কার্টজ ও প্রধান উপদেষ্টা জেরার্ড  পিটারের  সোমবার দলের সঙ্গে যোগ দেয়ার কথা রয়েছে। বাংলাদেশ দল হংকংয়ের উদ্দেশ্যে রওনা দেবে ১৭ নভেম্বর রাতে। লাল-সবুজ জার্সিধারীদের প্রথম ম্যাচ ২০ নভেম্বর ইন্দোনেশিয়ার বিপক্ষে। বাংলাদেশ রয়েছে ‘এ গ্রুপে। বাকি তিন দল হংকং, চাইনিজ তাইপে ও ম্যাকাও। ২১ নভেম্বর বাংলাদেশের দ্বিতীয় ম্যাচ স্বাগতিক হংকংয়ের বিপক্ষে। শেষ ২ ম্যাচ ২৩ ও ২৪ নভেম্বর চাইনিজ তাইপে ও ম্যাকাওয়ের সঙ্গে।

ক্যাম্পের ২৩ খেলোয়াড় :
জাহিদ হোসেন, আবু সাইদ নিপ্পন, রেজাউল বাবু, ফরহাদ শিটুল, মামুনুর রহমান চয়ন, আশরাফুল ইসলাম, খোরশেদুর রহমান, ইমরান হাসান পিন্টু, সারোয়ার হোসেন, রোমান সরকার, নাইম উদ্দিন, হাসান জুবায়ের নিলয়, রাসেল মাহমুদ জিমি, কামরুজ্জামান রানা, মইনুল ইসলাম কৌশিক, পুস্কর খিসা মিমো, আরশাদ হোসেন, মিলন হোসেন, কৃষ্ণ কুমার দাস, দ্বীন ইসলাম, ফজলে হোসেন রাব্বি, অসীম গোপ ও তাপস বর্মন।

এক বছর পরে জাতীয় দলে ফ্যালকাও

প্রায় এক বছর পর বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে পরবর্তী দুটি ম্যাচের জন্য আবারো জাতীয় দলের ডাক পেলেন কলম্বিয়ার তারকা স্ট্রাইকার রাদামেল ফ্যালকাও। আগামী ১০ ও ১৬ নভেম্বর যথাক্রমে চিলি এবং আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ম্যাচের মাধ্যমে মাঠে নামতে যাচ্ছেন এই তারকা।

ইনজুরির কারণে ২০১৪ বিশ্বকাপ খেলতে না পারা ফ্যালকাও সর্বশেষ গত বছর ১৩ অক্টোবর মন্টিভিডিওতে উরুগুয়ের বিপক্ষে ৩-০ গোলে পরাজয়ের ম্যাচটিতে কলম্বিয়ার জার্সি গায়ে মাঠে নেমেছিলেন। গত সপ্তাহে চ্যাম্পিয়নস লিগে সিএসকেএ মস্কোর বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয়ের ম্যাচে দুটি গোল করেছেন। চলতি মৌসুমে নয় ম্যাচে এটি তার ষষ্ঠ গোল।

দলে ডাক পেয়েই টুইটারে তিনি লেখেন, দেশকে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ পেয়ে দারুণ খুশি। এটা আমার জন্য অনেক বড় একটি সুযোগ, সত্যিই যা বিশেষ কিছু।

জয়ে ফিরেছে শেখ জামাল

জয়টা যেন ভুলতেই বসেছিল শেখ জামাল  ধানমন্ডি ক্লাব। প্রথম পর্বের শেষ তিন ম্যাচ থেকে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা পয়েন্ট পেয়েছিল মাত্র একটি।  আবাহনীর কাছে ড্রয়ের পর হেরেছিল মোহামেডান ও শেখ রাসেলের কাছে। দ্বিতীয় পর্বের শুরুটা হয়েছিল আরামবাগের কাছে হেরে।

অবশেষে চারম্যাচ পর জয়ে ফিরেছে  তিনবারের চ্যাম্পিয়নরা। আজ(শনিবার) বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত রাতের ম্যাচে শেখ জামাল ২-০ গোলে হারিয়েছে উত্তর বারিধারা ক্লাবকে। গোল করেছেন নাইজেরিয়ার এমেকা ডার্লিংটন ও গাম্বিয়ান ল্যান্ডিং।

জয় পেতে অনেক কস্টই করতে হয়েছে শেখ জামালকে। গোলের জন্য তাদের অপেক্ষা করতে হয়েছে ৮৪ মিনিট পর্যন্ত। দিনভর গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিতে মাঠ ছিল ভারী।

এমন মাঠে স্বাভাবিক খেলা সম্ভব হয়নি তাদের।  শেখ জামাল একের পর এক আক্রমন করেও খুলতে পারছিল না উত্তর বারিধারার গোলমুখ। আবার পয়েন্ট হারানোর শঙ্কায় পেয়ে বসেছিল বতর্মান চ্যাম্পিয়নদের। শেষ পর্যন্ত তারা দুই বিদেশির গোলে পুরো ৩ পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়তে পেরেছে।

এ জয়ে ১৩ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট হয়েছে শেখ জামালের। সমান পয়েন্ট রহমতগঞ্জেরও। গোলগড়ে এগিয়ে থেকে জামাল আছে টেবিলের তিনে, রহমতগঞ্জ নেমে গেছে চারে। দশম হারে আবার শঙ্কা বেড়েছে উত্তর বারিধারা ক্লাবের। ১৩ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতেই প্রিমিয়ার লিগে ফিরে আসা দলটি।

হিমাগারে ক্লাবের যুব টুর্নামেন্ট!

‘পেশাদার ক্লাবগুলোর যুব দল নেই। এটা যে কোনো দেশের জন্য লজ্জাজনক’ -একদিন আগে সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন ফিফার সিনিয়র ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার মাইক ফিস্টার। ধারণা করা হয়েছিল, ফিস্টারের এমন মন্তব্যের পর বাফুফে যে করেই হোক ক্লাবগুলোর যুব টুর্নামেন্ট আয়োজনে আবার ফিরে যাবে।

কিন্তু একদিন পরই বাফুফের মুলতবি সভায় আগামী সাড়ে তিন বছরের জন্য যে ক্যালেন্ডার তৈরি করা হয়েছে সেখানে ক্লাবগুলোর যুব টুর্নামেন্ট রাখা হয়নি। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠেছে, তাহলে কি হিমাগারেই চলে গেল ক্লাবের যুব টুর্নামেন্ট?

বাফুফে এর আগে দুটি টুর্নামেন্ট করেছিল- প্রথমটি অনূর্ধ্ব-১৬ ও দ্বিতীয়টি অনূর্ধ্ব-১৮, যার কোনোটিতেই অংশ নেয়নি শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব। টুর্নামেন্টে অংশ নেয়া বাধ্যতামূলক হলেও জামালের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি বাফুফে।

প্রিমিয়ার লিগের বাইলজে ক্লাবগুলোর যুব দল গঠন ও টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ বাধ্যতামূলক করেছে বাফুফে। বাফুফেই এখন ভাঙছে সে নিয়ম।

বাফুফে থেকে বলা হয়েছে, খসড়া ক্যালেন্ডার ১০ দিনের মধ্যে চূড়ান্ত করা হবে। খসড়া ক্যালেন্ডার অনুযায়ী চলমান ফুটবল মৌসুম শেষ হবে ৩০ ডিসেম্বর। ২০১৬-১৭ মৌসুম শুরু হবে ২০ জুলাই ফেডারেশন কাপ দিয়ে। তার আগে আছে দলবদল।

আর প্রিমিয়ার লিগের পরের আসর শুরু হবে ২০১৭ সালের ১৮ জুলাই।  জাতীয় দলের সাফের প্রস্তুতিতে অংশ নেয়ার জন্য লম্বা বিরতিও পড়বে লিগে। মৌসুম শেষ হবে স্বাধীনতা কাপ দিয়ে, যা অনুষ্ঠিত হবে ১০ থেকে ২২ এপ্রিল।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনাকে ফিফার জরিমানা

রাশিয়া বিশ্বকাপকে সামনে রেখে আগামী ১১ নভেম্বর (শুক্রবার) নেইমারের ব্রাজিলের বিপক্ষে মাঠে নামবে মেসির আর্জেন্টিনা। তবে এ ম্যাচের আগে জরিমানা গুণতে হচ্ছে দুই দলকেই। ম্যাচ চলার সময় গ্যালারিতে সমর্থকদের বিভিন্ন বিদ্বেষমূলক আচরণের জন্য এ দুই দেশের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের জরিমানা করেছে ফিফা।

ফিফা এক বিবৃতিতে জানায়, ব্রাজিল ও চিলির জরিমানা ম্যাচ চলার সময়ে দেশ দুটির সমর্থকদের সমকামী বিদ্বেষী স্লোগান দেয়। এ দুই দেশ ছাড়াও আরও জরিমানা গুণতে হচ্ছে চিলি, আলবেনিয়া, কসোভো, ক্রোয়েশিয়া, এস্তোনিয়া, ইউক্রেন, প্যারাগুয়ে ও ইরানকেও।

আলবেনিয়া ও ক্রোয়েশিয়াকে ৪০ হাজার পাউন্ড করে জরিমানা করা হয়েছে। আর কসোভো, ব্রাজিল, প্যারাগুয়ে, এস্তোনিয়া, ইউক্রেন, চিলি ও আর্জেন্টিনাকে গুণতে হবে ২৫ হাজার পাউন্ড করে জরিমানা।

এবার মোহামেডানকে রুখতে পারেনি রহমতগঞ্জ

তাহলে কি মোহামেডান সমর্থকরা জায়গা বদল করেছে? না হলে রহমতগঞ্জের বিপক্ষে ম্যাচে পশ্চিম গ্যালারিতে দর্শক বেশি কেন? বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে প্রবেশ করে এমন ধাঁধায় হয়তো পড়েছেন কেউ কেউ। পরক্ষণেই তাদের ভুল ভেঙ্গেছে। যখন পশ্চিম গ্যালারিতে দুলতে দেখেছে রহমতগঞ্জের পতাকা। ক্লাবটির সমর্থনে পুরান ঢাকা থেকে শত শত মানুষ এসে গ্যালারি ভরানোর লড়াইয়ে হারিয়ে দিয়েছে মোহামেডানকে।

গ্যালারিতে মোহামেডানের চেয়ে রহমতগঞ্জের সমর্থক বেশি- ঘরোয়া ফুটবলে এটাতো নজিরবিহীন। সমর্থক উপস্থিতির লড়াইয়ে মোহামেডান জিততে না পারলেও মাঠে ঠিকই জিতেছে। রহমতগঞ্জকে ২-১ গোলে হারিয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে দ্বিতীয় জয় নিয়ে ঘরে ফিরেছে সাদাকালোরা। পিছিয়ে পড়া মোহামেডানকে তিন পয়েন্ট এনে দিয়েছেন দুই বিদেশি ক্যামেরুনের প্যাটট্রিক ও গিনির ইসমাইল বাঙ্গুরা। দলকে সমতায় ফিরিয়েছিলেন প্যাটট্রিক, জিতিয়েছেন ইসমাইল বাঙ্গুরা।

Mohammedan

প্রথম পর্বে মোহামেডানকে ১-১ গোলে রুখে দিয়েছিল রহমতগঞ্জ। দ্বিতীয় পর্বে আর পারেনি এবারের লিগে চমকের পর চমক দেখানো পুরান ঢাকার দলটি। দ্বিতীয় পর্বটা হার দিয়েই শুরু করলো কামাল বাবুর দল। মোহামেডানের পিঠ দেয়ালে ঠেকেছে আগেই। এখন তাদের সামনে আগানোর বিকল্প নেই। জয় দিয়ে দ্বিতীয় পর্ব শুরু করতে পারায় অনেক স্বস্তির বাতাস মোহামেডান শিবিরে। যদিও ২৮ মিনিটে পিছিয়ে পড়ায় আবার পয়েন্ট হারানোর শঙ্কায় পেয়ে বসেছিল সাদা-কালোদের।

রহমতগঞ্জকে ২৮ মিনিটে এগিয়ে দিয়েছিলেন গাম্বিয়ান ফুটবলার দাউদা সিসে। ওমর ফারুক লিঙ্কনের বাড়ানো বল ধরে গোলরক্ষকের পাস দিয়ে প্লেসিংয়ে গোল করে এগিয়ে দেন দলকে। মোহামেডান ম্যাচে ফেরে বিরতিতে যাওয়ার আগেই। ৪০ মিনিটে সজিবের ফ্রিকিক প্রথমে পোস্টে লেগে ফেরত এলে পূনরায় শট নেন তৌহিদুল আলম সবুজ। তার শট ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে পারেননি রহমতগঞ্জের গোলরক্ষক মাসুম। বলের কাছাকাছি থাকা প্যাটট্রিকে হেডে গোল করে সমতা আনেন।

গিনির ইসমাইল বাঙ্গুরার স্কোরিং দক্ষতা দেখে বাফুফে তাকে নাগরিকত্ব দিয়ে জাতীয় দলে খেলানোর পরিকল্পনাও করেছিল একবার। কিন্তু সেই বাঙ্গুরাকে এবার খুঁজেই পাওয়া যাচ্ছিল না। এমন কি দলেও অনিয়মিত হয়ে পড়েছিলেন তিনি। অবশেষে ইসমাইল বাঙ্গুরার গোলে দ্বিতীয় জয় পেল মোহামেডান। ডান দিক থেকে সবুজের ক্রসে মাথার সংযোগ ঘটিয়ে মোহামেডান শিবিরে হাসি ফোটান গিনির এ ফরোয়ার্ড।

এ জয়ে পয়েন্ট টেবিলে তিন ধাপা উপরে উঠে ৭ নম্বরে মোহামেডান। ১২ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ১২ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ৩ নম্বরেই আছে রহমতগঞ্জ।

বাফুফে ভবনের সামনে ফুটবল সমর্থকদের বিক্ষোভ

ফিফা প্রতিনিধি দল এখন ঢাকায়। ফিফার সিনিয়র ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার মাইক ফিস্টার, টেকনিক্যাল অফিসার সুব্রামানিয়াম, ডেভেলপমেন্ট অফিসার সাজি প্রভাকরণ ও এএফসির মেম্বার অ্যাসোসিয়েশন ডিপার্টমেন্টের ডেভেলপমেন্ট অফিসার নুরাইয়াম গতকাল (মঙ্গলবার) ঢাকায় এসেছেন ৫ দিনের সফরে। ভুটানের কাছে হারের পর একাধিকবার বাফুফে ভবনের সামনে বিক্ষোভ করেছে সমর্থকরা। এখন ফিফা প্রতিনিধি দল ঢাকা আসার আবারো সক্রিয় হয়েছে তারা। সমর্থকদের দেশের ফুটবলের রুগ্নচিত্রটা ফিফার নজরে আনতে চায়। তাইতো তাদের ঢাকা সফরকালে বেশ কয়েকটি কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল সাপোর্টাস ফোরাম ও ঢাকা ফুটবল সমর্থকগোষ্ঠী।

তার অংশ হিসেবে আজ (বুধবার) সকালে কয়েক শত ফুটবল সমর্থক বিক্ষোভ, মানববন্ধন করেছে। সকাল সাড়ে ১০ টায় শুরু হয়ে বিক্ষোভ-মিছিল চলে ঘন্টা দেড়েক। সমর্থকদের হাতে ছিল বিভিন্ন স্লোগান সম্বলিত প্লাকার্ড। বাফুফে অনিয়ম দুর্নীতি, ফটবলকে পেছনে নিয়ে যাওয়ার প্রতিবাদে বেশি সোচ্চার ছিল বিক্ষোভকারীরা। তারা একটি স্মারকলিপি দিতে ফিফা প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সাক্ষাত করার চেষ্টা করছে। বক্তারা দেশের ফুটবল বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপও কামনা করেছে। প্রয়োজনে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করবেন বলেও জানিয়েছেন সমর্থক ফোরামের কর্মকর্তারা।

বোকামির শাস্তি বাফুফের

সবকিছুতেই তালগোল পাকিয়ে ফেলছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। ঘরোয়া ফুটবলে দর্শক নেই, আন্তর্জাতিক ফুটবলে ভারি হচ্ছে ব্যর্থতার পাল্লা। মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হিসেবে এবার আন্তর্জাতিক অঙ্গনে জরিমানা। নিবন্ধন করার পরও এএফসির নতুন টুর্নামেন্ট সলিডারিটি কাপে অংশ না নেয়ায় বাফুফেকে ২০ হাজার মার্কিন ডলার জরিমানা করছে এশিয়ান ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থাটি।

কোনো টুর্নামেন্টে এন্ট্রি করে অংশ না নিলে আর্থিক জরিমানা হয়-এএফসির এ নিয়মটা নতুন নয়। তবে বাফুফে এটা মওকুফ করাতে পারবে বলে জানিয়েছিল মিডিয়াকে। কিন্তু অবস্থা যা দাঁড়িয়েছে তাতে জরিমানার এ অর্থ গুনতেই হবে বাংলাদেশকে।

এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের প্লে-অফ পর্ব পার হতে না পারা দেশগুলোকে খেলার সুযোগ করে দেয়ার জন্যই নতুন এ টুর্নামেন্ট আয়োজন করেছে এএফসি। যা মাঠে গড়াচ্ছে আজ (বুধবার) মালয়েশিয়ায়। বাফুফে এখানে অদূরদর্শিতার পরিচয় দিয়েছে। আগপিছ না ভেবেই দিয়ে রেখেছিল এন্ট্রি। সেই বোকামির শাস্তিই এখন পাচ্ছে দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থাটি।

মালয়েশিয়ায় শুরু হতে যাওয়া এ টুর্নামেন্ট থেকে বাংলাদেশের মতো নাম প্রত্যহার করেছে পাকিস্তানও। তাই ৯ দলের পরিবর্তে খেলা হচ্ছে ৭ দল নিয়ে। বাংলাদেশ ও পাকিস্তান নাম প্রত্যাহার করায় টুর্নামেন্টের ফিকশ্চার নতুন করে সাজিয়েছে এএফসি। এ দুই দেশই ছিল ‘এ’ গ্রুপে নেপাল, ব্রুনাই ও তিমুরের সঙ্গে। ‘বি’ গ্রুপের দেশগুলো হচ্ছে- শ্রীলংকা, ম্যাকাও, মঙ্গোলিয়া ও লাওস। ব্রুনাই ও তিমুরের ম্যাচ দিয়ে মাঠে গড়াবে এশিয়ার ফুটবলের নতুন সংযোজন এএফসি সলিডারিটি কাপ। শেষ হবে ১৫ নভেম্বর ফাইনালের মধ্যে দিয়ে।

প্রশ্ন হচ্ছে বাফুফে কেন এ বোকামি করলো? ভুটানের বিপক্ষে অ্যাওয়ে ম্যাচের আগে বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন বলেছিলেন, তিনি সলিডারিটি কাপ খেলার পক্ষে নন। এ সময় প্রিমিয়ার লিগ চলবে বলে এশিয়ান কাপের পরের রাউন্ডে উঠতে না পারলেও সলিডারিটি কাপে না খেলার পক্ষে মতামত দিয়েছিলেন তিনি। যদিও তার অনেক আগেই বাফুফে এ প্রতিযোগিতায় খেলার জন্য নাম নিবন্ধন করে রাখে। তারা হয়তো আগে থেকেই ভেবে রেখেছিল ভুটানের বিপক্ষে জেতা সম্ভব নয়। থিম্পুতে ওই হারের পর চারিদিক থেকে যখন সমালোচনার ঝড় উঠতে থাকে। মিডিয়া ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যখন বাফুফে কর্মকতাদের মুণ্ডুপাত শুরু হয় তখন আরেকটি বিপর্যয়ের মুখোমুখি না হওয়ার জন্য সলিডারিটি কাপ না খেলার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয় বাফুফে।

প্রশ্ন হলো বাফুফে কেন আগ বাড়িয়ে সলিডারিটি কাপে খেলার নিবন্ধন করেছিল? ভুটান তো করেনি। প্লে-অফ ম্যাচ জিতলে তো সলিডারিটি কাপ খেলারই প্রয়োজন হতো না। এই সাধারণ হিসাবটাও ছিল না বাফুফে কর্মকর্তাদের মাথায়। ভুটানের কাছে হার এবং রাংকিংয়ে অবনমনের ধারা অব্যাহত থাকার কারণে এমনিতেই দেশের মানুষের আস্থা হারিয়েছে বাফুফের বর্তমান নেতৃত্ব। এখন জরিমানার ঘটনায় বাফুফে কর্মকর্তাদের জ্ঞানের পরিধি নিয়ে প্রশ্ন ওঠাও স্বাভাবিক।

চ্যাম্পিয়ন জামালের দুর্দশা চলছেই

হারের বৃত্তেই যেন আটকে গেছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন দলটি প্রথম পর্বের শেষ দুই ম্যাচ হেরেছিল মোহামেডান ও শেখ রাসেলের কাছে। দ্বিতীয় পর্বের শুরুটাও ভালো হলো না তাদের।

আজ(মঙ্গলবার) বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় পর্বের উদ্বোধনী ম্যাচে শেখ জামালকে ২-০ গোলে হারিয়েছে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। টানা ৩ ম্যাচ হেরে শিরোপা লড়াই থেকে বেশ পিছিয়ে পড়লো শেখ জামাল। ১২ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চতুর্থ স্থানেই পড়ে রইলো চ্যাম্পিয়নরা। সমান ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ।

কাজী জসিম উদ্দিন জোসীর এবারের মৌসুমটা মোটেও ভালো কাটছে না। মোহামেডানের ডাগআউটে ৯ ম্যাচ দাঁড়িয়েও কোনো জয় পাননি তিনি। শেখ জামালে অভিষেকটাও তার সুখকর হলো না। দলটি টেকনিক্যাল ডাইরেক্টর কাম ম্যানেজার হিসেবে প্রথম দাঁড়িয়েছিলে শেখ জামালের ডাগআউটে। ক্যারিয়ারের জামালপর্বটাও হার দিয়ে শুরু হলো জোসীর। দুর্ভাগ্য যেমন পিছু ছাড়ছে না জোসীর, যেতন দুর্দশাও কাটছে না জামালের।

চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে জামাল-আরামবাগ ম্যাচ দিয়ে শুরু হয়েছিল প্রথম পর্ব। সেই ম্যাচে শেখ জামালকে ১-১ গোলে রুখে দিয়েছিল আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। এবার সাইফুল বারী টিটুর দল হারিয়েই দিল চ্যাম্পিয়নদের। ২-০ গোলে পিছিয়ে পড়ার পর ব্যবধান কমানোর সুযোগ এসেছিল শেখ জামালের সামনে। কিন্তু ইনজুরি সময়ে পাওয়া পেনাল্টিটাও কাজে লাগাতে পারেনি তারা। নাইজেরিয়ান অটোজারেরির পেনাল্টি ডান দিকে ঝাপিয়ে রুখে দেন আরামবাগের গোলরক্ষক মিতুল হাসান।

ভাগ্যটাও পক্ষে ছিল না জামালের। তানাহলে আত্মঘাতি গোলে কেন পিছিয়ে পড়বে চ্যাম্পিয়নরা? ৪১ মিনিটে রবিউল হাসানের কর্নার কিক ফিস্ট করেছিলেন জামালের গোলরক্ষ সুজন। কিন্তু বল থেকে যায় বক্সেই। দিদারুল ব্যাকভলিতে ক্লিয়ার করতে গেলে তা বুমেরাং হয়ে যায়। সৌভাগ্যের পরশ নিয়ে এগিয়ে যাওয়া আরামবাগ চড়াও হয় ব্যবধান বাড়াতে।

সাফল্যও আসে ৫৮ মিনিটে। আব্দুল্লাহ দুরন্ত গতিতে জামালের ডিফেন্ডারদের পেছনে ফেলে ঠান্ডা মাথায় গোল করেন। জাতীয় দলের এ মিডফিল্ডার দ্বিতীয় গোলও পেতে পারতেন, দুর্ভাগ্য ৭২ মিনিটে নেয়া তার ফ্রি কিক গোলরক্ষকের হাত ছুঁয়ে ক্রসবারে লেগে ফিরে আসে।

প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় পর্ব মঙ্গলবার থেকে

শীর্ষ ৩ দলের অবস্থান খুব কাছাকাছি। টেবিলের শীর্ষে থাকা চট্টগ্রাম আবাহনীর পয়েন্ট ২৪। ঢাকা আবাহনীর ২৩ ও রহমতগঞ্জের ২২। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের এবারের আসরটা বেশ জমে উঠেছে। হ্যাটট্রিকসহ সর্বাধিক চারবারের চ্যাম্পিয়ন আবাহনী। চট্টগ্রাম আবাহনী এবারই প্রথম শিরোপার জন্য শক্তিশালী দল গঠন করেছে। রহমতগঞ্জতো প্রথম পর্বের বিস্ময়ের নাম। সব সময় মাঝারি মানের দল গড়া পুরোনো ঢাকার ক্লাবটি এই প্রথম সমীহ আদায় করছে বড় দলগুলোর।

অর্ধেক পথ পাড়ি দিয়েছে ক্লাবগুলো। লিগে খেলতে হবে ২২ টি করে ম্যাচ। ১১টি করে শেষে যে হিসাব তা বদলে যাবে দ্বিতীয় পর্বে সেটাই স্বাভাবিক। অনেক উত্থান-পতন হবে পয়েন্ট টেবিলে। লিগ শেষে চওড়া হাসি ফুটবে কাদের মুখে তা দেখতে আরও অপেক্ষায় থাকতে হবে । শীর্ষ ৩ দল একটু সুবিধাজনক অবস্থানে থেকে দ্বিতীয় পর্ব শুরু করবে। আগামীকাল (মঙ্গলবার) বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম দিয়ে যাত্রা শুরু করছে প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় পর্ব। প্রথম পর্ব শুরু হয়েছিল চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়াম দিয়ে। এবার দুই রাউন্ড শেষে প্রিমিয়ার লিগ ফিরবে চট্টগ্রামে।

মধ্যবর্তী দলবদল শেষ আজ(সোমবার)। বেশ কয়েকটি ক্লাব তাদের খেলোয়াড় তালিকায় পরিবর্তন এনেছে। আর এ পরিবর্তনের বেশিরভাগটাই বিদেশি। মোহামেডান-আবাহনীসহ কয়েকটি ক্লাব পরিবর্তন এনেছে তাদের বিদেশি তালিকায়। সতর্কভাবেই দ্বিতীয় পর্বে পা ফেলতে প্রস্তুত ক্লাবগুলো।

মঙ্গলবার দ্বিতীয় পর্বের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ও আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। বিকাল ৪ টায় শুরু হবে ম্যাচটি। সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় দ্বিতীয় ম্যাচ শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র ও উত্তর বারিধারার মধ্যে।

দ্বিতীয় পর্বে প্রিমিয়ার লিগের  ভেন্যুর তালিকায় সংযুক্ত হয়েছে গোপালগঞ্জের নাম। প্রথম পর্ব হয়েছিল ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট ও ময়মনসিংহে। দ্বিতীয় পর্বে ভেন্যু ৫টি।

প্রথম পর্বটা সবচেয়ে খারাপ কেটেছে ঐতিহ্যের ধারক মোহামেডান ও নতুন পরাশক্তি শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের। পয়েন্ট টেবিলে তারা তলানির দিকে। ৯ পয়েন্ট নিয়ে ১০ নম্বরে মোহামেডান, ৮ পয়েন্ট পাওয়া শেখ রাসেলের অবস্থান ১১। দ্বিতীয় পর্ব এই দুই দলের জন্যই বেশি চ্যালেঞ্জের। শিরোপা লড়াইয়ে তাদের ফেরাটা প্রায় অসম্ভব। লিগ শেষে তাদের অবস্থান কি দাঁড়ায় সেটাই এখন দেখার।

প্রথম পর্ব শেষে পয়েন্ট টেবিল

দল                খেলা    জয়    ড্র    হার    গোল    পয়েন্ট
চট্ট.আাবাহনী    ১১       ৭      ৩     ১       ২১/৯    ২৪
আবাহনী         ১১        ৬      ৫     ০      ১৯/৮    ২৩
রহমতগঞ্জ        ১১       ৬      ৪     ১      ২০/১৩    ২২
শেখ জামাল     ১১        ৫     ৪     ২      ২৪/১৯    ১৯
মুক্তিযোদ্ধা       ১১        ৫     ৩     ৩      ১৮/১২    ১৮
আরামবাগ       ১১        ৩     ৬     ২      ১৪/১৩    ১৫
ব্রাদার্স            ১১        ২     ৫     ৪      ১৯/২১    ১১
বিজেএমসি      ১১        ২     ৫      ৪     ১৩/১৬    ১১
সকার ক্লাব      ১১        ২     ৩      ৬     ১০/১৬     ৯
মোহামেডান     ১১        ১     ৬     ৪      ৯/১৫      ৯
শেখ রাসেল     ১১        ২     ২     ৭      ৬/১৫      ৮
উ.বারিধারা     ১১        ২     ০      ৯     ১১/২৭     ৬

সমালোচকরাই ফুটবল ধ্বংসের অপচেষ্টা করছেন!

আগেই অনুমান করা গিয়েছিল একটি পক্ষের ইন্দনেই হঠাৎ করে সংবাদ সম্মেলন ডেকেছেন বর্তমান ফুটবলাররা। তাদের এ আয়োজনে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) যে কলকাঠি নাড়ছে সেটাও চাউর হয়েছিল। অনুমান আর বাস্তবতা ঠিকই মিশে গেছে এক মোহনায়। জাতীয় দলের অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম, সাবেক অধিনায়ক বিপ্লব ভট্টাচার্য্য, জাহিদ হাসান এমিলি আর আতিকুর রহমান মিশুর কন্ঠেও ছিল বাফুফেকে রক্ষার সুর। গত ১০ অক্টোবর থিম্পুতে ভুটানের কাছে লজ্জাজনক হারের পর প্রথম আনুষ্ঠানিকভাবে মিডিয়ার মুখোমুখি হয়েছিলেন বর্তমান ফুটবলাররা। তাদের এ আয়োজনের প্রধান লক্ষ্যই যেন ছিল বাফুফের গুনগান করা।

আজ (রোববার) রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছিল জাতীয় দল ও ক্লাবের খেলোয়াড়ের ব্যানারে। যেখানে লেখা ছিল-ফুটবল ধ্বংসের অপচেষ্টার প্রতিবাদে-সংবাদ সম্মেলন। তাই ফুটবলারদের কাছে বড় প্রশ্ন ছিল এই অপচেষ্টাকারী কারা? ভুটানের কাছে হার দেশের কোনো মানুষই মেনে নিতে পারেননি। মেনে নেয়ার মতোও নয়। তাই গত প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে ফুটবল অঙ্গনে এ নিয়েই বইছে সমালোচনার ঝড়। সাধারণ মানুষ ফুটবলের এমন হারে সমালোচনা করছেন। পিছিয়ে নেই সংগঠক ও সাবেক ফুটবলাররাও। কিন্তু ভুটানের কাছে ৩ গোল হজম করে মাথা নিচু করে ঘরে ফেরা ফুটবলাররা এখন সমালোচনা হজম করতে পারছেন না। তারা সরাসরি বলে দিয়েছেন যারা এখন ফুটবল নিয়ে সমালোচনামুখর তারই ফুটবল ধ্বংসের অপচেষ্টা করছেন।

মামুনুল ইসলাম বলেছেন,‘যারা সমালোচনা করছেন তারা ফুটবলের ক্ষতি করছেন। এটা চলতে থাকলে আগামীতে পৃষ্ঠপোষক আসবে না। কোন পিতা-মাতা তাদের সন্তানকে ফুটবল খেলতে পাঠাবেন না। অনেকে আমাদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও কথা বলছেন। এটা বড়ই কস্টের। যারা সমালোচনা করছেন তারা কখনই ফুটবল উন্নয়নে এগিয়ে আসেননি। কখনো আমাদের উপদেশ দেননি। জাতীয় দলের ক্যাম্পেও কখনো আসেনি। বরং তারা বিভিন্ন মিডিয়ায় বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। বড় বড় কথা বলছেন। কিন্তু গঠণমূলক কিছু বলছেন না। ’

সংবাদ সম্মেলনে ভুটানে খেলে আসা মামুনুল, জাহিদ হাসান এমিলি, আতিকুর রহমান মিশু, সোহেল রানা, রায়হান হাসান ও আবদুল্লাহসহ বিভিন্ন ক্লাবের খেলোয়াড়রা উপস্থিত ছিলেন। তবে মোহামেডান, আবাহনী ও শেখ জামালের কোনো খেলোয়াড় দেখা যায়নি। মামুনুল ইসলাম বলেছেন, তারা খুব তাড়াতাড়ি বাফুফে সভাপতির সঙ্গে বসবেন। তাকে অনুরোধ করবেন জাতীয় দলের দিকে আরও নজর দিতে। ফুটবলাররা মনে করেন, ভুটানের কাছে এক ম্যাচ হারের কারণে সব শেষ হয়ে যায়নি। সব কিছুতেই খারাপ সময় আসে। এখন তাদের খারাপ সময় যাচ্ছে। এটা সমালোচনার সময় নয়, সবাই মিলে ফুটবলের উন্নয়নে কাজ করতে হবে।

যে লিগে সবাই ফেবারিট

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ৮ ক্লাবের প্রতিনিধিই বেশ শক্তিশালী  হিসেবে উল্লেখ করলেন নিজেদের দলকে। সবার কথার সুরটা প্রায় একই রকম। কারো কথা-আমরা চকম দেখাবো। কেউ বললেন, আমরা ছেড়ে কথা কইবো না। কারো মুখে দৃঢ়তা, আমরা প্রিমিয়ার লিগে ওঠার মতোই দল গড়েছি।

আগামীকাল(শনিবার) শুরু হতে যাওয়া পেশাদার ফুটবলের দ্বিতীয় স্তর বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের প্রস্তুতি নিয়ে এভাবে নিজেদের কথা বলেছেন ক্লাব প্রতিনিধিরা। তাদের কথা ও প্রত্যাশায় আভাস মিললো বেশ জমজমাট লিগই হবে। যে কোনো দলই উঠে যেতে পারে দেশের শীর্ষ লিগে। যে কারণে ফুটবল বোদ্ধাদের দৃষ্টিতে এ লিগে সব ক্লাবই ফেবারিট।

ফেবারিট হওয়ার কারণও আছে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের দিকে তাকালে দেখা যায় এর জন্মলগ্ন থেকেই মাঠ শাসন করে আসছেন বিদেশি ফুটবলাররা। মাঠে দুই দলের পার্থক্যটা গড়ে দিচ্ছেন ভিনদেশিরাই। বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে বিদেশি খেলানোর অনুমতি নেই। মানের দিক দিয়ে দেশি ফুটবলাররা প্রায় সমান। কেউ উনিশ, কেউ বিশ-এই যা। এখানে যেহেতু বিদেশি নেই তাই ম্যাচের পার্থক্যটা গড়বেন স্থানীয়রাই। এ লিগের মাধ্যমে স্থানীয় খেলোয়াড়রা পাবেন নিজেদের প্রমান করার শতভাগ সুযোগ।

শনিবার উদ্বোধনী ম্যাচের দুই প্রতিপক্ষের একটি সাইফ স্পোর্টস ক্লাব অভিষেক আসরেই চমক দেখাতে চায়। ক্লাবটির ম্যানেজার মাহবুবুর রহমান বলেছেন,‘ আমাদের লক্ষ্য প্রথম অংশ গ্রহনেই বাজিমাত করা। আমরা শুধু অংশ গ্রহনের জন্যই আসিনি। শিরোপা জয়ের জন্যই দল গড়েছি।’

বাংলাদেশ পুলিশ দলের সহকারী ম্যানেজার কাজী নুসরাত এ দিন লুনা নিজেদের প্রস্তুতি ও লক্ষ্যের কথা বলতে গিয়ে আপসোস করলেন গত আসরের ফল নিয়ে ‘কিছু ভুলের জন্য গতবার শিরোপা পাইনি। এবার সে ব্যর্থতা কাটিয়ে প্রিমিয়ার লিগে ওঠাই আমাদের লক্ষ্য।’

এক সময় দেশের শীর্ষ এ লিগে নিয়মিতই ছিল চট্টগ্রাম মোহামেডান। কিন্তু গত চার মৌসুম ধরে তারা নেই। অনেকটা হারিয়ে যাওয়ার মতো অবস্থা চট্টলার দলটির। আবার প্রিমিয়ার লিগে ফিরে আসার লক্ষ্য নিয়ে এবার বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ খেলছে চট্টগ্রামের সাদা-কালোরা। দলটির প্রস্তুতি চলছে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক আলফাজ আহমেদের অধীনে। দলের প্রস্ততি নিয়ে ম্যানেজার তৌহিদুল ইসলাম বলেছেন, ‘আমরা তরুণ ও অভিজ্ঞদের নিয়ে দল গড়েছি। অতীতে চট্টগ্রাম মোহামেডানের যেমন সুনামের সঙ্গে বিচরণ ছিল বিভিন্ন প্রতিযোগিতায়, সেটা ফিরিয়ে আনতে চাই।’

তরুণ খেলোয়াড়দের প্রাধান্য দিয়ে দল গড়েছে ভিক্টোরিয়া। দলটির  ম্যানেজার নুরুজ্জামান বলেছেন, ‘গত বছরের দলের মাত্র দুইজন খেলোয়াড় আছে। যাদের নিয়ে এবার দল গড়া হয়েছে তারা সবাই প্রতিভাবান। মাঠে আমরা কাউকে ছেড়ে কথা বলবো না।’

শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ

টি অ্যান্ড টি ক্লাব মতিঝিল ও নবাগত সাইফ স্পোর্টস ক্লাবের খেলা দিয়ে কাল শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ। পেশাদারী ফুটবলের দ্বিতীয় সারি হিসেবে আখ্যায়িত এ লিগের আটটি দলের মধ্যে শক্তির ব্যবধান তেমন নেই, কারণ বিদেশি খেলোয়াড় এখানে নিষিদ্ধ।

বাফুফে ভবনে আজ শুক্রবার প্রতিটি দলই প্রকাশ করেছে ভালো ফুটবল ও শিরোপা জয়ের প্রত্যাশা। বাংলাদেশ পুলিশ দলের সহকারী ম্যানেজার কাজী নুসরাত এ দিন লুনা চান গতবারের ব্যর্থতা কাটাতে, ‘শেষ মুহূর্তে কিছু ভুলের জন্য আমরা পাইনি শিরোপা। আর এবার বাংলাদেশ পিমিয়ার লিগে জায়গা করে নেওয়া আমাদের লক্ষ্য।’

চট্টগ্রাম মোহামেডান ঢাকার ফুটবলে ফিরেছে চার মৌসুম পর। কোচ হিসেবে তারা নিয়েছে সাবেক জাতীয় ফরোয়ার্ড আলফাজ আহমেদকে। ম্যানেজার তৌহিদুল ইসলাম সাফল্যের ব্যাপারে আশাবাদী, ‘আমরা তরুণ ও অভিজ্ঞদের নিয়ে ভারসাম্যপূর্ণ দল গড়েছি, আমার দলের অতীতের সাফল্যধারা ফিরিয়ে আনতে চাই।’

ঢাকা ফুটবলের ঐতিহ্যবাহী দল ভিক্টেরিয়ার শক্তি এক ঝাঁক তরুণ খেলোয়াড়। দলের লক্ষ্য নিয়ে ম্যানেজার নুরুজ্জামানের বক্তব্য, ‘আমরা খেলোয়াড় বানাই, গত দলের মাত্র দুইজন খেলোয়াড় আছে এবারের স্কোয়াডে। প্রতিভাবান এসব খেলোয়াড়দের নিয়ে আমরা কাউকে ছেড়ে কথা বলবো না।’

সাইফ স্পোর্টসের ম্যানজোর মাহবুবুর রহমান প্রথম পদার্পণেই বাজিমাত করতে চান, ‘আমরা দল গড়েছি শিরোপা জয়ের জন্য, আশা করি বাফুফে তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করবে।’

এ ছাড়াও কারওয়ান বাজার প্রগতি সংঘের গিয়াসউদ্দিন সবুজ, ফকিরেরপুল ইয়াং মেন্স ক্লাবের আরিফুর রহমান রনি, অগ্রণী ব্যাংকের রফিকুল ইসলাম ও টি অ্যান্ড টি ক্লাবের আবদুর রহমান অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

বাফুফে সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শেদি, ওয়ালটনের অ্যাডিশনাল ডাইরেক্টর ইকবার বিন আনোয়ার ডন সহ অন্যান্যরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

রিয়ালের গোল উৎসব

স্প্যানিশ কোপা ডেল রেতে বুধবার রাতে মাঠে নামে রিয়াল মাদ্রিদ। দ্বিতীয় বিভাগের দল কালচারাল লিওনেসার মাঠে খেলতে যায় রিয়াল।

এদিন বিশ্রাম দেওয়া হয় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, গ্যারেথ বেল ও করিম বেনজেমাসহ সিনিয়র খেলোয়াড়দের। তারপরও ৭-১ গোলের বড় জয় পেয়েছে রিয়াল। পাশাপাশি শেষ ষোলোতে এক পা দিয়ে রেখেছে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা।

রিয়ালের হয়ে জোড়া গোল করেছেন মার্কো আসেনসিও ও আলভারো মোরাতা। একটি করে গোল করেছেন নাচো ও মারিয়ানো দিয়াজ। অপর গোলটি আসে আত্মঘাতী খাত থেকে। কালচারাল লিওনেসার হয়ে একটি গোল শোধ দেন বেনজা।

বুধবার রাতে ম্যাচের ৬ মিনিটেই আত্মঘাতী গোল করে রিয়ালকে এগিয়ে দেন লিওনেসার গিয়ান্নি জুইভারলুন। ৩২ মিনিটে রিয়ালের মার্কো আসেনসিওর গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ হয়। তাতে ২-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিশ্রামে যায় রিয়াল।

বিরতির পর ৪৬ মিনিটে আলভারো মোরাতা গোল পেলে ব্যবধান ৩-০ হয়। ৫৩ মিনিটে আসেনসিও তার জোড়া গোল পূর্ণ করলে রিয়াল এগিয়ে যায় ৪-০ গোলে। দুই মিনিট পরেই মোরাতাও তার জোড়া গোল পূর্ণ করেন। তাতে রিয়ালের লিড বেড়ে দাঁড়ায় ৫-০।

৬৮ মিনিটে নাচোর গোলে রিয়াল এগিয়ে যায় ৬-০ গোলে। ৮৪ মিনিটে লিওনেসার বেনজা একটি গোল শোধ দেন ৬-১। তবে ম্যাচের যোগ করা সময়ে মারিয়ানো দিয়াজ গোল করে রিয়ালের ৭-১ গোলের জয় নিশ্চিত করেন।

৩০ নভেম্বর রাউন্ড অব ৩২ এর দ্বিতীয় লেগে লিওনেসার মুখোমুখি হবে রিয়াল।

বাফুফে ভবনে চলছে এএফসির সেমিনার

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ফুটবলার, ক্লাব ও ক্লাব কর্মকর্তাদের মাঝে পেশাদারী মনোভাব আনার লক্ষ্যে দুই দিনব্যাপী সেমিনার আয়োজন করেছে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি)। যেখানে খেলোয়াড়দের সার্বিক অবস্থান, খেলোয়াড়ী জীবন-পরবর্তী কর্মকাণ্ড, ম্যাচ পাতানো জুয়াড়িদের কর্মকাণ্ড ও স্বাস্থ্যগত সতর্কতা নিয়ে আলোকপাত করা হচ্ছে।

আজ মঙ্গলবার থেকে বাফুফে ভবনে শুরু হয়েছে দুই দিন ব্যাপী এএফসি প্লেয়ার্স সাপোর্ট প্রোগ্রাম বিষয়ক এই সেমিনার। বিপিএল-এর ১২টি ক্লাবের ছয়টি করে দল প্রতিদিনই দুই সেশনে অংশ নেবে এই সেমিনারে। আজকের সেমিনারে বক্তব্য রাখেন এএফসি ডেভেলপমেন্ট অফিসার যোগেশ দেশাই, ইনটিগ্রিটি অফিসার হাসান হায়দার খান, কনসালটেন্ট শশী কুমার ও এএফসির ঢাকা  মেডিক্যাল প্রতিনিধি ডা. মো. আলি ইমরান।

বিপিএল-এর খেলোয়াড়দের সংজ্ঞা কী, তাদের দায়িত্ব ও ক্লাবের প্রতি দায়বদ্ধতা, ক্লাবের খেলোয়াড়ের প্রতি দায়বদ্ধতা, খেলোয়াড়দের বীমা নিরাপত্তা, খেলা ছেড়ে দেওয়ার পর কোচ, প্রশাসক, উপদেষ্টা হিসেবে বিভিন্ন কর্মকাণ্ড, বর্তমানে কী কী উপায়ে ম্যাচ পাতানো হয় ও জুয়াড়িরা কী কী উপায়ে খেলোয়াড়দের প্রলুব্ধ করে, ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব পেলে খেলোয়াড়দের করণীয়, নিজের খাদ্যাভাস, পুষ্টি ও ফিটনেস ধরে রাখার বিষয়ে আলোকপাত করেন আলোচকরা।

বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘ফুটবলের উন্নয়নে খেলোয়াড় ও ক্লাব উভয়েরই অনেক দায়িত্ব রয়েছে। যেসব বিষয়গুলো এখনও আমরা পুরোপুরি বাস্তবায়ন করতে পারিনি। তাই সেসব বিষয়গুলোকে সেমিনারে তুলে ধরা হয়েছে। সার্বিকভাবে সেমিনারটি আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপুর্ণ।’

ঢাকার ফুটবলে ফিরলো চট্টগ্রাম মোহামেডান

আগামী ২৯ অক্টোবর থেকে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে আট দলের মার্সেল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ বা বিসিএল। পেশাদার কাঠামোর দ্বিতীয় সারির প্রতিযোগিতা হিসেবে বিবেচিত এ লিগ শেষ হবে ২২ ডিসেম্বর। তবে বিসিএল থেকে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে কয়টি দল উঠবে বা কয়টি দলের অবনমন হবে তা চূড়ান্ত করতে পারেনি বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন।

আজ সোমবার বাফুফে ভবনে বিসিএল-এর লোগো উন্মোচন ও স্পনসরদের পরিচিতি পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। লিগের টাইটেলে স্পনসর মার্সেল। কো-স্পনসররা হচ্ছে প্রিমিয়ার ব্যাংক, প্রগতি ইনস্যুরেন্স, ইস্টার্ন ব্যাংক, ম্যাক্স গ্রুপ ।

এবারের বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে খেলছে ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং, টি অ্যান্ড টি ক্লাব মতিঝিল,ফকিরেরপুল ইয়াং মেন্স, বাংলাদেশ পুলিশ, অগ্রণী ব্যাংক, সাইফ স্পোর্টিং, চট্টগ্রাম মোহামেডান ও কারওয়ান বাজার প্রগতি সংঘ।

৮ দলের মধ্যে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব সম্পূর্ণ নতুন দল। কারওয়ান বাজার প্রগতি সংঘও পেশাদার লিগের দ্বিতীয় স্তরে প্রথম খেলছে। দীর্ঘ পাঁচ বছর পর আবারও ঢাকার ফুটবলে ফিরছে চট্টগ্রাম মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। ২০১০-১১ মৌসুমে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ থেকে অবনমিত হয়ে ঢাকার ফুটবল থেকে হারিয়ে যায় চট্টগ্রামের এই দলটি। পেশাদার লিগের সর্বোচ্চ স্তর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের প্রথম তিনটি আসরেও খেলেছিল তারা। অবনমিত হওয়ার পর ঢাকায় ফেরার আর কোনও উদ্যোগ নেয়নি ক্লাবটি। ৫ বছর পর বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের মধ্য দিয়ে আবারও ঢাকার ফুটবলে প্রত্যাবর্তন করছে চট্টগ্রাম মোহামেডান।

বার্সার সঙ্গে নেইমারের নতুন চুক্তি

সম্প্রতি গুঞ্জন উঠেছিল, বার্সা ছেড়ে ম্যানচস্টার ইউনাইটেডে পাড়ি জমাচ্ছেন নেইমার। তবে গুঞ্জনটা আর বাস্তবে রূপ নিলো না। শুক্রবার বার্সার সঙ্গে নতুন চুক্তি সই করেছে নেইমার। বার্সেলোনা নিজেদের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিত নেইমারের সঙ্গে নতুন চুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। আর নতুন চুক্তি অনুযায়ী ২০২১ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত ন্যু ক্যাম্পের ক্লাবটিতে থাকবেন ব্রাজিলিয়ান তারকা।

চুক্তি সইয়ের পর নেইমার বার্সা টিভিকে বলেছেন, `নতুন চুক্তি করে আমি সত্যিই খুব খুশি। আমি সত্যিই এখানে পরিবারের মতো অনুভব করি।` এদিকে নেইমারের বাইআউট ক্লজ এখন ২০০ মিলিয়ন ইউরো। যেটি আগামী জুনে বেড়ে হবে ২২২ মিলিয়ন ইউরো এবং এক বছর পর হবে ২৫০ মিলিয়ন ইউরো।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে বার্সায় যোগ দেয়ার পর গত তিন মৌসুমে বার্সার হয়ে ১৪১টি ম্যাচ খেলেছেন নেইমার। নামের পাশে যোগ করেছেন ৮৫টি গোল। প্রথম মৌসুমে ১৫, দ্বিতীয় মৌসুমে ৩৯ ও তৃতীয় মৌসুমে ৩১ বার প্রতিপক্ষের জাল খুঁজে পেয়েছেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ব্রাজিল দল ঘোষণা

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচ নিয়ে বাড়তি আগ্রহ আছে বাংলাদেশি ভক্তদের। আগামী ১০ নভেম্বর ঘরের মাঠে মেসির আর্জেন্টিনার বিপক্ষে মাঠে নামবে নেইমারের ব্রাজিল। আর ১৫ নভেম্বর পেরুর বিপক্ষে খেলবে তিতের শিষ্যরা। এ দুই ম্যাচকে সামনে রেখে দল ঘোষণা করেছে ব্রাজিল।

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে টানা চার ম্যাচ জিতে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে রয়েছে ব্রাজিল। আর মেসির আর্জেন্টিনার অবস্থান পয়েন্ট টেবিলের পাঁচ নম্বরে। দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের শীর্ষ চারটি দল সরাসরি খেলবে বিশ্বকাপে। আর পাঁচ নম্বর দলটিকে প্লে অফের বাধা টপকে যেতে হবে রাশিয়ায়। এদিকে ব্রাজিল দল ঘোষণা করলেও আর্জেন্টিনা দল এখনো ঘোষণা করা হয়নি।

ব্রাজিল দল:
গোলরক্ষক: আলিসন (রোমা), অ্যালেক্স (ফ্ল্যামিংগোর), ওয়েভারটন (অ্যাটলেটিকো পারানান্স)।

ডিফেন্ডার: জিল (শানডং), মারকুইনহোস (পিএসজি), মিরান্ডা (ইন্টার মিলান), রদ্রিগো (সাও পাওলো), থিয়াগো সিলভা (পিএসজি), দানি আলভেজ (জুভেন্টাস), পাংগার (করিন্থীয়ান্স), ফেলিপ লুইস (অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ), মার্সেলো (রিয়াল মাদ্রিদ)।

মিডফিল্ডার: ক্যাসেমিরো (রিয়াল মাদ্রিদ), ফার্নানদিনহো (ম্যানচেস্টার সিটি), জিয়োলিয়ানো (জেনিথ), লুকাস লিমা (সান্তোস), পাওলিনহো (এভারগ্রেন্ড), ফিলিপ কৌতিনহো (লিভারপুল), রেনাতো অগাস্টো (বেইজিং), উইলিয়ান (চেলসি)।

ফরোয়ার্ড: রবার্তো ফারমিনো (লিভারপুল), দগলাস কস্তা (বায়ার্ন মিউনিখ), গ্যাব্রিয়েল জিসাস (পালমেইরাসের), নেইমার (বার্সেলোনা)।

র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের অবনতি

আন্তর্জাতিক ফুটবলে সম্প্রতি বাজে পারফরম্যান্সের জন্য ফিফা র‌্যাংকিংয়ে আবারো অবনমন হয়েছে বাংলাদেশের। বৃহস্পতিবার বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ঘোষিত সর্বশেষ র‌্যাংকিংয়ে তিন ধাপ পিছিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান ১৮৮।
বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে দুর্দান্ত পারফর্ম করে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ তিনে চলে এসেছে নেইমার বাহিনী। তাদের অর্জিত পয়েন্ট ১৩২৩। আর বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ভালো করতে না পারলেও এক নম্বর জায়গাটি ধরে রেখেছে আর্জেন্টাইনরা। মেসি বাহিনীর রেটিং পয়েন্ট ১৬৪৬।
একধাপ উন্নতিও করেছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। ১৩৪৭ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে রয়েছে জার্মানরা। আর দুইধাপ পিছিয়ে চার নম্বরে জায়গা পেয়েছে এডেন হ্যাজার্ড-ডি ব্রুইনদের বেলজিয়াম (১৩৬৯ পয়েন্ট)।
র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষ দশ দল
১. আর্জেন্টিনা
২. জার্মানি
৩. ব্রাজিল
৪. বেলজিয়াম
৫. কলম্বিয়া
৬. চিলি
৭. ফ্রান্স
৮. পর্তুগাল
৯. উরুগুয়ে
১০. স্পেন

দুরন্ত জয়ে শীর্ষে রহমতগঞ্জ

দুরন্ত ফুটবল খেলে শেষ মুহূর্তের করা গোলে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে ৪-৩ গালে হারিয়ে জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট তালিকায় এককভাবে শীর্ষে পৌঁছালো পুরনো ঢাকার দল রহমতগঞ্জ।.

