রাত ১১:৪৪, সোমবার, ২৫শে জুন, ২০১৮ ইং

স্বাগতিক রাশিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ‘এ গ্রুপ’ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে উঠলো উরুগুয়ে। তিন ম্যাচ শেষে তাদের পয়েন্ট নয়। অন্যদিকে ছয় পয়েন্ট নিয়ে রাশিয়াও দ্বিতীয় দল হিসেবে শেষ ষোলো নিশ্চিত করে। এদিকে, গ্রুপের অন্য ম্যাচে মিশরকে ২-১ গোলে হারিয়েছে সৌদি আরব।

সুয়ারেজের গোল করা বিশ্বকাপের আগের চার ম্যাচেই জিতেছে দুইবারের চ্যাম্পিয়ন উরুগুয়ে। রাশিয়ার বিপক্ষেও গোল করলেন তিনি, আর কাঙ্খিত জয় পেলো ‘লা সেলেস্তে’রা। তাতে ‘এ’ গ্রুপের শীর্ষদল হিসেবে পৌঁছে গেলো উরুগুয়ে বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে।

উরুগুয়ে ও রাশিয়া দুই দলই নকআউট পর্বে পৌঁছে ছিল আগেই। গ্রুপের শেষ লড়াইটি ছিল শীর্ষস্থান দখলের। তাতে ১০ মিনিটেই দারুণ এক ফ্রিকিকে লুইস সুয়ারেজ উরুগুয়েকে এগিয়ে দেন। রাশিয়া বিশ^কাপে সরাসরি ফ্রিকিক থেকে এটি ষষ্ঠ গোল।

গোল শোধের সুযোগও ছিল রাশিয়ার। তবে ১৩ মিনিটে রাশান স্ট্রাইকার জিওবা’র সমতা আনার চেষ্টা ব্যর্থ করে দেন উরুগুয়ের গোলকিপার মুসলেরা।

রাশিয়ার ব্যর্থ হলেও, সাফল্যের ফুল ঠিকই ফোটায় উরুগুয়ে। ২৩ মিনিটে রাশিয়ার রক্ষণভাগের খেলোয়াড় চেরিসেভের উওন গোলে ২-০ তে লিড নেয় লা সেলেস্তেরা।

তবে স্বাগতিকদের দুর্ভাগ্যের এখানেই শেষ নয়, ৩৬ মিনিটে দুই হলুদ কার্ড পেয়ে স্মলিকভ মাঠ ছাড়লে বাকী সময়টা দশজন নিয়েই খেলতে হয় রাশিয়াকে। তাতে কমে যায় তাদের আক্রমণের ধার।

কাভানির গোল করা আগের দুই ম্যাচেই হেরেছিল ল্যাটিন আমেরিকার দলটি। ৯০ মিনিটে কাভানি এবার‌ও গোল করলেন। দল পেলো ৩-০ তে বড় জয় পায়। কাভানির অপয়া অববাদটা‌ও ঘুচলো এবার। তাতে ১৯৭০ সালের পর আবারও বিশ্বকাপের ম্যাচে রাশিয়াকে হারালো উরুগুয়ে।

এদিকে, গ্রুপের প্রথম দুই ম্যাচে পরাজয়ে আগেই টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় ঘন্টা বেজে যায় মিশর এবং সৌদি আরবের। তবে মর্যাদার এই লড়াইয়ে ২২ মিনিটেই লিভারপুল তারকা সালাহ’র গোলে এগিয়ে যায় মিশর।

প্রথমার্ধের ইনজুরি টাইমে পেনাল্টি গোলে সৌদি আরবকে সমতায় ফেরান, সালমান। এখানেই থেমে থাকেনি তারা। খেলা শেষের ইনজুরি টাইমে সেলিমের দারুণ এক গোলে এবারের বিশ্বকাপে জয় নিয়েই ঘরে ফেরে সৌদি আরব।

লুকাকু: ফুটবলের চির পুরাতন গল্প

বিশ্বকাপের প্রথম দুই ম্যাচে চার গোল। বিশ্বকাপে গোল্ডেন বুটের দৌড়ে হ্যারি কেন ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর সঙ্গে সমানে পাল্লা দিচ্ছেন তিনি। এডেন হ্যাজার্ড, কেভিন ডি ব্রুইনের পাশাপাশি তাঁকে ঘিরেই আবর্তিত হচ্ছে বেলজিয়ামের ‘সোনালি প্রজন্মের’ আশার স্বপ্ন।
কিন্তু, রোমেলু লুকাকুর এই উত্থান মোটেই স্বপ্নের সরণী বেয়ে নয়। ছেলেবেলায় মারাত্মক আর্থিক অনটনই ছিল তাঁর সঙ্গী।

বিশ্বকাপের আগে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে লুকাকুর স্মৃতিচারণা, ‘প্রতিদিনই লাঞ্চের মেন্যুতে থাকত শুধু রুটি আর দুধ। তবে সেই দুধ খাঁটি নয়। জল মেশানো। স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে মায়ের কাছে খেতে চেয়েছিলাম। সামান্য দেরি হচ্ছে দেখে রান্নাঘরে ঢুকে দেখি, দুধের গ্লাসে জল মেশাচ্ছেন মা। আমি ঢুকতেই কেঁদে ফেললেন। তারপর আমায় বুকে জড়িয়ে ধরে বেড়ে গেল কান্নার তীব্রতা। মায়ের সেই ছবি এখনও স্পষ্ট মনে আছে। বাড়িতে ছিল না কারেন্টও। কারণ, সেই সময় বেলজিয়ামে বিদ্যুতের দাম ছিল প্রচণ্ড। তাই বিল কমানোর জন্য রাতের বেলায় অন্ধকারে থাকারই অভ্যাস হয়ে গিয়েছিল। তারই মধ্যে আমরা দুই ভাই মিলে মাকে সান্ত্বনা দিতাম, এই অভাবের দিন তাড়াতাড়ি কাটবে।’

প্রথম দু’টি ম্যাচে চার গোল করে অনেকের কাছেই নায়কের মর্যাদা পেয়ে গেছেন রোমেলু লুকাকু। কিন্তু, বেলজিয়াম সমর্থকদের একাংশ এখনও তাঁকে দেখে অন্য চোখে। এলিট ক্লাসের ফুটবলার হিসেবে মানতে চান না। কারণ একটাই। ইউরোপের এই দেশে গরীব হয়ে জন্মালে অবহেলা নিত্যসঙ্গী। সমাজের তথাকথিত ধনীরা দরিদ্রকে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করে। দেখে অবহেলার চোখে। তাই বেলজিয়ামের হয়ে গোলের পর গোল করলেও কেভিন ডি ব্রুইন-এডেন হ্যাজার্ডদের মতো ভালোবাসা এখনও লুকাকুর অধরা। বর্তমানে ফুটবল খেলে যথেষ্ট রোজগার করলেও ধূসর অতীতের মধ্যে দিয়েই তাঁকে চেনেন অনেকে। সুযোগ পেলেই ভরিয়ে দেন সমালোচনায়।

প্রচণ্ড আর্থিক অনটনের মধ্যে বড় হলেও ফুটবলের প্রতি প্রেমই বেঁচে থাকার অনুপ্রেরণা হয়ে ওঠে লুকাকুর। প্রতিটি ম্যাচেই গোল করতে চাইতেন তিনি। ভাবতেন, এই চামড়ার বলই তাঁর হাতে তুলে দেবে সাফল্যের পেয়ালা। গত শনিবার তিউনিশিয়ার বিরুদ্ধে মাঠে নামার ২৪ ঘণ্টা আগে আক্ষেপের সুরে লুকাকুকে বলতে শোনা যায়, ‘বেলজিয়ামের অনেকেই চান আমি বিশ্বকাপে ব্যর্থ হই। এ এক নিদারুণ যন্ত্রণা… যা আমাকে আরও গোল করতে প্রতি মুহূর্তে উৎসাহিত করে।’

রোমেলু লুকাকুর বাবা-মা, দু’জনেই কঙ্গোর অভিবাসী। আর্থিক অনটনকে জয় করার লক্ষ্যেই তাঁরা বেলজিয়ামে আসেন। বাবা রজার লুকাকু পেশাদার ফুটবলার হলেও সৌভাগ্যের খোঁজে দেশ ছাড়ায় সেই স্বপ্নের অকালমৃত্যু ঘটে। তাই তিনি চাইতেন, দুই ছেলেই যেন নামী খেলোয়াড় হতে পারেন। তবে চাইলেই তো আর সবকিছু পাওয়া যায় না! রোমেলু ছোটবেলা থেকেই প্রচণ্ড জোরে বলে শট নিতে পারেন। সেই সময় অবশ্য কোনও ট্রেনিং সেন্টারে ছেলেকে ভরতি করানোর মতো সামর্থ ছিল না রজারের। ১৬ বছর বয়সে এক বন্ধুর সহযোগিতায় রোমেলু যোগ দেন অ্যান্ডারলেখটে। তারপর চেলসি, এভারটন ঘুরে তিনি এখন হোসে মরিনহোর ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডে।

তবে ক্লাব ফুটবল নয়, এই মুহূর্তে লুকাকুর মনে একটাই স্বপ্ন। বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া। পানামা ও তিউনিশিয়ার বিরুদ্ধে দু’টি করে গোল পেয়ে আত্মবিশ্বাস অনেকটাই বেড়েছে। মনের কোণে রয়েছে স্বপ্ন, দেশকে বিশ্বকাপ জেতাতে পারলে হয়তো ধূসর অতীত ভুলে গিয়ে তাঁকে প্রাপ্য সম্মানটুকু দেবেন বেলজিয়ামবাসীরা।

সালাহর অবসরের হুমকি

মিশরের হয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবল ছেড়ে দেওয়ার কথা ভাবছেন মোহাম্মদ সালাহ। চেচনিয়ার নেতাদের সঙ্গে তার সম্পৃক্ততাকে রাজনৈতিক দৃষ্টিতে দেখাটাকে ভালভাবে নেননি লিভারপুলের ফরোয়ার্ড।

বিশ্বকাপের পরই এমন সিদ্ধান্ত নিতে পারেন সালাহ। টুর্নামেন্ট শুরুর আগে চেচনিয়ান প্রজাতন্ত্রের নেতা রামজান কাদিরভের সঙ্গে ছবিতে দেখা গেছে সালাহকে, তাকে সম্মানসূচক নাগরিত্ব দেওয়ার কথাও জানিয়েছিলেন কাদিরভ। মিশরের বিশ্বকাপ ঘাঁটিতে এসেছিলেন তিনি, সেখানেই এমন কথা জানান।

২০০৪ সাল থেকে চেচনিয়ার নেতৃত্বে কাদিরভ, তবে বিশ্বে তিনি বেশ বিতর্কিত। তার কঠোর শাসন ও বিতর্কিত মন্তব্য নিয়ে আছে বেশ সমালোচনা। সমকামী সম্প্রদায়ের প্রতিও তার দৃষ্টিভঙ্গী নিয়ে আছে বিতর্ক।

সংবাদ সংস্থা এপি জানায়, এই ছবি তোলর পর যে সমালোচনা এবং রাজনৈতিক যোগসূত্র স্থাপনের চেষ্টা করা হচ্ছে, সেটা নিয়ে স্বস্তিতে নেই সালাহ। জাতীয় দলের হয়ে সালাহর এটাই প্রথম বিবাদ নয়, এর আগে মিশরের ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গে ছবির সত্ত্ব নিয়ে বিবাদে জড়িয়েছিলেন তিনি।

চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে চোট পেয়ে বাইরে চলে যাওয়া সালাহর বিশ্বকাপ খেলা নিয়ে এর আগে চলেছে বেশ জল্পনা-কল্পনা। শেষ পর্যন্ত উরুগুয়ের সঙ্গে প্রথম ম্যাচটা সালাহ খেলতে পারেননি। মিশর এরই মাঝে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে, সোমবার সৌদি আরবের সঙ্গে তাদের শেষ ম্যাচ।

লড়াইয়ে টিকে রইল কলম্বিয়া

পোল্যান্ডকে ৩-০ গোলে হারিয়ে এইচ গ্রুপ থেকে বিশ্বকাপের নকআউট পর্বের আশা বাঁচিয়ে রাখলো কলম্বিয়া। দুই ম্যাচে তাদের পয়েন্ট এখন তিন। আর এক ম্যাচ বাকী থাকতেই এই গ্রুপ থেকে বিদায় ঘন্টা বেজে গেল লেভানডস্কির দল পোল্যান্ডের।

হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের সব ভবিষ্যতবাণী যে এভাবে ভুল মিথ্যে হবে কে ভেবেছিল? ৭৫ মিনিটে কুয়াদ্রাদোর গোলের পরেই নিশ্চিত হয়ে যায় এবারের মতো শেষ হচ্ছে পোলিশদের বিশ্বকাপ যাত্রা।

অথছ লড়াইটা ছিলো অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার। কাজানে, সেই ম্যাচে শুরু থেকেই দাপট ল্যাতিনদের। ৪০ মিনিটে ডিফেন্ডার ইয়েরি মিনার হেডে ভাঙ্গে পোলিশ রক্ষণ।

কলম্বিয়ার পাসিং, আর গতির কাছে অসহায়ই হয়ে পড়ে পোল্যান্ড। দুর্দান্ত হোসে প্যাকারম্যানের শিষ্যরা ব্যবধান ২-০ করে রাদামেল ফ্যালকাওয়ের গোলে। শেষ পর্যন্ত জয়টা ৩-০ তে। দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার পথে কলম্বিয়ার শেষ বাধা সেনেগাল।

আর্জেন্টিনা-নাইজেরিয়া ম্যাচ রেফারি

রাশিয়া বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা-নাইজেরিয়ার মধ্যকার মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি পরিচালনা করবেন তুরস্কের রেফারি কানিয়েত কারিক। তাকে সহায়তা করবেন স্বদেশী বাহাত্তিন দুরান ‌এবং তারিক অনগাম।

আর চতুর্থ রেফারি হিসেবে থাকবেন নেদারল্যান্ডসের বোর্ন কিউপিরেস।

সেনেগালের সঙ্গে ড্র জাপানের

গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পোল্যান্ডের বিপক্ষে দুর্বার ছিল সেনেগাল। ইউরোপের দলটিকে ২-১ গোলে হারিয়ে দিয়ে বড় চমক দেখিয়েছিল তারা। দ্বিতীয় ম্যাচে ম্যাচে সেনেগালের সেই চমক আর থাকেনি। উল্টো তাদের কাছ থেকে এক পয়েন্ট ছিনিয়ে নিয়ে চমকে দিয়েছে জাপান। এই দুই দলের জমজমাট লড়াইটি শেষ হয় ২-২ গোলের সমতায়।

রোববার রাতে একাতেরিনবার্গে অবশ্য শুরুতেই এগিয়ে যায় সেনেগাল। ১১ মিনিটে ম্যাচ সেরা সাদিও মানে আফ্রিকার দেশটিকে লিড এনে দেন। কিন্তু এশিয়ার দল জাপান প্রথম ম্যাচের জয়ে আরো উজ্জীবিত তারা ছেড়ে কথা বলবে কেন। ৩৪ মিনিটেই গোল পরিশোধ করেন মিডফিন্ডার তাকাশি ইনুই।

বিরতি থেকে ফিরে আক্রমণ আর পাল্টা আক্রমণে খেলাটি আরো জমিয়ে তোলে দু’দল। খেলার ৭১ মিনিটে সাফল্য পায় সেনেগাল। পরিকল্পিত এক আক্রমণে মুসা উয়েগুর কল্যাণে আবার‌ও লিড পায় সেনেগাল।

তবে এই লিড বেশিক্ষণ ধরে রাখা যায়নি। ৭ মিনিট পর জাপানের অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার কেইসুকি হোন্ডা ম্যাচে ২-২ গোলে সমতা ফেরান। বাকী সময়ে কোনো দল গোলের দেখা পায়নি। শেষ পর্যন্ত পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়ে দু’দল।

এতে দুই ম্যাচে একটি জয় আর একটি ড্রতে ৪ পয়েন্ট করে সংগ্রহ করল দু’দল। গ্রুপের শেষ ম্যাচে আগামী ২৮ জুন সেনেগাল মুখোমুখি হবে কলম্বিয়ার এবং জাপান লড়বে পোল্যান্ডের বিপক্ষে।

অনুশীলনেই জন্মদিন পালন মেসির

জন্মদিন পালন নিয়ে আলোচনার কমতি ছিলনা মিডিয়ায়। বিশ্বকাপের আয়োজন দেশ রাশিয়া‌ও লি‌ওনেল মেসির জন্মদিনে দারুণ উপহার পাঠিয়েছিল। কিন্তু কোনো আড়ম্বর ছিলনা শুধু মেসিরই। দলের অনুশীলনেই উদযাপন করলেন ৩১ বছর বয়সী এই আর্জেন্টাইন মহা তারকা নিজের জন্মদিন।

মাঠে সতীর্থদের সঙ্গে আনন্দ-উল্লাসে মেতে থাকলেন সারাক্ষণ। সার্জি‌ও অ্যাগুয়েরোর সঙ্গে কিছুক্ষণ খুনসুটি‌ও করলেন। কোচ হোর্হে সাম্পা‌ওলি এসে জানিয়ে যান জন্মদিনের শুভেচ্ছা‌ও।

দলের সকল সদস্যরা ঘিরে ছিলেন তাকেই। তবে আনন্দ-উল্লাসের মাঝে‌ও সবাই অনুশীলনে ছিলেন দারুণ সিরিয়াস। কারণ আগামী ২৬ জুন যে তাদের বাচা-মরার লড়াই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী নাইজেরিয়ার সঙ্গে। এই ম্যাচ জিততে না পারলেই যে নকআউট পর্ব থেকেই গুডবাই জানাতে হবে বিশ্বকাপকে। অবশ্য জিতলেই যে নকআউটে যাবে আর্জেন্টিনা তেমনটা নয়। জয়ের সঙ্গে মেলাতে হবে অনেক সমীকরণ‌ও।

অনুশীলন থেকে ফিরে এসে সন্ধ্যায় কেক কেটে নিজের ৩১ তম জন্মদিনকে উদযাপন করলেন আর্জেন্টিনার মহাতারকা লা‌ওনেল মেসি।

বিশ্বকাপের দুই ম্যাচের নিষিদ্ধ শাকিরি ও শাকা

বিশ্বকাপের ম্যাচে দেশপ্রেম দেখাতে গিয়ে দুই ম্যাচের নিষেধাজ্ঞায় পড়লেন সুইজারল্যান্ডের দুই খেলোয়াড় জারদান শাকিরি ও গ্র্যান্ট শাকা। সার্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে তাদের গোল উদযাপনের ভঙ্গিকে রাজনৈতিক উষ্কানিমূলক বলে উল্লেখ করে দুজনকেই দুই ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করেছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্তা সংস্থা ফিফা।

আলবেনিয় বংশোদ্ভূত শাকা ও জন্মসূত্রে কসোভোর নাগরিক শাকিরি তাদের দেশের সাধারণ মানুষের ওপর সার্বিয় সেনাবাহিনীর গনহত্যার কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে গোল উদযাপন করেছিলেন। নব্বইয়ের বলকান যুদ্ধের ভয়াবহতা নিয়ে দেশ ছাড়া এই দুই ফুটবলার তাই গোল উদযাপনে দেখিয়েছেন নিজ নিজ দেশের রাজনৈতিক প্রতীক।

এই দুই ম্যাচের নিষেধাজ্ঞাতেই কেবল ঝামেলা মিটছে না। তাদের বিরুদ্ধে আরো গভীর তদন্তের কথাও জানিয়েছে ফিফা।

হ্যারি কেনের হ্যাটট্রিকে নকআউটে ইংল্যান্ড

অধিনায়ক হ্যারি কেনের দারুণ হ্যাটট্রিকে নবাগত পানামাকে ৬-১ গোলে হারিয়ে ‘জি’ গ্রুপ থেকে বেলজিয়ামের পর বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে উঠলো ইংল্যান্ড। দুটি গোল করেন জন স্টোনস। বিশ্বকাপে এইটিই ১৯৬৬ সালের চ্যাম্পিয়নদের সবচেয়ে বড় জয়। বড় ব্যবধানে হারলেও পানামার ফিলিপে ব্যালয় বিশ্বকাপে চতুর্থ বেশি বয়সী খেলোয়াড় হিসেবে গোল করে নিজেকে অমরত্ব দেন।

সবচেয়ে বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ার আনন্দ ইংলিশ শিবিরে। তবে অধিনায়ক হ্যারি কেনের উল্লাসটা একটু বেশিই। পানামার বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করে তিনি যে এখন ইংলিশ লিজেন্ড জিওফ হাস্ট ও গ্যারি লিনেকারের কাতারে।

নিঝনি নভোগ্রোদ স্টেডিয়ামে, সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গেই গতি-স্কিল আর টার্গেটে বল পাঠানোর পাল্লায় ইংলিশদের চেয়ে পিছিয়ে পড়ে পানামা। তাতে ৮ মিনিটেই প্রতিপক্ষের রক্ষণভাগের ভুলে ইংলিশদের এগিয়ে নেন জন স্টোনস। আন্তর্জাতিক ম্যাচে এটি তার প্রথম গোল।

এরপর অ্যাকশনে নামেন ইংল্যান্ডের হ্যাটট্রিক হিরো অধিনায়ক হ্যারি কেন। প্রথম গোল ২২ মিনিটে স্পটকিকে। তাতে দলের লিড ২-০। এরপর প্রথমার্ধের শেষ নয় মিনিটে আরো তিন গোল করে ৫-০ তে এগিয়ে বিরতিতে যায় সাউদগেটের দল। যেখানে টটেনহাম তারকার অবদান আরো এক গোল।

ম্যাচের ৬২ মিনিটেই এবারের আসরে রোনালদোর পর হ্যাটট্রিকের দেখা পেয়ে যান কেন। বিশ্বকাপে তৃতীয় ইংলিশ হিসেবে এই গৌরবের ভাগীদার হলেন তিনি। তাতে দুই ম্যাচে পাঁচ গোল করে রোনালদো আর লুকাকুর সঙ্গে গোল্ডেন বুট জয়ের দাবীও জানিয়ে রাখলেন।

বিধ্বস্ত পানামার সান্তনা এক গোল শোধ দেয়া। ৭৮ মিনিটে বিশ্বকাপে চতুর্থ বেশি বয়সী খেলোয়াড় হিসেবে ফিলিপে ব্যালয় নাম লেখান স্কোরারের তালিকায়।

বিশ্বকাপে টিকে থাকলো জার্মানি

সুইডেনের বিপক্ষে নাটকীয় জয়ে বিশ্বকাপে টিকো রইলো বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। সোচিতে পিছিয়ে পড়েও সুইডিশদের ২-১ গোলে হারিয়েছে জোয়াকিম লো’র শিষ্যরা। ৮২ মিনিটে জেরোমি বোয়েটেংয়ের লালকার্ডে ১০ জনের দলে পরিণত হয় বিশ্বকাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। তখনও খেলা ১-১ সমতায়। তবে ইনজুরি টাইমে টনি ক্রুসের দুর্দান্ত কিকে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি।

উত্তেজনার বারুদে ঠাসা আর শিহরণ জাগানো ম্যাচে জার্মানির রোমাঞ্চকর এক জয়। সুইডেনের বিপক্ষে এই জয় বিশ্বকাপে টিকে থাকার, জার্মানির আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়ারও। দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেলে ঘুরে দাঁড়ানোর অসাধারণ এক উদাহরণ।

অথচ কঠিন এক সমীকরণ সামনে রেখে সুইসুদের বিপক্ষে মাঠে নামে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। হারলেই বিদায় আর ড্র করলে বিশ্বকাপের ভাগ্যটা ঝুঁলে থাকবে সুতোয়। নিজেদের সামর্থ্যে টিকে থাকতে জয়ের বিকল্প ছিলোনা জার্মানদের। তাই খেলার শুরু থেকেই সুইডেনের ওপর চড়াও হয় তারা।

পাল্টা আক্রমণে সুইডিশরাও দাঁত ভাঙা জবাব দেয় জার্মানদের। বর্তম্যান চ্যাম্পিয়নরা খেলায় আধিপত্য বিস্তার করলেও, প্রথমার্ধে চোখ রাঙিয়েছে সুইডেনই। ৩২ মিনিটে জার্মানদের বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে দেয়ার শঙ্কায় ফেলে দেন সুইডিশ স্ট্রাইকার ওলা তাইভোনেন।
বিরতি থেকে ফিরে পিছিয়ে থাকা জার্মানিকে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই সমতায় ফেরান মারকো রয়েস।

এরপর যতই সময় গড়িয়েছে জার্মানদের জয়ের স্বপ্ন ততই ফিঁকে হয়ে আসে। বারবার আক্রমনে সুইডেনকে কোনঠাসা করলেও লিড নিতে পারছিলনা বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। আর ৮২ মিনিটে বোয়েটেংয়ের দ্বিতীয় হলুদ কার্ডে ১০ জনের দলে পরিনত হয় তারা। তবে আক্রমনের ধার একটুও কমেনি। ফরোয়ার্ডের ব্যর্থতার সাথে সুইডিশ গোলরক্ষক ওলসেনের অপরাজেয় মানসিকতা, ক্রমেই হতাশ করে জার্মান ভক্তদের।

তবে শেষ নাটকীয়তা হয়ত টনি ক্রুসের কাছেই জমা ছিলো। ইনজুরি সময়ে পাওয়া ফ্রি কিকটার অসাধারণ ব্যবহার দেখালেন ক্রুস। তাতে বিশ্বকাপে বেঁচে থাকার রসদ পাওয়ার উল্লাসে মাতে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

নান্দনিক আর কুশলী ফুটবল দিয়ে পাহাড় সমান চাপকে কিভাবে জয় করতে হয় তারই যেন অনন্য একটা উদাহরণ তৈরী করলো জার্মানি।

মেসির জন্মদিন আজ

ফুটবলের ক্ষুদে জাদুকর লি‌ওনেল মেসির জন্মদিন আজ। ভিন গ্রহের এই ফুটবলার আজ ৩১ পেরিয়ে ৩২ বছরে পা দিলেন। শুভ জন্মদিন ফুটবলের জাদুকর লিওনেল আন্দ্রেস মেসি।

মেসির জন্ম ১৯৮৭ সালের ২৪ জুন আর্জেন্টিনার রোজারিওতে। ২০০০ সালে চলে আসেন বার্সেলোনায়। যুব দল পেরিয়ে ২০০৪ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে নাম লেখান বার্সেলোনার সিনিয়র দলে। তারপর টানা ১৪টি বছর ধরে পুরো ফুটবল বিশ্বকেই মাতিয়ে রেখেছেন এই আর্জেন্টাইন তারকা।

২০০৯ থেকে ২০১২ পর্যন্ত টানা চারবার জিতেছেন ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার। ২০১৫ সালে এই পুরস্কারটা জিতেছেন পঞ্চমবারের মতো। একের পর এক রেকর্ড গড়ে আর মাইলফলক পাড়ি দিয়ে হয়ে উঠেছেন এসময়ের অন্যতম সেরা ফুটবলার।

তার হাত ধরে বিশ্বকাপ ও কোপা আমেরিকায় মোট তিনবার ফাইনালে উঠেছে আর্জেন্টিনা। কিন্তু ভাগ্য তার সঙ্গে ছিল না। একবারও শিরোপা জেতায় হয়নি ভিনগ্রহের এই ফুটবলারের। বিশ্বকাপের শিরোপা জয়ের মিশন নিয়ে আর্জেন্টিনা রাশিয়ায় এসেছে। অবশ্য তাদের শুরুটা ভালো হয়নি। গ্রুপপর্ব থেকেই বাদ পড়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। শেষ ম্যাচে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে ভালো ব্যবধানে জিততে পারলে বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে পারবে তারা। জন্মদিনে সেটাই হয়তো হবে লিওনেল মেসির জন্য সবচেয়ে বড় পুরস্কার।

শুধু দ্বিতীয় রাউন্ড নয়, কোয়ার্টার, সেমিফাইনাল ও ফাইনাল খেলুক মেসির আর্জেন্টিনা। তার হাত ধরেই ৩২ বছরের শিরোপার আক্ষেপ ঘোচাক আলবিসিলেস্তারা। বিশ্বকাপের শিরোপা ছুঁয়ে কিংবদন্তি হয়ে উঠুক লিওনেল মেসি। বিশ্বে কোটি কোটি ফুটবলপ্রেমীদের এমনটাই চাওয়া।

নকআউটে সোনালী প্রজন্মের বেলজিয়াম

অধিনায়ক এডেন হ্যাজার্ড ও রোমেলু লুকাকু জোড়া গোলে তিউনিসিয়াকে ৫-২ ব্যবধানে হারিয়ে বিশ্বকাপ ফুটবলে ‘জি’ গ্রুপ থেকে নকআউট পর্বে উঠে গেলো ‘সুপারস্টারদের দল’ বেলজিয়াম। সেই সঙ্গে দুই ম্যাচে চার গোল করে ‘গোল্ডেন বুট’ জেতার দাবীটাও জানিয়ে রাখলেন লুকাকু।

গতিময় খেলা দিয়ে তিউনিসিয়াকে গোল বন্যায় ভাসিয়েছে ‘সোনালী প্রজন্মের দল’ বেলজিয়াম। তাতে বড় জয়ে টানা দুই ম্যাচ জিতে, জি গ্রুপের প্রথম দল হিসেবে নকআউট পর্বে উঠলো তারা। মস্কোর স্পার্টাক স্টেডিয়ামে, খেলার ছয় মিনিটে এডেন হ্যাজার্ডের পেনাল্টি গোলে এগিয়ে যায়, বেলজিয়াম।

এরপর গোলের নেশায় থাকা বেলজিয়ামের খেলোয়াড়রা তিউনিসিয়ার জালে গোল উৎসবে মেতে ওঠে। দুটি গোল হজম করলেও হ্যাজার্ড আর লুকাকুর কল্যাণে, টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বেশি গোলের ম্যাচে বড় জয় পায় রবার্টো মার্টিনেজের দল। আর টুর্নামেন্টে চার গোল করে পর্তুগিজ তারকা রোনালদোকে ‘গোল্ডেন বুট’ জয়ে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়েও দেন ‘রেড ডেভিল’ তারকা রোমেলু লুকাকু।

এই জয়ে ষষ্ঠবারের মত বিশ্বকাপের শেষ ষোলতে উঠল বেলজিয়াম। অন্যদিকে এই হারে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় ঘন্টা বাজল তিউনিশিয়ার। এই নিয়ে টানা ২১ ম্যাচে অপরাজিত রইলো `ডাই রটেন’রা। ২২ ম্যাচে অপরাজিত থেকে তাদের চেয়ে এগিয়ে আছে ইউরোপের আরেক দল স্পেন।

জয়ে আত্মহারা ব্রাজিল সমর্থকরা

কোস্টারিকার ২-০ গোলে ব্রাজিলের জয়ের আনন্দ রাশিয়ার থেকে আছড়ে পড়েছে রি‌ও ডি জেনিরোর কোপাকাবানা বিচে‌ও। যারা ব্রাজিল ছেড়ে রাশিয়ায় এসেছেন তারা তো কুতিনহো এবং নেইমারের গোলের পর উল্লাস করেছেনই। সেই সঙ্গে যারা দেশে আছেন, তারা বড় পর্দায় হিরোদের খেলা উপভোগ করেন।

ইংল্যান্ড ফুটবলারদের একদিন

আগামীকাল রবিবার পানামার সঙ্গে ইংল্যান্ডের খেলা। হাতে লম্বা সময় থাকায় ছুটি পেয়েছিলেন ইংলিশ ফুটবলাররা। আর তা পুরোপুরিই কাজে লাগিয়েছেন তারা। স্ত্রী-সন্তান-পরিজন নিয়ে রাশিয়ায় আসা ইংলিশ দলের সদস্যরা অনুশীলন ছাড়া পরিবার-পরিজনকে নিয়ে উদযাপন করলেন দিনটি।

স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে ঘুরে বেড়ালেন জেমি ভার্দি, আর রাশিয়ায় সন্ন্যাসীদের আশ্রম ঘুরে ঘুরে দেখলেন তারা।

সবকিছুর পর খেলা। মন চাঙা করা একদিন কাটানোর পর পানামার বিপক্ষে প্রস্তুতি শুরু করবে এবার সাউদগেটের দল।

পিছিয়ে থেকে‌ও জিতল সুইজারল্যান্ড

পিছিয়ে থেকে‌ও জিতল সুইজারল্যান্ড। তাতে রাশিয়া বিশ্বকাপের ই গ্রুপ থেকে ব্রাজিলের সঙ্গে সুইসদেরই শেষ ১৬ তে যা‌ওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হলো। মিত্রোভিচের গোলে শুরুতেই পিছিয়ে পড়লে‌ও গ্রানিত জাকা ও জারদান সাকিরির কল্যাণে।

খেলার ৫ মিনিটেই মিত্রোভিচের দারুণ এক গোলে পিছিয়ে পড়ে ব্রাজিলকে চমকে দিয়ে ড্র করা সুইজারল্যান্ড। শুধু গোল করাই নয়, প্রথমার্ধে খুবই আক্রমণাত্মক ছিল সার্বিয়া। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে সার্বদের সেই লড়াকু মানসিকতা আর থাকে নি। মাঠের দখল নিয়ে নেয় সুইসরা। সার্বিয়াকে কোনো সুযোগই দেয়নি তারা। উল্টো বারবার হানা দিয়েছে প্রতিপক্ষ শিবিরে।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে চমৎকার এক গোলে সমতা ফেরান জাকা। ৫৪ মিনিটে সাকিরির শট এক ডিফেন্ডারের মুখে লেগে ফেরে, ফিরতি বল বুলেট গতিতে জালে পাঠিয়ে ম্যাচে সমতা ফেরান তিনি।

খেলার ৯০ মিনিটে সুইজারল্যান্ডের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন জারদান সাকিরি। প্রতি আক্রমণ থেকে বল পেয়ে দ্রুত গতিতে এগিয়ে গিয়ে কোনাকুনি শটে বল জালে পাঠান স্টোক সিটির এই মিডফিল্ডার।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে কোস্টারিকাকে পরাজিত করায় এই ম্যাচে জিতলেই নকআউট পর্বে উঠে যেতো সার্বিয়া। কিন্তু প্রথমে এগিয়ে গিয়ে‌ও তা ধরে রাখতে না পারায় অপেক্ষা এবং আক্ষেপটা আরো বাড়লো তাদের। কারণ আগামী বুধবার নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে ব্রাজিলের বিপক্ষে খেলতে হবে সার্বিয়াকে। আর একই সময়ে অপেক্ষাকৃত সহজ প্রতিপক্ষে কোস্টারিকার মুখোমুখি হবে সুইজারল্যান্ড।

নাইজেরিয়ার জয়ে বাঁচল আর্জেন্টিনা

বিশ্বকাপ ফুটবলের নকআউট পর্বে আর্জেন্টিনার আশা বাঁচিয়ে রাখল নাইজেরিয়া। স্ট্রাইকার আহমেদ মুসার জোড়া গোলে প্রথম ম্যাচেই আর্জেন্টিনাকে ১-১ গোলে রুখে দিয়ে চমক দেখানো আইসল্যান্ডকে হারায় নাইজেরিয়া। এতে ‘সুপার ঈগল’দের‌ও সুযোগ থাকছে শেষ ১৬ তে ‌ওঠার।

আজ শুক্রবার খেলার দ্বিতীয়ার্ধে দুটি গোল করে লিস্টার সিটির স্ট্রাইকার আহমেদ মুসা বিশ্বকাপে নাইজেরিয়ার হয়ে সর্বোচ্চ চারটি গোল করার কৃতিত্ব দেখালেন।

তাছাড়া আহমেদ মুসাই হলেন প্রথম কোনো নাইজেরিয়ান খেলোয়াড় যিনি আলাদা দুটো বিশ্বকাপে গোল করার কৃতিত্ব দেখান। ২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপে মুসা আর্জেন্টিনার বিপক্ষে দুটো গোল করেছিলেন। দলের হয়ে ৪৯ ‌ও ৭৫ মিনিটে গোল দুটি করেন ম্যাচ সেরা আহমেদ মুসা।

আর্জেন্টিনায় শোক

গ্রুপরের দ্বিতীয ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার কাছে ২-০ গোলে পরাজয়ের পর আর্জেন্টিনার একটি টেলিভিশন শোকে-দু:খে এক মিনিট নীরবতা পালন করে। তাদের সব কার্যক্রম মিউট করে দেয় এক মিনিটের জন্য।

গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আইসল্যান্ডের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে বিশ্বকাপের শুরু থেকেই বেশ বেকায়দায় আছে হোর্হে সাম্পা‌ওলির দল। পরের ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার কাছে ৩-০ গোলে পরাজয়। তাতে ২০০২ সালের পর বিশ্বকাপের প্রথম পর্ব থেকেই ছিটকে পড়ার সম্ভাবনা তৈরি হয় লি‌ওনেল মেসির দলের। এই কারণে সেদেশের টেলিভিশন TyC-তে বিশ্বকাপ নিয়ে অনুষ্ঠান চলাকালে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

অবশ্য আজ শুক্রবারের ম্যাচে আইসল্যান্ড যদি নাইজেরিয়ার কাছে ২-০ গোলে না হেরে জিতে যেতো তবে মেসির দল এক ম্যাচ হাতে রেখেই টুর্নামেন্ট থেকে বাদ পড়ে যেতো। নাইজেরিয়া জেতায় গ্রুপের শেষ ম্যাচে আফ্রিকান দলটিকে হারানোর পাশাপাশি অনেক সমীকরণ‌ও মেলাতে হবে সাম্পা‌ওলির দলের।

জয়ের পর‌ও নেইমারের কান্না

কোস্টারিকাকে ২-০ গোলে হারিয়ে ম্যাচ জিতল ব্রাজিল। গোল‌ও করলেন দলের মহাতারকা নেইমার। কিন্তু আনন্দের পরিবর্তে চোখ ভেঙে নামল জল। তা আড়াল করতেই মুখ ঢেকে বসে পড়লেন মাঠেই। কিন্তু পিছু ছাড়ল না সাংবাদিকের ক্যামেরা।

এই কান্না কেন নেইমারের। দীর্ঘদিন পর ইনজুরি থেকে ফিরে বিশ্বকাপে সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করা ম্যাচে তেমন ভালো খেলতে পারেননি। নেইমার। তাতে সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হন তিনি। তাছাড়া কোস্টারিকান এক ডিফেন্ডার নিজেদের বিপদসীমায় নেইমারকে ফেলে দিলে রেফারি পেনাল্টির বাশি বাজান। নেইমার পেনাল্টি নিতে তৌরি হন। পরে ভার (ভিএআর) প্রযুক্তি সেই পেনাল্টি বাতিল করে। তাতে‌ও বিদ্রুপের শিকার হন নেইমার।

পরে কুতিনহোর পাশাপাশি নিজে‌ও এক গোল করে ব্রাজিলকে ২-০ ব্যবধানে জয় পাইয়ে দেন। সব মিলিয়ে আবেগে ভেঙে পড়েন নেইমার। তাই দল জিতলে‌ও কান্না থামেনি তার।