রবিবার নির্ধারিত খেলার ৯০ মিনিট পর্যন্ত খেলা ৩-৩ গোলে ড্র ছিল। চার মিনিট ইনজুরি টাইমের শেষ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোল করে দলকে জয়ী করেন দিদারুল আলম। আর এ জয়ে রহমদগঞ্জের পয়েন্ট দাঁড়ালো ১০ খেলায় ২২। চট্টগ্রাম ও ঢাকা আবাহনী, শিরোপধারী শেখ জামালকে টপকে এবারের লিগের বিস্ময় সৃষ্টিকারী দল রহমতগঞ্জ চলে গেল সবার ওপরে।

রহমতগঞ্জ প্রথম থেকেই আক্রমণাত্মক মেজাজে খেলছিল আর এর ফলশ্রুতিতে সপ্তম মিনিটে এগিয়ে যায় পুরনো ঢাকার দলটি। বাম প্রান্ত দিয়ে দ্রুতগতিতে ব্রাদার্স রক্ষণভাগ ভেদ করেন উইঙ্গার সোহেল মিয়া, তার কাট ব্যাক এসে পড়ে ছোট বক্সের ভেতরে। সোহেলের উদ্দেশ্য ছিল কঙ্গেলিজ ফরোয়ার্ড সিয়ো জুনাপিয়ো, কিন্তু ব্রাদার্সের ডিফেন্ডার কৃষ্ণপদ তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে বল পাঠিয়ে দেন নিজের জালে। আত্মঘাতী গোল দিয়ে অগ্রগামীতা নেয় রহমতগঞ্জ।

তবে রহমতগঞ্জের আনন্দ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। ২৩ মিনিটে সমতা আনে ব্রাদার্স। বক্সের ওপরে থেকে নেয়া বাঁকানো এক ফ্রি-কিকে সমতসূচক গোলটি করেন ব্রাদার্সের হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড অগাস্টিন ওয়ালসন।

আর এর পাঁচ মিনিট পর আঘাত হানেন ব্রাদার্সের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড এনকোচা কিংসলে। বক্সের মাঝে কিংসলের ফুটওয়ার্ক কেন বিপদজনক তার প্রমাণ দেখে রহমতগঞ্জ। দুজন ডিফেন্ডারের বাধা টপকে জোরালো শটে কিংসলে এগিয়ে দেন ব্রাদার্সকে।

তবে হাল ছাড়ার পাত্র নয় রহমতগঞ্জ। প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে স্কোরলাইনে সমতা এনেই তারা বিরতিতে যায়। গাম্বিয়ান মিডফিল্ডার জাত্তা মোস্তাফার ফ্রি-কিকে হেড করে ব্রাদার্স গোলরক্ষক উত্তম বড়ুয়াকে পরাস্ত করেন নাইজেরিয়ান ডিফেন্ডার এলিটা বেনজামিন। আগুয়ান উত্তমের মাথার ওপর দিয়েই বল যায় জালে।

রহমতগঞ্জকে ৫৪ মিনিটে আবারও এগিয়ে দেন মিডিফিল্ডার দিদারুল আলম। সোহেল মিয়ার ক্রসে হেড করে দলের তৃতীয় গোল করেন তিনি। ৭৫ মিনিটে আবারও সমতা আনেন এনকোচা কিংসলে। বদলি খেলোয়াড় মোকাররমের পাস থেকে কোণাকুণি শটে গোল করে দলকে সমতার প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসেন কিংসলে।
তবে সব কিছু ওলটপালট করে দেন দিদারুল আলম। ম্যাচের যখন চলছে চার মিনিট ইনজুরি টাইম তখন বামপ্রান্ত থেকে বাম পায়ের চমৎকার এক বাঁকানো শটে দূরের জালে বল জড়িয়ে দেন তরুণ এই মিডফিল্ডার। বাঁধভাঙা আনন্দের জোয়ারে ভাসে রহমতগঞ্জ।

সমন্বিত উন্নয়ন পরিকল্পনা নিচ্ছেন কাজী সালাউদ্দীন

দেশের ফুটবল কাঠামোকে ঢেলে সাজিয়ে ফুটবলকে আধুনিক ও কার্যকরী রূপ দিতে আগামী জানুয়ারি মাসে সমন্বিত একটি উন্নয়ন পরিকল্পনা হাতে নিচ্ছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। রবিবার বাফুফে ভবনে এ পরিকল্পনার সার্বিক বিষয় তুলে ধরেন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দীন।

দেশের ফুটবলে এখনকার মতো এমন ঘোর অমানিশা আগে কখনও আসেনি। বাফুফে সভাপতি হওয়ার আগে সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দীন। তখনকার কমিটি ফুটবল চালাতে ব্যর্থ হয়েছিল- এমন অভিযোগ তুলে ঐ কমিটি থেকে পদত্যাগ করেছিলেন তিনি। অথচ নিজের আমলে দেশের ফুটবলের এমন দূরাবস্থা হবে- সেটা হয়তো কল্পনাও করেননি সালাউদ্দীন। তাই বিষন্নতায় আচ্ছন্ন হয়ে উঠা বাফুফে সভাপতি গত পাঁচ দিন পা রাখেননি বাফুফে ভবনে। তবে আজ রবিবার বাফুফে ভবনে পা রেখেই জাতীয় দলের এমন ব্যর্থতার জন্য দেশের মানুষের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন তিনি। একই সঙ্গে প্রকাশ করেছেন আগামী তিন বছরের ‘রোড ম্যাপ’।

বাফুফে সভাপতি যখন সংবাদ সম্মেলনে জানাচ্ছেন তার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা তখনই ভবনের মূল ফটক ছিল তালাবদ্ধ। কারণ একদল বিক্ষোভকারী বাফুফের বিরুদ্ধে সমাবেশ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। তারা ফটকের সামনে অবস্থানও নেয়। এমন পারিপার্শ্বিকতায় বাফুফে সভাপতি উপস্থাপন করেন তার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা-‘ভুটানের কাছে হারের পর প্রচার মাধ্যম ও বিভিন্ন অঙ্গনে দেশের ফুটবলকে ঘিরে নানা আলোচনা সমালোচনা হয়েছে ও হচ্ছে। আমি আজ আপনাদের মুখেমুখি হয়েছি আমাদের অবস্থান ব্যাখ্যা করার জন্য। সন্দেহ নেই বাংলাদেশের ফুটবল একটা দুঃসময়ের মাঝে আছে। তবে আমি বলতে চাই আমি জাতীয় ফুটবল দলের এ অবস্থা আগেই আঁচ করতে পেরেছিলাম। আমরা চেষ্টা করেছি কোচ দিয়ে ফ্যাসিলিটিজি দিয়ে কিন্তু কোনও লাভ হয়নি। ’

তিনি যোগ করেন, ‘আমাদের এখন তৃনমূলে নজর দেওয়ার সময় এসেছে। টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল স্মলি একটা গাইড লাইন দিয়েছেন। আগামী তিন বছরের এ গাইড লাইনটি আগামী ডিসেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যেই চূড়ান্ত হয়ে যাবে। আশা করি নতুন বছরের প্রথম মাস থেকেই আমরা আমাদের কাজ শুরু করতে পারবো।’

এসময় আবারও তৃণমূলে ফুটবল প্রসারের প্রতিশ্রুতি দেন সালাউদ্দীন, ‘ আগামী বছরই আমাকে ইয়ুথ ন্যাশনাল লিগ, স্কুল ফুটবল, সোহরাওয়ার্দী কাপ, শের-ই-বাংলা কাপ ফুটবল চালু করতে হবে। এ জন্য অর্থ দরকার। সে অর্থের জোগান দিয়েই আমি মাঠে নেমে পড়বো।’

পরিকল্পনা অনেক হলেও সেগুলো নিয়ে আত্মবিশ্বাসী সালাউদ্দীন, ‘প্রতিটি দেশেরই একটি দুঃসময় আসে এবং সেখান থেকে উতরে যায়। আমার বিশ্বাস আগামী তিন বছরের মধ্যে আমরা আমাদের ফুটবলের এ সংকটময় মুহূর্ত থেকে পরিত্রাণ পাবো।’

উত্তর বারিধারাকে হারিয়ে দ্বিতীয় স্থানে ঢাকা আবাহনী

পয়েন্ট তালিকায় সবার নিচে থাকা উত্তর বারিধারার বিপক্ষে প্রত্যাশিত সহজ জয় পেয়েছে ঢাকা আবাহনী। এর জয়ের ফলে জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় স্থানে পৌঁছে গেছে ঢাকা আবাহনী। লিগে এ পর্যন্ত খেলা ১০ ম্যাচে আবহনীর পয়েন্ট ২০ আর বারিধারার পয়েন্ট ৩।

শনিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে পুরো খেলায় নিজেদের আধিপত্য বজায় রেখে ৩-১ গোলে জয় পায় আবাহনী। সহজ গোলের সুযোগ নষ্ট না করলে ব্যবধান আরও বড় জিততে পারত আকাশী-নীল জার্সিধারীরা।

নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে চিজোবার দেওয়া গোলে শুরুতেই ম্যাচে চালকের আসনে বসে আবাহনী। ১৫ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে থ্রু পাস দেন মিডফিল্ডার প্রাণতোষ। কোণাকুণি দৌড়ে বক্সের বাম প্রান্ত থেকে দূরের গোলপোস্টের জালে বল জড়িয়ে দেন সানডে। এগিয়ে যায় আবাহনী।

২৪ মিনিটে দ্বিতীয় গোলের সুযোগ তৈরি হলেও কাজে লাগাতে পারেনি আবাহনী। বাম প্রান্ত দিয়ে উত্তর বারিধারার রক্ষণ ভেদ করে সুবিধাজনক অবস্থানে চলে আসেন উইংগার জুয়েল রানা। চমৎকার মাপা ক্রসে মিডফিল্ডার হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাসের দিকে বল বাড়িয়ে দেন রানা। কিন্তু হেমন্ত বারিধারা গোলরক্ষক মো. এরশাদকে একা পেয়েও বল ক্রসপেস্টের ওপরে ভাসিয়ে দেন। চমৎকার সুযোগ হারায় আবাহনী।

তবে ৩৭ মিনিটে নিজের ও দলের দ্বিতীয় গোল করতে ভুল করেননি সানডে চিজোবা। বক্সের বাম প্রান্ত থেকে লি টাকের ক্রস খুঁজে পায় সানডেকে। তার হেড ফিস্ট করেন এরশাদ। তবে বল আবারও পড়ে সানডের সামনে। এবার প্লেসিং শটে গোল করেন নাইজেরিয়ান এই ফরোয়ার্ড ।

এরপর দুবার নিজের হ্যাট্রিক পূর্ণ করার সুযোগ নস্ট করেন সানডে। প্রথমার্ধের শেষ দিকে এরশাদকে একা পেয়েও গোলপোস্টের বাইরে শট নেন। আর ৬২ মিনিটে হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাসেরর করা স্কয়ার পাসে যখস সামনে বল প্লেস করলেই গোল হবে, তখন তিনি বিস্ময়করভাবে বল তুলে দেন এরশাদের হাতে।

আবাহনীর তৃতীয় গোলটি আাসে ৭১ মিনিটে। জুয়েল রানার ডানপ্রান্ত থেকে করা ক্রস বারিধারা ডিফেন্স ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে না পারায় বল পেয়ে যান ইংরেজ মিডফিল্ডার লী টাক। কোণাকুণি ভলিতে তিনি বল জড়িয়ে দেন জালে।

শেষ দিকে আবাহনীকে বেগ দেয় উত্তর বারিধারা।৮৭ মিনিটে মো. জাভেদ বক্সের ওপর থেকে ফ্রি-কিক নিলে তা আবাহনী গোলরক্ষক সোহেল কোনরকমে ডাইভ দিয়ে ফেরান। কিন্তু ইনজুরি টাইমে মো. জাভেদের শট পোস্টে লেগে ফিরে আসলে তা প্লেস করলে গোল পায় বারিধারা। এতে হারের ব্যবধান কমাতে সক্ষম হয় তারা।

১০ ম্যাচে ২১ পয়েন্ট নিয়ে লিগের শীর্ষস্থানে আছে চট্টগ্রাম আবাহনী।

/আরএম/এএ/

আবারও হারলো শেখ রাসেল

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলে আবারও পরাজয়ের মুখ দেখলো শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। শুক্রবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দশম রাউন্ডের খেলায় আরামবাগ ১-০ গোলে রাসেলকে হারিয়ে দেয়। দশ খেলায় রাসেলের এটি সপ্তম পরাজয় আর আরামবাগের তৃতীয় জয়।
এদিন প্রথমার্ধে গোল হজম করার পর অনেক চেষ্টা করেও আর গোল করতে পারেনি রাসেল। আরামবাগ দেখেশুনে খেলে শেষ পর্যন্ত জয়ের হাসি হাসে। যেখানে ১৮ মিনিটে রাসেল মিডফিল্ডার জামাল ভুইয়ার কর্নারে হেড করেছিলেন ফরোয়ার্ড শাখাওয়াত রনি। আরামবাগ গোলরক পাপ্পু হোসেন বলের ফাইটে পরাস্ত হলে বল সাইড পোস্ট ঘেঁষে বাইরে চলে যায়।
খেলার ৩৭ মিনিটে দ্রুতগতির একটি পাল্টা আক্রমণে এগিয়ে যায় আরামবাগ। মাঝমাঠ থেকে ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার থিয়াগো টাইসনকে আড়াআড়ি একটি স্কয়ার পাস দিয়েছিলেন আরেক মিডফিল্ডার আবদুল্লাহ। টাইসনের বাম পায়ের বাঁকানো শট রাসেল মিডফিল্ডার মোনায়েম খান রাজুর কাঁধে লেগে আছড়ে পড়ে জালে, গোলরক জিয়া ছিলেন অসহায়।
বিরতির পর সমতা আনার ল্েয পুরো আক্রমণাত্মক মেজাজে শুরু করে রাসেল, গোলের জন্যে হন্যে হয়ে বারবার তারা ঢুঁ মারে প্রতিপ শিবিরে কিন্তু গোল অধরাই রয়ে যায়। এই ধারাবাহিকতায় ৬৯ মিনিটে ফরোয়ার্ড শাখাওয়াত রনির শট ডানদিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে দলকে বাঁচান পাপ্পু। ৭৭ মিনিটে বক্সের মাঝ থেকে ভালো পজিশনে থেকেও বল সাইড পোস্টের বাইরে মারেন ক্যামেরুনিয়ান ফরোয়ার্ড পল এমিল।
এর মধ্য দিয়ে দশ খেলায় আরামবাগের পয়েন্ট ১৪, রাসেলের অর্জন পাঁচ। তারা আছে ১২ দলের মাঝে একাদশ স্থানে, তিন পয়েন্ট নিয়ে সবচেয়ে নিচে আছে উত্তর বারিধারা ।

ব্যর্থতার দায় কাঁধে নিয়ে সেইন্টফিটের বিদায়

অনেক আশা নিয়ে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের কোচ হয়েছিলেন বেলজিয়ামের টম সেইন্টফিট। আশাহত এই বেলজিয়ান কোচ বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গে চুক্তি না বাড়িয়ে নিজের দেশে ফিরে গেছেন। জাতীয় দলের ব্যর্থতার দায় নিজের কাঁধেই নিয়েছেন বেলজিয়ান এই কোচ।
বাংলাদেশের সঙ্গে সেইন্টফিটের খণ্ডকালীন চুক্তি শেষ হয়েছে ভুটান ম্যাচের পর। আপাতত সেই চুক্তি বাড়ানোর কোনো ইচ্ছা নেই তার। বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) রাতেই বেলজিয়ামে ফিরে গেছেন সেইন্টফিট।
বিদায়ের আগে তিনি বাংলাদেশের ফুটবলকে দোষীদের কাঠগড়ায় দাঁড় করাননি। জানিয়েছেন, ‘ভুটানের বিপে ম্যাচ হারাটা দুর্ভাগ্যজনক। তবে, এক দিক দিয়ে এটা বাংলাদেশের জন্য ভালোই হয়েছে। বাংলাদেশ এখন আবার নতুন করে শুরু করতে পারবে সবকিছু। যেকোনো ম্যাচ হারাটাই আমার কাছে কোচ হিসেবে ব্যর্থতার পরিচয়। আমি বাংলাদেশের এই হারটাকে সহজভাবে নিয়েছি। বাংলাদেশ এর আগে ভুটানে গিয়ে খেলেনি। বিভিন্ন কাবের ফুটবলার সেখানে খেললেও জিততে পারেনি। তবে, এসব আমার অজুহাত নয়। আর অপছন্দ হলেও ব্যর্থতার দায় আমারও। যেহেতু আমি এই দলের কোচ ছিলাম।’
বাংলাদেশ ছাড়ার আগে সেইন্টফিট আরও যোগ করেন, ‘জাতীয় দলের সাফল্যের জন্য এখন থেকেই বয়সভিত্তিক দল গড়তে হবে। আমার এই দলে অনেক তরুন ফুটবলারকে পেয়েছিলাম। তাদের প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে হবে। বাফুফে ও বিভিন্ন কাবগুলো অনুরোধ করবো বয়সভিত্তিক দলগুলোকে বেশি বেশি কাজ করতে। আমার বিশ্বাস আগামী তিন বছরের মধ্যে বাংলাদেশ একটা ভালো জাতীয় দল পেয়ে যাবে।’
উল্লেখ্য, এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে ভুটানের বিপে প্লে অফ ম্যাচে কঠিন পরীায় নেমেছিল সেইন্টফিটের বাংলাদেশ। তবে, স্বাগতিক ভুটানের বিপে জয় পাওয়া হয়নি লাল-সবুজদের। অ্যাওয়ে ম্যাচে ৩-১ গোলে হেরে বাছাইপর্বে ওঠার স্বপ্ন শেষ হয়ে গেছে বাংলাদেশের। বাছাইপর্বে উঠতে কমপে ১-১ গোলের ড্রয়ের প্রয়োজন ছিল বাংলাদেশের। গত ৬ সেপ্টেম্বর ঢাকার হোম ম্যাচে গোলশূন্য ড্র করেছিল বাংলাদেশ। ফলে, অ্যাওয়ে ম্যাচে ভুটানের বিপে জিতেই বাছাইপর্বে উঠতে চেয়েছিল মামুনুলরা।

‘রোনালদো ভক্ত’ চেনচো আসছেন চট্টগ্রাম আবাহনীতে

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের দল চট্টগ্রাম আবাহনীতে খেলার জন্য শনিবার ঢাকা আসছেন ভুটানের ফরোয়ার্ড চেনচো গেয়ালতসেন। আশির দশকে খড়গ বাহাদুর বাসনেত ঢাকা মোহমেডানে খেলেছিলেন, এর পর কোনও ভুটানি খেলোয়াড় বাংলাদেশের কোনও কাবে খেলার উদাহরণ নেই। চেমচো ভাঙলেন সেই ধারা।
চেনচো গত ১০ অক্টোবর থিম্পুতে এশিয়ান কাপ প্লে অফ-২ এর আ্যওয়ে ম্যাচে বাংলাদেশের বিপে ৩-১ গোলের জয়ে ল্যভেদ করেন দুইবার। পর্তুগালের ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর একনিষ্ঠ অনুসারি ও ভুটানের ৭ নম্বর জার্সি পড়া চেনচো জাতীয় দলের হয়ে ২৩ ম্যাচে গোল করেছেন ৯টি। ভুটানের সাম্প্রতিক সময়ের সেরা খেলোয়াড় চেনচো ইন্ডিয়ান সুপার লিগ কাব দিল্লি ডায়নামোস ও পুনে সিটিতে খেলার প্রস্তাব পেয়েছিলেন। থাইল্যান্ডে সুরিন ইউনাইটেডের হয়ে খেলে তিনি হন দেশের বাইরে পেশাদারি লিগ খেলা ভুটানের প্রথম খেলোয়াড়।
ভুটানের কাছে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ১০ অক্টেবরের আগে কখনও হারেনি বাংলাদেশ। আর এবার শুরু হলো বাংলাদেশের কাবে ভুটানি খেলোয়াড়দের আগমন।

সমর্থকদের বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ঘেরাও

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন বাফুফে ঘেরাও করে এর সামনে বাফুফের কর্মকর্তাদের দুয়োধ্বনি সহ নানা প্লাকার্ড নিয়ে বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল সমর্থকরা।

সোমবার (১০ অক্টোবর) এএফসি এশিয়া কাপ প্লে-অফ-২-এর অ্যাওয়ে ম্যাচে ভুটানের কাছে ৩-১ গোলে হেরে যায় বাংলাদেশ, যাকে দেশের ফুটবল ইতিহাসে চরমতম কলঙ্কের দিন হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে।

‘আর কতো নীচে নামলে গদি ছাড়বেন’, ‘বাফুফে পচে গেছে, ফুটবল মরে গেছে’, ‘ফুটবল একাডেমীর খবর কী’ সহ বিভিন্ন প্লাকার্ডে সমর্থকরা মঙ্গলবার বিকেলে বাফুফের সামনে জড়ো হয়।
222
দেশের ফুটবলে স্বার্থে সবকিছু ঢেলে সাজানোর দাবিও উঠেছে। কোথায় গেলেন তারা…? কেউ কিচ্ছু জানে না। তবে আর বেশিকিছু জানতেও চান না সমর্থকরা। পরাজয় দেখতে দেখতে অতিষ্ঠ হয়ে ফেডারেশন ঘেরাও করে সমর্থক দল। সভাপতির পদত্যাগও চেয়েছেন তারা।
এমন লজ্জা দারুণভাবে বিমর্ষ করেছে দেশের ফুটবলভক্তদের। কিন্তু যাদের হাতে বাংলাদেশের ফুটবলের সবকিছু- ঘটনার পরদিন, একেবারেই নিশ্চুপ তারা। ফেডারেশনে ঝুলছে তালা। লাইট বন্ধ, কর্মকর্তাদের মোবাইল ফোন বন্ধ, সভাপতিও ফোন ধরছেন না।
বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল সমর্থকদের পক্ষ থেকে বলা হয় ফুটবলের উন্নতি করতে হলে তৃণমূলে যেতে হবে। ফিফার অর্থ এবং সরকারি সুযোগ-সুবিধা ও স্পন্সর পেয়েও একটি একাডেমি প্রতিষ্ঠা করাতে পারেনি বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। বছর দু’য়েক আগে ঘটা করে সিলেটে ফুটবল একাডেমির উদ্বোধন করা হলেও কার্যত সেটাও এখন বন্ধ রয়েছে।

তারা বলেন, পরিকল্পনার অভাবে বেতনভুক্ত গোটা বিশেক কোচ থাকার পরও তাদের ব্যবহার করতে পারছে না বাফুফে। দেশে নেই কোনো কোচিং এডুকেশন প্রোগ্রামও।

এদিকে বাফুফে কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা কেউ ফোন ধরেন নি। গতকাল রাতে বাফুফে প্রেসিডেন্ট মুঠোফোনে লেছিলেন, মঙ্গলবার তিনি সংবাদ সম্মেলন করবেন। তবে এ ব্যাপারে বাফুফে থেকে কোনো কিছুই সংবাদকর্মীদের জানানো হয় নি।

আপাতত কথা বলবেন না সালাউদ্দিন

ভুটান ম্যাচের আগে বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন অসহায় কন্ঠে সাংবাদিকদের বলেছিলেন, এ ম্যাচের চিন্তায়তো ঠিক মতো ঘুমাতেও পারছি না আমি। বাংলাদেশের ফুটবলাঙ্গনও অপেক্ষায় ছিলো ১০ অক্টোবরের। অবশেষে শেষ হলো সেই ম্যাচ। কিন্তু এখন কি ঘুমাতে শান্তির ঘুমটা ঘুমুতে পারছেন বাফুফে প্রেসিডেন্ট। নাকি আজ রাত থেকেই শুরু হলো তার অশান্তি।

চ্যানেল আই অনলাইনের ফোন রিসিভ করেই কাজী সালাউদ্দিন বলা শুরু করেন, ৩-১ এ হেরেছি আমরা, আপাতত এর চেয়ে বেশি আপনাদের কিছু বলতে পারছি না আমি। কিন্তু বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতির একটি অফিশিয়াল স্টেটমেন্টতো এ দেশের ফুটবল পাগল মানুষ জানতে চায়। সালাউদ্দিনের জবাব- আমি আগামীকাল হয়তো মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলবো এসব বিষয়ে।

তাহলে কি অগণিত ফুটবল ভক্তের চাপের মুখে কাজী সালাউদ্দিন সরে দাঁড়াবেন, ছেড়ে দিবেন বাফুফের চেয়ার?

এমন প্রশ্নে অবশ্য বিরক্তি প্রকাশ করে সালাউদ্দিন ফোন কেটে দেন। কাটার আগে বলেন, তোমাদের সঙ্গে তো কথা বলাই মুশকিল।

অনূর্ধ্ব-১৬ দলকে সহায়তা দেবে কানাডা

বাংলাদেশের মহিলা ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে কানাডা। আজ সোমবার বাফুফে ভবনে এ আশ্বাস দেন বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডিয়ান হাই কমিশনার বেনোয়েট পিয়েরে লারামি। তিনি অনূর্ধ্ব-১৬ মহিলা দলকে তার হাই কমিশনের পক্ষ থেকে দেওয়া এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বলেন, ‘আপনাদের নিশ্চয়ই অজানা নয় যে কানাডা এবার অলিম্পিকে আয়োজক ব্রাজিলকে হারিয়ে ব্রোঞ্জ পদক জিতেছে। তারা চার বছর আগে লন্ডনেও এ পদক জিতেছিল। কানাডায় এখন অনূর্ধ্ব-১৮ মহিলা ফুটবলের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। বাংলাদেশের মেয়েরা যে ধারায় টানা পাঁচ ম্যাচ অপরাজিত থেকেছে তা প্রশংসনীয়। আর তখনই আমি সিদ্ধান্ত নেই যে আমি এ দলের সঙ্গে দেখা করবো। আমি একজন ফুটবল ভক্ত, আমার ছেলে একজন কোচ। আমি চাই আজ দুই দেশের মাঝে যে বন্ধন শুরু হলো তা অব্যাহত থাকবে।’

বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দীন লারামিকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, ‘আমরা আনন্দিত। আশা করি কানাডা মহিলা ফুটবল উন্নয়নে আমাদের সঙ্গে থাকবে।’

বাফুফে মহিলা ফুটবল কমিটির চেয়ারপারসন মাহফুজা আকতার কিরণ, সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ ও বাফুফে কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

ভুটানের মাঠে আত্মসমর্পণ বাংলাদেশের

এশিয়ান কাপের বাছাইপর্বে ওঠার স্বপ্ন গুঁড়িয়ে গেছে বাংলাদেশের। ভুটানের মাঠে ৩-১ গোলে হেরে গেছে টম সেইন্টফিটের শিষ্যরা।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে প্রথম লেগে ড্র করায় বাছাইপর্বে উঠতে কমপক্ষে ১-১ গোলের ড্রয়ের প্রয়োজন ছিল বাংলাদেশের। উল্টো ভুটানের কাছে বাংলাদেশের ফুটবল ইতিহাসে প্রথম হারের লজ্জায় ডুবল মামুনুলরা।

থিম্পুর চ্যাংলিমেথাং স্টেডিয়ামের টার্ফে সোমবার ম্যাচের শুরু থেকেই ভুটান ছিল আগ্রাসী। তপু বর্মন, রায়হান হাসান, আতিকুর রহমান মিশুর রক্ষণভাগ তাদের রুখতে পারেনি। পঞ্চম মিনিটেই কর্নার থেকে উড়ে আসা বল জিগমে দর্জি হেড করে জালে পাঠিয়ে ভুটানকে এগিয়ে নেন।

এরপর সময় যত গড়িয়েছে, মামুনুলরা ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়েছেন একটু একটু করে। হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাস, শাখাওয়াত হোসেন রনি মাঝ মাঠ থেকে বলের জোগান পাননি। ২১তম মিনিটে তপু বর্মন বল জালে জড়ালেও অফসাইড ছিলেন। পাঁচ মিনিট পর চেনচো ব্যবধান দ্বিগুণ করেন। ডান দিক থেকে সতীর্থের বাড়ানো ক্রস থেকে আগুয়ান গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন এই ফরোয়ার্ড।

৩০তম মিনিটে বিরেন বাসনেতের শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হলে ভুটান ব্যবধান বাড়াতে পারেনি। একটু পর এনামুল হক শরীফকে তুলে নিয়ে জুয়েল রানাকে নামান সেইন্টফিট। বাংলাদেশের খেলায় কিছুটা গতি ফেরে। একটু পর রনির ব্যাক পাসে মামুনুলের শট ফেরান গোলরক্ষক। প্রথমার্ধের শেষ দিকে দর্জির হেড রানা ফেরালে ২-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় স্বাগতিকরা।

দ্বিতীয়ার্ধে কিছুটা গুছিয়ে ওঠে বাংলাদেশ। ৫৭তম মিনিটে রনিকে তুলে নিয়ে জাতীয় দলের হয়ে ১৭ গোল করা জাহিদ হাসান এমিলিকে নামান সেইন্টফিট। ছয় মিনিট পর ম্যাচে ফেরার গোল পায় বাংলাদেশ। ডান দিক থেকে মামুনুলের ফ্রি-কিকে হেডে জালে পাঠান মিশু।

৬৮তম মিনিটে সমতায় ফেরার ভালো একটি সুযোগ নষ্ট হয় বাংলাদেশের। ডি-বক্সের একটু বাইরে সুবিধাজনক জায়গায় বল পেয়েও বাইরে মারেন জুয়েল রানা। ৩ মিনিট পর হেমন্তের শট অল্পের জন্য ক্রসবারের ওপর দিয়ে যায়। ৭৪তম মিনিটে বাঁ দিক থেকে হেমন্তের নীচু ক্রসে এমিলির শট সরাসরি গোলরক্ষকের গ্লাভসে জমে গেলে বাংলাদেশের হতাশা আরও বাড়ে।

দুই মিনিট পর প্রতিআক্রমণ থেকে চেনচোর করা দ্বিতীয় গোল বাংলাদেশের ম্যাচে ফেরার স্বপ্ন গুঁড়িয়ে দেয়। বাঁ দিক থেকে সতীর্থের বাড়ানো বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে দুই ডিফেন্ডারের ফাঁক দিয়ে জোরালো শটে রানাকে পরাস্ত করেন এই ফরোয়ার্ড।

৭৯তম মিনিটে কামা তিসেরাংয়ের শট মামুন মিয়া হাত দিয়ে আটকে প্রতিপক্ষকে পেনাল্টি উপহার দেন। তবে চেনেচোর হ্যাটট্রিকের সুযোগ বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে কর্নারের বিনিময়ে ফেরান রানা। তবে ম্যাচে আর ফিরে আসতে পারেনি মামুনুলরা।

গোলের দেখা পাবে কি বাংলাদেশ?

গত পাঁচটি আন্তর্জাতিক ম্যাচে কোনও গোল করতে না পারা বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল কাল সোমবার সন্ধ্যা ছয়টায় ভুটানের বিপক্ষে খেলবে এশিয়া কাপ প্লে-অফ-২-এর অ্যাওয়ে ম্যাচ। থিম্পুতে কৃত্রিম টার্ফ, সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে সাত হাজার ফুট উচ্চতার অপরিচিত কন্ডিশন, ভুটানের সঙ্গে কোনও পর্যায়ে না হারার রেকর্ড; সবকিছু মিলিয়ে বাংলাদেশের জন্য এক কঠিন পরীক্ষা হিসেবেই অপেক্ষা করছে ম্যাচটি।

তবে বাংলাদেশ যে বিষয়টিতে উজ্জীবিত হতে পারে সেটা হলো ২৮ ডিসেম্বর ২০১৫ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সর্বশেষ যে ম্যাচটি জিতেছিল তা ভুটানেরই বিপক্ষে ছিল। ওই ম্যাচে স্কোরলাইন ছিল ৩-০। এরপর থেকেই খেই হারাতে থাকে বাংলাদেশ দল। আমিরাতের বিপক্ষে একট প্রস্তুতি ম্যাচে ৬-১, জর্ডানের বিপক্ষে ৮-০,তাজিকিস্তানের বিপক্ষে ৫-০ ও ১-০, মালদ্বীপের বিপক্ষে প্রদর্শনী ম্যাচে ৫-০-তে হার ও ঢাকায় ভুটানের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করে লাল-সবুজরা। অর্থ্যাৎ ছয় ম্যাচে একটি গোল ও টানা পাঁচটি ম্যাচে গোল না করার রেকর্ড নিয়ে কালকের ম্যাচ খেলতে নামবে টম সেইন্টফিটের দল।

জিতলে তো কথাই নেই হোম ম্যাচে গোলশূন্য ড্র করায় বাংলাদেশের সামনে যে সুবিধাটুকু আছে তা হলো ১-১ বা ২-২-এর যে কোনও ব্যবধানে ম্যাচ ড্র করলেই অ্যাওয়ে ম্যাচে গোল করার সুবাদে বাংলাদেশ বাছাই পর্ব টপকে যাবে। তবে সেক্ষেত্রে বাংলাদেশকে গোল খরা কাটাতেই হবে। তাই বাংলাদেশের বেলজিয়ান হেড কোচ টম সেইন্টফিট জানেন সহজ হবে না ম্যাচটি, ‘আমাদের সামনে কাল কঠিন সময় অপেক্ষা করছে। ভুটানের বিপক্ষে জয় ও এশিয়া কাপের চূড়ান্ত পর্বে যাওয়ার স্বপ্নে আমরা আত্মবিশ্বাসী। ম্যাচটি কঠিন কারণ ভুটান সাম্প্রতিক সময়ে অনেক উন্নতি করেছে এবং তাদের চেমেচো ও দর্জির মতো ভালো খেলোয়াড় রয়েছে। এরা আমাদের জন্য বিপদ ডেকে আনতে পারে।’

ভুটান মানেই কন্ডিশন নিয়ে ভাবনা। আর সেই কন্ডিশন সম্পর্কে সেইন্টফিটের ব্যাখ্যা, ‘ উচ্চতা আমাদের জন্য কিছুটা সমস্যা। এটি কাটিয়ে উঠতে পারবো বলে আমরা মনে করি। তবে আবহাওয়া ও টার্ফে আমাদের কোনও সমস্যা হবে না।’

তিনি আরও যোগ করে বলেন, ‘আমরা ড্র করলেই চূড়ান্তপর্বে চলে যাবো। তবে মাঠভর্তি ভুটানি সমর্থকদের সামনে চাপ থাকবে। আমরা ইতিবাচক মনোভাব নিয়েই মাঠে নামবো। দলে কোনও ইনজুরি সমস্যা নেই তবে মায়ের মৃত্যুর কারণে ইমন বাবুর দেশে ফেরা একটা শূন্যতা সৃষ্টি করেছে । আশা করি আমরা এ ঘাটতি পূরণ করতে পারবো।’

ভুটানে গেলেও দলের অধিনায়ক এখনও চূড়ান্ত হয়নি। এ প্রসঙ্গে কোচ বলেছেন, ‘যদি মামুনুল ইসলাম একাদশে থাকে তবে সেই হবে অধিনায়ক। না হলে আশরাফুল ইসলাম রানাই অধিনায়কত্ব করবে।’

এদিকে শেষ পর্যন্ত লড়ার হুমকি দিয়ে রাখলেন ভুটানের জার্মান কোচ টরস্টেন স্পিটলার। তিনি বলেছেন, ‘নিজের মাঠে এমন উচ্চতায় ভুটানের কিছুটা সুবিধা রয়েছে। বাংলাদেশের কোচ তীক্ষ্ণ বুদ্ধিসম্পন্ন এবং তিনি জানেন ম্যাচে কখন কী করতে হবে। তবে আমরা শেষ মিনিট পর্যন্ত লড়বো। ম্যাচে জয়ের সম্ভাবনা ৫০-৫০ শতাংশ।’

প্রতিপক্ষ সম্পর্কে বেশ ভালোই সচেতন ভুটান কোচ। তার ব্যাখ্যায় ফুটে উঠে সে বিষয়টিও, ‘বাংলাদেশেরবেশ কয়েকজন প্রতিভাবান খেলোয়াড় রয়েছে, যারা ম্যাচ যে কোনও সময় ঘুরিয়ে দিতে সক্ষম। বাংলাদেশের মিডফিল্ডার ইমন বাবুর মার মৃত্যুতে আমরাও শোকাহত। ’

সিলেটে আবাহনীর ড্র

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে সিলেট পর্বের সূচনা দিনের দ্বিতীয় খেলায় জুয়েল রানার শেষ মুহূর্তের গোলে শেখ রাসেলের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে ঢাকা আবাহনী।

রবিবার সিলেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এ খেলায় গোল করার মতো প্রকৃত সুযোগ প্রথম সৃষ্টি করেছিল আবাহনী। দুটিই ইংলিশ ফরোয়ার্ড লি টাকের মাধ্যমে। ডানদিক থেকে এই প্লে-মেকারের ক্রসে ১৪ মিনিটে ঝাঁপিয়ে পড়েও হেড দিতে পারেননি হেমন্ত বিশ্বাস। একইভাবে দুই মিনিট পর সেই লি টাকের নিচু ক্রসে গোলমুখে বলে-পায়ে সংযোগ ঘটাতে ব্যর্থ হন কামারা সারবা ও হেমন্ত বিশ্বাস।

গোলশূন্য প্রথমার্ধ শেষে বিরতির পরও আবাহনীর দাপট অব্যাহত ছিল। লি টাক-হেমন্ত বিশ্বাসদের সমন্বয়ে গড়া আক্রমণগুলো প্রতিপক্ষ গোলমুখে গিয়ে ব্যর্থ হচ্ছিল। আর ৬৬ মিনিটেই খেলার ধারার বিপরীতে লিড নেয় শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র। ক্যামেরুনিয়ান ফরোয়ার্ড পল এমিলের থ্রু-পাস ধরে গোলরক্ষক শহিদুল আলমকে পরাস্ত করেন সাখাওয়াত হোসেন রনি।

শেষ পর্যন্ত ৮৪ মিনিটে জুয়েল রানার দুর্দান্ত গোলে সমতায় আসে আকাশী-হলুদরা। ডানদিক থেকে ইমন মাহমুদের ক্রসে দূরন্ত গতিতে মার্কারকে ছিটকে ফেলে চলন্ত বলে রানার প্লেসিং জিয়াউর রহমানকে কোনও সুযোগই দেয়নি।

ড্রয়ের ফলে এককভাবে লিগ টেবিলের শীর্ষে জায়গা করে নিলো শেখ জামাল। ৮ ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের সংগ্রহ ১৮ পয়েন্ট। সমান ম্যাচ থেকে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে আবাহনীর অবস্থান দুইয়ে। আর ৮ ম্যাচ থেকে ২ পয়েন্ট সংগ্রহ করে তলানিতেই রইলো শেখ রাসেল।

রোমাঞ্চকর ম্যাচে শেখ জামালের জয়

চলতি মৌসুমে দারুণ ছন্দেই রয়েছে শেখ জামাল। আজ রোববার আরো একবার প্রমাণ রাখলো তারা। জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ৯ গোলের রোমাঞ্চকর এক ম্যাচে ব্রাদার্স ইউনিয়নের বিপক্ষে ৫-৪ গোলে জয় পেয়েছে শেখ জামাল।

সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে শেখ জামালের হয়ে জোড়া গোল করেন ওয়েডসেন আনসেলমে। অপর তিন গোল করেছেন ডারবো ল্যান্ডিং, এমেকা ডারলিংটন ও সরোয়ার জাহান নিপু।

আর ব্রাদার্সের পক্ষে জোড়া গোল করেছেন এনকোচা কিংসলে। মান্নাফ রাব্বী ও অগাস্টিন ওয়ালসন একবার করে জামালের জাল কাঁপান।

এই জয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষস্থানটা আরো মজবুত করলো জামাল। ৮ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ১৮ পয়েন্ট। দ্বিতীয় স্থানে থাকা আবাহনী লিমিটেডের চেয়ে ৩ পয়েন্টে এগিয়ে তারা। আবাহনী অবশ্য এক ম্যাচ কম খেলেছে।

১৩ পয়েন্ট নিয়ে রহমতগঞ্জের অবস্থান তৃতীয়। তালিকার চতুর্থ স্থানে থাকা চট্টগ্রাম আবাহনীর ঝুলিতে জমা আছে ১২ পয়েন্ট।

ব্রাজিল দলে ফিরলেন সিলভা

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের পরবর্তী দুটি ম্যাচ বলিভিয়া ও ভেনেজুয়েলার জন্য ব্রাজিল দল ঘোষণা করেছেন কোচ তিতে। এক বছর পর দলে ডাক পেয়েছেন সাবেক অধিনায়ক থিয়াগো সিলভা।

বিশ্বকাপে লজ্জাজনক বিদায়ের পর ২০১৫ কোপা আমেরিকাতেও প্যারাগুয়ের কাছে হেরে শেষ আট থেকে বিদায় নিয়েছিল ব্রাজিল। এরপর তখনকার কোচ কার্লোস দুঙ্গা সিলভাকে দল থেকেই ছেঁটে ফেলেন। কিন্তু নতুন কোচ তিতে আবারো দলে নিলেন এ সময়ের অন্যতম সেরা এই ডিফেন্ডারকে।

এদিকে তিতের অধীনে বাছাই পর্বের টানা দুই জয়ে এখন পয়েন্ট টেবিলের দুইয়ে ব্রাজিল। শীর্ষে থাকা উরুগুয়ের সঙ্গে ব্যবধানও মাত্র এক পয়েন্টের। আগামী ৭ অক্টোবর বলিভিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ, তিন দিন পর ব্রাজিল খেলবে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে।

গোলরক্ষক: অ্যালিসন, মুরালহা, ওয়েভারটন
ডিফেন্ডার: দানি আলভেস, মিরান্ডা, মারকুইনহস, থিয়াগো সিলভা, জিল, ফ্যাগনার, মার্সেলো, ফিলিপে লুইস
মিডফিল্ডার: কাসেমিরো, রেনাতো অগুস্তো, পাওলিনহো, অস্কার, উইলিয়ান, ফার্নানদিনহো, লুকাস লিমা, গুইলিয়ানো, ফিলিপে কুতিনহো
ফরোয়ার্ড: নেইমার, ডগলাস কস্তা, রবার্তো ফিরমিনহো, গ্যাব্রিয়েল জেসুস

আর্জেন্টিনা দলে ফিরলেন হিগুয়েইন

সর্বশেষ দুই ম্যাচে ছিলেন না। তবে নিজের ফর্ম দিয়ে আবারো আর্জেন্টিনা দলে জায়গা করে নিলেন গঞ্জালো হিগুয়েইন। আগামী মাসের পেরু ও প্যারাগুয়ের সঙ্গে বাছাইপর্বের দুটি ম্যাচে হিগুয়েইনের পাশাপাশি ডাক পেয়েছেন সার্জিও আগুয়েরোও।

হিগুয়েইনের দলে ডাক পাওয়া নিয়ে বাউজা বলেন, `আমি হিগুয়েইনের সঙ্গে কথা বলেছি, সবকিছুই ভালোমতো হয়েছে। ও খুবই উৎসাহী, মাঠে ফিরতে ওর আর তর সইছে না।`

সর্বশেষ দুই ম্যাচে পেশির চোটের জন্য বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে খেলতে পারেননি আগুয়েরো। তবে সিটির হয়ে দারুণ খেলছেন, চ্যাম্পিয়নস লিগের সর্বশেষ ম্যাচেও করেছেন হ্যাটট্রিক। বাউজার ২৪ সদস্যের দলে তাই ডাক পেয়েছেন।

এদিকে চোটের জন্য এবারও নেই পিএসজি মিডফিল্ডার হাভিয়ের পাস্তোরে। হিগুয়েইনের জুভেন্টাস সতীর্থ পাউলো দিবালা জায়গা পেলেও ইন্টার মিলান স্ট্রাইকার মাউরো ইকার্দি উপেক্ষিতই থেকে গেছেন। আর লিওনেল মেসি তো আছেনই। লাল কার্ডের নিষেধাজ্ঞা পেরিয়ে আবারও জাতীয় দলে ফিরবেন দিবালা।

আগামী ৬ অক্টোবর পেরুর সঙ্গে প্রথম ম্যাচ, পাঁচ দিন পর প্রতিপক্ষ প্যারাগুয়ে। এই মুহূর্তে দক্ষিণ আমেরিকার বিশ্বকাপ বাছাইয়ে পয়েন্ট তালিকার তিনে আছে আর্জেন্টিনা। শীর্ষে থাকা উরুগুয়ের চেয়ে পিছিয়ে আছে মাত্র এক পয়েন্টে। ব্রাজিলের সঙ্গে সমান পয়েন্ট হলেও পিছিয়ে আছে গোল ব্যবধানে।

২৪ জনের আর্জেন্টিনা দল
গোলরক্ষক: সার্জিও রোমেরো (ম্যান ইউনাইটেড), নাহুয়েল গুজমান (তিগ্রেস)
ডিফেন্ডার: ফাকুন্দো রোনকাগলিয়া (সেল্টা ভিগো), মাতেও মুসাচ্চিও (ভিয়ারিয়াল), রামির ফিউনেস মোরি (এভারটন), মার্কোস রোহো (ম্যান ইউনাইটেড), মার্টিন ডেমিচেলিস (এসপানিওল), পাবলো জাবালেতা (ম্যান সিটি), গ্যাব্রিয়েল মেরকাদো (সেভিয়া), নিকোলাস ওটামেন্ডি (ম্যান সিটি)
মিডফিল্ডার: মাতিয়াস ক্রানেভিতার (সেভিয়া), হাভিয়ের মাচেরানো (বার্সেলোনা), লুকাস বিলিয়া (লাৎসিও), অগাস্তো ফার্নান্দেজ (অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ), এভার বানেগা (ইন্টার মিলান), এরিক লামেলা (টটেনহাম), নিকোলাস গাইতান (অ্যাটলেটিকো), অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া (পিএসজি)
ফরোয়ার্ড: লিওনেল মেসি (বার্সেলোনা), অ্যাঙ্গেল কোরিয়া (অ্যাটলেটিকো), গঞ্জালো হিগুয়েইন (জুভেন্টাস), সার্জিও আগুয়েরো (ম্যান সিটি), পাউলো দিবালা (জুভেন্টাস), লুকাস প্রাতো (অ্যাটলেটিকো মিনেইরো)।

এবার মাইক্রোবাসে ঢাকা গেলেন সানজিদারা

এবার লোকাল বাসে নয়, মাইক্রোবাসে করে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সংবর্ধনা নিতে ঢাকা এসেছেন এএফসি অনুর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবলের বাছাই পর্বের অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের ৯ সদস্য।

শনিবার ফেডারেশরেশনের পক্ষ থেকে ঢাকায় তাদের সংবর্ধনা দেওয়া হবে।

পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঈদ উদযাপন শেষে শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮ টার দিকে ভাড়া করা মাইক্রোবাসে ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলার কলসিন্দুর গ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা করেন তারা।

তবে মেয়েদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতেই নন এসি মাইক্রোবাসে তাদের নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কলসিন্দুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শরীর চর্চা শিক্ষক মফিজ উদ্দিন।

প্রথমবারের মতো এএফসি অনুর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবলের বাছাই পর্বে হার না মানা অপারাজেয় নারী ফুটবলাররা চূড়ান্ত পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছেন।

নিজেদের নিয়ে গেছেন এশিয়ার সেরা আটে। ঈদের আগে গত ৬ সেপ্টেম্বর ঢাকা থেকে লোকাল বাসে চেপে ধোবাউড়া ফিরেছিলেন তারা।

ইতিহাস গড়া ও ফুটবলে বিস্ময় জাগানিয়া এ কিশোরীদের লোকাল বাসে পাঠানোর এ ঘটনায় সে সময় চরম সমালোচনার মুখে পড়ে বাফুফে।

সমালোচনার অবসান ঘটাতেই এবার ঢাকা যাত্রাপর্বে মেয়েদের মাইক্রোবাসে পাঠাতে অভিভাবকদের অনুরোধ করেন বাফুফে কর্মকর্তারা।

সংবর্ধনা নিতে নারী ফুটবলারদের সঙ্গে থাকা স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শরীর চর্চা শিক্ষক মফিজ উদ্দিন জানান, ধোবাউড়া থেকেই ৮ হাজার টাকায় একটি মাইক্রোবাস ভাড়া করা হয়েছে। মেয়েরা এসি সহ্য করতে না পারায় নন এসি মাইক্রোবাস ভাড়া করা হয়েছে।

প্রতিভাবান কিশোরী ফুটবলার সানজিদা বলেন, ‘বাসে চলতেই আমাদের ভালো লাগে। এরপরও এ ঘটনায় অনেক কিছু হয়ে গেছে। সে কারণে মাইক্রোবাসে করে আমরা ঢাকা যাচ্ছি। কোনো সমস্যা হচ্ছে না।’

দলটির আলোচিত গোলরক্ষক তাসলিমার বাবা সবুজ মিয়া জানান, আগে লোকাল বাসে প্রথমে ময়মনসিংহ শহরে যেতো মেয়েরা। সেখান থেকে ট্রেনে ঢাকায় যেতো, এ যাত্রাতেই ওরা অভ্যস্ত।

‘এবার ফেডারেশন থেকে আমাদের একটি মাইক্রোবাস ঠিক করে দিতে বলা হয়েছিল। তারাই ভাড়া পরিশোধ করবে। হাসিখুশি মনেই মেয়েরা ঢাকার উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছে। ওরা আবারও দেশের মুখ উজ্জ্বল করবে-এমন প্রত্যাশা আমাদের।’

এএফসি অনুর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবলের চূড়ান্ত পর্বে উঠা বাংলাদেশ দলে খেলছেন কলসিন্দুরের ৯ নারী ফুটবলার। তারা হলেন- সানজিদা, মার্জিয়া, তহুরা, তাসলিমা, মাহমুদা, শিউলি, নাজমা, মারিয়া ও শামসুন্নাহার।

তাদের সবাই স্থানীয় কলসিন্দুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের বিভিন্ন ক্লাসের ছাত্রী।

যাবার সময় ফের ভালো কিছু করার প্রত্যাশার কথা জানালেন সানজিদা। তার ভাষ্য, ‘সংবর্ধনার পর সাফ ক্যাম্পে ভালো পারফরম্যান্স করেই মূল দলে খেলতে চাই। এ টার্গেট আমাদের সবারই।’

প্রায় একই কথায় জেতার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তহুরা, মারিয়া মান্দারাও।

মেয়েদের প্রশিক্ষণ ও মাসিক ভাতা দেবে বাফুফে

আগামী এক বছর (২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত) বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ জাতীয় নারী দলের ২৩ খেলোয়াড়কে নিবিড় প্রশিক্ষণের পাশাপাশি তাদের মাসিক ভাতা দিতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)।

এমাসের শুরুতে ঢাকায় এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বের গ্রুপ সি-তে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়ে চূড়ান্ত পর্বে জায়গা করে নেয় বাংলাদেশ। থাইল্যান্ডে ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে জাপান, অস্ট্রেলিয়া, চীন, দক্ষিণ ও উত্তর কোরিয়া, থাইল্যান্ড, লাওস ও বাংলাদেশ খেলবে চূড়ান্ত পর্বে। এ পর্বের শীর্ষ তিন দল পরবর্তীতে খেলবে অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ। সবকিছু মিলিয়ে মেয়েরা যাতে চূড়ান্ত পর্বে ভালো পারফরম্যান্স করতে পারে সেজন্য বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে বাফুফে। শুক্রবার নির্বাহী কমিটির সভা শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন পরিকল্পনার কথা জানায় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন।

যেখানে জানানো হয়, মেয়েদের পাওয়ার-ফিটনেস বাড়াতে ও টেকনিক্যাল দিকগুলোতে কাজ করার জন্য একজন ট্রেইনার নিয়োগ দেবে বাফুফে। যিনি একইসঙ্গে পুষ্টিবিদের কাজও করবেন। এছাড়া একজন ফিজিও যুক্ত হবেন দলের সঙ্গে। এমনকি এই এক বছর মেয়েদের থাকা খাওয়া ও পোশাক ব্যয় বহন করবে বাফুফেই।

মেয়েদের মাঝে অনেকেই শিক্ষার্থী। তাই একজন করে বাংলা, ইংরেজি, গণিত ও অন্যান্য বিষয় পড়াতে সক্ষম এমন চারজন শিক্ষক থাকবে মেয়েদের ক্যাম্পে। মেয়েরা যাতে তাদের অভিভাবকদের শূন্যতা অনুভব না করে সে জন্য দেড় মাস পরপর আয়োজন করা হবে ‘প্যারেন্টস ডে’। আবার প্রয়োজন হলে নিজেদের বাড়িতে ফেরার জন্য ছুটি দেওয়া হবে মেয়েদের। এছাড়া মাঠে শক্ত প্রতিপক্ষের বিপক্ষে মেয়েরা যাতে ভড়কে না যায় সেজন্য চূড়ান্ত পর্বের আগে চীন, জাপানের মতো শক্ত প্রতিপক্ষের বিপক্ষে পাঁচ থেকে ছয়টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশের মেয়েরা।

এ প্রসঙ্গে বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দীন বলেছেন, ‘আমরা যে কোনও মূল্যে এ পরিকল্পনা অব্যাহত রাখবো। মেয়েদের অর্জনটা আমাদের কাছে অনেক বড়, আমরা আশা করি তারা আরও উন্নতি করবে। আমরা তাদের নিয়ে দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা নিতে পারবো বলে মনে করি।’

বাফুফের সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বাফুফে সহ-সভাপতি কাজী নাবিল আহমেদ, বাদল রায়, মহিউদ্দিন মহি, তাবিথ আওয়াল ও মাহফুজা আক্তার কিরণ।

নারী ফুটবলারদের কাছে ‘ক্ষমা’ চাইলেন সেই শিক্ষক

অবশেষে বোধোদয় হয়েছে ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলার কলসিন্দুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের সাময়িক বরখাস্ত শিক্ষক জোবেদ আলী তালুকদারের।

এএফসি অনুর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবলের বাছাই পর্বের গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে এশিয়ার সেরা আটে স্থান করে নেওয়া সানজিদা-মার্জিয়া-তাসলিমাদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন ওই স্কুলের শরীর চর্চার শিক্ষক।

দু’দিন আগে ১৪ সেপ্টেম্বর, বুধবার বিকেলে স্থানীয় কলসিন্দুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে তাদের সঙ্গে দেখা করে ক্ষমা চান তিনি।

জোবেদ আলী এও বলেছেন, ‘একদিনের জন্য হলেও আমি তোদের শিক্ষক। তোদের কাছে ক্ষমা চাইতাছি। আমারে বাঁচা।’

শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকালে মোবাইল ফোনে এ কথা জানান গোলরক্ষক তাসলিমার বাবা সবুজ মিয়া।

তিনি জানান, এলাকাবাসী ও উপজেলা প্রশাসন বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে উদ্যোগ নিয়েছেন। সুষ্ঠুভাবে সমাধান হলে কোনো আপত্তি নেই তাদের।

‘মারপিটের অভিযোগ মামলা করেছেন, স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নিং বডি জড়িত জোবেদ আলীকে সাময়িক বরখাস্তও করেছেন, এখন মীমাংসা কেন?’

এমন প্রশ্নের উত্তরে তাসলিমার বাবা বলেন, ‘গ্রামের মুরব্বীরা আর আওয়ামী লীগ নেতারা মীমাংসার পক্ষে।
ঘটনার দু’দিন পর তারা বসেন। তাদের কথায় আমিও মীমাংসার পক্ষে।’

‘তবে আমাদের মেয়েদের ও প্রতিষ্ঠানের যাতে কোনো ক্ষতি না হয় সেইভাবে মীমাংসা করতে হবে। আমরা ৯ জন গার্ডিয়ান এ ব্যাপারে একমত।’

গত এক সপ্তাহেও ওই শিক্ষক গ্রেফতার না হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ঘটনার দিন পুলিশের তৎপরতা ছিলো। এখন জোবেদ আলী তালুকদার প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।’

‘আমাদের মেয়েদের কাছে গিয়ে দুইদিন আগে ক্ষমাও চাইছেন তিনি (জোবেদ আলী)। মেয়েরা বলেছে- স্যার তাসলিমার বাবার কিছু করার নাই। সবাই মীমাংসা করলে, তাসলিমার বাবাও মীমাংসা করবেন।’

এ বিষয়ে নারী ফুটবল দলের গোলরক্ষক তাসলিমার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। আর এ নিয়ে কথা বলতে আগ্রহী নন অন্যান্য খেলোয়াড়রাও।

তবে ফুটবলার সানজিদা বলেন, ‘এ নিয়ে কথা বলতে নিষেধ আছে। স্যার সেদিন আমাদের ঠাণ্ডা (কোমল পানীয়) খাইয়েছেন।’

যোগাযোগ করা হলে স্থানীয় কলসিন্দুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ জালাল উদ্দিন বলেন, ‘আমিও শুনেছি শিক্ষক জোবেদ আলী তালুকদার তাদের (খেলোয়াড়) কাছে ক্ষমা চেয়েছেন।’

কুমিল্লায় অনুষ্ঠেয় গ্রীষ্মকালীন ফুটবল প্রতিযোগিতায় খেলতে অস্বীকৃতি জানান বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল দলের ৯ খেলোয়াড়। এ নিয়ে গত ৭ সেপ্টেম্বর কলসিন্দুর স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে টিসি দেওয়ার হুমকি ও গোলরক তাসলিমার বাবাকে মারপিট করেন শরীর চর্চা শিক্ষক জোবেদ আলী তালুকদার।

এ ঘটনায় ৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় কলেজের গভর্নিং বডির জরুরি সভায় শরীরচর্চা শিক্ষক জোবেদ আলীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

ঘটনা তদন্তে সভায় তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। একই সঙ্গে সাত কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলে গভর্নিং বডি।

তবে ঈদের ছুটি থাকায় এখনও কাজই শুরু করতে পারেনি তদন্ত কমিটি।

এছাড়া বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সংবর্ধনার জন্যে ঢাকায় অবস্থান করছেন নারী ফুটবল দলের সদস্যরাও। শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) ঢাকায় যান তারা।

সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, কিছুদিনের মধ্যেই শুরু হবে সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ক্যাম্প। এ অবস্থায় ঈদের ছুটি শেষেও ফুটবলারদের পাচ্ছে না তদন্ত কমিটি।

তবে কলেজের অধ্যক্ষ জালাল উদ্দিন বলছেন, ‘তদন্ত শেষেই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রিপোর্ট দেওয়া হবে।’

জয় দিয়ে শুরু লেস্টারের

রূপকথার জন্মদিয়ে গত মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা ঘরে তোলা লেস্টার সিটি চ্যাম্পিয়নস লিগের অভিষেক ম্যাচেই জয় তুলে নিয়েছে। ইউরোপের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ এই প্রতিযোগিতায় ক্লাব ব্রুগেকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে ইংলিশ চ্যাম্পিয়নরা।

চ্যাম্পিয়নস লিগে নিজেদের ইতিহাসের প্রথম গোলের দেখা পেতে বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি লেস্টার সমর্থকদের। পঞ্চম মিনিটেই গোল করে ইতিহাসের পাতায় নিজের নাম লেখান মার্ক আলব্রিগটন। ম্যাচের ২৯ মিনিটে দুর্দান্ত এক ফ্রি-কিকে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন রিয়াদ মাহরেজ।

বিরতি থেকে ফিরে ম্যাচের ৬১ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন রিয়াদ মাহরেজ। আর তাতেই লেস্টারের জয়ও নিশ্চিত হয়ে যায়। ১৯৬১-৬২ ইউরোপিয়ান কাপ-উইনার কাপে গ্লেনাভনকে হারানোর পর ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় এটাই লেস্টারের প্রথম জয়।

শেষ সময়ের গোলে রিয়ালের নাটকীয় জয়

শেষ সময়ের দুই গোলে নাটকীয় এক জয় দিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা ধরে রাখার অভিযান শুরু করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। এগিয়ে থেকেও শেষ পর্যন্ত রিয়ালের কাছে ২-১ গোলে হেরে গেছে স্পোর্টিং লিসবন।

বুধবার ম্যাচের শুরুতেই অগোছালো রিয়াল শিবিরে আক্রমণ করে লিসবন। ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটে গোলের সুযোগও পেয়েছিল সফরকারীরা। কিন্তু চেজারের প্রচেষ্টা একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। এরপর খেলায় ফিরতে শুরু করে স্বাগতিক রিয়াল। ম্যাচের ২৭ মিনিটে রোনালদোর শট কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান লিসবন গোলরক্ষক। বাকি সময় তেমন কোন সুযোগ সৃষ্টি করতে না পারলে গোল শূন্য অবস্থায় বিরতিতে যায় দুই দল।

riyal

বিরতি থেকে ফিরেই স্বাগতিক শিবিরকে হতাশ করে সফরকারী দলকে এগিয়ে দেন ব্রুনো চেজার।  নিষ্প্রভ রিয়াল গোলের জন্য মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে শেষের দিকে। ম্যাচের ৮৩ মিনিটে রোনালদোর শট বাড়ে লাগলে হতাশা বাড়ে স্বাগতিকদের।

তবে এর ছয় মিনিট পর ফ্রি-কিক থেকে দারুণ এক গোলে রিয়ালকে সমতায় ফেরান রোনালদো। আর যোগ করা সময়ের চতুর্থ মিনিটে মোরাতার বুলেট গতির হেড তিন পয়েন্ট নিশ্চিত করে রিয়াল মাদ্রিদের।

‘রাশিয়া বিশ্বকাপ জিততে পারে ব্রাজিল’

রিও অলিম্পিকই বদলে দিয়েছে ব্রাজিলকে। অসাধারণ নৈপুণ্য দেখিয়ে এই আসরে প্রথমবারের মতো সোনা জিতেছে সেলেকাওরা। এখন তাদের চোখ ২০১৮ সালে রাশিয়া বিশ্বকাপে। সবশেষ দুই ম্যাচে জয় তুলে নিয়ে বাছাইপর্বের পয়েন্ট টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে তারা। এই পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে রাশিয়া বিশ্বকাপ জিততে পারে ব্রাজিল। এমনটাই মনে করেন ডগলাস কস্তা।

বায়ার্ন মিউনিখের তারকা উইঙ্গার কস্তা বলেন, ‘ব্রাজিলের হয়ে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হতে চাই (২০১৮ সালে রাশিয়া বিশ্বকাপে)। এর জন্য যা থাকা দরকার, তা আমাদের আছে। নেইমার এবং (ফিলিপে) কুটিনহোর মতো মানসম্পন্ন খেলোয়াড় রয়েছে আমাদের দলে। নতুন কোচও অনেক ভালো। যদি আমরা এক দল হিসেবে নিজেদের গড়তে পারি, তাহলে আমরা ফেবারিটদের মধ্যে থাকব। রাশিয়া বিশ্বকাপ জিততে পারে ব্রাজিল।’

গত বিশ্বকাপ ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছিল ব্রাজিলের। বড় আশা নিয়ে খেলতে নামলেও আশাহত করেছিলেন খেলোয়াড়রা। এমনকি শতাব্দীর সবচেয়ে বড় লজ্জাটাই সঙ্গী হয়েছিল তাদের। সেমিফাইনালে তারা জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছিল। আগামী বিশ্বকাপে নিজেদের সেরাটা ঢেলে দিয়ে সেই হতাশা দূর করতে চাইবেন নেইমাররা।

যে চ্যানেলে দেখা যাবে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচ

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচ নিয়ে বাড়তি আগ্রহ আছে বাংলাদেশি ভক্তদের। বিশ্বকাপ বাছাই ম্যাচে আগামীকাল ভোরে আর্জেন্টিনা আর সকালে মাঠে নামবে ব্রাজিল। ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ কলম্বিয়া আর আর্জেন্টিনার ভেনেজুয়েলা।

বাংলাদেশ সময় বুধবার নেইমারসহ দলের প্রত্যেক গুরুত্বপূর্ণ সদস্যদের নিয়েই শক্তিশালী কলম্বিয়ার মুখোমুখি হবে ব্রাজিল। ম্যাচটি শুরু হবে সকাল ৭ টায়। ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে সনি সিক্স ও এইচডি।

এদিকে ইনজুরির কারণে মেসি আর লাল কার্ড দেখায় এই ম্যাচে নেই উদীয়মান তারকা পাওলো দিবালা। এ দুই জনকে ছাড়াই ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে মাঠে নামবে আর্জেন্টিনা। বাছাইপর্বে লাতিন আমেরিকার পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে আছে আর্জেন্টিনা। ম্যাচটি শুরু হবে বুধবার ভোর ৫.৩০ মিনিটে। আর ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে সনি ইএসপিএন।

চূড়ান্ত পর্বে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ যারা

বড় জয় দিয়েই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে এএফসি চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বের খেলা শেষ করে চূড়ান্ত পর্বে জায়গা করে নিয়েছে বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৬ এএফসি মেয়েরা। আর মূল পর্বে তাদের প্রতিপক্ষ টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন উত্তর কোরিয়া। আর সঙ্গে চীন, জাপান, অস্ট্রেলিয়ার মতো মেয়েদের ফুটবলের ঐতিহ্যবাহী পরাশক্তিরা তো আছেই।

অনূর্ধ্ব-১৬ পর্যায়ে সফলতম দল অবশ্য জাপান, তিনবার শিরোপা জিতেছে তারা। দুবার জিতে ঠিক এরপরই আছে উত্তর কোরিয়া। প্রতিবেশী দক্ষিণ কোরিয়াও একবার পেয়েছে শিরোপার স্বাদ। ২০০৫ সাল থেকে শুরু দ্বিবার্ষিক এই টুর্নামেন্টে শিরোপার স্বাদ পেয়েছে শুধু এই তিনটি দলই। এই তিনটি দলই আছে আগামী বছরের চূড়ান্ত পর্বেও। যাতে বাংলাদেশ ছাড়া শুধু লাওসই নতুন।

সব দেশকে অবশ্য বাংলাদেশ ও লাওসের মতো বাছাইপর্বের বাধা পার হয়ে আসতে হয়নি। চারটি দেশ সরাসরি চূড়ান্ত পর্বে খেলার টিকিট পেয়েছে। গত বছর সর্বশেষ টুর্নামেন্টের চার সেমিফাইনালিস্ট উত্তর কোরিয়া, চীন, জাপান ও থাইল্যান্ড উঠে গেছে সরাসরি। বাছাইপর্বে নিজেদের গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন হয়ে তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছে বাংলাদেশ, অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়া। লাওসই একমাত্র ব্যতিক্রম, নিজেদের গ্রুপে দ্বিতীয় হয়েও যারা উঠে গেছে চূড়ান্ত পর্বে।

চূড়ান্ত পর্বে ফলাফল যা-ই হোক, সেটি খেলা নিশ্চিত করেই ইতিহাস একটা গড়ে ফেলেছে বাংলাদেশের কিশোরীরা। এশিয়ার সেরা আট দলের মধ্যে জায়গা পাওয়া কি মুখের কথা নাকি!

চূড়ান্ত পর্বে যারা
উত্তর কোরিয়া, জাপান, চীন, থাইল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া, বাংলাদেশ, অস্ট্রেলিয়া, লাওস।

বাংলাদেশ দলে তরুণদের আধিপত্য

ভুটান ম্যাচের দলে নেই জানতে পেরে নিয়মিত অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম আগেই জাতীয় দল থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছিলেন। পরে এশিয়ান কাপের বাছাই পর্বের প্লে-অফের ম্যাচ সামনে রেখে কোচ টম সেইন্টফিটের ঘোষণা করা আনুষ্ঠানিক দলে ঠাঁই হয়নি অভিজ্ঞ আরও চার জনের। ভুটানের বিপক্ষে প্রথম লেগের ম্যাচের দলে প্রাধান্য তরুণদের।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭ টায় প্লে-অফের প্রথম লেগে মুখোমুখি হবে দুই দল। আগের দিন সেইন্টফিট ২৩ জনের দল দেন। মামুনুলের জায়গায় অধিনায়ক করা হয়েছে গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানাকে।

মামুনুল ছাড়াও অভিজ্ঞদের মধ্যে জায়গা হয়নি মিডফিল্ডার প্রাণোতোষ এবং ডিফেন্ডার ওয়ালী ফয়সাল, নাসিরউদ্দিন চৌধুরী, ইয়ামিন মুন্নার।

৩৩ জনের প্রাথমিক দলে থেকে মূল দলে এছাড়াও জায়গা পাননি মুস্তাক আহমেদ, সোহেল রানা, আমিনুর রহমান সজীব, সেন্টু চন্দ্র সেন ও মোহাম্মদ নেহাল। কার্ডের কারণে আগে থেকেই দলে নেই নির্ভরযোগ্য মিডফিল্ডার জামাল ভূইয়া।

২৩ জনের দলে নতুন মুখ আরামবাগ ক্রীড়া চক্রের রাইট ব্যাক মনসুর আমিন ও রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস অ্যান্ড সোসাইটির মিডফিল্ডার মেহবুব হাসান নয়ন।

মালদ্বীপের কাছে ৫-০ গোলে হেরে আসা প্রস্তুতি ম্যাচের দলে জায়গা না পাওয়াদের মধ্যে উঠতি ফরোয়ার্ড জুয়েল রানা, মেহেদী হাসান তপু, মিডফিল্ডার আতিকুর রহমান ফাহাদ ও ডিফেন্ডার আতিকুর রহমান মিশুকে ভুটান ম্যাচের দলে রেখেছেন সেইন্টফিট।

২৩ জনের বাংলাদেশ দল: আশরাফুল ইসলাম রানা, রায়হান হাসান, মনসুর আমিন, তপু বর্মন, মেহেদী হাসান তপু, আতিকুর রহমান ফাহাদ, আতিকুর রহমান মিশু, শাখাওয়াত হোসেন রনি, নাবীব নেওয়াজ জীবন, হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাস, জুয়েল রানা, এনামুল হক শরীফ, দিদারুল আলম, মেহবুব হাসান নয়ন, রুবেল মিয়া, রেজাইল করিম, আরিফুল ইসলাম, মামুন মিয়া, মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, ইমন মাহামুদ, জাফর ইকবাল, শহিদুল আলম ও সোহেল রানা।

নিজেদেরই এগিয়ে রাখছেন ভুটান কোচ

এএফসি এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বের প্লে অফ-২’র প্রথম লেগের ম্যাচে স্বাগতিক বাংলাদেশের বিপক্ষে মাঠে নামবে সফরকারী ভুটান। আর স্বাগতিকদের বিপক্ষে এই ম্যাচে নিজেদেরই ফেভারিট মানছেন ভুটান কোচ পেমা দর্জি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে মাঠে নামবে দুই দল। সোমবার বিকেলে বাফুফে সম্মেলন কক্ষে ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন অতিথি দলের কোচ।

এসময় তিনি বলেন, এই ম্যাচের আগে প্রস্তুতিতে আমরা বেশি সময় পাইনি। কেননা এরই মধ্যে আমরা লিগের ম্যাচসহ ভারতের বিপক্ষেও প্রীতি ম্যাচ খেলেছি। আমার কাছে প্রতিটি ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু এই ম্যাচে জয় নিয়ে আমরা আত্মবিশ্বাসী।

এদিকে ভুটানের বিপক্ষে ম্যাচের ঠিক আগের দিনই অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশে জাতীয় দলের অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম। সংবাদ সম্মেলনে পেমা দর্জির কাছে তাই জানতে চাওয়া হয়েছিল মামুনুলের এই ম্যাচে না খেলা ভুটানের জন্য বড়তি সুবিধা কী না। উত্তরে পেমা জানান, ‘এটা আমাদের কাছে কোনো বড় বিষয় নয় যে, প্রতিপক্ষ দলে কে খেলছে আর কে খেলছে না। আমরা আমাদের সেরা খেলাটিই খেলবো। ছেলেরা জয় পেতে মাঠে তাদের শতভাগ উজাড় করে দেবে।’
বাংলাদেশের বিপক্ষে ভুটানের ম্যাচটি হবে ঘাসে ঢাকা মাঠে। অথচ ভুটান প্রস্ততি নিয়েছে কৃত্তিম টার্ফে। তাই মাঠের ব্যাপারটি ভুটানের কপালে কিছুটা হলেও চিন্তার ভাঁজ ফেলছে। শুধু মাঠই নয়, অ্যাওয়ে ম্যাচে স্বাগতিকদের বিপক্ষে জয় পাওয়া কঠিন বলেও মানছেন পেমা।

‘আমরা প্রস্তুতি নিয়েছি আর্টিফিসিয়াল টার্ফে। কিন্তু খেলাটি হবে ঘাসে। ফলে ম্যাচটি আমাদের জন্য কঠিনই হবে। প্রতিপক্ষের মাঠে খেলা সব সময়ই কঠিন। জিতলে এটা আমাদের জন্য বাড়তি সুবিধা এনে দেবে। তবে ড্র করতে পারলেও আমরা খুশি।’

গেল ১ সেপ্টেম্বর মালেতে প্রস্তুতি ম্যাচে স্বাগতিক মালদ্বীপের কাছে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়ে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ জাতীয় দল। তবে সেই হার ভুটানের বিপক্ষে ম্যাচে কোনো প্রভাব ফেলবে না বলে মত দিলেন ভুটান কোচ।

‘হার-জিত খেলারই অংশ। মালদ্বীপের বিপক্ষে বাংলাদেশ রক্ষণাত্মক খেলেছে। তাই বলে এই ম্যাচেও তারা রক্ষণাত্মক খেলবে এটা বলা যাবে না। এই ম্যাচে বাংলাদেশ তাদের কৌশল পরিবর্তণ করতেই পারে।’ জানান ভুটান কোচ।

বাংলাদেশের বিপক্ষে এ পর্যন্ত ৫ বারের মুখোমুখি লড়াইয়ে একটিতেও জয় পায়নি ভুটান। চারটিতেই বাংলাদেশ জিতেছে আর একটি ম্যাচ ড্র হয়। তাই এই ম্যাচের মধ্যদিয়েই লাল-সবুজের বিপক্ষে জয় খরা কাটাতে চাইছে ড্রাগনের দেশ ভুটান।

বাংলাদেশ অধিনায়ক মামুনুলের অবসর

অনেকটা অভিমান করেই অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম। তবে আনুষ্ঠানিক ভাবে এই সিদ্ধান্ত জানাতে অপক্ষায় রেখেছেন তিনি।

সোমবার বিকেলে জাতীয় দল থেকে নিজের ইস্তফাপত্র তিনি বাফুফের কাছে পাঠাবেন বলে জানা গেছে। অবশ্য টিম ম্যানেজার ইকবাল হোসেন মামুনুলের ব্যক্তিগত এই সিদ্ধান্তের ব্যাপারে কোন মন্তব্য করতে চাননি।

মূলত মামুনুলের অবসেরর সিদ্ধান্ত আলোচনায় এসেছে সোমবার (৫ সেপ্টম্বর) সকালে ভুটানের বিপক্ষে এএফসি এশিয়ান কাপ বাছই পর্বের প্লে অফ-২ ম্যাচকে সামনে রেখে বাংলাদেশে দলের অুনুশীলনে।

অনুশীলনে অনেকটাই ব্রাত্য ছিলেন দেশের ঘরোয়া ফুটবলের সবচাইতে বেশি পারিশ্রমিকের এই ফুটবলার। অন্যদের চেয়ে অনুশীলন এদিন একটু অন্যমনষ্কই দেখা গেল মামুনুলকে। গুঞ্জন আছে অনুশীলন পরবর্তী সময়ে ভুটানের বিপেক্ষে তিনি নেই এটা জানার পরই জাতীয় দল ছাড়তে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ।

উল্লেখ্য, গেল ১ সেপ্টেম্বর মালদ্বীপে অনুষ্ঠিত বাছাই পর্বের ম্যাচে ইনজুরির কারণে দলে ছিলেন না বাংলাদেশের অধিনায়ক।

এদিকে অবসরের ব্যাপারে মামুনুলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, ‘ভুটানের বিপক্ষে প্রথম লেগের ম্যাচে আমাকে দলে না রাখায় আমি অপমাণিত বোধ করেছি। সঙ্গত কারণেই আমি অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বিকেলের মধ্যে আমি আমার ইস্তফাপত্র বাফুফেতে পৌঁছে দিব’।

আমিরাতকে হারিয়ে শেষটা রাঙাল মেয়েরা

আগেই মূল পর্ব নিশ্চিত করা কৃষ্ণা-অনুচিংরা শেষটাও রাঙাল। এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই পর্বে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ৪-০ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা।

টানা পাঁচ ম্যাচ জিতে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে অপরাজিত থেকে বাছাইপর্ব শেষ করল আগেই ‘সি’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হওয়া নিশ্চিত করা বাংলাদেশ। ইরানকে হারিয়ে বাছাইপর্ব শুরু করে সিঙ্গাপুর, কিরগিজস্তান ও চাইনিজ তাইপেকে হারিয়েছিল গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যরা।

প্রতিপক্ষের জালে ২৬ গোল করা বাংলাদেশ বাছাই পর্বে পাঁচ ম্যাচে গোল খেয়েছে মাত্র দুটি; তাইপের বিপক্ষে ম্যাচে।

সোমবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে প্রথম কর্নারটিকে কাজে লাগায় বাংলাদেশ। তৃতীয় মিনিটে মার্জিয়ার মাপা কর্নার থেকে নিখুঁত হেডে লক্ষ্যভেদ করেন কৃষ্ণা।

৩৬তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ নষ্ট করেন তাইপের বিপক্ষে স্পট কিক থেকে জোড়া গোল করা শামসুন্নাহার। বক্সের মধ্যে সালমা মোহাম্মদ কৃষ্ণাকে ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ব্যবধান দ্বিগুণ করে নেয় বাংলাদেশ। সানজিদার কর্নারে গোলমুখ থেকে কৃষ্ণার শট ঠিকানা খুঁজে পায়। গ্রুপ পর্বে এ নিয়ে ৮ গোল করলেন অধিনায়ক।

আগের চার ম্যাচে দুটিতে হারা আরব আমিরাতের ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা সফল হয়নি। শিউলি-নার্গিস-মাসুরার রক্ষণ দেয়াল টপকাতে পারেনি তারা।

৫৬তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নেয় বাংলাদেশ। মারিয়া মান্ডার বাড়ানো বলে মাটি কামড়ানো শটে স্কোরলাইন ৩-০ করেন অনুচিং মোগিনী। গ্রুপ পবে এটি অনুচিংয়ের পঞ্চম গোল।

দ্বিতীয়ার্ধের শেষ দিকে মনিকার ক্রসে তহুরার নিচু হয়ে নেওয়া হেড ঠিকানা খুঁজে পেলে বড় জয় নিশ্চিত হয় বাংলাদেশের।

আমিরাতের বিপক্ষে আত্মতুষ্টিতে ভুগছে না বাংলাদেশ

সোমবার বেলা ১১টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে গ্রুপ সি-এর বাছাই পর্বে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। লাল-সবুজরা ইতোমধ্যেই এই গ্রুপ থেকে চূড়ান্ত পর্বের টিকিট পেয়েছে।

এ পর্যন্ত দুটি ম্যাচের দুটিতে হেরে, একটি ড্র ও একটি জয় নিয়ে চার পয়েন্ট অর্জন করা আমিরাত বাংলাদেশের সামনে দুর্বল দল হিসেবে পরিচিত হলেও বাংলাদেশ ভুগছে না কোনও আত্মতুষ্টিতে। কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটন বলেন, ‘টার্গেট পূরণ হয়েছে কিন্তু এখনও ম্যাচ শেষ হয়নি। আমরা আগের চারটি ম্যাচ যেভাবে খেলেছি, সেভাবেই খেলতে চাই আরব আমিরাতের বিপক্ষে। এখানে প্রতিটি দলই সমান। কেউ কারও চেয়ে কম নয়। ইরান আমাদের কাছে প্রথম ম্যাচ হারার পর পরের তিন ম্যাচেই দারুণভাবে জিতেছে। চাইনিজ তাইপেও আমাদের ম্যাচটি বাদ দিলে বাকি ম্যাচগুলো দারুণ খেলেছে। ওদের দু’দলের সামনেই সুযোগ আছে আমাদের সমান পয়েন্ট করার। সেই সুযোগ আমরা তাদের দিতে চাই না। শ্রেষ্ঠত্ব বজায় রাখতেই পুরোশক্তির দল নিয়ে মাঠে নামবো।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘চূড়ান্তপর্বে গতবারের চার সেমিফাইনালিস্ট কোরিয়া, জাপান, চীন ও থাইল্যান্ডের সঙ্গে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ এর মধ্যেই ফাইনাল রাউন্ড নিশ্চিত করেছে। সেখানে ভালো করতে হলে আমাদের এখন থেকেই পরিকল্পনা সাজিয়ে প্রস্তুতি শুরু করতে হবে। শক্তিশালী দলগুলোর বিপক্ষে বেশি বেশি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে হবে।’

এদিকে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামছে ইরান ও চাইনিজ তাইপে। মর্যাদার লড়াই বলেই ম্যাচটি হবে দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ।

আমাদের একজন মেসি দরকার: চীনের প্রেসিডেন্ট

কারিকারি সম্পদ থাকলেই একজন লিওনেল মেসিকে তৈরি করা যায় না! একমাত্র ঈশ্বর চাইলেই তা সম্ভব হয়। আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে রয়েছেন পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার। নিজ দেশে তা (মেসির মানের ফুটবলার) না থাকায় আক্ষেপ ঝরছে বিশ্ব অর্থনীতির অন্যতম পরাশক্তি চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের কণ্ঠে। জানালেন, একজন মেসি দরকার তাদের। না হয়, একজন দিয়েগো ম্যারাডোনা চান তারা।

খুব বেশি দেরি নয়, আগামী ২০ বছরের মধ্যে একজন মেসি কিংবা ম্যারাডোনা চান শি জিনপিং। মেসির মতো ফুটবলার তৈরি করতে হংঝুতে জি-২০এর সম্মেলনে আসা আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট মাকরির কাছে সাহায্য চাইলেন তিনি। চীনের প্রেসিডেন্টের ভাষায়, ‘আগামী ২০ বছরের মধ্যে আমরা একজন চাইনিজ লিওনেল মেসি কিংবা ম্যারাডোনা চাই। এজন্য আপনাদের কাছ থেকে সাহায্য প্রয়োজন আমাদের।’

এদিকে, মেসিকে সেরা সম্পদ হিসেবে উল্লেখ করেছেন আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট মাকরি। বলেন, ‘এটা ইশ্বর প্রদত্ত উপহার যে বিশ্বসেরা ফুটবলার (মেসি) রয়েছে আমাদের দেশে। তাকে পাওয়াটাও সৌভাগ্যের ব্যাপার। আমরা তার যত্ন নেব।’

মেসিকে ছাড়িয়ে গেলেন রোনালদো

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসির মতো এমন আকর্ষণীয় দ্বৈরথ ফুটবলবিশ্বে খুব কমই দেখা গেছে। এবার খেলার মাঠ ছেড়ে এ দ্বৈতরত ছড়িয়ে পড়লো ইএ স্পোর্টসের ভিডিও গেম ফিফা ১৭ তে। আর এ দ্বৈতরতে মেসিকে ছাড়িয়ে গেলেন রিয়াল তারকা রোনালদো।

ইএ স্পোর্টসের ভিডিও গেম ফিফা ১৭ তে পয়েন্টের হিসাবে ৯৪ পয়েন্ট নিয়ে মেসির চেয়ে এগিয়ে আছে রোনালদো। আর মেসির পয়েন্ট ৯৩।  তার মানে ফিফার হিসাবে রোনালদোই বেশি প্রতিভাবান।

ronaldo

পেস, শুটিং, ডিফেন্ডিং ও শারীরিক সক্ষমতায় রোনালদো পেছনে ফেলেছেন মেসিকে। মেসি আবার এগিয়ে আছেন পাসিং ও ড্রিবলিংয়ে। সব মিলিয়ে অবশ্য পেছনে পড়ে গেছেন বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড। কিন্তু এই দুজনের পর কারা? ৯২ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছেন দুই বার্সা-সতীর্থ নেইমার, লুইস সুয়ারেজ ও বায়ার্নের ম্যানুয়েল নয়্যার।

আবারো বার্সায় ফিরছেন রোনালদিনহো

ক্যারিয়ারের সেরা সময়টা কাটিয়েছেন তিনি বার্সেলোনায়। পাঁচ বছরের ন্যু ক্যাম্প ক্যারিয়ারে দুটি লা লিগার সঙ্গে জিতেছেন চ্যাম্পিয়নস লিগও। ২০০৮ সালে বার্সেলোনা ছাড়া রোনালদিনহো আবারো ফিরছেন কাতালান ক্লাবটিতে।

তবে খেলোয়াড় হিসেবে নীল-মেরুন জার্সি গায়ে জড়াচ্ছেন না তিনি, এবার স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নদের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে কাজ করবেন ব্রাজিলিয়ান এই ফরোয়ার্ড।

বিশ্ব জুড়ে বার্সেলোনাকে ছড়িয়ে দেওয়ার কাজ অনেক দিন ধরেই করছে কাতালান ক্লাবটি। তারই অংশ হিসেবে এবার নিউইয়র্কে নতুন অফিস খুলছে বার্সা। এ জন্য তারা সাবেক ফুটবলারকে ফিরিয়ে আনছে।

আগামী ৬ সেপ্টেম্বর পার্ক এভিনিউয়ে শুরু হচ্ছে নতুন অফিসের কাজ, সেখানেই বার্সার প্রথম দলের দূত হিসেবে কাজ করবেন বিশ্বকাপ জয়ী এই তারকা। খেলোয়াড় হিসেবে বার্সেলোনা ছাড়ার পর থেকে ফর্মহীনতায় ভোগা রোনালদিনহো সবশেষ ২০১৫ সালে খেলেছেন ফ্লুমিনেন্সের হয়ে।

আরব আমিরাত ও ইরানের জয়

চ্যাম্পিয়নশিপ বাছাই পর্বের গ্রুপ সি’তে প্রথম জয়ের মুখ দেখেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। তারা ৩-২ গোলে হারিয়েছে কিরগিজস্তানকে। অন্যদিকে দিনের প্রথম খেলায় ইরান ১১-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে সিঙ্গাপুরকে।

আজ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দিনের দ্বিতীয় খেলায় আমিরাতের ডিফেন্ডার আল রিম আল বালোশি ১৩ মিনিটে, মিডফিল্ডার রাওয়ান আল হাম্মাদি ৪০ মিনিটে ও ফরোয়ার্ড সারা সামিহ ৫৬ মিনিটে গোল তিনটি করেন। কিরগিজ মিডফিল্ডার শাখনোজা ইবরাইমোভা ৩৭ ও আরেক মিডিফিল্ডার ভিক্টোরিয়া ডালিঙ্গার ৫৭ মিনিটে করেন তাদের গোল দুটি। চার ম্যাচে আমিরাতের পয়েন্ট তিন, কিরগিজস্তানের শূন্য।

অন্যদিকে দিনের প্রথম খেলায় ফাতেমা মাখদুমির করা চার গোলে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে সিঙ্গাপুরকে ১১-০ গোলে হারিয়েছে ইরান। টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত এটিই সবচেয়ে বড় জয়।। এর আগে কিরগিজস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের ১০-০ গোলের জয়ই ছিল বড়।

১১ ও ১৩ মিনিটে মধ্যে সিঙ্গাপুর জালে পর পর দুবার বল ঠেলে ইরানকে ২-০ গোলে এগিয়ে দেন অধিনায়ক ফাতেমা ঘাসেমি। ১৫ মিনিটে অগ্রগামিতা ৩-০ তে নিয়ে যান মরিয়াম মোহাম্মদি। ২২ মিনিটে স্কোর লাইন ৪-০ করেন রোঘাইয়া জালাল নাসাব। ফাতেমা মাখদুমির ভলি ৩৯ মিনিটে ইরানকে ৫-০ ও ৩৯ মিনিটে নাসাব নিজের দ্বিতীয় গোল করে ৬-০ ব্যবধানে বিরতিতে যায় ইরান।

৬৯, ৭১ ও ৮৪ মিনিটে মাখদুমি করেন তার বাকি তিনটি গোল। ৭৯ মিনিটে হানি খোদাপারেস্তি ও ৮৫ মিনিটে ফাতিমা দাইনিয়া বাকি দুটি গোল করে দলকে এন দেন বড় জয়। মাঝে ৪২ মিনিটে ফাতেমেহ ঘাসেমি লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন। ইরানের পয়েন্ট চার ম্যাচে নয়, সমান ম্যাচে সিঙ্গাপুরের অর্জন শুন্য।

চাইনিজ তাইপেকে ৪-২ গোলে বিধ্বস্ত করল দেশের মেয়েরা

এএফসি অনূর্ধ্ব ১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের মূলপর্বে খেলার আরো কাছাকাছি চলে এল বাংলাদেশ। শক্তিশালী চাইনিজ তাইপের মেয়েদের ৪-১ গোলে হারানোর পর আগামী বছর থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সেই প্রতিযোগিতায় কৃষ্ণা-সানজিদাদের খেলাটা এখন কেবল সময়ের ব্যাপার!
কারণ শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ অপেক্ষাকৃত দূর্বল সংযুক্ত আরব আমিরাত। ইরান-তাইপেকে যারা বলে কয়ে হারায় ‘পুঁচকে’ আমিরাতের কাছে তারা হারবে এটা বোধহয় কেউ কল্পনাও করেন না।

আজ জিতলেই চ্যাম্পিয়নশিপের মূলপর্ব নিশ্চিত কারণ দুদলেরই সমান ৯ পয়েন্ট। তাই আজকের ম্যাচটিই হয়ে দাড়ায় ‘অঘোষিত’ ফাইনাল হিসেবে। আর সেই ‘ফাইনালটা’ হয়ে রইল বাংলাদেশময়।

শক্তিশালী চাইনিজ তাইপের মেয়েদের বলে কয়ে হারাল টাইগ্রেসরা। প্রথমার্ধে ২-১ গোলে এগিয়ে থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধে আরো দুটি গোল করে বাংলাদেশের মেয়েরা।

তবে ম্যাচে প্রথম গোলটা কিন্তু বাংলাদেশকেই হজম করতে হয়েছে। রক্ষণের ভুলে ১১ মিনিটে গোল খেয়ে বসে বাংলাদেশ। খেলার ২৭ মিনিটে গোল শোধ করেন শামসুন্নাহার। এরপর ৩৯ মিনিটে এই ফরোয়ার্ডের আরেক গোলে ম্যাচে লিড নেয় বাংলাদেশের মেয়েরা।

ম্যাচের ১১ চাইনিজ তাইপের অধিনায়ক সু ইউ সুয়ান গোল করে দলকে লিড এনে দেন। এরপর গোল শোধে মরিয়া হয়ে ওঠে বাংলাদেশের মেয়েরা। ২৩তম মিনিটে ভালো একটা পেয়েছিল লাল-সবুজের দল। নার্র্গিসের নেয়া শট সরাসরি চলে যায় তাইপের গোলরক্ষকের গ্লাভসে।

এর মাত্র দুই মিনিট পরেই গোল পেয়ে যায় কৃষ্ণার দল। ডি বক্সের মধ্যে বাংলাদেশ দলপতিকে ফাউল করেন চাইনিজ তাইপের চেন চিয়াও ই। পেনাল্টির বাঁশি বাজাতে মোটেও দেরি করেননি রেফারি।

ম্যাচে দ্বিতীয় দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন চেন চিয়াও-ই। পেনাল্টি থেকে গোল আদায় করে বাংলাদেশকে সমতায় ফেরান শামসুন্নাহার। ১০ জনের তাইপে আর তেমন আক্রমণে উঠতে পারেনি। ৩৬ মিনিটে গোল পেতে গিয়েও পায়নি বাংলাদেশ।

তবে পরের মিনিটেই আবারো বাংলাদেশের অধিনায়ক কৃষ্ণা রাণীকে ডি বক্সের মধ্যে ফেলে দেন তাইপের অধিনায়ক সু ইউ সুয়ান। আবার পেনাল্টি থেকে গোল করে বাংলাদেশকে এগিয়ে দেন শামসুনন্নাহার। তিন মিনিট পরেই অবশ্য সমতায় ফিরতে পারতো চাইনিজ তাইপে।