জিতেছে ব্রাজিল

বিশ্বকাপের ষষ্ঠ শিরোপা জয়ের মিশনে আসা ব্রাজিল গ্রুপে তাদের দ্বিতীয় ম্যাচে জয় পেয়েছে। রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গে ইনজুরি টাইমে দেয়া কুতিনহো এবং নেইমারের দেয়া গােলে জয় নিশ্চিত করে সেলেসা‌ওরা। দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে‌ও ব্রাজিলের কাছ থেকে কোনো পয়েন্ট নিতে পারল না কোস্টারিকা। এর আগে ই গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছিল কোচ তিতের দল।

খেলার ১৩ মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার খুব সহজ সুযোগ নষ্ট হয় কোস্টারিকার। ডান দিক থেকে ক্রিস্তিয়ান গামবোয়ার কাছ থেকে পা‌ওয়া বল বাইরে মেরে সুযোগ নষ্ট করেন ফাঁকায় থাকা সেলসো বোর্হেস। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি তারকা খচিত দল নিয়ে রাশিয়ায় আসা ব্রাজিল ২৭ মিনিটে গোলের সুযোগ তৈরি করে। ডি-বক্সে বল পেয়ে পিএসজির ফরোয়ার্ড নেইমার গোলবারে শট নে‌ওয়ার আগেই তাকে থামান কোস্টারিকার গোলকিপার কেইলর নাভাস।

দ্বিতীয়ার্ধে নিজেদের অর্ধে আরও গুটিয়ে যায় কোস্টারিকা। তাদের রক্ষণ কৌশরে আরও আক্রমণাত্মক হয়ে ‌ওঠে ব্রাজিল। ফাগনারের ক্রসে গাব্রিয়েল জেসুসের হেডে বল ক্রসবারে লাগলে গোল পায়নি সেলেসা‌ওরা। পরক্ষণেই কুতিনহোর জোরালো শট গোলের মুখে থেকে ফেরে ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে।

৫৬ মিনিটে নেইমারের খুব কাছ থেকে নেওয়া শটে গ্লাভস লাগিয়ে ক্রসবারের উপর দিয়ে পাঠান নাভাস। এরপর কুতিনহো, নেইমার কিংবা ব্রাজিলয়ানদের সব আক্রমণ এসে খেই হারায় কোস্টারিকার রক্ষণে। অভিনয় করে পেনাল্টি প্রায় পেয়ে গিয়েছিলেন নেইমার। রেফারি প্রথমে স্পটকিকের নির্দেশ দিয়েও পরে কোস্টারিকার খেলোয়াড়দের আপত্তির মুখে ভিডিও রিভিউ দেখে সিদ্ধান্ত পাল্টান।

অবশেষে যোগ করা সময়ে আসে গোল দুটি। প্রথম মিনিটে ফিরমিনোর হেড ডি-বক্সে পা দিয়ে নামিয়েছিলেন জেসুস। এগিয়ে এসে নিচু শটে নাভাসকে ফাঁকি দেন বার্সেলোনার মিডফিল্ডার কুতিনহো।

আর সপ্তম মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোলটি পান নেইমার। কাউন্টার অ্যাটাকে ডাগলাস কস্টার কাছ থেকে বল পেয়ে ফাঁকা জালে বল পাঠান বিশ্বের সবচেয়ে দামী খেলোয়াড় নেইমার। খেলা শেষ মুখ ঢাকেন তিনি গোল পাওয়ার কান্নায়।

বিশ্বকাপের নকআউটে ফ্রান্স

কিলিয়ান এমবাপের একমাত্র গোলে পেরুকে হারিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপের নক আউট পর্ব নিশ্চিত করলো ফ্রান্স। আর এক ম্যাচ হাতে রেখেই বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিল পেরু।

টানা দুই ম্যাচ জিতে রাশিয়া বিশ্বকাপে গ্র“প ‘ডি’ থেকে একম্যাচ বাকি থাকতে শেষ ষোলে ১৯৯৮ সালের চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স। আর ৩৬ বছর পর বিশ্বকাপে ফিরে টানা দুই ম্যাচ হেরে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়লো পেরু।

একতারিনবার্গে খেলার শুরু থেকেই পেরুর ওপর চড়াও হয় ফরাসিদের তারকা খচিত আক্রমনভাগ। সফলতা আসে ৩৪ মিনিটে।

পিএসজি তারকা এমবাপের গোলে এগিয়ে যায় ফ্রান্স। তাতে ফরাসিদের হয়ে সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতা বনে যান, ১৯ বছর বয়সী এমবাপে।

https://www.youtube.com/watch?v=7BFenLEofm8

পিছিয়ে পড়ে গোল শোধে চেষ্টা চালায় পেরু। কিন্তু ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় আর ম্যাচে ফেরা হয়নি তাদের। এই জয়ে ১৯৭৮ সাল থেকে ল্যাটিন আমেরিকান দলগুলোর বিপক্ষে অপরাজিত থাকার রেকর্ডটা ধরে রাখলো ফ্রান্স।

ডেনমার্কের সাথে ড্র বিশ্বকাপে টিকে রইল অস্ট্রেলিয়া

গ্রুপ ‘সি’র খেলায় ডেনমার্কের সাথে ড্র করে বিশ্বকাপে টিকে থাকলো অস্ট্রেলিয়া। সামরায় খেলার মাত্র ৭ মিনিটে ক্রিস্টিয়ান এরিকসনের গোলে এগিয়ে যায় ডেনমার্ক। প্রথমার্ধেই পেনাল্টি গোলে সমতায় ফেরে অস্ট্রেলিয়া।

খেলায় ডেনমার্কের বিপক্ষে কিছুটা চাপ নিয়েই ম্যাচ শুরু করে অস্ট্রেলিয়া। বিশ্বকাপে টিকে থাকতে হলে এই ম্যাচে অন্তত পরাজয় এড়াতে হতো সকারুদের। এমন সমীকরেণর ম্যাচে, শুরুতেই পিছিয়ে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। সামরায়, খেলার মাত্র ৭ মিনিটে ক্রিস্টিয়ান এরিকসেনের গোলে এগিয়ে যায় ডেনমার্ক।

বিশ্বকাপে টানা দুই ম্যাচ জয়ের রেকর্ড নেই ডেনমার্কের। দুর্ভাগ্য, এবারও টানা দুই ম্যাচে জয় না পা‌ওয়ার পুরণো সেই রেকর্ড অক্ষত থাকলো তাদের।

ভিএআর প্রযুক্তির সহযোগিতায় রেফারি নিশ্চিত করেন ডি-বক্সে হ্যান্ডবল হয়েছে ডেনমার্কের ইউসুফ পুলসেনের। ৩৭ মিনিটে পাওয়া পেনাল্টি থেকে দলকে সমতায় ফেরাতে ভুল করেননি অস্ট্রেলিয়ার মিডফিল্ডার মিলে জেডিনাক।

দ্বিতীয়ার্ধে জয়ের জন্য আপ্রাণ লড়াই করে অস্ট্রেলিয়া। তবে ডেনমার্কের রক্ষণভাগকে কোনঠাসা করে দিয়েও আর কোন সাফল্য পায়নি সকারুরা। শেষ পর্যন্ত পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই মাঠ ছাড়ে দুদল।

স্টেডিয়ামে রোনালদোর বান্ধবী

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর খেলা চলাকালে প্রায়ই গ্যালারিতে থাকেন বান্ধবী জর্জিনা রড্রিগেজ। রাশিয়া বিশ্বকাপে মরক্কোর বিপক্ষে খেলা চলাকালে‌ও তার অন্যথা ছিলো না। বুধবার রাতে তিনি ঠিকই স্টেডিয়ামে উপস্থিত হন রোনালদোর খেলা দেখার জন্য।

সেই ম্যাচে সিআরসেভেনের দেয়া একমাত্র গোলেই মরক্কোকে বিদায় করে শেষ ১৬ তে যা‌ওয়ার অপেক্ষায় আছে পর্তুগাল। লুঝনিকি স্টেডিয়ামে খেলার মাত্র ৪ মিনিটের মাথায় জয়সূচক এই গোলটি করেন পর্তুগিজ তালিসমান। খেলা শুরু হতে না হতেই গোল, অন্যদের মতো রড্রিগেজ‌ও হতবাক।

বলার অপেক্ষা রাখে না, আর্জেন্টিনায় জন্ম নেয়া রড্রিগেজ পর্তুগালের জার্সি পড়েই গ্যালারিতে বসেছিলেন। রোনালদোর দ্রুত গোল করার পর বিস্ময়ে বিমূঢ় হয়ে গেলে‌ও তিনি পড়ে আনন্দে ফেটে পড়েন।

আর তখন তার অনামিকায় ছিল রোনালদোরই দেয়া ডায়মন্ডের আংটি। কারণ রোনালদোর সঙ্গে অ্যাঙ্গেজমেন্ট করার গুজব ইতোমধ্যেই ছড়িয়েছে।

ভাগ্যের জোরে নকআউটের পথে স্পেন

বিশ্বকাপে দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার সম্ভাবনা জিইয়ে রাখতে জিততেই হবে স্পেনকে। এমন কঠিন সমীকরণকে সামনে রেখে এশিয়ার পরাশক্তি ইরানের মুখোমুখি হয় স্পেন। ২০১৪ সালের পর যে দলটি কোন প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ হারেনি তাদের বিপক্ষে ম্যাচটি যে সহজ হবে না সেটা ভালো করেই জানতো ইনিয়েস্তারা।

ইরানের শক্ত রক্ষণভাগের মোকাবেলায় ডিয়েগো কস্তার ভাগ্যপ্রসূত এক গোলে ইরানকে ১-০ গোলে হারায় স্পেন। দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার সম্ভাবনা টিকিয়ে রাখলো ২০১০ সালের চ্যাম্পিয়নরা।

বল পজেশন আর গোলে শট নেওয়ার হিসেব স্পেনের কথাই বলবে কিন্তু দুর্দান্ত খেলেও ভাগ্য আর প্রযুক্তির কাছে হেরেছে ইরান। দিয়েগো কস্তার একমাত্র গোলে নক-আউট পর্বে ওঠার লড়াইয়ে এগিয়ে থাকলো ‘লা রোজা‘রা।

বিশ্বকাপে টিকে থাকতে হলে ইরানকে হারানোর বিকল্প ছিল না ২০১০ সালের চ্যাম্পিয়নদের। কিন্তু ২০১৪ থেকে প্রতিযোগীতামূলক ম্যাচে অপরাজিত থাকা ইরানের বিপক্ষে জয় যে সহজ নয়, প্রথমার্ধেই হারে হারে টের পায় স্পেন। তবে ৫৪ মিনিটে রক্ষণভাগের অপ্রত্যাশিত ভুলে স্পেনকে এগিয়ে দেন দিয়েগো কস্তা।

৬৪ মিনিটে স্পেনের জালে বল পাঠিয়ে‌ও ছিলো ইরান। কিন্তু ভিএআরের সহযোগিতায় সেটিকে বাতিল করেন রেফারি। আক্রমন-পাল্টা আক্রমনে খেলা দারুণ জমে ওঠলেও শেষপর্যন্ত স্কোর লাইন অপরিবর্তিতই থাকে।

সৌদিকে বিদায় করে নকআউটে উরুগুয়ে

১০০ তম আন্তর্জাতিক ম্যাচে গোল উরুগুয়ের তারকা স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজের। আর এই বিরল রেকর্ডের গোলেই বিশ্বকাপের নক আউট পর্বে উঠে গেলো দু’বারের চ্যাম্পিয়ন উরুগুয়ে। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেও হেরে এক ম্যাচ হাতে রেখেই টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিল সৌদি আরব।

রাশিয়ার বিরুদ্ধে পাঁচ গোল খাওয়ার পর অনেকে ধরেই নিয়েছিলেন উরুগুয়ের বিরুদ্ধেও প্রচুর গোল হজম করতে হবে সৌদিকে। কিন্তু বুধবার সুয়ারেজ-কাভানিদের বিরুদ্ধে তুমুল প্রতিরোধ গড়ে তোলে সৌদি আরব। বল-দখলের লড়াইয়ে প্রথমার্ধে উরুগুয়েকে টেক্কা দিয়েছিল তারা। তবে সেই প্রথমার্ধেই দু’দলের পার্থক্য গড়ে দেন সুয়ারেজ।

২৩ মিনিটে কর্নার থেকে কার্লোস সানচেজের ক্রসে সুয়ারেজের সুযোগসন্ধানী শট এগিয়ে দেয় উরুগুয়েকে। শততম ম্যাচে তাঁর গোলের স্মৃতি হিসেবে ম্যাচ বলটি নিজেরে কাছে রেখে দিলেন উরুগুয়ের মহাতারকা। সেই সঙ্গে তাঁর দখলে গেল একমাত্র উরুগুয়ে ফুটবলার হিসেবে তিনটি আলাদা আলাদা বিশ্বকাপে গোল করার বিরল রেকর্ড।

একগোলে পিছিয়ে গিয়ে প্রথমার্ধের শেষ পর্যন্ত সৌদি আরব বেশ কয়েকবার আক্রমণ শানানোর চেষ্টা করলেও জালের ঠিকানা খুজে পাননি আরবের ফরোয়ার্ডরা। দ্বিতীয়ার্ধে‌ও খেলার ছবিটা ছিল একই রকম। দু’দলই বেশ কিছু ‘হাফ চান্স’ তৈরি করলে‌ও, তাতে অবশ্য খুব একটা সুবিধা হয়নি। ১৯৫৪-র পর এই প্রথম গ্রুপ পর্বে পরপর দুটি গোল করল উরুগুয়ে।

এই হারে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিল সৌদি আরব। সেই সঙ্গে মোহম্মদ সালাহ-র মিশর‌ও। অন্যদিকে, রাশিয়ার সঙ্গে সঙ্গে নক আউটে চলে গেল উরুগুয়ে। আগামী ২৫ জুন রাশিয়া-উরুগুয়ে ম্যাচেই ঠিক হবে গ্রুপে শীর্ষস্থান দখল করছে কোন দল।

নকআউটের পথে পর্তুগাল

বিশ্বকাপে গ্রুপ বি’র ম্যাচে মরক্কোকে একমাত্র গোলে হারিয়ে নকআউটের পথে পর্তুগাল। আর এক ম্যাচ হাতে রেখেই টুর্নামেন্টে থেকে বিদায় নিলো ২০ বছর পর বিশ্বকাপে খেলতে আসা মরক্কো।

লুঝনিকি স্টেডিয়ামে, খেলার চার মিনিটেই ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর গোলে লিড নেয় পর্তুগীজরা। এ নিয়ে চলতি বিশ্বকাপে চতুর্থ গোল পেলেন সিআরসেভেন। একই সাথে বিশ্বের সর্বোচ্চ আন্তর্জাতিক গোল স্কোরারের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসলেন রোনালদো। ১০৯ গোল নিয়ে তালিকায় সবার উপরে অবস্থান ইরানের আলী দাইয়ি’র।

আক্রমণ আর পাল্টা আক্রমণের এই খেলায় গোল শোধের চেষ্টা করেও সফল হয়নি মরক্কো। তাতে ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পর্তুগাল।

নেইমারের ইনজুরি নিয়ে আবার‌ও দু:শ্চিন্তা

এমনিতেই বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ ড্র করে চাপে ব্রাজিল। মঙ্গলবার বিকেলে তাই কোস্টারিকা ম্যাচের প্রস্তুতি চলছিল জোরেশোরে। সেলেসাওদের প্র‌্যাকটিসে সবকিছু ঠিকঠাক চলছিল। কিন্তু সুইজারল্যান্ড ম্যাচের মতোই ব্রাজিল অনুশীলনের সেই তাল কাটতে বেশি সময় লাগল না। সামান্য একটা বল এসে লাগল নেমারের ডান পায়ে। মাসকয়েক আগেই অস্ত্রোপচার করা সেই ডান পায়ে! আর তারপরই যন্ত্রণায় কুঁকড়ে যান তিনি। তাতে নেইমারের বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যা‌ওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়।

এরপর বেশ কিছুক্ষণ বসে থাকার পর বেরিয়েই যান ব্রাজিলের মহাতারকা নেইমার। সাথে ছিলেন দলের ফিজিও। ডাক্তার রডরিগো লাসমার জানান, দু’দিন আগে প্রথম ম্যাচে নেইমারের ডান পায়ের এই জায়গাতেই দশবার মেরেছে সুইসরা। তারপর এদিন প্র‌্যাকটিসে ঠিক ওখানেই বল লাগায় যত বিপত্তি! তবে আসল কথাটা বললেন ব্রাজিল দলের ফিজিওথেরাপিস্ট ব্রুনো মাজ্জিওত্তি। জানান, এই নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। বুধবার সকালের প্র‌্যাকটিসে তাঁকে বাকি দলের সঙ্গে যেমন দেখতে পাওয়ার কথা তেমনই দেখা যাবে।

সবার আগে দ্বিতীয় রাউন্ডে রাশিয়া

প্রথমার্ধে রাশিয়াকে ঠেকিয়ে রাখতে পারল মিশর। দ্বিতীয়ার্ধে উড়ে গেল সব প্রতিরোধ। দেনিস চেরিশেভ আর আর্তেম জুবার গোলে টানা দ্বিতীয় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েছে স্বাগতিকরা।

সবার আগে বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে উঠে গেলো স্বাগতিক রাশিয়া। সেন্ট পিটার্সবার্গে, ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে ৩-১ গোলে পরাজিত করেছে তারা মোহাম্মদ সালাহর মিশরকে। নিজেদের প্রথম ম্যাচে সৌদি আরবকে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত করার পর এই জয়ে শেষ ১৬-র পথেই রইলো রাশিয়া। বড় কোনো অঘটন না ঘটলে তাদের বাদ পড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। তাছাড়া ১৯৮২ আসরের পর বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে জিতল রাশিয়া।

আর টানা দুই পরাজয়ে ১৯৯০ সালের পর বিশ্বকাপে খেলতে এসে প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায়ের আশঙ্কা ফারা‌ওদের। যদি‌ও অংকের মারপ্যাচে এখনও সম্ভাবনা টিকে আছে তাদের।

রাশিয়ার বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বিশ্বকাপে প্রথমবারের মত মিশর একাদশে ইনজুরি কাঁটিয়ে ফেরেন মোহামেদ সালাহ। কিন্তু তার উপস্থিতি শক্তি বাড়ালে‌ও প্রথমার্ধে গোল শূন্য থাকে খেলা।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে রোমান জুভনিনের শট ঠেকাতে গিয়ে নিজেদের জালেই জড়িয়ে দেন মিশরের আহমেদ ফাতি। সেই আত্মঘাতী গোলেই পিছিয়ে পড়ে ফারা‌ওরা।

খেলায় আর ফিরতে পারেনি মিশর। ৫৯ মিনিটে ফার্নান্দেজের দুর্দান্ত ক্রসে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন চেরিশভ। টুর্নামেন্ট ৩ গোল করে যুগ্নভাবে রোনালদোর সঙ্গে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে উঠে আসলেন তিনি।

এই গোলের রেশ না কাটতেই ৬২ মিনিটে রাশিয়াকে ৩-০ গোলে এগিয়ে দেন জিউবা। প্রথম ম্যাচেও গোল করেছিলেন এই স্ট্রাইকার।

তিন গোলে পিছিয়ে থাকলে খেলায় আর কিছু করার থাকে না। মোহাম্মদ সালাহর মিশরের‌ও করার কিছুই ছিল না। তবে ৭৩ মিনিটে স্পট কিকে বিশ্বকাপে মিশরের হয়ে প্রথম গোলটি করেন মোহামেদ সালাহ। তৃতীয় মিশরীয় হিসেবে বিশ্বকাপে গোল করার কৃতিত্ব দেখান তিনি।

‌ওয়ানডেতে রানের রেকর্ড ইংল্যান্ডের

ওয়ানডে ক্রিকেটে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ৪৮১ রানের নতুন রেকর্ড গড়েছে ইংল্যান্ড। ট্রেন্ট ব্রিজে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডেতে ৬ উইকেটে ৪৮১ রান করে তারা। জনি বেয়ারেষ্ট্রো ও অ্যালেক্স হেলসের সেঞ্চুরিতে রানের পাহাড় গড়ে ইংলিশরা।

ওয়ানডেতে দলীয় সর্বোচ্চ রানের ইতিহাসটা আরও সমৃদ্ধ করলো ইংল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়ান বোলাদের হতাশায় ডুবিয়ে দলীয় সর্বোচ্চ স্কোরটা এভারেস্টের চূড়ায় নিয়ে গেলো ইয়ন মরগানের দল।

জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টোর ১৫৯ রানের উদ্বোধনী জুটিতে উড়ন্ত সূচনা পায় স্বাগতিকরা। ৬১ বলে ৮৩ রানে রয় বিদায় নিলেও, বেয়ারেস্টো থামেন ৯২ বলে ১৩৯ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে। ৩৪ ওভারে ঐ দুই উইকেটেই ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ৩১০।

এরপর অস্ট্রেলিয়ান বোলাদের তুলোধোনো করেন অ্যালেক্স হেলস ও অধিনায়ক ইয়ন মরগান। ইংল্যান্ডের হয়ে ২১ বলে দ্রুততম ফিফটির রেকর্ড গড়েন মরগান।

২০১৬ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে নিজেদের গড়া ৪৪৪ রানের রেকর্ডটা তারা ভাঙেন দাপটের সাথেই, ৪৬তম ওভারে। তবে ৪৮ তম ওভারে ৯২ বলে ১৪৭ করা হেলস ও ৩০ বলে ৬৭ করা মরগান বিদায় না নিলে, হয়ত ওয়ানডেতে প্রথমবারের মত ৫০০ রানের মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলত ইংল্যান্ড।

তবে বিদায়ের আগে আরেকটি রেকর্ড গড়েছেন মরগান। ইয়ান বেলকে পেছনে ফেলে ওয়ানডেতে ইংলিশদের হয়ে সর্বোচ্চ রানের মালিক বনে যান তিনি। ওয়ানডের ইতিহাস গড়া ইংলিশদের ইনিংস থামে ৬ উইকেটে ৪৮১ রানে।

সেনেগালের চমক লাগানো জয়

‘এইচ’ গ্রুপের খেলায় ২-১ গোলে জিতেছে ১৬ বছর পর বিশ্বকাপে ফেরা সেনেগাল। এবারের আসরে এটাই আফ্রিকার কোনো দলের প্রথম জয়। ২০০২ আসরে শিরোপাধারী ফ্রান্সকে হারিয়ে চমকে দিয়েছিল সেনেগাল। বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম আসরে দলটি খেলেছিল কোয়ার্টার-ফাইনালে। এবারের আসর শুরু করল র‌্যাঙ্কিংয়ের ৮ নম্বর দলকে হারিয়ে। স্পার্তাক স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার প্রথমার্ধে মাঝমাঠের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারেনি কোনো দলই। লেভানদোভস্কি কিংবা সাদিও মানে ভীতি ছড়াতে পারেননি প্রতিপক্ষের রক্ষণে।

৩৭তম মিনিটে এগিয়ে যায় সেনেগাল। ইদ্রিসা গেইয়ের শট ডিফেন্ডার তিয়াগো চনেকের পায়ে লেগে দিক পাল্ট জালে জড়ায়। বিশ্বকাপে পোল্যান্ডের কোনো ফুটবলারের এটাই প্রথম আত্মঘাতী গোল।

পোল্যান্ডের দুর্বলতা তার রক্ষণ। সেই দুর্বলতা কাজে লাগিয়ে ৬০ মিনিটে এমবে নিয়াংয়ের গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে সেনেগাল। জেগোস ক্রিখোভিয়াকের লক্ষ্যহীন ব্যাক পাস ক্লিয়ার করতে গোল পোস্ট ছেড়ে অনেকটা এগিয়ে আসেন ভয়চেখ স্ত্রেন্সনে। বল ক্লিয়ার করতে পারেননি পোলিশ গোলরক্ষক। ফাঁকা জালে বল পাঠান কয়েক সেকেন্ড আগে বদলি নামা নিয়াং। দেশের হয়ে এটাই তরুণ এই ফরোয়ার্ডের প্রথম গোল।

এই গোলের দায় যেন ৮৬তম মিনিটে শোধ করেন ক্রিখোভিয়াক। ফ্রি কিকে দারুণ এক হেডে বল জালে পাঠান এই মিডফিল্ডার। আগামী রোববার নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে জাপানের বিপক্ষে খেলবে সেনেগাল। পর দিন কলম্বিয়ার মুখোমুখি হবে পোল্যান্ড।

জাপানের ইতিহাস গড়া জয়

রাশিয়া বিশ্বকাপে প্রথম লালকার্ডের দিনে কলম্বিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়ে রেকর্ড করলো এশিয়ার প্রতিনিধি জাপান। এতে দক্ষিণ আমেরিকার কোনো দেশের বিপক্ষে এশিয়ার প্রথম দল হিসেবে জয়ের ইতিহাস গড়লো ‘সামুরাই ব্লু’রা। তাতে রাশিয়া বিশ্বকাপে, ছোট দলগুলোর চমক দেখানোর তালিকায় যোগ হলো জাপানের নামও।

খেলার বয়স তখন মাত্র তিন মিনিট। সারানস্ক এরেনার দর্শকদের সবাই তখনও মাঠে ঢুকতে পারেনি। সিনঝি কাগাওয়ার শট জাল ছোঁয়ার মুখে গতি রোধ করেন, কলম্বিয়ার কার্লোস সানচেজ। সাথে সাথেই রেফারির লালকার্ড। ১০ জনের দলে পরিণত হয় কলম্বিয়া। আর কাগাওয়ার পেনাল্টি গোলে এগিয়ে যাওয়া জাপানের।

১০ জন নিয়ে ১১ জনের বিপক্ষে সমতায় ফেরার লড়াই চালায়, প্যাকারম্যানের দল কলম্বিয়া। এক খেলোয়াড় বেশি থাকার সুবিধাও ধরে রাখতে পারেনি জাপানিরা। ৩৯ মিনিটে কুইনটেরো বিচক্ষণ ফ্রিকিকে ম্যাচে সমতা ফেরান। জাপানিরা আবেদন জানালেও ভিএআর প্রযুক্তি বহাল রাখে সেই গোল। ১-১ সমতায় বিরতিতে যায় দু’দল।

দ্বিতীয়ার্ধে ২০১৪ সালে গোল্ডেন বুট জয়ী হামেস রড্রিগেজ মাঠে নামলে আক্রমণের ধার আরও বাড়ে কলম্বিয়ার। জাপানও আক্রমণে একেবারে পিছিয়ে ছিলোনা। জয়ের রঙ তখন তাদের চোখে-মুখে। হোন্ডার দারুণ কর্নারে ৭৩ মিনিটে এফসি কোলনের ফরোয়ার্ড ওসাকা মাথা ছুঁইয়ে যে গোলটি করেন তাতেই এবারের বিশ^কাপে প্রথম জয় পায় জাপান।

বাকী সময়ে আর গোলের দেখা পায়নি কলম্বিয়া। এই জয়ে এইচ গ্রুপে সবচেয়ে পিছিয়ে থাকা জাপান ব্রাজিল বিশ্বকাপে কলম্বিয়ার কাছে ৪-১ গোলে পরাজয়ের প্রতিশোধও নিল। সেই সঙ্গে ফেভারিট আর নন-ফেভারিটের অচলায়তনও ভেঙে দিলো সামুরাই ব্লু’রা।

মাঠে জেমি ভার্দির স্ত্রী-সন্তান

মাঠে তখন তিউনিশিয়ার বিপক্ষে লড়ছিলেন ইংলিশ ফরোয়ার্ড জেমি ভার্দি। আর গ্যালারি থেকে তাকে উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছিলেন স্ত্রী রেবকা এবং ছোট্ট দুই সন্তান। শেষ পর্যস্ত তিউনিসিয়াকে ২-১ গোলে পরাস্ত করে ইংল্যান্ড।

এই সময় রেবেরকা ভার্দির সঙ্গে ছিলেন তার চার সন্তানের দুই জন। ১৩ বছরের কন্যা মেগান এবং ৬ বছরের টেলর বাবার খেলা দেখেন গ্যালারিতে মায়ের সঙ্গে বসে। বিশ্বকাপ খেলা উপলক্ষে রেবেকা ভার্দি স্বামীর সঙ্গে রাশিয়া আসেন।

লিস্টার ও ইংল্যান্ডের স্ট্রাইকার জেমি ভার্দির স্ত্রী ও সন্তানরা

রেবেকা ইংল্যান্ডের হোম জার্সি (সাদা রঙের) এবং সন্তানরা অ্যা‌ওয়ে জার্সি (লাল রঙের) পরে স্টেডিয়ামে আসেন। এদিকে, ইংলিশ দৈনিক মেইল অনলাইন জানিয়েছে, দেশ ছেড়ে রাশিয়ায় স্বামীর খেলা দেখতে আসার সময় রেবেকা ১৭ টি ভারী স্যুটকেশ নিয়ে আসেন।

মিশর নয়, রাশিয়ার প্রতিপক্ষ সালাহ

মিশর নয়, নকআউট পর্বের টিকিট নিশ্চিত করতে আজ মঙ্গলবার রাতের ম্যাচে স্বাগতিক রাশিয়ার প্রতিপক্ষ মোহাম্মদ সালাহ। গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ইনজুরি আক্রান্ত সালাহকে বিশ্রামে রাখলে‌ও রাশিয়ার বিপক্ষ তাকে খুব করে চাইছেন কোচ হেক্টর কুপার। তবে সালাহ নিজেই তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে জানান, “Ready for tomorrow. 100 million strong.”

এদিকে মিশর দলের ডাক্তার জানিয়েছেন, দলের সেরা অস্ত্র এখন মাঠে নেমে ৯০ মিনিট খেলার মতো সুস্থ। কিন্তু তাঁর কথা কেউ বিশ্বাস করছেন না। কারণ মিশরের প্রথম ম্যাচের আগেও বলা হয়েছিল সালাহ খেলবেন। অবশ্য এবার অবিশ্বাস করার উপায়‌ও নেই এবার। কারণ স্পোর্টস অ্যায়ার প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান এডিডাস‌ও সালাহ একটি ভিডি‌ও পোস্ট করে টুইট বার্তায় জানায় “Tomorrow. 100 million strong.”

এই টুইট দেখার পরই মিশরের সমর্থকরা অ্যাডিডাসকে অভিনন্দিত করছেন বিভিন্নভাবে। আজ মঙ্গলবার রাত ১২টায় খেলাটি শুরু হবে সেন্ট পিটার্সবার্গে।

এদিকে প্রথম ম্যাচে সৌদি আরবকে ৫-০ হারিয়ে রাশিয়ায় নকআউটের পথে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে। আর সালাহ বিহীন মিশর হেরেছে উরুগুয়ের কাছে।

কেন বাঁচালেন ইংল্যান্ডকে

ভোলগোগ্রাদে নির্ধারিত সময়ের খেলা শেষে অনেকেই ধরে নিয়েছিলেন হোচট খাওয়া ফেভারিটদের তালিকায় নাম জমা পড়ছে ইংল্যান্ডেরও। কিন্তু শেষ পর্যন্ত অধিনায়ক হ্যারি কেইনের গোলে তিউনিসিয়ার বিপক্ষে পূর্ন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইংলিশরা।

অথচ বিশ্বকাপে নিজেদের শেষ আট ম্যাচে মাত্র একটি জয় পাওয়া ইংল্যান্ডের শুরুটা ছিলো বেশ দাপুটে। খেলার ১১ মিনিটেই হ্যারি কেইনেই গোলে লিড ব্রিটিশদের।

তবে সমতায় ফিরতেও বেশি সময় নেয়নি, ১৯৭৮ সালের বিশ্বকাপে একমাত্র জয় পাওয়া তিউনিসিয়া। ৩৫ মিনিটে স্পট কিক থেকে দলকে সমতায় ফেরান ফেরজানি সাসি। শেষ পর্যন্ত এই উল্লাস ধরে রাখতে পারেনি রক্ষণাত্মক কৌশলে খেলা তিউনিসিয়া।

১৯৯৮ সালের পর আবারও ইংলিশদের কাছে পরাজয়ের লজ্জা নিয়ে মাঠ ছাড়ে তারা।

নামের সুবিচার করল বেলজিয়াম

নামের প্রতি সুবিচার করেই রাশিয়া বিশ্বকাপে বড় জয় দিয়ে নিজেদের প্রথম ম্যাচ উদযাপন করলো `সোনালি প্রজন্মের দল’ বেলজিয়াম। সোচির অলিম্পিক ফিস্ট স্টেডিয়ামে, ‘জি’ গ্রুপের ম্যাচ রোমেলু লুকাকুর জোড়া গোলে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়েছে তারা বিশ্বকাপে প্রথম খেলতে আসা পানামাকে।

টানা ১৯ ম্যাচ অপরাজিত থেকে পানামার মুখোমুখি হয়েছিল বেলজিয়াম। বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে খেলতে নামা পানামা প্রথমার্ধে বেলজিয়ামকে আটকেই দিয়েছিল। গোলকিপার জেমি পেনেদোর দৃঢ়তা বারবার বিপদ থেকে বাচিয়েছে পানামাকে। গোলে পেতে দেয়ননি তিনি সোনালি প্রজন্মের সেনানীদেরকে। তবে মুর্হূমূর্হু আক্রমণ ঠেকাতেই ব্যস্ত থেকেছে পানামা।

৪৭ মিনিটে চমৎকার এক ভলিতে ম্যার্টেন্স বেলজিয়ামকে এগিয়ে দ‌েওয়ার পর আর পেছনে তাকাতে হয়নি এডেন হ্যাজার্ডের দলকে। দারুণ ছন্দে থাকা লুকাকু ৬৯ মিনিটে ডি ব্রুইনের ক্রসে মাথা ছুইয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন।

বাছাই পর্বে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ ১১ গোল করা লুকাকু ৭৫ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় এবং দলের পক্ষে তৃতীয় গোলটি করেন। বাকি সময়ে আর গোল পায়নি বেলজিয়াম। আর পানামা‌ও গোল শোধ করতে পারেনি।

আগামী শনিবার তিউনিশিয়ার বিপক্ষে খেলবে বেলজিয়ামা। পরেরদিন ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হবে পানামা।

পেনাল্টিতে সুইডেনের জয়

১২ বছর পর বিশ্বকাপে ফিরেই জয় পেয়েছে সুইডেন। নিঝনি নভোগ্রোদে এফ গ্রুপের একপেশে ম্যাচে তারা পেনাল্টি গোলে হারিয়েছে এশিয়ার প্রতিনিধি দক্ষিণ কোরিয়াকে।

এরআগে দুই দলের চারবারের মোকাবেলায় সুইডিশরা হারেনি কখনো, আর কোরিয়ানদের জয়ের রেকর্ড‌ও নেই। দু’টি জয় আর সমান ড্রতে এগিয়েছিল সুইডেনই। তবে আক্রমণাত্মক মেজাজে থাকা সুইডিশদের প্রথমার্দে গোল বঞ্চিত রাখেন কোরিয়ার গোলকিপার চো হিয়ুন-উ একাই।

একের পর এক সুযোগ নষ্ট করা সুইডেন ৬৫ মিনিটে গ্রানক্রিস্তের পেনাল্টি গোলে এগিয়ে যায়। ডি বক্সে সুইডেনের ভিক্টর ক্লাসেন পড়ে যান কিম মিন-য়ুর স্লাইডিং ট্যাকলে। শুরুতে পেনাল্টি দেননি রেফারি, পরে ভিএআর প্রযুক্তি ব্যবহার করে স্পটকিকের সিদ্ধান্ত দেন তিনি।

সেই এক গোলের জয়েরই এবারের বিশ্বকাপে শুভ সূচনা করলো সুইডেন। আগামী শনিবার নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ জার্মানি। একই দিন মেক্সিকোর মুখোমুখি হবে দক্ষিণ কোরিয়া।

মেসির সমর্থনে ম্যারাডোনা

লি‌ওনেল মেসিকে সমর্থন দিলেন আর্জেন্টিনার জীবন্ত কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনা। শনিবার রাতে আইসল্যান্ডের সঙ্গে রাশিয়া বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ১-১ গোলে ড্র করায় বেশ সমালোচনা হচ্ছে মেসির পেনাল্টি মিসের। তাই ম্যারাডোনা বলেন, সমালোচনা নয়, সবারই এখন মেসির পাশে থাকার সময়।

স্যার্জি‌ও অ্যাগুয়েরোর কল্যাণে খেলার ১৯ মিনিটেই এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। পরে ম্যাচে সমতা ফেরান আইসল্যান্ডের অালফ্রেড ফিনবোগাসন। এগিয়ে যা‌ওয়ার সুযোগ পেয়ে‌ও, অধিনায়ক মেসি পেনাল্টিতে গোল করতে না পারার কারণে জয় বঞ্চিত থাকে আর্জেন্টিনা।

৫৭ বছর বয়সী ম্যারাডোনা ২০১০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার কোচের দায়িত্বে ছিলেন। তিনি বলেন, ‘আমি টানা পাচটি পেনাল্টি মিস করেছিলাম। তবু আমি দিয়েগো আরমান্ডো ম্যারাডোনা।’ তিনি আরো জানান, ‘ম্যাচ জিততে না পারা আর দুই পয়েন্ট খোয়ানোর জন্য মেসির পেনাল্টি মিস দায়ী নয়, দায়ী পুরো দল।

১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপ জয়ী আর্জেন্টিনার দলের অধিনায়ক বলেন, ‘সে (মেসি) দলকে জেতানোর জন্য সবকিছু করেছে। তার মুখের দিকে চেয়ে দেখো।’

মেক্সিকোর জয়ে বিয়ের প্রস্তাব

মেক্সিকোর ঐতিহাসিক জয়ের পর বান্ধবীকে বিয়ের প্রস্তাব দিলেন এক সমর্থক। এই প্রস্তাব পেয়ে তার বান্ধবী‌ও সাড়া দিলেন সানন্দে। রাশিয়ার মস্কোতে হিরভিং লোজানোর দেয়া একমাত্র গোলে বিশ্বকাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে হারিয়ে গৌরবদীপ্ত এক জয় পায় ‘এল ট্রাইকালার’রা।

মেক্সিকোর সেই সমর্থক একটি আংটির বাক্স খুলে তার বান্ধবীকে কাপা কাপা স্বরে বিয়ের প্রস্তাব করেন। সেই বান্ধবী প্রস্তাবে রাজী বলে দু’জনই আনন্দে মেতে ‌ওঠেন। এর আগে বিশ্বকাপ ফুটবলে ১১ বারের মধ্যে কখনো জার্মানিকে হারাতে পারেনি মেক্সিকো।

এবার হলো নতুন এক রেকর্ড। আর মেক্সিকান এই সমর্থকরা নিজেদের সম্পর্ককে স্মরণীয় করার জন্য ঐতিহাসিক এই দিনটিকেই বেছে নেন।

পৃথিবী চমকে দেয়া লোজানো

রাশিয়া বিশ্বকাপে এক গোল করেই পৃথিবীকে চমকে দিয়েছেন মেক্সিকোর হিরভিং লোজানো। এই আর্টিফিসিয়াল ভূমিকম্পে কেপে উঠেছে পৃথিবী। সেই সঙ্গে বিশ্বকাপের ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন জার্মানি তো পরাজয়ের বেদনায় নীল হয়ে মাঠ ছাড়ে। চুকিক (Chucky-অদম্য) ডাকনামের পিএসভি আন্দোভেনের এই প্রতিভাবান উইঙ্গারকে দলে নিতে বিশ্বকাপের আগে থেকেই ইংলিশ দল আর্সেনাল এবং লিভারপুল যোগাযোগ করছিল।

১৯৯৫ সালের ৩০ জুলাই মেক্সিকো সিটিতে জন্ম নেয়া লোজানো ২০০৯ সালে পাচুকা’র যুব দলে যোগ দেন। ২০১৭ সালে এই দলের সিনিয়রদের হয়ে খেলে তিনি কনকাক্যাফ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জেতেন। আর ব্যক্তিগতভাবে তিনি পান, গোল্ডন বুট এবং সেরা তরুণ খেলোয়াড়ের পুরস্কার।

তবে মেক্সিকোর বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পা‌ওয়াটা লোজানোর জন্য কোনো চমক হিসেবে আসিন। গত গ্রীষ্মে পিএসভিতে যোগ দেয়ার পর প্রথম তিন ম্যাচেই গোল করেন। এবং আগস্ট মাসে লিগের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জেতেন তিনি। তাছা ২৯ ম্যাচে ১৭ গোল করে লোজানো পিএসভিকে ডাচ লিগ শিরোপা জয়ে‌ও ভূমিকা রাখেন।

উইংয়ের বামদিক দিয়ে খেলা শুরু করলে‌ও ডানদিক দিয়ে তিনি প্রতিপক্ষ শিবিরে হানা দেন। আর অতি দ্রুততার সঙ্গে বল জালে পাঠান। গতকাল রবিবার জার্মানিো পুড়েছে লোজানোর দ্রুততার সঙ্গে অ্যাকুরেসির কাছে। তার খেলার স্টাইল অনেকটা বেলজিয়ামের তারকা স্ট্রাইকার এডেন হ্যাজার্ডের মতো।

ব্রাজিলের দৈন্য দশা সুইজারল্যান্ডে

আগেরদিন আর্জেন্টিনাকে থমকে দিয়েছিল অজানা-অচেনা আইসল্যান্ড। আজ সোমবার দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে ১-০ গোলে হারিয়ে অঘটনের জন্ম দিয়েছে মেক্সিকো। স্বাভাবিকভাবেই আরেক ফেবারিট ব্রাজিলের ওপর ভিষন চাপ তৈরি হয়েছিল। ঠিক তেমনি করে সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়ে বিশ্বকাপের হট ফেবারিট ব্রাজিল। ১-১ গোলে ড্র করে নেইমার-কুতিনহোদের জিততে দিল না সুইসরা। তাতে ষষ্ঠ বিশ্বকাপ শিরোপা জেতার মিশনে আসা ব্রাজিলের সঙ্গে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়ে পেতকোভিচের দল।

রোস্তভ এরেনায়, খেলার ২০ মিটেই অসাধারণ এক গোলে পাচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের এগিয়ে দেন বার্সেলোনার তারকা খেলোয়াড় কুতিনহো। গ্যালারিতে তোলেন হলুদের আলোড়ন।

প্রথমে লেফট উইং থেকে বল নিয়ে ওয়ান টু ওয়ান এগিয়ে এলেন নেইমার এবং মার্সেলো। বক্সের ভেতর থেকে মার্সেলোকে পাস দেন নেইমার। বক্সের বাম পাশ থেকে শট নেন মার্সেলো। বলটি গোলের সামনে থেকে ফিরে আসে। পেয়ে যান কুতিনহো। ডান পায়ের বুলেট গতির শট সুইজারল্যান্ডের জালে বল জড়িয়ে দেন।

দ্বিতীয়ার্ধ শুরু হওয়ার পর গোল শোধ করতে মরিয়া সুইজারল্যান্ড। পাল্টা আক্রমণে তারা। ৫০ মিনিটে অসাধারণ এক হেডে সুইসদের সমতায় ফেরান স্টিভেন জুবের।

তবে সুইসদের প্রায় সব অত্যাচারই ছিল বিশ্বের সবচেয়ে দামী খেলোয়াড় নেইমারকে ঘিরে। বল পায়ে গেলেই পিএসজি তারকাকে আহত করার চেষ্টা। শারীরিক আঘাত করে করে হলুদ কার্ড দেখেন দুইজন।

শেষ দিকে ফার্নান্দিনহো, রেনাতো আগুস্তো এবং রবার্তো ফিরমিনোকে নামিয়েও গোলের দেখা পায়নি ব্রাজিল। ৮৮ মিনিটে দারুণ এক হেড করেও গোলের দেখা পাননি নেইমার। সুইস গোলরক্ষক সোমের ঠেকিয়ে দেন। ৯০ মিনিটে নেইমারের ফ্রি কিক থেকে বল পেয়ে ফিরমিনো দারুণ হেড করলেও গোলরক্ষক সোমারকে পরাস্ত করা যায়নি।

আগামী শুক্রবার ব্রাজিল তাদের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হবে কোস্টারিকার। আর সুইজারল্যান্ড লড়বে সার্বিয়ার বিপক্ষে।

জার্মানি ধরাশায়ী মেক্সিকোতে

বিশ্বকাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে হারিয়ে পুরো বিশ্বকেই চমকে দিয়েছে মেক্সিকো। ৩৫ মিনিটে লোজানোর গোলে জার্মানিকে পরাজিত করে অঘটনের জন্ম দিলো ‘এল ট্রাইকালার’রা। এতে ২০১৪ সালে স্পেনের পর আবারও ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পরাজয়ের বেদনায় পুড়লো। অন্য ম্যাচে, কোস্টারিকাকে একই ব্যবধানে হারিয়েছে সার্বিয়া।

মেক্সিকানদের এই আনন্দাশ্রু বিশ্বকাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে হারানোর, সেই সঙ্গে প্রতিশোধেরও। ১৯৯৮-র বিশ্বকাপে প্রথমে এগিয়ে গিয়েও যে, জার্মানির কাছে ২-১ গোলে হারতে হয়েছিল তাদের।

আগের শেষ ছয় বিশ্বকাপে নক আউট পর্বে উঠলেও জার্মানির বিপক্ষে ‘আন্ডার ডগ’ হিসেবেই রাশিয়ার লুঝনিকি স্টেডিয়ামে খেলতে নামে মেক্সিকো। তবে শুরুতেই কাঁপিয়ে দিয়েছিল তারা জার্মান শিবির। বেশ কয়েকবার পরীক্ষাও নেয় দীর্ঘ ইনজুরি থেকে সেরে ওঠা জার্মান অধিনায়ক ম্যানুয়েল ন্যুয়ারের।

তবে চারবারের চ্যাম্পিয়ন জার্মানরাও আক্রমণে পিছিয়ে থাকেনি। ওয়ার্নার-টনি ক্রুসদের প্রচেষ্টাগুলো সফল হতে দেননি, মেক্সিকান গোলকিপার ওচোয়া।

এমনি লড়াইয়ের খেলায় গতি ও কাউন্টার অ্যাটাকে মেক্সিকানরা বারবার পেছনে ফেলে জার্মানদের।
৩৫ মিনিটে হার্নান্দেজের কাছ থেকে বল পেয়ে বোয়েটেং ও হ্যামেলসের দুর্বলতার সুযোগে দারুণ এক গোলে মেক্সিকোকে লিড এনে দেন, লোজানো। আনন্দে মেতে ওঠে এল ট্রাইকালার শিবির। .. .
এরপর খেলায় চলে পিছিয়ে থাকা জার্মানদের রাজত্ব। ড্রাক্সলারের ব্যর্থতার পর টনি ক্রুজকেও সফল হতে দেননি, ওচোয়া। …
দ্বিতীয়ার্ধেও রক্ষণাত্মক কৌশল ধরে রেখে কাউন্টার অ্যাটাক নির্ভর হয়ে যায়, মেক্সিকো। অন্য দিকে, আক্রমণের কোনো কমতি রাখেনি জার্মানি। কিমিচের অ্যাক্রোবেটিক শট, কিংবা টনি ক্রুজের প্রচেষ্টা সবই ব্যর্থ। ইউলিয়ান ব্রান্টও শুধু জার্মানির আক্ষেপই বাড়ান। তবে ১৯৮২ সালে আলজেরিয়ার কাছে পরাজয়ের পর বিশ^কাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আবারও হারের বেদনায় নীল হয়ে মাঠ ছাড়ে জার্মানি।

এর আগে, চ্যাম্পিয়ন দল হিসেবে বিশ্বকাপের শিরোপা ধরে রাখার মিশনে খেলতে এসে জার্মানি কখন‌ও হারেনি। ১৯৫৮ সালে আর্জেন্টিনাকে ৩-১ গোলে পরাজিত করেছিল তারা। ১৯৭৮ সালে পোল্যান্ডের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছিল। আর ১৯৯৪ সালে বলিভিয়াকে ১-০ গোলে পরাজিত করেছিল। এবারই প্রথম হারলো তারা।

সার্বিয়ার জয়

অধিনায়ক অ্যালেক্সজান্ডার কোলারভের ফ্রিকিক গোলে কোস্টারিকাকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয় পেলো সার্বিয়া।

‘ই’ গ্র“পের ম্যাচে, এই দুই দলের খেলার প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি কেউ। প্রায় সম-শক্তির দুই দলের লড়াইয়ে খেলার ৫৬ মিনিটে ম্যাচ সেরা অ্যালেক্সজান্ডার কোলারভ দারুণ এক ফ্রিকিকে এগিয়ে দেন, সার্বিয়াকে।

পরে গোল পরিশোধের চেষ্টা করেও সফল হয়নি কোস্টারিকা। শেষ পর্যন্ত এক গোলের জয়ে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে সার্ব’রা। আগামী ২২ জুন নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে সার্বিয়ার প্রতিপক্ষ সুইজারল্যান্ড।

ব্রাজিলের অধিনায়ক মার্সেলো!

রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্রাজিল দলকে নেতৃত্ব দেবেন মার্সেলো! এমনটাই জানিয়েছে ফ্রান্সের ক্রীড়া দৈনিক `লা ইকুইপ’।

তিতে, দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব নে‌ওয়ার পর ২০১৬ সালের ১ সেপ্টেম্বর ইকুয়েডরের মুখোমুখি হয়েছিল ব্রাজিল। ৩-০ গোলে জয়ের সেই ম্যাচে সেলেসা‌ওদের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছিলেন মিরান্দা। সেই থেকে গত সপ্তাহে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে‌ও অধিনায়কের দায়িত্বে ছিলেন তিনি।

রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্রাজিল দলে নতুন অধিনায়ক চাইছেন তিতে। শুধু তাই নয়, গত ২১ ম্যাচে ১৬ জনকে অধিনায়ক হিসেবে খেলিয়েছেন তিতে। বিশ্বকাপ দলের ২৩ সদস্যের দুই-তৃতীয়াংশেরই অধিনায়কের আর্মব্যান্ড পড়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে। সেই হিসেবে আজ রাতে রিয়াল মাদ্রিদের লেফট ব্যাক মার্সেলোর হাতে ব্রাজিলের অধিনায়কত্বের আর্মব্যান্ড থাকাটা তাই অস্বাভাবিক কিছুই নয়। read more, discover our special offer

ক্রোয়েশিয়া হারাল নাইজেরিয়াকে

নাইজেরিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপে শুভ সূচনা করেছে ক্রোয়েশিয়া। কালিনিনগ্রাদে সুপার ঈগলদের ওউন গোল ও পেনাল্টির সুযোগ কাজে লাগিয়ে জয় পায় ক্রোয়েশিয়া।

গ্রুপের অন্য দল আইসল্যান্ডের সাথে আর্জেন্টিনার ড্র করার সুযোগটা ভালবাবেই কাজে লাগিয়েছে ক্রোয়েশিয়া। নাইজেরিয়াকে হারিয়ে গ্র“প ‘ডি’র শীর্ষে এখন তারা।

তারকা বহুল ক্রোয়েশিয়া ফেভারিট থাকলেও, ম্যাচের শুরুতে এলোমেলো আর বাজে ট্যাকলিংয়ের ফুটবল খেলে তারা। তবে সময়ের সাথে নিজেদের গুছিয়ে নেয় ক্রোয়টরা। ক্রোয়েশিয়ার এক আক্রমণ ঠেকাতে গিয়ে নিজেদের জালেই বল জড়িয়ে দেন সুপার ঈগলদের মিডফিল্ডার পিটার ইতোবে।

আর ৭১ মিনিটে নাইজেরিয়ার ম্যাচে ফেরার আশাটা গুড়িয়ে দেন লুকা মডরিচ। ট্রোস্টের ফাউলে পেনাল্টি পায় ক্রোয়েশিয়া। সুযোগটা ভালমতই কাজে লাগান ক্রোয়েশিয়ান তারকা মডরিচ। এই জয়ে দারুণ সূচনা করেছে ক্রোয়েশিয়া। সেই সাথে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্নও দেখতে পারে তারা।

সব দায় আমার: মেসি

আইসল্যান্ডের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করার সব নিজের কাধে তুলে নিয়েছেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক লি‌ওনেল মেসি। তবে ম্যাচের ৬৪ মিনিটে পেনাল্টি থেকে মেসি গোল করতে পারলে ম্যাচের ফলটা অন্যরকমই হতো। জয় নিয়ে তখন মাঠ ছাড়তে পারত আর্জেন্টিনা।

এভাবে দলকে জেতানোর সুযোগ হাতছাড়া করার পর মেসির সমালোচনা শুরু হয়ে গেছে চারদিকে। মেসি নিজেও দায় স্বীকার করে নিয়েছেন, ‘আমি ঠান্ডা মাথায় কিন্তু রাগ ও দুঃখ নিয়ে আজ মাঠ ছাড়ছি। কারণ আমি তিন পয়েন্ট নিতে না পারার জন্য দায়ী। আমি জানি ওই পেনাল্টিই সবকিছু বদলে দিয়েছে। ওই মুহূর্তে পার্থক্য গড়ে না দেওয়ার জন্য আমি অবশ্যই দায় স্বীকার করছি।’

নিজের নেয়া শেষ সাত পেনাল্টির চারটিই মিস করলেন আর্জেন্টিনার এই মহাতারকা। কেন এমন হলো, মেসি চেষ্টা করেছেন সে ব্যাখ্যা দিতে, ‘যদি গোল করতে পারতাম, খেলাটা বদলে যেত। আমরা স্বস্তি ফিরে পেতাম, ওদের ঝামেলায় ফেলে দিতাম। গোল করার জন্য আমি একটু বেশি অস্থিরতা দেখিয়েছি, এটাই ভুল হয়েছে। অবশ্যই পেনাল্টি হাতছাড়া করা খুব কষ্টের।’

জয়ের চেয়ে যে ড্র বড়

লিওনেল মেসির পায়ের জাদুতে বিশ্বকাপ জয় করতে রাশিয়া এসে প্রথম ম্যাচেই হোঁচট খেলো দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। ‘গ্রুপ ডি’র প্রথম ম্যাচে তারা ১-১ গোলে ড্র করে। সেরা তারকা লিওনেল মেসির পেনাল্টি মিস আর ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় জয় পাওয়া হয়নি হোর্হে সাম্পাওলির দলের। আর বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে লড়াকু ড্রতে সবার সমীহ আদায় করে নেয় আইসল্যান্ড।

সবকিছু ঠিকঠাক মতোই চলছিলো। আইসল্যান্ড শিবিরে আক্রমণের বন্যা বইয়ে দিয়েছিল আর্জেন্টিনা। কিন্তু ৬৪ মিনিটে পাঁচবারের বিশ্বসেরা খেলোয়াড় লিওনেল মেসির এই পেনাল্টি মিসেই কপাল পোড়ে আর্জেন্টিনার। মেসিকে গোল বঞ্চিত করে হিরো বনে যান আইসল্যান্ডের গোলকিপার হ্যালডারসন। আর মেসির শেষ সাত পেনাল্টির চারটিতেই ব্যর্থ হওয়ার বেদনা নিয়ে, ১৯৯০ সালের পর বিশ^কাপের প্রথম ম্যাচে আবারও জয় বঞ্চিত থাকে আর্জেন্টিনা।

অথচ মস্কোর স্পার্টাক স্টেডিয়ামে খেলার শুরুতে ছিল মেসিদের রাজত্ব। মেসিময় ম্যাচে ইউরোপের প্রতিপক্ষ আইসল্যান্ডকে কিছু বুঝে ওঠার সুযোগই দেয়নি হোর্হে সাম্পাওলির শিষ্যরা।

১৯ মিনিটে আইসল্যান্ডের জমাট দুর্গ ভাঙেন সার্জিও অ্যাগুয়েরো। মার্কো রোহোর পাসে বুলেট গতির শটে আর্জেন্টাইন শিবিরে আনন্দের উপলক্ষ্য এনে দেন, তিনি। বিশ্বকাপের নয় ম্যাচে এটি অ্যাগুয়েরোর প্রথম গোল।

বল পজেশনের খেলায় পেরে না ওঠায়, কাউন্টার অ্যাটাকের সুযোগ খোঁজে আইসল্যান্ড। আর্জেন্টিনার দূর্বল রক্ষণের সুযোগে ম্যাচে সমতা ফেরায় ‘থান্ডারক্ল্যাপ’রা। বিশ্বকাপে প্রথম হলেও জাতীয় হয়ে ১৪তম গোলে সমতা আনেন ফিনবোগাসন।

তবে ৪১ মিনিটে মেজা’র শট র‌্যাগার্ড সিগার্ডসনের হাতে লাগলে পেনাল্টির আবেদন জানায়, আর্জেন্টিনা। কিন্তু ভিএআর না চাওয়ায় বিস্ময় জাগে সবার। এদিকে বল পায়ে পাঁচবারের বিশ্বসেরা খেলোয়াড় মেসিও ঝলক দেখাতে পারেননি। প্রতিপক্ষের কঠিণ প্রহরায়। তাতে ১-১ সমতায় বিরতিতে যায় দু’দল।

দ্বিতীয়ার্ধের প্রায় পুরো সময়ই আর্জেন্টিনা আক্রমণ শানায় আইসল্যান্ড শিবিরে। হিগুয়েন ও ক্রিস্টিয়ান পাভুনকে নামিয়েও গোলের মুখ খোলা যায়নি, আইসল্যান্ডের গোলকিপার ম্যাচ সেরা হ্যালডারসনের দৃঢ়তায়। শেষ পর্যন্ত পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়ে দু’দল। এতে স্পার্টাক স্টেডিয়ামে রচিত হয় বিশ্বকাপ খেলতে আসা নতুন এক দলের হার না মানার উপকথা।

আত্মঘাতি গোলে ইরানের জয়

আত্মঘাতি গোলে ইরান হারিয়েছে মরক্কোকে। রাশিয়া বিশ্বকাপে বি গ্রুপের ম্যাচে খেলা শেষের ইনজুির টাইমে মরক্কোর ফরোয়ার্ডের খেলোয়াড় আজিজ বৌহাদ্দুজের আত্মঘাতি গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে এশিয়ার দল ইরান। এতে বিশ্বকাপ ফুটবলে দ্বিতীয় বারের মতো জয় পেলো এশিয়ার এই দেশটি।

২০১০ সালে জাপানের কাছে ১-০ গোলে ক্যামেরুন হারার থেকে এশিয়ান প্রতিপক্ষের বিপক্ষে টানা ৫ ম্যাচে অপরাজিত আছে আফ্রিকানরা। ৩টি জয় আর ২টি ড্র করেছে তারা। হারলে‌ও খেলায় শ্রেষ্ঠত্ব ছিলো মরক্কোরই। খেলার ৮ মিনিটেই আমারাবতের কাছ থেকে বল পেয়ে এল কাভি’র হাফ ভলি সাইডবার ঘেষে বাইরে চলে যায়। ১৮ মিনিটে তিনবার ইরানের ডিফেন্সে আক্রমণ করেও গোলের দেখা পায়নি মরক্কো। ফরোয়ার্ডরা জালে বল জড়াতে পারেন নি। তাতে গোল পায়নি মরক্কো।

এদিকে, আক্রমণে পিছিয়ে থাকে নি ইরান‌ও। তারা কাউন্টার অ্যাটাক বেছে নেয়, প্রতিপক্ষেক পরাস্ত করার জন্য। ৪৩ মিনিটে ইরানের সরদার আজমাউন মরক্কোর গোলকিপার মুনির মোহাম্মদির কারণে গোল বঞ্চিত হন। সেই সময় মুনির দুইবার ব্যর্থ করে দেন ইরানের আক্রমণ।

িদ্বতীয়ার্ধে‌ও কাউন্টার অ্যাটাক ভরসা করে হুটহাট করে আক্রমণে যায় ইরান। গোলের সম্ভাবনাও তৈরি করে ইরান কিন্তু গোলমুখে গিয়েই খেই হারিয়ে ফেলে তাদের ফরোয়ার্ডরা। এদিকে, মরক্কোও গোলের সুযোগ তৈরি করেছিল কিন্তু তারা এলেবেলে শটে পাওয়া সুযোগগুলো নষ্ট করে।

শেষ পর্যন্ত ইনজুরি টাইমে ফয়সালা হয় জয়-পরাজয়ের। এতে ১৯৬৬ সালে প্রথমবার বিশ্বকাপে খেলতে আসা ইরার ২০ বছর পর আবারো জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে।

সালাহ বিহীন মিশেরর সঙ্গে উরুগুয়ের জয়

হোসে গিমেনেজের শেষ মুহূর্তের গোলে মিসরকে হারিয়ে বিশ্বকাপে শুভ সূচনা করেছে উরুগুয়ে। একাতিরেনবার্গে গ্র“প ‘এ’র খেলায় উরুগুয়ে প্রায় আটকেই দিয়েছিলো মোহাম্মদ সালাহ বিহীন মিসর। তবে শেষ পর্যন্ত ভাগ্য সহায় হয়নি তাদের।

মিসরের সেরা তারকা মোহাম্মদ সালাহ মাঠে না থাকলেও, ঘাম ঝড়ানো জয় পেয়েছে উরুগুয়ে। তাতে ১৯৭০ সালের পর আবারও বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয়ের স্বাদ পেয়েছে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। অন্যদিকে, গোল মুখে এসে বারবার মোহাম্মদ সালাহর অভাব বোধ করেছে মিসর।

প্রথমার্ধের খেলায় সমানতালে লড়েছিলো দুদলই। তবে তুলনামূলকভাবে বেশী হতাশ করেছেন উরুগুয়েন স্ট্রাইকার লুইস সুয়াজে। ১৩ ও ২৩ মিনিটে সহজ দুটি সুযোগ নষ্ট করেন বার্সেলোনার এই তারকা।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আক্রমনের গতি বাড়ায় উরুগুয়ে। কিন্তু আবারও সুয়ারেজের ব্যর্থতায় এগিয়ে যাওয়া হয়নি তাদের। ৪৭ ও ৭৩ মিনিটে ভাল দুটি সুযোগ নষ্ট করেন সুয়ারেজ।

৮৩ মিনিটে কাভানির দুর্দান্ত ভলি রুখে দিয়ে উরুগুয়েকে হতাশার আগুনে পোড়ান মিসরের গোলরক্ষক শেনইউ। এর চার মিনিট পর আবারও কাভানির জোড়ালো শটের বাধা হয়ে দাড়ায় গোলবার।
তবে শেষ পর্যন্ত দুর্ভাগ্যকে সৌভাগ্যে পরিণত করে উরুগুয়ের। ৯০ মিনিটে কার্লোস সানচেজের ফ্রি-কিকে মাথা ছুইয়ে গোল বন্ধ্যাত্ব ঘোচান হোসে গিমেনেজ।

স্বস্তির নি:শ্বাস ফেলে কোচ অস্কার তাবারেজের শিষ্যরা। অন্যদিকে, ভাল লড়াই করেও মোহাম্মদ সালাহ না থাকায় পরাজয়ের আক্ষেপ নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় মিসরকে।

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচের রেফারি

আর্জেন্টাইন রেফারি নেস্টর পিটানা বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচ পরিচালনা করবেন। বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা-ফিফা তাকে এই দায়িত্ব দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার মস্কোর লুজনিকি স্টেডিয়ামে স্বাগতিক রাশিয়া ও সৌদি আরবের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে এবারের বিশ্বকাপ আসর শুরু হচ্ছে। এই আসরেই প্রথমবারের মত ভিডিও এসিসটেন্ট রেফারি পদ্ধতি ব্যবহৃত হবে। আর সেই প্রযুক্তি ব্যবহারে প্রথম ম্যাচে চারজন ভিএআর (ভিডি‌ও এসিসটেন্ট রেফারি) অফিসিয়ালের নেতৃত্বে থাকবেন ইতালির বিশেষজ্ঞ মাসিমিলিয়ানো ইরাতি। মাঠে পিটানার দলের কোন ভুল সিদ্ধান্ত স্পষ্ট করতেই ইরাতির নেতৃত্বাধীন দল কাজ করবে।

৪২ বছর বয়সী পিটানার এটি দ্বিতীয় বিশ্বকাপ। চার বছর আগে ব্রাজিলে তিনি চারটি ম্যাচ পরিচালনা করেছিলেন।

কাজটা চ্যালেঞ্জিং: হিয়েরো

হুলেন লোপেতেগুইর পরিবর্তে রাশিয়া বিশ্বকাপে স্পেন কোচের আসনে বসিয়েছে ফার্নান্ডো হিয়েরোকে। বরখাস্ত হওয়া লোপেতেগুইর জায়গায় দেশটির সাবেক এই ডিফেন্ডারকে দায়িত্ব দিয়েছে স্পেনের ফুটবল ফেডারেশন।

কোচের দায়িত্ব পা‌ওয়ার পর প্রথম সংবাদ সম্মেলনে `লা রোজা’দের নতুন কোচ জানান, তার নজর এখন শুক্রবারের পর্তুগালের বিপক্ষে ম্যাচের দিকে। নতুন এই দায়িত্ব সম্পর্কে তিনি বলেন, `এটা আমার জন্য দারুণ এক রোমাঞ্চকর এবং চ্যালেঞ্জিং কাজ।’ হিয়েরো দলের খেলোয়াড়েদর কাছ থেকে আর‌ও দায়িত্বশীল কাজ আশা করছেন। তিনি বলেন, `আমাদের দল গত দুই বছর যাবত একসাথে আছে। ফুটবল খেলছে। আর তারা বিশ্বকাপের জন্যই প্রস্তুত হচ্ছে। স্পোর্টিং ডিরেক্টর হিসেবে আমি দলটিকে খুব কাছ থেকে দেখেছি। দলে অন্য স্টাফদের নিয়ে বিশ্বকাপে নিজেদরন খেলা ছাড়া অন্যকিছু নিয়ে ভাবছি না।’

গত মঙ্গলবার ৫১ বছর বয়সী লোপেতেগুইর সঙ্গে তিন বছরের চুক্তির কথা জানায়, রিয়াল মাদ্রিদ। এর পরদিনই তাকে ছাঁটাই করার সিদ্ধান্ত জানায় স্পেনের ফুটবল ফেডারেশন। কারণ হিসেবে ফেডারেশনকে কিছু না জানিয়েই তার রিয়ালের সঙ্গে যোগাযোগ করার কথা বলে সংস্থাটি। ২০১৪-১৫ মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদের সহাকারী কোচের দায়িত্ব পালন করা হিয়েরো গত ২৭ নভেম্বর থেকে স্পেন জাতীয় দলের স্পোর্টিং ডিরেক্টরের পদে ছিলেন।

আগামী শুক্রবার পর্তুগালের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু হবে ২০১০ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের।

রিয়ালের কোচ লোপেতোগি

স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ তাদের হেড কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে জাতীয় দলের কোচ জুলেন লোপেতোগিকে। রিয়াল মাদ্রিদ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ এ কথা জানিয়েছে।

রাশিয়া বিশ্বকাপের খেলা শেষে লোপেতোগি রিয়ালে যোগ দেবেন। গত মে মাসের শেষের দিকে, ইউক্রেনে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ট্রফির ফাইনালে ইংলিশ দল লিভারপুলকে হারিয়ে টানা তিনবার শিরোপা জয়ের পরের দিনই জিনেদিন জিদান পদত্যাগ করেন। লেপেতোগির সঙ্গে আগামী তিন বছরের জন্য চুক্তি করার কথাও জানায়, স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

রাশিয়া বিশ্বকাপে ম্যানচেস্টার সিটিই সেরা

বিশ্বকাপ ফুটবল শুরু হতে আর বেশি দেরী নাই। প্রায় সব ক’টি দলই এখন পৌছেছে রাশিয়ায়। তাদের বেস ক্যাম্পে প্রশিক্ষণ‌ও শুরু করে দিয়েছে। এবারের বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি খেলোয়াড় পাঠিয়েছে ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার সিটি। তারা বিশ্বকাপে পাঠিয়েছে ১৬ জন খেলোয়াড়। আর স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদের ১৫ জন খেলোয়াড় খেলছেন রাশিয়া বিশ্বকাপে। স্প্যানিশ লিগ চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনার ১৪ জন খেলোয়াড় অংশ নিচ্ছেন এবারের বিশ্বকাপে।

ম্যানচেস্টার সিটি (১৬ জন)

সার্জি‌ও অ্যাগুয়েরো, নিকোলাস ‌ওতামেন্দি – আর্জেন্টিনা
কেভিন ডি ব্রুইন, ভিনসেন্ট কোম্পানি – বেলজিয়াম
ড্যানিলো, এডেরসন, ফার্নান্দিনহো, গ্যাব্রিয়েল জেসুস – ব্রাজিল
ফ্যাবিয়ান ডেলফ, রাহিম স্টার্লিং, জন স্টোনস, কাইল ‌ওয়াকার – ইংল্যান্ড
বেঞ্জামিন ম্যান্ডি – ফ্রান্স
ইলকে গানডুগান -জার্মানি
বার্নার্ডো সিলভা – পর্তুগাল
ডেভিড সিলভা – স্পেন।

রিয়াল মাদ্রিদ (১৫ জন)

দানি কার্ভাহাল, নাচো, লুকাস ভ্যাসকুয়েজ, স্যার্জি‌ও রামোস, মার্কো আসেনসি‌ও, ইসকো – স্পেন
কাসিমেরো, মার্সেলো – ব্রাজিল
কেইলর নাভাস – কোস্টারিকা
লুকা মড্রিক, মাতে‌ও কোভাসিচ – ক্রোয়েশিয়া
রাফায়েল ভারানে – ফ্রান্স
টনি ক্রুস – জার্মানি
আচরাফ হাকিমি – মরক্কো
ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো – পর্তুগাল।

বার্সেলোনা (১৪ জন)

লি‌ওনেল মেসি -আর্জেন্টিনা
থমাস ভার্মালেন – বেলজিয়াম
ফিলিপ্পে কুটিনহো, পা‌উলিনহো -ব্রাজিল
ইর্রি মিনা – কলম্বিয়া
ইভান রাকিটিচ- ক্রোয়েশিয়া
উসমান দেম্বেলে, স্যামুয়েল উমিতি – ফ্রান্স
মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগান – জার্মানি
জেরার্ড পিকে, জর্ডি আলবা, স্যার্জি‌ও বুসকেটস, আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা – স্পেন
লুইস সুয়ারেজ – উরুগুয়ে।

এছাড়া প্যারিস সেন্ট জার্মেই ‌ও টটেনহ্যাম হর্টসপারের ১২ জন করে খেলোয়াড় এবারের বিশ্বকাপে নিজেদের দ্যুতি ছড়াবেন।

রেকর্ড গড়েই নাদাল চ্যাম্পিয়ন

রেকর্ড গড়েই ফ্রেঞ্চ ‌ওপেনের শিরোপা জিতলেন রাফায়েল নাদাল। রোলা গ্যারোতে অস্ট্রিয়ার ডোমেনিক থিয়ামকে ৩-০ সেটে পরাজিত করে ফেঞ্চ ‌ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হন তিনি।

এতে ১৪ বার রোলা গ্যারোর ফাইনালে উঠে ১১তম শিরোপা জিতলেন স্প্যানিশ তারকা খেলোয়াড় নাদাল। ‘ক্লে কোর্টের রাজা’ নাদাল জয় পান ৬-৪, ৬-৩ ‌ও ৬-২ গেমে।

ফ্রেঞ্চ ‌ওপেন জয়ের মধ্য দিয়ে আবার‌ও নিজের দারুণ ফর্মের জানান দিলেন বিশ্বের এক নম্বর তারকা রাফায়েল নাদাল। এই শিরোপা জয়ে আগামী মাসে উইম্বলডন ‌ওপেনে‌ও সেরা পারফরমেন্স নিয়ে খেলতে যাবেন তিনি। তাছাড়া রোলা গ্যারোতে জয়ে মার্গারেট কোর্টের ১১টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের রেকর্ডে‌ও ভাগ বসান রাফা।

ফ্রেঞ্চ ‌ওপেন শিরোপা জেতায় নাদালের সংগ্রহে এখন ১৭টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম ট্রফি হলো। এতে তিনি ২০টি ট্রফির মালিক রজার ফেদেরারকে চ্যালেঞ্জ জানানো দূরত্বে এসে পৌছলেন।

ইতিহাস গড়ে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন

মালয়েশিয়ায় নারী এশিয়া কাপে নতুন ইতিহাস গড়লো বাংলাদেশ। শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে, ছয়বারের চ্যাম্পিয়ন ভারতকে ৩ উইকেটে হারিয়ে টি-টোয়েন্টির শিরোপা জিতেছে লাল সবুজের দল। আগে ব্যাট করে ৯ উইকেটে ১১২ রান তোলে সাবেক চ্যাম্পিয়নরা। জবাবে, শেষ বলে ম্যাচ জিতে নেয় সালমা খাতুনের দল। ম্যাচ সেরা রুমানা আহমেদ। আর সিরিজ সেরা হন ভারতের হারমানপ্রীত।

জয় তখন মাত্র দু’রানের দূরত্বে। বিশ্বজুড়ে জাহানারা আর সালমাদের জন্য প্রার্থনা ছিলো কোটি বাঙ্গালীর। শেষ বলে তারা যখন রানের পেছনে ছুটছিলেন, উইকেটের টাচলাইন স্পর্শ করার আকুলতা ছুঁয়ে গেছে টেলিভিশন সেটের সামনে থাকা প্রতিটি ভক্তের হৃদয়। বাদ যাননি তামিম, মাশরাফিরাও।

দেশের ক্রিকেট ইতিহাসে এখন পর্যন্ত এটাই সেরা সাফল্য। যে মালয়েশিয়ায় ১৯৯৭-এ আইসিসি ট্রফি জিতে ক্রিকেটের নতুন অধ্যায় লিখেছিলো ছেলেরা। সেখানেই এশিয়ার পরাশক্তি ভারতের শ্রেষ্ঠত্ব গুড়িয়ে নতুন পথচলা শুরু হলো নারীদের।

যার ভিত্তি গড়ে দিয়েছিলেন বোলাররা। টস জিতে প্রতিপক্ষকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে মাত্র ৩২ রানে চার উইকেট তুলে নিয়ে বাংলাদেশ জানান দিয়ে রাখে জিততে নেমেছে, শুধু লড়াই করতে নয়।

এশিয়া কাপের প্রতিটি আসরেই চ্যাম্পিয়ন ভারতের প্রমান করার ছিলো গ্র“প পর্বে বাংলাদেশের বিপক্ষে হারটি শুধুই দুর্ঘটনা। তবে স্নায়ুর পরীক্ষায় ব্যর্থ ভারতীয়রা ৭৪ রান তুলতেই ৭ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে। তবু মান রক্ষা হারমানপ্রীতের ৫৬ রানের ইনিংসে। রুমানা, খাদিজা নেন দুটি করে উইকেট।

জবাবে, উদ্বোধনী জুটিতে শামীমা আর আয়েশা তুললেন ৩৫ রান। সপ্তম ওভারেই এদুজন ফিরে গেলে কিছুটা বিপদে বাংলাদেশ।

তবে বলের সাথে রানের ব্যবধানটা বাড়তে দেননি কোন ব্যাটসম্যানই। নিগার সুলতানা ২৪ বলে ২৭ রান করে দলের জয়ের ভিত্তিটা মজবুত করে দেন। ২২ বলে ২৩ রান করে রুমানা যখন আউট হন দল তখন মাত্র দু রানের দুরত্বে।

হাতের নাগালে থাকা শিরোপাটা ফসকে যেতে দেননি জাহানারা এবং সালমা। আর তাতেই দ্বিপক্ষীয় সিরিজের বাইরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম শিরোপা ঘরে আসে বাংলাদেশের।

ফল: বাংলাদেশ ৩ উইকেটে জয়ী

ম্যাচ সেরা: রুমানা আহমেদ

সিরিজ সেরা: হারমানপ্রিত কাউর

অবশেষে সিমোনা হালেপ

অবশেষে সিমোনা হালেপ প্রথম গ্র্যান্ড স্র্যাম টেনিস টুর্নামেন্টের শিরোপা জিতলেন। শনিবার রাতে রোলা গ্যারোতে, প্রথম সেটে স্লোয়ান স্টেফানের কাছে ৩-৬ গেমে হারেন হালেপ। পরের সেটগুলোতে ‌ওয়ার্ল্ড নাম্বার ‌ওয়ানের মতোই খেলতে থাকেন তিনি। জয় পান ৬-৪ ‌ও ৬-১ গেমে। এরআগে, তিনটি গ্র্যান্ড স্ল্যামের ফাইনালে পরাজয়ের পর এবারই প্রথম চ্যাম্পিয়ন হল রোমানিয়ার সিমোনা হালেপ।

২০১৪ সালে এই ফ্রেঞ্চ ‌ওপেনেই ক্যারিয়ারের প্রথম ফাইনালে উঠেছিলেন সিমোনা হালেপ। সেবার তিনি মারিয়া শারাপোভার কাছে। এই রোমানিয়ানকে ৬-৪, ৬-৭ ‌ও ৬-৪ গেমে পরাজিত করেন রুশ সুন্দরী। ২০১৭ সালে‌ও ফ্রেঞ্চ ‌ওপেনের ফাইনাল খেলেছিলেন হালেপ। সেবার তাকে ৪-৬, ৬-৪ ‌ও ৬-৩ গেমে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হন, জেলেনা ‌ওস্টাপেঙ্কো। চলতি বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম টুর্নামেন্ট অস্ট্রেলিয়ান ‌ওপেনের ফাইনালে উঠে‌ও ব্যর্থ হন সিমোনা হালেপ। এবার তাকে ৭-৬, ৩-৬ ‌ও ৬-৪ গেমে ধরাশায়ী করেন ক্যারোলিনা ‌ওঝনিয়াকি।

জীবনের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম টুর্নামেন্ট জিতে সিমোনা হালেপ বলেন, এটি এক অসাধারণ মুহূর্ত। যখন থেকে আমি খেলা শুরু করেছি তখন থেকেই রোলা গ্যারোতে জয়ের স্বপ্ন দেখে আসছি। মাত্র ১৪ বছর বয়সেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে টেনিসই খেলব। যদি‌ও ২০০৮ সালে আমি জুনিয়র লেবেলে রোলা গ্যারোতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছি, তবু স্বপ্ন দেখতাম সিনিয়রদের বিভাগে এখানে শিরোপা জয়ের। এটা আমার খুব পছন্দের একটা টুর্নামেন্ট। যদি সারাজীবন একটাই গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতার সুযোগ পেতাম তবে রোলা গ্যারোতেই জিততে চাইতাম। এই এক টুর্নামেন্ট জিতেই আমি আগেই তিন ফাইনালে পরাজয়ের বেদনা ভুলেছি।