তবে নিশ্চিত গোলের সুযোগ মিস করেন অনুচিং মোগিনি। ৪৩ মিনিটে তার আর একটি চলে ডায় বারের পাশ ঘেষে। ফলে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই বিশ্রামে যায় বাংলাদেশের মেয়েরা।

বিরতির পর ফিরেই গোল করেন অধিনায়ক কৃষ্ণা রানী। অনুচিং মোগিনের বাড়িয়ে দেওয়া বলে জোরালো শট নেন কৃষ্ণা। চাইনিজ তাইপের গোলরক্ষককের ক্লে তাকিয়ে থাকা ছাড়া আর কোনো কাজ ছিল না।

৭৬ মিনিটে আত্মঘাতি গোলে আবার এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। স্বপাকে ফাউল করেন তাইপের ডিফেন্ডার। শামসুন্নাহারের নেয়া ফি কিক চাইনিজ তাইপের চিং উন ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের জালেই বল জড়িয়ে দেন।

৮৭ মিনিটে অবশ্য একটি গাল পরিশোধ করে সফরকারী দলটি। উ ইউ জু গোল করে ব্যবধানটা কমান। ৮৯ মিনিটে টেং পি লিনং দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখলে ৯ জনের দলে পরিণত হয় তাইপে।

এ জয়ের ফলে চার ম্যাচ থেকে পূর্ণ ১২ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে অবস্থান নিয়েছে বাংলাদেশ।

প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশের বড় হার

এশিয়ান কাপের বাছাই পর্বে ওঠার প্লে-অফ ম্যাচের আগে প্রস্তুতিটা ভালো হল না বাংলাদেশ ফুটবল দলের। স্বাগতিক মালদ্বীপের কাছে ৫-০ ব্যবধানে উড়ে গেছে টম সেইন্টফিটের শিষ্যরা।

তবে ম্যাচের শুরুতে গোল প্রথম সুযোগ পায় বাংলাদেশ। ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটে গোলরক্ষকের দৃঢ়তায় এগিয়ে যাওয়া হয়নি বাংলাদেশের। বক্সের মধ্যে শাখাওয়াত হোসেন রনির শট কর্নারের বিনিময়ে ফেরার মালদ্বীপের গোলরক্ষক মোহাম্মদ ইমরান। ২৩তম মিনিট পর প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারদের ভুলে বল পেয়ে বাংলাদেশের সোহেল রানার নেওয়া শট কর্নারের বিনিময়ে ফেরান ইমরান। ৩২তম মিনিটে জাফর ইকবালের হেড মালদ্বীপের পোস্টের ওপর দিয়ে উড়ে যায়। ফলে প্রথমার্ধ গোল শূন্য অবস্থায় বিরতিতে যায় দুই দল।

বিরতি থেকে ফিরে নিজেদের হারিয়ে ফেলে লাল-সবুজ শিবির। ম্যাচের ৫৩ মিনিটে আহমেদ আব্দুল্লাহর বাড়ানো ক্রসে গোল করে স্বাগতিকদের এগিয়ে দেন আসাদুল্লাহ। সাত মিনিট পর বাঁ দিক থেকে আশফাকের বাড়ানো ক্রস ধরে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন আসাদুল্লাহ।

ম্যাচের ৭৮তম মিনিটে আশফাকের তৈরি করে দেওয়া বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডিফেন্ডারদের বোকা বানিয়ে স্কোরলাইন ৩-০ করেন বদলি নামা হামজাথ। আর আহমেদের বাড়ানো বল ধরে ৮১তম মিনিটে হ্যাটট্রিক পূরণের আনন্দে মাতেন আসাদুল্লাহ। যোগ করা সময়ে মালদ্বীপকে পঞ্চম গোল এনে দেন ইসা।

উল্লেখ্য, আগামী ৬ সেপ্টেম্বর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে এশিয়ান কাপের বাছাই পর্বে ওঠার প্লে-অফের প্রথম লেগে ভুটানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

কিরগিজস্তানকে ১০ গোল দিলো বাংলাদেশের মেয়েরা

আরও দুরন্ত বাংলাদেশের মেয়েরা। এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই পর্বে প্রতিপক্ষ বদলালেও ক্রমে আরও দুর্দান্ত ফুটবল উপহার দিয়েছে সানজিদা, কৃষ্ণা, মারজিয়া আর আনুচিং মগিনিরা। প্রথম ম্যাচে ইরানকে ৩-০ ও সিঙ্গাপুরকে ৫-০ গোলে হারানোর পর এবার কিরগিজস্তানের জালে ১০টি গোল দিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। বাছাই পর্বের গ্রুপে সি-এর খেলায় এটি সবচেয়ে বড় জয়। বলতে গেলে সবসময় নিজেদের রক্ষণ সামলাতে ব্যস্ত ছিল কিরগিজ মেয়েরা। আর একের পর এক আক্রমণ করে তাদের দিশেহারা করে দেয় বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের মুখোমুখি হলেই প্রতিপক্ষ দলগুলোর কৌশল হলো নিজেদের রক্ষণভাগে যতবেশি সম্ভব খেলোয়াড় রেখে রক্ষণাত্বক কৌশল অবলম্বন করা। কিরগিজস্তান তার ব্যতিক্রম করেনি। এদিনও খেলার শুরু থেকে সানজিদা, কৃষ্ণা, মারজিয়া আর আনুচিং মগিনিরা বারবার কিরগিজ রক্ষণে হানা দিয়েছেন। কিন্তু আটসাঁট রক্ষণের কারণে গোল করতে পারেনি। ৩ ও ১৫ মিনিটে আনুচিং কিরগিজস্তান গোলরক্ষককে একা পেয়েও গোল করতে পারেননি।

খেলার ২০ মিনিটে অবশেষে গোলের দেখা পায় বাংলাদেশ। বামপ্রান্ত থেকে ফ্রি-কিক করেছিলেন মারজিয়া। গোলমুখে তখন বিরাট জটলা। এর মধ্যে ঠিকমতো বল ধরতে পারেননি আদেলিনা ইসকাকোভা। জটলার মাঝ থেকে আলতো টোকায় বল গোললাইন অতিক্রম করিয়ে দেন স্বপ্নার পরিবর্তে প্রথম একাদশে স্থান পাওয়া আনুচিং মারমা।

বাংলাদেশ দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় ৩০ মিনিটে। ডানপ্রান্ত থেকে বল নিয়ে কিরগিজস্তান শিবিরে হানা দেন অধিনায়ক কৃষ্ণা রাণী সরকার। তার ক্রসে ডান পায়ের ভলিতে গোলটি করেন মিডফিল্ডার মারজিয়া। বক্সের মাঝামাঝি অবস্থানে অনমার্কড দাাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি।

৪৩ মিনিটে গোলদাতাদের তালিকায় নাম লেখান কৃষ্ণা নিজেই, মারজিয়ার করা শট ডিফেন্স ওয়ালে লেগে প্রতিহত হলে তা নিয়ন্ত্রণে নেন কৃষ্ণা। পেছনে ফিরে জায়গা করে নিয়ে তিনি কোনাকুনি শটে বল জড়িয়ে দেন দূরের জালে।

প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে ৪-০ গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। গোল করেন আনুচিং মারমা। এবারও উৎস মারজিয়া। তার করা মাপা কর্নারে হেড করে আদেলিনাকে পরাস্ত করেন নিজ দ্বিতীয় গোলের মুখ দেখা আনুচিং। স্বস্তির নিঃশ্বাস নিতে নিতেই বিরতিতে যায় বাংলাদেশে।

বিরতির পর খেলা শুরুর তিন মিনিটের মাথায় নিজ দ্বিতীয় ও দলের পঞ্চম গোলটি করেন কৃষ্ণা। একক প্রচেষ্টায় দ্জুন মার্কারকে কাটিয়ে বক্সের বাইরে থেকে তিনি নেন বাম পায়ের শট। হঠাৎ বাঁক খেয়ে বল আছড়ে পড়ে দূরের জালে। অসহায় দর্শক ছিলেন কিরগিজ গোলরক্ষক।

৬৭ মিনিটে টুর্নামেন্টে প্রথম পেনাল্টি পায় বাংলাদেশ। মাথা ঠাণ্ডা রেখে আদেলিনার বাম হাতের পোস্টে বল প্রবেশ করান ডিফেন্ডার শামসুন্নাহার। ৭৫ মিনিটে ৩৫ গজ দূর থেকে রংধনু ফ্রি-কিকে সপ্তম গোলটি করেন ডিফেন্ডার নার্গিস খাতুন। পেনাল্টি আর ফ্রি-কিকে দুটি গোল করে আগের ম্যাচে সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে ৬-০ গোলে জয়ের ব্যবধান টপকে যায় বাংলাদেশ। ৮০ মিনিটে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন অধিনায়ক কৃষ্ণা রানী। ৮-০ গোলের অগ্রগামীতা নেয় বাংলাদেশ। ৮৪ মিনিটে মারিয়া মান্ডা নবম ও ৮৭ মিনিটে শামসুন্নাহার করেন দশম গোলটি।

ইন্টারে গেলেন অলিম্পিকে সোনাজয়ী ব্রাজিলের ‘গাবিগোল’

গ্যাব্রেইল বারবোসা। ডাক নাম ‘গাবিগোল’। ২০০৪ সাল থেকে সান্তোসের যুবদলের হয়ে খেলেছেন। ক্লাবটির সিনিয়র দলে জায়গা পেয়েছেন ২০১৩ সালে। বলতে গেলে নেইমারের বিদায়ের পর ক্লাবটির প্রাণভোমরায় পরিণত হন তিনি। এবার সান্তোস ছেড়ে ইন্টার মিলানে পাড়ি জমালেন রিও অলিম্পিক ফুটবলে সোনাজয়ী ব্রাজিলের ‘গাবিগোল’।

ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত অলিম্পিক আসরে ব্রাজিলের আক্রমণভাগে দারুণ সফল ছিলেন বারবোসা। নেইমার-জেসুসের সঙ্গে জুটি বেঁধে নিজ দেশকে প্রথমবারের মতো সোনা জিতিছেন তিনি। তাই ২০ বছর বয়সী স্ট্রাইকারকে পাখির চোখ করেছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও চেলসি! আলোচনায় ছিল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন লেস্টার সিটিও।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের তিনটি ক্লাবকে হতাশ করে ইতালিয়ান জায়ান্ট ইন্টার মিলানে নাম লেখান গ্যাব্রেইল বারবোসা। আগামী ৫ বছরের জন্য ইন্টারের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ব্রাজিলিয়ান সেনসেশন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সান্তোসের প্রেসিডেন্ট মদেস্তো রোমা।

প্রসঙ্গত, ব্রাজিলের ক্লাব সান্তোসের হয়ে চার মৌসুম খেলেছেন বারবোসা। এর মধ্যে ৫৬টি গোলও করেছেন তিনি। ক্লাবটির হয়ে জিতেছেন দুটি লিগ চ্যাম্পিয়নশিপও।

বার্সা গোলরক্ষকের নতুন রেকর্ড

শিরোপা ধরে রাখার মিশনে লা লিগার দ্বিতীয় ম্যাচে অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে জয় পেয়েছে বার্সেলোনা। আর এ ম্যাচে গোলরক্ষক হিসেবে ৫১টি পাস দিয়ে ১০ বছর আগের রেকর্ড ভেঙ্গে নতুন রেকর্ড গড়েছেন বার্সেলোনার গোলরক্ষক মার্ক-আন্দ্রে টার স্টেগেন।

মার্ক-আন্দ্রে টার স্টেগেনের ৫১ পাসের ৮২.৩ শতাংশ ছিল সঠিক পাস। আগের রেকর্ডটি ছিল বার্সার সাবেক গোলরক্ষক ভিক্টর ভালদেসের।

অথচ গত দুই বছরের ক্যারিয়ারে ব্রাভোর জন্য লা লিগায় ম্যাচই খেলতে পারতেন না টার স্টেগেন। এদিন বার্সার ক্যারিয়ারের অষ্টম লিগ ম্যাচ খেলেন। আর চলতি মৌসুমে প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেই স্টেগেন বুঝিয়ে দিলেন বার্সার গোল বারের দায়িত্ব সামলাতে তিনি প্রস্তুত।

৬ বছর পর শুরু ডিআরইউ মিডিয়া কাপ ফুটবল

দীর্ঘ ৬ বছর পর আবার শুরু হলো ডিআরইউ মিডিয়া কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০১৬। এবারের আসরের পৃষ্ঠপোষক ওয়ালটন গ্রুপ। আজ (রোববার) সকাল ১০টায় শহীদ (ক্যাপ্টেন) এম. মনসুর আলী জাতীয় হ্যান্ডবল স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান এমপি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পৃষ্ঠাপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের বিভাগীয় প্রধান এফ.এম. ইকবাল-বিন আনোয়ার ডন (স্পোর্টস এন্ড ওয়েলফেয়ার, ওয়ালটন গ্রুপ)। ডিআরইউ সভাপতি জামাল উদ্দীনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদের উপস্থাপনা করেন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ডিআরইউ’র অর্থ সম্পাদক কামরুজ্জামান কাজল, যুগ্ম সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ জামাল, দপ্তর সম্পাদক মেহ্দী আজাদ মাসুম, কল্যাণ সম্পাদক মোহাম্মদ জিলানী মিলটন ও টুর্নামেন্ট কমিটির সদস্য সচিব আমিনুল হক মল্লিক, কাজী শহীদ ও সাহাব উদ্দীন সাহাব।

উদ্বোধনী দিনে সাতটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম ম্যাচে রেডিও টুডে ২-০ গোলে দ্য রিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকমকে পরাজিত করে। ম্যাচ সেরা হয়েছেন রেডিও টুডের আবদুল্লা শাফি। দ্বিতীয় ম্যাচে যমুনা টিভি টাইব্রেকারে ৭-৬ গোলে চ্যানেল আইকে পরাজিত করে। বিজয়ী দলের রাহাত মিনহাজ ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হয়েছেন।

তৃতীয় ম্যাচে টাইব্রেকারে সমকাল ৪-৩ গোলে ইউএনবিকে পরাজিত করে। ম্যাচ সেরা হয়েছেন সমকালের শরিফুল ইসলাম। চতুর্থ ম্যাচে দৈনিক জনকন্ঠ ১-০ গোলে দৈনিক নয়া দিগন্তকে পরাজিত করে। ম্যাচ সেরা হয়েছেন জনকন্ঠের অতিথি খেলোয়াড় মাহমুদুন্নবী চঞ্চল।

পঞ্চম ম্যাচে বাসস ১-০ গোলে কালেরকন্ঠকে পারাজিত করে। ম্যাচ সেরা হয়েছেন বিজয়ী দলের মলয় দত্ত। পরের ম্যাচে জিটিভি ২-১ গোলে বৈশাখী টিভিকে হারায়। ম্যাচ সেরা হয়েছেন জিটিভির সাইফুল ইসলাম।

দিনের শেষ ম্যাচে আরটিভি ১-০ গোলের ব্যবধানে আমাদেও সময়কে হারিয়েছে। ম্যান অব দ্য ম্যাচ বিজয়ী হন বিজয়ী দলের রাজিব খান। দৈনিক ইত্তেফাক ও অবজারভার দল নির্ধারিত সংখ্যক খেলোয়াড় নিয়ে মাঠে না নামায় এটিএন নিউজ ও বিডিনিউজ ২৪ ওয়াকওভার লাভ করে।

রিয়ালের কষ্টার্জিত জয়

স্প্যানিশ লা লিগায় ঘরের মাঠে কষ্টার্জিত জয় পেয়েছে শিরোপা প্রত্যাশী রিয়াল মাদ্রিদ। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে ২-১ গোলে জয় পেয়েছে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা।

ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ম্যাচের শুরু থেকেই সেল্টা ভিগোর রক্ষণে চাপ তৈরি করে রিয়াল। কিন্তু প্রথমার্ধে নিশ্চিত কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি রোনালদো-বেনজামাহীন স্বাগতিকরা। ম্যাচের ২৯ মিনিটে প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে চেষ্টা করেছিলেন শুরুর একাদশে ফেরা লুকা মদ্রিচ; কিন্তু তার জোরালো শট পোস্টে লাগে। ফলে গোল শূন্য অবস্থায় বিরতিতে যায় দুই দল।

বিরতি থেকে ফিরে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে রিয়াল। এরই ধারাবাহিকতায় ম্যাচের ৬০ মিনিটে গোল করে দলকে লিড এনে দেন আলভারো মোরাতা। তবে, খুব বেশিক্ষণ লিড ধরে রাখতে পারেনি স্বাগতিকরা। ৬৭ মিনিটে সেল্টার হয়ে সমতাসূচক গোল করেন ফ্যাবিয়ান।

ম্যাচের ৮১ মিনিটে লুকাস ভাসকোজের বাড়িয়ে দেওয়া বলে ২০ গজ দূর থেকে নেওয়া শটে গোল করে রিয়ালকে উদ্ধার করেন টনি ক্রুস। বাকি সময় আর গোল না হলে জয়ের স্বাদ নিয়েই মাঠ ছাড়ে গত মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ীরা।

শেষ সময়ের গোলে ম্যান ইউয়ের জয়

লেস্টার সিটিকে হারিয়ে চমক দেখানো হাল সিটি নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকেও আটকে দিতে বসেছিল। তবে দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময় রাশফোর্ডের গোলে লিগের তৃতীয় জয় পেয়েছে হোসে মরিনহোর দল।

প্রতিপক্ষের মাঠে ম্যাচের শুরু থেকেই আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে ওয়েইন রুনি, জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচরা। ম্যাচের ৩৭ মিনিটে বক্সের জটলার মধ্যে রুনির নেওয়া শট প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডার ডেভিসের হাতে লাগে। ইউনাইটেডের পেনাল্টির আবেদনে সাড়া দেননি রেফারি। আর প্রথমার্ধের শেষ দিকে রুনির ফ্রি-কিক থেকে পাওয়া বলে ব্যাক হিলে বাইরের জাল কাঁপায় ইব্রাহিমোভিচ। ফলে গোল শূন্য অবস্থায় বিরতিতে যায় দুই দল।

বিরতি থেকে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে ম্যান ইউ। ম্যাচের ৬৫ মিনিটে ইব্রাহিমোভিচের নিখুঁত ফ্লিকে বিপজ্জনক জায়গায় মাতা বল পাওয়ার আগেই অফসাইডের পতাকা তোলেন সহকারী রেফারি। এদিকে ম্যাচের ৭৬ মিনিটে এগিয়ে যেতে বসেছিল হাল সিটি। টম হাডলস্টোনের দূরপাল্লার শট ইউনাইটেডের এরিক বেইলির গায়ে লেগে দিক বদলে অল্পের জন্য পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়।

ম্যাচের শেষ দিকে পগবার নেওয়ার বাঁকানো শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট এবং হেনরিক মাখিতারিয়ানের দূরপাল্লার শট গ্লাভসবন্দি হলে ইউনাইটেডের হতাশা বাড়ে। তবে যোগ করা সময়ে ইউনাইটেড সমর্থকদের মুখে হাসি ফোটান ইংলিশ ফরোয়ার্ড রাশফোর্ড। রুনির বাড়ানো বলে প্লেসিং শটে গোল করে দলকে জয়ের আনন্দে ভাসান এই তারকা।

টানা তিন জয়ে ৯ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইউনাইটেড। সমান ম্যাচে সমান পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বার্নলিকে নিজেদের মাঠে ৩-০ গোলে হারানো চেলসি।

তৃতীয় ম্যাচে এসে জয় পেল লেস্টার-আর্সেনাল

প্রথম দুই ম্যাচে জয়শূন্য থাকার পর তৃতীয় ম্যাচে এসে জয়ে দেখা পেয়েছে লেস্টার সিটি ও আর্সেনাল। জেমি ভার্ডি ও ওয়েস মরগানের গোলে সোয়ানসি সিটিকে ২-১ ব্যবধানে হারিয়েছে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। আর ওয়াটফোর্ডের মাঠ থেকে ৩-১ গোলের জয় নিয়ে ফিরেছে গতবারের রানার্সআপরা।

প্রথম দুই ম্যাচে ছন্দহীন লেস্টার ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক হয়ে খেলতে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় ম্যাচের ৩২ মিনিটে চলতি মৌসুমে নিজের প্রথম গোল করে দলকে লিড এনে দেন জেমি ভার্ডি। বিরতির ঠিক আগে ব্যবধান দ্বিগুণ হতে পারতো; তবে জাপানের ফরোয়ার্ড শিনজি ওকাজাকির বিদুৎ গতির শট কোনোমতে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান সোয়ানসি গোলরক্ষক। ফলে ১-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় লেস্টার।

arsenal

বিরতি থেকে ফিরে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ওয়েস মরগান। কর্নার থেকে উড়ে আসা বল ছয় গজ বক্সের বাইরে জটলার মধ্যে পেয়ে জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করেন লেস্টার অধিনায়ক। ম্যাচের ৫৬ মিনিটে গোলের সহজ সুযোগ নষ্ট করে লেস্টার তারকা রিয়াদ মাহরেজ। পেনাল্টি থেকে নেওয়া তার দুর্বল স্পটকিক অনায়াসেই ধরে ফেলেন পোলিশ গোলরক্ষক লুকাস ফাবিয়ান্সকি।

উল্টো ম্যাচের ৭৯তম মিনিটে ব্যবধান কমায় সোয়ানসি। ছয় গজের বক্সের ঠিক বাইরে থেকে হেডে বদলি গোলরক্ষক রন-রবের্ট জিলারকে পরাস্ত করেন ডাচ মিডফিল্ডার লেরোয় ফের। বাকি সময় আর কোন গোল না হলে স্বস্তির জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে গত বারের চ্যাম্পিয়নরা।

এদিকে দিনের অপর ম্যাচে কাজোলা, আলেক্সিস সানচেজ ও মেসুত ওজিলের দেওয়া গোলে ওয়াটফোর্ডকে ৩-১ হারিয়ে জয়ে ফিরেছে আর্সেনাল।

ইরানকে হারিয়ে দিল বাংলাদেশের মেয়েরা

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বে গ্রুপ সি-এর খেলায় স্বপ্নের সূচনা পেয়েছে বাংলাদেশ। আজ শনিবার সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত খেলায় তারা এশিয়ান পাওয়ার হাউজ ইরানকে ৩-০ গোলে পরাজিত করেছে।

এই ম্যাচে আগা-গোড়াই আধিপত্য ছিল বাংলাদেশের মেয়েদের। তিনটি গোল তারা করেছে তবে নষ্ট করেছে আরও তিনটি গোলের সুযোগ। পুরো ম্যাচে বলার মতো কোনও আক্রমণ করতে পারেনি ইরান। বারবারই তাদের প্রচেষ্টা ব্যর্থ করেছে রক্ষণভাগ। তবে খেলার তৃতীয় মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারতো বাংলাদেশ, মাঝমাঠ থেকে দ্রুতগতিতে বল নিয়ে ইরান রক্ষণভাগে ঢুকে পড়েছিলেন মিডফিল্ডার মৌসুমি জাহান। তার শট ডিফেন্স ওয়ালে লেগে এসে পড়ে ফরোয়ার্ড সিরাত জাহার স্বপ্নার পায়ে। আগুয়ান ইরানি গোলরক্ষক মায়েদেহ দাভাজিকে কাটিয়ে নিয়েও স্বপ্না বল মারেন বাইরের জালে।

চাপ অব্যাহত রেখে সাত মিনিটে বক্সের কানায় একটি ফ্রি-কিক আদায় করে নেয় বাংলাদেশ। ফ্রি-কিকটি নিয়েছিলেন মিডফিল্ডার মারিয়া মান্ডা। ওয়ালে লেগে বল ফেরত আসলে তাতে ডান পায়ের শট নিয়েছিলেন আরেক মিডফিল্ডার মারজিয়া। বল ক্রসপিসে আঘাত করে খেলায় ফিরে আসে।

ইরান প্রথমার্ধে সারাক্ষণই চাপের মুখে ছিল, কাউন্টার অ্যাটাক নির্ভর খেলা খেলে তারা বার কয়েক ঢুঁ মেরেছিল। উল্টো দিকে পাল্টা আক্রমণ করে ৪৭ মিনিটে আবারও গোলের কাছাকাছি এসেছিল বাংলাদেশ। সানজিদা আকতারের কর্নার ক্লিয়ার হওয়ার পর বক্সের মাঝে বল পেয়ে গিয়েছিলেন মারিয়া মান্ডা। নিয়েছিলেন প্রচণ্ড জোরে ডান পায়ের শট, দুর্দান্ত এক সেভ করেন ইরানি গোলরক্ষক মায়েদেহ। ফলে গোল বঞ্চিত হয় বাংলাদেশ।

অবশেষে ৬৩ মিনিটে গোলের দেখা পায় বাংলাদেশ, সানজিদা খাতুনের করা কর্নার ক্লিয়ার করেছিল ইরানি ডিফেন্স। মাঝমাঠ থেকে বল আবারও ইরানি ডিফেন্সে এসে পড়লে তাতে ভলি শট নেন মারিয়া মান্ডা। জায়েদেহ বল ফেরালেও রিবাউন্ডে প্লেসিং শটে বল জালে জড়িয়ে দেন মিডফিল্ডার মারজিয়া।

বাংলাদেশের জয় অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে যায় ৬৬ মিনিটে। স্বপ্নার করা ক্রস বক্সের ডানপ্রান্তে নিয়ন্ত্রণে নেন সানজিদা, কোনাকুনি দৌড়ে এগিয়ে আসা মৌসুমির সামনে ফেলেন বল। মাপা প্লেসিং শটে দূরের পোস্টে বল পাঠিয়ে দেন মৌসুমি।

৮৬ মিনিটে তৃতীয় গোলটি করেন ফরোয়ার্ড তহুরা খাতুন। মণিকা চাকমার ক্রসে হেড করে জায়েদেহকে পরাস্ত করে দলের জয় নিশ্চিত করেন তিনি।

এ জয় বাংলাদেশকে গ্রুপ চ্যাম্পিয়নশিপ অর্জনের পথে অনেকটাই এগিয়ে দেবে কারণ ইরান গ্রুপের ফেভারিট দলের একটি।

রোনালদোকে বাদ দিয়ে পর্তুগাল দল ঘোষণা

চোট কাটিয়ে পুরোপুরি ফিট না হওয়ায় দলের সেরা তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে ছাড়াই দল ঘোষণা করেছে পর্তুগাল কোচ ফার্নান্দো সান্তোস। রোনালদো ছাড়াও চোট সমস্যার কারণে দলে নেই মিডফিল্ডার ভিয়েইরিনিয়া। এছারা বাদ পড়েছেন ডিফেন্ডার রিকার্দো কারভালিও।

আর প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন ভালেন্সিয়ার ডিফেন্ডার জোয়াও কানসেলো ও পোর্তোর ফরোয়ার্ড আন্দ্রে সিলভা। আর দলে ফিরেছেন মোনাকোর মিডফিল্ডার বের্নার্দো সিলভা।

আগামী বৃহস্পতিবার জিব্রাল্টারের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলবে পর্তুগাল। আর ৬ সেপ্টেম্বর রাশিয়া বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বর্তমান ইউরোপ চ্যাম্পিয়নরা মাঠে নামবে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে।

উল্লেখ্য, গত ১০ জুলাই ফ্রান্সের বিপক্ষে ইউরোর ফাইনালে হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন। এরপর থেকেই মাঠের বাইরে তিনি।

ইন্টার মিলানে ব্রাজিলের গাব্রিয়েল

কিছু দিন ধরেই বার্সেলোনা বা ইংল্যান্ডের কোনো ক্লাবে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে খবর আসছিল ব্রাজিলের `গাবিগোল` খ্যাত গাব্রিয়েল বারবোসা। তবে সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে ইন্টার মিলানে যোগ দিচ্ছেন ব্রাজিলের ১৯ বছর বয়সী উঠতি এই তারকা। এদিকে পর্তুগালের মিডফিল্ডার জোয়াও মারিওকেও কিনতে যাচ্ছে ইতালির অন্যতম সফল ক্লাবটি।

এ প্রসঙ্গে ইন্টার টুইটারে লিখেছে, `গাব্রিয়েল ইতোমধ্যে মিলানে পৌঁছেছে। জোয়াও মারিও পথে আছে। ইতালি গণমাধ্যমের খবর, এই দুই জনকে কিনতে ইন্টারের ৭ কোটি ইউরোর বেশি খরচ হবে।`

উল্লেখ্য, সম্প্রতি শেষ হওয়া রিও অলিম্পিকে ফুটবলে ব্রাজিলের সোনা জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল গাব্রিয়েল বারবোসার।

শনিবার শুরু হচ্ছে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ

শনিবার বেলা ১১ টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে চাইনিজ তাইপি বনাম কিরগিজস্তানের ম্যাচ দিয়ে শুরু হচ্ছে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই পর্বের গ্রুপ সি-এর খেলা। আগামী ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিতব্য এ প্রতিযোগিতার অন্যান্য দলগুলো হলো- ইরান, সিংগাপুর, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও আয়োজক বাংলাদেশ।
উদ্বোধনী দিনসহ পাঁচটি ম্যাচ ডে’র প্রতিদিনই রয়েছে তিনটি করে ম্যাচ। বিকাল তিনটা ও সন্ধ্যা ছয়টায় মাঠে গড়াবে অন্য ম্যাচ দুটি।
আজ দুপুর তিনটায় খেলবে আমিরাত ও সিংগাপুর এবং সন্ধ্যা ছয়টায় মাঠে নামবে বাংলাদেশ ও ইরান।
শুক্রবার বাফুফে ভবনে অনুষ্ঠিত হয়েছে প্রতিযোগিতার প্রি-টুর্নামেন্ট সংবাদ সম্মেলন। বাংলাদেশ, তাইপি ও ইরানের মাঝেই সীমাবদ্ধ থাকবে গ্রুপের শীর্ষস্থান অর্জনের লড়াই। আমিরাত, সিংগাপুর ও কিরগিজস্তানের ল্য লড়াই করা ও অভিজ্ঞতা অর্জন।
এশিয়ার ফুটবলে অন্যতম পাওয়ার হাউজ ইরান, যেখানে পিছিয়ে নেই তাদের মেয়েরাও। কোচ শাদি মাহিনি সরাসরিই বললেন, ‘আমরা এর আগে গতবছর ঢাকায় এসে শিরোপা জয় করেছি। এবারও আমাদের ল্য শিরোপা জয় তবে সহজ হবে না সে কাজটি। বাংলাদেশ নিজ মাঠে কঠিন প্রতিপ, রয়েছে তাইপেও। তবে আমরা আমাদের সেরা নৈপুণ্য দিয়েই গ্রুপের শীর্ষস্থান অর্জন করতে চাই।’
চাইনিজ তাইপের হেড কোচ কাও সাই হু দৃঢ়প্রত্যয়ী তার দল নিয়ে। তিনি বলেন, ‘গ্রুপের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করে আগামী বছর থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য চূড়ান্ত পর্বে যাওয়ার জন্যই আমরা এখানে এসেছি। এজন্য আমরা নিয়েছি ছয় মাসের প্রস্তুতি, আমরা ঢাকায় আসার আগে কয়েকটি জাপানি মহিলা দলের সঙ্গে খেলেছি বেশ কটি প্রস্তুতি ম্যাচ। সে ম্যাচগুলোতে আমাদের পারফরম্যান্স সন্তোষজনক ছিল। আমরা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য লড়বো।’
U-19-woman-football--1
সিংগাপুরের দলটি অপোকৃত নবীন। তাদের কোচ চেন সাই য়িং বলেন, ‘আমরা মূলত ভবিষ্যতের দল গঠনের জন্য অভিজ্ঞতা অর্জন করতে এসেছি। এখানে অন্যান্য দলগুলোর সঙ্গে খেলে আমার মেয়েরা অনেক কিছু শিখবে । তাই বলে কোনও দলকে আমরা ছেড়ে কথা বলবো না।’
সংযুক্ত আরব আমিরাতের হেড কোচ আজাম ঘোটাকের দুঃখ তার দল পর্যাপ্ত প্রস্তুতি নিতে পারেনি। নাহলে তারাই হতো শিরোপার অন্যতম দাবিদার। এমন প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘আমরা মাত্র দুই সপ্তাহের প্রস্তুতি নিয়ে বাংলাদেশে এসেছি। আমরা গত বছর জর্ডানে জিতেছিলাম অনূর্ধ্ব-১৪ রিজিওনাল চ্যাম্পিয়নশিপ। সে দলের বেশ কিছু খেলোয়াড় রয়েছে এই দলে। আমিরাতে এখন ফুটবল মৌসুম নেই, তাছাড়া মেয়েদের স্কুলে ছিল পরীা, তবে আমার দল টেকনিকালি ভালো। হয়তো শারীরিকভাবে অন্যান্য দলের চেয়ে কিছুটা পিছিয়ে তবে আমরা লড়াই করতে প্রস্তুত।’
কিরগিজস্তানের কোচ সেতলানা পোকাচালোভার দৃষ্টি গ্রুপ চ্যাম্পিয়নশিপের ওপর। তার ভাষায়, ‘তিন মাসের প্রস্তুতি নিয়ে আমরা বাছাই পর্বে খেলতে এসেছি। আমরা আমাদের ল্য নির্ধারণ করেছি এবং তা অর্জনে আমরা লড়াই করতে প্রস্তুত। গ্রুপটি সহজ নয় তবে কিরগিজস্তান তাদের সামর্থ্যের ১০০ ভাগ দিয়েই শিরোপা জিততে প্রস্তুত।’

মেসির অবসর ছিল সাজানো নাটক: ম্যারাডোনা

শতবর্ষী কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির কাছে হেরে যায় আর্জেন্টিনা। টানা তিনবার ফাইনালের হার মেনে নিতে পারেননি লিওনেল মেসি। তাই জাতীয় দলের জার্সি তুলে রাখার ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু দিয়েগো ম্যারাডোনা দাবি করছেন, মেসির অবসরের ব্যাপারটা ছিল সাজানো নাটক। আর্জেন্টাইনদের ক্ষোভ ও হতাশা ভুলে যেতেই এ কাজটি করেছিলেন বার্সেলোনা ফরায়ার্ড!

জেরার্ডো মার্টিনোর বিদায়ের পর আর্জেন্টিনার কোচের দায়িত্ব পান এদয়ার্দো বাউজা। এই দায়িত্ব নেয়ার পরই মেসিকে ফেরাতে ব্যস্ত হয়ে যান তিনি। এর জন্য খুব বেশি সময় লাগেনি বাউজার। বার্সেলোনায় মেসির সঙ্গে আলোচনা করতেই সিদ্ধান্ত বদল! ফের জাতীয় দলের জার্সি গায়ে জড়াতে রাজি হয়ে যান আর্জেন্টিনার সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা।

১৯৮৬ সালে বিশ্বকাপের নায়ক ম্যারাডোনা বলেন, ‘জানি না আমাদের টানা তিনটি ফাইনালের দুঃস্মৃতি থেকে নজর এড়াতে মেসি নাটক সাজিয়েছিল কি না। সে প্রথমে বলল আন্তর্জাতিক ফুটবল ছেড়ে দিয়েছে। পরে তাকে ফেরানোর উদ্যোগ নেয়া হলো। যেন সপ্তাহান্তে মনে পরিবর্তন এসে গেলো!’

ম্যারাডোনা ভেবেছিলেন, মেসি তার সিদ্ধান্তে অটল থাকবেন। কিন্তু ছিয়াশির মহানায়কের ভাবনাকে ভুল প্রমাণ করে আর্জেন্টিনার জাতীয় দলে ফিরলেন ২৯ বছর বয়সী বার্সা তারকা। যা বিস্মিত করেছে ম্যারাডোনাকে! বলেন, ‘আমি ভেবেছিলাম, মেসি হয়তো ‘না’ বলবে। সেটা হয়নি। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে জড়াতে রাজি হয়ে গেছে মেসি। আমি হয়তো ভুলের ঘোরেই ছিলাম।’

বড় জয়ে তৃতীয় রাউন্ডে লিভারপুল

বড় জয় দিয়েই লিগ কাপের তৃতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করেছে লিভারপুল। মঙ্গলবার লিগ কাপের লড়াইয়ে বার্টন এলবিয়নকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ইয়ুর্গেন ক্লুপের শিষ্যরা।

এলবিয়নের মাঠ পিরেল্লি স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমনাত্মক খেলেছে লিভারপুল। এরই ধারাবাহিকতায় ম্যাচের ১৫ মিনিটে গোল করে দলকে লিড এনে দেন ওরিগি। এর সাত মিনিট পর নাথানিয়েল ক্রাইনেসের ক্রস থেকে লিভারপুলকে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন রবার্তো ফিরমিনহো। ফলে ২-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় অলরেডরা।

বিরতি থেকে ফিরে আক্রমণের ধার বাড়িয়ে দেয় লিভারপুল। ম্যাচের ৬১ মিনিটে টিম নায়লরের আত্মঘাতি গোলে ৩-০ ব্যবধানে আরও পিছিয়ে পড়ে এলবিয়ন। এরপর পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে ড্যানিয়েল স্টুরিজের দুই গোলে আরও উচ্চতায় পৌঁছে যায় অলরেডসরা। বাকি সময় আর গোল না হলে ৫-০ ব্যবধানের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে লিভারপুল।

মেসিকে নিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করতে চায় নিওয়েল’স ওল্ড বয়েজ

১৯৯৪ সালে রোজারিও ভিত্তিক ক্লাব নিওয়েল’স ওল্ড বয়েজে নাম লেখান লিওনেল মেসি। এরপর চার বছরের মধ্যে মাত্র একটি ম্যাচ হেরেছিল ক্লাবটি। স্থানীয়ভাবে “দ্য মেশিন অফ ‘৮৭” নামে পরিচিত হয়ে উঠেছিল নিওয়েল’স। তাদেরকে এই নামে অভিহিত করার কারণ ছিল মেসির জন্ম সাল, ১৯৮৭।

১১ বছর বয়সে মেসির গ্রোথ হরমোনের সমস্যা ধরা পড়ে। এ চিকিৎসার জন্য প্রতি মাসে প্রয়োজন ছিল ৯০০ মার্কিন ডলার। যা স্থানীয় কোনো ক্লাব বহন করতে রাজি হয়নি। বার্সেলোনা সুযোগটা কাজে লাগায়। মেসির চিকিৎসার সমস্ত ব্যয়ভার বহন করতে রাজি হয় কাতালানরা। তাই নিওয়েল’স ছেড়ে বার্সায় পাড়ি জমান মেসি। এরপর বার্সার হয়ে যা করলেন, তা তো ইতিহাসই।

এদিকে, মেসিকে নিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করতে চায় নিওয়েল’স ওল্ড বয়েজও। ঘরের ছেলেকে ফিরে পেতে মরিয়া তারা। অন্তত অবসর নেয়ার আগে হলেও ২৯ বছর বয়সী আর্জেন্টাইন অধিনায়ককে দলে চাইছে নিওয়েল’স। ক্লাবটির সহসভাপতি ক্রিশ্চিয়ান ডি’অ্যামিকো বলেন, ‘আমি এবং ক্লাবের নেতৃবৃন্দ মেসির সঙ্গে আলোচনা করছি। একটি ক্লাব হিসেবে আমরা ইতিহাস সৃষ্টি করতে পারবো, যদি আমরা বিশ্বসেরা ফুটবলারকে (মেসি) ফের নিওয়েল’সের জার্সি পরাতে পারি।’

ফোরফোরটুকে নিওয়েল’সের এই কর্তা আরো বলেন, ‘মেসিকে সেই জার্সি পরাতে আমরা মুখিয়ে রয়েছি। মনে করেন, কোলোসোতে (নিওয়েল’সের ঘরের মাঠ) একটি ম্যাচে মেসি খেলছে। তার মানে গোটা বিশ্বের চোখ থাকবে এখানে। যা সংবাদ হবে ফুটবল দুনিয়ায়। স্পন্সররা আগ্রহ দেখাবে। ক্লাবের অর্থনীতিতে পরিবর্তন আসবে। ক্লাবের ভাবমূর্তি বাড়বে।’

২০২১ পর্যন্ত রিয়ালে থাকছেন গ্যারেথ বেল

বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার হিসেবে ২০১৩ সালে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দিয়েছিলেন গ্যারেথ বেল। চুক্তি ছিল পাঁচ বছরের। ২০১৮ সালেই সেই চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ার কথা। তবে, ক্লাবের হয়ে যে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স প্রদর্শণ করছেন এই ওয়েলসম্যান, তাতে তাকে খুব সহজে যে লজ ব্লাঙ্কোজরা ছেড়ে দেবে, তা বোঝাই যাচ্ছিল। অবশেষে সেটাই সত্যি প্রমাণিত হলো। বেলের সঙ্গে চুক্তি আরও পাঁচ বছর বাড়িয়ে নিয়েছে লজ ব্লাঙ্কোজরা।

২০২১ সাল পর্যন্ত রিয়ার মাদ্রিদেই থাকছেন বেল। স্প্যানিশ পত্রিকা মার্কা এ খবর নিশ্চিত করেছে। গত মৌসুমের পর কিছুদিন আগে শেষ হওয়া ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের পর রিয়াল মাদ্রিদ তার ব্যাপারে নতুন কোন সিদ্ধান্ত নেবে সেটা অনুমেয়ই ছিল। অবশেষে এই চুক্তি প্রমাণ করলো, তারকা ফুটবলারদের ছাড়ছে না রিয়াল। আগামী সেপ্টেম্বরেই ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে নতুন চুক্তি স্বাক্ষর হবে বলেও শোনা যাচ্ছে।

নতুন চুক্তিতে বেলের পারিশ্রমিকও বৃদ্ধি পেয়েছে। মার্কা জানিয়েছে, বেলের বাৎসরিক পারিশ্রমিক ১০ মিলিয়ন ইউরোয় গিয়ে দাঁড়িয়েছে। যা, ক্লাব অধিনায়ক সার্জিও রামোসের সমান এবং শুধুমাত্র ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর পেছনে।

শুধু বেল-রোনালদোই নন, রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে আরও পাঁচ বছরের চুক্তিতে আবদ্ধ হয়েছেন মার্টিন ওডেগার্ডও। ২০২১ সাল পর্যন্ত এই চুক্তির মেয়াদ।

সোনা জিতে মেসির বেশে নেইমার

যা পারেননি পেলে-রোমারিও-রোনালদো-রোনালদিনহো-কাকারা, তা পেয়েছেন নেইমার। অলম্পিক ফুটবলে ব্রাজিলকে প্রথমবারের মতো সোনা জিতিয়েছেন বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড। সোনা জয়ের পর জাতীয় দলের অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন নেইমার, আর ধরেছেন আইডল লিওনেল মেসির বেশ। দুজনের চুলের স্টাইল এখন একই।

নতুন মৌসুমে সাদা চুল নিয়ে খেলছেন লিওনেল মেসি। ওটা বোধ হয় খুব মনে ধরেছে নেইমারের! তাই কালো চুল নিয়ে অলিম্পিকে খেলা নেইমার আসর শেষ হতেই চুলের রংটা সাদায় পরিণত করে ফেলেছেন। এ ধরনের সাদা চুল নিয়েই বেশির ভাগ সময় ভক্তদের সামনে হাজির হন পপ তারকা জাস্টিন বিবারও।

সাদা চুল নিয়ে ভক্তদের সঙ্গে ছবি তুলে তা নিজের টুইটার পেজে শেয়ার করেছেন নেইমার। বার্সেলোনায় যোগ দেয়ার আগেই মেসির সঙ্গে নিজেকে খাপ খাইয়ে নেয়ার চেষ্টায় মেতে উঠেছেন নেইমার। নইলে কি আর এমন স্টাইল?