রাশিয়া বিশ্বকাপ: যে দলগুলো মিস করবেন

বিশ্বকাপ শুরু হতে আর বাকী মাত্র ৪ দিন। এরপরই বহুদিনের অপেক্ষা ফুরাবে ফুটবলপ্রেমীদের। কেননা তখন যে রাশিয়ার মাটিতে শুরু হয়ে যাবে ২১ তম বিশ্বকাপ আসর। এই আসরকে ঘিরে নতুন স্বপ্ন দেখছে কিছু দল। আবার কিছু দল স্বপ্ন ভাঙার বেদনায় মূহ্যমান। আসলে সবকিছুই ঐ সোনালী ট্রফির জন্যে। ১৬ বছর পর আবার‌ও সৌদি আরব, সেনেগাল খেলছে ২০০২ বিশ্বকাপের পর। কিন্তু খেলা হচ্ছে না ২০১০-এর ফাইনালিস্ট নেদারল্যান্ডসের। বাছাইপর্বেই হার্ডল পেরুতে না পারায় বাদ পড়েছে তারা এবার। টানা দুইবারে কোপা চ্যাম্পিয়ন চিলিরও একই অবস্থা। আর যুক্তরাষ্ট্রসহ রাশিয়া বিশ্বকাপে জায়গা হয়নি চারবারে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইতালীর।

বিশ্বকাপের পরীক্ষিত দল ইতালী- শিরোপা জিতেছে চারবার। ইতালীর অংশগ্রহন ছাড়া শেষবার বিশ্বকাপ হয়েছিলো ১৯৫৮ সালে, সুইডেনের মাটিতে। এবার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্লে-অফে সুইডেনের কাছে দুই লেগ মিলিয়ে ১-০ গোলে হারে জিয়ানলুইগি বুফনের নেতৃত্বাধীন ইটালী। এই হারের পর অবসর নেন ইতালির অধিনায়ক ও গোলরক্ষক বুফন।

টোটাল ফুটবলের জনক নেদারল্যান্ডও এবারের আসরে খেলছেনা। হতাশ হলেও সত্যি যে, ২০১০ বিশ্বকাপের ফাইনালিস্ট, ২০১৪ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালিস্টদের সময়টা মোটেও ভালো যাচ্ছিলোনা। গত ইউরোতেও খেলতে পারেনি ডাচরা। বাছাইপর্বেও বাঁধা টপকাতে ঘাম ছুটে যায়। বিশ্বকাপের বাছাইপর্বেও ব্যর্থ অরেঞ্জরা। ইউরোপ অঞ্চলে বাছাই পর্বে তিন নাম্বারে থেকেই বিদায় নিতে হয় নেদারল্যান্ডকে। ব্যর্থতার দায় মাথায় নিয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসর নেন ৩২ বছর বয়সি স্ট্রাইকার আরইয়েন রোবেন।

অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রকে এবার দর্শক হয়েই থাকতে হচ্ছে। প্রথমবারের মত বিশ্বকাপে সুযোগ পাওয়া পানামায় চলছে উৎসব। বিশ্বকাপে খেলার প্রথমদিনটি তারা বাধাই করে রাখবে স্বর্নাক্ষরে। বিশ্বের অন্যতম সম্ভবনাময় খেলোয়াড় ধরা হত গ্যারেথ বেলকে। কিন্তু ইনজুরি তার পুরোপুরি ক্যারিয়ারের বিকাশ ঘটাতে দেয়নি। ঘন ঘন ইনজুরির কারণে নিজের দল ওয়েলসকেও বিশ্বকাপে নিয়ে যেতে পারেননি। ইউরোপ অঞ্চলে গ্রুপ ডি তে মাত্র ১ হারের পরও সুযোগ মিলল না ওয়েলসের।

টানা দুই বছর, দুইবার আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন হওয়া চিলিও এবার থাকছেনা বিশ্বকাপে। দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলে শেষ রাউন্ডে পয়েন্ট টেবিলের হিসাবে বাদ পড়েছে চিলি। ব্রাজিলে কাছে ০-৩ গোলে হেরেছে তারা। অন্যদিকে ইকুয়েডরের বিপক্ষে ৩-১ গোলের জয় আর্জেন্টিনাকে নিয়ে গিয়েছে তিনে আর ব্রজিলের কাছে হারের কারণে ছয়ে নেমে বিশ্বকাপ যাত্রা থামে আলেক্সিস সানচেজের দলের।

এদিকে, পেরুর কাছে নিউজিল্যান্ড হেরে যাওয়াতে, রাশিয়া বিশ্বকাপে ওশেনিয়া অঞ্চল থেকে কোন দলই খেলবেনা। প্লে-অফে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপ খেলবে এবার পেরু।

এবারে মেসি, রোনালদো, নেইমার যেমন রাশিয়া মাতাবেন তেমনি রাশিয়া মিস করবে রোবেন, সানচেজ ‌ও গ্যারেথ বেলদেরকে।

এশিয়া কাপের ফাইনালে বাংলাদেশ

গ্রুপের শেষ ম্যাচে স্বাগতিক মালয়েশিয়াকে ৭০ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে প্রতিযোগিতার ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। এশিয়া কাপ নারী টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে আজ শনিবার কুয়ালালামপুরে, টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করে ৪ উইকেটে ১৩০ রান তোলে বাংলাদেশ। জবাবে ৬০ রানে থামে ৯ উইকেট হারানো মালয়েশিয়া।

টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে শুরুটা দারুণ ছিল বাংলাদেশের। উদ্বোধনী জুটিতে শামিমা সুলতানা ও আয়েশা রহমান ৯.৫ ওভারে তোলেন ৫৯ রান। দশম ওভারের পঞ্চম বলে এ জুটি ভাঙেন সাহসা আজমি। ২৭ বলে ৩১ রান করে আয়েশা আউট হন।

এরপর শামিমা সুলতানা একাই দলের রান সচল রাখেন। ১৬তম ওভারে বাংলাদেশ শিবিরে জোড়া আঘাত করেন দুরাইসিঙ্গাম। ৭ রান করা ফারজানা হক এবং সর্বোচ্চ ৪৩ রান করা শামিমা সুলতানা আউট হন ওই ওভারে। শেষ দিকে সানজিদা ইসলাম ১২ বলে ১৫ এবং ফাহিমা খাতুন ১২ বলে ২৬ রান তুলে বাংলাদেশকে লড়াকু পুঁজি এনে দেন।

জবাবে, ইনিংসে ৫০ রান যোগ করতে না করতেই মালয়েশিয়ার ৫ ব্যাটসম্যান ফেরেন সাজঘরে। ধীর গতিতে রান তোলায় বাড়তে থাকে চাপ। সেই চাপ আর পরবর্তীতে জয় করতে পারেননি মালয়েশিয়ার নারীরা। ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ৬০ রানের বেশি করতে পারেননি। বল হাতে ৪ ওভারে ৮ রানে ৩ উইকেট নেন রুমানা আহমেদ। ১টি করে উইকেট নেন জাহানারা আলম, সালমা খাতুন, নাহিদা আক্তার ও খাদিজা তুল কুবরা।

এদিকে, অন্য ম্যাচে পাকিস্তানকে ৭ উইকেটে হারিয়ে ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করে ভারত। আগামী রবিবার শিরোপা লড়াইয়ে ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

জিতলেই বোনাস

বিশ্বকাপ জিতলেই বোনাস পাবে খেলোয়াড়রা, রাশিয়া বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে ‌ওঠা ৩২টি দলের অনেকেই বোনাস ঘোষণা করেছে। বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি জানিয়েছে, এবার বিশ্বকাপ ফুটবল শিরোপা জিতলেই দলের প্রত্যাক খেলোয়াড় পাবেন প্রায় সাড়ে তিন লাখ (৪,১১,২৬৭ ইউরো) পাউন্ড করে।

আগেরবারের চ্যাম্পিয়ন জার্মানির খেলোয়াড়রা তিল লাখ পাউন্ড করে বোনাস পেয়েছিল। তবে বিশ্বকাপ শুরুর আগেই বোনাস ঘোষণার কারণ হিসেবে ম্যানেজার অলিভার বিয়েরহফ জানান, এই বোনাস ঘোষণায় খালো খেলতে দলের খেলোয়াড়দেরকে সহায়তা করবে। তবে কোয়ার্টার ফাইনালে ‌ওঠার আগ পর্যন্ত কোনো বোনাস পাবে না জার্মান দল। কোয়র্টার ফাইনাল থেকেই শুরু হচ্ছে জার্মান দলের বোনাস। শেষ আটে উঠলে তাদের প্রত্যেক খেলোয়াড় পাবে ৬৭ হাজার পাউন্ড। সেমিফাইনালে উঠলে ১,১০,০০০ বোনাস এবং ১,৭৮,০০০ পাউন্ড পাবে ফাইনালে উঠলে।

এদিকে, দলকে ২৮ বছর পর বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে তুলে আনায় মিশর দলের প্রত্যেক খেলোয়াড়কে ৮৫,০০০ করে ডলার বোনাস দিয়েছে সেদেশের প্রেসিডেন্ট আব্দুল ফাত্তাহ আল-সিসি। বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের শেষ ম্যাচে কঙ্গোকে ২-১ গোলে হারিয়ে ১৯৯০ সালের পর বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বের টিকিট পায় মিশর।

নাইজেরিয়া দলকে ২.৮ মিলিয়ন ডলার প্রাইজমানি দিয়েছে সেদেশের সরকার।

স্পেনের দৈনিক মার্কা জানিয়েছে, স্পেনের খেলোয়াড়রা বিশ্বকাপ ট্রফি জিতলে ৭ লাখ ২৫ হাজার পাউন্ড বোনাস পাবেন। তবে তাদের এই বোনাসের পরিমান হলো জার্মানির খেলোয়াড়দের চেয়ে দ্বিগুণের‌ চেয়েও বেশি। এদিকে ফেভারিট ব্রাজিলের খেলোয়াড়রা পাবে ৮ লাখ ইউরো করে।

স্পেনের ফটোশ্যূট

বিশ্বকাপ ফুটবল উপলক্ষ্যে ২০১০ সালের চ্যাম্পিয়ন স্পেন আনুষ্ঠানিক ফটো সেশন করেছে। ফুটবল মাঠের মতো ক্যামেরার সামনে‌ও বেশ সাবলীল ছিলেন `লা রোজা’রা।

সার্জি‌ও রামোস ঠোটে আঙ্গুল দিয়ে সবাইকে চুপ থাকার ইঙিত দিয়ে ছবির জন্য পোজ দেন। এই ফটো শ্যূটে দলের অন্যান্য ফুটবলাররা‌ও তাদের পছন্দ মতো পোজ দেন। এমনকি কেউ কেউ ক্যামেরার সামনে লাফ‌ও দিয়েছেন। রাশিয়ার কার্সুন্দার এফসি তে বেস ক্যাম্প করেছে স্পেন। অনুশীলনের এক ফাকে সেখানেই ফটোশ্যূট করে স্প্যানিশরা।

তবে কিয়েভে, চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে লিভারপুলের ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ সালাহকে ফাউল করা এবং বিশ্বকাপ শুরুর আগে তাকে ইনজুরিতে ফেলে দে‌ওয়ার জন্য এখন‌ও সমানভাবে সমালোচিত হচ্ছেন রামোস।

কষ্টের জয় জার্মানির

কষ্টের এক জয় দিয়ে বিশ্বকাপের নিজেদের প্রস্তুতি শেষ করল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। লেভারকুজেনে শুক্রবার রাতে তারা ২-১ গোলে পরাজিত করে সৌদি আরবকে। গত শনিবার অস্ট্রিয়ার কাছে ২-১ গোলে হেরেছিল ইওয়াখিম লুভের দল।

নিজেদের মাঠে‌ও স্বরূপে দেখা যায়নি জার্মানিকে। বল পজেশন, আক্রমণ কিংবা পাসিং সবকিছুতে এগিয়ে থাকলে‌ও জার্মানি ঠিক নিজেদের মধ্যই ছিলনা। ঠিক কোথায় যেনো ছন্দহীন জোয়াকিম লো’র দল। তবে খেলার ৮ মিনিটেই তারা এগিয়ে যায়। ডান দিক থেকে সতীর্থের লম্বা উঁচু করে বাড়ানো বল ডি-বক্সে পেয়ে মার্কো রয়েস বক্সের মুখে বাড়ান টিমো ভেরনারকে। প্রথম ছোঁয়ায় বল জালে পাঠান লাইপজিগের এই ফরোয়ার্ড।

ধীরে ধীরে গুছিয়ে ওঠা সৌদি আরব মাঝে মধ্যে পাল্টা আক্রমণে উঠতে শুরু করে। কিন্তু আক্রমণভাগের ব্যর্থতায় সাফল্য অধরাই থাকে। উল্টো ৪৩ মিনিটে দ্বিতীয় গোল হজম করতে হয় অতিথিদের। ভেরনারের নীচু ক্রস ঠেকাতে গিয়ে নিজেদের জালে ঠেলে দেন সৌদির ডিফেন্ডার ওমার।

দ্বিতীয়ার্ধের প্রথমভাগে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে লড়াই বেশ জমে ওঠে। গোলের সুযোগ মিস করেন মাটস হুমেলস ও ড্রাক্সলার। এবং সৌদি মিডফিল্ডার সালেম আল-দাওসারি।

৮৪ মিনিটে ঠিকই ব্যবধান কমিয়ে লড়াই জমিয়ে তোলে সৌদি আরব। তাদের মিডফিল্ডার আল-জসিমকে ডিফেন্ডার সামি খেদিরা ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। মোহাম্মদ আল-সাহলাইয়ের শট ডান দিয়ে ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন মানুয়েল নয়ার। ফিরতি বল ধরে গোলটি করেন মিডফিল্ডার আল জসিম। বিশ্বকাপ শুরুর আগের প্রস্তুতিপর্বটা খুব একটা ভালো কাটলো না জার্মানির।

আগামী ১৭ জুন মেক্সিকোর বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শিরোপা ধরে রাখার লড়াইয়ে নামবে জার্মানি। ‘এফ’ গ্রুপে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ সুইডেন ও দক্ষিণ কোরিয়া।

এদিকে, সুইজারল্যান্ডের কাছে ২-০ গোলে হেরেছে জাপান। আরেক প্রস্তুতি ম্যাচে সেনেগালকে ২-১ গোলে হারিয়েছে ক্রোয়েশিয়া।

ফাইনালে রাফায়েল নাদাল

হুয়ান ডেল পোর্তোর মনে এই বিশ্বাস বদ্ধমূল হয়ে গেছে যে ক্লে কোর্টের রাজা রাফায়েল নাদালকে হারানো যাবে না। তাকে হারানো যায়নি বলেই নাদাল ফ্রেঞ্চ ‌ওপেনের ফাইনালে উঠে গেছেন। রবিবার ফ্রেঞ্চ ‌ওপেনের ১১ তম শিরোপা জয়ের মিশনে নামবেন তিনি ডমেনিক থিয়ামের বিপক্ষে।

শুক্রবার রাতে ফ্রেঞ্চ ‌ওপেনের সেমিফাইনালে ডেল পোর্তোকে ৬-৪, ৬-১ ‌ও ৬-২ গেমে পরাজিত করেন রাফায়েল নাদাল।

রাশিয়া বিশ্বকাপ: শেষ সময়ের অপেক্ষা

রাশিয়া বিশ্বকাপ যতোই এগিয়ে আসছে, উত্তেজনার পারদ ততই চড়ছে। আগামী ১৪ জুন স্বাগতিক রাশিয়া ও সৌদি আরবের ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে রাশিয়া বিশ্বকাপের আসর। কিন্তু তার আগেই বিশ্বকাপ জ্বরে কাঁপছে পুরো পৃথিবী। বাংলাদেশেও লেগেছে বিশ্বকাপ উন্মাদনা। এরই মধ্যে দেশের বড় শহরগুলোতে উড়তে ব্রাজিল আর আর্জেন্টিনার পতাকা। চায়ের কাপে ঝড় উঠাও শুরু হয়ে গেছে অনেক আগে থেকেই। চলছে নানারকম জরিপ আর বিশ্লেষণ – উদ্দেশ্য একটাই শুরুর আগেই ধারণা পাওয়া, কার হাতে উঠছে বিশ্বকাপ ট্রফি? রাশিয়ার মাঠে ফেভারিট তকমা নিয়ে খেলতে যাওয়া শীর্ষ পাঁচ দলের কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু

ব্রাজিল: বিশ্বকাপের প্রতিটি আসরেই ফেভারিট তালিকায় থাকা দলটির নাম ব্রাজিল। রাশিয়া বিশ্বকাপে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিলকে বলা হচ্ছে হট ফেভারিট। বাছাই পর্বে ধারাবাহিক নৈপুণ্যে সবার আগে টিকেট নিশ্চিত করেছিল দলটি। বর্তমান কোচ তিতে দায়িত্ব গ্রহণের পর দ্রুত পাল্টে গেছে ব্রাজিল। সব দল যেখানে রাশিয়ার টিকেট পাওয়ার জন্য মুখিয়ে ছিল, সেখানে অনায়াসেই বাছাইপর্ব টপকে সবার আগে রাশিয়া টিকেট অর্জনের কৃতিত্ব দেখায় পেলের উত্তরসূরিরা। বিভিন্ন ইউরোপীয় ক্লাবে খেলা তারকা ফুটবলারদের নিয়ে দলটি পরিপূর্ণ এবং ফুটবল বিশ্লেষকদের মতে, এবারের বিশ্বকাপে ফেভারিট ব্রাজিল। কারণ দলটির প্রতিটি পজিশনেই উপস্থিতি রয়েছে পরীক্ষিত সব পারফরমার। ২০১৪ বিশ্বকাপে নিজেদের মাঠে ব্যর্থতার পরে অধিনায়কত্ব হারানোর পাশাপাশি দল থেকেও বাদ পড়েন থিয়াগো সিলভা। কিন্তু তিতে আবার তার আত্মবিশ্বাসের জায়গায় ফিরিয়ে এনেছেন। সিলভার পিএসজি সতীর্থ মারকুইনোস এবং ইন্টার মিলানের মিরান্দাকে নিয়ে বিশ্বসেরা এক ডিফেন্স দাঁড় করিয়েছেন তিতে। তার সঙ্গে ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডে কাসেমিরো এবং পাউলিনহো দলকে যেমন ভারসাম্য দিয়েছেন তেমনি করেছেন নিরাপদ। বর্তমান ফুটবলের সেরা তিন ফরোয়ার্ডের একজন নেইমার। এবার ব্রাজিলকে কেবল নেইমার নির্ভর দল বলা যাবে না। দলে আছে কৌটিনহো, উইলিয়াম, ডগলাস কস্তার মতো খেলোয়াড়। তাদের যে কেউ ম্যাচ জেতানোর ক্ষমতা রাখেন। গ্যাবিয়েল জেসুসেও হতে পারে সেলকাওদের ট্রাম্প কার্ড । অলিম্পিক জেতাতে দারুণ অবদান রাখা জেসুস ১৫ টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে ৯ গোল করে নিজের প্রতিভার প্রমাণ দিয়েছেন। ব্রাজিল দলে আছে আলিসনের মতো বিশ্বের প্রথম সারির একজন গোলরক্ষক। এই গোলরক্ষক এরইমধ্যে রিয়াল মাদ্রিদের প্রথম পছন্দে পরিণত হয়েছেন। সব মিলিয়ে যে ব্যালেন্সড স্কোয়াড নিয়ে ব্রাজিল এবারে বিশ্বকাপের মাঠে নামছে, তাদের রুখতে বেগ পেতে হবে যে কোনো দলেরই।

জার্মানি: রাশিয়া বিশ্বকাপের অন্যতম ফেভারিট বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। চার বার করে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ হওয়া দলটি এবারও চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মতো দল গঠন করেছে। যদিও কোনো কোনো বিশ্লেষক বলছেন, বর্তমান দলটিতে কিছুটা হলেও অভিজ্ঞ ফুটবলারদের ঘাটতি রয়েছে। ২০১৪ সালের বিশ্বকাপের শিরোপা জয়ী জার্মান তারুণ্যনির্ভর দল নিয়েই রাশিয়া বিশ্বকাপের মাঠে নামবে। বিশ্বের অন্যতম সেরা কোচ জোয়াকিম লো বিশ্বাস করেন, তরুণরা ছক অনুযায়ী খেলতে পারলে এবারের বিশ্বকাপও জার্মানিতেই আসবে। দলে ইনজুরির ধাক্কা সামলে রিজার্ভ বেঞ্চের ১০ জয় নিয়ে অনায়াসেই ২০১৮ বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করেছে জার্মানি। টিমো ওয়ার্নার ও সান্দ্রো ওয়াগনার মতো তরুণ প্লে-মেকার আছেন দলে। পাশাপাশি বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে ধারাবাহিক নৈপুন্য দেখানো জোসুয়া কিমিচ রয়েছেন দুর্দান্ত ফর্মে। যে কোনো মুহূর্তে জ্বলে ওঠতে পারেন মেসুত ওজিল আর ম্যাটস হুমেলস। তাছাড়া দলের অধিনায়ক এবং গোলরক্ষক ম্যানুয়েল নয়্যার চোট কাটিয়ে মাঠে ফেরায় জার্মান শিবিরে ফিরেছে স্বস্তি। তবু ফরোয়ার্ডে খানিকটা দুর্বলতা রয়ে গেছে জার্মানির। ইয়ুর্গেন ক্লিন্সম্যানের মতো খাঁটি কোনো স্ট্রাইকার নেই। তবুও স্পেনের সঙ্গে ১-১ ড্র এবং ব্রাজিলের কাছে ১-০ গোলে হার বিশ্বকাপের আগে জার্মানিকে নিয়ে ভক্তদের কপালে চিন্তার রেখা ফুটিয়ে তুলছে। তবুও, ফেবারিটের তালিকায় ব্রাজিলের পরেই রয়েছে জার্মানি।

স্পেন: ২০১০ সালের চ্যাম্পিয়ন ফুটবলের ধারক-বাহক স্পেন আসন্ন রাশিয়া বিশ্বকাপের তৃতীয় ফেভারিট। অনেক তরুণ ও অভিজ্ঞতাসম্পন্ন স্প্যানিশ দলটির টার্গেট গত বিশ্বকাপের দুঃস্বপ্ন ভুলে শ্রেষ্ঠত্ব পুনরুদ্ধার করা। সার্জিও রামোসের নেতৃত্বাধীন দলটিতে অসাধারণ অভিজ্ঞতা এবং টেকনিক্যাল উৎকর্ষতার মিশেল ঘটেছে খুব নিখুঁতভাবে। নতুন কোচ হুলে লোপেতেগির অধীনে দুর্দান্ত সময় পার করছে স্পেন। তার কোচিংয়ে এখন পর্যন্ত ১৮ ম্যাচের একটিতেও হারেনি সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। স্বাভাবিকভাবেই রাশিয়া বিশ্বকাপে অংশ নেয়ার আগেই ফেভারিটের তকমা পেয়েছে দলটি। তাদের মুল লক্ষ্য বিশ্বমঞ্চে হারানো শিরোপা পুনরুদ্ধার।রাশিয়া বিশ্বকাপে এবার হুলে লোপেতেগি ভরসা রাখছেন বেশিরভাগ তরুণ ফুটবলারের উপর। সে হিসেবে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের গোলপোস্ট সামলাবেন ডেভিড ডি গিয়া। তার সামনে সার্জিও রামোস ও জেরার্ড পিকে, জর্দি আলবা, মার্কো বার্তারা, ন্যাচো, দানি কার্ভাজালরা থাকবেন। তাদেরকে টপকে বিশ্বের যে কোন দলের ফরোয়ার্ডদের গোল করতে পেতে হবে বেগ। সেটা নিশ্চিত করেই বলা য়ায়। এদিকে দলটির মাঝে মাঠে ডেভিড সিলভা, ইসকো এবং তাদের সঙ্গে ইনিয়েস্তার ঝড় সামলানোটা কঠিনই হবে প্রতিপক্ষের জন্য। আর ফরোয়ার্ডে গোল এনে দেওয়ার দায়িত্বে থাকবেন সুসু, পের্দ্রো, আলভারা মরাতো, ডিয়েগো কস্তার মতো তারকারা।

ফ্রান্স: রাশিয়া বিশ্বকাপে অন্যতম ফেবারিট দলের তকমা নিয়ে মাঠে নামবে ফ্রান্স। দলের কোচ দিদিয়ের দেশঁর গর্ব করেই বলছেন, আমার হাতে এমন একটা দল রয়েছে, যাদের ‌শক্তিশালী, লড়তে জানে এবং যাদের দুর্দান্ত প্রতিভা রয়েছে। ফুটবল বিশ্লেষকরার তার কথার সঙ্গে একমত, ১৯৯৮ সালের বিশ্বজয়ী দলের পর ফ্রান্সের হাতে এত প্রতিভাবান দল আর আসেনি। সেবার জিনেদিন জিদানের নাম মুখে মুখে উচ্চারিত হত। এবার তেমনই আঁতোয়া গ্রিজম্যান, কিলিয়ান এমবাপের নাম দুনিয়ার লোক জানে। জিদান নিজের সুনাম রাখতে পেরেছিলেন বিশ্বকাপ জিতে। গ্রিজম্যান, এমবাপেরা সেটা পারবেন কি না সময়ই বলে দেবে। কিন্তু তাঁরা যে এবার অন্যতম ফেবারিট, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। গত বিশ্বকাপটা খুব খারাপ কেটেছিল ফ্রান্সের। গ্রুপে শীর্ষে থেকে শেষ করে এবং প্রি–কোয়ার্টার ফাইনালে নাইজেরিয়াকে হারানো সত্ত্বেও কোয়ার্টার ফাইনালের গাঁট টপকাতে পারেনি তারা। পরাজিত হয় জার্মানির কাছে। প্রতিবারই ফেবারিটের তকমা নিয়ে বড় টুর্নামেন্টে খেলতে যায় ফ্রান্স। কিন্তু ১৯৯৮ বিশ্বকাপ এবং ২০০০ ইউরো বাদে প্রতিবারই ফিরতে হয়েছে খালি হাতে। কোনওবারই নিজের প্রতিভার প্রতি সুনাম রাখতে পারেননি ফুটবলাররা। ২০০৬–এ দুর্দান্ত খেলেও ইতালিকে বিশ্বকাপ উপহার দিয়ে দেয় তারা। এবার ফ্রান্সের সাফল্য নিভর্র করবে দলের দুই সেরা তারকা নিঃসন্দেহে পল পগবা এবং অ্যান্তোনিও গ্রিজম্যানের ওপর।এছাড়াও দলে আছে সেরা এবং মেধাবি তরুণ স্ট্রাইকার কিলিয়ান এমবাপে। সেই সঙ্গে মিডফিল্ডে এনগোলা কান্তের দারুণ পরিশ্রম এবং সেন্টার ব্যাকে রাফায়েল ভারানে ও স্যামুয়েল উমতিতি দলটির শক্তি অনেক বাড়িয়ে দিয়েছে।

আর্জেন্টিনা: বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে চরম হতাশার পর আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপের টিকেট পাবে কি না, সেটা নিয়েই সৃষ্টি হয় অনিশ্চয়তা। ইকুয়েডরের সঙ্গে নাটকীয় জয়ে রাশিয়ার টিকেট নিশ্চিত হলেও অনেকেই আর্জেন্টিনার বর্তমান দলকে রাশিয়া বিশ্বকাপে ফেভারিট মানতে নারাজ। তবে যখন কোনো দলে একটি নাম ‘লিওনেল মেসি’ থাকে, সে দলটির সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স করুণ হলেও ফেভারিট লিস্ট থেকে বাদ দেওয়া সম্ভব হয় না। খুব কষ্টে মূলপর্বে জায়গা করে নিতে হলেও কোচ সাম্পাওলির দল ‘মেসি-দিবালা-এগুয়েরো’ দের নিয়ে বড় আসরে এগিয়ে শিরোপা প্রত্যাশাই এগিয়ে – এ কথা বললেও বলা যায়। আর্জেন্টিনা দলে অনেক তারকা ফুটবলার আছেন, কিন্তু জাতীয় দলে তাঁরা নিজেদের সেরাটা দেখাতে ব্যর্থ হন। যার ফলে পুরো চাপটা এসে পড়ে মেসির কাঁধে। ইকুয়েডরের সঙ্গে ম্যাচে মেসির হ্যাটট্রিক না হলে রাশিয়া বিশ্বকাপে আর্জেন্টাইনদের দর্শক হয়েই হয়তো কাটিয়ে দিতে হতো। ১৯৭০ সালের পর এই প্রথম এতটা চ্যালেঞ্জ নিয়ে তারা মূল পর্ব নিশ্চিত করে।গত তিন বছরে টানা তিনটি টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠে প্রতিবারই আর্জেন্টিনাকে ফিরতে হয়েছে খালি হাতে। এবারের বিশ্বকাপটাই মেসির জন্য শেষ সুযোগ। মেসির পাশাপাশি আছেন সার্জিও আগুয়েরো, গঞ্জালো হিগুইন, পাওলো দিবালা ও মাউরো ইকার্দি যদি জ্বলে ওঠতে পারেন, তাহলে শিরোপার দৌড়ে আর্জেন্টিনা বহুদূরে এগিয়ে যাবে।

ফাইনালের পথে বাংলাদেশের নারীরা

নারী এশিয়া কাপ ক্রিকেটে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে থাইল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালের পথে বায়লাদেশ। মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুেরর কিনরারা একাডেমী ‌ওভােলে থাইল্যান্ডকে রীতিমতো উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। মাত্র ৬০ রানে অলআউট করে জয় তুলে নিয়েছে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে। এই জয়ের ফলে নারী এশিয়া কাপের ফাইনালে যাওয়ার পথে আরো একধাপ এগিয়ে গেল বাংলাদেশ। তবে ফাইনাল খেলাটা একটা সমীকরণের মুখে এসে দাড়িয়েছে। সালমারা শেষ ম্যাচে যদি মালয়েশিয়ার বিপক্ষে বড় ব্যবধানে জয় পায় এবং শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান প্রতিপক্ষ ভারতের কাছে হার মানে তাহলে বাংলাদেশের সুযোগ থাকবে রোববার ফাইনাল খেলার।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের বোলারদের তোপের মুখে পড়ে থাইল্যান্ড। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় তারা। ৩ রানে প্রথম, ৯ রানে দ্বিতীয়, ২১ রানে তৃতীয়, ২৬ রানে চতুর্থ, ৩১ রানে পঞ্চম, ৩৬ রানে ষষ্ঠ, ৩৯ রানে সপ্তম ও ইনিংসের শেষ বলে দলীয় ৬০ রানে অষ্টম উইকেট হারায়। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট ৬০ রানের বেশি করতে পারেনি থাইল্যান্ডের মেয়েরা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৫ রান করেন, নাতায়া বোচাথাম। বাংলাদেশের বোলার সালমা খাতুন ও নাহিদা আক্তার ২টি করে উইকেট তুলে নেন।

৬১ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৮ রানেই শামীমা সুলতানার উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর নিগার সুলতানা ও আয়শা রহমান অবিচ্ছিন্ন থেকে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। দ্বিতীয় উইকেটে তারা দুজন ৫৪ রান তোলেন। নিগার ২৮ বল খেলে ৩ চারে ২৫ রানে অপরাজিত থাকেন। আর আয়শা রহমান ২৮ বল খেলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ২৫ রানে অপরাজিত থাকেন।

আগামী শনিবার লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে স্বাগতিক মালয়েশিয়ার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

ম্যাচ বাতিলে প্যালেস্টাইনের দোষ বলছে ইজরায়েল

আর্জেন্টিনার ফুটবল দল তাদের প্রস্তুতি ম্যাচ বাতিল করায় প্যালেস্টাইনকে দোষী করছে এখন ইজরায়েল। রাশিয়া বিশ্বকাপের আগে আর্জেন্টিনার শেষ প্রস্তুতি ম্যাচটি আগামী ১০ জুন জেরুজালেমে খেলার কথা ছিলো লি‌ওনেল মেসির দলের। কিন্তু আজ তা বাতিল ঘোষণা করে আর্জেন্টাইন ফুটবল কর্মকর্তারা।

ভারতকে হারাল বাংলাদেশের নারীরা

এশিয়া কাপ নারী টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে শক্তিশালী ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এর আগের ম্যাচে, পাকিস্তানকেও একই ব্যবধানে হারিয়েছিল বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটাররা।

মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে, প্রথমে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ১৪১ রানে থামে ভারতের ইনিংসে। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪২ রান করেন হারমনপ্রিত কাউর। বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে রুমানা আহমেদ ২১ রানে ৩ উইকেট তুলে নেন।

জবাবে, মাত্র ২৯ রানে আয়েশা আহমেদের উইকেট হারালেও, ফারজানা হকের অপরাজিত ৫২, ম্যাচ সেরা রুমানা আহমেদের অপরাজিত ৪২ রানে, ৩ বল বাকী থাকতেই ৩ উইকেটে ১৪২ রান তুলে জয় পায় সালমা খাতুনের দল। শারমিন সুলতানা করেন ৩৩ রান।

চোট সরিয়ে দলে ফেরা

ফারদিন আল সাজু

বিশ্বকাপ ফুটবলের মাঠের লড়াই শুরু হতে বাকি আর মাত্র ৮ দিন। এরই মাঝে ফুটবল জ্বরে কাঁপছে সমর্থকরা। ফুটবল বিশ্বকাপকে ঘিরে এরই মাঝে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়ে গেছে গেটা বিশ্বে। “দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ” নামটি তো আর এমনি এমনি দেওয়া হয়নি। ফুটবল বিশ্বকাপের জনপ্রিয়তা থেকে এই নাম দেওয়া। দীর্ঘ চার বছর অপেক্ষার পর আগামী ১৪ জুন শুরু হতে যাচ্ছে ফুটবল বিশ্বকাপের ২১ তম আসর। ফুটবল ইতিহাসের সবচেয় বড় এই আসরের আয়োজন দেখতে পৃথিবীর কোটি কোটি দর্শকের চোখ থাকবে রাশিয়াতে।

তবে বিশ্ব ফুটবলে সেরা হওয়া পথে ইনজুরিকে বড়বাধা মনে করা হয়। ইনজুরি কারনে হয়তো মূলতারকাগুলো দল থেকে ছিটকে যাবার সম্ভবানা থাকেই যায়। ইনজুরিকে পাশ কাটিয়ে বিশ্বকাপের আসরে খেলাটা অনেকের কাছে অনেকটা স্বপ্নের মতো মনে হয়ে থাকে। তেমনি বিশ্বফুটবলে সেরা হওয়ার পথে যদি ইনজুরি বাধা হিসাব করা হয়, তাহলে এর মধ্যে হয়তো জার্মান উইঙ্গার মার্কো রেউসের নামটাই বার বার উচ্চারিত হবে। ২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপে দলে জায়গা পেয়েও খেলা হয়নি তার। ক্লাব পর্যায়েও নিয়মিত আসা-যাওয়া করতে হয় হাসপাতালে আর মাঠে। তবুও হার না মন-মানসিকতা নিয়ে ইনজুরি সাথে লড়াই করে ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে মূলপর্বে জায়গা করে নিয়েছেন রেউস।

অন্যদিকে পায়ের পাতার চোটে তিনমাসের জন্য ছিটকে গিয়েছিলেন ব্রাজিলের ফরোয়ার্ড নেইমার। কঠোর পরিশ্রম এবং অধম্য ইচ্ছা শক্তি নিয়ে ক্রোয়শিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরেছেন পিএসজি এই স্ট্রাইকার। আর যখন ফিরলেন, ফেরার মতোই ফিরলেন। এতো দিনেও পায়ের ছন্দে একটুও মরিচা ধরেনি, প্রথম ম্যাচেই তিন ডিফেন্ডারের বোকা বানিয়ে চোখ জুড়ানো এক গোল।

বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগে সবচেয়ে আলোচিত বিষয় ছিলো মিশরীয় স্ট্রাইকার মোহাম্মদ সালাহর ইনজুরি। বিশ্বকাপে সালাহ খেলতে পারবেন কি পারবেনা এ নিয়ে তার ভক্তদের মনে একটু সন্দেহ ছিলো। তবে আশার আলো জানালেন মিসর ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। তিন সপ্তাহ পর মাঠে নামতে পারবেন লিভারপুলের এই স্ট্রাইকার।

এদিকে গত সোমবার জার্মানির কোচ জোয়াকিম লো ইনজুরি আক্রন্ত ম্যানুয়েল নয়্যারকে নিয়ে জার্মানির ২৩ সদস্যার চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেন। গত ১২ মাসে তিনবার পায়ের পাতার হাড় ভেঙেছেন জার্মান এই গোলকিপার। বছররে বেশিভাগ সময় তিনি মাঠের বাইরে কাটিয়েছেন। তাবে কঠোর পরিশ্রম করে আবার দলে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি মূল চূড়ান্ত দলে।

অন্যদিকে চোট আক্রান্ত আর্জেন্টিনার স্ট্রাইকার সার্জিও আগুয়েরোকে নিয়ে ২৩ সদস্যর চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছেন কোচ হোর্হে সাম্পাওলি। গত মার্চ থেকে বাম হাঁটুর চোটে পড়ায় মাঠের বাইরে থাকেন আগুয়েরো। তবে আর্জেন্টিনার কোচ জর্জে সাম্পাওলি আশা করেন ১৬ জুন মস্কোতে উদ্বোধনী ম্যাচের আগেই দলে ফিরবেন ম্যানচেস্টার সিটির এই তারকা স্ট্রাইকার।

গাইল দিয়েন না: তাসকিন

বাংলাদেশকে নাকানি-চোবানি খাইয়ে এক ম্যাচ আগেই টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতে নিলো আফগান। এখন হোয়াইট‌ওয়াশ হ‌ওয়ার শঙ্কায় আছে সাকিব আল হাসানের দল। বোলিং কিংবা ব্যাটিং সব বিভাগেই সেরা নৈপুন্য দেখিয়েছে আফগানরা। প্রথম দুই টি-টোয়েন্টি হেরে বাংলাদেশি খেলোয়াড়রা যখন হতাশায় মুষড়ে পড়েছেন তখন ক্ষোভে ক্ষিপ্ত বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা।

খেলোয়াড়দের সমালোচনা হতেই পারে কিন্তু অতিরঞ্জিত হয়ে গালাগালি কিংবা খারাপ ভাষা ব্যবহার করা মোটেই ঠিক হবে না। বাংলাদেশ দলের পেসার তাসকিন আহমেদও সকলের কাছে অনুরোধ করলেন গালাগাল না করতে। অবশ্য চোট এবং পারফরমেন্সের কারণে এই সিরিজ থেকে বাদ পড়েছেন তাসকিন।

তবে প্রিয় বাংলাদেশের খেলা ঠিকই দেখছেন। নিজেও হতাশ হয়েছেন এমন হারে কিন্তু আপামর ক্রিকেটপাগল মানুষদের অতিরঞ্জিত গালাগাল তার ভালো লাগেনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের আইডিতে তাসকিন বলেন, ‘সাপোর্ট করেন ভাই। গাইল দিয়েন না। নিজের দেশের মানুষই তো। দেখতে খারাপ লাগে। খারাপ হতেই পারে। ইচ্ছা করে তো আর খারাপ করতেছে না। আজকে হচ্ছে না কাল হবে। নিজের চিন্তাভাবনা থেকে একটু বাইরে এসে চিন্তা করেন। জিনিসগুলো সহজ হবে।’

সিরিজে হার বাংলাদেশের

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশকে ৬ উইকেটে হারিয়ে এক ম্যাচ আগেই সিরিজ জিতল আফগানিস্তান। জিম্বাবুয়ে ছাড়া অন্য কোনো টেস্ট খেলুড়ে দেশের বিপক্ষে আফগানদের এটিই প্রথম সিরিজ জয়। ভারতের দেরাদুনে মঙ্গলবার বাংলাদেশের দেয়া ১৩৫ রানের টার্গেট ৭ বল বাকি রেখেই স্পর্শ করে আফগানরা।

আটসাট ব্যাটিংয়ের পর সংগ্রামী বোলিং। স্বল্প পুঁজি নিয়েও লড়াই করছিল বাংলাদেশ। বোলাররা শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত বাংলাদেশকে ম্যাচে রেখেছিল। ফিল্ডাররাও দারুণ সমর্থন করেছিল। কিন্তু মোহাম্মদ নবীর ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে স্বপ্নভঙ্গ বাংলাদেশের। ৬ উইকেটের জয়ে সিরিজ জিতল আফগানিস্তান। আর এক ম্যাচ হাতে রেখেই হোয়াইট ‌ওয়াশের শঙ্কায় এখন সাকিব আল হাসানের দল। এ সিরিজ জয়ে নতুন ইতিহাস গড়ল আফগানরা। জিম্বাবুয়ে বাদে কোনো টেস্ট খেলুড়ে দলের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের রেকর্ড ছিল না ওদের। দেরাদুনের মাটিতে সেই ইতিহাস গড়লেন নবী-রশিদ খানরা।

টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে ৮ উইকেটে বাংলাদেশের পুঁজি মাত্র ১৩৪ রান। জবাবে ৬ উইকেট হাতে রেখে ৭ বল আগেই লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে আফগানিস্তান। বাংলাদেশের স্কোর আরও বড় হতে পারত। কিন্তু ওই পুরোনো রোগে আক্রান্ত ব্যাটসম্যানরা। ১২০ বলের খেলায় ৫৩ বলই ছিল ডট।

মোহাম্মদ নবী শেষটা রাঙালেও জয়ের ভিত গড়ে দিয়েছিলেন বাংলাদেশের জন্য ‘জুজু’ হয়ে থাকা রশিদ খান। প্রথম ম্যাচে নিয়েছিলেন ৩ উইকেট। আর দ্বিতীয় ম্যাচে নেন তিনি ৪টি। এক ওভারেই রশিদ নেন ৩ উইকেট। খেলার ১৬ তম ‌ওভারে, সাকিবের পর সাজঘরে ফেরেন বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৩ রান করা তামিম ইকবাল। পরের বলে উল্টো বল বুঝতে ব্যর্থ হয়ে লেগ বিফোর হন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। রশিদ খান, বাংলাদেশের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকেন সৌম্য সরকারের উইকেট তুলে নিয়ে। ১২ রানে ৪ উইকেট রশিদের, তাই ম্যাচ সেরা বাছাই করতে কোনো কষ্টই হয়নি ।

সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলা রুই

বিশ্বকাপে খেলা ৩২ দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে সবেচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছেন স্পেনের খেলোয়াড়রা। আর ব্যক্তিগতভাবে বেশি সময় খেলেছেন পর্তুগাল ‌ও স্পোর্টিং লিসবনের গোলকিপার রুই প্যাট্রিসিয়া‌ও। ৫ হাজার ৫৮০ মিনিট মাঠে থেকে তিনি ৬১টি ম্যাচ খেলেন। এদিকে, ইংলিশ খেলোয়াড়রা আছেন চতুর্থ স্থানে। স্পেনের পরেই বেশি ম্যাচ খেলেছে ফ্রান্স এবং ব্রাজিলের খেলোয়াড়রা। সুইজারল্যান্ড ভিত্তিক একটি জরিপ প্রতিষ্ঠান ‘সিআইইএস ফুটবল অবর্জাভারি’ গত এক বছর খেলোয়াড়দের বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত ঘেটে এমনই কথা প্রকাশ করেছে।

স্পেনের খেলোয়াড়রা ইংলিশদের চেয় ১০ হাজার মিনিটের‌ও বেশি সময় খেলেছেন। ফ্রান্স ৫ হাজার আর ব্রাজিলের খেলোয়াড়রা খেলেছেন ৪ হাজার মিনিট বেশি। ২০১৭ সালের ১ জুলাই থেকে ২০১৮ সালের ৩১ মে পর্যন্ত বিভিন্ন লিগের তথ্য-উপাত্ত নিয়ে জরিপ চালানোর পরে এই রিপোর্ট প্রকাশ করে ‘সিআইইএস ফুটবল অবর্জাভারি’।

ইংল্যান্ডের কোচ গ্যারেথ সাউদগেটের শিষ্যরা ৭৬ হাজার ৪৭৬ মিনিট ফুটবল খেলেন। অর্থাৎ এক একজন গড়ে ৩ হাজার ৩২৫ মিনিট মাঠে ছিলেন। এবং গড়ে ৩৭টি করে পুরো ম্যাচ খেলেন।

পর্তুগিজ প্যাট্রিসি‌ওর পরে আছেন ক্রোয়েশিয়ার ডিফেন্ডার দুজে সেলেটা-কার। এই তালিকার চতুর্থ স্থানে আছেন, আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড লি‌ওনেল মেসি। অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের সাউল নিগুয়েজের পরেই আছেন মেসি। ৫ হাজার আট মিনিটে ৬০টি ম্যাচে মাঠে ছিলেন এই আর্জেন্টাইন তালিসমান। তবে এই তালিকার শীর্ষ দশে কেনো ইংলিশ খেলোয়াড়ের নাম নেই।

মেসির পশু বন্দনা

বিশ্বকাপের খেলার আগে পশু বন্দনায় মেতেছেন আর্জেন্টিনার মহাতারকা লি‌ওনেল মেসি। নিউইয়র্ক ভিত্তিক ‘পেপার ম্যাগাজিনে’ বেশকিছু পশুর সঙ্গে ছবি‌ও তুলেছেন আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ের এই স্বপ্নসাধক।

পশুপাখির প্রতি ভালোবাসার অংশ হিসেবে মেসি হাল্ক নামের একটি কুকুরও পোষেন। পশুপাখির প্রতি ভালোবাসা নিয়ে মেসি বলেন, ‘পশুপাখিদের একজন বড় ভক্ত আমি। আমি তাদের সঙ্গে বড় হয়েছি এবং তারা আমাকে অনেক কিছু শিখিয়েছে।’

‘এখন আমাদের হাল্ক নামে একটি কুকুর আছে, সে আমাদের পরিবারের অংশ, আমরা সব সময় তাকে সঙ্গে রাখি। আমাদের সন্তানরা হাল্কের থেকে অনেক কিছু শেখে। বাচ্চাদের ও তার মধ্যে যে ভালোবাসা দেখা যায়, তা অপরিবর্তনীয়’- এমনটাই জানান, পাঁচবারের বর্ষসেরা এই ফুটবলার।

রাশিয়া বিশ্বকাপে ‘ডি’ গ্রুপে দুবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনার সঙ্গী আইসল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া ও নাইজেরিয়া। ১৬ জুন আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে মেসিদের বিশ্বকাপ অভিযান।

বিশ্ব মাতবে বিশ্বকাপে

পৃথিবীর অন্য দেশগুলোর মতো বিশ্বকাপ ফুটবল জ্বরে আক্রান্ত পুরো দেশ। চার বছর পর পর আবারও বইছে বিশ্বকাপের হাওয়া। রাশিয়া বিশ্বকাপের ফুটবল শৈলিতে মেতে উঠতে, পৃথিবীর সেরা খেলোয়াড়দের পায়ের জাদু মুগ্ধ হয়ে দেখতে রাশিয়ার সাথে প্রস্তুত গোটা বাংলাদেশ। সময়ের পরিক্রমায় পেরিয়ে গেছে চারটি বছর। দরজায় কড়া নাড়ছে আর একটি বিশ্বকাপ আসর। ইতোমধ্যেই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে ফুটবল সমর্থকদের মনে। প্রস্তুতি চলছে বাড়ির ছাদে নিজ সমর্থক দলের পতাকা ‌ওড়ানো। এ যেন এক প্রতিযোগিতা। এলাকার চায়ের দোকানগুলো কিছু দিনের জন্য রাজনৈতিক আলোচনাকে পাশ কাটিয়ে ফুটবল তর্কে মেতে উঠেবে। এ যেন এক অন্যরকম উন্মাদনা। আর মাএ ৯ দিন পর জুনের ১৪ তারিখে মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামের মাঠে গড়াচ্ছে বহু কাক্ষিত ফুটবল টুর্নামেন্ট ‘দ্যা গ্রটেস্ট শো অন আর্থ’ -বিশ্বকাপ ফুটবলের ২১ তম আসর। দুরু দুরু বুকে ফুটবলপ্রেমীদের মধ্যে বিশ্বকাপের ক্ষণ গণনা শুরু হয়েছে। যেখানে অনুষ্ঠিত হবে ৬৪ টি ম্যাচ। অংশ নিচ্ছে ৩২ টি দেশ। এরপর ১৫ জুলাই পুরো রাশিয়া ঘুরে সেই লুঝনিকিতেই বসবে সমাপনী আসর, বিশ্বকাপের ফাইনাল।

বিশ্বকাপের ২১ তম আসর আয়োজন করার জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত আয়োজক দেশে রাশিয়া। ১১ টি শহরকে তারা প্রস্তুত করেছে ১২ টি স্টেডিয়াম। ইতোমধ্যেই প্রত্যেক দলগুলো তাদের নিজেদের ২৩ সদস্যর চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। সবগুলো দল তাদের সেরা খেলোয়াদের নিয়ে একাদশ সাজাবেন। দলগুলো তাদের শক্তিমত্তা পরীক্ষা করার জন্য ইতোমধ্যে অংশ গ্রহন করছে প্রস্তুতিমূলক ম্যাচে। বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে বেশ বড়সড় ধাক্কা খেলো গতবারে বিশ্বচ্যাম্পিয়ান জার্মানি। অপেক্ষাকৃত দুর্বল প্রতিপক্ষ অস্ট্রিয়ার কাছে ২-১ গোলে হেরেছে ফিফা র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষ দলটি। অন্যদিকে হাইতির বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে ৪-১ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপের দলগুলোর জন্য হুশিয়ারী বার্তা দিয়ে রাখলো দুইবারে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। সেই ম্যাচে লিওনেল মেসি হ্যাটট্রিক করে বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি এবার ফেভারেট দলগুলোর জন্য মাথা ব্যাথার কারণ।

অন্যদিকে জয় দিয়ে মাঠে ফিরলেন ব্রাজিলের সুপার স্টার নেইমার। লিভারপুলে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ২-০ গোলে জয় পায় ব্রাজিল। এই জয়ে ব্রাজিলের বিশ্বকাপ মিশনের আগে আত্মবিশ্বাস জোগাবে। তার চেয়ে বড় ব্যাপার, এই জয়ে ভেতর দিয়ে নেইমারের পূর্ন ছন্দে বিশ্বকাপ খেলাটা নিশ্চিত হলো। অন্য দিকে আরেক ম্যাচে বিশ্বকাপের আগে স্পেনকে সতর্ক করে দিল সুইজারল্যান্ড। গোলরক্ষকের ভুলের মাশুল দিয়ে ঘরের মাঠে সুইজারল্যান্ডর সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেই সস্তুষ্ট থাকতে হয় ২০১০ এর বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। আরেক ম্যাচে সুপার ঈগল নাজিরিয়ার বিপক্ষে ২-১ গোলে পরাজিত করে ইংল্যান্ড। তাই ১৪ জুন হাজারো অনুভূতি জম্ম দিতে বিশ্বকাপকে গ্রহণ করতে রাশিয়া সাথে প্রস্তুত বিশ্বের সকল ফুটবল সমর্থকরা।

পাকিস্তানকে হারাল বাংলাদেশের নারীরা

পাকিস্তানকে ৭ উইকেটে হারিয়ে নারী এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টিতে প্রথম জয় পেলো বাংলাদেশ। মালেয়শিয়ার কুয়ালালামপুরে, পাকিস্তানের ৫ উইকেটে ৯৫ রানের জবাবে ১৩ বল বাকী থাকতেই ৯৬ রান তুলে জয় পায় ৩ উইকেট হারানো বাংলাদেশের মেয়েরা।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রিত পাকিস্তান সালমা-জাহানারার নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে শুরু থেকেই চাপে পড়ে। নাহিদা আক্তারের ২ উইকেট শিকারে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৯৫ রান তোলে পাকিস্তান। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২১ রান করে অপরাজিত থাকেন সানা মীর। জাভেরিয়া খান করেন ১৮ রান।

জবাবে শামীমা, নিগার ও ফাহিমার ব্যাটিং দৃঢ়তায় মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে ১৩ বল বাকি থাকতেই জয় তুলে নেন বাংলাদেশের নারীরা। শামীমা ও নিগার করেন ৩১ রান করে। ফাহিমা ১৯ বলে ২৩ রান করে অপরাজিত থাকেন। আগামী বুধবার পরের ম্যাচে ভারতের মুখোমুখি হবেন সালমা-জাহানারার দল।

আবার‌ও রোনালদো

রিয়াল মাদ্রিদে থাকা না থাকা বিতর্ক আর বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে নিজের দেশ যখন জিততে না পারার আক্ষেপ নিয়ে পুড়ছে, তখনই পর্তুগালের মহাতারকা ছুটিতে ব্যস্ত সময় পার করে বান্ধবীসহ ধরা পড়লেন। সাংবাদিকের লেন্স ঠিকই তাকে খুজে বের করেছ। স্পেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর কোস্টা ডেল সুল-এ বান্ধবী জর্জিনা রড্রিগুয়েজসহ ছুটি কাটিয়ে মালাগা বিমান বন্দরে ফিরছিলেন তারা।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পঞ্চম ট্রফি জয়কে উদযাপন করবার জন্য এই সপ্তাহেই পরিবার-পরিজন ‌ও বন্ধু-বান্ধব নিয়ে মারবেল্লাতে বেড়াতে যান রিয়াল মাদ্রিদের তারকা খেলোয়াড় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ছুটি শেষে একটি প্রাইভেট বিমানে করে রবিবার ফিরে আসেন তারা। ক্যামেরায় ধরা পড়েন রোনালদো এবং জর্জিনা রড্রিগুয়েজ।

ছুটি কাটানোর সময় রোনালদো তার বন্ধু মিগুয়েল পিয়াক্সা‌ওয়ের সঙ্গে টেনিস‌ও খেলেন। ৩৩ বছর বয়সী রোনালদো ছুটি কাটানো জন্য পর্তুগালের হয়ে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ মিস করবেন।

নেইমার-মড্রিচ জার্সি বিনিময়

প্রীতি ম্যাচে পরাজয়ের বেদনা ছিলই। কিন্তু যে সেরা তাকে তো স্বীকৃতি দিতেই হবে। এনফিল্ডে ব্রাজিলের কাছে ২-০ গোলে পরাজয়ের পর তেমনই এক কান্ড করলেন, ক্রোয়েশিয়া ‌ও রিয়াল মাদ্রিদের লুকা মড্রিচ। বিশ্বের সবচেয়ে দামী খেলোয়াড় নেইমারের জার্সিটা চেয়ে নিলেন। তবে নেইমার‌ও ভদ্রতা করতে ভুললেন না। তিনি‌ও চেয়ে নিলেন মড্রিচের জার্সিটি।

জার্সি বিনিময়ের সঙ্গে নিজেদের অটোগ্রাফ‌ও বিনিময় করেন দুই দেশের এই দুই তারকা। ব্রাজিলের ২-০ গোলের জয়ে নেতৃত্ব দেন, সেলেসা‌ওদের প্রাণ ভোমরা নেইমার। তিনি প্রথম গোলটি করেন।

আফগানিস্তানের কাছে হেরেই গেল বাংলাদেশ

অবশেষে আফগানিস্তানের কাছে হেরেই গেলো বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তিন ম্যাচের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৪৫ রানের বড় ব্যবধানে সাকিব আল হাসানের দলকে হারিয়ে সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেলো আফগানরা। ভারতের দেরাদুনে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করে ৮ উইকেটে ১৬৭ রান তোলে আফগানিস্তান। জবাবে, এক ‌ওভার বাকী থাকতেই ১২২ রানে অল আউট হয় বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা।

আগফানিস্তানের বিপক্ষে ১৬৮ রানের টার্গেটে নেমে বিপদে পড়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। দলের ৭৯ রানে হারায় তারা তামিম, সাকিব, লিটন, মুশফিক ‌ও সাব্বির রহমানের উইকেট। আর ম্যাচে ফেরা হয়নি টাইগারদের। তখন‌ই ম্যাচটা হাতছাড়া হয়ে যায়। বাকী সময়টা শুধু পরাজয়ের ব্যবধান কমানোর চেষ্টাই করে যান, পরের ব্যাটসম্যানরা। ৬ বল বাকী থাকতে ১২২ রানে অল আউট হয় সাকিব আল হাসানের দল।

২০ বলে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩০ রান করে মোহাম্মদ নবীর বলে লেগ বিফোর হয়ে সাজঘরে ফেরেন লিটন দাস। ২৫ বলে ২৯ রান করেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। মুশফিকুর রহিম ২০ আর অধিনায়ক সাকিব আল হাসান করেন ১৫ রান। বাংলাদেশের বিপক্ষে ভীতি জাগানো বোলিংয়ে ১৩ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হন, স্পিনার রশীদ খান।

এর আগে, ভারতের দেরাদুনে টসে হেরে ব্যাট করে, বাংলাদেশের বিপক্ষে ৮ উইকেটে ১৬৭ রান সংগ্রহ করে আফগানিস্তান। নিজের উইকেট দেয়ার আগে সাত নম্বরে ব্যাট হাতে ৮ বলে ২৪ রান করেন শাফাকুল্লাহ। মোহাম্মদ শাহজাদ ৪০, সামিউল্লাহ শেনওয়ারি ৩৭, উসমান গনি ২৬ ও আসগর স্তানিকজাই করেন ২৫ রান। ইনিংসের শেষ ওভারে এক রান আউটসহ তিন উইকেট তুলে নেয় টাইগাররা। বাংলাদেশ দলের বোলারদের মধ্যে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ‌ও পেসার আবুল হাসান রাজু দুটি করে উইকেট নেন।

দেরাদুনে আগামী ৫ জুন সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে আবার‌ও মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ‌ও আফগানিস্তান।

আবার‌ও সেরেনা-শারাপোভা লড়াই

আবার‌ও সেরেনা উইলিয়ামস ‌ও মারিয়া শাপাপোভার মধ্যে লড়াই হচ্ছে। সোমবার ভোরে ফ্রেঞ্চ ‌ওপেনের শেষ ষোলতে মুখোমুখি হবেন তারা।

জার্মানির ইউলিয়া গর্গেসকে উড়িয়ে দিয়ে ফরাসি ওপেনের শেষ ষোলোয় ‌ওঠেন সেরেনা উইলিয়ামস। কোয়ার্টার-ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে তার প্রতিপক্ষ রুশ তারকা মারিয়া শারাপোভা। গত বছর কন্যা সন্তানের জন্ম দেয়া সেরেনা আসরের একাদশ বাছাই গর্গেসকে ৬-৩, ৬-৪ গেমে হারান।

এর আগে দিনের অন্য ম্যাচে ষষ্ঠ বাছাই চেক রিপাবলিকের কারোলিনা প্লিসকোভাকে ৬-২, ৬-১ গেমে উড়িয়ে দেন ফরাসি ওপেনে দুই বারের চ্যাম্পিয়ন মারিয়া শারাপোভা। ৩৬ বছর বয়সী যুক্তরাষ্ট্রের সেরেনা ও ৩১ বছর বয়সী শারাপোভা আগামীকাল শেষ আটে ওঠার লড়াইয়ে কোর্টে নামবেন।

আফগানদের বিপক্ষে বিপদে বাংলাদেশ

তিন ম্যাচের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে আগফানিস্তানের বিপক্ষে ১৬৮ রানের টার্গেটে নেমে বিপদে পড়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। ১৬ ‌ওভার শেষে ৫ উইকেটে তুলেছে ১০৭ রান। ২৪ বলে আরো প্রয়োজন ৬১ রান।

এর আগে, ভারতের দেরাদুনে টসে হেরে ব্যাট করে, বাংলাদেশের বিপক্ষে ৮ উইকেটে ১৬৭ রান সংগ্রহ করে আফগানিস্তান। নিজের উইকেট দেয়ার আগে সাত নম্বরে ব্যাট হাতে ৮ বলে ২৪ রান করেন শাফাকুল্লাহ। মোহাম্মদ শাহজাদ ৪০, সামিউল্লাহ শেনওয়ারি ৩৭, উসমান গনি ২৬ ও আসগর স্তানিকজাই করেন ২৫ রান। ইনিংসের শেষ ওভারে এক রান আউটসহ তিন উইকেট তুলে নেয় টাইগাররা। এতে জোড়া উইকেট পান পেসার আবুল হাসান রাজু।

ইনজুরি থেকে ফিরেই নেইমারের অ্যাকশন

ইনজুরি থেকে ফিরেই নেইমারের অ্যাকশন। তাতে প্রীতি ম্যাচে বিশ্বকাপের হেক্সা জয়ের মিশনে থাকা ব্রাজিলের কাছে ক্রোয়েশিয়ার পরাজয়। রাশিয়া বিশ্বকাপের আগে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে লিভারপুলের মাঠ এনফিল্ডে ক্রোয়েশিয়াকে ২-০ গোলে পরাজিত করেছে ব্রাজিল। সেলেসা‌ওদের মহাতারকা নেইমার করেন প্রথম গোল। অন্যটি রবার্টো ফিরমিনো।

প্রথমার্ধের খেলায় ব্রাজিলকে চেনাই যায়নি। পারফরম্যান্স ছিল হতাশাজনক। উল্টো ক্রোয়েশিয়া বেশ কয়েকটি আক্রমণে কাপিয়ে দিয়েছিল সেলেসা‌ওদের রক্ষণপ্রাচীর। বল পেতেই লড়তে হচ্ছিল বাছাইপর্ব পেরিয়ে সবার আগে রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকেট পা‌ওয়া দলটিকে। দূরপাল্লার শটে দুবার চেষ্টা চালান ফিলিপে কুটিনহো। কিন্তু কোনোবারই তা লক্ষ্যে থাকেনি। সাইড লাইনে বসে নিশপিস করছিলেন নেইমার সতীর্থদের ব্যর্থতা দেখে।

দ্বিতীয়ার্ধের প্রথম মিনিটেই ফের্নানদিনিয়োকে তুলে নেইমারকে নামান কোচ তিতে। আর ৬০ মিনিটে গাব্রিয়েল জেসুসের বদলি নামেন ফিরমিনো। ৬৯ মিনিটে গোলের দেখা মেলে। বার্সেলোনা তারকা কুটিনহোর বাড়ানো বল ধরে বাঁ-দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে কিছুটা এগিয়ে এক ঝটকায় দুজনের মধ্যে দিয়ে বেরিয়ে যান নেইমার। সঙ্গে থাকা আরেকজনকে কোনো সুযোগ না দিয়ে জোরালো শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার।

আন্তর্জাতিক ফুটবলে নেইমারের এটি ৫৪তম গোল। আর একটি গোল করলেই দেশের পক্ষে সর্বোচ্চ গোলের তালিকায় তৃতীয় স্থানে থাকা রোমারিওকে স্পর্শ করবেন ২৬ বছর বয়সী নেইমার। ইনজুরি টাইমের তৃতীয় মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ফিরমিনো। অনেক দূর থেকে ক্রস বাড়ান রিয়াল মাদ্রিদের ডিফেন্ডার কাসিমেরো। আর অফসাইডের ফাঁদ ভেঙে ডি-বক্সে ঢুকে বুক দিয়ে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আগুয়ান গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন লিভারপুল ফরোয়ার্ড ফিরমিনো।

আগামী ১৭ জুন সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে ব্রাজিলের বিশ্বকাপ যাত্রা। ‘ই’ গ্রুপে তাদের অপর প্রতিপক্ষ কোস্টারিকা ও সার্বিয়া।

শ্রীলঙ্কার কাছে হারল বাংলাদেশের নারীরা

এশিয়া কাপ নারী ক্রিকেটে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে ৬ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ। মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে টসে হেরে ব্যাট করে, মাত্র ৬৩ রানে অলআউট হয় সালমা খাতুনের দল। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১১ রান করেন আয়েশা রহমান। রুমানা আহমেদ ও নিগার সুলতানা উভয়েই ১০ রান করেন।

শ্রীলঙ্কার বোলারদের মধ্যে সুগন্ধিকা কুমারী ১৭ রানে ৩টি উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হন। জবাবে, ৪ উইকেটে ৬৪ রান তুলে ৩৩ বল বাকী থাকতেই জয় পায় শ্রীলঙ্কা। আগামীকাল বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান।

টানা চতুর্থ বিশ্বকাপে কাহিল

টানা চতুর্থ বিশ্বকাপ খেলার জন্য দলে ডাক পেয়েছেন টিম কাহিল। অস্ট্রিলয়া আজ রবিবার রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। তাতে রাখা হয়েছে দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ খেলোয়াড় টিম কাহিলকে। ২৩ জনের সকারুদের দলে আছে, তিন গোলকিপার, সাত ডিফেন্ডার, ছয় মিডফিল্ডার এবং সাত স্ট্রাইকার।

এতে ফুটবলের জীবন্ত কিংবদন্তি পেলের মতো টানা চার বিশ্বকাপে গোল করার সুযোগ পাচ্ছেন টিম কাহিল। সকারুদের ৩৮ বছর বয়সী ফরোয়ার্ডকে দলে নিয়েছেন কোচ বার্ট ভ্যান মারউইক। জাতীয় দলের হয়ে ১০৫ ম্যাচ খেলা কাহিল দেশের পক্ষে সর্বোচ্চ গোল‌ও করেছেন। তবে বর্তমানে তার সময়টা ভালো যাচ্ছেনা। খেলছেন ইংল্যান্ডের মিল‌ওয়াল (Millwall) দলে।

মাত্র তিনজন খেলোয়াড়ের চার বিশ্বকাপে গোল করার কৃতিত্ব আছে। তারা হলেন- ব্রাজিলের পেলে এবং জার্শানির স্ট্রাইকার উই সিলার (Uwe Seeler) ‌ও মিরোস্লাভ ক্লোসা।

ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ আজ ক্রোয়েশিয়া

গত সপ্তাহেই ইউক্রেনের মাঠে লিভারপুলকে হারাতে কাধে কাধ মিলিয়ে লড়েছেন ব্রাজিলের মার্সেলো ‌ও ক্রোয়েশিয়ার লুকা মরডিচ। তখন ছিলেন আত্মার পরমাত্মীয়। এবার সেই লিভারপুলের মাঠ এনফিল্ডেই আজ রবিবার রাতে এবার একে অন্যকে হারাতে লড়বেন মার্সেলো ‌ও লুকা।

রাশিয়া বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে লিভারপুলের মাঠ এনফিল্ডে মুখোমুখি হবে বিশ্বকাপের হেক্সা জয়ের মিশনে নামা ব্রাজিল ‌ও আইসল্যান্ডের পেছনে থেকে মূল পর্বে উঠে আসা ক্রোয়েশিয়া। ২০১৪ তে সবশেষ ব্রাজিল বিশ্বকাপে মুখোমুখি হয়েছিলো দু দল। সেখানে ক্রোয়েটদের বিপক্ষে ৩-১ এ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে সেলেসাওরা।

এ ম্যাচ দিয়েই মাঠে ফিরছেন দলের মহাতারকা নেইমার। প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের হয়ে গত ফেব্রুয়ারিতে ইনজুরির পর থেকে মাঠের বাইরে আছেন তিনি। কোচ তিতে আশা করছেন পুরো সময়ই খেলতে পারবেন নেইমার।

এদিকে এ ম্যাচ দিয়েই নিজের চূড়ান্ত স্কোয়াড খুঁজে নেবেন ক্রোয়েশিয়ান কোচ জাতকো দালিচ। ইভান রাকিটিচ, লুকা মদ্রিচ এবং মানজুকিচদের মতো তারকা খেলোয়াড় নিয়ে এবার গ্র“প ডি’ তে আর্জেন্টিনা, নাইজেরিয়া এবং আইসল্যান্ডের বিপক্ষে খেলবে ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের ১৮ নম্বর দলটি।

প্রীতি ম্যাচে জার্মানির পরাজয়

প্রীতি ম্যাচে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে হারিয়ে চমকে দিয়েছে অস্ট্রিয়া। রাতে তারা অস্ট্রিয়ার ক্লাগেনফোর্ট স্টেডিয়ামে, ২-১ গোলে পরাজিত করে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। অবশ্য দুর্যোগপূর্ণ আবহা‌ওয়ার কারণে নির্ধারিত সময়ের ১ ঘন্টা ৩৫ মিনিট পরে শুরু হয় খেলা। গত ৩২ বছরে অস্টিয়ার কাছে জার্মানির এটি প্রথম পরাজয়।

ইনজুরি থেকে পুর্ণবাসন প্রক্রিয়ায় থাকা জার্মানির সেরা গোলকিপার ম্যানুয়েল ন্যূয়ার অধিনায়কত্ব‌ও করলেন এই বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে; এমনকি প্রথমে গোল করে এগিয়ে‌ও গিয়েছিল জার্মানরা। তবু শেষ পর্যন্ত হারতে হলো তাদেরকে বিশ্বকাপের বাছাই পর্বেই বাদ পড়া অস্ট্রিয়ার কাছে।
খেলা শুরুর ১১ মিনিটেই মেসুত ‌ওজিলের কল্যাণে লিড নেয় জোয়াকিম লো’র দল।

বিরতি থেকে ফিরেই গোল পরিশোধের চেষ্টা করতে থাকে অস্ট্রিয়া। ৫৩ মিনিটে ম্যাচে সমতা ফেরান মার্টিন হিটারেজার। ডেভিড আলাবার কর্নার থেকে বল পেয়ে দারুণ শটে তিনি জালে জড়ান। ম্যানুয়েল ন্যূয়ার ‌ও জোনাস হেক্টরের তাকিয়ে দেখা ছাড়া করার কিছুই ছিলনা।

৬৯ মিনিটে অস্ট্রিয়াকে ২-১ গোলের লিড এনে দেন আলেসান্দ্রো স্কুপফ। জার্মান সীমানায় বাম প্রান্ত থেকে জুলিয়ান বল দেন স্টেফান লাইনারকে। তার কাছ থেকে স্কুপফ বল পেয়ে দলকে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে দেন। শেষ পর্যন্ত ২-১ ব্যবধানে জয় নিয়ে ঘরে ফেরে অস্ট্রিয়া।

রোনালদো ছাড়ছেনই রিয়াল

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে হ্যাটট্রিক শিরোপা জয়ের পর ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর কথাবার্তায় চমকে গিয়েছিলেন রিয়াল মাদ্রিদের ভক্ত-সমর্থক থেকে শুরু করে ক্লাবের সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ‌ও। এমন উৎসবের দিনে ভাঙ্গনের সুর! কিন্তু রোনালদোর ক্লাব সতীর্থরা মোটেই অবাক হননি। তারা যেনো জানতেনই রোনালদো যাচ্ছেনই। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালটাই রিয়ালের হয়ে তার খেলা শেষ ম্যাচ।

স্প্যানিশ জনপ্রিয় দৈনিক মার্কা রোনালদোর সতীর্থদের বরাত দিয়ে তার মাদ্রিদ ছাড়ার খবরটি নিশ্চিত করে। জিদানের পদত্যাগের পর রোনালদোর চলে যেতে চা‌ওয়ায় একটু বেকায়দায় পড়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। এদিকে, ইংলিশ প্রভাবশালী দৈনিক পত্রিকাগুলো জানায়, পর্তুগিজ তালিসমান রোনালদো আবার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডেই ফিরছেন।

টিম টু ওয়াচ: আর্জেন্টিনা

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, আর্জেন্টিনার কথা।

বিশ্বকাপে বরাবরই হট ফেভারিট আর্জেন্টিনা। শিরোপা জয়ে ব্রাজিল, জার্মানি কিংবা ইটালির থেকে পিছেয়ে থাকলেও ধারাবাহিক সাফল্যের মাপকাঠিতে আর্জেন্টিনা সেরাদের সেরা। দলটি এখন পর্যন্ত পাঁচবার বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলেছে। কিন্তু ট্রফি জিতেছে মাত্র দুইবার (১৯৭৮,১৯৮৬)। এই রেকর্ড সত্যিই আর্জেন্টিনা দলের সাথে বেমানান। ১৯৯০ সালে জার্মানির সাথে বিতর্কিত এক পেনল্টিতে পরাজিত হয় লা-আলবিলেস্তেরা। সবশেষ ২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপে আবার‌ও সেই জার্মানির কাছে অতিরিক্ত সময়ের গোলে পরাজিত হয়ে তৃতীয় শিরোপা হাতছাড়া করে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা।

এছাড়াও তাদের চারবার (১৯৬৬,১৯৯৮,২০০৬,২০১০) কোয়ার্টার ফাইনাল খেলার অভিঞ্জতা আছে। কোপা আমেরিকায় তার ১৪ টি শিরোপা জিতে সুনাম কুড়িয়েছে অনেক। ফ্রান্স ছাড়া জাতীয় দলগুলোর মধ্যে অর্জেন্টিনা একমাত্র দল যেখানে ফিফা স্বীকৃত শীর্ষস্থানীয় তিনটি শিরোপা জিতেছে। ২০০৭ সালে আর্জেন্টিনা প্রথমবারে মত ফিফা র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ উঠে আসে।

ফুটবলপ্রেমীরা আর্জেন্টিনা বলতেই পাগল। তাদের টিম ওয়ার্ক এবং প্রতিটি পজিশনের জন্য রায়েছে ওয়ার্ল্ড ক্লাস প্লেয়ার। তাদের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র পাসের দূরন্ত শটগুলো যে কত ভয়ংকর তা ইতোমধ্যে সবাই দেখেছে। টিম স্পিরিটে পরিপূর্ন দলটি সবসময় প্রতিপক্ষের কাছে হুমকি। কাউন্টার অ্যাটকে তারা খুবই বিপদজনক। যেকোন মুহূর্তে প্রতিপক্ষের জালে বল জড়াতে পারেন দলের ফরোয়ার্ডরা। তাইতো টিভির সামনে বসে তাদের প্রশংসা করতে ভোলেন না আর্জেন্টিনার সমর্থকরা।

তবে সবশেষ বিশ্বকাপ জিতেছে আর্জেন্টিনা ১৯৮৬ সালে। কিংবদন্তি ম্যারাডোনার জাদুতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর কেটে গেছে ৩২ বছর। তাই এবার শিরোপা পূনরুদ্ধারে জন্য অভিঞ্জদের নিয়ে ২৩ সদস্যর চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছেন কোচ হোর্হে সাম্পাওলি। তবে চূড়ান্ত দলে জায়গা হয়নি চলতি মৌসুমে ৩৪ ম্যাচে যৌথভাবে সর্বোচ্চ ২৯ গোল করা ইন্টার মিলানের অধিনায়ক মাউরো ইকার্দির। এছাড়া আর্জেন্টিনা শিবিরের জন্য দু:সংবাদ বয়ে এনেছে সেরা গোলরক্ষক সের্হিও রোমেরো ইনজুরি। যে কারনে এবারে বিশ্বকাপ খেলা হচ্ছে না তার। তবে এবারে আসরে নিজেদের ফেবারেট মানছেন সাম্পাওলি। কারণ তার আস্থার জায়গা সর্বকালের সেরা খেলোয়াড় লিওনেল মেসি। মেসিই যে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় এই নিয়ে কারো দ্বিমত থাকার কথা নয়। ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে আক্রমনের মূল দায়িত্বে থাকবেন বার্সার এ্ই স্ট্রাইকার। বাছাই পর্বে ধুঁকতে থাকা আর্জেন্টিাকে একাই তুলেছেন বিশ্বকাপে। গতি, ড্রিবলিং, ডিফেন্সে-নিখুঁত পাস, দুর পাল্লার শট, গোল স্কোরিং ক্ষমতা, সতীর্থদের দিয়ে গোল করানোর ক্ষমতা, প্লে মেকিং অ্যাববিলিট কি নেই তার মধ্যে?তাই তো আকাশি-সাদা সমর্থকরা মোসির কাধে চেপেরই এবার বিশ্বকাপ জেতার স্বপ্ন দেখছে।

লিওনেল মেসি হলেন আর্জেন্টিনা দলের তালিসমান। অসাধারন ফুটবল শৈলি প্রদর্শন করে ইতোমধ্যেই সেরাদের সেরা নির্বাচিত হয়েছেন ৩০ বছরের এই স্টাইকার। যেকোন প্রতিপক্ষের জন্য আতঙ্কের এক নাম মেসি। মেসি ইতিহাসের প্রথম ফুটবলার হিসেবে পাঁচবার ফিফা ব্যালন ডি অর’ পুরস্কার জিতেছেন। এছাড়া প্রথম খেলোয়াড় হিসাবে তিনি তিনবার ইউরোপিয়ান সোনার বুট জিতেছেন। বার্সেলানার হয়ে মেসি সাতটি লা-লিগা, দুটি কোপা দেল রে, পাঁচটি স্প্যনিশ সুপার কোপা, চারটি উয়েফা চ্যাম্পিয়ান্স লিগ, দুটি উয়েফা সুপার কাপ এবং দুটি ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপ শিরোপা জয় করেন। মেসি প্রথম এবং একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে চারবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা‌ও হন। ২০১২ সালে চ্যাম্পিয়ান্স লিগে বেয়ার লেভারকুসেনের বিপক্ষে পাঁচ গোল করে ইতিহাস গড়েন। এতো গেল লিগ পর্বের কথা, জাতীয় দলের জার্সি গয়ে মেসি আরে ভয়ংকর। অনেকের মতে, মেসি শুধু লিগে গোল করে, জাতীয় দলে সে একদম বেমানান। কথাটি সর্ম্পূন্য ভুল। সবশেষ ৬ ম্যাচে জাতীয় দলের হয়ে দুটি হ্যাটট্রিক করেছেন তিনি। গত মঙ্গলবার হাইতির বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করার মধ্য দিয়ে জাতীয় দলে মেসির গোল হলো ৬৪ টি। গোলের হিসেবে লাতিন আমেরিকায় জাতীয় দলের হয়ে তার চেয়ে এগিয়ে একমাত্র পেলে (৭৭)। ২০১৪ সালে বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে নিয়ে গিয়েছিলেন ফাইনালে এবং টানা চার ম্যাচে সেরার পুরস্কার‌ও জেতেন তিনি। কিন্তু ভাগ্যের সহায়তা না পেয়ে হারতে হয় ফাইনালে। এছাড়া কোপা আমেরিকা ফাইনালে চিলির কাছে হরে গিয়ে অবসরে ঘোষণা দেন। পরে ভক্তদের অনুরোধে আবার ফিরে‌ও আসেন আকাশি-সাদা জার্সি গায়ে। এতো অর্জনের মধ্যে একটি আক্ষেপ থেকে যায় এই সেরা স্ট্রাইকারের। অবসরে আগে জাতীয় দলের হয়ে বিশ্বকাপ জিততে চান তিনি। তাই এবার মেসির সাথে আক্রামনভাগে যোগ্য সঙ্গিদের বেছে নিয়েছেন সাম্পাওলি। সাম্পাওলির নতুন আবিস্কার ক্রিশ্চিয়ান পাভুন। মেসির সাথে তার দারুন বোঝাপড়া। মেসি যদি ইঞ্জিন হয় আর পাভুন হলেন তৈল। তৈল ছাড়া ইঞ্জিন চলেনা। মেসি নির্ভরতা কমাতে আক্রমণভাগে রাখা হয়েছে পাওলো দিবালা, গঞ্জালো হিগুয়েন এবং অভিঞ্জ অ্যাগুয়েরাকে। আর মিডফিল্ডর দায়িত্বে থাকবে ম্যানুয়েল লানজিনি, ডি মারিয়া, ক্রিশ্চিয়ান পাভুন, জিওভনি লো সেলসো, এভার বানেগা, লুকাস বিগলিয়া, ম্যাক্সিমিলিয়ানো মেজা। ডিফেন্সে মূল ভরসা ক্রিশ্চিয়ান আনসালদি, গ্যাব্রিয়েল মার্কাদো, নিকোলাস ওটামেন্ডি, জাভিয়ারা মাশ্চেরানো, ফেড্রিকো ফাজিও, মার্কোস রোহো, মার্কোস আকুনা ‌ও নিকোলাস তাগালিয়াফিকো।