অধিনায়কত্ব ছাড়লেন নেইমার

ব্রাজিলিয়ান ফুটবলে চির আক্ষেপ হয়ে থাকা অলিম্পিকের সোনা জিতে অধিনায়কত্ব ছাড়ার কথা বললেন নেইমার। টাইব্রেকারে জার্মানিকে ৫-৪ গোলে জয়ের আনন্দের মধ্যেই ঘোষণা দিলেন, আপাতত কোনো পর্যায়েই ব্রাজিলের অধিনায়কত্ব করবেন না তিনি।

ফাইনালে জয়ের পর একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে নেইমার বলেছেন, `ব্রাজিলের অধিনায়কত্ব আমার জন্য খুব বড় সম্মানের বিষয় হলেও আমি আর এই দায়িত্বে থাকছি না। আর এই বার্তাটা আমি তিতেকে এখনই দিয়ে দিতে চাই। এতে করে তিনি জাতীয় দলের জন্য নতুন একজন অধিনায়ককে খুঁজে নিতে পারবেন।`

এর আগে অলিম্পিক দলের অধিনায়ক হিসেবেও সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে নেইমারকে। প্রথম দুই ম্যাচে ব্রাজিল দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইরাকের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করার পর তাঁর বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় ওঠে। তবে অলিম্পিক ফুটবলে শেষ পর্যন্ত সোনার পদক জিতে নিজের অধিনায়কত্বের মর্যাদা ভালোভাবেই রেখেছেন তিনি। নিজেকেও নিয়ে গেছেন ব্রাজিলিয়ান ফুটবলের অনন্য এক ইতিহাসের অধ্যায়ে।

সোনা জিতেই সমালোচনার জবাব দিলেন নেইমার

সিনিয়র ফুটবলের এমন কোন টুর্নামেন্ট নেই, যেখানে ব্রাজিলের শ্রেষ্ঠত্ব নেই। কিন্তু একটাই দুঃখ তাদের, অলিম্পিক ফুটবলে ছিল না কোন সোনা। সেই আক্ষেপ মেটানোর দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেন নেইমার। ফাইনালে দলকে তুলে দেশকে এনে দিলেন অলিম্পিক ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্ব।

প্রথম দুই ম্যাচে নিজের ছায়া হয়ে থাকায় কতই না সমালোচনা নেইমারের। কিন্তু শেষ গ্রুপ ম্যাচ থেকে ঠিকই ঘুরে দাঁড়াল ব্রাজিল। সেই সঙ্গে নেইমার। ফাইনালে দলকে তুলে দেশকে এনে দিলেন অলিম্পিক ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্ব। সোনার পদক জয়ের আনন্দে নেইমার সব ভুলে গেছেন এমনটা ভাবলে সমালোচকরা ভুল করবেন।

অলিম্পিক ফুটবলের সোনাটা নিশ্চিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই যেন সমালোচকদের সবকিছু মনে করিয়ে দিলেন তিনি। বললেন, ‘এবার নিজেদের থুথু নিজেরাই গেল! ব্রাজিলই অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন! আর এটাকে জীবনের অন্যতম শ্রেষ্ঠ মুহূর্ত হিসেবেও অভিভূত করেন বার্সার এই তারকা।

মেসির জাদুতে বার্সার বড় জয়

বড় জয় দিয়েই নতুন মৌসুম শুরু করলো লা লিগার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। নিজেদের প্রথম ম্যাচে মেসির জোড়া গোলের সঙ্গে সুয়ারেজের হ্যাটট্রিকে রিয়াল বেতিসকে ৬-২ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে লুইস এনরিকের শিষ্যরা।

মৌসুমের প্রথম ম্যাচে নিজেদের মাঠে ন্যু ক্যাম্পে ম্যাচের শুরুতেই এগিয়ে যায় বার্সা। ম্যাচের ৬ মিনিটে গোল করে দলকে লিড এনে দেন আর্দা তুরান। তবে খুব বেশি সময় লিড ধরে রাখতে পারেনি স্বাগতিকরা। ম্যাচের ২১তম মিনিটে জোরাল ফ্রি-কিক থেকে গোল করে সফরকারীদের সমতায় ফেরান রুবেন কাস্ত্রো।

ম্যাচের ৩০ মিনিটে মেসির জোরাল শট ক্রসবারে লাগলে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ নষ্ট হয় স্বাগতিকদের। এর ৭ মিনিট পর ডি-বক্সের বাইরে থেকে বাঁ পায়ের বাঁকানো শটে মৌসুমে নিজের প্রথম গোল করে দলকে লিড এনে দেন মেসি। আর ৪২তম মিনিটে অসাধারণ এক গোলে ব্যবধান বাড়ান সুয়ারেজ। ফলে ৩-১ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় স্বাগতিক শিবির।

messi

বিরতি থেকে আরও অপ্রতিরোধ্য হয়ে ওঠে বার্সা। ম্যাচের ৫৬ মিনিটে মেসির কাছ থেকে বল পেয়ে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন সুয়ারেজ। এর দুই মিনিট পর ডি-বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন মেসি। ম্যাচের ৮১মিনিটে দারুণ এক বাঁকানো শটে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন সুয়ারেজ।আর ৮৪ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলে ব্যবধান কমান কাস্ত্রো।

ম্যাচের শেষ দিকে হ্যাটট্রিকের সুযোগ পেয়েছিল মেসি। তবে প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়ের পায়ে লাগায় গোল পাননি বার্সেলোনার এই তারকা। বাকি সময় আর গোল না হলে বড় জয় দিয়েই মৌসুম শুরু করলো লুইস এনরিকের দল।

ইতিহাস গড়ে অধরা অলিম্পিক ব্রাজিলের

অলিম্পিকের অধরা স্বর্ণ জয়ের মিশনে নামা পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানির বিপক্ষে জিতে ইতিহাস গড়লো। ১২০ মিনিটের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শেষে পেনাল্টি শুটআউটে গড়ানো অলিম্পিক ফাইনালে ৫-৪ ব্যবধানে শিরোপা জিতলো পেলে-রোনালদো-রোনালদিনহো-জিকোদের উত্তরসূরি নেইমারের ব্রাজিল। নিজেদের ফুটবল ইতিহাসে প্রথমবারের মতো অলিম্পিকের শিরোপা জিতলো সেলেকাওরা।

নেইমারের একমাত্র গোলে লিড ধরে রেখে বিরতিতে যায় স্বাগতিক ব্রাজিল। তবে, বিরতির পর ম্যাক্স মায়ের গোল শোধ করলে ম্যাচে ফেরে জার্মানি। নির্ধারিত সময়ে ১-১ গোলের সমতা থাকায় ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। ৩০ মিনিটের অতিরিক্ত সময়ের খেলায় আর কোনো গোল হয়নি। ফলে, টাইব্রেকারে গড়ায় ম্যাচ। আর তাতে ৫-৪ ব্যবধানে জয় নিয়েই অধরা শিরোপা জেতে নেইমার বাহিনী।

রিও ডি জেনেইরোর বিখ্যাত মারাকানা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত আড়াইটায় শুরু হয় হাইভোল্টেজ এই ফাইনালের ম্যাচটি।

প্রথম চারটি পেনাল্টি শটেই গোল করেন দুই দলের ফুটবলাররা। তবে, নিজেদের পঞ্চম শটে বল জালে জড়াতে ব্যর্থ হন জার্মানির নিল পিটারসন। ব্রাজিল গোলরক্ষক উইভারটন তা রুখে দেন। আর নিজেদের পঞ্চম শটটি নেন ব্রাজিলের দলপতি নেইমার। তার পা থেকেই শিরোপা জয়ের গোলটি আসে।

এর আগে ম্যাচের শুরুতে দু’দলই নিজেদের গুছিয়ে খেলতে থাকে। দশম মিনিটে দুর্দান্তভাবে গোলের খাতা খুলতে চেষ্টা করেছিল জার্মানরা। স্বাগতিকদের ডি-বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শট নেন বার্নাডট। ব্রাজিল গোলরক্ষক লাফিয়ে উঠে বাতাসে ভাসানো শটটি রুখতে চেয়েও ব্যর্থ হন। তবে, গোলবারে লেগে বল ফিরে এলে লিড নেওয়া হয়নি জার্মানির।

কানায় কানায় পূর্ণ মারাকানার ব্রাজিল সমর্থকরা নিশ্চুপ হয়ে যায় ২২ মিনিটের মাথায়। নেইমারের নেওয়া কর্নার থেকে ফাঁকায় দাঁড়ানো রেনাতো বল পেলেও তার আলস্য ভঙ্গিতে নেওয়া শটটি গড়িয়ে গোলবারের পাশ দিয়ে চলে যায়। ২৫ মিনিটের মাথায় আরেকটি আক্রমণে যাওয়ার সময় নেইমারকে ফাউল করায় ডি-বক্সের কিছুটা বাইরে থেকে ফ্রি-কিক পায় রজারিও মিকেলের শিষ্যরা। ৩০ গজ দূর থেকে ফ্রি-কিক নেন বার্সার তারকা নেইমার। তার ডানপায়ের দুর্দান্ত কোনাকুনি শট জার্মানির জালে জড়ালে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় ব্রাজিল।

৩০ মিনিটের মাথায় সমতায় ফেরার সুযোগ পেয়েছিল জার্মানি। ব্রাজিল গোলরক্ষক উইভারটন প্রস্তুত না থাকলে মায়েরের নেওয়া সুযোগসন্ধাণী শটটি জালে জড়াতো। ৩৪ মিনিটে আরেকবার সুযোগ আসে হোরস্ট রুবেশের শিষ্যদের। স্পট কিক থেকে উড়ে আসা বলে হেড করেন বেন্ডার। ব্রাজিলের পোস্টে লেগে বল বাইরে চলে যায়।

পর পর দুইবার গোলবঞ্চিত হলেও হতাশ হয়নি জার্মানরা। তবে, গোলও পায়নি তারা। ফলে, ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় নেইমার বাহিনী।

বিরতির পর খেলার ৫৯তম মিনিটে সমতায় ফেরে জার্মানি। জেরেমির দারুণ এক ক্রস থেকে ব্রাজিলের ডি-বক্সে বল পান ম্যাক্স মায়ের। কিছুটা অরক্ষিত মায়ের ডানপায়ের আলতো টোকায় নেইমারদের জালে বল জড়িয়ে দেন। ফলে, ১-১ গোলের সমতায় ম্যাচে ফেরে জার্মানরা।

৭৩ মিনিটে জটলার মধ্যে বল পেয়ে হেড করেন নেইমার। তবে, বল নিজের গ্লাভসবন্দি করতে করতে বেগ পেতে হয়নি জার্মান গোলরক্ষকের। ৭৭ মিনিটে নেইমার দারুণ একটি বল বানিয়ে দেন সতীর্থ লুয়ানকে। বল নিয়ে একেবারে অরক্ষিত জার্মান দূর্গে ঢুকে পড়লেও তার শটটি নিতে একটু দেরিই হয়ে যায়। পিছনে ছুটে আসা জার্মান ডিফেন্ডাররা লুয়ানের পা থেকে বল কেড়ে নিজেদের বিপদমুক্ত করেন। পরের মিনিটে নেইমারের ডানপায়ের আরেকটি কোনাকুনি শট পোস্টের বাইরে দিয়ে চলে যায়।

নির্ধারিত সময়ে আর কোনো গোল না হলে ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে। অতিরিক্ত সময়ের তৃতীয় মিনিটে গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন ব্রাজিলের উঠতি তারকা জিসাস। তবে, শেষ মুহূর্তে বলের নাগাল হারালে হতাশ হতে হয় তাকে।

৯৮তম মিনিটে লুয়ানের একটি প্রচেষ্টা ব্যর্থ হলে হতাশা ঘিরে ধরে ব্রাজিলকে। পরের মিনিটে ব্রানডার্টের ভলি ব্রাজিলের গোলবারের উপর দিয়ে চলে যায়। ১০৬ মিনিটের মাথায় ফিলিপ আন্ডারসন জার্মান গোলরক্ষক হর্নকে ফাঁকি দিতে পারেননি। বাকি সময় আক্রমণ আর পাল্টা-আক্রমণে মারাকানার দর্শকদের মতো বিশ্বফুটবলকে উত্তেজিত করে রাখলেও দুই দল আর কোনো গোলের দেখা পায়নি। ফলে, ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে।

আর টাইব্রেকার নামক ভাগ্য পরীক্ষায় ভাগ্য সহায় হয়নি জার্মানির। পেনাল্টি শুটআউটে ৫-৪ গোলের ব্যবধানে অলিম্পিকের শিরোপা জিতে নেয় নেইমার বাহিনী।

বাংলাদেশের প্রাথমিক দল ঘোষণা

এএফসি এশিয়ান কাপ বাছাই পর্বের প্লে-অফে ভুটানের বিপক্ষে আগামী ৬ সেপ্টেম্বর ও ১০ অক্টোবর মাঠে নামবে বাংলাদেশ। এ দুই ম্যাচকে সামনে রেখে ৩৩ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)।

বাংলাদেশের নতুন কোচ সেইন্টফিনের অধীনে ৯ দিন ক্যাম্প করাবেন ফুটবলাররা। এরপর একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে ৩০ আগস্ট মালদ্বীপ যাবে জাতীয় দল। সেখান থেকে ২ সেপ্টেম্বর দেশে ফিরে ভুটানের বিপক্ষে খেলার চূড়ান্ত প্রস্তুতি নেবে মামুনুলরা।

৩৩ সদস্যের প্রাথমিক দল-

গোলরক্ষক- শহিদুল আলম সোহেল, মো. নেহাল, মাকসুদুর রহমান মোশতাক ও আশরাফুল ইসলাম রানা

ডিফেন্ডার- রায়হান হাসান, নাসিরউদ্দিন চৌধুরী, তপু বর্মণ, ইয়ামিন মুন্না, মামুন মিয়া, আরিফুল ইসলাম, রেজাউল করিম, ওয়ালি ফয়সাল, মনসুর আমিন, আতিকুর রহমান মিশু।

মিডফিল্ডার- প্রাণতোষ কুমার দাস, জাফর ইকবাল, জামাল ভূইয়া, মামুনুল ইসলাম, সোহেল রানা, ইমন মাহমুদ, মো. আবদুল্লাহ, সোহেল রানা, সেন্টু চন্দ্র সেন, এনামুল হক শরিফ।

ফরোয়ার্ড- জুয়েল রানা, রুবেল মিয়া, রুমন হোসেন, নাবিব নেওয়াজ জীবন, দিদারুল আলম, মেহেদি হাসান তপু, আমিনুর রহমান সজিব, শাখাওয়াত হোসেন রনি, মেহবুব হাসান নয়ন।

সোনার লড়াইয়ে জার্মানির মুখোমুখি ব্রাজিল

পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন তারা। সিনিয়র ফুটবলের এমন কোন টুর্নামেন্ট নেই, যেখানে ব্রাজিলের শ্রেষ্ঠত্ব নেই। কোপা আমেরিকা, কনফেডারেশন্স কাপ থেকে শুরু করে সব আসরেই; কিন্তু একটাই দুঃখ তাদের, অলিম্পিক ফুটবলে কোন শিরোপা নেই। বার বার চেষ্টা করেও সেই সোনালি অধ্যায়টা রচনা করতে পারেনি ব্রাজিল।

এবারও সোনার পদকের একেবারে কাছাকাছি চলে এলো সেলেসাওরা। প্রতিপক্ষ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। পারবে কি নেইমাররা। বাংলাদেশ সময় আজ রাত আড়াইটায় মাঠে গড়াবে অলিম্পিক ফুটবলের ফাইনাল ম্যাচটি।

ব্রাজিলের সামনে ডাবল ইতিহাস গড়ার সুযোগ আজ। একটি তো সোনা জয়ের ইতিহাস গড়ার হাতছানি। অন্যটি প্রতিশোধের। দুই বছর আগে নিজেদের মাটিতেই যেভাবে জার্মানদের কাছে ৭-১ গোলের বিশাল ব্যবধানে হেরে গিয়েছিল সাম্বার দেশটি, তাতে বিশাল ক্ষত সৃষ্টি হয়েছে ব্রাজিলিয়ানদের মনে। সেই ক্ষত শুকানোর দারুণ একটি সুযোগ নেইমারদের সামনে। জার্মানিকে হারিয়ে অলিম্পিকের সোনা জয়ের মধ্য দিয়েই নেয়া হবে সেই বিশাল লজ্জার প্রতিশোধ।

ব্রাজিলের অলিম্পিক কোচ রোজারিও মিকালে কিন্তু আপাতত প্রতিশোধের বিষয়টা দুরে ঠেলে রাখলেন। তিনি বললেন, তরুণ দলটি আসলে প্রতিশোধের নেশায় নয়, অলিম্পিকের সোনা জয়ের জন্যই খেলতে নামবে।

মিকালে বলেন, ‘ওটা ছিল বিশ্বকাপ। আর এটা অলিম্পিক। নেইমার তো ওই ম্যাচে খেলেইনি। সুতরাং, এই ম্যাচে কোন প্রতিশোধের স্পৃহা ফুটবলারদের মনে জাগাটা অস্বাভাবিক। এটা হচ্ছে আসলে ভিন্ন ভিন্ন সময়ে ভিন্ন ভিন্ন খেলোয়াড়দের মধ্যে।’

বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে কলম্বিয়ার ফুটবলার জুনিগার হাঁটুর আঘাতে কোমরের হাঁড় ভেঙে মাঠের বাইরে চলে যান নেইমার। যে কারণে বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলতে পারেননি তিনি। তবে, স্বর্ণ জয়ের জন্য দর্শকদের ভুমিকাকে বেশ গুরুত্বপূর্ণ বলে অভিহিত করলেন মিকালে।

সংবাদ সম্মেলনে এসে তিনি বলেন, ‘দর্শকদের সমর্থণও বেশ গুরুত্বপূর্ণ এ ক্ষেত্রে। কারণ, জার্মানরা খুবই শক্তিশালী একটি দল। তাদের সমর্থন আমাদের খুবই প্রয়োজন। সমর্থকরা জানে তারা আসলে কী চায়। তাদের এটাও বুঝতে হবে, ওটা ছিল বিশ্বকাপের ম্যাচ আর এটা হলো অলিম্পিকের ম্যাচ। আমার বিশ্বাস, জার্মানির বিপক্ষে ফাইনালটি হবে একটি গ্রেট ম্যাচ। যেটা আগে কেউ ভাবতেই পারেনি।’

জার্মানিও মানছে, এই ম্যাচটা বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের পূনরাবৃত্তি হবে না। কারণ এটা হলো অলিম্পিকের ফাইনাল। আর ওটা ছিল বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল। দুটোর মধ্যে আকাশ-পাতাল পার্থক্য। কারণ, ওই ম্যাচের খেলোয়াড়দের কেউ নেই এই ম্যাচে। জার্মান কোচ হোস্ট রুবেশ বলেন, ‘এটা অলিম্পিক ফাইনাল ছাড়া আর কিছুই নয়। এখানে ভিন্ন ভিন্ন দল খেলবে। আমরা এখানে এসেছি, আমাদের স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে।’

অধিনায়ক মেসির প্রথম শিরোপা

বার্সার হয়ে ক্যারিয়ারে অসংখ্যা শিরোপা জিতেছেন মেসি। কিন্ত কখনো অধিনায়ক হিসেবে শিরোপা জেতা হয়নি এই তারকার। জাতীয় দলকে টানা ৩ বছর ৩ টি টুনামেন্টের ফাইনালে তুলেছিলেন কিন্ত অধরা ট্রফিটা উচিয়ে ধরতে পারে নি। প্রতিবারই ব্যর্থ। এবার সে আক্ষেপও ঘুচলো মেসির। দুর্ভাগ্যজনক দেশের হয়ে নয় ক্লাবের হয়ে শিরোপা জিতলেন। অধিনায়ক হিসেবে প্রথমবারের মত স্প্যানিশ সুপার কাপের ট্রফি উচিয়ে ধরলেন।

স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালের ২য় লেগে সেভিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়ে মৌসুমের প্রথম শিরোপা ঘরে তুললো বার্সোলোনা। বার্সোলোনা হয়ে এই ম্যাচে ছিলেন না  নিয়মিত অধিনায়ক ইনিয়েস্তা। ইনিয়েস্তা না থাকায় বার্সোলোনার অধিনায়কত্ব করেন লিওনেল মেসি।

উল্লেখ্য, বার্সেলোনার হয়ে এটি মেসির ২৯তম শিরোপা।

ফাইনালে জার্মানিকে পেল ব্রাজিল

অলিম্পিক ফুটবলের (পুরুষ) ফাইনালে ব্রাজিলের সঙ্গী হলো বিশ্বকাপজয়ী জার্মানি। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে নাইজেরিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে জার্মানরা।

এর আগে প্রথম ম্যাচে হন্ডুরাসকে ৬-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনালে ওঠে নেইমারের দল ব্রাজিল।

এই জার্মানির সঙ্গেই ২০১৪ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ৭-১ গোলের বিরাট ব্যবধানে হেরে যায় ব্রাজিল। এবার তাদের প্রতিশোধের পালা। বড়রা না পারলেও পারবেন কি নেইমাররা।

এদিকে অলিম্পিকের ইতিহাসে দ্রুততম গোল করে রেকর্ড গড়েছেন ব্রাজিল অধিনায়ক নেইমার।

হন্ডুরাসকে উড়িয়ে ফাইনালে ব্রাজিল

হন্ডুরাসকে ৬-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়ে এবারের অলিম্পিকের ফাইনাল নিশ্চিত করলো নেইমারের দল ব্রাজিল। নেইমার একাই করেছেন দুই গোল।

বুধবার রাতে মারাকানা স্টেডিয়ামে ম্যাচ শুরুর মাত্র ১৫ সেকেন্ডের মধ্যে গোল করে রেকর্ড গড়েন নেইমার। যা অলিম্পিক ফুটবলে ইতিহাসে সবচেয়ে কম সময়ের গোলের রেকর্ড।

ম্যাচের শুরু আর অতিরিক্ত সময়ে গোল করেন নেইমার। শেষের গোলটি পেনাল্টি থেকে পাওয়া। আরো দুটি গোলেও তার অবদান রয়েছে।

প্রথমার্ধে ৩-০ ব্যবধানে মাঠ ছাড়ে নেইমাররা। দ্বিতীয়ার্ধে আসে আরো তিন গোল। নেইমারের মতো দুই গোল পালমেইরাসের তরুণ উইঙ্গার গ্যাব্রিয়েল জেসুসও। বাকি দুটি গোল করেছেন মারকিনহোস ও লুয়ান।

এদিকে, মেয়েদের ফুটবলে সুইডেনের কাছে টাইব্রেকারে হেরে গেছে ব্রাজিল।

অলিম্পিক ফুটবলে কখনো সোনা জেতেনি ব্রাজিল। এর আগে তিনবার ফাইনালে উঠে তিনবারই পুড়তে হয়েছে স্বপ্নভঙ্গের বেদনায়। সর্বশেষ তো এই গত অলিম্পিকেই। ফেবারিট হয়েও যেখানে ব্রাজিল হেরে গিয়েছিল মেক্সিকোর কাছে।

গাড়ি দুর্ঘটনায় জার্মান কোচের মৃত্যু

রিও অলিম্পিকে জার্মান ক্যানো দলের কোচ স্টেফান হেঞ্জ গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা গেছেন। জার্মান অলিম্পিক দলের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

শুক্রবার সতীর্থের সঙ্গে ঘুরতে যাওয়ার সময় তাদের গাড়িটি রাস্তার পাশের দেয়ালে ধাক্কা খেয়ে ক্রিস্টিয়ান তেমন গুরুতর আহত না হলেও মাথায় আঘাত পান হেঞ্জ। সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে, জরুরি ভিত্তিতে সার্জারিও করানো হয়। অপারেশনের পরও আশানুরূপ উন্নতি না হওয়ায় হেঞ্জকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ২০০৪ অলিম্পিকে রৌপ্যজয়ী ৩৫ বছর বয়সী এই কোচ।

জার্মান অলিম্পিক স্পোর্টস কনফেডারেশনের সভাপতি আলফন্স হোরমান বলেন, `আমরা খুবই মর্মাহত। আমাদের অলিম্পিক দল ঠিক কতটা আঘাত পেয়েছে, সেটা বলে বোঝানোর মতো যথেষ্ট শব্দ আমার কাছে নেই।`

জার্মান দলের প্রধান কর্মকর্তা মাইকেল ভেসপার বলেন, রিওতে আসা দলের সবাই ভেঙে পড়েছে। খেলার জন্য এখানে এসেছিল সবাই; কিন্তু সেটি আজ আর মুখ্য ব্যাপার নয়। হেঞ্জের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই।

দুই পেনাল্টি মিস করেও আগুয়েরোর হ্যাটট্রিক

চ্যাস্পিয়নস লিগের প্লে-অফের প্রথমার্ধে দুটি পেনাল্টি মিস করেও শেষ পর্যন্ত হ্যাটট্রিকের দেখা পেয়েছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড সার্জিও আগুয়েরো। আর এতেই স্টেয়া বুখারেস্টকে ৫-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়েছে গার্দিওয়ালার শিষ্যরা।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মূল পর্বে জায়গা করে নিতে ম্যাচের শুরু থেকে আক্রমণাত্মক হয়ে খেলতে থাকে ম্যানসিটি। এরই ধারাবাহিকতায় খেলার শুরুতেই এগিয়ে যেতে পারতো ম্যানসিটি। কিন্তু ৮ মিনিটে আগুয়েরার নেয়া পেনাল্টি রুখে দেন বুখারেস্টের গোলরক্ষক। তবে ১৩ মিনিটে সে আক্ষেপ ঘুচিয়ে দলকে এগিয়ে দেন ডেভিড সিলভা।

Aguero

এরপর প্রথমার্ধের ২১ মিনিটে আরেকটি পেনাল্টি আগুয়েরা বারের উপর দিয়ে মেরে দর্শকদের হতাশ করেন। তবে প্রথমার্ধের শেষ দিকে তিনি জাল খুঁজে পান। ফলে দুই শূন্য গোলে এগিয়ে বিরতিতে যায় ম্যানসিটি।

বিরতি থেকে ফিরেই ব্যবধান ৩-০ করে ফেলেন নোলিতো। এরপর শুধুই আগুয়েরা শো। ৭৮ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন তিনি। এরপর ৮৯ মিনিটে বুখারেস্টরে কপালে শেষ পেরেক ঠুকে নিজের হ্যাটট্রিক তুলে নেন আগুয়েরা। ফলে বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে সিটিজেনরা।

নেইমার জাদুতে সেমিফাইনালে ব্রাজিল

ঘরের মাঠের অলিম্পিক ফুটবলের অধরা সোনা জয়ের লক্ষ্যে ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছে নেইমারের ব্রাজিল। সাও পাওলোর অ্যারিনা করিন্থিয়ান্স স্টেডিয়ামে কোয়ার্টার ফাইনালে কলম্বিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে শেষ চারে জায়গা করে নিয়েছে সেলেকাওরা।

সেমিফাইনালের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নেমে ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক হয়ে খেলতে থাকে নেইমারের ব্রাজিল। এরই ধারাবাহিকতায় ম্যাচের ১২ মিনিটে ২৫ গজ দূর থেকে দুর্দান্ত এক ফ্রি-কিকে গোল করে দলকে লিড এনে দেন গ্রুপ পর্ব খেলা তিন ম্যাচে গোল না পাওয়া নেইমার। প্রথমার্ধে আর কোন গোল না হোলে ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় স্বাগতিক শিবির।

বিরতি থেকে ফিরে আক্রমণের ধার বাড়িয়ে দেয় নেইমার-গ্যাব্রিয়েলরা। তবে দ্বিতীয় গোলের জন্য অপেক্ষা করতে হয় ম্যাচের ৮৩ মিনিট পর্যন্ত। ২৫ গজ দূর থেকে জোরালো শটে গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে বল জালে জড়িয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ২৩ বছর বয়সী লুয়ান। বাকি সময় আর কোন গোল না হলে জয়ের আনন্দ নিয়েই মাঠে ছাড়ে সেলেকাওরা। সেমিফাইনালে নেইমারদের প্রতিপক্ষ হন্ডুরাস।

ডেনমার্ককে উড়িয়ে শেষ আটে নেইমাররা

স্পোর্টস ডেস্ক : অবশেষে গোলের দেখা পেল ব্রাজিল। গ্রুপের শেষে ম্যাচে ডেনমার্ককে ৪-০ গোলে উড়িয়ে অলিম্পিক ফুটবলের কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠেছে স্বাগতিকরা। রিও গেমসের পঞ্চম দিনে বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার সকালে হওয়া এই ম্যাচে জোড়া গোল করেন
সান্তোসের ফরোয়ার্ড গাব্রিয়েল বারবোসা।

 

লক্ষ্যভেদ করেন অন্য দুই ফরোয়ার্ড গাব্রিয়েল জেসুস ও লুয়ানও। সমর্থকদের দুয়ো থেকে এবার তাই রক্ষা পায় নেইমাররা। দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইরাকের সঙ্গে গোলশূন্য ড্রয়ে ছিটকে পড়ার শঙ্কায় পড়ে গিয়েছিল অলিম্পিক ফুটবলের অধরা সোনার পদকটা পাওয়ার লক্ষ্যে গেমস শুরু করা ব্রাজিল। শেষ পর্যন্ত ৫ পয়েন্ট নিয়ে ‘এ’ গ্রুপের শীর্ষস্থান পেল ব্রাজিল। সাও পাওলোতে আগামী শনিবার কোয়ার্টার-ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ কলম্বিয়া। রানার্সআপ ডেনমার্কের প্রতিপক্ষ নাইজেরিয়া। জয়ের জন্য মরিয়া ব্রাজিল শুরু থেকেই আক্রমণে যায়।

 

২৬তম মিনিটে দগলাস কস্তার নীচু ক্রসে কাছ থেকে নেওয়া শটে গোল করেন গাবিগোল হিসেবে পরিচিত বারবোসা। লুয়ানের পাসে ৪০তম মিনিটে ব্যবধান বাড়ান ১৯ বছর বয়সী জেসুস। এরপর নিজেই তৃতীয় গোলটি করেন গ্রেমিওর ফরোয়ার্ড লুয়ান। ৮০তম মিনিটে বড় জয় নিশ্চিত করেন গাবিগোল। আগের দুই ম্যাচের চেয়ে ভালো খেলেন নেইমার। অন্য ফরোয়ার্ডরা জাল খুঁজে পাওয়ায় সমর্থকরাও দলের উপর আস্থা ফিরে পেয়েছে। আগের গোলশূন্য দুই ড্র ম্যাচে ক্ষোভ প্রকাশ করা দর্শকরা এবার ব্রাজিলের পক্ষে শ্লোগান দেয়। দুই বারের চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা আর গতবারের চ্যাম্পিয়ন মেক্সিকো গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছে। অন্য ম্যাচে ফিজিকে ১০-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়া জার্মানির শেষ আটের প্রতিপক্ষ পর্তুগাল।

বারিধারাকে চমকে দিলো রহমতগঞ্জ

জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলের প্রথম দিনেই শক্তিশালী শেখ রাসেলকে হারিয়ে সাড়া ফেলা দিয়েছিল উত্তর বারিধারা। আজ বুধবার সেই বারিধারাকে চমকে দিলো রহমতগঞ্জ। ম্যাচটিতে তারা জয় তুলে নিয়েছে ২-০ গোলের ব্যবধানে।

চলমান টুর্নামেন্টে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে রহমতগঞ্জের এটি দ্বিতীয় জয়। চট্টগ্রামে প্রথম তিন রাউন্ডের মধ্যে দ্বিতীয় ম্যাচেই শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রকে হারিয়েছিল তারা। তবে মোহামেডান ও শেখ জামালের সঙ্গে ড্র করেই মাঠ ছেড়েছিল রহমতগঞ্জ।

Baridhara

ময়মনসিংহ স্টেডিয়ামে আজ অসাধারণ পারফর্ম করছেন রহমতগঞ্জের খেলোয়াড়রা। তবে প্রথমার্ধের নির্ধারিত সময় (৪৫ মিনিট) গোলবঞ্চিত ছিলেন তারা। প্রথমার্ধের বাড়তি সময়ে পেনাল্টি থেকে গোল করে রহমতগঞ্জকে লিড এনে দেন সিও জুনাপিউ (১-০)। ম্যাচের অন্তিমলগ্নে বারিধারার কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন দাউদা সিসে। গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ডের গোলে ২-০ ব্যবধানে জয় তুলে নিয়ে মাঠ ছাড়ে রহমতগঞ্জ।

এই জয়ে ৪ ম্যাচের রহমতগঞ্জের সংগ্রহ আট পয়েন্ট। লিগ তালিকায় তারা উঠে এসেছে দ্বিতীয় স্থানে। সমান ৮ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থেকে শীর্ষে রয়েছে মুক্তিযোদ্ধা। ৪ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট ঝুলিতে জমা করা উত্তর বারিধারার অবস্থান ১১তম।

ঢাকা আবাহনীকে রুখে দিল মুক্তিযোদ্ধা

জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ঢাকা আবাহনীকে ১-১ গোলে রুখে দিয়েছে  মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র।
আজ সোমবার ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত খেলাটিতে প্রথমার্ধে গোল করেছিল আবাহনী কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে সমতা এনে আবাহনীকে পয়েন্ট ভাগাভাগিতে বাধ্য করে মুক্তিযোদ্ধা।

 
এদিন খেলার ১৩ মিনিটে এগিয়ে যায় ঢাকা আবহনী। মিডফিল্ডার  ইমন বাবুর ডান প্রান্ত থেকে করা ক্রসে বক্সের মাঝামাঝি অবস্থান থেকে জোরালো ভলিতে গোলটি করেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে চিজোবা। বিরতির পর যখন খেলা হয়েছে মাত্র দুই মিনিট তখন সমতা আনে মুক্তিযোদ্ধা। মিডফিল্ডার মোবারক হোসেনের করা ক্রসে হেড করে আবাহনী গোলরক্ষক সোহেলকে পরাস্ত করেন মজিবুর রহমান মানিক।

 
তবে  ম্যাচের ৯৩ বা অতিরিক্ত চার মিনিট সময়ের তৃতীয় মিনিটে মুক্তিযোদ্ধা ফরোয়ার্ড জাভেদ খান ফাঁকা পোস্টে গোল করতে ব্যর্থ হলে এক পয়েন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় মুক্তিযোদ্ধাকে। এই ম্যাচের মধ্য দিয়ে দুই দলই খেলেছে চারটি করে খেলা। উভয় দলের পয়েন্ট আট।

আরো ধারালো নেইমারকে চাইছেন ব্রাজিল কোচ

অলিম্পিকের আসরে একটি সোনার জন্য লড়াই করছে ব্রাজিল। যা এখনো পর্যন্ত তাদের কাছে অধরা। যে নেইমারে ভরসা করছে সেলেকাওরা, সেই তিনি প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি, ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে।

গ্রুপপর্বের ওই ম্যাচে গোলশূন্যভাবে ড্র করেছিল ব্রাজিল। পয়েন্ট হারিয়ে অনেকটা হতাশ ব্রাজিল শিবির। এখন সামনের ম্যাচগুলোতে আরো ধারালো নেইমারকে চাইছেন অলিম্পকে ব্রাজিলের কোচ মিকেল।

নেইমারকে নিয়ে ব্রাজিল বলেন, ‘দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নেইমারকে দেখা যায়নি সেরা ছন্দে। মৌসুমের এটি ছিল তার দ্বিতীয় ম্যাচ। সেজনই হয়তো ছন্দ ছিল না নেইমারের। আমি বিশ্বাস করি, পরের ম্যাচ দুটোতে (গ্রুপপর্বের) আরো ধারালো নেইমারকে পাব আমরা।’

তিনি আরো বলেন, ‘শারীরিক সক্ষমতা আর দক্ষতা নেইমারের ঈশ্বর প্রদত্ত। এ কারণে সে দ্রুত ভালো অবস্থায় ফিরতে পারবে বলে আমি আশাবাদী।’

জাতীয় দলে ফিরছেন মেসি!

আর্জেন্টিনার প্রধান ক্রীড়া দৈনিক ওলে এক রকম নিশ্চিত করেছে, মেসি ফিরছেন। শুধু তাই নয়, ১ সেপ্টেম্বর উরুগুয়ের বিপক্ষে বাছাই পর্বের ম্যাচেই দেখা যাবে তাকে।

কিছুদিন আগেই আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আরমান্দো পেরেজ স্পেনে গিয়ে মেসির সঙ্গে দেখা করে জাতীয় দলে ফেরার জন্য বোঝানোর চেষ্টা করেছেন। কিন্তু তবুও মেসি মেসি ফেরার কোনো ইঙ্গিত দেননি।

আর নতুন কোচ বাউজাও দায়িত্ব নেওয়ার পর পরেই বলেছেন, মেসির সঙ্গে কথা বলবেন, `আমি ওকে কোনো সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের জন্য বলব না, শুধু ফুটবল নিয়ে কথা বলব। নিজের কাজ নিয়ে কথা বলব।`

আর্জেন্টিনার প্রধান ক্রীড়া দৈনিকের খবর, ক্লান্তি ঝেড়ে ফেলে নতুন করে মাঠে নামার জন্য মেসি প্রস্তুত। ওলের খবর সত্যি হলে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের জন্য এ বড় সুখবর। এখন শুধু আনুষ্ঠানিক ঘোষণার অপেক্ষা।

ব্রাদার্সকে হারিয়ে শীর্ষে মুক্তিযোদ্ধা

বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্বে শেষ খেলায় ব্রাদার্সকে ২-০ গোলে হারিয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে অবস্থান করছে মুক্তিযোদ্ধা। লিগে ৩ খেলায় দুই জয় ও এক ড্র নিয়ে মুক্তিযোদ্ধার সংগ্রহ ৭ পয়েন্ট। সমান সংখ্যক পয়েন্ট নিয়ে ২য় অবস্থানে চট্টগ্রাম আবাহনী। এর পরেই ৭ পয়েন্ট নিয়ে ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে বড়ভাই ঢাকা আবাহনী। এছাড়া তিন খেলায় এক হার ও দুই ড্র নিয়ে ব্রাদার্স  ইউনিয়ন ১১তম।

চট্টগ্রাম পর্বের ৩য় রাউন্ডের শেষ খেলার শুরু থেকে গোছালোভাবে খেলতে থাকে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ। অবশ্য প্রথমার্ধের বেশিরভাগ সময় বল নিয়ন্ত্রণে রাখে ব্রাদার্স। বেশ কয়েকবার মুক্তিযোদ্ধা সংসদের দুর্গে হানা দেয় তারা।

ব্রাদার্সের আক্রমণগুলো ছিল এলোমেলো। যার কারণে মুক্তিযোদ্ধার ডি এরিয়ায় গিয়ে খেই হারিয়ে ফেলে ব্রাদার্সের খেলোয়াড়রা। দ্বিতীয়ার্ধে সাইডবার বাধা হয়ে না দাঁড়ালে এগিয়ে যেতে পারতো ব্রাদার্স। ৫৯ মিনিটে নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড কিংসলের একক প্রচেষ্টায় বক্সে ঢুকে নেয়া শটটি সাইডবারে লেগে ফিরে আসে। অন্যদিকে মুক্তিযোদ্ধার খেলোয়াড়রা পরিকল্পিতভাবে আক্রমণ চালায়। কিন্তু ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় গোলবঞ্চিত থাকতে হয় আবদুল কাইয়ুম সেন্টুর শীষ্যদের।

২৬ মিনিটে বাঁ প্রান্ত থেকে মিডফিল্ডার সোহাগের লবটি ফাঁকায় পেয়ে যান ফরোয়ার্ড আহমেদ কোলো মুসা। তার নেয়া শটটি বাদ্রার্সের ডিফেন্ডার কর্নারের বিনিময়ে প্রতিহত করেন। ৩২ মিনিটে আরেকটি সুযোগ নষ্ট করের মুসা। গোলবারের কাছেই মিডফিল্ডার মোবারকের ক্রসটি আবারো ফাঁকায় পেয়ে যান তিনি। ঠাণ্ডা মেজাজে নেয়া তার এই শটটিও গোলবার ঘেষে বাইরে চলে যায়।

দ্বিতীয়ার্ধে একই ধারাবাহিকতা বজায় রাখে মুক্তিযোদ্ধা। ৬৫ মিনিটে দুর্দান্ত ফ্রি কিকে এগিয়ে যায় সাইদুল-মুসারা। গোলবারের প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে মিডফিল্ডার সোহাগের বাঁ পায়ের ফ্রি কিকটি ব্রাদার্সের গোলকিপার পেয়ারুজ্জামান পিরু জালে প্রবেশের মুহূর্তটি অসহায়ভাবে তাকিয়ে দেখেন।

৮৩ মিনিটে বাঁ প্রান্ত থেকে মিডফিল্ডার সোহেল রানার লবটি আলতো টোকায় বিদেশি আহমেদ কোলো মুসা ২-০ গোলে দলের জয় নিশ্চিত করেন।

বৃহস্পতিবারই শুরু নেইমারদের অলিম্পিক

বাংলাদেশ সময় শনিবার ভোরে অলিম্পিকের উদ্বোধন; কিন্তু নেইমারদের সোনা জেতার চ্যালেঞ্জ শুরু হয়ে যাচ্ছে বৃহস্পতিবার থেকেই। বৃহস্পতিবার রাত ১টায় ব্রাসিলিয়ার মানে গারিঞ্চা স্টেডিয়ামে ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা।

অলিম্পিক ফুটবলের সব আকর্ষণের কেন্দ্রে নেইমার। এবারের ইভেন্টে একমাত্র সুপারস্টার। আর তার দেশের কাছেও এই ইভেন্টের গুরুত্ব বিশাল। পাঁচ বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের ঘরে এখনও অলিম্পিক সোনা নেই। লন্ডন অলিম্পিকে জিওভানি দস সান্তোস, রাউল জিমেনেসদের মেক্সিকোর কাছে হেরে রুপো জিতেছিল ব্রাজিল। নেইমারের কাঁধে ভর করে সেই দুর্ভাগ্য এবার কাটাতে চায় সেলেসাওরা।

নেইমারের সঙ্গে গাব্রিয়েল জেসাস, গাব্রিয়েল বার্বোসাদের নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রত্যাশার পাহাড়ে ব্রাজিলিয়ান সমর্থকরা। নেইমারের কাফ মাসলে যে ট্যাটু, জেসাস নিজের হাতে একই ট্যাটু করিয়েছেন। একটি বাচ্চা ছেলে হাতে ফুটবল নিয়ে তাকিয়ে আছে একটি ছোট শহরের ঘরবাড়ির দিকে।

এই বন্ধুত্বেই ভরসা ব্রাজিলীয়দের। গ্রুপ খুব কঠিন নয়, দক্ষিণ আফ্রিকা ছাড়া গ্রুপ এ-তে ব্রাজিলের সঙ্গে আছে ইরাক ও ডেনমার্ক। অলিম্পিকের প্রথম ম্যাচ ইরাক বনাম ডেনমার্ক। কোচ রদ্রিগো মিকালে ইতিমধ্যেই ছাপ ফেলেছেন ব্রাজিল দলে। ফরোয়ার্ড লাইন শক্তিশালী হওয়ায় প্রস্তুতি ম্যাচে ৪-২-৪ ফর্মেশনে খেলাতেও পিছপা হননি দলকে।

একটাই খারাপ খবর, টিমের এক নম্বর গোলকিপার ফার্নান্দো প্রাস চোট পেয়ে ছিটকে গিয়েছেন। বদলি হিসেবে এসেছেন ওয়েভার্টন। উইঙ্গার ডগলাস কস্তাও খেলতে পারবেন না অলিম্পিকে। তবু আক্রমণের ধারেই বিশেষজ্ঞরা এগিয়ে রাখছে ব্রাজিলকে।

শুধু ব্রাজিল নয়, প্রথম দিন নামছে ইভেন্টের ১৬টি দলই। যার মধ্যে আছে রোনালদো এবং মেসির দেশ পর্তুগাল ও আর্জেন্টিনার ম্যাচও। আর্জেন্টিনা দু’বারের সোনাজয়ী। শেষবার মেসি, মাচেরানোরা সোনা দিয়েছিলেন বেইজিং অলিম্পিকে, ২০০৮ সালে।

এবার আর্জেন্টিনা দলের আকর্ষণ দুই প্রতিভাবান ফরোয়ার্ড। দু’জনেরই বয়স ২১। একজন অ্যাঞ্জেল কোরিয়া। যিনি অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে খেলছেন এখন। অন্যজন, জিওভানি সিমিওনে। যার বাবা সাবেক আর্জেন্টিনা অধিনায়ক ও অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ কোচ দিয়েগো সিমিয়নের দখলে আবার অলিম্পিক রুপো আছে।

ছেলে বাবার কৃতিত্বকে ছাড়িয়ে যেতে পারেন কি না দেখার অপেক্ষায় গোটা আর্জেন্টিনা। মেসি পরবর্তী সুপারস্টারের সন্ধানও তো করতে হচ্ছে জাতীয় দলের সমর্থকদের।

এ রকম এক-দু’জন তারকার সন্ধান পাওয়া যাবে প্রতি দলেই। নাইজেরিয়ায় যেমন জন ওবি মিকেলকে। চেলসির এই ফুটবলারকে কোচ আন্তোনিও কন্তে বলেছেন, ব্রাজিল থেকে সোনা জিতে ফিরতে। ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা দলে আছেন কিগান ডলি।

এই উইঙ্গার দেশে লিগ জিতেছেন মামেলোদি সান্ডাউন্সের হয়ে। ইরাক দলে ধুর্গম ইসমাইল আবার ২১ বছরেই এশিয়ার অন্যতম সেরা লেফটব্যাক। ফুলহ্যামের মিডফিল্ডার ল্যাস ভিগেন ক্রিস্টেনসেন ডেনমার্কের ভরসা। জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচের দেশের দল সুইডেনে সুযোগ পেয়েছিলেন সাবেক সুইডিশ তারকা হেনরিক লার্সনের ছেলে জর্ডান।

কিন্তু তার ক্লাব হেলসিংবার্গে মাত্র দু’জন ফরোয়ার্ড থাকায় সেই ক্লাবের কোচ অলিম্পিক দল থেকে সরিয়ে নিয়েছেন ফরোয়ার্ড জর্ডানকে। ঘটনাচক্রে, হেলসিংবার্গের কোচ জর্ডানের বাবা হেনরিকই। কলম্বিয়া দলের তারকা সেন্টার ফরোয়ার্ড তিওফিলো গুতিয়েরেস।

যিনি ২০১৪ বিশ্বকাপে কলম্বিয়া দলে ছিলেন। কোরিয়ান দলে থাকছেন টটেনহ্যামের ফরোয়ার্ড সন হিউং-মিন।

আবারো কস্তাকে চান লুইস

অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা সময়টা পার করেছেন দিয়েগো কস্তা। দুর্দান্ত পারফর্ম করে দলটিকে জিতিয়েছিলেন স্প্যানিশ লা লিগার শিরোপা। এরপর অ্যাটলেটিকো ছেড়ে পাড়ি জমান চেলসিতে।

ইংল্যান্ডের ক্লাবটিতে গিয়ে খানিকটা ছন্দ হারিয়ে ফেলেন কস্তা। আশানুরূপ পারফরম্যান্স দেখাতে পারেননি তিনি। তাই আবারো অ্যাটলেটিকোতে ব্রাজিলিয়ান বংশোদ্ভূত স্প্যানিশ তারকাকে  চান ফিলিপে লুইস।

দিয়েগো সিমিওনের অধীনে খেললে ‘বিশ্বসেরা’ হতে পারেন কস্তা। এমনই বিশ্বাস ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার লুইসের। বলেন, ‘আমার ক্যারিয়ারে সবচেয়ে বেশি উপদেশ দিয়েছে কস্তা। সে আমাকে ভাইয়ের মতোই ভালোবাসে। কোনো সন্দেহ নেই যে অ্যাটলেটিকোতে আসলে কস্তা সুখী হবে।’

লুইস আরো বলেন, ‘নয় নাম্বার খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্বসেরা হয়েছিল কস্তা। আমার বিশ্বাস, এই ক্লাবে (অ্যাটলেটিকো) আসলে আবারো সে বিশ্বসেরা হতে পারবে।’

স্বদেশী রোনালদোর বিপক্ষে খেলতে মুখিয়ে গোমেস

পর্তুগাল জাতীয় দলে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার চেষ্টায় মেতে ওঠেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও আন্দ্রে গোমেজ। সদ্য সমাপ্ত ইউরোতে পর্তুগিজদের শিরোপা জয়ে অনন্য ভূমিকা দুজনের। পেশাদার ফুটবলে বন্ধুই যেন বনে যান ‘শত্রু’! কিছুদিন পর একে অপরের বিপক্ষে লড়াইয়ে নামবেন রোনালদো-গোমেজ।

রোনালদো খেলবেন রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে। আর গোমেস লড়বেন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার হয়ে। ঐতিহাসিক এল ক্লাসিকোতে গোমেস খেলার সুযোগ পেলে মুখোমুখি হবেন রোনালদোর। স্বদেশী ‘হিরো’র বিপক্ষে খেলতে মুখিয়ে রয়েছেন ২৩ বছর বয়সী গোমেস।

এর আগেও অবশ্য রোনালদোর বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে ভ্যালেন্সিয়ার হয়ে খেলা গোমেসের। তবে এল ক্লাসিকোতে রিয়াল সুপারস্টারের মুখোমুখি হওয়াটা অন্য ধরনের। বার্সায় যোগ দেয়ার পর গোমেসকে অভিনন্দন জানিয়েছেন রোনালদো।

সে কথাই বোঝানোর চেষ্টা করলেন ৩ কোটি ৫০ লাখ ইউরোতে বার্সায় নাম লেখানো গোমেস, ‘বার্সেলোনার সঙ্গে আমি চুক্তি সই করার পর শুভেচ্ছা জানাতে আমাকে ডেকেছিল ক্রিশ্চিয়ানো। তবে মাঠে আমরা প্রতিপক্ষ। জাতীয় দলে আমি রোনালদোর সঙ্গে খেলেছি। এবার আমি মেসির সঙ্গে খেলার সুবিধা নিতে চাই।’

আর্জেন্টিনার নতুন কোচ বাউজা

কোপা আমেরিকার ফাইনালে ব্যর্থতার দায় নিয়ে আর্জেন্টিনার কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ান জেরার্ডো মার্টিনো। তার বিদায়ের পর ডি মারিয়া-হিগুয়েনদের গুরু হওয়ার দৌড়ে অনেকের নামই উঠে এসেছিল। সেভিয়ার হোর্হে সাম্পাওলি, অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের ডিয়েগো সিমিওনে ও টটেনহামের মাউরিসিও পচেত্তিনো তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য।

দিয়েগো ম্যারাডোনা তো ফের আর্জেন্টিনার কোচ হতে চেয়েছিলেন বিনে পয়সায়। এবার সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে আর্জেন্টিনার নতুন কোচের আসনটি অলঙ্কৃত করলেন এদগার্দো বাউজা। জেরার্ডো মার্টিনো সরে যাওয়ার পর বেশ সময় নিয়ে বাউজাকে বেছে নিল আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এএফএ)।

সাও পাওলোর পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে, ‘সোমবার রাতে ক্লাবটির সঙ্গে বন্ধন ছিন্ন করেছেন এদগার্দো বাউজা। কেননা এএফ’র দেয়া কোচের প্রস্তুাবে সম্মতি জানিয়েছেন তিনি। আর্জেন্টিনার জাতীয় দলের কোচের শূন্য পদটি পূরণ করছেন বাউজা।’

ফুটবল বিশ্বে অতটা পরিচিতি নেই বাউজার। তবে কোচ হিসেবে তিনি অসাধারণ। পরিসংখ্যান বলছে সে কথাই। ২০০৮ সালে ইকুয়েডরের ক্লাব কুইতোকে কোপা লিবার্তাদোরেস জিতিয়েছিলেন। ২০১৩ সালে একই ট্রফি জেতান আর্জেন্টিনার সান লরেঞ্জোকে। সর্বশেষ ব্রাজিলের ক্লাব সাও পাওলোর দায়িত্বে ছিলেন ৫৮ বছর বয়সী এই কোচ।

ম্যানইউতে রুনির দুই সেরা সতীর্থ

খেলোয়াড়ী জীবনে এ পর্যন্ত দুটি ক্লাবে খেলেছেন ওয়েন রুনি। একটি এভারটন, অপরটি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ২০০৪ সালে এভারটন ছেড়ে ম্যানইউতে পাড়ি জমান ইংল্যান্ডের অধিনায়ক। ১২টি বছর পার করলেন নিজ দেশের ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটিতে। ৩৬৮টি ম্যাচে রেড ডেভিলসদের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন তিনি।

ম্যানইউতে এক যুগের ক্যারিয়ারে এ পর্যন্ত দুজন সেরা সতীর্থের নাম জানালেন রুনি। কে হতে পারেন তারা? ক্রিশ্চিয়নো রোনালদো তাদের একজন। আরেকজনের নাম পল স্কোলস। ২০০৩ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত ম্যানইউর হয়ে লড়েছেন রোনালদো। খেলেছেন ১৯৬ ম্যাচ। ৮৪টি গোল করেছেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। ১৯৯২ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত ওল্ড ট্রাফোর্ডের ক্লাবটিতে মাঝমাঠের দায়িত্ব পালন করেছেন স্কোলস। পাশাপাশি ১০৭টি গোলও করেছেন তিনি।

নিজের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে রুনি লিখেছেন, ‘আমি দুজনের নাম বলতে চাই, যারা স্বতন্ত্র। তারা হলো পল স্কোলস ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। স্কোলস বিশ্বের সেরা মিডফিল্ডারদেরই একজন। তার পাসিং, ভিশন ও বল দখলের ক্ষমতা সত্যিই অসাধারণ। আর ক্রিশ্চিয়ানো বিশেষ একজন খেলোয়াড়। সেও বিশ্বের সেরাদের একজন।’

‘পেলে-ম্যারাডোনার চেয়েও ভালো মেসি’

সর্বকালের সেরা ফুটবলার কে? ফুটবল দুনিয়ায় এমন প্রশ্ন বিরাজ করছে অনেক আগে থেকেই। কারো কাছে পেলে, কেউ বা বলছেন ম্যারাডোনা। কখনো এই দুই গ্রেটকে ছাপিয়ে লিওনেল মেসিকে বলা হচ্ছে সর্বকালের সেরা। বার্সেলোনা সুপারস্টারকে নিয়ে আরো একবার এমন তথ্যই প্রমাণ করার চেষ্টা করলেন পোপ ফ্রান্সিস।

বিশ্ব যুব দিবসে অংশগ্রহণকারী তরুণ-তরুণীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন পোপ। সেখানেই পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসির প্রসঙ্গ টেনে ক্যাথলিক খ্রিষ্টানদের ধর্মগুরু বলেন, `আমার মতে, পেলে-ম্যারাডোনার চেয়েও মেসি ভালো। ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে সেরা ফুটবলার ২৯ বছর বয়সী মেসি।`

সংক্ষিপ্ত এই বাক্যেই স্বদেশী ফুটবল তারকার শ্রেষ্ঠত্ব বোঝাতে চেয়েছেন পোপ। আর্জেন্টিনার পক্ষে সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা মেসি। জাতীয় দলের হয়ে ১১৩ ম্যাচ খেলে নামের পাশে যোগ করেছেন ৫৫টি গোল। শতবর্ষী কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির কাছে হারের হতাশায় আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায় বলে দিয়েছেন মেসি। তাকে ফেরাতে মরিয়া গোটা ফুটবল বিশ্ব।

আইনি লড়াইয়ের পথে রাশিয়া

আন্তর্জাতিক ডোপিং এজেন্সি (ওয়াডা)`র বিরুদ্ধে এবার আইনি লড়াইয়ের পথে নামছে রাশিয়া। ডোপিংয়ের দায়ে অলিম্পিকে রাশিয়ান অ্যাথলেটদের নিষিদ্ধ করার সংক্রান্ত্র রিপোর্ট জমা দিয়েছে ওয়াডা। তারপরই রাশিয়ার ক্রীড়ামন্ত্রী ভিতালি মুতকো শনিবার এক টিভি চ্যানেলে বলেন, ‘আমরা রিপোর্টের প্রত্যেকটা লাইন খুঁটিয়ে পড়ব এবং আইনি ব্যবস্থা নেব। এ নিয়ে আমরা চিন্তা-ভাবনা শুরু করে দিয়েছি।’

এর মধ্যেই অবশ্য আবার নিষেধাজ্ঞার ঘটনা ঘটল। এবার বাতিল করে দেওয়া হল রাশিয়ান ভারোত্তোলন টিমকেও। তাহলে সব মিলিয়ে রাশিয়া থেকে কত জন প্রতিযোগি শেষ পর্যন্ত রিও-তে যেতে পারবে, তা নিয়ে সংশয়।

ওয়াডা চেয়েছে, রিওতে কোনও রাশিয়ান অ্যাথলিটই যেন অংশ নিতে না পারে। আন্তর্জাতিক ওয়েটলিফটিং ফেডারেশন তাদের ওয়েবসাইটে বলেছে , রাশিয়ান ভারোত্তোলক নিয়ে ডোপিংয়ের অনেক রকম প্রমাণ আমরা পেয়েছি। এটা খুবই হতাশার এবং দুঃখজনক। ভারোত্তোলন এই ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত।

এ সবের বিরুদ্ধেই লড়াইয়ে নামছে রাশিয়া। অগস্টের শুরুতেই এ নিয়ে মামলা হবে। তবে ওয়াডার পক্ষ থেকে কানাডার আইনজীবী রিচার্ড ম্যাকলারেন আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই জানিয়েছেন, এ নিয়ে যাবতীয় প্রমাণ রয়েছে তাদের হাতে।

রাশিয়ার ক্রীড়ামন্ত্রী আইনি লড়াইয়ের কথা বললেও তিনি এটাও বলেছেন যে, ‘নতুন কমিশনের সঙ্গে আমরা সহযোগিতা করতে প্রস্তুত; কিন্তু এটা বুঝতে হবে যে ডোপিং শুধুমাত্র রাশিয়ার সমস্যা নয়। এটা গোটা বিশ্বের সমস্যা। সেভাবেই ব্যাপারটাকে দেখা উচিত। আমাদের দেখতে হবে গোটা বিশ্ব কীভাবে এগিয়ে আসছে। আমরা এ নিয়ে কাজ করতে চাই।’

রিওতে নেই ইসিনবায়েভাও। যা নিয়ে দেশটির ক্রীড়ামন্ত্রী বলেছেন, ‘আমরা সত্যিই দুঃখিত। ও বিশ্বের ক্রীড়া আইকন। ওর সঙ্গে যা হল, সেটা মোটেই মানবিক নয়।’ ইসিনবায়েভা সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, ‘আমার রিওর স্বপ্ন সফল হল না। আমার দ্বিতীয় আবেদনও খারিজ করে দেওয়া হয়েছে।’

আর্জেন্টিনা দলে ফিরছেন না মেসি!

কয়েক মাস পরেই শুরু হবে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের খেলা। ধারণা করা হচ্ছিলো হয়তো অভিমান ভুলে আবারো জাতীয় দলের হয়ে মাঠে দেখা যাবে কোপা আমেরিকার শতবর্ষী আসরের ফাইনালে চিলির বিপক্ষে হেরে অবসরের ঘোষণা দেওয়া মেসিকে। তবে সে সম্ভাবনা নাখচ করে দিয়েছে মেসির পরিবারের এক সদস্য।

জনপ্রিয় ফুটবল বিষয়ক ওয়েবসাইট গোল ডট কমকে পরিবারের এক সদস্য জানান, ‘বর্তমানে সে জাতীয় দলের কোন সদস্য নয়। আর বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে জাতীয় দলের জার্সিতে মেসির খেলার সম্ভাবনাও কম।`

এদিকে আলবেসেলিস্তা গভর্নি বডি চাইছে মেসি আর্জেন্টিনার পরবর্তী কোচ নির্বাচনে ভূমিকা রাখবে। এ নিয়ে পরিবারের সূত্রটি আরও বলেন, ‘মেসি কোচ নিয়োগের ক্ষমতা রাখে না। এছাড়া সে কাউকে বরখাস্তও করতে পারে না।’

উল্লেখ্য, আগামী ১ সেপ্টেম্বর মেন্দোজায় উরুগুয়ের বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রথম ম্যাচ খেলবে আর্জেন্টিনা। আর পাঁচ দিন পরে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে অ্যাওয়ে ম্যাচে লড়বে দুইবারের বিশ্বকাপ জয়ীরা।

রুনির মুখে মরিনহোর প্রশংসা

স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের অবসরের পর প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জিততে পারেনি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। তবে রুনির বিশ্বাস ইউনাইটেডকে প্রিমিয়ার লিগ জয়ের ধারায় ফেরাতে পারবে চার দেশে আটটি লিগ এবং বিভিন্ন ক্লাবের হয়ে দু’টি চ্যাম্পিয়ন্স লিগসহ বড় ধরনের ১৭টি ট্রফি জয়ী পর্তুগীজ কোচ মরিনহো।

ম্যানচেস্টার রেডিও কি-১০৩ কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রুনি বলেন, `নতুন একজন কোচ পাওয়া সব সময়ই বড় ব্যপার। তবে আপনি যখন মরিনহোর মতো কাউকে পাবেন তখন সেটা আরো বড় কিছু। তিনি ক্লাবকে জয়ের মানসিকতায় ফেরাবেন।`

ম্যানচেস্টার ও ইংল্যান্ড জাতীয় দলের এ অধিনায়ক আরো বলেন, `একটা ফুটবল ক্লাব হিসেবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে জিততে হবে এবং তার (মরিনহো) জন্য আমাদের ভাল খেলতে হবে। খেলোয়াড়দের উপড় চাপ আছে। তবে আমরা প্রস্তুত এবং চলতি মৌসুমে সব বিভাগেই আমরা সত্যিকারের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেব বলে আমি মনে করছি।`

৩০ বছর বয়সী এ স্ট্রাইকার আরো বলেন,তিনি দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন, খেলোয়াড়দের সঙ্গে সম্পর্ক ভাল। অনুশীলন পর্ব কঠিন তবে উপভোগ্য। আমরা প্রস্তুত, আমরা কঠোর পরিশ্রম করছি। আমরা জানি আমাদের জন্য এটা অনেক বড় মৌসুম।

রোনালদোর নামে বিমান

স্টেডিয়াম, বড় সড়ক, বিমানবন্দর বা বড় কোনো স্থাপনার নাম সাধারণত কিংবদন্তিদের নামেই হয়। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর এখনই সেই কিংবদন্তিদের দলে।  দেশের হয়ে ইউরো জেতার জন্মস্থান মাদেইরার বিমানবন্দরের নাম বদলে রাখা হয়েছে রোনালদোর নামে। এবার রোনালদোর নামে বিমানও আনল আইরিশ বিমান সংস্থা রায়ানএয়ার।

আইরিশ বিমান সংস্থা রায়ানএয়ার তাদের বোয়িংয়ের নাম দিয়েছেন ‘রায়নালদো’। টুইটারে রোনালদো ও বিমানের ছবি পোস্ট করে এমনটিই জানিয়েছে রায়ানএয়ার। মাদেইরার রাজধানী ফুনচল। এখানেই জন্মেছিলেন ইউরো কাপজয়ী সিআর সেভেন। আর নিজের নামের বিমানবন্দরেই ওঠা-নামা করছে এই বিমান।

এর আগে নিজের জন্মস্থানে নিজের নামে একটি বিলাসবহুল হোটেলও খুলেছেন রোনালদো।

জেনিফার লোপেজের জন্মদিনের পার্টিতে রোনালদো

ইউরো জয়ে করে এখন যেন বিশ্ব জয়ের মিশনে নেমেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এই বিশ্বজয়টা অবশ্য বল পায়ে নয়, নিজের গ্ল্যামার দিয়ে। এমনিতে ইনজুরির কারণে মৌসুমের শুরুতে রিয়ালের সঙ্গে যোগ দিতে পারছেন না তিনি। খেলতে পারছেন না উয়েফা সুপার কাপের ফাইনাল।

আগস্টের শুরুর দিকে রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে যোগ দেবেন বলে আশা করছেন ক্রিশ্চিয়ানো। তার আগে ইউরোপ ছেড়ে তিনি মাতিয়ে আসছেন আমেরিকা। যুক্তরাস্ট্রের সেলিব্রিটি শহর লাস ভেগাসে চলে গেলেন। সেখানে জনপ্রিয় পপ গায়িকা জেনিফার লোপেজের জন্মদিনের পার্টিতে গিয়ে হাজির হলেন। যেখানে উপস্থিত ছিলেন হলিউডের এক ঝাঁক তারকা। ছিলেন রোনালদোর সাবেক বান্ধবী কিম কার্দেশিয়ানও।

Ronaldo

জেনিফার লোপেজের জন্মদিনের পার্টিতে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো হয়ে উঠলেন আকর্ষণের সেরা কেন্দ্রবিন্দু। রোববার লাস ভেগাসের প্ল্যানেট হলিউডে মার্কিন পপ গায়িকার ৪৭তম জন্মদিনে রিয়াল মাদ্রিদ তারকার উপস্থিতি যেন নতুনভাবে চাঙ্গা করে দিয়েছে জে লো’কে। রোনালদোকে পেয়ে যিনি বলেছেন, ‘বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর এবং উষ্ণ মানুষের সঙ্গে সময় কাটিয়ে দারুণ লাগছে!’

শুধু তাই নয়, জেনিফার লোপেজের সঙ্গে একটি ঘনিষ্ট ছবিও তুলেছেন তিনি।

হার দিয়ে যাত্রা শুরু রিয়ালের

হার দিয়েই ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নস কাপের যাত্রা শুরু করলো রিয়াল মাদ্রিদ। প্রাক-মৌসুমে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই ফরাসি চ্যাম্পিয়ন প্যারিস সেন্ট-জার্মেইয়ের (পিএসজি) কাছে ৩-১ গোলে হেরে গেছে জিনেদিন জিদানের দল।

যুক্তরাষ্ট্রের ওহিও স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার রোনালদো-বেলদের ছাড়াই মাঠে নামে রিয়াল। তবে ম্যাচ শুরুর মাত্র দ্বিতীয় মিনিটেই দারুণ এক গোলে পিএসজিকে লিড এনে দেন নানিতামো জোনাথন আইকন। প্রায় মাঝমাঠে বল পেয়ে রিয়ালের পাঁচ খেলোয়াড়কে কাটিয়ে গোলরক্ষককে ফাঁকি দেন ১৮ বছর বয়সি ফরাসি মিডফিল্ডার।

ম্যাচের ৩৫ মিনিটে মেনিয়ার ৩০ গজ দূর থেকে জোরালো শটে গোল করে পিএসজিকে ২-০ তে লিড এনে দেন। এর  চার মিনিট পর গোল রক্ষকের ভুলে নিজের দ্বিতীয় গোল করে স্কোরলাইন ৩-০ করে মেনিয়ার। তবে বিরতিতে যাওয়ার আগমুহূর্তে পেনাল্টি থেকে রিয়ালের হয়ে একটি গোল শোধ করেন ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্সেলো।

দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য ম্যাচে ফিরতে বেশ লড়াই করেছে রিয়ালের খেলোয়াড়রা। কিন্তু গোল করতে পারেননি কেউই। ফলে প্রাক-মৌসুমে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই পরাজয়ের তিক্ততা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় গত মৌসুমের চ্যাম্পিয়নস লিগজয়ীদের। অন্যদিকে পিএসজি প্রাক-মৌসুমে টানা তৃতীয় ম্যাচে জয় পেল।

বার্সার সঙ্গে মাসচেরানোর নতুন চুক্তি

অনেক দিন ধরেই গুঞ্জন উঠেছিল বার্সা ছেড়ে নতুন ঠিকানায় পাড়ি জমাচ্ছেন আর্জেন্টাইন তারকা হাভিয়ের মাসচেরানো। সব গুঞ্জনের অবসান ঘটিয়ে বার্সার সঙ্গে নতুন তিন বছরের চুক্তি করলেন এই তারকা। চুক্তি অনুযায়ী কাতালান ক্লাবটিতে ২০১৯ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত থাকবেন তিনি।

নতুন চুক্তিবদ্ধ পর্তুগালের মিডফিল্ডার আন্দ্রে গোমেসের উপস্থাপন উপলক্ষে বুধবার করা সংবাদ সম্মেলনে বার্সেলোনার ডিরেক্টর অব প্রোফেশনাল স্পোর্টস আলবের্ত সোলের মাসচেরানোর সঙ্গে নতুন চুক্তির বিষয়টি ঘোষণা করেন।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালে লিভারপুল থেকে বার্সেলোনায় নাম লেখানোর পর থেকে ২৮২ ম্যাচ খেলে ১৬টি শিরোপা জেতেন এই ডিফেন্ডার।

মেসির কাছ থেকে শিখছেন নেইমার

প্রথমবারের মতো অলিম্পিক ফুটবলে সোনা জেতা জিততে মরিয়া ব্রাজিল। আর কোচ রজারিও মিকালে থেকে শুরু করে পুরো ব্রাজিলবাসী তাকিয়ে আছে দলের অধিনায়ক নেইমারের দিকে। কোচের এমন ভরসায় কোনো সমস্যা দেখছেন না দেশটির অধিনায়ক।

অলিম্পিকে স্বাগতিক হিসেবে ব্রাজিলের উপর চাপটাই বেশি। কিন্তু দলের উপর কোন চাপ আছে বলে মানতে নারাজ ব্রাজিলের অধিনায়ক নেইমার। তিনি বলেন, `চাপ ফুটবলেরই অংশ। চাপ থাকবেই। চাপ নিয়েই খেলতে হয় সবসময়। আর এই চাপ সামলানোর টোটকাটা মেসির কাছ থেকেই নিতে চান নেইমার।`

মেসি উদাহরণ টেনে এনে তিনি আরও বলেন, `বার্সাতে মেসির উপর অনেক চাপ থাকে। তারপরও সকল চাপ সামলে ওঠেন মেসি। কেউ কি অস্বীকার করবে যে আমরা সেখানে মেসির জন্য খেলি না? অবশ্যই আমরা সবাই মেসির জন্য খেলি। আমরা বার্সেলোনাতে মেসির উপর নির্ভরশীল।`

রিও অলিম্পিকে দলের পারফরমেন্স নিয়েও কথা বলেন নেইমার, ভালো খেলার লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবো আমরা। কোন কিছুতেই আমি ভয় করি না। ভয় জয়ের আসল ইচ্ছাটাই নষ্ট করে দেয়। তাই ভয়হীনভাবেই আমরা মাঠে খেলবো।

বার্সেলোনার এক বছরে রাজস্ব আয় ৬ হাজার কোটি টাকা!

এক বছরে একটি ক্লাবের আয় কত হতে পারে! বার্সেলোনার আয় শুনলে যে কারও চোখ কপালে উঠতে পারে। ২০১৫-২০১৬ মৌসুমে বার্সেলোনার আয় হয়েছে ৬৭৯ মিলিয়ন ইউরো (প্রায় ৫ হাজার ৮৮৬ কোটি টাকা)। সোমবার প্রকাশিত ক্লাবের অর্থনৈতিক রিপোর্ট থেকেই এটা জানা গেছে।

ক্লাবের অর্থনৈতিক রিপোর্ট প্রকাশ করা হয় সোমবার। সেখান থেকেই জানা গেল লা লিগা চ্যাম্পিয়নদের রাজস্ব দেয়ার পরও নেট লাভ থাকছে ২৯ মিলিয়ন ইউরো (২৫২ কোটি টাকা)। ২০২১ সালের মধ্যে বার্সার ১ বিলিয়ন ইউরোর রাজস্ব আয়ের যে লক্ষ্য সে দিকেই এগিয়ে চলেছে মেসিদের ক্লাবটি। ক্লাবের অফিশিয়াল টুইটার পেজে লেখা হয়েছে, ‘২০১৫-১৬ মৌসুমে রেকর্ড ৬৭৯ মিলিয়ন ইউরো রাজস্ব আয়ের মধ্য দিয়ে শেষ হলো বার্সার মৌসুম।’

একই সঙ্গে বার্সেলোনার হোম ভেন্যু ন্যু ক্যাম্পের যে সংস্কার পরিকল্পনা রয়েছে, সে লক্ষ্যেও ভালোভাবে এগিয়ে চলছে কাতালানরা। একই সঙ্গে ক্লাবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে কাতার এয়ারওয়েজের সঙ্গে আরও এক বছর চুক্তি বাড়িয়েছে বার্সা।

প্রে-সিজন প্রস্তুতির অংশ হিসেবে বার্সেলোনা এখন ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন্স কাপে খেলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।

গোল সমতায় দুই আবাহনীর পয়েন্ট ভাগাভাগি

পয়েন্ট ভাগাভাগি করে সন্তুষ্ট থাকতে হলো দুই আবাহনীকে। রাজধানী ও বাণিজ্যিক রাজধানীর চির প্রতিদ্বন্দ্বী দুই আবাহনী সোমবার রাতে প্রিমিয়ার লিগে মুখোমুখি হয়। খেলার আগেই কেউ কাউকে ছাড় দিতে রাজি না থাকলেও ফলাফলে কিন্তু দুই দলই সমানে সমান। খেলা শেষে ১-১ গোলে ড্র করে সমতা নিয়ে মাঠ ছাড়ে দুদল।

সোমবার চট্টগ্রাম এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দিনের দ্বিতীয় ম্যাচটি দুই আবাহনীর ‘বিগ ম্যাচে’ পরিণত হয়।

খেলার ৭ মিনিটে চট্টগ্রাম আবাহনীর মিডফিল্ডার জাহিদ হোসেনের পাস থেকে সতীর্থ সোহেল রানা তিন খেলোয়াড়কে কাটিয়ে বক্সের ভিতর নেয়া শর্টে ক্রসবার উঁচিয়ে বাইরে চলে যায়।

৩৪ মিনিটে ঢাকা আবাহনীর ডিফেন্ডার মামুন মিয়া ডান প্রান্ত থেকে ঢুকে বক্সে লব করলে মিডফিল্ডার বিপ্লব দর্শনীয় হেডে জালের ঠিকানা খুঁজে পায় আবাহনী। এতে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় ঢাকা আবাহনী।

খেলার দ্বিতীয়ার্থের শুরু থেকেই গোল পরিশোধে মরিয়া হয়ে উঠে চট্টগ্রাম আবাহনী। অনেকটা আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে। ৭৬ মিনিটে অধিনায়ক মামুনের কর্নার থেকে উড়ে আসা বলে সতীর্থ বদলি ফরোয়ার্ড রুবেল মিয়া দুর্দান্ত এক সাইড ভলিতে দলকে কাঙ্খিত একটি গোল পাইয়ে দিয়ে সমতায় ফেরান (১-১)।

এরপর দু’দলের আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে দারুণ উপভোগ্য হয়ে ওঠে অগ্রজ-অনুজের ম্যাচ। অতিরিক্ত সময়ে চট্টগ্রাম আবাহনীর রুবেল মিয়ার বক্সের ভিতর জোরালো ক্রস ঢাকা আবাহনীর ডিফেন্ডার শাকিল বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে কর্নারের বিনিময়ে দলকে পরাজয়ের হাত থেকে রক্ষা করেন। খেলা শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত কোনো দলই আর গোলেরা দেখা পাননি।

হঠাৎ করেই বাতিল ম্যানচেস্টার ডার্বি

প্রিমিয়ার লিগ মৌসুমের অন্যতম  সেরা লড়াইয়ের উপলক্ষ দিতে যাচ্ছে দুই নগর প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এবং ম্যানচেস্টার সিটি। এই লড়াইকে আরো চমকপ্রদ করে তুলেছে দু দলের কোচ মরিনহো এবং গার্দিওলা। মৌসুম শুরুর আগেই দু’দলের খেলার কথা রয়েছিল সোমবার। কিন্তু হঠাৎ করেই বাতিল করা হলো সে ম্যাচটি।

মূলত বাজে আবহাওয়ার কারণেই ম্যাচটি বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আয়োজন কমিটি। মৌসুম শুরুর আগে প্রি-সিজন ফ্রেন্ডলি টুর্নামেন্ট ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন্স কাপে সোমবার চীনে মুখোমুখি হওয়ার কথা ছিল দুই ম্যানচেস্টারের। কিন্তু বেরসিক আবহাওয়া সকল আয়োজন কেড়ে নিল।

দুই দলের সম্মতি নিয়েই ম্যাচটি বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে রেড ডেভিলরা তাদের আইডিতে ম্যাচটি বাতিলের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা জানায়। এর আগে মরিনহো এবং গার্দিওলার কথার লড়াইয়ে বেশ রোমাঞ্চ জাগিয়েছিল প্রি-সিজন ডার্বি ম্যাচটি।

শেষ মুহূর্তের গোলে শেখ জামালকে রুখে দিল আরামবাগ

জজ ভুইয়া বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ঘটনাবহুল উদ্বোধনী ম্যাচে শিরোপাধারী শেখ জামালকে ১-১ গোলে রুখে দিয়েছে আরামবাগ। চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এ খেলায় প্রথমে গোল করেছিল জামাল, দ্বিতীয়ার্ধে সমতাসূচক গোল করে আরামবাগ। খেলার শেষ মিনিটে দুই দলই পরিণত হয় দশ জনের দলে।.

খেলার ১৬ মিনিটে নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড এমেকা ডারলিংটনের গোলে এগিযে যায় শেখ জামাল। মিডফিল্ডার রাকিব সরকারের সঙ্গে ওয়ান-টু করে আরামবাগ ডিফেন্স ভেদ করেন এমেকা। বক্সের মাঝামাঝি স্থান থেকে নেন ডান পায়ের জোরালো শট। আরামবাগ গোলরক্ষক মিটুল হাসান বল রোখার চেষ্টা করেও পারেননি।

গোলের পরও শেখ জামাল আক্রমণ অব্যাহত রাখে। এর ধারাবাহিকতায় ২২ মিনিটে বক্সের ওপরে একটি ফ্রি কিক আদায় করে নেয়। ভালোই শট নিয়েছিলেন গাম্বিয়ান মিডফিল্ডার ল্যান্ডিং ডারবো। কিন্তু আরামবাগ গোলরক্ষক মিটুল হাসান বল ফিস্ট করে দলকে এ যাত্রা বাঁচিয়ে দেন।

ল্যান্ডিং আবারও দলকে হতাশায় ডোবান ৪১ মিনিটে। মিডফিল্ডার শিহাবের শট মিটুল হাসান ফিরিয়ে দিলে রিবাউন্ড এসে পড়ে ল্যান্ডিংয়ের পায়ে। গাম্বিয়ান মিডফিল্ডারটি বেশি জোরে মারতে গিয়ে বল তুলে দেন ক্রসবারের ওপরে। বলা যায় প্রধমার্ধে একচেটিয়া আধিপত্য বিস্তার করে শেখ জামাল।.”

তবে দ্বিতীয়ার্ধে চিত্রটা পাল্টে যায়, অারামবাগ বল ধরে রেখে খেলা শুরু করলে শেখ জামালের প্রেসিং ফুটবল হারায় ছন্দ। ৬৩ মিনিটে একটি কাউন্টার অ্যাটাক থেকে ডিফেন্ডার মনসুর আমিনের আচমকা নেওয়া ২৫ গজি শট জামাল গোলরক্ষক হিমেলের হাতে লেগে আঘাত হানে সাইড পোস্টে। ৭২ মিনিটে জাতীয় দলের ক্যাম্পে ডাক পাওয়া তরুন উইঙ্গার জাফর ইকবাল নিজ দক্ষতায় দুইজন জামাল ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে শট নেন পোস্টের ওপরে।

ইনজুরি টাইমে সমতা ফেরায় আরামবাগ। ৯২ মিনিটে মনসুর আমিনের ক্রসে ছোট বক্সের ওপর থেকে ভলি শটে আরামবাগকে সমতায় ফেরান ফরোয়ার্ড মো: আবদুল্লাহ।

শেষ মুহূর্তে গোল খেয়ে মেজাজ হারান এমেকা ডারলিংটন। আরামবাগের নাইজেরিয়ান ডিফেন্ডার ইসা ইউসুফের সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন। দুজনকেই ম্যাচের দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখান রেফারি। ফলে উভয় টিম ১০ জনের দলে পরিণত হয়।

বার্সায় দেখা যাবে নতুন মেসিকে

রাজা ফিরলেন কিন্তু ফিরলেন এক নতুন রূপ নিয়ে। শতবর্ষী কোপা আমেরিকার ফাইনালে হারার পর বেশ কিছুদিন ছুটি কাঁটিয়ে বার্সায় ফিরেছেন বার্সেলোনার সেরা খেলোয়ার লিওনেল মেসি। কিন্তু এবার দেখা যাবে অন্য মেসিকে। এমন রূপে এর আগে কেউ কখনো দেখেনি তাকে।

নতুন মৌসুমকে সামনে রেখে নিজের চুলের রঙ পাল্টে ফেললেন মেসি। কালো চুলকে একদম সাদা বানিয়ে ফেলেছেন এই আর্জেন্টাইন তারকা।  তাছাড়া হাতে নতুন ট্যাটুও আঁকিয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে মেসির বান্ধবী অ্যান্তনেল্লা রোকুজ্জো তার আইডিতে মেসির ছবিটি পোস্ট করে লেখেন, ‘নতুন রূপ’।

অন্যদিকে মেসির এই নতুন রূপে আসাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে সমালোচনার ঝড় ওঠে। কেউ কেউ মেসির আগের চুলের রঙকেই ফেরত চাইছেন। অনেকে গেল মৌসুমের বার্সেলোনা দলের মেসির রূপকে ফেরত চাচ্ছেন।

জমজমাট প্রিমিয়ার ফুটবল লিগ শুরু আজ

পেশাদার ফুটবলের যুগে প্রবেশের পর থেকেই যেন বাংলাদেশের ফুটবলের জনপ্রিয়তা তলানীতে গিয়ে থামে। সেই পেশাদার লিগের কোন আসরের শুরুতে তোলপাড় ফেলেছিল কি না খুঁজে দেখার প্রয়োজন হবে, যেমনটা এবার হচ্ছে। বেশ ঢাক-ঢোল পিটিয়েই শুরু করা হচ্ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ। শুধু ঢাকায় বন্দী না রেখে এবারের ফুটবল লিগকে সারা দেশে ছড়িয়ে দেয়ার লক্ষ্যে চট্টগ্রামসহ মোট চারটি ভেন্যুতে আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

শুধু তাই নয়, বেশ জাঁকজকমপূর্ণভাবে শুরু করার সব আয়োজনই সম্পন্ন করে এনেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। ঢাকার বাইরে উদ্বোধন, কনসাট আয়োজন করে সারা দেশেই তোলপাড় ফেলে দেয়ার মত সব আনুসাঙ্গিকতাই সম্পন্ন করা হলো। শুধু তাই নয়, সাইফ পাওয়ারটেকের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক চুক্তি, জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী মমতাজকে শুভেচ্ছা দূত নিয়োগ আর লোগো ও ট্রফি উন্মোচনের পর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

সব মিলিয়ে বড় ধরনের নতুনত্ব নিয়েই এবার আয়োজন হচ্ছে ঘরোয়া ফুটবলের সবেচেয়ে মর্যাদার আসর জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ। সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে এখন অপেক্ষা মাঠের লড়াইয়ের। সে অপেক্ষাও প্রায় শেষ। আর কয়েক ঘণ্টা পরই বাজবে কিক অফের বাঁশি। ১২ দলের এ লড়াই শুরু করতে প্রস্তুত চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়াম। বন্দরনগরীর এ ভেন্যুতেই পর্দা উঠছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের নবম আসরের। টুর্নামেন্টের টাইটেল স্পন্সর জজ ভূঁইয়া (জেবি) গ্রুপ।

প্রিমিয়ার লিগের আগের ৮ আসরের খেলা হয়েছে নামকাওয়াস্তে হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে। বেশিরভাগ খেলাই ছিল ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে। এবার লিগ আয়োজন হচ্ছে নতুন আঙ্গিকে। পেশাদার লিগের আসল চরিত্র হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ের পরিবর্তে অনেকটা টুর্নামেন্টের আদলে।

দল বেধে এক ভেন্যুতে খেলে আবার অন্য ভেন্যুতে। এভাবে চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, ঢাকা ও সিলেটে। ভেন্যুর তালিকায় রাজশাহী, বরিশাল ও গোপালগঞ্জও ছিল। ক্লাবগুলোর চাপ এবং অনৈতিক আবদারের মুখে লিগ কমিটি ছেঁটে ফেলেছে শেষের ভেন্যু তিনটি।

চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে প্রথম তিন রাউন্ড। আজ (রবিবার)উদ্বোধনী দিনে মাঠে নামছে গতবারের চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ও রানার্সআপ শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। বিকাল সাড়ে চারটায় প্রথম ম্যাচে জামালের প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপে রানার্সআপ হয়ে পূনরায় প্রিমিয়ার লিগে ফিরে আসা আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ এবং সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় দ্বিতীয় ম্যাচে শেখ রাসেল খেলবে প্রিমিয়ার লিগে ফিরে আসা আরেক দল উত্তর বারিধারার সঙ্গে। সপ্তম আসরে প্রথম অংশ নিয়ে বারিধারার দলটি অবনমন হয়েছিল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে। পেশাদার লিগের দ্বিতীয় স্তর চ্যাম্পিয়ন হয়ে আবার তারা সর্বোচ্চ লিগে।

জেবি প্রিমিয়ার লিগ মাঠে গড়াচ্ছে রোববার

‘জমবে খেলা মাতবে দেশ’ স্লোগান নিয়ে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন আয়োজিত জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের খেলা মাঠে গড়াচ্ছে রোববার। জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে গত ২০ জুলাই উদ্বোধন হওয়া এ লিগ চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে।

দেশের ফুটবলের সবচাইতে বড় আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের নবম আসর এটি। শুরুতে ‘বি’ লিগের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। গত আটটি আসর থেকে এবারের বিপিএল একেবারে ভিন্ন। এবারই প্রথমবারের মত কোনো প্রতিষ্ঠান (সাইফ পাওয়ার টেক) বিপিএলের স্বত্ত্ব কিনে নিয়েছে এবং এবারই প্রথমবারের মত ঢাকার বাইরে চট্টগ্রাম থেকে শুরু হচ্ছে বিপিএল।

চট্টগ্রাম ভেন্যুর খেলা উদ্বোধন করবেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, সিজেকেএস সাধারণ সম্পাদক আলহাজ আ জ ম নাছির উদ্দীন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক ও সিজেকেএস সভাপতি মেজবাহ উদ্দিন এবং স্পন্সর প্রতিষ্ঠান সাইফ পাওয়ারটেক এর স্বত্ত্বাধিকারী তরফদার মো. রুহুল আমিন। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের কর্মকর্তারাও এ সময় উপস্থিত থাকবেন।

২৪ জুলাই হতে ৩ আগস্ট পর্যন্ত এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে এ লিগের প্রথম তিন রাউন্ডের মোট ১৮টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।
রোববার বিকেল সাড়ে ৪টায় উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে বিপিএলের গত দুই আসরের চ্যাম্পিয়ন লে. শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব লিমিটেড ও আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় দিনের ২য় ম্যাচে খেলবে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেড ও উত্তর বারিধারা ক্লাব।

আর দুটি ম্যাচের মধ্যখানের প্রায় সোয়া এক ঘণ্টা সময়ে যাতে দর্শকদের বিরক্তি না আসে সেজন্য থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। টিকিটের দাম রাখা হয়েছে দৈনিক ৬০ টাকা যা আয়োজকদের অবিবেচনাপ্রসূত সিদ্ধান্ত বলেই ক্রীড়ামোদি মহলে সমালোচনার ঝড় সৃষ্টি করেছে।

ইতোমধ্যেই অংশগ্রহণকারী ১২টি দল চট্টগ্রামে এসে পৌঁছেছে। শনিবার ছয়টি দল অনুশীলন করেছে তিনটি ভেন্যুতে-দামপাড়া পুলিশ লাইন মাঠ, শারীরিক শিক্ষা কলেজ মাঠ ও বন্দর স্টেডিয়ামে।

সাইফ পাওয়ার টেক-এর পৃষ্ঠপোষকতা, বাফুফের আয়োজন আর ইভেন্ট ম্যানেজার হিসেবে সাইফ গ্লোবাল স্পোর্টস থাকলেও শনিবার সিজেকেএস সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে সিজেকেএস।

এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বিপিএল চট্টগ্রাম ভেন্যুর মিডিয়া উপ-কমিটির আহ্বায়ক আলহাজ আলী আব্বাস। বক্তব্য রাখেন লিগ কমিটির প্রধান উপদেষ্টা, সিজেকেএস সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন, বিপিএল স্থানীয় (চট্টগ্রাম) আয়োজক কমিটির চেয়ারম্যান ও জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম আবাহনীর মহাসচিব সামশুল হক চৌধুরী এমপি, সাইফ গ্লোবাল স্পোর্টস লিমিটেডের কো-অর্ডিনেটর শাকিল মাহমুদ, বিপিএল স্থানীয় (চট্টগ্রাম) আয়োজক কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ শাহাবুদ্দিন শামীম, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা কমিটির প্রধান অহীদ সিরাজ চৌধুরী স্বপন প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে গত ২০ জুলাই চোখধাঁধানো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দর্শকখরার বিষয়টি নিয়ে আয়োজকরা অকপটে স্বীকার করলেন, প্রচারের অভাবের কারণে এ অনুষ্ঠান দর্শক টানতে পারেনি। তবে প্রচারের কাজটা এবার তারা বেশ জোরে সোরে চালিয়ে যাচ্ছেন।

আরো জানানো হয়, সিজেকেএস-এর কর্মচারীদের অক্লান্ত পরিশ্রমে লিগের সবচাইতে বড় অনুষঙ্গ মাঠ পুরোপুরি প্রস্তুত। তবে শনিবার পর্যন্ত নির্ধারিত হয়নি খেলার খবর প্রচারের প্রধান মাধ্যম মিডিয়ার সাংবাদিকরা কোথায় বসবেন। ভেন্যুতে ইন্টারনেট ব্যবস্থা ছিল না ম্যাচের আগের দিন পর্যন্ত। বিকল এসির কারণে ছোট প্রেস কনফারেন্স রুমে ছিল প্রচণ্ড গরম। অবশ্য সেখান থেকেই আয়োজকদের ঘোষণা-ভুল-ক্রুটি শুধরে, সবকিছুকে উতরে সুন্দরভাবে আয়োজন করতে পারবেন বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্ব। কিন্তু বিপিএল’র স্থানীয় (চট্টগ্রাম) আয়োজক কমিটির ব্যবস্থাপনায় ১৮টি ম্যাচের শিডিউল থাকলেও এ কমিটির লোকজন কারা, এমনকি দু’এক জন ছাড়া সিজেকেএস’র কর্মকর্তাদেরও কেন কোনো কাজে দেখা যাচ্ছে না যা সুষ্ঠু আয়োজন নিয়ে সংশয়ের সৃষ্টি করাটাই স্বাভাবিক।

মোহামেডানের সাবেকদের স্মৃতিচারণ

ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোটিং ক্লাবের সমর্থকগোষ্ঠী ‘মহাপাগল’-এর আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়েছে ঈদ পুনর্মিলনী ও স্মৃতিচারণ। এ উপলক্ষ্যে শুক্রবার বিকেলে মহাপাগলের কার্যালয় রামপুরার উলনে জমকালো অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন মোহামেডানের সাবেক তারকা ফুটবলার ও সমর্থকরা।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক তারকা ফুটবলাররা স্মৃতিচারণ করেন। দেশের ফুটবলের অতীত ও বর্তমান অবস্থা নিয়ে আলোচনা করেন সাবেক মাঠ কাঁপানো ফুটবলার সামছুল আলম মঞ্জু, আব্দুল গাফফার, কায়সার হামিদ, হাসানুজ্জামান বাবলুসহ আরও অনেকে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চ্যানেল২৪-এর ক্রীড়া সম্পাদক দিলু খন্দকার। মহাপাগলের প্রতিষ্ঠাতা টি ইসলাম তারিকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির ভাবী সভাপতি টিক্কু জামান, শফিকুল ইসলাম, রাসেল ওমর, নজরুল ইসলাম, মোশাররফ হোসেনসহ আরও অনেকে।

এবার মেক্সিকান নারীর দিকে ঝুঁকছেন রোনালদো!

ফুটবলে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। বিশ্বকাপ বাদে ফুটবলের প্রায় সব শিরোপারই স্বাদ পাওয়া হয়ে গেছে রোনালদোর। কিন্তু শিরোপা ছাড়াও রোনালদো নারী ঘটিত ব্যাপারেও অন্যান্যদের থেকে একটু বেশি এগিয়ে। মূলত তার সুঠাম দেহ এবং তার পরিশ্রমের কারণেই নারীরা তার দিকে আকৃষ্ট হয়। এবার মেক্সিকান গায়িকা এবং অভিনেত্রীর সঙ্গে দেখা গেল রোনালদোকে।

ইউরো কাপ জয়ের পর পরিবারের সঙ্গে ছুটি কাটাতে ইবজিয়াতে যান রোনালদো।  সেখানেই মেক্সিকান গায়িকা ইজা গঞ্জালেজকে একসঙ্গে দেখা যায়। ইংলিশ মিডিয়ার দাবি নতুন করে গঞ্জালেজের প্রেমে পড়েছেন রোনালদো। তাছাড়া রোনালদোর ইউরো কাপের ফাইনাল দেখতে মেক্সিকো থেকে ছুটে যান ফ্রান্সের প্যারিসে। তবে মেক্সিকান এক টিভি চ্যানেলে নিজের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে গিয়ে রোনালদোর সঙ্গে যেকোন রকম সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেছেন গঞ্জালেজ।

Ronaldo

ইরিনা শায়েকের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর একাকি জীবন কাটাচ্ছিলেন রোনালদো। সেটি থেকে মুক্তি পেতে বেশ কয়েকজন নারীর সঙ্গেই রোনালদোর প্রেমের গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল। যদিও পরবর্তীতে সেগুলোর কোন সত্যতা পাওয়া যায়নি। অবশ্য গঞ্জালেজের সময়টাও ভালো যাচ্ছে না। ২০১৫ সালে ডিজে কট্রোনার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন হওয়ার পর তিনিও একাকি জীবনযাপন করছিলেন।

বিপিএলের চূড়ান্ত সূচি প্রকাশ

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের জমকালো উদ্বোধন হয়েছে বুধবার সন্ধ্যায়। রোববার থেকে মাঠে গড়াবে সম্পূর্ণ ভিন্ন আঙ্গিকে আয়োজিত হতে যাওয়া এই লিগ।
তার আগে বৃহস্পতিবার লিগের পূর্ণাঙ্গ সূচি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগের স্বাক্ষর করা সূচি অনুযায়ী চট্টগ্রাম পর্বের পর শুরু হবে ময়মনসিংহ পর্ব। এরপর ঢাকা। ঢাকার পরে শুরু হবে সিলেট পর্ব। আর শেষ পর্যটিও হবে ঢাকায়।

চট্টগ্রামে ২৪ জুলাই থেকে ৩ আগস্ট পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে বিপিএলের প্রথম পর্ব। এই সময়ের মধ্যে লিগের প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচ হবে।

এরপর ৫ আগস্ট থেকে ১৭ আগস্ট পর্যন্ত ময়মনসিংহ জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে লিগের দ্বিতীয় পর্ব। সেখানে চতুর্থ ও পঞ্চম রাউন্ডের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। ময়মনসিংহ স্টেডিয়ামে ফ্ল্যাড লাইট না থাকায় প্রতিদিন একটি করে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

১৮ আগস্ট থেকে ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে লিগের তৃতীয় পর্ব। এখানে হবে ষষ্ঠ ও সপ্তম রাউন্ড। ১১ থেকে ১৩ সেপ্টেম্বর ঈদ-উল-আযহার ছুটি।

১৫ থেকে ২১ সেপ্টেম্বর সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে চতুর্থ পর্ব। সেখানে হবে লিগের অষ্টম ও নবম রাউন্ডের ম্যাচগুলো। আর ২৯ থেকে ১ অক্টোবর পর্যন্ত ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে লিগের শেষ পর্ব ও সবশেষ দুই রাউন্ড (দশম ও একাদশতম)।

এখন দেখার বিষয় সঠিক সময়ে সবকিছু অনুষ্ঠিত হয় কিনা। কারণ, ফুটবল ফেডারেশনের যে বারবার সময়সূচি পরিবর্তনের বাতিক রয়েছে।

এবারের লিগে অংশ নেওয়া দলগুলো হল :
১. শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব
২. আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ
৩. শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র
৪. উত্তর বারিধারা ক্লাব
৫. মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব
৬. রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি
৭. ঢাকা আবাহনী লিমিটেড
৮. চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেড
৯. ব্রাদার্স ইউনিয়ন
১০. ফেনী সকার ক্লাব
১১. মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র
১২. টিম বিজেএমসি।

জোয়ানার সঙ্গে রাত কাটিয়েছিলেন মেসি!

খেলোয়াড়দের জীবনে নারী কেলেঙ্কারি নতুন কিছু নয়। তবে এ ক্ষেত্র থেকে এতদিন অনেক দূরেই ছিলেন বার্সা তারকা মেসি। তবে এবার  দুই ছেলে ও আন্তোনেলা রোকুজ্জোকে নিয়ে সাজানো সংসারে নতুন ঝড় তুললেন তার এক স্বদেশী আর্জেন্টাইন মডেল জোয়ানা গঞ্জালেজ। পেরুভিয়ান টেলিভিশনের `দ্য ভ্যালু অব ট্রুথ` অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি জানালেন, মেসির সাথে রাত কাটিয়েছিলেন!