”ডি” গ্রুপে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ আইসল্যান্ড, নাইজেরিয়া এবং কোস্টারিকা। আগামী ১৬ জুন আইসল্যান্ডর বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শিরোপা মিশনে নামব আর্জেন্টিনা।

প্রীতি ম্যাচে ফ্রান্সের জয়

আন্তর্জাতিক প্রীতি ফুটবল ম্যাচে ইতালিকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে ফ্রান্স। অন্যদিকে ড্র হয়েছে মিশর-কলম্বিয়া এবং তিউনিশিয়া-তুর্কির ম্যাচ।

ঘরের মাঠ অ্যালিয়েঞ্জ রিভেরিতে, শুরু থেকেই আক্রমনাত্মক ছিল দিদিয়ের দেশামের দল। বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়া ইতালিয়ানরা পিছিয়ে পড়ে ম্যাচের আট মিনিটেই। স্যামুয়েল উমতিতি এগিয়ে নেন ফরাসীদের।

এরপর ২৯ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুন করেন গ্রিজম্যান। ৭ মিনিটের মাথায় বুনুচ্চি এক গোল শোধ করে চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের লড়াইয়ে ফেরানোর চেষ্টা করেন। তবে ৬৩ মিনিটে উসমান ডেম্বেলে আরো এক গোল করলে বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে ফ্রান্স।

অন্য ম্যাচে, মোহাম্মদ সালাহবিহীন মিশর রুখে দিয়েছে কলম্বিয়ানদের। তাই ৭০ ভাগ বল দখলে রেখেও জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারেনি হামেশ রদ্রিগেজরা। অন্যদিকে, বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া তিউনিশিয়ানদের ২-২ গোলে রুখে দিয়েছে তুরস্ক।

এতোদিনে জেলে যা‌ওয়ার ভয় ম্যারাডোনার

ফুটবলের ইতিহাসে সবচেয়ে আলোচিত, সমালোচিত এবং বিতর্কিত ঘটনা হলো ১৯৮৬ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আর্জেন্টাইন সুপারস্টার দিয়াগো ম্যারাডোনার হাত দিয়ে করা সেই গোল। ‘হ্যান্ড অব গড’ হিসেবে খ্যাতি পাওয়া গোলটি আর্জেন্টিনাকে দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপ ট্রফি এনে দিয়েছিল।

রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরুর আগে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ১৯৮৬ বিশ্বকাপের নায়ক ম্যারাডোনা মজা করে বলেছেন ‘ভিএআর প্রযুক্তি থাকলে সেদিন আমি গ্রেপ্তারও হতে পারতাম। ৮০ হাজার দর্শকদের সামনে চুরি করা সম্ভব নয়।’

১৯৮৬ সালের ২২ জুন, মেক্সিকো বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয়ার্ধ দেখল ম্যারাডোনা ম্যাজিক। দ্বিতীয়ার্ধে দুটি গোল করেন তিনি। ইংল্যান্ডকে ২-১ ব্যবধানে হারিয়ে সেমিফাইনালে চলে যায় আলবিসেলেস্তেরা।

ম্যাচের ৫১ মিনিটে মাঝমাঠের একটু সামনে বল পেয়ে দৌড় দেন ম্যারাডোনা। প্রতিপক্ষের এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে দুজনের মাঝখান দিয়ে ডি-বক্সের সামনে চলে আসেন। ইংল্যান্ডের রক্ষণভাগের ফুটবলারদের মেপে নিয়ে বলটা পাস দেন ভালদানোকে, নিজে ঢুকে পড়েন বক্সের ভেতরে। কিন্ত বল পায়ে রাখতে পারেননি ভালদানো, ইংলিশ ডিফেন্ডার স্টিভ হজ বলের দখল নিয়ে ক্লিয়ার করার বদলে উল্টে বল গোলকিপারে দিকে বল ঠেলে দেন। সেটা ধরতেই এগিয়ে এলে ইংলিশ গোলকিপার শিল্টনকে পরাস্ত করে লাফ দেন ডিয়াগো। এরপর ম্যারাডোনার বাঁহাতে লেগে বল জালে জড়িয়ে যায়।

বিতর্কিত গোল নিয়ে ইংল্যান্ড অভিযোগ করলেও ততক্ষণ সেলিব্রেশন শুরু করে দেয় আর্জেন্টিনা। রেফারিও গোলটিকে নায্য বলেই ঘোষণা করেন। ম্যাচ শেষে গোলটিকে ‘হ্যান্ড অফ গড’ বলে বর্ণনা করেন ম্যারাডোনা। দাবী করেন, ‘হাত নয় হেডেই গোল করেছেন তিনি’।

কিন্তু তিন দশক পর মত পাল্টেছেন আর্জেন্টিনার এই জীবন্ত কিংবদন্তি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমের এক সাক্ষাৎকারে দিয়োগোর কাছে জানতে চাওয়া হয়, বর্তমান সময়ের মতো ভিএআর থাকলে হ্যান্ড অফ গড নিয়ে আপনি কী যুক্তি দিতেন? প্রশ্ন শুনে হাসতে হাসতে তিনি উত্তর দেন, ‘সেসময় ভিএআর থাকলে কোনও কথাই হতো না, জেলে যেতে হতো আমাকে! আর এখন এমন গোল হলে একই ঘটনা ঘটত!’

র‌্যাঙ্কিংয়ে আর‌ও চার দেশ

আফগানিস্তান-আয়ারল্যান্ড যোগ হওয়ার পর ১২টি টেস্ট খেলুড়ে দেশ নিয়ে ৩ ফরম্যাটের আলাদা র‌্যাঙ্কিং প্রকাশ করেছে আইসিসি। এবার ওয়ানডে ফরম্যাটে যোগ হয়েছে আরো চারটি দল। নতুন যোগ হওয়া দেশগুলো হলো- স্কটল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, নেপাাল ও সংযুক্ত আরব আমিরাত।

এতে র‌্যাঙ্কিংয়ের ১৩তম স্থানে প্রবেশ করেছে স্কটিশরা। তাদের পয়েন্ট ২৮। আর ১৮ পয়েন্ট নিয়ে স্কটল্যান্ডের ঠিক পেছনে আছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। ডাচদের পয়েন্ট ১৩। সদ্য ওয়ানডে স্ট্যাটাস পাওয়া নেপাল এখনো কোন পয়েন্ট অর্জন করতে পারেনি। ৪টি ওডিআই খেললে র‌্যাঙ্কিংয়ে নাম উঠবে নেপালের।

বর্তমানে ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে দলের সংখ্যা হলো ১৬টি। এরমধ্যে ১৪ দলের র‌্যাঙ্কিং প্রকাশিত হযেছে। নেপাল ও নেদারল্যান্ডসও যুক্ত হয়ে যাবে। ২০১৯ সালের বিশ্বকাপে আয়োজক দেশ সহ র‌্যাঙ্কিংয়ের প্রথম ৮টি দেশ (১৭ সেপ্টেম্বর) সরাসরি অংশ নিচ্ছে। আর বাছাই পর্ব খেলে আরো দুই দল ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তান অংশ নিচ্ছে। কিন্তু পরবর্তী আসর থেকে র‌্যাঙ্কিংয়ের প্রথম ১০টি দল সরাসরি বিশ্বকাপে খেলবে।

জিদানের পদত্যাগ

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রিয়াল মাদ্রিদকে হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন করানোর চারদিন পরই কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়ী তারকা জিনেদিন জিদান। মাদ্রিদে সংবাদ সম্মেলন ডেকে তিনি পদত্যাগের ঘোষণা দেন। তবে কোনো কারণ উল্লেখ করেননি জিদান।

২০১৬ সালের জানুয়ারিতে রাফায়েল বেনিতেজের পরিবর্তে রিয়াল মাদ্রিদের হেড কোচের দায়িত্ব দেয়া হয়, জিনেদিন জিদানকে। প্রথম অ্যাসাইনমেন্টেই সফল তিনি। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদকে হারিয়ে দলকে জেতান। গত তিন বছরে তিনি ৯টি ট্রফি এনে দেন। দু’বার জিতিয়েছেন বিশ^ ক্লাব কাপ শিরোপা, দুটি উয়েফা সুপার লিগ কাপ এবং একটি লা লিগা ও একটি সুপার কোপা। তিন বছরে ১৩টি ট্রফির মধ্যে দলকে ৯টিই জিতেছেন জিদান। রিয়ালের কোচ হিসেবে তার সাফল্য শতকরা ৭০ ভাগ। নিজের পদত্যাগ নিয়ে জিনেদিন জিদান বলেন, এটা একান্তই আমার সিদ্ধান্ত। সম্ভবত ভুল হচ্ছে, কিন্তু আমি মনেকরি সরে যাওয়ার এটাই উপযুক্ত সময়।

সংবাদ সম্মেলনে জিদানের পাশেই বসা ছিলেন রিয়ালের সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ। জিদানের পদত্যাগের সিদ্ধান্তে তিনি বিস্ময় প্রকাশ করেন। তিনি জানান, এটা পুরোপুরি অভাবিত সিদ্ধান্ত। জিদান গতকালই আমাকে এ বিষয়ে বলেছে। রিয়ালের সাফল্যে যা কিছু করেছে তার জন্য জিদানকে ধন্যবাদ জানাই।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ৬৩ বছরের ইতিহাসে একমাত্র কোচ হিসেবে শিরোপা জয়ে হ্যাটট্রিক করার কয়েকদিন পরই জিদানের পদত্যাগ, একটি প্রশ্নবোধক চিহ্ন হয়ে রইলো।

প্রস্তুতি ম্যাচে রাশিয়ার পরাজয়

বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রস্তুতি ম্যাচে অস্ট্রিয়ার কাছে ১-০ গোলে হেরেছে স্বাগতিক রাশিয়া। নিজেদের মাঠ ত্রিভোলি স্টেডিয়ামে, বিশ্বকাপের স্বাগতিকদের উপর চাপিয়ে খেলতে থাকে অস্ট্রিয়া। এতে নিজেদের রক্ষণভাগ সামাল দিতেই ব্যস্ত থাকে রাশিয়া।

খেলার ২৮ মিনিটে অস্ট্রিয়াকে এগিয়ে দেন, সালকের মিডফিল্ডার আলেসান্দ্রো শোপফ। এরপর গোল সংখ্যা বাড়ানোর সুযোগ পেয়েছিল বিশ^কাপের টিকিট না পাওয়া দলটি। কিন্তু ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় গোল পাওয়া হয়নি। আগামী মঙ্গলবার তুরস্কের বিপক্ষে নিজেদের শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে রাশিয়া। এদিকে, আগামী ১৪ জুন সৌদি আরবের বিপক্ষে বিশ^কাপের উদ্বোধনী ম্যাচ খেলবে তারা।

টিকিট বিক্রি শুরু ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ শুরুর এক বছর আগে থেকে শুরু হলো টিকিট বিক্রি কার্যক্রম। সেই সঙ্গে শুরু হয়েছে ৩৬৫ দিনের কাউন্টডাউন‌ও। লন্ডনের বিখ্যাত ব্রিকলেনে স্ট্রিট ক্রিকেট‌ খেলার আয়োজন করা যায়।

https://www.icc-cricket.com/video/694745?utm_campaign=9524013_One%20Year%20To%20Go%20-%2030%2F05%2F18&utm_medium=email&utm_source=Email_CWC19&dm_i=1HYE,5O4RX,87620C,M24TA,1

টিম টু ওয়াচ: ব্রাজিল

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, ব্রাজিলের কথা।

বিশ্বকাপের ইতিহাসে সবচেয় সফল একটি দল ব্রাজিল। ফুটবলের সবচেয় বড় আসর বিশ্বকাপের বেশিভাগ রেকর্ডই তাদের দখলে। এখন‌ও পর্যন্ত পাঁচবার (১৯৫৮, ১৯৬২, ১৯৭০, ১৯৯৪ ‌ও ২০০২ সালে) বিশ্বকাপ জিতেছে এবং একমাত্র দল হিসাবে চারটি ভিন্ন মহাদেশে শিরোপা অর্জন করেছে। এছাড়া বিশ্বকাপ মঞ্চে তারা দুইবার (১৯৫০ ‌ও ১৯৯৮ সালে) রানার্স আপ হয়। বিশ্বকাপের সবগুলো আসরে অংশ গ্রহন করার রেকর্ডটিও তাদের দখলে। সবচেয়ে বেশিবার (চার) ফিফা কনফেডারেশন্স কাপ জেতার রেকর্ডটিও সেলেসাওদের। তাই বলা যেতেই পারে, ‘The English invented it, the Brazilians perfected it.’ অর্থাৎ ইংল্যান্ডের আবিস্কার আর ব্রাজিলের পরিপুর্ণতা দান। প্রতিটি বিশ্বকাপেই ফেভারিটের তকমা তাগানো থাকে সেলেসা‌ওদের। তাই প্রতিপক্ষ যেকোন দলের জন্য ত্রাসের এক নাম ব্রাজিল।

শুধুমাত্র রেকর্ড কিংবা সফলতার জন্য ব্রাজিল এতো জনপ্রিয় তা নয়; ইতিহাসের সেরা সব ফুটবলার খেলেছেন এই দলে। পেলে, গ্যারিঞ্চা, সক্রেটিস, রোনালদো, রোনালদিনহো, রিভালদো, রোমারি‌ও, জিকো, কাকা থেকে শুরু করে বর্তমান সময়ের নেইমার আলো ছাড়িয়েছেন হলদ জার্সি গায়ে। তাদের অবদানের কারণে আজ ফুটবলের সৌন্দর্য্য বেড়েছে বহুগুন। তাই তো সারা বিশ্বের মানুষ বিশ্বকাপের আসরটি এলেই যেন, তাদের দেশের পতাকা উড়িয়ে দলটিকে শ্রেষ্ঠত্ব ঘোষণা করে থাকে। তাদের খেলা দেখতে টিভির পর্দার বা স্টেডিয়ামগুলোতে জড়ো হয় সবচেয়ে বেশি মানুষ। রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্রজিলকে নিয়ে মানুষের কৌতুহল যেন একটু বেশিই!

বিশ্বকাপ আর ব্রাজিল শব্দ দুটো প্রায় সমার্থক। পেন্টা জয়ের পর এবার হেক্সা জেতার মিশনে কোচ তিতে ২৩ সদস্যর শক্তিশালী দল ঘোষণা করেছেন। রয়েছে সেরাদের সেরা তারকারা। এবারে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে দলের সর্বোচ্চ গোলদাতা গ্যাব্রিয়েল জেসুসকে অধিনায়ক করা হয়েছে। তিনি শুধু বিশ্বকাপ বাছাইপর্বেই নয়, ম্যানচেস্টার সিটির এই ফরোয়ার্ড আলো ছড়িয়েছেন চলতি মৌসুমে। করেছেন ১৮টি গোল এবং বাছাইপর্বে দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৭টি গোল করেন তিনি। এই ফর্ম প্রতিপক্ষের মাথা ব্যাথার কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। তাছাড়া দলে আছেন বিশ্বের সবেচেয়ে দামী স্ট্রাইকার নেইমার।

নেইমারই ব্রাজিল দলের তালিসমান। ২৬ বছর বয়সি এই স্ট্রাইকার নিঃসন্দেহে বর্তমানে ব্রাজিল দলের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় এবং আস্থার প্রতীক। শুধু ব্রজিলই নয়,অনেকের মতে বর্তমান সময়ে নেইমারই বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। তাকে তুলনা করা হয় ব্রাজিল দলের সাবেক কিংবদন্তি পেলের সাথে। ব্রাজিলের জার্সি গায়ে নেইমার যে কতটা ভয়ংকর তা ইতোমধ্যে সবাই দেখেছে। প্রতিপক্ষ দলের জন্য একটি আতঙ্কের নাম নেইমার। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে তার ফর্ম ছিলো চোখ ছানাবড়া হ‌ওয়ার মতো। একাই করেছেন ৬ গোল এবং করিয়েছেন বেশ কিছু গোল। যদিও ইঞ্জুরির কারণে বিশ্বকাপ খেলাটাই মাটি হতে বসেছিল নেইমারের। ছিল কিছুটা সংশয়। কিন্তু সব উড়িয়ে দিয়ে তাকে নিয়েই চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেন কোচ তিতে। মূলত: তিনিই হলেন ব্রাজিল দলের প্রাণ ভোমরা। তিনি পিএসজির হয়ে এবারে মৌসুমে করেছেন ২৮ গোল যেখানে তিনি ১৭টি ম্যাচেই সেরা খেলোয়াড় হন। মাত্র ১৯ বছর বয়সে ২০১১ ও ২০১২ সালে দক্ষিণ আমেরিকার বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বচিত হন এই প্রতিভাবান খেলোয়াড় নেইমার।

এছাড়াও ২০১১ সালে ম্যাগাজিন প্লাসা তাকে নির্বাচন করে ব্রাজিলিয়ান লিগের সেরা খেলোয়াড় হিসেব। জেতেন গোল্ডেন বল। ২০১৫ সালে ব্যালন ডি অরের তিন জনের সংক্ষিপ্ত তালিকায় জায়গা হয় নেইমারের। এবারের বিশ্বকাপে নেইমারকে ঘিরেই ব্রজিলিয়নদের স্বপ্ন আকাশ ছোঁয়া। তার সাথে আক্রামনভাগে থাকবেন লিভারপুলের বাজির ঘোড়া রবার্তো ফিরমিনো। ইতোমধ্যেই ইংলিশ লিগে গোল করেছেন ২৯ টি। পাশাপাশি দলে জয়গা করে নিয়েছেন ম্যানচেস্টার সিটির ফার্নান্দিনহো এবং চেলসির উইলিয়ান। মাঝমাঠে আছেন কুতিনহো। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে ৬ গোল করে চূড়ান্ত দলে নিজের নাম পাকা করে ফেলেছেন। তার সাথে মাঝমাঠ নিয়ন্ত্রণে আছেন ক্যাসমিরো, আগউগুস্তো ‌ও ফ্রেড।

রক্ষণভাগের গুরু দ্বায়িত্ব থাকবে থিয়াগো সিলভার কাঁধে। বর্তমানে সিলভা বিশ্বের অন্যতম সেরা ডিফেন্ডার। তার সাথে সেন্টারব্যাকে থাকবেন মার্সেলো, গিল, মারকুইনহোস, মিরান্ডা ‌ও দানি আলভেসরা। তাদের ডিফেন্স ফাকি দিয়ে গোল করা যে কোন দলের জন্য অনেকটা কষ্টসাধ্য।

বিশ্বকাপের ই গ্রুপে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা খেলবে সুইজারল্যান্ড, সার্বিয়া ও কোস্টারিকার বিপক্ষে। আগামী ১৮ জুন সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারে শিরোপা মিশন শুরু কবে ব্রাজিল।

টেস্ট টস থাকছেই

অবশেষে টেস্ট ক্রিকেটে টস থাকছে। গতকাল মঙ্গলবার আইসিসি জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে জানিয়ে দিল, আগের মতোই টস দিয়েই শুরু হবে টেস্ট ম্যাচ। অর্থাৎ খেলা শুরুর প্রক্রিয়ায় কোনও বদল আসছে না।

সোম ও মঙ্গলবার মুম্বইয়ে দু’দিনের বৈঠকে বসেছিলেন আইসিসির ক্রিকেট কমিটির সদস্যরা। বল বিকৃতির মতো ন্যক্কারজনক ঘটনার যাতে পুনরাবৃত্তি না হয়, তার জন্য ক্রিকেটারদের অখেলোয়াড়োচিত আচরণের বিরুদ্ধে আরও কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার আলোচনা হয়। পাশাপাশি ক্রিকেটের ভাবমূর্তি কিভাবে আরও উজ্জ্বল করা যায়, তা নিয়েও আলোচনা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক মাইক গ্যাটিং এবং এমসিসির সাবেক প্রেসিডেন্ট ডেভিড বুন-সহ অন্যান্যরা।

আগামী জুনে চিফ এক্সিকিউটিভ কমিটির সামনে সমস্ত সুপারিশ তুলে ধরা হবে। কমিটির চেয়ারম্যান অনিল কুম্বলে বলেন, ‘ক্রিকেট এবং ক্রিকেটারদের সার্বিক উন্নতির স্বার্থে দীর্ঘে আলোচনা হয়েছে। বেশ কিছু সুপারিশ এসেছে। আমাদের মনে হয়েছে বল বিকৃতি বা অতিরিক্ত স্লেজিং ক্রিকেটে বড়সড় অপরাধের আওতাতেই পড়ে।’

টস না করে সফরকারী দলকে নিজের পছন্দ বেছে নেওয়ার কথা প্রথমে ভাবা হয়েছিল। তবে পরে ঠিক হয়, আগের মতো টস দিয়েই শুরু হবে পাঁচদিনের ক্রিকেট। সাধারণত হোম টিমের সুবিধার কথা মাথায় রেখেই তৈরি হয় টেস্টের উইকেট। তবে তেমনটা যাতে না হয়, সে বিষয়টি নিয়েও সুপারিশ করছেন কুম্বলেরা।

ন্যুয়ার আসছেন সুস্থ হয়ে

বায়ার্ন মিউনিখের অধিনায়ক ‌ও জার্মান দলের এক নম্বর গোলকিপার ম্যানুয়েল ন্যুয়ার দলে ফিরছেন সুস্থ হয়েই। দলের শেষ প্রহরী ন্যুয়ার অষ্ট্রিয়ার বিপক্ষে আসন্ন প্রস্তুতি ম্যাচের শুরু থেকেই মাঠে নামবেন বলে নিশ্চিত করেছেন জার্মান দলের গোলকিপার কোচ আন্দ্রিয়াস কোপকে।

অবশ্য গত সোমবারই জার্মান অনূর্ধ্ব-২০ দলের বিপক্ষে এক প্রস্তুতি ম্যাচে ৩০ মিনিট সময় পর্যন্ত গোলরক্ষকের দায়িত্ব পালন করেছিলেন ন্যুয়ার। বাকী সময় কিপিং করেন বার্সেলোনার টের স্টেগান।

ইটালির ইপ্পানে বিশ্বকাপের বেস ক্যাম্প করেছে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। সেখানে গোলকিপিং কোচ কোপকে জানান, ‘ম্যানুয়েল খেলতে যাচ্ছে।’ তিনি আরো জানান, ‘এটা তার জন্য গুরুত্বপূর্ণ এক টেস্ট। এই খেলা দিয়েই বুঝা যাবে তিনি ঠিকমতো সুস্থ হয়ে উঠছেন কিনা।’ এদিকে, দলের কোচ জোয়াকিম লৌ তো আগেই জানিয়েছেন, শতভাগ সউস্থ হলেই ন্যুয়ারকে জার্মান দলে জায়গা দেবেন তিনি।
যদি তিনি না পারেন তবে বার্সার গোলকিপার মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগানকে দিয়ে পুরণ করা হবে তার জায়গা।

বিশ্বকাপে এফ গ্রুপে সুইডেন, মেক্সিকো ‌ও দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে লড়বে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। তার আগে আগামী শনিবার অস্ট্রিয়া এবং ৮ জুন সৌদি আরবের সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে জার্মানি।

প্রস্তুতি ম্যাচে বড় জয় আর্জেন্টিনার

আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর ম্যাচে হ্যাটট্রিক করলেন লিওনেল মেসি। অধিনায়কের দারুণ হ্যাটট্রিকে হাইতিকে ৪-০ গোলে পরাজিত করেছে আর্জেন্টিনা। এই জয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপের নিজেদের আক্রমণভাগের শক্তি যাচাই করে নিলেন আর্জেন্টাইন কোচ হোর্হে সাম্পাওলি।

বুয়েনস আইরেসে আজ বুধবার ভোরে শুরু হওয়া ম্যাচের শুরু থেকেই হাইতির ‌ওপর চাপিয়ে খেলে আর্জেন্টিনা। কিন্তু মেসি আর হিগুয়েনের চেষ্টাগুলোকে বার বার ব্যর্থ করে দেন হাইতির গোলকিপার। খেলার ১৭ মিনিটে এগিয়ে যায় দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। ডি বক্সের ভেতরে জিওভানি লো সেলসো ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টি পায় আলবিসেলেস্তেরা। স্পটকিকে দলকে এগিয়ে দেন মেসি। বলের লাইনে ঝাঁপিয়ে পড়লেও মেসির শট ঠেকাতে পারেননি গোলরক্ষক।

প্রথমার্ধে আরো কয়েকবার প্রতিপক্ষের সীমানায় আক্রমণ করলে ব্যবধান বাড়তে দেননি হাইতির গোলকিপার।

দ্বিতীয়ার্ধে যেনো হাইতির জালে গোল উৎসব করে আর্জেন্টিনা। ৫৮ লি‌ওনেল মেসি ব্যবধান দ্বিগুণ করেন। এই গোলের দুই মিনিট পর হিগুয়েনকে তুলে নিয়ে ম্যানচেস্টার সিটির ফরোয়ার্ড আগুয়েরোকে মাঠে নামান সাম্পাওলি। ৬৬ মিনিটে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন মেসি। আর্জেন্টিনার হয়ে এটি তার ৬৪তম গোল।

খেলার ৬৯ মিনিটে আগুয়েরো গোল করে আর্জেন্টিনার ৪-০ ব্যবধানে জয় নিশ্চিত করেন। আগামী ৯ জুন ইসরায়েলের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে আরেক দফা দলকে পরখ করে নেওয়ার সুযোগ পাবেন কোচ সাম্পা‌ওলি।

রাশিয়া বিশ্বকাপে ‘ই’ গ্রুপে আর্জেন্টিনার সঙ্গে আছে আইসল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া ও নাইজেরিয়া। আগামী ১৬ জুন আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে আলবিসেলেস্তেরা।

দেরাদুনে পৌছেছে বাংলাদেশ দল

আফগানিস্তানের সঙ্গে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে অংশ নিতে ভারতের দেরাদুনে পৌছেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। শুধু তাই নয়, সিরিজে নিজেদের লক্ষ্য ‌ও উদ্দেশ্য জানাতে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এবিসি) আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে‌ও অংশ নেয় টাইগাররা।

প্রথমে ঢাকা থেকে দিল্লি পৌছায় বাংরাদেশ ক্রিকেট দল। পরে সেখান থেকে অন্য বিমানে করে দেরাদুনে পৌছায়। দীর্ঘ ভ্রমণ জনিত ক্লান্তি থাকলে‌ও টাইগার সদস্যদের খোশ মেজাজেই দেখা যায়।

বাংলাদেশের বিপক্ষে আফগান দল

বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য ১৬ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)। মঙ্গলবার অনেকটা তারুণ্যনির্ভর দল ঘোষণা করেছে তারা। ভারতের বিপক্ষে অভিষেক টেস্টের জন্য ১৬ সদস্যের দলও দিয়েছে আফগান বোর্ড। সেই দলের মাত্র পাঁচজন আছেন বাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি দলে।

প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন ১৮ বছর বয়সি ব্যাটসম্যান দারউইশ রাসুলি। ১৫ মাস পর দলে ফিরেছেন অফ স্পিনার নজিব তারাকাই।

ভারতের দেরাদুনের রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম ম্যাচটি হবে আগামী ৩ জুন। একই ভেন্যুতে পরের দুই ম্যাচগুলো হবে ৫ ও ৭ জুন। দিবারাত্রির প্রতিটি ম্যাচই শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায়।

আফগানিস্তান দল:
আসগর স্টানিকজাই (অধিনায়ক), নজিব তারাকাই, উসমান গনি, মোহাম্মদ শাহজাদ, মুজিব উর রহমান, নজিবুল্লাহ জাদরান, সামিউল্লাহ শেনওয়ারি, শাফিকউল্লাহ, দারউইশ রাসুলি, মোহাম্মদ নবী, রশিদ খান, গুলবাদিন নাইব, করিম জানাত, শারাফুদ্দিন আশরাফ, শাপুর জাদরান, আফতাব আলম।

টিম টু ওয়াচ: মেক্সিকো

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, মেক্সিকোর কথা।

উত্তর আমেরিকার অন্যতম ফুটবল শক্তি মেক্সিকো। আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে এরই মধ্যে সুনাম কুড়িয়েছে অনেক। মেক্সিকো এখন‌ও পর্যন্ত ১৬ বার ফিফা বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলেছে। ১৯৯৪ ‍বিশ্বকাপ থেকে এখন প্রর্যন্ত টানা বিশ্বকাপে অংশ নিয়ে আসছে তারা। বিশ্বকাপে মেক্সিকোর সবচেয়ে বড় সাফল্য দুইবারা (১৯৭০ ‌ও ১৯৮৬ সালে) কোয়ার্টার ফাইনালে উত্তীর্ণ হওয়া। এছাড়াও প্রথমবার (১৯৩০) বিশ্বকাপ খেলার গৌরব আছে মেক্সিকানদের। তারা কোপা আমেরিকাতে দুইবার রানার্স আপ ও একবার তৃতীয় হয়েছিল। ফিফা র‌্যাংকিংয়ের ১৫ তম অবস্থানে আছে তারা।

প্রায় প্রতিটি বিশ্বকাপে মাঝারি মানের ফেভারিট হিসেবে খেলতে নামে মেক্সিকো। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে উত্তর আমেরিকার দলগুলোর মধ্যে প্রথম রাশিয়ার টিকিট পায় মেক্সিকানরা। তাছাড়া খাতা-কলমের হিসেবে, দলটি ফেভারেটদের মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। বর্তমানে তাদের প্রত্যেক খেলোয়াড়ই আছেন দুর্দান্ত ফর্মে।প্রতিপক্ষকে রুখতে তাদের দলে আছে নামিদামি সব তারকা।

মেক্সিকোর সর্বোচ্চ গোলদাতা হার্নান্দেজ তো আছেনই। এছাড়াও অভিজ্ঞ রাফায়েল মারকুয়েজ, জিওভানি সান্তোসরা দলে রেখে দিয়েছেন কোচ। তরুণদের মধ্যে দারুণ খেলছেন রাউল জিমেনিজ আর লোজানোরা। অধিনায়ক আন্দ্রেস গুয়ার্দাদোর উপর অনেকটা ভরসা কোচ ওসোরিও। সবমিলিয়েই দুর্দান্ত এক দল মেক্সিকো। এদিকে কিছুটা চমক দিয়েই এবারে বিশ্বকাপের ২৮ সদস্যের প্রাথমিক স্কোয়াড ঘোষণা করেছেন মেক্সিকো কোচ হুয়ান কার্লোস ওসোরিও। তবে এখনো ২৩ সদস্যার চূড়ান্ত দল ঘোষণা হয়নি। দলে রাখা হয়েছে ৩৯ বছর বয়সী বার্সেলোনায় সাবেক মিডফিন্ডার রাফায়েল মার্কুয়েজকে। ৩৯ বছর বয়সী এই ফুটবল তারকা যদি বিশ্বকাপের ২৩ সদস্যের দলে সুযোগ পেয়ে যান, তাহলে তিনি হবেন ৫টি বিশ্বকাপ খেলা তৃতীয় ফুটবলার।বার্সেলোনার সাবেক এই খেলোয়াড় ১৪৩টি ম্যাচ খেলেছেন। শেষ খেলেছেন ২০১৭ সালের কনফেডারেশন্স কাপে।

মেক্সিকো দলের তালিসমান বলা হয় হাভিয়ের হার্নন্দেজকে। ম্যানচেস্টার ইউনাটেড হয়ে খেলা ২৯ বছর বয়সি এই স্টাইকারে একাই্ প্রতিপক্ষের রক্ষণভাগ ধ্বসিয়ে দিতে পারেন। তার পায়ের জাদু ইতোমধ্যেই দেখেছে বিশ্বের ফুটবল সমর্থকরা। তিনি ক্লাবের হয়ে ২৭২ ম্যাচে গোল করেছেন ১৪৪ টি। আর মেক্সেকোর জার্সি গায়ে ১০০ ম্যাচে গোল করেছেন ৪৯ টি। এছাড়া তিনি ২০১১ কনকাকাফ গোল্ডকাপে সবচেয়ে মূল্যবান খেলোয়াড় নির্বাচিত হন। ২০১৫ সালে তাকে কনকাকাফ কাপের সেরা প্লেয়ার নির্বাচিত ঘোষণা করে। মূলত তিনিই হলেন মেক্সিকোর সাফল্যের অন্যতম প্রাণ ভোমরা।

তাই র্নিদ্বিধায় বলা যেতেই পারে মেক্সিকোর সব আলোচনার কেন্দ্রে থাকবেন হার্নন্দেজক। তার সাথে আক্রামবিভাগে রাখা হয়েছে হ্যাভিয়ের অ্যাকুইনো, হিসুস করোনা, রাউল জিমেনেজ, ওরিবে পেরালতা, , কার্লোস ভেলা, হার্ভিং লোজানো ও ইয়ুর্গেন ড্যামকে। আর তাদের সাথে মাঝ মাঠে সামলাবেন হেক্টর হেরেরা, আন্দ্রেস গুয়ার্দাদো, রাফায়েল মার্কুয়েজ, জোনাথন ডস সান্তোস, মার্কো ফ্যাবিয়ান, হেসুস মোলিনা, এরিক গুতিয়েরেজ, জিওভানি ডস সান্তোস। রাশিয়া বিশ্বকাপে কোচ কার্লোস ওসোরিও এবার ভরসা রাখছেন বেশিরভাগ অভিঞ্জ ফুটবলারের উপর। সে হিসেবে গোলপোস্ট সামলাবেন গুইলের্মো ওচোয়া। তার সামনে দিয়েগো রেয়েস, কার্লোস স্যালসেদো, হেক্টর মোরেনো, ওসওয়ালদো অ্যালানিস, নেস্তর আরাউজো, মিগুয়েল, লাইয়ুন, হেসুস গ্যালার্ডো, হুগো আয়ালা, এডসন আলভারেজরা তো থাকবেন। তাদেরকে টপকে বিশ্বের যে কোন দলের ফরোয়ার্ডদের গোল করতে পেতে হবে বেগ।

বিশ্বকাপে মেক্সিকো আছে ডেথ গ্রুপ ‘এফ’এ। যেখানে তাদের অন্য তিন প্রতিপক্ষ জার্মানি, দক্ষিণ কোরিয়া ও সুইডেন। ১৭ জুন জার্মানির বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে মেক্সিকানরা। তবে আপাতত এই গ্রুপকে ‘গ্রুপ অফ ডেথ‘ই বলা হচ্ছে। কারণ প্রতিটি দলেরই একে অন্যকে হারানোর ক্ষমতা রাখে।

প্রস্তুতি ম্যাচে ফ্রান্সের জয়

বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে ফ্রান্স হারিয়েছে আয়ারল্যান্ডকে। প্যারিসে অলিভার জিরুদ ‌ও নাবিল ফ্যাকিরের গোলে ২-০ ব্যবধানে ম্যাচ জেতে ১৯৯৮ সালের বিশ্বকাপ জয়ী ফ্রান্স। কোচ দিদিয়ের দেশাম ২৩ জনের প্রাথমিক দল ঘোষণার পর প্রথম ম্যাচেই জয় পেলো ফ্রান্স। একচ্ছ্বত্র আধিপত্য ধরে রাখা খেলার ৪০ মিনিটে আইরিশ গোলকিপার কলিন ডোয়েলের ভুলে স্বাগতিকদের প্রথমে এগিয়ে দেন জিরুদ। প্রথমার্ধেই ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ফ্যাকির।

২০১০ বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের ম্যাচ খেলার পর এবারই প্রথম আয়ারল্যান্ড ফ্রান্সে খেলতে যায়। তবে তারা স্বাগতিক শিবিরে কোনো গোলের সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। মুর্হূমুহু আক্রমণের বৃষ্টি বিঘ্নিত খেলার ৪০ মিনিটে জিরুদ এগিয়ে দেন ফ্রান্সকে। ফ্যাকিরের নেয়া কর্নারে হেড করে গোলের চেষ্টা করেন জিরুদ। আইরিশ গোলকিপার কলিন ডোয়েল ফিরিয়ে‌ও দেন। কিন্তু ফিরতি বল জালে পাঠিয়ে ‘লা ব্ল’দের ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন জিরুদ।

জাতীয় দলের হয়ে এটি জিরুদের ৩১ তম গোল। থিয়েরি অরি (৫১), মিশেল প্লাটিনি (৪১) এবং ডেভিড ত্রেজেগে (৩৪) শুধু জাতীয় দলের হয়ে গোল সংখ্যায় তার চেয়ে এগিয়ে আছেন।

দ্বিতীয় গোলটি‌ও হয় গোলকিপারের ব্যর্থতায়। খেলার ৪৪ মিনিটে ডি বক্সের ঠিক কাছে থেকে গোলমুখে তীব্র গতির এক শট নেন ফ্যাকির। গোলকিপার ফিস্ট করার চেষ্টা করেন। বল চলে যায় জালে। ২-০ গোলে এগিয়ে যায় ফ্রান্স। বাকী সময়ে আর কোন গোল না হলে বৃষ্টিস্নাত ম্যাচে ২-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে দেশামের শিষ্যরা।

চলতি বছরের ২৩ মার্চ কলম্বিয়ার কাছে ২-৩ গোলে পরাজয়ের পর ফ্রান্স তাদের গত ৯ ম্যাচে আর হারেনি।

শিরোপা ধরে রাখার প্রস্তুতি শুরু জার্মানির

শিরোপা ধরে রাখার মিশন শুরু করেছে বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। জোয়াকিম লৌয়ের দলের সদস্যরা ইটালিতে গিয়ে ভিড় করেছে। কারণ তাদের অনুশীলন শিবির যে শুরু করা হয়েছে সেখানে। ২৭ সদস্যের প্রাথমিক দলের ১৯ জন যোগ দিয়েছেন সেই ক্যাম্পে। কয়েকদিনের মধ্যেই ২৭ জনের মধ্য থেকে চার জনকে ছেটে ফেলে ২৩ জনের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করবেন লৌ।