২৫ বছরের মডেল জোয়ানা আর্জেন্টিনার টেলিভিশন ও গ্ল্যামার জগতে বেশ আগে থেকে পরিচিত মুখ। `দ্য ভ্যালু অব ট্রুথ` অনুষ্ঠানের পলিগ্রাফিক টেস্ট বা লাই ডিটেক্টর টেস্টে একটি প্রশ্ন ছিল, মেসির সাথে তার যৌন সম্পর্ক হয়েছিল কি না। জোয়ানা বলেছেন, `হ্যাঁ`।  অনুষ্ঠানে ২১টি প্রশ্নের সঠিক জবাব দিয়ে ১৪ হাজার ইউরো জিতেছেন এই সুন্দরী।

কয়েক বছর আগের ঘটনা টেনে তিনি দাবি করেছেন, `মনে হয় আমার নামও তার মনে নেই। তবে রাতটা ছিল চমৎকার। অনেক গোল হয়েছিল…তবে ম্যাচ হয়েছিল ড্র।` জোয়ানার সাথে মেসির নাম প্রথম আসে ২০১১ সালে। জোয়ানা একটি নাইট ক্লাবে মেসি ও তার কয়েকজন সেলিব্রেটি আর্জেন্টাইন সতীর্থের পার্টির খবর দিয়েছিলেন। তিনিও আরো কয়েকজন নামি দামি মডেলের সাথে সেখানে ছিলেন। জোয়ানা তখন মেসির সাথে তার রোমান্সের কথা বলেছিলেন।

অলিম্পিকে নিষিদ্ধ রাশিয়ার ৬৮ অ্যাথলেট

শেষ পর্যন্ত ক্রীড়া আদালতের দ্বারস্থ হয়েও কোন লাভ হলো না রাশিয়ার। ডোপিং এর দায়ে ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ড ইভেন্টের মোট ৬৮ জন রাশিয়ান অ্যাথলেটকে নিষিদ্ধ করা হল। এর আগে অবশ্য রাশিয়ান অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনকেও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

অভিযোগ রয়েছে, রাশিয়াকে অলিম্পিক থেকে উপড়ে ফেলার জন্য একজোট হয়ে মাঠে নেমেছে যুক্তরাষ্ট্র এবং কানাডা। তাদের অভিযোগ ছিল ডোপ কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়েছেন রুশ অ্যাথলেটরা। এর পরপরই নড়েচড়ে বসে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি। ডোপ কেলেঙ্কারি নিয়ে বৈঠকের পরপরই রাশিয়ার ৬৮ জন অ্যাথলেটকে নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

নিষেধাজ্ঞা কাটাতে আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আদালতের দ্বারস্থ হয় রাশিয়া। কিন্তু সেখানেও ব্যর্থ হতে হলো তাদের। আদালত থেকে নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখা হয়েছে। অর্থাৎ, ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ড ইভেন্টে ব্রাজিলে অনুষ্ঠিতব্য অলিম্পিকে দেখা যাবে না রাশিয়ার কোন অ্যাথলেটিককে।

বিশ্বরেকর্ড গড়ে ম্যানইউতে যাচ্ছেন পগবা

জুভেন্তাস দাবি করেছিল ১২০ মিলিয়ন উইরো। ম্যানইউ দাম হাঁকিয়েছিল ১০৩ ইউরো। শেষ পর্যন্ত ১১০ ইউরোতেই হলো দফারফা (প্রায় ৯৫৩ কোটি টাকা)। জুভেন্তাসের ফরাসি প্লে মেকার পল পগবা রেকর্ড ট্রান্সফারের বিনিময়েই যাচ্ছেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ক্লাব ম্যানইউতে।

ইউরো ফাইনালে পগবা ছিলেন একেবারেই নিষ্প্রভ। যে কারণে, অনেকেই মনে করছেন পগবার মূল্য না হয় উঠে যেতো আরও অনেক বেশি। তবুও শেষ পর্যন্ত ট্রান্সফারের রেকর্ডটা গড়েই ফেললেন তিনি। পেছনে ফেলে দিলেন গ্যারেথ বেলকে।

২০১৩ সালে আরেক ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ক্লাব টটেনহ্যাম হটস্পার থেকে ১০০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে ওয়েলসের স্ট্রাইকার গ্যারেথ বেলকে কিনে নিয়ে রেকর্ড গড়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। আগের রেকর্ডটাও ছিল তাদের। ২০০৯ সালে ম্যানইউর কাছ থেকেই ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে ৯৪ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে কিনেছিল রিয়াল মাদ্রিদ।

বুধবারেই চুক্তির বিষয়ে দর কষাকষি শেষ হয়ে যায়। পাঁচ বছরের জন্য রেড ডেভিলদের হয়ে চুক্তিতে স্বাক্ষর করছেন পগবা। অথচ ফরাসি এই মিড ফিল্ডারকেই ২০১২ সালে ফ্রিতে ছেড়ে দিয়েছিল ম্যানইউ। চার বছর পর তাকেই কিনতে হলো রেকর্ড ট্রান্সফারের বিনিময়ে।

রিয়াল মাদ্রিদও আগ্রহী ছিল পগবাকে কেনার ব্যাপারে। তবে শেষ পর্যন্ত তাদেরকে হারিয়ে জুভেন্তাসের এই ফুটবলারকে জিতে নিল ম্যানইউ। বাৎসরিক ১৩ মিলিয়ন ইউরো পারিশ্রমিক পাবেন তিনি। জুভেন্তাসে যা পারিশ্রমিক পেতেন তিনি, তার তিনগুণ পাবেন ম্যানইউতে।

প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের জমকালো উদ্বোধন

`লেটস শাউট ফুটবল` বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের থিম সং। গাইলেন আইয়ুব বাচ্চু-মমতাজরা। দেশের জনপ্রিয় দু’জন শিল্পীর গান আর সঙ্গে নীরবের নাচ, উপচে পড়া গ্যালারি- এসবের মাঝেই উম্মাতাল হয়ে উঠলো চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়াম। জমকালো কনসার্টের মধ্য দিয়ে পর্দা উঠে গেলো জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগের। যদিও লিগের উদ্বোধনী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ২৪ জুলাই।

প্রিমিয়ার লিগের উদ্বোধন অনুষ্ঠানটি শুরু হয় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়। আগেই জানানো হয়েছিল, লিগ শুরুর চারদিন আগে চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হবে কনসার্ট এবং আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। সে কারণে গ্যালারিতে ছিল দর্শকদের উপচে পড়া ভিড়। টিকিটের মূল্য ছিল ১০০ টাকা।

BPL

কনসার্টে বিপিএল ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর মমতাজের সঙ্গে আইয়ুব বাচ্চুসহ ঢাকা ও স্থানীয় অন্যান্য শিল্পীরা সঙ্গীত পরিবেশ করেন। বিপিএলের থিম সং `লেটস শাউট ফুটবল` এর সুরে সুরে নেচে দর্শকদের আনন্দ দেন জনপ্রিয় অভিনেতা নিরব ও সহ শিল্পীরা।

এমএ আজিজ স্টেডিয়ামেই প্রথম রাউন্ডের খেলাগুলো খেলবে লিগের ১২টি দল। প্রতিদিন দুটি করে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। টিকিটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ টাকা করে। এক টিকিটেই দেখা যাবে একসঙ্গে দুটি ম্যাচ।

BPL

চট্টগ্রামে সর্বমোট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ২৪টি। ২৪ জুলাই উদ্বোধনী খেলায় শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবের মুখোমুখি হবে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। একই দিন পরের ম্যাচে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের বিপক্ষে লড়বে উত্তর বারিধারা ক্লাব।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন ও বিপিএলের স্বত্ত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান সাইফ গ্লোবাল স্পোর্টসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তরফদার মো. রুহুল আমিন।

মরিনহোর কাছে রোনালদো নয়, মেসিই সেরা

হোসে মরিনহো তো স্রেফ ম্যারাডোনার কাতারে নেমে এলেন! ম্যারাডোনা যেমন এক সময় লিওনেল মেসিকেই সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে রাখতেন। মেসির মাঝে নিজের ছায়া দেখতেন; কিন্তু কিছুদিন আগেও নিজের অবস্থান থেকে সরে এসে মেসির সমালোচনা করলেন। বলেছিলেন, মেসি আর্জেন্টিনার অধিনায়ক হওয়ার যোগ্য নন। ম্যারাডোনার মত অবস্থান নিলেন হোসে মরিনহোও। তার কাছে এতদিন বিশ্বসেরা ফুটবলার ছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো; কিন্তু কী এমন হলো যে, হঠাৎ রোনালদোর চেয়ে মেসিই হয়ে গেলেন তার কাছে সেরা ফুটবলার।

এই তো মাত্র ক’দিন আগে ইউরো জিতেছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো। ওই সময় পর্তুগালের জার্সি পরে ছবিও পোস্ট করেছিলেন মরিনহো। নিজ দেশের সাফল্যে যারপরনাই উচ্চসিত হয়েছিলেন; কিন্তু হঠাৎ করেই যখন তাকে বলা হলো সর্বকালের সেরা তিন ফুটবলার বাছাই করে নিতে। তখন, মরিনহো বললেন, তার কাছে সর্বকালের সেরা তিন ফুটবলার হলেন পেলে, ম্যারাডোনা এবং লিওনেল মেসি।

এই একটি প্রশ্নে এসে রোনালদোকে পেছনে ঠেলে দিলেন মরিনহো। অথচ, নিজ দেশের বলেই নয় শুধু রিয়াল মাদ্রিদে থাকাকালে তিন বছর রোনালদোর বস ছিলেন মরিনহো। ওই সময় তো মেসিকে সেরা মানতেই চাইতেন না। মরিনহোর কাছে ক্রিশ্চিয়ানোই দুনিয়ার সবচেয়ে সেরা ফুটবলার।

এমনকি ২০১৩ সালে যখন ফিফা ব্যালন ডি’অর জিতেছিলেন রোনালদো, তখন তিনি এমনও বলেছিলেন, ‘তিনিই (রোনালদো) হলেন সেরা। বিশ্বের সেরা। সম্ভবত সর্বকালের সেরাও। আমি কিছুদিন ম্যারাডোনার খেলা দেখেছি। পেলের খেলা দেখিনি। তবে, ক্রিশ্চিয়ানো বিস্ময়কর। এই ফুটবলারটিই বিশ্বসেরা।’

অথচ সেই মরিনহোই কি না, সর্বকালের সেরা ৩ ফুটবলার বেছে নিতে গিয়ে রোনালদোর নামই মুখে আনলেন না। পেলে-ম্যারাডোনার সঙ্গে বাছাই করলেন মেসিকেই।

বিনা বেতনে আর্জেন্টিনার কোচ হতে চান ম্যারাডোনা

উদ্ভট কথা বলে খবরের শিরোনাম হতে বেশ পটু আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক ডিয়েগো ম্যারাডোনা। এবারও তার ব্যতিক্রম হলো না। এবার বেতন ছাড়াই আর্জেন্টিনার কোচ হওয়ার আশা প্রকাশ করলেন ম্যারাডোনা।

৫৫ বছর বয়সী এই ফুটবল ব্যক্তিত্ব বলেন, `আর্থিক কারণে ডিয়াগো সিমিওনে জাতীয় দলের দায়িত্ব নিতে ইচ্ছুক নন। কিন্তু আমার জন্য অর্থ বড় কোনো বিষয় নয়। আর্জেন্টিনার জাতীয় দলকে বিনা বেতনে কোচিং করাতে প্রস্তুত আছি।`

মাঠের ফুটবলে ভালো খেললেও কোচিংয়ে তেমন একটা সুবিধা করতে পারেননি ম্যারাডোনা। ২০১০ বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার কোচ ছিলেন তিনি। তার অধীনে জার্মানির কাছে কোয়ার্টার ফাইনালে ৪-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয় আর্জেন্টিনা।

টাটা মার্টিনোর আর্জেন্টিনার কোচের পদ থেকে সরের দাঁড়ানোর পরেই নতুন কোচের সন্ধানে নেমেছে আর্জেন্টিনার ফুটবল ফেডারেশন। ডিয়েগো সিমিওনেসহ আরো অনেকের নাম আসলেও ম্যারাডোনা নিজেকেই আবার আর্জেন্টিনার কোচের আসনে বসাতে চান।

কোচের আসনটা বেশ ভালোভাবেই যে মিস করছেন ম্যারাডোনা সেটা তার কথাতেই স্পষ্ট। ‘অনেকেই হয়তো ভাবছেন আমি ব্যয়বহুল কোচ। কিন্তু আপনারা মরিনহো, আনচেলাত্তি কিংবা সিমিওনের দিকে তাকান। তাদের তুলনায় আমি কতোটা ব্যয়বহুল তা জানা নেই আমার। এখন কোচিং পেশাটাকে খুব মিস করছি। কতোদিন পেশাদার খেলোয়াড়দের প্রশিক্ষণ করাইনা। তাছাড়া সাংবাদিকদের সঙ্গেও যুদ্ধ করা হচ্ছে না।’

ট্রফি জিতেই অবসরে যাবেন মেসিভক্ত সাকিব

দেশের হয়ে চারটি ফাইনাল খেলেও ট্রফি ছুঁতে পারেননি ফুটবলের রাজপুত্র মেসি। সেই যন্ত্রনায় আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে বিদায়ের ঘোষণা দিয়ে অবাক করেছে সবাইকে তেমনি অবাক হয়েছেন মেসিভক্ত বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তবে শিরোপা ছাড়া মেসি অবসর নিলেও নিজ দেশের হয়ে ট্রফি জেতা ছাড়া অবসরে যাবেন না সাকিব আল হাসান।

এ নিয়ে সাকিব বলেন, `কত দিন খেলব, এখনই সময়-তারিখ বলতে পারছি না। তবে দেশের হয়ে কোনো ট্রফি জেতার আগে খেলা ছাড়ব না ইনশাল্লাহ। শুধু এতটুকু বলে রাখছি।`

২০১২ সালে এশিয়া কাপে ট্রফি জয়ের কাছে গিয়েও জিততে না পারার আক্ষেপ এখনো মাঝে মাঝে কষ্ট দেয় সাকিবকে। এই বিষয়ে তিনি জানান, `কোনো সিরিজ কিংবা আইপিএল জেতাটা অবশ্যই আনন্দের। খুব ভালোও লেগেছিল। তবে এশিয়া কাপের ফাইনালে হারের কষ্টের ভারটা অনেক বেশি।`

সিপিএলে দল ফাইনালে উঠলে আগামী ৯ আগস্ট দেশে ফেরার কথা জানিয়েছেন সাকিব আল হাসান। এই বছরের সেই ফেব্রুয়ারি থেকেই একটানা ক্রিকেটের মধ্যেই আছেন সাকিব আল হাসান তাই সিপিএল শেষ করে পরিবার নিয়ে ঘুরতে যাওয়ার প্ল্যান রয়েছে সাকিবের।

বাধ্য হয়ে ফুটসাল থেকে সরে দাঁড়ালেন রোনালদিনহো

সবেমাত্র শুরু করেছিলেন। দুই ম্যাচেই ভক্ত তথা পুরো ভারতবর্ষকে ফুটবল আনন্দের জোয়ারে ভাসিয়েছিলেন কিংবদন্তি ফুটবলার রোনালদিনহো। কিন্তু অনেকটা বাধ্য হয়েই প্রিমিয়ার ফুটসাল টুর্নামেন্ট থেকে সরে দাঁড়ালেন ব্রাজিলিয়ান এই তারকা। মূলত ‘প্যারাঅলিম্পিক গেমসের’ ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হওয়ার কারণেই ফুটসাল থেকে সরে দাঁড়ালেন রোনালদিনহো।

টুর্নামেন্টে দুই ম্যাচ খেলে তার দল গোয়াকে একটি ম্যাচ জেতাতে সক্ষম হয়েছেন সাবেক এই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন। প্রথম ম্যাচে কলকাতার কাছে হারলেও দ্বিতীয় ম্যাচে ব্যাঙ্গালুরুকে ৭-২ গোলের বিশাল ব্যবধানে হারায় রোনালদিনহোর গোয়া। সেই ম্যাচে একাই ৫ গোল করেছিলেন তিনি। ভক্ত সমর্থকদের প্রধান আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন এই সাম্বা তারকা।

অবশ্য রোনালদিনহো সরে দাঁড়ানোর সঙ্গে সঙ্গেই তার বদলি খেলোয়াড় পেয়ে গেছে গোয়া। ব্রাজিলের ২০০২ বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক কাফুকে নিজেদের দলে টেনেছে তারা। ২০১৫ সালে ফ্লুমিনেন্সের হয়ে খেলার পরেই ক্লাব ফুটবলকে ইতি টানেন রোনালদিনহো। ৩৬ বছর বয়সী এই তারকার অভাব বেশ ভালোভাবেই টের পাবে ফুটসালের দল গোয়া।

মানিকের পরিবর্তে শেখ জামালের দায়িত্বে আফুসি

স্বাধীনতা কাপ, ফেডারেশন কাপ ও এএফসি কাপে টানা ব্যর্থতার দায়ে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের কোচের পদ থেকে বরখাস্ত করা হলো শফিকুল ইসলাম মানিককে। তার পরিবর্তে আবারো ধানমন্ডির এই ক্লাবের দায়িত্ব পাচ্ছেন জোসেফ আফুসি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের এক কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চলতি মৌসুমের শুরুতে স্বাধীনতা কাপের সেমি-ফাইনালে আবাহনী লিমিটেডের কাছে ৬-০ গোলে হারে শেখ জামাল। ফেডারেশন কাপেও দলটির পথচলা থামে আরামবাগের কাছে কোয়ার্টার-ফাইনালে হেরে। দুটি আসরে দলের ব্যর্থতাই মানিকের বিদায়ের কারণ বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন শেখ জামালের কর্মকর্তারা।

এদিকে বর্ণাঢ্য খেলোয়াড়ি জীবন শেষে কোচিং ক্যারিয়ারেও দারুণভাবে সফল ছিলেন শফিকুল ইসলাম মানিক। দেশের অন্যতম বড় ক্লাব ব্রাদার্স ইউনিয়ন, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র ও শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের মতো ক্লাবগুলোর কোচের দায়িত্ব পালন করেছিলেন তিনি। দেশের ফুটবলের নতুন শক্তি চট্টগ্রাম আবাহনীরও কোচের দায়িত্বে ছিলেন মানিক। তার অধীনেই শেখ কামাল আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপের শিরোপা জেতে চট্টগ্রাম আবাহনী।

সবশেষ এ বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের কোচের দায়িত্ব তুলে দেয়া হয় তার হাতে। কিন্তু, দলের লাগামহীন ব্যর্থতায় শেষ পর্যন্ত কোচের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হলো তাকে।

রোনালদিনহোর বিশ্বসেরা মেসি

জাতীয় দলের হয়ে চারটি বড় আসরের ফাইনাল খেললেও শিরোপার স্বাদ পাননি মেসি। নিজে দারুণ ফর্ম থাকা সত্বেও সমালোচকদের বাণে আর বিদ্ধ হতে চান না বলেই ২৯ বছরেই জাতীয় দলকে গুডবাই বলে দিয়েছেন। তবে জাতীয় দল থেকে অবসরের ঘোষণা দিলেও মেসিকে এখনও বিশ্বসেরা বলে দাবী করছেন ব্রাজিলিয়ান ফুটবল গ্রেট রোনালদিনহো।

ভারতের প্রিমিয়ার ফুটসাল লিগে খেলতে আসা রোনালদিনহো বলেন, `এখনো তিনি বিশ্বসেরা ফুটবলার। আদৌ তার প্রতি আমার শ্রদ্ধা এতটুকু কমেনি। আর সত্যি যদি তিনি আন্তর্জাতিক ফুটবলে আর না ফেরেন তবে ফুটবল তার উপস্থিতি মিস করবে এবং ভক্তরাও।`

কিংবদন্তি এই মিডফিল্ডার আরও বলেন, উদীয়মান মেসির সঙ্গে তার সম্পর্কটা বেশ মধুর ছিল। মেসি যখন দলে এসেছিল, তার বয়স ছিল খুবই কম, সম্ভাবনা ছিল অনেক বেশি। তার সঙ্গে খেলাটা দারুণ উপভোগ্য ছিল আমার কাছে। শুধু মাঠ নয়, মাঠের বাইরেও তার সঙ্গ উপভোগ করেছি আমি।`

একটা সময় বার্সেলোনার হয়ে মাঠ মাতিয়েছেন ২০০২ বিশ্বকাপে ব্রাজিলের শিরোপা জয়ের অন্যতম নায়ক রোনালদিনহো। তিনি যখন ফর্মের তুঙ্গে, ঠিক তখনই মেসির আবির্ভাব। আর্জেন্টাইন জাদুকরকে সঠিক পথ দেখিয়ে নিয়ে গেছেন এই রোনি। পরে তার দেখানো পথেই বার্সার ইতিহাস সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন মেসি।

জমকালো আয়োজনে উন্মোচিত হলো বিপিএলের লোগো ও ট্রফি

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) প্রধান সালাউদ্দিন টানা তৃতীয়বারের মত নির্বাচিত হবার পরই জানিয়েছিলেন এবারের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবল (বিপিএল) জাঁকজমকপূর্ণভাবে আয়োজন করা হবে।

আর তার শুরুতেই দারুণ জাঁকজমকপূর্ণভাবেই এ লিগের লোগো ও ট্রফি উন্মোচন করা হলো। লেজার শো, ফ্যাশন শো ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে উন্মোচন করা হলো জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে’র লোগো ও ট্রফি।

সোমবার সন্ধা সাড়ে ৬টায় রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানের শুরুটা হয় লেজার শোয়ের মাধ্যমে। প্রায় তিন মিনিট স্থায়ী এ শোতে ঝলসে ওঠে পুরো মঞ্চ। এরপর শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ও পৃষ্ঠপোষকদের কর্মকর্তারা।

প্রথমে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও পেশাদার লিগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদী। ফুটবলের পুরনো সেই জৌলুস ফিরিয়ে আনার প্রত্যয় জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রধান লক্ষ্য ফুটবলের হারানো দর্শককে আবার মাঠে ফিরিয়ে আনা। এছাড়া দেশের আনাচে-কানাচে ফুটবলকে ছড়িয়ে এর জনপ্রিয়তা আবার ফিরিয়ে আনতে চাই। সে লক্ষ্যে দেশের চারটি ভেন্যুতে আমরা এবারের লিগের আয়োজন করা হয়েছে। আশা করছি আমরা আমাদের উদ্দেশ্য  সফল হবো।’

এরপর বক্তব্য দেন পৃষ্ঠপোষক সাইফ গ্লোবাল স্পোর্টসের চেয়ারম্যান তরফদার রুহুল আমিন, ‘দেশের ফুটবলের উন্নয়নে আমরা এগিয়ে এসেছি। শুধু তাই নয়, বাংলাদেশের প্রাণের খেলা ফুটবলকে আবার আগের মতো আকর্ষণীয় করে তোলাই আমাদের উদ্দেশ্য।’

এরপর মঞ্চে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন বাফুফে সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন। দেশের ফুটবলকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য দল মত নির্বিশেষে সকলকে আহ্বান জানান তিনি, ‘দেশের ফুটবলের উন্নয়নের লক্ষ্যে ক্লাবের অবকাঠামোর উন্নয়নসহ ক্লাবগুলোকে সহযোগিতার হাত বাড়াতে হবে। শুধু তাই নয় খেলোয়াড়দেরও মাঠের খেলায় দক্ষতা দেখিয়ে নিজেদের আন্তর্জাতিক মানের করে গড়ে তুলতে হবে।’

বাফুফে প্রধানের পর বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার, ‘ফুটবল বাঙ্গালীদের প্রাণের খেলা। সারাবিশ্বে সবচেয়ে বেশি খেলা হয় ফুটবল। তাই তৃণমূল পর্যায় থেকে ফুটবলার তুলে আনার লক্ষ্যে আগামী এক মাসের মধ্যেই সারাদেশে ১৩১ টি স্টেডিয়ামের টেন্ডারের কাজ শুরু করবে বাংলাদেশ সরকার। এছাড়াও কয়েক বছরের মধ্যে ৪৯০টি উপজেলায় একটি করে স্টেডিয়াম তৈরি করা হবে।’

প্রধান অতিথির বক্তব্যের পর শুরু হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। শুরুতে লিগে অংশগ্রহণকারী ১২টি দলের হোম এবং অ্যাওয়ে জার্সি পড়ে ফ্যাশন শো করেন মডেলরা। হোম জার্সিতে একজন পুরুষ মডেল এবং অ্যাওয়ে জার্সিতে একজন নারী মডেল এ শো করেন। বল  এবং দলগুলোর পতাকা নিয়ে মঞ্চে মডেলদের সাথে ক্যাটওয়াক করছেন প্রিমিয়ার লিগে অংশ নেয়া ১২ ক্লাবের অধিনায়করাও। ফ্যাশন শো শেষে উম্মচিত হয় লিগের থিম সং। এতে ফুটবল ও পতাকা হাতে নিয়ে আধুনিক নৃত্য পরিবেশন করেন নৃত্যশিল্পীরা। এরপর মঞ্চে গান গান কণ্ঠশিল্পীরা।

নৃত্য ও গান শেষে  উন্মোচিত হয় বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের লোগো। এরপর আকর্ষণীয়ভাবে উম্মচিত মূল আকর্ষণ লিগে ট্রফি। অনেকটা ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ট্রফিসদৃশ এ ট্রফিটি হাতে তুলে নেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম। তার সঙ্গে যোগ দেন সকল ক্লাবের অধিনায়করা। ট্রফি হাতে মঞ্চের সামনে এসে দাঁড়ান ক্লাবের অধিনায়করা।

উল্লেখ্য, ফুটবলের হারানো দর্শকদের ফিরিয়ে আনতে এবার গুরুত্বপূর্ণ কিছু উদ্যোগ নিয়েছে বাফুফে। এবারের লিগে মত খেলা অনুষ্ঠিত নবে ১৩২টি। প্রত্যেকটি খেলাই সম্প্রচার করা হবে টিভিতে। বাংলাদেশ টেলিভিশন এবং বেসরকারী টিভি বৈশাখীতে সম্প্রচার হবে ম্যাচগুলো। এছাড়াও খেলাগুলোর ধারাবিবরনী প্রচার করবে এফএম রেডিও নেক্সট।

ইউরোয় পর্তুগিজ বিপ্লব

বিপ্লবটা বহু আগেই ঘটিয়েছিল ইউসেবিও-ফার্নান্দো পেরেসরা। ১৯৬৬ সালে প্রথমবার বিশ্বকাপ ফুটবলের মত বৈশ্বিক কোন টুর্নামেন্টে খেলতে এসেই তৃতীয় হওয়ার গৌরব অর্জন করেছিল পর্তুগাল। ১০দিন আগেও সেটি ছিল পর্তুগালের সেরা সাফল্য; কিন্তু সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে পর্তুগিজদের দাপট। ফিগো-রুই কস্তা-ডেকোরা যেটি পারেননি সেটিই করিয়ে দেখালেন রোনালদোর নেতৃত্বে টগবগে এক পর্তুগিজ দল।

প্রথমবারের মত ইউরো জিতে নিজেদেরকে নিয়ে গেলেন বিশ্বসেরাদের কাতারে। পর্তুগিজ এই বিপ্লবের নেতা স্বয়ং ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। অধিনায়কের দায়িত্ব নিয়ে দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়ার অসাধারণ এক মানসিকতা মুগ্ধ করেছে সমালোচকদেরও। অথচ ইউরো সেরা হওয়ার দিনে তিনি মাঠে ছিলেন মোটে ২৩ মিনিট। স্বাগতিক ফ্রান্সকেই তাদের মাটিতে অখ্যাত লিলের ফুটবলার এডেরের গোলে রচিত হয় পর্তুগিজদের ইতিহাস।

পর্তুগালের ইউরোর ইতিহাসটা বেশ সমৃদ্ধ। অন্যসবার মত একাধিকবার টুর্নামেন্ট সেরা না হতে পারলেও ধারাবাহিকতা প্রমাণ করবে ইউরো জেতার যোগ্য দাবিদার ছিলেন তারাই। ১৯৮৪ সালের ইউরোয় প্রথমবার খেলতে এসেই তৃতীয় হয় পর্তুগিজরা। সেবারের সেমিফাইনালেও প্রতিপক্ষ ছিল ফ্রান্স; কিন্তু মিশেল প্লাতিনির সেই ফ্রান্স এখনকার ফ্রান্সের চেয়ে সবদিক দিয়েই এগিয়ে। ফ্রান্সের ঘরের মাঠে ৩-২ গোলের হারের কষ্ট ভালোমতই পুষে রেখেছিল পর্তুগিজরা।

মাঝের দুই ইউরো টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগই হয়নি পর্তুগালের; কিন্তু যখনই সুযোগ পেয়েছে তখনই নিজেদের প্রমাণ করেছে তারা। ১৯৯৬ সালের ইউরো কাপে এসেই আবার কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠে তারা। পোবোর্স্কির একমাত্র গোলে চেকদের বিপক্ষে কপাল পোড়ে রুই কস্তা-ফিগোদের। শিরোপার কাছাকাছি এসেও ফিরে যাওয়ার কষ্টের জ্বালা বেশ ভালোভাবেই টের পাচ্ছিল তারা। তাই ২০০০ সালের পর থেকেই শুরু হল পর্তুগিজদের বিশ্ব ফুটবলে বিশ্বসেরাদের কাতারে জায়গা করে নেওয়ার মিশন।

২০০০ সালের ইউরোয় তৃতীয় হয়ে সবাইকে চমকে দেয় ফিগোরা। নুনো গোমেজের একমাত্র গোলে এগিয়ে থাকলেও শেষপর্যন্ত অঁরি এবং জিদান ম্যাজিকে ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ফ্রান্স। সেবারও চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল জিদানরা। আর পর্তুগাল পেয়েছিল শিরোপার দু’হাত দূরে থেকে বিদায়ের তীক্ত অভিজ্ঞতা। শিরোপার এত কাছে এসেও শিরোপা না পাওয়ার আক্ষেপ ঘোচাতে ২০০৩ সালে কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় ২০০২ বিশ্বকাপ জয়ী ব্রাজিলের জাদুকরি কোচ লুই ফিলিপে স্কলারিকে।

হাতেনাতেই ধরা দেয় সাফল্য। ২০০৪ সালের ইউরো কাপে ঘরের মাঠে জার্মানি, ইতালিরমত শক্তিকে টপকে ফাইনালে ওঠে ডেকো-ফিগোরা। অখ্যাত গ্রিসের বিপক্ষে ফাইনালের মোকাবেলায় সকলের বাজি ছিল পর্তুগালের পক্ষেই; কিন্তু কারিস্তিয়াসের করা ৫৭ মিনিটের গোলে আবারো স্বপ্ন ভঙ্গ পর্তুগালের। মাত্র একধাপ দূরে থেকে পর্তুগালের এমন বিদায় আজও মেনে নিতে পারেন না ফিগো-ডেকোরা। সেই টুর্নামেন্ট দিয়েই ইউরোয় অভিষেক হয় রোনালদোর। ফিগোদের অবসরের পর মৃতপ্রায় পর্তুগিজ ফুটবলকে টেনে নেওয়ার দায়িত্ব একাই বহন করে চলছেন রোনালদো।

championsইউরোর মত সাফল্য বিশ্বকাপেও বজায় রেখেছিল পর্তুগাল। ২০০৬ সালে নিজেদের বিশ্বকাপ ইতিহাসে দ্বিতীয়বারের মত সেমিফাইনালে উঠে সবাইকে চমকে দিয়েছিল স্কলারির পর্তুগাল। আবারো সেই ফ্রান্স গেরোয় আটকে যেতে হয়েছিল পর্তুগিজদের। ২০০০ সালের ইউরোর মত এবারও সেই জিদানের করা পেনাল্টি গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ফ্রান্স। বিশ্বকাপের মত আসরে শিরোপার এতো কাছে এসেও ট্রফি উঁচিয়ে ধরতে না পারার কষ্ট আজও পর্তুগিজদের কুঁরে কুঁরে খাচ্ছে। জার্মানির সঙ্গে তৃতীয়স্থান নির্ধারণী ম্যাচে ৩-২ গোলে হেরে চতুর্থ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় নুনো গোমেজদের।

২০০৮ সালের ইউরো কাপে আবারও শেষ আটের মুখ দেখে পর্তুগাল। দু’বছর আগে যেই জার্মানির কাছে হেরেই বিশ্বকাপে চতুর্থ হয়েছিল পর্তুগিজরা, সেই জার্মানির কাছে হেরেই ইউরোর কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নেয় নুনো গোমেজরা। ইউরো ব্যর্থতার পরই স্কলারিকে বরখাস্ত করে সাফল্যের সন্ধানে কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় কার্লোস কুইরোজকে।

তবুও আসেনি সাফল্য। ২০১২ সালের ইউরোয় আবারো সেমিফাইনালের মুখ দেখে পর্তুগাল। বেশ ভালোভাবেই এগোচ্ছিল রোনালদোর অধীনে পর্তুগিজরা। সেমিফাইনালে চ্যাম্পিয়ন স্পেনের মুখোমুখি হওয়াতেই বিপত্তিটা বাধে। ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। সেখানেই পর্তুগালকে ৪-২ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে স্পেন। সেবার চ্যাম্পিয়নও হয়েছিল স্প্যানিশরা।

চার বছর পর আবারো ইউরো কাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে পর্তুগাল; কিন্তু অন্যবারের তুলনায় এবারের পর্তুগাল দলটি ছিল তুলনামূলক ভঙ্গুর। এক রোনালদো ছাড়া আর কেউই সেই মাপের ফুটবলার ছিলেন না দলে; কিন্তু দলগত সাফল্য কী জিনিস সেটি আরো একবার দেখলো ফুটবল বিশ্ব।

গ্রুপপর্বের তিন ম্যাচের তিনটিতেই ড্র। শুরুতেই পর্তুগালের এমন বাজে পারফরম্যান্সের কারণে সবাই বাতিলের খাতাতেই ফেলেছিল রোনালদোদের; কিন্তু খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে ইউরোর নকআউট রাউন্ড নিশ্চিত করা পর্তুগাল যেন দুর্বার হয়ে খেলতে থাকে পরবর্তী ম্যাচগুলো।

শেষ ষোলোতেই মুখোমুখি হয় শক্তিশালী ক্রোয়েশিয়ার। যাদের কাছে গ্রুপপর্বে হেরেছিল টানা দুইবারের ইউরো চ্যাম্পিয়ন, শক্তিশালী স্পেন। তাদের বিপক্ষে শেষ সময় পর্যন্ত সমানে সমান লড়াই করে ১১৭ মিনিটে কোয়ারেসমার গোলে ম্যাচ জিতে নেয় পর্তুগিজরা। পরবর্তী ধাপে কোয়ার্টার ফাইনালে লেভান্ডোভস্কির পোল্যান্ডের সঙ্গে ড্র করে টাইব্রেকারে ম্যাচ জিতে নেয় রোনালদোরা।

পর্তুগালের আসল লড়াইটা হয় সেমিফাইনালে। সেখানে প্রথমবারের মত ইউরো খেলতে এসেই চমক দেখানো ওয়েলসের বিপক্ষে দাপটের সঙ্গে ম্যাচ জিতে নেয় পর্তুগাল। রোনালদো-ন্যানির লক্ষ্যভেদে পর্তুগালের ২-০ গোলের জয়ে কপাল পোড়ে বেলের ওয়েলসের।

ফাইনালে স্বাগতিক ফ্রান্সের বিপক্ষে পিছিয়ে থেকেই ম্যাচে নামে পর্তুগাল। ঘরের মাঠের দর্শক এবং আন্তোনিও গ্রিজম্যান-পগবা-পায়েতদের নিয়ে গড়া ফ্রেঞ্চ লাইনআপ শিরোপার স্বপ্ন দেখাচ্ছিল জিদানের উত্তরসূরিদের; কিন্তু একটি দল হিসেবে কীভাবে খেলতে হয় সেটির প্রমাণ দিল ফার্নান্দো সান্তোসের পর্তুগাল দল। ৭৯ মিনিটে মাঠে নামেন অখ্যাত স্ট্রাইকার এডের। সোয়ানসি সিটিতে খেলার সময় প্রিমিয়ার লিগ প্রেমিরা তার নাম হয়ত এক-দু’বার শুনেও থাকবে।

সেই এডেরের পা থেকেই আসলো পর্তুগালের কাঙ্খিত শিরোপা। হাসি ফুটলো রোনালদোর মুখে। চোখের জলে ২৩ মিনিটে মাঠ ছাড়লেও দিন শেষে রাজ্যের সর্বকালের সেরা হাসিটা হেসেছেন রোনালদো। নিজেকে নিয়ে গেলেন মেসির থেকে অনেক এগিয়ে। ঘটালেন পর্তুগিজ বিপ্লব। যে বিপ্লবের নেশায় মত্ত পর্তুগালের আপামর ফুটবল জনতা। এ বিপ্লব পর্তুগালের বিপ্লব। এ বিপ্লব ফুটবলের নবজাগরনের বিপ্লব।

উন্মোচিত হলো বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের লোগো-ট্রফি

ভিন্ন অবয়বে, আধুনিক ধারায় দর্শকদের মনোরঞ্জন করার অভিপ্রায়ে এবার আয়োজিত হতে চলেছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলের নবম আসর আর। যার সূচনায় আজ সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি পাঁচ তারা হোটেলে উন্মোচিত হলো জজ ভূঁইয়া গ্রুপ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের লোগা ও ট্রফি উন্মোচন অনুষ্ঠান।

বিপিএলকে আধুনিক ধারায় উপস্থাপন করে দেশব্যাপী ফুটবলের নতুন জোয়ার আনার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ফুটবল ব্যক্তিত্বরা। গতানুগতিকার মোড়ক ভেঙে ফুটবলকে নতুনভাবে দর্শকদের কাছে নিয়ে যাওয়ার প্রয়াসে আগাগোড়া ঠাসা ছিল অনুষ্ঠানটি।
3
বিপিএল-এর থিম সং ‘লেটস শাউট ফর ফুটবল’-এর তালে তালে নেচেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা নিরব। গানটি তৈরি করা হয়েছে বর্তমান সময়ের উপযোগী ছন্দে ও বাজনায়।
বিপিএল-এর ট্রফি উপস্থাপন করা হয়েছে এর ১২ টি দলের অধিনায়কদের দিয়ে। স্যুট পড়া অধিনায়করা র‌্যাম্পে হেঁটেছেন মডেলদের সঙ্গে। এর আগে ১২টি দলের পতাকা ও জার্সি পড়ে দর্শকদের কাছে উপস্থিত হন মডেলরা; পরিচিত করেছেন ক্লাবগুলোকে। সুরের মূর্ছনায় লেজারের নয়নাভিরাম বর্ণিল রংয়ে একের পর এক সৃষ্টি হয়েছে ভিন্ন ভিন্ন আবহ। যার মূল প্রতিপাদ্য ছিল ফুটবল। এলইডি স্ক্রিন বা পোস্টার যাই নজরে আসুক না কেনও তা ছিল ফুটবলকে ঘিরেই। বিপিএল-এর ট্রফি উপস্থাপন করা হয়েছে এর ১২ টি দলের অধিনায়কদের দিয়ে।
2
অনুষ্ঠানে আগত অতিথির সবারই কণ্ঠে ফুটে উঠেছিল ফুটবলের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনার প্রত্যয়। অনুষ্ঠানে ফুটবলকে সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে দিতে ফেডারেশনের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকা যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার বলেছেন, ‘বাফুফে ফুটবলকে আবার সেই আগের অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার জন্য যে উদ্যোগ নিয়েছে তাতে তাদের শুভেচ্ছা জানাই। ফুটবল বাঙালির প্রাণের খেলা তা অনেক পেছনে পড়ে গেছে। ফুটবলের যে জনপ্রিয়তা ছিল,আমরা ফুটবলকে সেই আগের অবস্থানে নিয়ে যাবো। বিশেষ করে ফুটবলকে তৃণমূল পর্যায়ে ছড়িয়ে দিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
ফুটবলের নতুন এই উদ্যোগে রোমাঞ্চিত বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন। ফুটবল উন্নয়নে সবার সহযোগিতা চেয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের কাজ হলো ফুটবল আয়োজন করা। এজন্য আমরা অনেক সহায়তা পাচ্ছি স্পন্সরদের কাছ থেকে। আমার মনে হয় না আমরা ফুটবলে এমন উৎসব দেখেছি। আমরা যদি একসঙ্গে কাজ করি ফুটবল কেনও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে যেতে পারবে না? আমি যদি খেলতে পারি বিদেশে, আমার ফুটবলাররা কেনও পারবে না? কাবগুলোকে আমি একটি কথা বলি- আপনাদের সমর্থন প্রয়োজন। ফুটবলে কাজ করা অনেক কঠিন। ফুটবলের উন্নয়নের জন্য সবার সাহায্য প্রয়োজন।’
1
নতুন রূপে ঘরোয়া ফুটবলের আয়োজনের অন্যতম উদ্যোক্তা ধরা হয় সাইফ গ্লোবাল স্পোর্টস লিমিটেডের চেয়ারম্যান তরফদার মো. রুহুল আমিনকে। দেশের ফুটবলের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ সফল করতে সবার সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি, ‘ফুটবলের সোনালী দিন ফিরিয়ে আনতেই উদ্যোগ নিয়েছি। পেশাদার লিগ বিগত কয় বছর ধরেই হয়েছে। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গে যৌথভাবে সারা দেশে ছড়িয়ে দিতে ভিন্ন আঙ্গিকে এই প্রিমিয়ার লিগ আয়োজন করতে যাচ্ছি আমরা। ক্লাবের ডেভেলপম্যান্ট যদি আমরা না করতে পারি। তাহলে বাংলাদেশের জাতীয় দল উপকৃত হবে না। আগামী বছর কাজ করবো কাবগুলোকে নিয়ে। নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার মধ্যে দিয়েই খেলাগুলো হবে। খুব শীঘ্রই বাংলাদেশকে নিয়ে এশিয়া এবং বিশ্বের দরবারে হাজির হতে পারবো বলে আশা করি।’

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন জজ ভূঁইয়া গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা একরামুল হক।

ক্লাবের চাপে কমে গেল পেশাদার লিগের ভেন্যু

বাংলাদেশের ফুটবলে ক্লাবগুলোর চাওয়াই যেন সব। তাদের যখন মন চাইবে খেলবে যখন মন চাইবে খেলবেনা। এ নিয়ে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনেরও (বাফুফে) কোন চিন্তা নেই। ক্লাবের কথাতেই উঠতে বসতে হরহামেশাই দেখা গিয়েছে তাদের। আরো একবার এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন হল বাংলাদেশ ফুটবল। ক্লাবের চাওয়াতেই পেশাদার লিগের ভেন্যু কমিয়ে ফেলার অভাবনীয় সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাফুফে।

মূলত শেখ জামাল, মোহামেডান, আরামবাগ এবং মুক্তিযোদ্ধা ক্লাব জোট বেঁধে দাবি তোলে সাতটির বদলে চারটি ভেন্যুতে লিগের ম্যাচ দেওয়ার। সেটিকে সমর্থন জানিয়ে লিগ কমিটি ভেন্যু কমিতে চারে নিয়ে আসলো। ফলে ঢাকার বাইরে খেলা হবে শুধু চট্টগ্রাম, সিলেট এবং ময়মনসিংহে। বাদ পড়তে যাচ্ছে বরিশাল, রাজশাহী এবং গোপালগঞ্জ। এক রাউন্ডের পরিবর্তে প্রতি ভেন্যুতে এখন একসঙ্গে অন্তত দুটি রাউন্ড হবে।

মূলত ঢাকার বাইরে বেসি ভ্রমণ নিয়ে আপত্তি তোলে ক্লাবগুলো। নিরাপত্তার বিষয়টাও আনা হয়েছে সভায়। সূচি দেখে অনেকেই বলেছে চট্টগ্রামে ম্যাচ শেষে চার দিন পর সিলেটে খেলা সম্ভব নয়। সিলেট থেকে বরিশাল যাওয়া-আসার মাঝখানে সময়ও কম। এসব কিছু বিবেচনা করেই বাফুফের লিগ কমিটি ভেন্যু কমিয়ে আনে।

জিকার ভয়ে রিও থেকে সরে দাঁড়ালেন বার্ডিচ-রাওনিচ-হালেপ

গলফের পর এবার অলিম্পিকের টেনিসেও ধাক্কা। জিকা ভাইরাস আতঙ্কে রিও অলিম্পিক থেকে নাম তুলে নিলেন উইম্বলডন রানার্সআপ মিলোস রাওনিচ ও বিশ্বের পাঁচ নম্বর মহিলা টেনিস তারকা সিমোনা হালেপ।

সদ্য শেষ হওয়া উইম্বলডনের ফাইনালে কানাডার রাওনিচ হেরেছিলেন অ্যান্ডি মারের কাছে। তিনি তার ফেসবুকে লিখেছেন, ‘খুব দুঃখের সঙ্গেই জানাচ্ছি, আমি রিওতে অংশ নেব না।’ আর দু’বছর আগে ফরাসি ওপেনের রানার্সআপ হালেপের কথায়, ‘অবসরের পর আমি সুখী সংসার করার স্বপ্ন দেখি৷ রিওতে গিয়ে কোনোভাবেই জিকা ভাইরাস সঙ্গে এনে আমি আমার ভবিষ্যৎ নস্ট করতে চাই না।’

এখানেই না থেমে হালেপ আরও বলেন, ‘আমি একা এই সিদ্ধান্ত নিইনি। অনেক ডাক্তার, পরিবারের সকলের সঙ্গে কথা বলেই জিকার ভয়ঙ্করতম দিক জেনেছি৷ তারপরই এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছি।’

শনিবার সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিশ্বের আট নম্বর টেনিস তারকা টমাস বার্ডিচও। চেক প্রজাতন্ত্রের এই তারকা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, জিকার জন্য তিনি কোনও ঝুঁকি নিতে চান না। রিওতে তিনি যাবেন না।

শুধু এই তিনজেই নয়, নানা কারণে রিওর টেনিস থেকে নাম তুলে নিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার নিক কির্ঘিয়স, বের্নার্ড টমিচ, যুক্তরাষ্ট্রের জন ইসনার, অস্ট্রিয়ার ডোমেনিক থিয়েম, স্পেনের ফেলিসিয়ানো লোপেজরা। মারিয়া শারাপোভা ডোপের দায়ে ও ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা মা হতে যাওয়ার জন্য এমনিতেই সরে গিয়েছেন রিও অলিম্পিক থেকে।

এতজন সরে গেলেও অলিম্পিকের জন্য ভালো খবর হলো, রাফায়েল নাদাল চোট কাটিয়ে রিওতে নামবেন৷ নোভাক জকোভিচ, রজার ফেডেরার, অ্যান্ডি মারেদেরও যোগ দেওয়া নিয়ে সংশয় নেই। মেয়েদের বিভাগে সোনার লড়াইয়ে থাকবেন সেরেনা উইলিয়ামসও।

জিকার ভয়ে গলফের জেসন ডে, ররি ম্যাকলরয়, ডাস্টিন জনসন, জর্ডান স্পিথরাও সরে গিয়েছেন অনেক আগেই।

৫০ বছরেও কোন শিরোপা নেই ইংল্যান্ডের!

ভাঙ্গবেনা ভাঙ্গবেনা করে শেষ পর্যন্ত ভেঙ্গেই গেল লেস্টার সিটির ঘর। ফ্রেঞ্চ মিডফিল্ডার এংগোলো কান্তেকে নিজেদের দলে ভেড়ালো ইংলিশ জায়ান্ট চেলসি। আজ এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে কান্তের লেস্টার ছাড়ার কথা জানায় ক্লাবটি।

পাঁচ বছরের চুক্তিতে ৩২ মিলিয়ন পাউন্ড পারিশ্রমিকের ভিত্তিতে চেলসিতে যোগ দিচ্ছেন এই ফ্রেঞ্চ তারকা। সম্প্রতি ইউরোতে অসাধারণ পারফরম্যান্সের পর তাকে দলে নিতে আগ্রহ দেখিয়ে এসেছিল বেশ কয়েকটি বড় ক্লাব। কিন্তু সবাইকে ছাপিয়ে চেলসিই তাকে কিনে নিল।

কান্তের যোগদানে কন্তের চেলসি আরো শক্তিশালি হয়ে উঠলো। ডিফেন্সিভ মিডে গতবছর যে অভাব ছিল সেটি অনেকাংশেই পূরণ করতে পারবেন কান্তে। চেলসির টেকনিক্যাল ডিরেক্টর মাইকেল এমেনালো জানিয়েছেন, ‘কান্তে অসাধারণ একজন খেলোয়াড়। গেল মৌসুমে তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্স আমাদের সবাইকে মুগ্ধ করেছে। আশা করছি এখানেও সে নিজেকে প্রমাণ করতে পারব।’

কান্তের এমন চলে যাওয়ার দিনে আরো একটি দুঃসংবাদ পেয়েছে লেস্টার সিটির। দলের সেরা খেলোয়াড় রিয়াদ মাহরেজ নতুন চুক্তি করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। তার মানে তিনিও লেস্টার ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন। দলের প্রধান খেলোয়াড়দের ছাড়া লেস্টারের সাফল্য কতদিন টিকে সেটিই দেখা যাবে বর্তমান মৌসুমে।

৫০ বছরেও কোন শিরোপা নেই ইংল্যান্ডের!