ইটালির ইপ্পায় শুরু করেছে জার্মান দল তাদের অনুশীলন ক্যাম্প। দলের সঙ্গে অন্ততপক্ষে ২০০ জন জার্মান সমর্থক নিজ দলের জার্সি পড়ে অনুশীলন দেখতে যান।

‘অবশেষে শুরু করতে পেরেছি আমরা।’ েবশ আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই জানান, দলের ম্যানেজার অলিভার বিয়েরহফ। তিনি বলেন, ‘এখন আমাদের উচিত দলের স্পিরিট ‌ও নিজেদের মধ্য বোঝাপড়া বাড়ানো।’

টিম টু ওয়াচ: বেলজিয়াম

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, বেলজিয়ামের কথা।

ইউরোপের দেশ বেলজিয়া এবার নিয়ে মোট ১৩ বার বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছে। তারমধ্যে ১৯৮৬ সালে মেক্সিকো বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল খেলাই তাদের সেরা সাফল্য। আর ১৯৮২ থেকে ২০০২ সাল র্পযন্ত টানা ছয়টি বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলাটা‌ও তাদের সাফল্যের মধ্যে পড়ে।

এবারের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে দুর্দান্ত খেলেছে ভিনসেন্ট কোম্পানির দল। ১০ ম্যাচে ৯ জয় এবং ১ ড্রতে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে সবার শীর্ষে থেকে রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকিট পায় বেলজিয়াম। তাই স্বাভাবিবভাবে বলা যায় বর্তমানের ইউরোপের অন্যতম পরাশক্তি বেলজিয়াম। এছাড়াও ‍বিভিন্ন ক্লাবের নামিদামী তারকাদের মধ্যে অনেকেই বেলজিয়াম দলের মূল খেলোয়াড়। দলের প্রতিটি পজেশনে রয়েছে ‌ওয়ার্ল্ডক্লাস প্লেয়ার।

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য ২৮ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছেন বেলজিয়ামের কোচ রবার্তো মার্তেনিজ। তবে হতাশাজনক হলো ৩০ বছর বয়সী মিডফিল্ডার রাদজা নাইঙ্গোলানরের বাদ পড়া। বিশ্বকাপ দলে জায়গা না পেয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবলকে বিদায়ই বলে দেন নাইনগোলান।

তবে এবারের বিশ্বকাপে সবার নজর থাকবে চেলসির স্ট্রাইকার এডেন হ্যাজার্ডের ‌ওপর। হ্যাজার্ডই হলেন বেলজিয়ামের তালিসমান-বাজির ঘোড়া। তাকে তুলনা করা হয় মেসি-রোনালদোদের সঙ্গে। ফুটবল পন্ডিতদের মতে, মেসি-রোনালদদো যুগের পর বিশ্ব ফুটবলে রাজত্ব করবে হ্যাজার্ড-নেইমাররা। এরই মাঝে তিনি জিতেছেন পিএফএ সহ অনেক ব্যক্তিগত পুরস্কার। গত মৌসুমে চেলসিকে জিতিয়েছেন লিগ শিরোপা। বেলজিয়ামের হয়ে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে খেলেছেন অসাধারণ ফুটবল।এই ফুটবল জাদুকরে পা থকেে এসেছিল ৬ গোল। স্বাভাবিকভাবেই প্রতিপক্ষের নজর থাকবে এই সাইলেন্ট কিলারের উপর। সাথে আছেন ফর্মের তুঙ্গে থাকা রোমেলু লুকাকু। চলতি মৌসুমে ম্যানচস্টোর ইউনাইটেডের হয়ে ১৫টি গোল করেছেন লুকাকু। পিছিয়ে নেই ড্রাইস মারটেনও। নাপোলির এই খেলোয়াড় করেছেন ১৪টি গোল।

রক্ষণভাগে থাকবেন টবি অ্যালডারউইয়ারল্ড, ডডের্কি বোয়াতা, লরন্তেে চমিান, লন্ডিার ডনেডোঙ্কার, ক্রস্টিয়িান কাবাসলি, ভিনসেন্ট কোম্পানি, জর্ডান লুকাকু, থমাস মিউনার, থমাস ভারমালেন ও জ্যান ভেরতোজেন মতো তারকারা।

আর মধ্যামাঠে কোচ রর্বাতো র্মাতিনেজ ভরাসা রাখছনে ইয়ানকি কারাসো, নাসের চাদল, কেভিন ডি ব্রুইন, মুসা দেম্বেলে, মারুয়ান ফিলোইন, আদনান ইয়ানুজাই, ইউরি তিলেমন ও অ্যাক্সলে উইটজলেদরে উপর।

১৮ জুন পানামার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে বেলজিয়ামের রাশিয়া বিশ্বকাপ মিশন। ‘জি’ গ্রুপে অন্য দুই প্রতিপক্ষ হলো ইংল্যান্ড এবং তিউনিশিয়া।

এখন‌ও পুরো ফিট নন নেইমার

‘এখন‌ও আমি শতভাগ ফিট নই। কিন্তু সময় হয়ে গেছে। স্বাচ্ছ্বন্দে মুভমেন্ট করতে এখন‌ও কিছুটা ভয় লাগে। আর‌ও কিছুটা সময় দরকার(পুরো ফিট হতে)। রবিবার ব্রাজিলয়ান ফুটবল ফেডারেশনের মিক্সড জোনে বিশ্বের সবচেয়ে দামী খেলোয়াড় নেইমার এমনটাই জানান।

তবে মিক্সড জোনে নেইমারের থাকার কথা ছিল না। হঠাৎ করেই তিনি মিক্সড জোনে এসে সংবাদকর্মীদেরকে চমকে দেন। এবং বলেন, ‘পুরোপুরি সুস্থ হতে আর‌ও কিছুটা সময় লাগবে আমার। কিন্তু খেলার জন্য আমি তৈরি। কোনোকিছুই আমাকে দমাতে পারবে না।’ ব্রাজিল দলের সঙ্গে লন্ডনে অনুশীলন করতে যা‌ওয়ার কয়েক ঘন্টা আগে তিনি সংবাদকর্মীদের সঙ্গে আলাপকালে এমনটা জানান।

ইনজুরির কারণে গত ফেব্রুয়ারি থেকে মাঠের বাইরে আছেন নেইমার। তবে গত ১০ দিন আগে সেলেসা‌ওদের স্বপ্নপুরুষ নেইমার অনুশীলন শুরু করেছেন। এবং সপ্তাহখানেক যাবৎ রি‌ওয়ের কাছে দলের হেড কোয়ার্টার টেরেসপোলিসে অনুশীলনে যোগ দেন।

আইপিএলে যতো পুরস্কার

এবারের আইপিএল আসরে বেশকিছু পুরস্কার দেয়া হয়েছে। ফাইনাল শেষে এই পুরস্কারগুলো দেয়া হয়। যারা এই পুরস্কার পেয়েছেন তাদের নাম নিচে দে‌ওয়া হলো।

স্টাইলিশ প্লেয়ার: রিশাভ প্যান্ট (দিল্লি ডেয়ারডিয়াভিলস)।

ইমাজিং প্লেয়ার: রিশাভ প্যান্ট (দিল্লি ডেয়ারডিয়াভিলস)।

মোস্ট ভ্যালুয়েবল প্লেয়ার: সুনিল নারাইন (কলকাতা নাইট রাইডার্স)।

সেরা ক্যাচ: ট্রেন্ট বোল্ড (দিল্লি ডেয়ারডিয়াভিলষ)।

সুপার স্টাইকরেট: সুনিল নারাইন (কলকাতা নাইট রাইডার্স)।

সবচেয়ে বেশি উইকেট: অ্যান্ড্রু টাই (কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব)।

সর্বোচ্চ রান: কেন উইলিয়ামসন (সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ)।

ফেয়ার প্লে: অদিত্য তাবে (মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স)।

তৃতীয়বার আইপিএল ট্রফি জিতল চেন্নাই

শেন ‌ওয়াটসেনর অপরাজিত সেঞ্চুরিতে তৃতীয়বার আইপিএল ট্রফি জিতল চেন্নাই সুপার কিংস। প্রতিযোগিতার ফাইনালে তারা ৯ বল হাতে রেখেই ৮ উইকেটে পরাজিত করে সাকিব আল হাসানের সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে। আর তিনবার ট্রফি জয় করে রোহিত শর্মার রেকর্ডও ছুঁয়ে ফেললেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি।

১৭৯ রানের টার্গেটে নেমে চেন্নাই দলের ১৬ রানেই হারায় ফ্যাফ ডু প্লেসিসের উইকেট। অন্য ওপেনার ওয়াটসন ১১ বলে প্রথম রান পেলে‌ও স্বমুর্তি ধারণ করতে সময় নেননি। ৫১ বলে করেন সেঞ্চুরি। এবারের আইপিএলে এটি ‌ওয়াটসেনর দ্বিতীয় শতরান। শেষ পর্যন্ত ৫৭ বলে ১১ চার আর ৮ ছক্কায় ১১৭ রানে শিরোপা জেতানো ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন এই অজি ব্যাটসম্যান। সুরেশ রায়না ৩২ রান করে সাজঘরে ফেরেন। আর অম্বাতি রাইডু ১৬ রানে অপরাজিত থাকেন।

https://www.iplt20.com/video/144838

মুম্বাইয়ের ‌ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে, ফাইনাল ম্যাচে টসে জিতে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠান ক্যাপ্টেন কুল মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে পরে ব্যাট করা দলের জেতার নিয়ম হয়ে গিয়েছে। ধোনিও সেই কারণেই প্রতিপক্ষকে ব্যাট করতে পাঠান।

ব্যাট করতে নেমে রান আউট হয়ে ফেরেন ফাইনালে সুযোগ পাওয়া শ্রীবৎস গোস্বামী। চোটের কারণে ঋদ্ধিমান সাহা খেলতে পারেননি। এর পর আক্রমণাত্মকভাবেই ইনিংসের হাল ধরেন শিখর ‌ও উইলিয়ামসন। উইলিয়ামসন ৪৭ রানে ফিরতেই রান রেট কিছুটা কমে যায় হায়দ্রাবাদের। আউট হয়ে যান শাকিবও(২৩)। কিন্তু ইউসুফ পঠানের মারকাটারি ৪৫ এবং কার্লোস ব্রাথওয়েটের ঝড়ো ২১ রান হায়দ্রাবাদকে ১৭৮ রানের একটি সম্মানজনক স্কোর এনে দেয়। এই রান যে শিরোপা জেতার জন্য যথেষ্ট ছিল না পরে চেন্নাইয়ের ব্যাটসম্যানরা তা প্রমান করেন।

বিশ্বকাপে খেলবেন সালাহ

অবশেষে সুখবর আসলো মোহাম্মদ সালাহ ভক্তদের জন্য। ডাক্তার জানিয়েছে, লিভারপুল ও মিশরের তারকা ফুটবলার সালাহ্ বিশ্বকাপে খেলতে পারবেন। এর আগে, উয়েফা কাপের ফাইনালে কাঁধের ইনজুরির কারণে রাশিয়া বিশ্বকাপে সালাহর খেলা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছিল।

রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল খেলা চলাকালে ইনজুরিতে পড়েন লিভারপুল ও মিশরের তারকা খেলোয়াড় মোহাম্মদ সালাহ। ম্যাচের ২৯ মিনিটে রিয়ালের অধিনায়ক সার্জিও রামোসের কড়া ট্যাকেলে বাম হাতের ইনজুরি নিয়ে কাঁদতে কাঁদতে মাঠ ছাড়েন তিনি। ড্র্রেসিং রুমে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে স্টেডিয়ামই ছেড়ে যান ইংলিশ লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা। ফাইনাল শেষে কোচ জার্গেন ক্লপ জানান, সালাহর ইনজুরি মারাত্মক। সেরে উঠতে তিনমাস সময় লাগতে পারে।

কিন্তু মিশর ফুটবল সংস্থা সালাহর বিশ্বকাপে খেলা নিয়ে আশাবাদী। জাতীয় দলের ডাক্তার মোহাম্মদ আবুল-এলা’র বরাত দিয়ে তারা জানিয়েছে, লিভারপুলের মেডিকেল টিমের দেওয়া তথ্যমতে সালাহর ইনজুরির এক্স-রে করানো হয়েছে। ইনজুরি খুব একটা মারাত্মক নয়। কাঁধের লিগামেন্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিশ্বকাপ খেলতে পারবে সালাহ।

মিশরের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী খালেদ আবদেল আজিজের মতে বড় জোড় দুই সপ্তাহ লাগতে পারে সালাহর ইনজুরি থেকে সেরে উঠতে। তিনি আরো জানান, আগামী ৪ জুন সালাহকে রেখেই বিশ্বকাপের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করবে মিশর।

চলতি মৌসুমে ব্যালন ডি’অর জয়ে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসির প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে উঠছিলেন মিশরের মোহাম্মদ সালাহ। তাছাড়া তার পারফরম্যান্সে ভর করে মিশর ১৯৯০ সালের পর এবার বিশ্বকাপে স্থান করে নিয়েছে। ‘এ’ গ্র“পে আগামী ১৫ জুন নিজেদের প্রথম ম্যাচে উরুগুয়ের মুখোমুখি হবে মিশর।

কাউন্দিয়াবাসির বিশ্বকাপ প্রস্তুতি

ফারদিন আল সাজু

পৃথিবীর অন্য দেশগুলোর মতো বিশ্বকাপ ফুটবল জ্বরে আক্রান্ত পুরো দেশ। চার বছর পর আবার‌ও বইছে বিশ্বকাপের হাওয়া। রাশিয়া বিশ্বকাপের ফুটবল শৈলিতে মেতে উঠতে, পৃথিবীর সেরা খেলোয়াড়েদর পায়ের জাদু মুগ্ধ হয়ে দেখতে গোটা দেশের মতো প্রস্তুত হচ্ছে ঢাকা-১৪ আসনের কাউন্দিয়া ইউনিয়ের ফুটবল সর্মথকরা।

মূলত এই ইউনিয়নের মানুষের কাছে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলই পরমপ্রিয় দুটি দল। আর সে কারণেই উন্মাদনাটা শুরু হয়ে গেছে বিশ্বকাপের প্রায় এক মাস আগে থেকেই। এলাকায় ইতোমধ্যেই ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা পতাকা উড়তে শুরু করেছে। নীল আকাশে পত পত করে উড়ছে এলাকাবাসীর প্রিয় দলের পতাকা। আর যারা এখনো পতাকা ‌ওড়াননি তারা কিছুদিনের মধ্যেই ছেয়ে ফেলবেন বাড়িগুলোর ছাদ। তবে শুধু আর্জেন্টিনা-ব্রাজিলই নয়; স্পেন, জার্মানির সঙ্গে পর্তুগাল কিংবা ফ্রান্সের পতাকাও উড়িয়েছেন কেউ কেউ। কারণ তারা যে এই দলগুলোর সমর্থক।

বিশ্বকাপ এলে যেন এই ইউনিয়নের দর্জিদের কাজের চাপ দ্বিগুন বেড়ে যায়। একদিকে ঈদ, অন্যদিকে রাশিয়া বিশ্বকাপ; সবমিলিয়ে এবার তাদের ব্যস্ত সময় পাড় করতে হচ্ছে। নতুন জামা-কাপড় বানানোর পাশাপাশি প্রিয় দলের পতাকা কেনার‌ও যে ধুম পড়েছে।

এছাড়াও সময়ের আবর্তনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে বিশ্বকাপ নিয়ে দেখা দিচ্ছে উত্তেজনা। লিওনেল মেসির ভক্তরা তাঁর গুণগান গেয়ে্ছে যদি কোন পোস্ট দেয়, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো কিংবা নেইমার সমর্থকদের একটুও দেরি হয় না। তারও তাদের প্রিয় খেলোয়াড়কে সবচেয়ে সেরা বানানোর চেষ্টা থাকে। এই নিয়ে চলে নানান তর্ক-বির্তক। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে মাঠে-ময়দানে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল দুই দলের সমর্থকদের মধ্যকার ‘কে সেরা’ নিয়ে চলছে বাক-বিতন্ডা। সব মিলিয়ে এই ইউনিয়নের মানুয়ের মাঝে বিশ্বকাপের পরিপূর্ণ আমেজ বিরাজ করছে।

এদিকে বিশ্বকাপের জন্য বড় পর্দায় খেলা দেখের জন্য প্রস্তুতি নিছে এই ইউনিয়রে কিছু যুব সংঘঠন। তাদের মধ্যে টিকালারটেক, কুমারবাড়ী, পাঁচকানি গ্রামের ফুটবল সমর্থকরা জানান, এবারে আসরটি আমরা সাজাবো ভিন্নরূপে। এবারে রাশিয়া বিশ্বকাপ প্রত্যেকটি ম্যাচ আমরা বড় পর্দায় খেলা দেখার আয়োজন করার প্রস্তুতি নিয়েছি। যেন ছোট-বড় সকল শ্রেনীর মানুষ একসাথে বসে খেলা দেখতে পারে। কাউন্দিয়া ইউনিয়নবাসিদের কাছে ফুটবল কতটা জনপ্রিয়, যারা এখানে আসেনি তারা কখনো বুঝবেনা। ফুটবলের প্রতি ভালোবাসার এই টান, ইউনিয়নের মানুষের অন্তর থেকেই আসে। তাই বিশ্বকাপ মাঠে গড়ালে গোটা বাংলাদেশের সাথে উৎসবের আমেজে মাতবে তুরাগ বেস্টিত কাউন্দিয়া ইউনিয়নটি‌ও।

আইপিএলের ফাইনাল আজ

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ-আইপিএলের শিরোপা লড়াইয়ে আজ রবিবার চেন্নাই সুপার কিংসের মুখোমুখি হবে সাকিবের সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। এ নিয়ে বিশ্বের অন্যতম সেরা ফ্রাঞ্চাইজি লিগে, তৃতীয়বারের মতো ফাইনাল খেলতে চলেছেন সাকিব আল হাসান।

এর আগে কোলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে দুবার ফাইনাল খেলেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। সানরাইজার্সের জন্য ম্যাচটি যেমন শিরোপা পুনরুদ্ধারের তেমনি প্রতিশোধেরও। এ মৌসুমে আগের তিন সাক্ষাতেই মহেন্দ্র সিং ধোনির দলের বিপক্ষে হেরেছে কেন উইলিয়ামসনের দল। সবশেষ ২০১৬ তে আইপিএলের শিরোপা জিতেছিলো হায়দ্রাবাদ। মুম্বাইয়ে আজ বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় মুখোমুখি হবে দু দল।

রিয়াল মাদ্রিদের হ্যাটট্রিক শিরোপা

গ্যারেথ বেলের জোড়া গোলে লিভারপুুলকে ৩-১ গোলে হারিয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের হ্যাটট্রিক শিরোপা জিতলো রিয়াল মাদ্রিদ। ২৫ মিনিটে কাঁধে চোট পেয়ে মোহাম্মদ সালাহ মাঠ ছাড়ার পর প্রথমে বেনজেমা আর পরে বেলের দুর্দান্ত দুই গোলে শিরোপা ঘরে তোলে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। আর এ নিয়ে একমাত্র ফুটবলার হিসেবে চ্যাম্পিয়নস লিগের পাঁচ শিরোপার স্বাদ পেলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

৩০ তম মিনিটের এই ছবিটিই যেনো গোটা ম্যাচের প্রতীক। ম্যাচ শেষে যে কান্নায় ভেসেছেন লিভারপুলেরর খেলোয়াড়রা, ওই সময় সে অনুভুতি নিয়ে মাঠ ছেড়ে গেছেন, তাদের শিরোপা স্বপ্নের সবচেয়ে বড় নিয়ামক মোহাম্মদ সালাহ।

অথচ বেশ সাধারণ এক ট্যাকেলই মনে হয়েছিলো সেটিকে। এমনকি ফাউলের বাঁশিও বাজান নি রেফারি। কিন্তু তাতেই কাঁধে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়েন সালাহ, ম্যাচ শেষে যা জানালো, বিশ্বকাপটাই শেষ হয়ে যেতে পারে এই মিশরীয়র।

কিয়েভের ফাইনালে প্রথম মিনিট পনেরো মাঠে যেনো ছিলো কেবল লিভারপুলই। কিন্তু সালাহ মাঠ ছাড়ার পর টনক নড়ে রিয়ালের। রক্ষণাত্মক ভঙ্গি ছেড়ে নিজেদের সহজাত খেলায় মন দেয় স্প্যানিশ ক্লাবটি। তবু প্রথমার্ধ গোলশূণ্য।

৫১ মিনিটে লিভারপুলের জার্মান গোলরক্ষক ক্যারিয়াস রীতিমত থালায় সাজিয়ে গোল উপহার দেন রিয়ালকে। করিম বেনজামের এক টোকাতেই এগিয়ে যায় লা ব্লাঙ্কোরা।

তবে ৪ মিনিট পরই সমতা ফেরায় লিভারপুল। সালাহ না থাকায় আক্রমণের দায়িত্ব যেনো দ্বিগুণভাবে কাঁধে তুলে নেন সাদিও মানে।

৬১ মিনিটে ইসকোর বদলি হিসেবে মাঠে নেমে তিন মিনিট পরই অবিশ্বাস্য গোল করেন গ্যারেথ বেল। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে বাইসাইকেল কিকে আবারো এগিয়ে দেন রিয়াল মাদ্রিককে।

৭০ মিনিটে সাদিও মানের শট গোল পোস্টে লেগে বেরিয়ে না গেলে সমতায় ফিরতে পারত লিভারপুল।
৮২ মিনিটে ক্যারিয়াসের আরেকটি ভয়াবহ ভুল লিভারপুলকে হারিয়ে দেয়। ২৫ গজ দূর থেকে আচমকা নেয়া গ্যারেথ বেলের শট এই জার্মানের হাত ফসকে চলে যায় জালে।

তাতে পাঁচ বছরের চতুর্থ বার আর প্রথম দল হিসেবে টানা তিনবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জয়ের নজির গড়লো রিয়াল। এই টুর্নামেন্ট তো এখন সত্যিই রিয়ালের টুর্নামেন্ট।

রাশিয়া বিশ্বকাপের থিম সং

রাশিয়া বিশ্বকাপের অফিসিয়াল থিম সং প্রকাশ করেছে ফিফা। ‘লিভ ইট আপ’ শিরোনামে এই গানটি আগামী কিছুদিন মাতিয়ে রাখবে ফুটবল ভক্তদেরকে। হলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা ও পপ শিল্পী উইল স্মিথ, নিকি জ্যাম, ইরা ইস্ত্রোফি এবং ডিজে ডিপলোর মিলিত চেষ্টায় তৈরি হয় এই গানটি। আগামী ১৫ জুলাই বিশ্বকাপের ফাইনালে শিল্পীরা থিম সং-টি পারফর্ম করবেন।

১৯৬২ সালে চিলি বিশ্বকাপ থেকে এ পর্যন্ত যেসব থিম সং প্রকাশ করে ফিফা তারমধ্যে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা পায়, দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে ল্যাটিন শিল্পী শাকিরার ‘ওয়াকা ওয়াকা’ গানটি। ফিফার সবকটি থিম সং-ই আলোচনার উত্তাপ ছড়ালেও এখনও পর্যন্ত জনপ্রিয়তায় সব কটিকে ছাড়িয়ে গেছে ‘ওয়াকা ওয়াকা’।

এবার রাশিয়া বিশ্বকাপের ‘লিভ ইট আপ’ গানটি ইংলিশ এবং স্প্যানিশ এই দুই ভাষায় গাওয়া হয়েছে। গানটি বিশ্বকাপ পর্যন্ত মাতিয়ে বেরাবে পৃথিবী জুড়ে। হলিউড তারকা উইল স্মিথ তো বিশ্বকাপের থিম সং করতে পারায় নিজেকে ভাগ্যবানই মনে করছেন।

তারপর ডিজে ও গীতিকার ডিপলোর স্টুডিওতে চলে সঙ্গীত শিল্পীদের গানের রিহার্সাল এবং আড্ডাবাজি। হাসি-ঠাট্টা এবং তর্কে-বিতর্কে এগিয়ে চলে সময়। এক সময় রূপ পায় ‘লিভ ইট আপ’। এবারের রাশিয়া বিশ^কাপের অফিসিয়াল থিম সং।

তবে “One life, live it up, cause you don’t live twice,” থিম সংটি রিকি মার্টিনের ওলে ওলে কিংবা শাকিরার ওয়াকা ওয়াকার জনপ্রিয়তাকে ছাড়িয়ে যেতে পারবে কিনা সেটা জানা যাবে কিছুদিনের মধ্যেই।

এখন থেকে জাপানে ইনিয়েস্তা

জাপানের দল ভ্যাসেল কোবের সঙ্গে আনষ্ঠানিক চুক্তি করলেন স্পেনের তারকা খেলোয়াড় ‌ও বিশ্বকাপ জয়ী আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা। ৩৪ বছর বয়সী ইনিয়েস্তা ৩২ টি ক্লাব শিরোপা, দুটি ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি এবং ২০১০ সালে বিশ্বকাপ জেতেন।

ভ্যাসেল কোবেতে যোগ দিয় ইনিয়েস্তা বলেন, ‘এটা আমার জন্য একটা স্মরণীয় দিন।’ তিনি আরো বলেন, ‘এটা আমার জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ চ্যালেঞ্জ। আমার পরিবার জাপানে আসার ব্যাপারে খুব রোমাঞ্চ অনুভব করেছে। অন্য ক্লাব থেকে‌ও অফার ছিল। জাপানে আসতে পেরে আমরা বেশ খুশি।’

ইনিয়েস্তা বলেন, ‘অন্য দল আমাকে পেতে আগ্রহ দেখালে‌ও আমি কেনো কোবেতে যোগ দিলাম। দিলাম এই কারণে যে ভ্যাসেল কোবের প্রজেক্ট প্রেজেন্টেশন আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে।’

জাপানের জে লিগে বর্তমানে ষষ্ঠস্থানে আছে ভ্যাসেল কোবে। আর লিগ টেবিলের শীর্ষে আছে সানফ্রেন্স হিরোশিমা।

রিয়াল শিরোপা জিতবে: রোনালদো নাজারি‌ও

ব্রাজিলের ‌ও রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক স্ট্রাইকার এবং দুইবারের বিশ্বকাপ জয়ী তারকা রোনালদো এবারের বিশ্বকাপ জয়ে স্পেনকে ফেভারিট মানছেন। তাছাড়া আজ শনিবার রাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল খেলাটি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে মন্তব্য করে রোনালদো নাজারি‌ও জানান, রিয়াল মাদ্রিদ জিতবে ৩-২ গোলে। স্প্যানিশ রেডি‌ও El Partidazo de COPE কে তিনি এসব কথা বলেন।

শুরুতে কিছু সন্দেহ ছিল রিয়াল মাদ্রিদকে নিয়ে। কিন্তু ফাইনাল পর্যায়ে এসে আমি আশাবাদী। রিয়াল বরাবর তাদের মতো। টানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে উঠে ইতোমধ্যে তারা রেকর্ড করেছে। চ্যাম্পিয়ন হলে সেটা হবে আরো আনন্দের। তবে লিভারপুল‌ও বেশ ভালো খেলছে। আমার ধারণা ফাইনালে অনেক গোল হবে। তবে ৩-২ ব্যবধানে জিতবে রিয়াল মাদ্রিদ।

রাশিয়া বিশ্বকাপের ফেভারিট হিসেবে তিনি জার্মানিকেই মানছেন। রোনালদো বলেন, ‘জার্মানি বিশ্বকাপ জয়ে তারা ফেভারিট। জার্মানি সবসময়ই শক্ত প্রতিপক্ষ তবে আমি বাজি ধরবো স্পেনের উপর। আর্জেন্টিনার বিপক্ষে তাদের খেলা দেখেছি। আসলেই স্পেন একটি ভালো দল।’

আর নেইমারের পিএসজি ছাড়া নিয়ে ব্রাজিলিয়ান এই কিংবদন্তি বলেন, ‘নেইমার ছাড়তে চাইলে রিয়াল মাদ্রিদ তাকে নে‌ওয়ার জন্য মুখিয়ে থাকবে। আমি তার চুক্তিপত্র দেখেছি। এই সময়ে এটা একেবারে অসম্ভব। কিন্তু কেউ যদি ছাড়তেই চায় তাকে ঠেকানো খুবই কঠিণ।’

রশিদ খানের অলরাউন্ড নৈপুন্যে ফাইনালে হায়দ্রাবাদ

আফগান বোলার রশিদ খানের অলরাউন্ড নৈপুন্যে আইপিএলে দ্বিতীয় কোয়লিফায়ারে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে ১৪ রানে হারিয়ে ফাইনালে উঠলো সাকিব আল হাসানের সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। আগামী ২৭ মে শিরোপা লড়াইয়ে তাদের প্রতিপক্ষ মহেদ্র সিং ধোনির দল চেন্নাই সুপার কিংস।

হায়দ্রাবাদের দেওয়া ১৭৫ রানের টার্গেটে নেমে আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করতে থাকে কলকাতার দুই বিদেশি খেলোয়াড় সুনিল নারাইন ও ক্রিস লিন। ব্যক্তিগত ২০ রানে আউট হন নারাইন। ৮ রানে থাকা কলকাতার অধিনায়ক দিনেশ কার্তিকে প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান সাকিব। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৮ রান করে রশিদ খানের বলে লেগ বিফোর হন ক্রিস লি। শেষ ১২ বলে ৩০ রান প্রয়োজন ছিলো নাইটদের, হাতে ছিলো ৪ উইকেট। কিন্তু হায়দ্রাবাদের বোলাদের নৈপূণ্যে ১৫ রানে বেশি সংগ্রহ করতে পারেনি তারা। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেট হারানো কলকাতার ইনিংস থামে ১৬০ রানে। ফলে ১৪ রানে জয় পায় কেন উইলিয়ামসনের দল। সানরাইজার্সের রশিদ খান ১৯ রানে ৩ উইকেট নিয়ে হন ম্যাচ সেরা।

এর আগে ব্যাটিংয়ে নেমে রশিদ খানের ১০ বলে ৩৪ রান, শিখর ধা্ওয়ানের ২৪ বলে ২৪ এবং সাকিবের ২৪ বলে ২৮ রানের ভর করে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৭৫ রান করে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। রবিবার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে সিরোপার জন্যা লড়বে হায়দ্রাবাদ ও চেন্নাই সুপার কিংস।

আফগানিস্তানে‌ও টোটাল স্পোর্টস

আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (এসিবি) সঙ্গে এবার গাঁটছড়া বেঁধেছে টোটাল স্পোর্টস। আগামী পাঁচ বছরের এসিবি’র বৈশ্বিক মিডিয়া স্বত্ব কিনেছে প্রতিষ্ঠানটি। এই সময়কালে আফগানিস্থান ক্রিকেট দলের সকল আর্ন্তজাতিক এবং অাভ্যন্তরীন পর্যায়ের ক্রিকেট প্রতিযোগিতার স্বত্ব টিএসএম’কে দেয়া হয়েছে।

২০১৮ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত এই চুক্তির অধীনে থাকবে আফগানিস্থান ক্রিকেট বোর্ডের অাভ্যন্তরীন সকল আর্ন্তজাতিক ম্যাচ (আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল এবং অন্যান্য দ্বিপাক্ষিক এবং বহুপাক্ষিক ক্রিকেট প্রতিযোগিতা) এবং অাভ্যন্তরীন ক্রিকেট প্রতিযোগিতার (স্পাগিজা এবং একদিনের জাতীয় কাপ) মিডিয়া স্বত্ব। চলতি বছরের জুন মাসে ভারতে আফগানিস্থান এবং বাংলাদেশের মধ্যকার ক্রিকেট সিরিজের মধ্য দিয়ে এই অংশীদারিত্ব শুরু হবে।

আফগানিস্থান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান শুকরুল্লাহ আতিফ মাশাল, টোটাল স্পোর্টস মার্কেটিংয়ের সিইও মইনুল হক চৌধুরী, আফগান ক্রিকেট বোর্ডের সিইও শফিকুল্লাহ স্তানিকজাই, ইমপ্রেস টেলিফিল্মস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, হোস্ট ব্রডকাস্টার গাজী স্যাটেলাইট টেলিভিশনের (জিটিভি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক আমান আশরাফ ফায়েজ, টপ অব মাইন্ডের সিইও জিয়াউদ্দিন আদিল এই বৈশ্বিক মিডিয়া স্বত্বের চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল ভেন্যু

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে আগামীকাল রাতে রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে লিভারপুল। শিরোপা দ্বৈরথে এই দুই দলকে লড়তে হবে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের এনএসকে অলিম্পিস্কি স্টেডিয়ামে।

এই স্টেডিয়ামটিকে আবার অলিম্পিক ন্যাশনাল স্পোর্টস কমপ্লেক্সও বলা হয়। এর আগে ২০১২ সালে ইউরো চ্যাম্পিয়নশীপের ফাইনাল হয়েছিল এখানে। স্টেডিয়ামের দর্শকধারণ ক্ষমতা ৫০ হাজার ৭০ জন।

অভিনেতা হবেন রোনালদো

ফুটবল থেকে অবসর নে‌ওয়ার পর অভিনেতা হবেন পর্তুগাল ‌ও রিয়াল মাদ্রিদের তারকা ফরোয়ার্ড ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। স্পেনের টেলিভিশন জাগনসে জোসেফ পেডরেরোলের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাতকারে তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার একথা জানান।
http://www.lasexta.com/programas/jugones/viku_201805245b06d4d90cf2748acf96ca3f.html

সেই সাক্ষাতকারে পাচবারের বিশ্বসেরা খেলোয়াড় রোনালদো ভবিষ্যত পরিকল্পনার পাশাপাশি তার মায়ের সম্পর্কে‌ও জানান। তবে রোনালদো প্রধান কোনো চরিত্রে অভিনয় করতে চাননা। তিনি বলেন, ‘ফুটবল ছাড়ার পর আমি অভিনেতা হতে চাই। আমি এ ব্যাপারে অনুশীলন‌ও করেছি, কারণ বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে ঘোষকের দায়িত্বে ছিলাম। তবে অভিনয়ের বিষয়ে আমার কোনো পড়ালেখা নেই। তাছাড়া আমি তো প্রধান কোনো চরিত্রে‌ও অভিনয় করতে চাইনা।’

আর গোল করার পর পর জার্সি খুলে উদযাপন করতে ভালবাসেন রোনালদো। কারণ হিসেবে জানান, এটা নারীরা ভালোবাসে। তিনি বলেন, ‘এটা নারীদের পছন্দ। আমার গার্লফেন্ড বলে তখন নাকি দারুণ লাগে আমাকে।’ অবশ্য যারা এমনটা বলে তারাই জানে কেন বলে, এ বিষয়ে আমার কোনো পছন্দ-অপছন্দ নেই।’

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রাইজমানি

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের উত্তাপে গরম এখন কিয়েভের মাঠ। রিয়াল মাদ্রিদ ‌ও লিভারপুল দু’দলই এখন ইউক্রেনের কিয়েভে। হার-জিত যাই থাক না কেনো প্রচুর অর্থ পুরস্কার পাবে স্প্যানিশ ‌ও ইংলিশ জায়ান্টরা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের জন্য উয়েফা আগের বছর থেকেই ১.৩ বিলিয়ন ইউরো প্রাইজমানি দিয়ে আসছে ক্লাবগুলোকে।

গত বছর রিয়াল মাদ্রিদ শিরোপা জিতেছিল জুভেন্টাসকে হারিয়ে। হলে কি হবে, তাদের চেয়ে বেশি প্রাইজমানি কিন্তু পেয়েছিল ইটালিয়ান জায়ান্টরা। চ্যাম্পিয়ন রিয়াল পেয়েছিল ৮৯.৫ মিলিয়ন ইউরো (৫৪.২ মিলিয়ন পারফরমেন্সে এবং ৩৫.৩ মিলিয়ন বাজার মূল্যের ‌ওপর)।অন্যদিকে জুভেন্টাস পেয়েছিল ১০১.১ মিলিয়ন ইউরো (৫০.৬ মিলিয়ন ডলার বাজার মূল্য এবং ৫১.১ মিলিয়ন ইউরো পারফরমেন্সে)।
এবারের জয়ী দল রানার্সআপের চেয়ে ১১ মিলিয়ন ইউরো বেশি প্রাইজমানি পাবে। তবে পারফরমেন্সের হিসেবে রিয়ালের চেয়ে বেশি অর্থ পাচ্ছে লিভারপুল। তারা পাচ্ছে ৫২ মিলিয়ন ইউরো। আর রিয়াল পাচ্ছে ৫০.৭ ইউরো।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের উত্তাপ কিয়েভে

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের বরফ গলতে শুরু করেছে, চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের উত্তাপে। ২৪ জন খেলোয়াড় নিয়ে ইতোমধ্যেই ইংলিশ দল লিভারপুল এবং স্প্যানিশ জায়ান্ট পৌছে গেছে কিয়েভে। তবে আগামীকাল শনিবার রাতের ফাইনালে যে দলই জিতুন না কেনো জয় হবে কিয়েভেরই।

তবে এই রমজান মাসে মোহাম্মদ সালাহর জন্যই তৃতীয়বার চ্যাম্পিয়ন হতে চাইছে ইংলিশরা। এই ‌ওরেজোনােক (ফাইনাল ম্যাচকে) সামনে রেখে কিয়েভ মেতেছে রঙে আর উৎসবে। দশর্ক-সমর্থকদের বিপুল উপস্থিতিতে ব্যবসা কেন্দ্রগুল‌ো জমজমাট হয়ে উঠেছে।

কিয়েভের মেয়র ভিতালি ক্লিসচেকো হেভি‌ওয়েট বক্সিংয়ে তিনবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ছিলেন। জীবনে ৪৭ লড়াইয়ের মাত্র দুটি হেরেছেন। নিজের জীবনের সাফল্যের মতো তিনি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালটা‌ও সাফল্যের ছোয়ায় রঙিন করতে চান। তাই তিনি মজা করে বলেন, ‘পৃথিবীর সব মেয়ররা এখন আমাকে হিংসা করছেন’।

লিভারপুলের তিন তারকা মোহাম্মদ সালাহ, সাদি‌ও মানে ‌ও রবার্টো ফিরমিনো দলের সঙ্গে প্রশিক্ষনে অংশ নেন।

এদিকে, রিয়াল মাদ্রিদ মাত্র ৫০ মিনিট অনুশীলন করেছে। জিনেদিন জিদান দলের তিন গোলকিপার কোস্টারিকান কেইলর নাভাস, স্প্যানিশ কিকো ক্যাসিলাস ‌ও জিজুর সন্তান লুকা জিদানকে নিয়ে আলাদা সময় কাটান।

ডি ভিলিয়ার্সের অবসরে বিস্মিত বিশ্ব

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে এবি ডি ভিলিয়ার্সের অবসরের সিদ্ধান্তে বিস্মিত গোটা ক্রিকেটবিশ্ব। ওয়ানডে ইতিহাসে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ৫০-এর ওপর গড় ও ১০০-এর ওপর স্ট্রাইক রেট নিয়ে অবসরে গেছেন ডি ভিলিয়ার্স। তাঁর এমন বিদায়ে টুইটারকে আশ্রয় করে এবিকে বিদায় জানিয়েছেন সবাই।