সবেধন নিলমনি ওই একটি শিরোপা। একটি মাত্র বিশ্বকাপ। পিটার মুরস, ববি চার্লটন, জিওফ হার্স্টদের হাত ধরে আসা সেই বিশ্বকাপটার আগে-পরে ইংলিশ ফুটবল দলের সাফল্য বলতে একেবারেই শূন্য। জিওফ হার্স্টের হ্যাটট্রিকে ১৯৬৬ বিশ্বকাপে পশ্চিম জার্মানিকে হারিয়ে ফুটবল ইতিহাসে একমাত্র শিরোপাটি জিতেছিল ইংল্যান্ড।

১৯৬৬ সালের পর দেখতে দেখতে ৫০টি বছর পার হয়ে গেছে। সেই জয়ের সূবর্ণ জয়ন্তি উদযাপন করছে ইংল্যান্ড। তবে থ্রি লায়ন্সদের সবচেয়ে বড় দুঃখ এরপর কয়েকটি সোনালি প্রজন্ম আসার পরও বিশ্বকাপে ইংলিশদের দৌড় সর্বোচ্চ সেমিফাইনাল পর্যন্ত (তাও একবার, ১৯৯০ সালে)।

সবচেয়ে বড় কথা, মহাদেশীয় টুর্নামেন্ট ইউরোয় ইংল্যান্ড তো একেবারেই পেছনের সারির দল। শিরোপা জয় তো দুরের কথা, ফাইনাল পর্যন্ত খেলতে পারেনি তারা। দু’বার খেলেছে মাত্র দু’বার। ১৯৬৮ সালের আগে তো খেলারই যোগ্যতা অর্জন করেনি। বিশ্বকাপ জয়ের পরের বছর ইউরোয় খেলতে পারলেও পরের দুই আসরে যোগ্যতাই অর্জন করতে পারেনি।

এরপর ১৯৮০ সালে খেলতে এলেও বিদায় গ্রুপ পর্ব থেকে। ১৯৮৪ সালেও যোগ্য হতে পারেনি তারা ইউরোর চূড়ান্ত পর্বে খেলার জন্য। ১৯৮৮ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত টানা খেলতে পারলেও ১৯৯৬ আসরে খেলেছিল সেমিফাইনাল এবং ২০০৪ সালে খেলেছিল কোয়ার্টার ফাইনাল। এছাড়া বাকি তিন আসরেই বিদায় নিয়েছে তারা গ্রুপ পর্ব থেকে।

২০০৮ সালে বেকহ্যাম-ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ড-জন টেরিদের মত ফুটবলার থাকা সত্ত্বেও ইউরোয় যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি। ২০১২ সালে বিদায় নিয়েছে কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে। সর্বশেষ ২০১৬ ইউরোয় বিদায় নিয়েছে দ্বিতীয় রাউন্ডে আইসল্যান্ডের মত দলের কাছে হেরে।

বিশ্বকাপে ১৯৫০ সালের আগে অংশগ্রহণই করেনি ইংলিশরা। ১৯৫০ থেকে ১৯৭০ সাল পর্যন্ত ৬টি আসরে টানা অংশ নিয়েছিল ইংল্যান্ড। ১৯৭৪ এবং ১৯৭৮ সালে- টানা দুটি বিশ্বকাপ আসরে অংশই নেয়ার যোগ্যতা অর্জন করেনি ১৯৬৬ বিশ্বকাপজয়ীরা। এরপর ১৯৯৪ বিশ্বকাপেও ছিল তারা অযোগ্য হিসেবে অনুপস্থিত। বাকি আসর গুলোতে নিয়মিত অংশ নিলেও তাদের দৌড় সর্বোচ্চ (একবার) সেমিফাইনাল পর্যন্ত। অধিকাংশবারই ইংল্যান্ডকে বিদায় নিতে হয়েছে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে।

সবচেয়ে বড় কথা, বিশ্বকাপ বলুন কিংবা ইউরো- সবগুলো আসরেই ইংল্যান্ড আসে হট ফেভারিট হয়ে। ইংলিশ মিডিয়া তাদেরকে এমনভাবে পরিবেশন করে যাতে মনে হয়, তারা সত্যিকারের বাঘ; কিন্তু টুর্নামেন্ট শেষে সেই ইংল্যান্ড যে ‘কাগুজে বাঘ’ তা আর কেউ প্রমাণ করে দিতে হয় না। তারা নিজেরাই প্রমাণ করে ছাড়ে।

ইংল্যান্ড ফুটবলের ইতিহাসে ১৯৬৬ সালের সেই দিনটিই সবচেয়ে বেশি উজ্জ্বল এবং গৌরবের। ওই একটি দিনকে ধারণ করেই বেঁছে আছে ইংল্যান্ডের ফুটবল। ৩০ জুলাই সেই দিনটির ৫০তম বার্ষিকী। গত ৫০ বছরে কোন সাফল্য না এলেও ইংলিশরা অর্ধ-শতাব্দীর আগের সেই দিনটিকে নতুন করে বরণ করে নেয়ার জন্যই প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে।

ম্যানইউর হয়ে মরিনহোর শুভ সূচনা

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের দায়িত্ব নেওয়ার প্রথম ম্যাচ।  হোক না সেটা প্রীতি ম্যাচ। মরিনহোর জন্য প্রীতি ম্যাচটিও অনেক গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। মরিনহোর অধীনে প্রথম ম্যাচেই জয় তুলে নিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। চ্যাম্পিয়নশিপের দল উইগান অ্যাথলেটিককে ২-০ গোলে হারিয়েছে ইউনাইটেড।

তরুণ এক দল নিয়ে উইগানের বিপক্ষে খেলতে নামেন মরিনহো। এদিন ইউনাইটেডের জার্সি গায়ে অভিষেক হয় হেনরিখ মিখতারিয়ান এবং বেইলির। শুরু থেকেই তারা একাদশে থাকেন। ম্যাচের প্রথমার্ধ গোলশূন্য অবস্থায় থাকলে কিছুটা চাপে পড়েন মরিনহো। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধেই তার সেই পুরনো রণকৌশলে গোল আদায় করে নেয় ইউনাইটেড।

বিরতি থেকে ফিরে ৪৮ মিনিটে উইল কিনের গোল এগিয়ে যায় ইউনাইটেড। মাতার অসাধারণ ক্রস থেকে গোলটি করেন তিনি। ৫৯ মিনিটে আবারো উইগানের জালে বল জড়ায় ইউনাইটেড। এবারের গোলদাতা আন্দ্রেস পেরেইরা। শেষপর্যন্ত এ দুই গোলেই উইগানের বিপক্ষে জয় নিশ্চিত করে মরিনহোর ইউনাইটেড।

তুরস্ক সফর বাতিল করলো মেসি

বার্সেলোনার সাবেক ফুটবলার স্যামুয়েল ইতোর আয়োজনে চ্যারিটি ম্যাচ খেলতে তুরস্ক সফরের কথা ছিল আর্জেন্টিনা অধিনায়ক লিওনেল মেসির। তবে তুরস্কের বর্তমান সরকারকে হটিয়ে সেনা অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখলের যে চেষ্টার কারণে দেশটিতে সফর বাতিল করেছেন লিওনেল মেসি।

বার্সার নিজস্ব টুইটারে এক বিবৃতিতে জানানো হয় এফসি বার্সেলোনার ফুটবলার আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা ও লিও মেসিদের ইতোর আয়োজনে একটি প্রীতি ম্যাচ খেলতে তুরস্কে যাওয়ার কথা ছিল। তবে তারা এখন স্পেনেই রয়েছে।

আরও বলা হয়, বার্সা ফুটবলার আরদা তুরান, সাবেক কার্লোস পুয়েল, ডেকো ও এরিক আবিদাল ও সাবেক ডিরেক্টর আলেহান্দ্র এচেভারিয়া তুর্কিতে রয়েছে। তবে তারা বিপদজনক অঞ্চল থেকে দূরে রয়েছে। আর তাদের সঙ্গে ক্লাবের যোগাযোগ রয়েছে।

উল্লেখ্য, তুরস্কে সেনাবাহিনীর ক্ষমতা দখলের চেষ্টায় রাজধানী আঙ্কারায় শুক্রবার রাত থেকে এখন পর্যন্ত ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে  অধিকাংশই বেসামরিক নাগরিক।

মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো ৪ ডিসেম্বর

গ্রীষ্মের ছুটি শেষে আগামী ২০১৬-১৭ মৌসুমের স্প্যানিশ প্রিমিয়ার ডিভিশন ফুটবল ‘লা লিগা’ শুরু হচ্ছে আগামী ২১ আগস্ট। তবে বর্তমান ফুটবলের সবচেয়ে আকর্ষণীয় লড়াই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই দল বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদের প্রথম এল ক্লাসিকো মাঠে গড়াবে ৪ ডিসেম্বর। আর ফিরতি লেগ হবে ২৩ এপ্রিল।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় করায় এবার ক্লাব বিশ্বকাপে খেলবে গত মৌসুমে লিগে রানার্সআপ হওয়া রিয়াল মাদ্রিদ। ৪ ডিসেম্বর ন্যু ক্যাম্পে প্রথম ক্লাসিকো খেলার পর ক্লাব বিশ্বকাপ খেলতে জাপানে যাবে রিয়াল। এল ক্লাসিকোর ফিরতি লেগ রিয়ালের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে হবে আগামী ২৩ এপ্রিল।

২০ নভেম্বর দুই নগর প্রতিদ্বন্দ্বী দল রিয়াল মাদ্রিদ ও অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের মধ্যে ‘মাদ্রিদ ডার্বির’প্রথম লেগ হবে ভিসেন্তে কালদেরনে। আর বার্নাব্যুতে ফিরতি লেগ হবে ৯ এপ্রিল।

রোনালদোকে পেছনে ফেলে ইউরোর সেরা গোল গেরার

দর্শকের ভোটে রোনালদোকে পেছনে ফেলে ইউরোর সেরা গোলের পুরস্কারটি জিতে নিলেন হাঙ্গেরির মিডফিল্ডার জোলতান গেরা। পর্তুগালের বিপক্ষে ৩-৩ ড্র ম্যাচের ১৯তম মিনিটে বুক দিয়ে বল নামিয়ে জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করেছিলেন ৩৭ বছর বয়সী গেরা। ৩২ শতাংশ ভোটে এ গোলটিকে সেরা হিসেবে বেছে নিয়েছেন ফুটবলপ্রেমীরা।

ronaldo

সেমি-ফাইনালে ওয়েলসকে ২-০ ব্যবধানে হারানো ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদের তারকা ফরোয়ার্ড রোনালদোর হেড দিয়ে করা গোলটি ২৪ শতাংশ ভোট নিয়ে হয়েছে দ্বিতীয়। আর ২৩ শতাংশ ভোট নিয়ে সুইজারল্যান্ডের জেরদান শাকিরির গোলটি হয়েছে তৃতীয়।

স্বাগতিক ফ্রান্সের স্বপ্ন গুঁড়িয়ে দিয়ে পর্তুগালকে প্রথম বড় শিরোপার উচ্ছ্বাসে ভাসানো এদেরের গোলটি ১৬ শতাংশ ভোট নিয়ে হয়েছে চতুর্থ। ৫ শতাংশ ভোট নিয়ে পঞ্চম হয়েছে বেলজিয়ামের বিপক্ষে ওয়েলসের মিডফিল্ডার হ্যাল রবসন-কানুর গোলটি।

পরিবারের সঙ্গে ইবজিয়াতে মেসি

টানা তৃতীয় ফাইনালে হারের দুঃখ কাটাতে অবকাশ যাপনে ইবজিয়াতে আছেন মেসি। এসময় তার সঙ্গে আছেন বান্ধবী অ্যান্তোনিলা রোকোজ্জু ও দুই ছেলে।

messi

কয়েক দিন আগে শতবর্ষী কোপা আমেরিকার ফাইনাল ম্যাচে চিলির কাছে টাইব্রেকারে হেরে যায় আর্জেন্টিনা। টাইব্রেকারে গোল করতে ব্যর্থ হয়েছিলেন দলটির অধিনায়ক মেসি। এরপর অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

messi

এদিকে কর ফাঁকি মামলায়  লিওনেল মেসিকে ২১ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে বার্সেলোনার একটি আদালত। ২১ মাসের কারাদণ্ডের পাশাপাশি মেসিকে ২০ লাখ ইউরো জরিমানা করা হয়। সব মিলিয়ে সময়টা খুব বেশি ভালো যাচ্ছে না মেসির।

তবে অবকাশে মেসিকে অনেকটা নির্ভার দেখা গেছে। দুই ছেলেকে ও বান্ধবীকে নিয়ে ভালো সময়ই পার করছেন বার্সা এই তারকা।

ইউরোর রোনালদো বনাম কোপার মেসি

গোলের খেলা ফুটবল। বিগত এক যুগ ধরে সেই গোলের খেলা ফুটবলকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন তাঁরা। পেলে, ম্যারাডোনা, গারিঞ্চা, ক্রুইফ, রোনালদো, জিদান, রোনালদিনহোর মত কিংবদন্তী ফুটবলাররা ধীরে ধীরে ফুটবলে আসলেও একে অন্যের সঙ্গে কখনই এত বছর পরস্পর লড়াই করে যেতে পারেনি।

মেসি-রোনালদোর কল্যাণেই বর্তমান প্রজন্ম পেয়েছে ফুটবলের এক ঐতিহাসিক যুগ। আর সে যুগে নতুন করে ইতিহাস সৃষ্টি করলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ক্লাবের হয়ে মেসি-রোনালদো- দুজনেরই জেতা হয়ে গেছে সম্ভাব্য সব শিরোপা। ব্যক্তিগত শিরোপাগুলোও তালুবন্দি করেছেন তারা; কিন্তু দেশের হয়ে সবসময়েই ব্রাত্য ছিলেন দু`জন। এবার এই এক জায়গাতেই মেসিকে পেছনে ফেললেন রোনালদো। পর্তুগালের লাল-সবুজ জার্সি গায়ে জিতলেন প্রথম শিরোপা। আর মেসি?

২০১৬ সালের কথাটাই ধরা যাক না! একই বছর একই সময় দুটি ভিন্ন প্রতিযোগিতায় মাঠে নেমেছিলেন মেসি এবং রোনালদো। যেখানে রোনালদো দলকে ইউরো জেতালেন সেখানে মেসিকে কোপার রানার্সআপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হল। পুরো কোপা আমেরিকাতেই মেসির আধিপত্য ছিল চোখে পড়ার মত। ৫ ম্যাচে ৫ গোলের পাশাপাশি করেছেন ৪টি এসিস্ট। অন্যদিকে রোনালদো ৭ ম্যাচে করেছেন ৩ গোল এবং ৩টি এসিস্ট।

শট একুরেসিতেও এগিয়ে মেসি। কোপা আমেরিকায় মেসি ১৬টি শট নিয়েছেন যার ৯টি ছিল অন টার্গেট। পক্ষান্তরে রোনালদোর ৪৬টি শটের মধ্যে ১৬টি কেবল অনটার্গেট ছিল। মেসির শট একুরেসি যেখানে ৫৬ ভাগ সেখানে রোনালদোর ২৫ ভাগ। মেসি আবার খেলেছেন রোনালদোর অর্ধেক সময়। মেসি যেখানে ৩৭৪ মিনিট খেলেছেন রোনালদো সেখানে খেলেছেন ৬২৫ মিনিট। তবে আরেকটা কথা ভুলে গেলে চলবে না, কোপা আমেরিকায় যেখানে ১৬ দলের টুর্নামেন্ট সেখানে ইউরো হল ২৪ দলের।

এত ভালো খেলেও মেসিকে চোখের জলে রানার্সআপ হয়েই টুর্নামেন্ট শেষ করতে হলো। অন্যদিকে দলের সতীর্থদের একনিষ্ঠ লড়াই করার মনোভাব এবং রোনালদোর অদম্য মানসিকতার ফলেই তার পর্তুগাল ছিনিয়ে নেয় প্রথমবারের মত ইউরো শিরোপা। এই এক জায়গাতেই মেসিকে হারিয়ে অনেক উঁচুতে উঠে গেলেন রোনালদো।

এবারের ইউরো তো গেল। আরেকটু পেছনে ফিরে যাই।

২০০৪ ইউরো থেকে ধরা যাক, তখনও কৈশোরের ছাপ যায়নি রোনালদোর চেহারা থেকে। ঐ সময়েই রুই কস্তা, ফিগো, ডেকো, পোস্তিগাদের ভিড়ে রোনালদোকে খুঁজে পাওয়া ভার। সেই টুর্নামেন্টে ৪১৮ মিনিট খেলে করেছিলেন ২ গোল। এসিস্টও ছিল তার ২টি। হয়েছিলেন ইউরোর রানার্সআপ। নিজের প্রথম কোন টুর্নামেন্টে খেলেই রানার্সআপ হয়ে চোখের জলে বিদায় নিয়েছিলেন রোনালদো।

রোনালদোর মত মেসিরও কোপা ভাগ্য শুরু হয় রানার্সআপ হওয়ার মধ্য দিয়ে। ২০০৭ সালে ভেনেজুয়েলাতে হওয়া কোপা আমেরিকার ফাইনালে ব্রাজিলের কাছে ৩-০ গোলে হারতে হয় মেসির আর্জেন্টিনাকে। ফাইনালে হারলেও পুরো টুর্নামেন্টেই দ্যুতি ছড়িয়েছিলেন মেসি। ৬টি ম্যাচ খেলে ২ গোলের পাশাপাশি ১টি অ্যাসিস্টও ছিল তার। হয়েছিলেন টুর্নামেন্টের সেরা উদীয়মান ফুটবলারও।

২০০৮ ইউরোতে আরো পরিণত রোনালদো; কিন্তু তার দলকে কোয়ার্টার ফাইনাল থেকেই বিদায় নিতে হয়। টুর্নামেন্টে ২৭০ মিনিট খেলে ১ গোল করেন রোনালদো। ছিল না কোন এসিস্ট। কাকতালীয়ভাবে তার মত মেসিও কোপা আমেরিকার ২০১১ টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নেন। টুর্নামেন্টে ৪ ম্যাচ খেলে একটি গোলও করতে পারেননি, তবে এসিস্ট ছিল তিনটি।

২০১২ ইউরোতেও অব্যাহত ছিল রোনালদো শো। টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিলেও ৫ ম্যাচে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ ৩ গোল করেছিলেন তিনি। পক্ষান্ত্রে ২০১৫ কোপা আমেরিকাতে ৬ ম্যাচ খেলে মেসি মোটে করেছিলেন ১ গোল এবং ৩ এসিস্ট। দলকে ফাইনালে তুললেও এবারেও রানার্সআপ হয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় মেসিকে।

চারটি ইউরো টুর্নামেন্ট বিবেচনা করলে ইউরো ইতিহসে সর্বোচ্চ ১৭টি ম্যাচে ৯টি গোল করেছেন রোনালদো এবং এসিস্ট রয়েছে ৫টি। হয়েছেন ইউরোর ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতা। অন্যদিকে চারটি কোপা আমেরিকায় ২১টি ম্যাচে ৮টি গোল এবং ১১টি এসিস্ট করেছেন মেসি।

মেসি যেখানে কোপার ফাইনালে খেলেছেন তিনবার সেখানে রোনালদো ইউরোয় খেলেছেন দুবার। তবে মজার ব্যাপার হলো ইউরো কিংবা কোপা- কোন টুর্নামেন্টের ফাইনালেই মেসি কিংবা রোনালদো কেউ কোন গোল করতে পারেননি। তবে সবকিছুকে ছাপিয়ে রোনালদোর ভাগ্যে ১টি ইউরো জুটলেও মেসির কপালে জুটেনি কোপার কোন শিরোপা।

মেসির থেকে আরো একদিক দিয়ে এগিয়ে থাকবেন রোনালদো। অদম্য মানসিকতা, লড়াকু মনোভাব, হাল ছেড়ে না দেওয়া এবং কঠোর পরিশ্রম এ সবকিছুই রোনালদোকে এগিয়ে রাখছে মেসির থেকে। পর্তুগালের মত দলে খেলেও তারকাখ্যাতি সম্পন্ন সতীর্থদের অভাবের ভেতরে দলকে এক সুতোয় গাঁথতে বেশ পটু সিআরসেভেন।

অন্যদিকে তারকায় ঠাঁসা আর্জেন্টিনা দলে সতীর্থদের অবমূল্যায়নের অভাবেই বারবার টুর্নামেন্টের ফাইনালে হেরে মাথা নুইয়ে বিদায় নিতে হয়েছে মেসিকে। একবার ভাবুন তো, মেসি যদি আজ যে তিনটি কোপার রানার্সআপ হয়েছেন সেই তিনটি কোপা জিততেন তাহলে তার জায়গা ফুটবল ইতিহাসে কোথায় হতো? সেটি হয়নি বিধায় আজ রোনালদো -১ এবং মেসি- ০।

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের ফুটবল টুর্নামেন্ট সমাপ্ত

দেশের শীর্ষস্থানীয় ক্রীড়া পৃষ্ঠপোষক ব্র্যান্ড ওয়ালটনের সার্বিক সহযোগিতায় সোমবার শুরু হয় সুবিধাবঞ্চিত শিশু-কিশোরদের ফুটবল ঈদ আনন্দ উৎসব। স্পোর্টস লাভার্স অ্যাসোসিয়েশনের সহায়তায় আয়োজিত এই টুর্নামেন্ট আজ ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণীর মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে।

ওয়ালটনের পৃষ্ঠপোষকতায় আয়োজিত সুবিধাবঞ্চিত শিশু-কিশোরদের ফুটবল ঈদ আনন্দ উৎসবে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আরামবাগ ফুটবল একাডেমি। রানার আপ হয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল সাপোর্টার্স ফোরাম। ফাইনালে বাংলাদেশ ফুটবল সাপোর্টার্স ফোরামকে ২-০ গোলে হারায় আরামবাগ। জোড়া গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন আরামবাগের মো. সাব্বির। টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দলকে ৮ হাজার ও রানার আপ দলকে ৪ হাজার টাকা প্রাইজমানি ও ট্রফি দেওয়া হয়েছে।

টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছে আরামবাগ ফুটবল একাডেমির সালমান। আর সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল সাপোর্টার্স ফোরামের হৃদয় (৯ গোল)। তাদেরকে ওয়ালটনের পক্ষ থেকে হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হয়েছে। পাশাপাশি তারা ১ হাজার টাকা করে প্রাইজমানি পায়।

ফাইনালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী ড. শ্রী বীরেন শিকদার, এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের সিনিয়র এডিশনাল ডিরেক্টর এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন), ওয়ালটন গ্রুপের এডিশনাল ডিরেক্টর নিয়ামুল হক (হেড অব সার্ভিস) ও ক্রীড়া সংগঠক হেলেনা জাহাঙ্গীর। সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের প্রশাসক ও ওয়ালটন সুবিধাবঞ্চিত শিশু-কিশোরদের ফুটবল টুর্নামেন্টের প্রধান সমন্বয়কারী মো. ইয়াহিয়া।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী এবং জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের চেয়ারম্যান ড. শ্রী বিরেন শিকদার এমপি এমন ব্যাতিক্রমীধর্মী আয়োজনকে স্বাগত জানান। তিনি বলেন, ‘সুবিধাবঞ্চিত পথ শিশুদের জন্য কি করা যায় ক্রীড়া মন্ত্রণালয় থেকে অচিরেই কর্মপন্থা খুঁজে দেখা হবে। কারণ গরীব-ধনী বলে কথা নেই। সবাইকে নিয়েই আমাদের বাংলাদেশ। আর বাংলাদেশ ক্রীড়া ক্ষেত্রে পৃথিবীর মধ্যে অনেক পরিচিত একটি নাম। ক্রীড়াবিদরা আমাদের দেশের জন্য সম্মান বয়ে আনছে। তাই আমরা আমাদের ক্রীড়াঙ্গনকে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। সরব-সচল রাখতে চাই সকল পর্যায়েই।’

এবারের এই টুর্নামেন্টে ১২টি দল অংশ নেয়। অংশ নেওয়া প্রত্যেকটি দলকে ২ হাজার টাকা করে পার্টিসিপেশন মানি দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি দলে ৬ জন করে খেলোয়াড় খেলার সুযোগ পায়। গোলরক্ষক বাদে দুজন খেলোয়াড় পরিবর্তন করার সুযোগ ছিল। খেলা হয় ২০মি.+১০ মি.+২০ মিনিট।

সেইন্টফিটের পথে বাধা হবে না বাফুফে: কাজী নাবিল

বেলজিয়ান কোচ টম সেইন্টফিট আগামী তিন মাস নিবিড়ভাবে বাংলাদেশ ফুটবলকে পর্যবেক্ষণ করবেন। তবে তিনি যদি নাইজেরিয়ার কোচ মনোনীত হন তাতে বাধা হয়ে দাঁড়াবে না বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)।

আজ মঙ্গলবার বাফুফে ভবনে কোচের সঙ্গে আলোচনা শেষ করে গণমাধ্যমকে এ কথা বলেন বাফুফে সহ-সভাপতি ও ন্যাশনাল টিমস কমিটির চেয়ারম্যান কাজী নাবিল আহমেদ। তিনি বলেন, ‘আমরা মাসখানেক আগে যখন তার রেফারেন্স পেয়েছি তখন তার সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি আমাদের ফেডারেশন কাপ দেখেছেন। আমি যতটুকু জানি নাইজেরিয়ান ফুটবল ফেডারেশন তাকে শর্ট লিস্ট করেছে। এরমাধ্যমে এটাই প্রমাণিত হয় যে আমরা এমন এক কোচকে আনছি যার ভালো একটি ট্র্যাক রেকর্ড আছে। ভালো ভালো দেশও তাকে বিবেচনায় নেয়।’

চুক্তি প্রসঙ্গে কাজী নাবিল বলেন, ‘আমরা তাকে তিন মাসের জন্য নিচ্ছি ভুটানের বিপক্ষে ম্যাচের জন্য। এরপরে ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে তার চুক্তি বাড়ানোর বিষয়টি ভেবে দেখা যতে পারে। তিনি দায়িত্ব নিচ্ছেন। আর সেটা শুধুমাত্র ভুটান ম্যাচের জন্য। আপাতত তিন মাসের জন্য। যেটা শুরু হচ্ছে আজ থেকেই।’

যদি নাইজেরিয়ান ফুটবল ফেডারেশন তাকে নিয়োগ দেয় এমন প্রশ্নের উত্তরে কাজী নাবিল বলেন, ‘তিনিও মানুষ, আমরাও মানুষ। মানুষের উচ্চাকাঙ্ক্ষা থাকতে পারে। সেখনে বাধা হয়ে দাঁড়নো যায় না। তখন সেটা আলোচনা করা যেতে পারে যে আমরা কী করবো।’

কোচকে নিয়ে আপাতত পরিকল্পনা সম্পর্কে কাজী নাবিল বলেন, ‘আজকেসহ আগামী সাত দিন তিনি দলকে অনুশীলন করাবেন। এরপর খেলোয়াড়রা চলে যাবে ক্লাবে লিগ খেলার জন্য। আমাদের মূল ৫টি ক্লাব থেকে যে খেলোয়াড়রা এসেছে এ ব্যাপারে তার পরামর্শ হচ্ছে ক্লাবদের সঙ্গে আমরা যোগাযোগ করবো। যাতে তিনি নিয়মিত ক্লাব পরিদর্শনে যেতে পারেন। ম্যাচ ব্যতীত তিনি যেন ক্লাবের অনুশীলন দেখতে পারেন এবং ক্লাব কর্তৃপক্ষকে যেন তার পর্যবেক্ষণ দিতে পারেন। তাতে করে তিনি খেলোয়াড়রদের সঙ্গে সংযুক্ত থাকতে পারবেন। কোচ টানা তিন মাস থাকবেন তবে ২১ জুলাই ৭ দিনের ছুটিতে যাবেন।’

নাবিল আরও বলেন, ‘খেলোয়াড়দের নিয়ে কী করা যেতে পারে সেটা নিয়েই আমাদের সঙ্গে কথা হয়েছে। সভাপতি ও আমি গত দু-চার বছরে যে অভাবগুলো আমাদের ভুগিয়েছে তা বলেছি। যেমন সেট পিসে গোল খাওয়া, ফিনিশিংয়ের অভাব-এসব দুর্বলতা আমরা তার কাছে তুলে ধরেছি। তিনি সে নোট নিয়েছেন। আমরা আশা করি তিনি বাংলাদেশের সঙ্গে দীর্ঘদিন থাকবেন তবে এটি সম্পূর্ণ নির্ভর করছে ভুটানের ম্যাচের ওপর।’

দুই-তিন দিনের মধ্যেই চুক্তি চূড়ান্ত হবে: সেইন্টফিট

আনুষ্ঠানিক চুক্তি স্বাক্ষর না হলেও বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সঙ্গে কাজ শুরু করে দিয়েছেন বেলজিয়ান কোচ টম সেইন্টফিট। আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে চুক্তি চূড়ান্ত হবে বলে জানান তিনি।

মঙ্গলবার বাফুফে ভবনে গণমাধ্যমকে বেলজিয়ান এই কোচ বলেন, ‘আমি বাফুফের কাছ থেকে চুক্তিটি পেয়েছি। এটি ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করার জন্য আমি আমার আইনজীবীর কাছে পাঠিয়েছি। যখন বাফুফে আমার কাছে চুক্তিটি পাঠিয়েছিল তখন আমি যাত্রা পথে ছিলাম। তাই চুক্তিটি ভালোভাবে দেখতে পারিনি। আশা করি আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই আমি চুক্তিটি চূড়ান্ত করতে পারবো।’

এর আগে জানা যায়, নাইজেরিয়ার ফুটবল দলের জন্য বাছাই কৃত কোচের সংক্ষিপ্ত তালিকায় রয়েছেন সেইন্টফিট। এ প্রসঙ্গে এই কোচ বলেন, ‘নাইজেরিয়ার ফুটবল ফেডারেশন প্রচার মাধ্যমে প্রকাশ করেছে যে আমি তাদের তিনজন কোচের সংক্ষিপ্ত তালিকায় আছি। আপনারা যেমন দেখেছেন আমি ততটুকুই দেখেছি। গত দু’মাস ধরে আমার কোনও চাকরি নেই। তাই বিভিন্ন ক্লাব ও বিভিন্ন ফুটবল ফেডারেশনকে আমার বায়োডাটা পাঠিয়েছি। এর মধ্যে নাইজেরিয়াও ছিল। তারপর প্রচার মাধ্যমে আসলো যে আমি সংক্ষিপ্ত তালিকায় অন্তর্ভুক্ত। কিন্তু নাইজেরিয়ান ফুটবল ফেডারেশন থেকে আমাকে এ পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি। ওয়েব সাইটে এটিও রয়েছে যে ১৮ তারিখ সাক্ষাৎকারের দিন ধার্য করা হয়েছে। কিন্তু এ ব্যাপারেও আনুষ্ঠানিকভাবে কোনও বার্তা বা আমন্ত্রণ আমি পাইনি।’

এমন প্রস্তাব থাকলেও এই মুহূর্তে বাংলাদেশের আসন্ন দুটি ম্যাচ নিয়ে কাজ করতে চান সেইন্টফিট। তিনি বলেন, ‘এখন আমার মূল লক্ষ্য হচ্ছে ভুটানের বিপক্ষে দু’টি ম্যাচের জন্য বাংলাদেশকে তৈরি করা। আমি আশা করি বাংলাদেশ বাছাই পর্বের এই চ্যালেঞ্জ পার হবে এবং পরবর্তীতে দীর্ঘ মেয়াদে বাংলাদেশের সঙ্গে আমি কাজ করতে পারবো। প্রাথমিকভাবে তিনমাসেই আমার এবং বাফুফের সম্পর্ক। এরপরই ভবিষ্যতের চিন্তা ভাবনা।’

এখন পর্যন্ত নাইজেরিয়া থেকে কোনও আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণ পাননি বেলজিয়ান এই কোচ। সেক্ষেত্রে করণীয় কী হবে এমন প্রশ্নে সেইন্ট ফিট বলেন, ‘যেহেতু নাইজেরিয়ার কাছ থেকে এখনও কোনও আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব বা আমন্ত্রণ পাইনি তাই সে ব্যাপারে আমার করণীয় কী তা এখন বলা সম্ভব নয়। আমি আশা করি রিয়াল মাদ্রিদও আমাকে ডাকতে পারে। যদি বাংলাদেশকে নিয়ে কাজ করার আগ্রহ আমার নাই থাকতো তাহলে আমি এখানে আসতাম না। খেলোয়াড়দের সঙ্গে ইতোমধ্যেই আমি কথা বলেছি। আমার পরিচয় তুলে ধরেছি এবং তাদের কাছে আমি কী চাই সেটি জানিয়েছি। আমি বাংলাদেশে এসেছি ভুটানের বিপক্ষে বাংলাদেশকে জেতাতে।’

প্রাথমিক দল বাছাই নিয়ে সেইন্টফিট বলেন, ‘যে ৩২ জনকে তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এর বাইরেও অন্য খেলোয়াড়কে আমি ডাকতে পারি। আমি সব দলের খেলা দেখতে পারিনি। সবাইকে দেখা আমার পক্ষে যেহেতু সম্ভব হয়নি তাই সে দ্বার সব সময় খোলা থাকবে। ১২ জন খেলোয়াড়কে আমি পছন্দ করেছি। অন্যদের সাইফুল বারী টিটু পছন্দ করেছেন। লিগের খেলাগুলো দেখবো। সেখান থেকে খেলোয়াড়দের পছন্দ করবো।’

এই মুহূর্তে বাংলাদেশ নিয়ে নিজের লক্ষ্য সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘আমার লক্ষ্য হচ্ছে বাংলাদেশকে একটি দল হিসেবে তৈরি করা, কোনও খেলোয়াড় তৈরি করা নয়। বাংলাদেশ হবে সেই দল যেটি প্রাথমিকভাবে ভুটান এবং ভবিষ্যতে ভালো ফুটবল খেলে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে পারবে। আমি আগামী রবিবার পর্যন্ত অনুশীলন করাবো। তারপর খেলোয়াড়রা ক্লাবে ফিরে যাবে।’

বার্সা ছাড়ার কথা ভাবছেন মেসি!

বার্সেলোনার প্রতি তার কৃতজ্ঞতার কথা বহুবার বহু মঞ্চে বলেছেন তিনি। এমনও বলেছেন, পেশাদার ফুটবলের শেষ পর্যন্ত তিনি স্পেনের এই ক্লাবের সঙ্গেই থাকবেন। তবে কর ফাঁকি মামলায় মেসির ২১ মাসের জেল হওয়ায় ২০১৮ সালে চলতি চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার পর প্রাণের ক্লাব বার্সেলোনা ছাড়তে পারেন মেসি।

কোপার শতবর্ষী আসরে টাইব্রেকারে চিলির কাছে শিরোপা হারানোর পরেই কর ফাঁকি মামলায় মেসির ২১ মাসের জেল হওয়ার পর থেকেই কঠিন সময় পার করছে ২৯ বছর বয়সী মেসি। সোমবার `এল পার্টি দে লাস 12` এর কর্মসূচিতে লক্ষ্য করা যায়, এই বিষয়গুলো তাকে বিধ্বস্ত ও হয়রানি করেছে। তিনি এতটাই কঠিন সময় পার করছেন যে বর্তমান ও ভবিষ্যত সম্পর্কে চিন্তা-ভাবনা গভীর চিন্তা করছেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে #WeAreAllLeoMessi হ্যাশট্যাগের মাধ্যমে মেসিকে সমর্থন জানিয়ে সকল বার্সা সমর্থকদের অনুরোধ করে বার্সেলোনা। কিন্তু এতেই ঘটে বিপত্তি। কিছু বার্সা সমর্থক একাত্মতা প্রকাশ করলেও বেশিরভাগ সমর্থকই এর বিরোধিতা করেন। এসব নিয়েও কিছুটা উদাসীন মেসি।

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু

দেশের শীর্ষস্থানীয় ক্রীড়া পৃষ্ঠপোষক ব্র্যান্ড ওয়ালটনের সার্বিক সহযোগিতায় শুরু হয়েছে সুবিধাবঞ্চিত শিশু-কিশোরদের ফুটবল ঈদ আনন্দ উৎসব। মূলত সুবিধাবঞ্চিত শিশু-কিশোরদের ঈদ আনন্দে সামিল করতে ওয়ালটন গ্রুপ স্পোর্টস লাভার্স অ্যাসোসিয়েশনের সহায়তায় এই আয়োজন করছে।
সোমবার সকালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন ওয়ালটন গ্রুপের সিনিয়র এডিশনাল ডিরেক্টর এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন)। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ক্রীড়া সংগঠক হেলেনা জাহাঙ্গীর। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের প্রশাসক ও ওয়ালটন সুবিধাবঞ্চিত শিশু-কিশোরদের ফুটবল টুর্নামেন্টের প্রধান সমন্বয়কারী মো. ইয়াহিয়া।
পল্টন মাঠে অনুষ্ঠিত দুইদিন ব্যাপী এই প্রতিযোগিতা আগামীকাল বিকেলে ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হবে। সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনু্ষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ের উপমন্ত্রী শ্রী বীরেন শিকদার এমপি।
এবার এই টুর্নামেন্টে ১২টি দল অংশ নিয়েছে। টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দল ৮ হাজার ও রানার আপ দল ৪ হাজার টাকা প্রাইজমানি ও ট্রফি পাবে।
প্রত্যেকটি দলকে ২ হাজার টাকা করে পার্টিসিপেশন মানি দেওয়া হয়েছে। টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতা ও সেরা খেলোয়াড়কে ১ হাজার করে টাকা দেওয়ার পাশাপাশি ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হবে। প্রত্যেক দলকে ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে জার্সি ও বল দেওয়া হয়েছে।
প্রতিটি দলে ৬ জন করে খেলোয়াড় খেলার সুযোগ পাবে। গোলরক্ষক বাদে দুজন খেলোয়াড় পরিবর্তন করা যাবে। খেলা হবে ২০মি.+১০ মি.+২০ মিনিট।

ভোরে ঢাকা আসছেন সেইন্টফিট

সুপার ঈগলস খ্যাত নাইজেরিয়া দলের কোচ হওয়ার সংক্ষিপ্ত তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েই আজ বাংলাদেশে আসছেন বেলজিয়ান কোচ টম সেইন্টফিট। সোমবার ভোর সাড়ে ৪টায় ঢাকায় নামবেন তিনি। ঢাকায় নামার পর দুপুর সাড়ে ১২ টায় খেলোয়াড়রা রিপোর্ট করবেন তার কাছে।

নাইজেরিয়া ফুটবল ফেডারেশন তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে যে সাবেক ক্যামেরুন কোচ ফরাসি বংশোদ্ভূত পল লি গুয়েন, টম সেইন্টফিট ও দলের ভারপ্রাপ্ত কোচ ইউসুফ সালিসুকে ২০ জনের তালিকা থেকে সাক্ষাৎকারের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে। ১৮ জুলাই তাদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে এবং অবিলম্বে দায়িত্বভার বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

সেইন্টফিটকে আগামী ৬ সেপ্টেম্বর ও ১১ অক্টোবর এশিয়ান কাপের প্লে-অফ-২ এর জন্য নিয়োগ দিতে চায় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। গত মাসে ঢাকায় এসে এই দায়িত্ব নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ বলেন, ‘আমরা এ ব্যাপারে কিছু জানি না। সেইন্টফিট আমাদেরকে ব্রাসেলস বিমানবন্দর থেকে জানিয়েছেন তিনি ঢাকার উদ্দেশে রওয়ানা দিয়েছেন। আসার পর এ ব্যাপারে তার চিন্তা-ভাবনা জানা যাবে। আর তার সঙ্গে তো এখনও আমাদের কোনও চুক্তি হয়নি। বিষয়গুলো তার ওপরই নির্ভর করছে।’

সেইন্টফিট ঢাকায় এসে ৩২ সদস্যের প্রাথমিক স্কোয়াডকে নিয়ে পাঁচ দিন কাজ করবেন। এরপর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের কিছু খেলা দেখে আবার বেলজিয়াম ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে।

ফ্রান্সকে হারিয়ে ইউরো চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল

ওই একটি মুহূর্তের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা পুরো ফুটবল বিশ্ব। ওই একটি মুহূর্ত দেখার অপেক্ষায় পুরো স্টেডিয়ামে পর্তুগাল। অবশেষে তার দেখা মিলল অনেক বিলম্বে। ১০৯তম মিনিটে। বাম উইং থেকে বলটা পেয়েছিলেন এডের। দু’তিনজন ফরাসি ডিফেন্ডারকে কাটালেন। এরপরই নিলেন মাটি কামড়ানো, অথচ দুর্দান্ত গতির শট। বাম কোন ঘেঁষে সোজা বলটি পৌঁছে গেলো ফ্রান্সের জালে। গোলরক্ষক হুলো লরিস ঝাঁপিয়ে পড়েও হাতের নাগাল পেলেন না। গোওওওল।

এই একটি গোলেই ফয়সালা হয়ে গেলো আগামী চার বছর ইউরোপের মুকুট উঠবে কার মাথায়। নিশ্চিত ফেভারিট হওয়ার পরও, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর মতো তারকা ফুটবলারকে মেরে মাঠের বাইরে পাঠিয়ে দেয়ার পরও ফ্রান্স পারলো না পর্তুগালকে হারাতে। বরং তাদেরকে ১-০ গোলে হারিয়ে ইউরো চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেলো ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল।

ম্যাচের ৭ম মিনিটেই রোনালদোকে কঠিন ট্যাকলের মাধ্যমে পঙ্গু করে দিলেন ফ্রান্স ফুটবলার পায়েত। এরপর ২০ মিনিটে মাঠ ছেড়েই বাইরে চলে যেতে বাধ্য হন রোনালদো। চোখের পানিতে রোনালদোর চলে যাওয়া দেখেই হয়তো বাকি পর্তুগিজ ফুটবলাররা শপথ নিয়েছিল, ট্রফিটা জিততেই হবে। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত সময় গোলশূন্য থাকার পর অতিরিক্ত সময়ে গড়ায় খেলা এবং ১৯তম মিনিটে গিয়ে এডের দুর্দান্ত এক শটে গোলটি করেন।

২০০৪ ইউরোয় নিজ দেশের মাটিতে পর্তুগাল ফাইনালে উঠেছিলো প্রথমবারের মতো। কিন্তু সেবার গ্রিসের কাছে হেরে স্বপ্ন ভঙ্গ হয় পর্তুগিজদের। ১২ বছর পর আবারও ফাইনালে উঠলেন রোনালদো এবং তার দল। অবশেষে আর স্বপ্ন বিসর্জন দিতে হলো না। এবার আর রোনালদোকে শিরোপা বঞ্চিত হতে হলো না। নিজে মাঠে থাকতে না পারলেও তার সতীর্থরা তাকে হতাশ করলো না।

প্রথমবারের মতো ইউরো জিতে পর্তুগালের ইতিহাসে রোনালদো-ন্যানিরা নিজেদের সোনালি প্রজন্ম হিসেবেই প্রমাণ করলেন।
অথচ গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিচ্ছিল রোনালদোরা। তিন ম্যাচের কোনটিতেই জিততে পারেনি। তিনটিতেই ড্র। কোনমতে সেরা তৃতীয় দল হয়ে গ্রুপ পর্ব পার হয়েছিল। এরপর দ্বিতীয় রাউন্ডে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে অতিরিক্ত সময়ের গোলে জয়, কোয়ার্টার ফাইনালে পোল্যান্ডের বিপক্ষে টাইব্রেকারে এবং সেমিফাইনালে গিয়ে নিজেদের নামের প্রতি সুবিচার করেছিল পর্তুগাল। বেলের ওয়েলসকে হারিয়েছিল দুর্দান্ত খেলে।

অথচ পুরো ম্যাচে কিন্তু আধিপত্য বিস্তার করে খেলেছিল ফ্রান্সই। আন্তোনিও গ্রিজম্যান শুরুতে যেভাবে হেড আর শট নিয়ে পর্তুগালের গোলপোস্ট কাঁপিয়ে দিচ্ছিলেন, তাতে প্রমাদ গুনতে হচ্ছিল, কতক্ষণ এই সয়লাব ঠেকিয়ে রাখবে পর্তুগাল।

কিন্তু পর্তুগিজ গোলরক্ষক রুই প্যাট্রিসিও যেন আজ ফ্রান্সের সামনে সাক্ষাৎ হিমালয় পর্বত হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন ফ্রান্সের সামনে। মাতুইদি, সিসোকো, জিরুড, গ্রিজম্যান, এভরা থেকে শুরু করে ফরাসি ফুটবলারদের অসংখ্য আক্রমণ জীবনবাজি রেখে ফিরিয়েছেন তিনি। নির্ধারিত সময়ের শেষ মুহূর্তে গিগন্যাকের একটি শট তিনি ফেরাতে পারেননি। তবে ভাগ্য ভালো, বল সাইডবারে লেগে ফিরে যায়।

পর্তুগালের রাফায়েলের নেয়া একটি ফ্রি কিক শটও ফিরে আসে গোলপোস্টে লেগে। এর একটু পরই অবশ্য গোলে শট নিয়ে জয়-পরাজয় নির্ধারণ করে ফেলেন এডের।

ফাইনাল শেষে অধিনায়ক হিসেবে ইউরো শিরোপাটা নিজের হাতেই তুলে নিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ফুটবলার হিসেবে যেন এটাই তার সবচেয়ে বড় পূর্ণতা।

২০ মিনিটেই চোখের পানিতে মাঠ ছাড়লেন রোনালদো

খেলা দু’দেশের মধ্যে নয়, কখনও কখনও দুই দলের দুই তারকার মধ্যেও হয়ে থাকে। কখনও কোনো কোনো তারকার জন্য সেই খেলা হয়ে ওঠে আকর্ষণীয়; কিন্তু যখন প্রতিপক্ষের অসাধু কোনো উদ্দেশ্য কিংবা বাজে কোন ট্যাকলের কারণে সেই বিশেষ তারকা অচিরেই ইনজুরিতে পড়ে মাঠ ছাড়েন, তাহলে তখন কী করার থাকে?

ইউরো ফাইনালে ফ্রান্স বনাম পর্তুগালের খেলায় দুই দেশের চেয়েও লড়াইটা ছিল রোনালদো বনাম গ্রিজম্যানের বেশি। দুই দলের দুই সেরা তারকা। দুই তারকার ব্যক্তিগত নৈপূণ্য দেখার জন্যও সবাই অপেক্ষায় ছিল; কিন্তু স্বাগতিক ফ্রান্স একি করলো! চোরাগোপ্তা আক্রমণে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার পন্থাই যেন বেছে নিয়েছে তারা।

প্রতিপক্ষ পর্তুগালের সেরা তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে মেরে কোনমতে বাইরে পাঠিয়ে দিতে পারলেই যেন ম্যাচ অর্ধেক জেতা হয়ে যাবে তাদের। সেটাই করলো স্বাগতিক ফ্রান্স। তখন সপ্তম মিনিটের খেলা চলছিল। মিডফিল্ড বরারবর বাম উইংয়ে রোনালদো বল পেলেন। সেটি নিয়ন্ত্রণে নেয়ার সময়ই পেছনে থেকে এসে সোজা তার হাঁটুতে আঘাত করে বসেন ফ্রান্সের পায়েত।

সঙ্গে সঙ্গেই হাঁটু ধরে শুয়ে পড়েন রোনালদো। রেফারি খেলা চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন। তখনও বোঝা যায়নি পরিস্থিতি এতটা গুরুতর। পরে বোঝা গেলো, রোনাদোর উঠে না দাঁড়ানোয়। এ সময় খেলা বন্ধ করে হালকা চিকিৎসা দিয়ে আবার মাঠে নামানো হয় রোনালদোকে। কিন্তু খুঁড়িয়েই যাচ্ছিলেন তিনি। বলের টাচ নিতে পারছিলেন না। কারও কাছ থেকে বল কেড়ে নেবেন, সেটাও সম্ভব হচ্ছিল না।

৬ মিনিট পরই মাঠের মধ্যখানে বসে পড়েন রোনালদো। তার চোখে পানি। বোঝাই যাচ্ছিল তিনি আর পারবেন না। মাঠের বাইরে নিয়ে আবার চিকিৎসা করা হলো। আবারও মাঠে নামলেন তিনি। ১৭ মিনিটে দেখা গেলো খোঁড়াচ্ছেন রোনালদো।

২১তম মিনিটে গিয়ে আর পারলেন না। দৌঁড়াতে গিয়েই বসে পড়লেন। হাতে বাধা নেতৃত্বের আর্মব্যান্ড খুলে ছুঁড়ে মারলেন। বসে পড়েই শিশুর মত ফুঁফিয়ে কেঁদে উঠলেন। দেশকে অন্তত ম্যচের শেষ পর্যন্ত টেনে নিতে না পারার দুঃখ তখন তার চোখে জল হয়ে ঝরছিল। শেষে ন্যানির হাতে আর্মব্যান্ড বেধে দিয়ে স্ট্রেচারে করে বের হয়ে গেলেন মাঠ থেকে। পরিবর্তে মাঠে নামলেন রিকার্ডো কোরেশমা।

অ্যান্ডি মারের হাতে উইম্বলডন শিরোপা

ফাইনালের লাইনআপ দেখেই বোঝা গিয়েছিল, উইম্বলডনে পুরুষ এককের শিরোপা উঠতে যাচ্ছে ব্রিটিশ তারকা অ্যান্ডি মারের হাতে। অবশেষে সেটাই সত্যি হলো। কানাডিয়ান তারকা মিলোস রাওনিককে সরাসরি ৬-৪, ৭-৬, ৭-৬ সেটে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মত উইম্বলডনের সোনালি ট্রফিতে চুমু আঁকলেন অ্যান্ডি মারে।

উইম্বলডনের সেন্টার কোর্টে এদিন হাজির ছিলেন ডিউক অ্যান্ড ডাচেস অব ক্যামব্রিজ প্রিন্স উইলিয়ামস এবং কেট মিডলটন। সারাক্ষণই এ দু’জন উৎসাহ দিয়ে গেছেন অ্যান্ডি মারেকে। শেষ পর্যন্ত রাজ পরিবারের সম্মান রাখলেন মারে।

৬ ফিট ৫ ইঞ্চি উচ্চতার মিলোস রাউনিকের সামনে পরাস্ত হয়েছিলেন রজার ফেদেরার। তার উচ্চতাই ছিল সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। কিন্তু সেন্টার কোর্টের ঘাসের সারফেসে রাউনিককে দাঁড়াতেই দেননি মারে। জিতেছেন সরাসরি সেটে। এ নিয়ে ১২তম ব্যক্তি হিসেবে উইম্বলডনের ওপেন যুগে ডাবল শিরোপা জিতলেন মারে। একই সঙ্গে তার নামের পাশে শোভা পাচ্ছে একটি ইউএস ওপেন এবং অলিম্পিক গোল্ড মেডেল।

সেন্টার কোর্টে বিশেষ করে মিলোস রাওনিকের সার্ভগুলো দুর্দান্তভাবে ঠেকিয়ে দিয়েই বাজিমাত করেছেন তিনি। তার ওপর নিজের করা সার্ভগুলো ছিল দুর্ধর্ষ। এ কারণেই মূলতঃ মারের সামনে দাঁড়াতে পারেননি রাওনিক। সে সঙ্গে প্রথম কানাডিয়ান হিসেবে রাওনিকের থেমে গেলো কোন গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের স্বপ্ন।

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের ফুটবল টুর্নামেন্ট সোমবার শুরু

সমাজের সুবিধাবঞ্চিত শিশু ও কিশোরদের অসামাজিক কর্মকাণ্ড থেকে বিরত রাখা ও ফুটবলকে ঘিরে আনন্দ উদযাপনের জন্য ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় কাল সোমবার থেকে পল্টন ময়দানে শুরু হচ্ছে সুবিধাবঞ্চিত শিশু-কিশোরদের ফুটবল ঈদ আনন্দ উৎসব।

গত বছর শুরু হওয়া টুর্নামেন্টটিতে এবার ১২টি দল অংশ নিচ্ছে। ১১ জুলাই সকালে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন হবে। ১২ জুলাই বিকেলে অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল। টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দল ৮ হাজার ও রানার্স আপ দল ৪ হাজার টাকা প্রাইজমানি ও ট্রফি পাবে। প্রত্যেকটি দলকে ২ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতা ও সেরা খেলোয়াড়কে ১ হাজার করে টাকা দেওয়ার পাশাপাশি ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হবে। প্রত্যেক দলকে ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে জার্সি ও বল দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি দলে ৬ জন