ওয়ানডেটাও তিনি খেলেছেন টি-টোয়েন্টির মত করে। ৩১ বলে সেঞ্চুরি করে ওয়ানডেতে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েছেন। ৫০এর বেশি ওয়ানডে খেলা ক্রিকেটারদের মধ্যে তিনিই একমাত্র, যার গড় ৫০এর বেশি আর স্ট্রাইক রেট একশো’র বেশি। ওয়ানডের দ্রুততম আর টেস্টের মন্থরতম টেস্ট ইনিংসের মধ্যে স্ট্রাইক রেটের ব্যবধান অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি, ৩২৩ দশমিক ছয় চার। এমনই বিরল প্রতিভাধর আব্রাহাম বেঞ্জামিন ডি ভিলিয়ার্স। ফর্মের তুঙ্গে থাকা অবস্থায় আকষ্মিকভাবে বিদায় বলে দেয়ায় বিষ্মিত গোটা ক্রিকেটবিশ্ব। তাকে নিয়ে করা টুইটগুলোই যেনো ঘোষণা করছে, কি অভাবটাই না তৈরি হলো ডি ভিলিয়ার্সের বিদায়ে।

দক্ষিণ আফ্রিকান দুই সাবেক অ্যালান ডোনাল্ড আর মার্ক বাউচার সবার আগে মনে করেছেন একজন মানুষ হিসেবে কতটা অসাধারণ এবি। তাই বিষ্মিত হলেও তার সিদ্ধান্তকে মেনে নিয়ে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।
তার মানবিক সত্ত্বাকে স্মরণ করেছেন শ্রীলংকান দুই গ্রেট কুমার সাঙ্গাকারা আর মাহেলা জয়াবর্ধনেও। সেই সাথে তার ক্রিকেটীয় গুণের কথা স্মরণ করে আবার হয়েছেন মোহিত।

লিটল মাস্টার শচীন টেন্ডুলকার কিংবা তরুণ লোকেশ রাহুল, ভারতীয়দের সবাইকে ছুঁয়ে গেছে ডি ভিলিয়ার্সের অবসরের সিদ্ধান্ত। টেন্ডুলকার যেমন কামনা করছেন এবির মাঠের বাইরের জীবনের সাফল্য, তেমনি রাহুল জানিয়েছেন, এবি তার প্রিয় খেলোয়াড়ই থাকবেন সবসময়।

মাইকেল ভনের চোখে শতভাগ পারফেক্ট ক্রিকেটের বিজ্ঞাপন ডি’ভিলিয়ার্স। তার মতে, বিশ্বের সেরা তিন ক্রিকেটারের একজন এবি।

বাংলাদেশের ক্রিকেটারদেরও ছুঁয়ে গেছে এই প্রোটিয়ার হঠাৎ বিদায়ের সিদ্ধান্ত। উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম তার সাথে নিজের একটা ছবি দিয়ে টুইট করেছেন এবিকে, মিস করার কথা বলে।

কেবল ক্রিকেট নয়, ক্রিকেটের বাইরেও চলছে হতাশা। বলিউড সুপারস্টার আমির খান ও ক্যাটরিনা কাইফ এই তারকার ছবি দিয়ে হতাশা প্রকাশ করে জানিয়েছেন, ডি ভিলিয়ার্সের পারফর্মেন্স মিস করবেন তারা।

টিম টু ওয়াচ: ইংল্যান্ড

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, ইংল্যান্ডের কথা।

১৯৩০ সালে ফুটবলে বিশ্বকাপ প্রচলন হলে‌ও, ১৯৬৬ সালে ফুটবলের জনক ইংল্যান্ড প্রথমবারের মতো আয়োজন করেই ঘরে তুলে নেয় বিশ্বকাপ ট্রফিটি। রানার্স আপ হয় পশ্চিম জার্মানি। এই টুর্নামেন্ট দিয়েই প্রথম মাসকট পায় বিশ্বকাপ ফুটবল।

ইউরো ফুটবলে কখনো চ্যাম্পিয়নশিপ পায়নি ইংল্যান্ড, তবে দুবার সেমি-ফাইনালে উঠেছে। তাই ১৯৬৬ সালের পর আরেকবার বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন বুনছে ইংলিশরা। এবার রাশিয়া বিশ্বকাপে অন্যতম ফেবারিটও তারা। এই মিশনে ইংলিশরা ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। অনেকটা তারুণ্যনির্ভর দল গড়েছ ইংল্যান্ডের। তবে কোচ গ্যারেথ সাউথগেটের দলে নেই তারকা খেলোয়াড় জ্যাক উইলশায়ার, জো হার্ট এবং রায়ান বারট্রান্ড। চলতি মৌসুমে ওয়েস্টহ্যামের হয়ে বাজে পারফরমেন্সের জন্য দল থেকে বাদ পড়েন এক সময়ের প্রথম পছন্দের গোলরক্ষক হার্ট। তার জায়গায় দলে সুযোগ পেয়েছেন বার্নলির নিক পোপ। রক্ষণভাগ থেকে বিস্ময়করভাবে বাদ পড়েছেন সাউদাম্পটন লেফট ব্যাক বারট্রান্ড। প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে সুযোগ পেয়ছেন লিভারপুলে খেলা তরুণ টেন্ট আলেক্সান্ডার-আরনল্ড। দলকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে পৌঁছে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন এ তারকা খেলোয়াড়।

আসন্ন রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলে ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দেবেন স্ট্রাইকার হ্যারি কেন। টটেনহ্যাম হটস্পারের হ্যারি কেন’ই হলেন ইংল্যান্ড দলের তালিসমান। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে ২৩ ম্যাচে খেলে করেছেন ১২ টি গোল। এছাড়া তিনি ২০১৫-১৬,২০১৬-১৭ মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগে গোল্ডন বুট ‍বিজয়ী‌ও। তিনি ২০১৭ সালে ইংল্যান্ডের বর্ষসেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন। তাই র্নিদ্বিধায় বলা যায়, ইংল্যান্ড দলের সব আলোচনার কেন্দ্রে আছেন হ্যারি। তিনিই ইংল্যান্ডে সাফল্যের প্রাণ ভোমরা।

এদিকে ফরোয়ার্ডে হ্যারির সাথে থাকবেন জ্যামি ভার্ডি, মার্কস র‌্যাশফোর্ড, ড্যানি ওয়েলবেক মতো তারকারা। আর মাঝমাঠ সামলাবেন ডালে আলি, জর্ডান হেন্ডারসন, এরিক ডিয়ার, জেস লিনগার্ড, রাহিম স্টার্লিং, রুবেন লোফটাস-চেক। রাশিয়া বিশ্বকাপে এবার গ্যারেথ সাউথগেট ভরসা রাখছেন বেশিরভাগ তরুণ ফুটবলারের উপর। তাই সে হিসেবে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের গোলপোস্ট সামলাবেন জ্যাক বাটল্যান্ড। তার সামনে থাকবেন ট্রেন্ট আলেক্সান্ডার-আরনোল্ড, গ্যারি কাহিল, কাইল ওয়াকার, জন স্টোনস, হ্যারি ম্যাগুইর, ড্যানি রোজ, অ্যাশলে ইয়ং, ফিল জোন্স, কাইরান ট্রিপিয়ার, ফ্যাবিয়ান ডেলফ। তাদেরকে টপকে বিশ্বের যে কোন দলের ফরোয়ার্ডদের গোল করতে বেগ পেতে হবে। সেটা নিশ্চিত করেই বলা য়ায়।

গ্রুপ ‘জি’ এর লড়াইয়ে ১৮ জুন তিউনিশিয়ার বিপক্ষে নামবে ইংল্যান্ড। ২৪ জুন নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে পানামার মুখোমুখি হবে একারের বিশ্ব সেরা দলটি। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে শক্তিশালী বেলজিয়ামের বিরুদ্ধে লড়বে সাউথগেটের শিষ্যরা।

জাপানই পছন্দ ইনিয়েস্তার

বার্সেলোনাকে বিদায় জানানোর পর জাপানই পছন্দ করছেন স্প্যানিশ মিডফিল্ডার আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা। তিনি যোগ দিচ্ছেন জাপানের দল ‘ভিসেল কোবে’তে। এর আগে, চীনের দল ‘চংকুইন দাংদাই’য়ে যোগ দে‌ওয়ার কথা শোনা গিয়েছিল ইনিয়েস্তার।

আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা আগামী তিন বছরের জন্য ‘ভিসেল কোবে’তে যোগ দিচ্ছেন বলে জানা যায়। বার্সেলোনার জার্সি স্পন্সর রাকুটেনের মালিক হিরোশি মিকিতানি জাপানের ঐ ক্লাবটির মালিক। জাপানের দলে যোগ দে‌ওয়ার বিষয়টি বার্সার সাবেক অধিনায়ক ইনিয়েস্তা বুধবার নিজের টুইটার একাউন্টে নিশ্চিত করেন। প্রতি মৌসুমের জন্য ২৫ মিলিয়ন ইউরো পা‌ওয়ার কথা তার।

এলিমিনেটরে কলকাতার জয়

এলিমিনেটর রাউন্ডে রাজস্থান র‌্যায়েলসকে ২৫ রানে হারিয়ে ফাইনালের আশা বাচিয়ে রাখল শাহারুখ খানের দল কলকাতা নাইট রাইডার্স। এতে আগামী ২৫ মে দ্বিতীয় কোয়লিফায়ার ম্যাচে সাকিব আল হাসানের দল সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বিপক্ষে মাঠে নামবে কলকাতার নাইটরা।

কলকাতার দেওয়া ১৭০ রানের টার্গেটে ব্যাটিং করতে নেমেই আক্রামণাত্বক ব্যাটিং করতে থাকে দুই ওপেনার অজিঙ্কা রাহানে ও রাহুল ত্রিপাঠি। ৫ ওভারেই দলের স্কোরে তারা জমা করেন ৪৭ রান। ত্রিপাঠি ২০ রান করে আউট হলে সঞ্জু স্যামসনকে নিয়ে ৬২ রানের জুটি গড়েন রাহানে। রাহানে ৪১ বলে ৪৬ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ।দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫০ রান করেন সঞ্জু স্যামসন। শেষ ১৮ বলে ৪৩ রান প্রয়োজন ছিলো রাজস্থান রয়্যালসের। কিন্তু কলকাতার বোলাদের বোলিং নৈপূণ্যে ১৮ রান তুলতে পারে রাহানেরা। ৪ উইকেট হারানো রাজস্থান রয়্যালসের ইনিংস থামে ১৪৪ রানে। ফলে ২৫ রানে জয় পায় দিনেশ কার্তিকের দল। কলকাতার বোলারদের মধ্যে পিযুষ চাওলা ২৪ রানে নেন ২ উইকেট।

এর আগে, কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে অধিনায়ক দিনেশ কার্তিকের ৩৮ বলে ৫২ এবং অান্দ্রে রাসেলের ২৫ বলে ৪৯ রানের ঝড়ো ইনিংসে ৭ উইকেটে ১৬৯ রান তোলে কলকাতা।

ক্লান্তিতে অবসরে ডি ভিলিয়ার্স

ক্লান্তির কাছে হার মানলেন দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স। অবসরই নিয়ে ফেললেন ক্রিকেট থেকে। বললেন, গুডবাই। জানালেন, ‘এটা খুব কঠিন সিদ্ধান্ত। আমি অনেক সময় নিয়ে ভেবেছি এবং ভালো ফর্মে থাকা অবস্থাতেই বিদায় নিতে চাইছি। ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দারুণ দুটি সিরিজ জয়ের পর, আমার মনে হচ্ছে সরে দাঁড়ানোর এটাই সঠিক সময়।’

কেউ কল্পনা করতে পারেননি ভিলিয়ার্সের এই অবসরে যা‌ওয়ার বিষযটা। আর এক বছর পরই বিশ্বকাপ। ৩৪ বছর বয়সে বিশ্বকাপের এক বছর আগেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিচ্ছেন এবি ডি ভিলিয়ার্স। আজ বুধবার জাতীয় দল থেকে অবসর নিয়েছেন ওয়ানডে ক্রিকেটে দ্রুততম সেঞ্চুরির মালিক। নিউ ওয়ান্ডারার্স স্টেডিয়ামে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের শেষ টেস্টে ৬৯ ও ৬ রানের ইনিংস দুটিই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ডি ভিলিয়ার্সের সর্বশেষ অবদান হয়ে থাকল।

নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে বিদায়ের কারণটা জানিয়েছে, ‘ক্লান্তি’। এ ছাড়া নিজের সিদ্ধান্তটা ব্যাখ্যা করেছেন সবার সুবিধার্থে। বিদায় বেলায় যা বলেছেন ডি ভিলিয়ার্স—

‘আমি সব আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি, এই মুহূর্ত থেকেই। ১১৪ টেস্ট, ২২৮ ওয়ানডে ও ৭৮টি টি-টোয়েন্টি খেলার পর অন্যদের সময় এসেছে দায়িত্ব বুঝে নেওয়ার। আমি আমার কাজটা করেছি, সত্যি কথা বলতে আমি ক্লান্ত।’

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ: ফাইনালের আগে

আগামী শনিবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শিরোপা দ্বৈরথে ইউক্রেনের কিয়েভে স্পেনের রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ডের লিভারপুল। খেলার দেখার আগে জানা যাক, এই দুই জায়ন্টের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের হিসেব-নিকেশ।

স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ এর আগে ১২ বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জিতেছে। ১৯৫৬, ১৯৫৭, ১৯৫৮, ১৯৫৯, ১৯৬০, ১৯৬৬, ১৯৯৮, ২০০০, ২০০২, ২০১৪, ২০১৬ এবং ২০১৭। এরমধ্যে শেষ ছয় ফাইনালে উঠেই চ্যাম্পিয়ন হয় লা ব্ল্যাঙ্কোরা। জুভেন্টাসের পর রিয়াল মাদ্রিদই একমাত্র দল যারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে টানা তিনবার ফাইনালে ‌ওঠে। জুভেন্টাস ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত ফাইনালে ‌ওঠে।

ইংল্যান্ডের লিভারপুল এর আগে ৫বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জিতেছিল। ১৯৭৭, ১৯৭৮, ১৯৮১, ১৯৮৪ ‌ও ২০০৫ সালে। `অল রেড’দের বর্তমান দলের কোনো খেলোয়াড়েরই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল খেলার অভিজ্ঞতা নেই।

এবারের আগে, ইউরোপিয়ান ফুটবলের আসরে মোট ৫বার মুখোমুখি হয়েছে দু’দল। তার মধ্যে লিভারপুল জিতেছে তিনবার আর দু’বার রিয়াল মাদ্রিদ। লিভারপুলের ছয় গোলের বিপরীতে রিয়ালের গোল চারটি।

এবারেরর রিয়াল মাদ্রিদ-লিভারপুল ম্যাচটি যেনো ১৯৮১ সালের পুনরাবৃত্তি। সবার‌ও এই দু’দল মুখোমুখি হয়িছলো ফাইনালে। প্যারিসে, খেলার ৮২ মিনিটে এলান কেনেডির গোলে শিরোপা জেতে লিভারপুল। ফাইনালর উঠে সেটাই ছিল রিয়ালের শেষ পরাজয়।

ফাইনালের এই ম্যাচে জিতলে রিয়াল মাদ্রিদ একমাত্র দল হিসেবে দুইবার টানা তিনবার করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জেতার রেকর্ড গড়বে। এর আগে, আয়াক্স (১৯৭১-৭৩) এবং বায়ার্ন মিউনিখ (১৯৭৪-৭৬) টানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জিতেছিল।

১৩ পয়েন্ট নিয়ে এইচ গ্রুপে রানার্সআপ হয়ে দ্বিতীয় পর্বে ‌ওঠে রিয়াল মাদ্রিদ। এই গ্রুপে শীর্ষস্থানে ছিল টটেনহ্যাম হর্টপার। আর রিয়ালের পেছনে ছিল বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ‌ও অ্যাপোয়েল। দ্বিতীয় রাউন্ডে নেমইমারের প্যারিস সেন্ট জার্মেইকে ৫-২ গোল গড়ে (৩-১ হোম ‌ও ২-১ অ্যা‌ওয়ে) পরাজিত করে জিনেদিন জিদানের দল। কোয়ার্টার ফাইনালে জুভেন্টাসকে ৪-৩ গোল গড়ে (৩-০ অ্যা‌ওয়ে ‌ও ১-৩ হোম) পরাজিত করে। জার্মানির বায়ার্ন মিউনিখকে ৪-৩ গড়ে (২-১ হোম ‌ও ২-২ অ্যা‌ওয়ে) হারিয়ে ফাইনালে ‌ওঠে স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

এদিকে, লিভারপুল প্লে অফে জার্মান দল হফেনহেইমকে হারায় প্রথমে। ই গ্রুপে ১২ পয়েন্ট নিয়ে সেভিয়া, স্পার্টাক মস্কো এবং মারিবরের আগে থেকে দ্বিতীয় রাউন্ডে ‌ওঠে। শেষ ১৬’র ম্যাচে পোর্তোকে ৫-০ গড়ে (৫-০ অ্যা‌ওয়ে ‌ও ০-০ হোম) পরাজিত করে তারা। ম্যানচেস্টার সিটিকে কোয়ার্টার ফাইনালে ৫-১ গড়ে( ৩-০ হোম ‌ও ২-১ অ্যা‌ওয়ে) এবং রোমাকে ৭-৬ গোল গড়ে (৫-২ হোম ‌ও ২-৪ অ্যা‌ওয়ে) পরাজিত করে ফাইনালে ‌ওঠে লিভারপুল।

ইনজুরিতে বাদ আর্জেন্টিনার রোমেরো

গোলরক্ষক নাহুয়েল গুজম্যানকে আবার‌ও আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ দলে ডেকেছেন কোচ হোর্হে সাম্পা‌ওলি। না ডেকে উপায়ই বা কি, হাঁটুর ইনজুরির কারণে যে খেলতেই পারবেন না দলের এক নম্বর গোলকিপার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের স্যার্জিয়ো রোমেরো। আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন-এএফএ রোমেরোর ইনজুরির কথা নিশ্চিত করেছে।

৩১ বছর বয়সী রোমেরো আর্জেন্টিনার হয়ে ৯৪টি ম্যাচ খেলেছেন। ২০১৪ বিশ্বকাপে গোলবারের নিচে দারুণ দক্ষতার পরিচয় দিয়ে আলবিসেলেস্তেদর তিনি ফইনালে তোলেন। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে জার্মানির কাছে এক গোলে পরাজিত হয় দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। এএফএ জানায়, রোমেরো আর্জেন্টিনার প্রথম পছন্দের গোলকিপার। তার ডান হাঁটুতে অস্ত্রোপচার করা লাগবে।

গোলরক্ষক নাহুয়েল গুজম্যান

২১ মে রাতে ঘোষিত চূড়ান্ত দলে রোমেরোসহ গোলরক্ষক ছিলেন তিনজন। বাকি দুজন উইলফ্রেডো কাবাল্লেরো এবং ফ্রাঙ্কো আরমানি। দুজনই অনভিজ্ঞ। কাবাল্লেরো মাত্র দুটি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। আরমানির এখনো অভিষেকই হয়নি। রোমেরোর পরিবর্তে মেক্সিকোর দল টাইগার্সে খেলা নাহুয়েল ঐ দুই গোলকিপারের সঙ্গে যোগ দেবেন। ৩২ বছর বয়সী গুজম্যান ২০১৫ সাল থেকে জাতীয় দলের হয়ে মাত্র ছয়টি ম্যাচ খেলেছেন। গত বছর সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে সবশেষ ম্যাচ খেলেন তিনি। তাতে ৬-০ গোলে জিতেছিল লি‌ওনেল মেসির দল।

বিশ্বকাপ ফুটবলে অংশ নিতে আগামী ২৯ মে হাইতি এবং ৯ জুন ইসরায়েলের বিপক্ষে দুটো প্রীতি ম্যাচ খেলবে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিযন আর্জেন্টিনা। ১৬ জুন রাশিয়া বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে তারা। গ্রুপ ডি’তে তাদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়া এবং নাইজেরিয়া।

আলাদা কিছু নেই সেরেনার জন্য

তিনবারের চ্যাম্পিয়ন সেরেনা উইলিয়ামসকে ফ্রেঞ্চ ওপেনের বাছাই খেলোয়াড়দের মধ্যে রাখা হয়নি। সন্তান জন্ম দেওয়ার কারণে গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসের পর এবারই কোনো গ্র্যান্ডস্ল্যাম টেনিসের খেলতে নামবেন। রোঁলা গ্যারো কতৃপক্ষ জানিয়েছে, বাছাই করা ৩২ জনকেই তাদের ডব্লিউটিএ তে অবস্থানের উপর ভিত্তি করে নির্বাচন করা হবে।

সন্তান জন্ম দে‌ওয়ার আগে যখন সেরেনা খেলায় বিরতি দেন তখন তিনিই ছিলেন বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে সবার শীর্ষে। বর্তমানে সেরেনা উইলিয়ামসের র‌্যাংকিং হলো ৪৫৩।

হেলিকপ্টারে করে অনুশীলনে নেইমার

অনুশীলনে নেমেছে ব্রাজিল দলও। রিও ডি জেনিরোর গ্রাঞ্জা কোমারি ট্রেনিং কমপ্লেক্সে এক সপ্তাহের অনুশীলন করবে তিতের দল। এরপরই সেলেসাওরা জুন মাসে প্রীতি ম্যাচ খেলার জন্য বিশ্ব ভ্রমণে রওনা দেবে।

বিশ্বকাপের হেক্সা জয়ের মিশনে নামা সেলেসাওদের সবাই ছিলেন অনুশীলনে। বিশ্বের সবচেয়ে দামী খেলোয়াড় নেইমার হেলিকপ্টারে করে অনুশীলন ক্যাম্পে আসেন। সঙ্গে ছিলেন ডগলাম কস্টা, রেনাতো আউগাস্তো এবং থিয়াগো সিলভা। ফিটনেস পরীক্ষার মধ্যদিয়ে অনুশীলন শুরু হয়।

তবে দলের কোচ তিতে এবং সাপোর্টিং স্টাফদের নজর ছিলো নেইমারের দিকে। গত ফেব্রুয়ারিতে পায়ের ইনজুরিতে পড়ার পর থেকে এখনও খেলতে নামেননি এই ব্রাজিলিয়ান ও প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের ফরোয়ার্ড। তবে গত সপ্তাহেই তিনি পিএসজির মাঠে বল পায়ে অনুশীলনে নেমেছিলেন।

বিশ্বকাপ দলের অনুশীলনে মেসি

আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ দলের সঙ্গে অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন অধিনায়ক ‌ও পাচবারের বিশ্বসেরা খেলোয়াড় লি‌ওনেল মেসি। বিশ্বকাপ দলের সঙ্গে বার্সেলোনার সুপারস্টারের যোগ দে‌ওয়ার বিষয়টি আর্জেন্টিনা আজ মঙ্গলবার নিশ্চিত করেছ। বুয়েন্স আইরেসে হোর্হে সাম্পা‌ওলির দল শুরু করেছে এই অনুশীলন ক্যাম্প।

নিজের ক্লাব বার্সেলোনাকে ঘরোয়া ফুটবলে দুটি শিরোপা এনে দেয়া আর্জেন্টিনার মহাতারকা মেসি ৩৪ গোল করে রেকর্ড পঞ্চমবারের মতো ইউরোপিয়ান গোল্ডেন শ্যূ জেতেন। বুয়েন্স আইরেসের এজাইজাতে আগে থেকেই বিশ্বকাপ দলের ১৬ খেলোয়াড় নিয়ে অনুশীলন ক্যাম্প পরিচালনা করছিলেন কোচ সম্পাওলি। মেসি যোগ দেওয়ায় ক্যাম্প আরো প্রাণ পেলো।

আগামী ১৬ জুন গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে নবাগত আইসল্যান্ডের বিপক্ষে লড়বে লি‌ওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। ডি গ্রুপে ২০১৪ সালের ফাইনালিস্টদের অন্য প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়া ‌ও নাইজেরিয়া।

আর্জেন্টিনার চূড়ান্ত দল

রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য কোচ হোর্হে সাম্পা‌ওলি আজ সোমবার ২৩ আর্জেন্টিনার চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছেন। দলে তেমন কোনো চমক নেই। যাদের থাকার কথা ছিলো আছেন তারাই। তবে ইটালির সিরি’এ-তে ৩৪ ম্যাচে ২৯ গোল করা ইকার্দি বাদ পড়ায় কিছুটা আলোচনা হয়েছে।

এদিকে, মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে আগামী ১৪ জুন বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধন হলে‌ও, দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা ১৬ জুন আইসল্যান্ডের বিপক্ষে খেলা দিয়ে তাদের বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে। `ডি’ গ্রুপে মেসিদের অন্য প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়া ‌ও নাইজেরিয়া।

আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দল

গোলরক্ষক : সার্জিও রোমেরো, উইলফার্ডো কাবাল্লেরো ও ফ্রাঙ্কো আরমানি।

রক্ষণভাগ : গ্যাব্রিয়েল মার্কাদো, ফেদেরিকো ফাজিও, নিকোলাস ওতামেন্ডি, মার্কোস রোহো, নিকোলাস তাগলিয়াফিকো ‌, মার্কোস আকুনা, ক্রিস্টিয়ান আনসালদি ‌ও জাভিয়ার মাশ্চেরানো।

মধ্যমভাগ : এভার বানেগা, লুকাস বিগলিয়া, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া, জিওভানি লো সেলসো, ম্যানুয়েল লানজিনি, ক্রিস্টিয়ান পাভুন, ম্যাক্সিমিলিয়ানো মেজা ‌ও এড‌ওয়ার্ডো সালভি‌ও।

আক্রমণভাগ : লিওনেল মেসি, পাওলো দিবালা, সার্জিও আগুয়েরো ‌ও গঞ্জালো হিগুয়েন।

মোরাতা ‌ও ফ্যাব্রিগাসকে ছাড়াই স্পেন দল

অবশেষে ঘোষণার আগে প্রকাশিত দলটিই সত্যি হলো। আলভারো মোরাতা, সেস ফ্যাব্রিগাস ও ভিতোলোরকে ছাড়াই ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করলেন স্পেনের কোচ জুলেন লুপেতোগি।

এই দলের মাত্র ছয় জন খেলোয়াড় বিদেশী লিগে খেলেন। তারা হলেন-ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ডেভিড ডি গিয়া, চেলসির সিজার আজপিলেকোটা, ন্যাপোলির পেপ রেইনা, আর্সেনালের নাচো, বায়ার্ন মিউনিখের থিয়াগো আলকানতারা এবং ম্যানচেস্টার সিটির ডেভিড সিলভা। আগামী ১৪ জুন বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হলে‌ও ১৫ জুন পর্তুগালের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে স্পেনের বিশ্বকাপ মিশন। ‘বি’ গ্রুপে তাদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ ইরান ও মরক্কো।

স্পেনের ২৩ সদস্যের দল

গোলরক্ষক: কেপা আরিসাবালাগা (আথলেতিক বিলবাও), দাভিদ দে হেয়া (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), পেপে রেইনা (নাপোলি)।

ডিফেন্ডার: জর্দি আলবা (বার্সেলোনা), নাচো মনরিল (আর্সেনাল), আলভারো আরিওসোলা (রিয়াল সোসিয়েদাদ), নাচো ফের্নান্দেস (রিয়াল মাদ্রিদ), দানি কারভাহাল (রিয়াল মাদ্রিদ), জেরার্দ পিকে (বার্সেলোনা), সের্হিও রামোস (রিয়াল মাদ্রিদ), সিজার আসপিলিকুয়েতা (চেলসি)।

মিডফিল্ডার: সের্হিও বুসকেতস (বার্সেলোনা), ইসকো (রিয়াল মাদ্রিদ), থিয়াগো আলকান্তারা (বায়ার্ন মিউনিখ), দাভিদ সিলভা (ম্যানচেস্টার সিটি), আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা (বার্সেলোনা), সাউল নিগেস (আতলেতিকো মাদ্রিদ), কোকে (আতলেতিকো মাদ্রিদ)।

ফরোয়ার্ড: মার্কো আসেনসিও (রিয়াল মাদ্রিদ), ইয়াগো আসপাস (সেল্তা ভিগো), দিয়েগো কস্তা (আতলেতিকো মাদ্রিদ), রদ্রিগো মোরেনো (ভালেন্সিয়া), লুকাস ভাসকেস (রিয়াল মাদ্রিদ)।

ইনিয়েস্তার বিদায়

জয় দিয়েই এবারের মৌসুম শেষ করলো স্প্যানিশ লা লিগা চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। লিগের শেষ ম্যাচে রিয়াল সোসিয়েদাদকে ১-০ গোলে হারায় তারা। আর এই ম্যাচের মাধ্যমেই চোখের জলে প্রিয় দল বার্সেলোনাকে বিদায় জানালেন স্প্যানিশ তারকা আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা। শেষ হলো ক্যাটালান ক্লাবটির সাথে তাঁর দীর্ঘ ২২ বছরের পথচলা।

ম্যাচের বাকি তখনও দশ মিনিট। কিন্তু ন্যু ক্যাম্পের ৮৪ হাজার দর্শক উঠে দাঁড়ালেন। ২২ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করে যে চলে যাচ্ছেন তাদের ঘরের ছেলে আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা। আনুষ্ঠানিকভাবে লিওনেল মেসির কাছে সঁপে দিলেন অধিনায়কের আর্মব্যান্ড। চোখের জলে বিদায় নিলেন প্রিয় মাঠ আর দর্শকদের কাছ থেকে।

দীর্ঘ এই ২২ বছরে বার্সার হয়ে জিতেছেন ৩২টি ট্রফি। স্প্যানিশ লা লিগা, কোপা দেল রে, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, স্প্যানিশ সুপার কাপ, ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপ, কোন শিরোপা নেই তার ঝুলিতে? ১৯৯৬ সালে মাত্র ১২ বছর বয়সে বার্সার যুব দলে যোগ দেয়ার পর থেকে অন্য কোনো ক্লাবে আর নাম লেখাননি বিশ্বকাপ জয়ী এই স্প্যানিশ তারকা। বার্সাকে সর্বজয়ী বানিয়ে সরে যাচ্ছেন তিনি। চাইলে খেলতে পারতেন আরো ক’বছর। কিন্তু ফর্ম হারিয়ে দল থেকে বাদ পড়তে চাননি। তাই ক্যাটালান দলটির প্রথম একাদশে জায়গা থাকতে থাকতেই স্বেচ্ছায় সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত ইনিয়েস্তার।

দলের লা লিগা শিরোপা উদযাপনের পাশাপাশি প্রিয় তারকা ইনিয়েস্তাকে বিদায় জানাতে ম্যাচ শেষে জমকালো আয়োজন করে বার্সেলোনা কর্তৃপক্ষ। কিংবদন্তীসম এই তারকার বিদায়ের সময় চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি ন্যু ক্যাম্পে উপস্থিত কেউই।

রোমে নাদাল চ্যাম্পিয়ন

বৃষ্টি এসে দুইবার খেলা থামাতে পারলো ঠিকই কিন্তু রাফায়েল নাদালের বিজয় ঠেকাতে পারলো না। রোম ‌ওপেনের ফাইনালে জার্মানির আলেক্সজান্ডার জেভেরেভকে ৬-১, ১-৬ ‌ও ৬-৩ গেমে হারিয়ে শিরোপা জিতলেন নাদাল। সেই সঙ্গে এটিপি টেনিসে আবার‌ও শীর্ষস্থান ফিরে পেলেন এই স্প্যানিশ তারকা।

ক্লে কোর্টের রাজা নাদাল আর জেভেরভের মধ্যকার ম্যাচে প্রথম সেট নির্বিঘ্নেই হয়। দ্বিতীয় সেট চলাকালে প্রথমে ১৫ মিনিট এবং পরে আর‌ও ২৫ মিনিট খেলা বৃষ্টিতে থেমে থাকে। পরে নাদাল ঠিকই জিতে নেন তার ক্যারিয়ারে রোম মাস্টার্সের অষ্টম শিরোপা।

টিম টু ওয়াচ: উরুগুয়ে

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, উরুগুয়ের কথা।

দক্ষিণ আমেরিকার নান্দনিক ফুটবলের প্রতিনিধি উরুগুয়ে। এখন পর্যন্ত দলটি দুইবার বিশ্বকাপ জিতেছে। বিশ্বকাপের ইতিহাসের প্রথম শিরোপাটি উরুগুয়ের দখলে। ১৯৩০ সালে বিশ্বকাপের সেই ফাইনালে উরুগুয়ে ৪-২ গোলে আর্জেন্টিনাকে পরাজিত করে। দ্বিতীয়বার বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয় তারা ১৯৫০ সালে। সেবার স্বাগতিক ব্রাজিলকে ফাইনালে ২-১ গোলে পরাজিত করেছিল। এছাড়া অলিম্পিক গেমসেও উরুগুয়ে বেশ সফল দল। দুইবার বিশ্বকাপ শিরোপা জেতার পাশাপাশি তারা, দুবার অলিম্পিক গেমস ও ১৪টি কোপা আমেরিকা শিরোপা জিতেছে। তাই রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য কোচ অস্কার তাবারেজ কোনো চমক না দিয়ে বার্সেলোনার স্ট্রাইকার সুয়ারেজ আর পিএসজি স্ট্রাইকার কাভানিকে মধ্যমনি করে ২৬ সদস্যের প্রাথমিক স্কোয়াড ঘোষণা করেছেন।

নতুন কোনো চমক না থাকলেও উরুগুয়ে যথেষ্ট ব্যালান্সড দল। আছেন লুইস সুয়ারেজ, এডিনসন কাভানি, ম্যাক্সি গোমেজের মত তুখোড় ফরোয়ার্ড। ডিফেন্সে রয়েছে দিয়াগো গডিন। আর পোস্টের নিচে রয়েছেন ফার্নান্দো মুসলেরার মতো বিশ্বস্ত হাত। তাই তাদের হারাতে যে কোনো দলের ঘাম ঝড়াতে হবে।

সুয়ারেজ হলেন উরুগুয়ের দলের তালিসমান। বার্সেলোনার ৩১ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডই এবারের লা-লিগায় লিওনেল মেসির সাথে বেশ চমক দেখিয়েছেন। জাতীয় দলের হয়ে ৮২ ম্যাচ খেলে করেছেন ৪৩ গোল। এইছাড়া ২০১৫ সালে উয়েফা বর্ষসেরা খেলোয়াড় দ্বিতীয় স্থান পান তিনি। বর্তমান দলে চার মহাতারকার মধ্যে সুয়ারেজ একজন। তাই র্নিদ্বিধায় বলা যেতেই পারে উরুগুয়ের সব আলোচনার কেন্দ্রে আছেন সুয়ারেজ।

২০১৮ বিশ্বকাপে ‘এ’ গ্রুপে খেলবে উরুগুয়ে। গ্রুপে তাদের সঙ্গে আছে মিশর, সৌদি আরব এবং স্বাগতিক রাশিয়া। আপাতত এই গ্রুপকে ‘গ্রুপ অফ ডেথ‘ই বলা হচ্ছে। কারণ প্রতিটি দলেরই একে অন্যকে হারানোর ক্ষমতা আছে। তবে সুয়ারেজ-কাভানি ঠিক মতো জ্বলে উঠলে এবার রাশিয়া বিশ্বকাপটা ঠিকই নিজেদের করে নিতে পারে উরুগুইয়ানরা।

রাতে আসছেন গ্যারি কারস্টেন

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কোচিং পরামর্শকের দায়িত্ব নিতে রাতে ঢাকায় আসছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ব্যাটসম্যান ও কোচ গ্যারি কারস্টেন। বিসিবির খন্ডকালিন পরামর্শকের দায়িত্ব নেওয়ার কথা আছে তার।

কারস্টেনের আসার পরই শুরু হবে নতুন করে প্রধান কোচ খোঁজার আলোচনা। ভারতের বিশ্বকাপজয়ী কোচ কারস্টেনকে বাংলাদেশে ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ হিসেবে পেতে চেয়েছিল বিসিবি। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এই ব্যাটসম্যান আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন পূর্ণসময়ের জন্য তিনি কোথাও যোগ দেবেন না।

এর আগে, কারস্টেন আইপিএলে বিরাট কোহলিদের দল রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর কোচের দায়িত্বে ছিলেন।

জার্মান কাপ জিতলো ফ্রাঙ্কফুর্ট

বায়ার্ন মিউনিখকে হারিয়ে ৩০ বছর পর জার্মান কাপ বা ডিএফবি পোকাল জিতলো এইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্ট। এর আগে, ১৯৮৮ সালে সবশেষ বারের মতো এই শিরোপা জিতেছিল ফ্রাঙ্কফুর্ট। অবশেষে ৩০ বছর পর জায়ান্ট বায়ার্ন মিউনিখকে ৩-১ গোলে হারিয়ে জার্মান কাপে চ্যাম্পিয়ন হলো ফ্রাঙ্কফুর্টের ক্লাবটি।

জার্মান বুন্দেসলিগার চ্যাম্পিয়ন দল বায়ার্ন মিউনিখ। ৮৪ পয়েন্ট নিয়ে তারা লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। সেখানে ফ্রাঙ্কফুর্ট রয়েছে অষ্টম স্থানে। তাদের পয়েন্ট বলতে গেলে বায়ার্নের অর্ধেক (৪৯)। সবাই ধরেই নিয়েছিল জার্মান কাপের শিরোপা হেসেখেলে জিতে নিবে ইয়ুপ হেইঙ্কেসের শিষ্যরা।

শনিবার রাতে ম্যাচের ১১ মিনিটেই এগিয়ে যায় ফ্রাঙ্কফুর্ট। এ সময় মাঝ মাঠে ভুল পাসে বল পেয়ে যান কেভিন প্রিন্স বোয়েটাং। তিনি বল বাড়িয়ে দেন আন্তে রেবিককে। বল নিয়ে ডি বক্সের মধ্যে ঢুকে পড়েন রেবিক। গোলরক্ষককে একা পেয়ে তাকে পরাস্ত করে বল পাঠিয়ে দেন জালে। তার গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় ফ্রাঙ্কফুর্ট।

বিরতির পর সমতায় ফেরে বায়ার্ন। এ সময় গোললাইনের পাশ থেকে ডি বক্সের মধ্যে লেভানডোস্কিকে বল বাড়িয়ে দেন জসুয়া কিমিচ। বল পেয়েই শট নেন রবার্ত লেভানডোস্কি। বল বাম কোণা দিয়ে জালে আশ্রয় নেয় (১-১)। ৮২ মিনিটে আন্তে রেবিক তার জোড়া গোল পূর্ণ করে আবারো এগিয়ে নেন দলকে।

এক সময় লম্বা শটে মাঝমাঠে বল চলে আসে। বল দখলে নেওয়ার জন্য বায়ার্নের দুইজনের সঙ্গে দৌড়াতে শুরু করেন রেবিক। তাদের দুজনকে পরাস্ত করে বল পেয়ে যান রেবিক। বায়ার্নের গোলরক্ষক সামনে এগিয়ে আসেন। তার উপর দিয়ে বল জালে পাঠিয়ে দেন রেবিক (২-১)।

ম্যাচের যোগ করা সময়ে গোল করে ফ্রাঙ্কফুর্টের শিরোপা জয় নিশ্চিত করেন মিজাত গাসিনোভিচ। ফাঁকা মাঠে তিনি বল নিয়ে ছুটে চলেন বায়ার্নের ফাঁকা পোস্টের দিকে। বল নিয়ে গিয়ে জালে জড়িয়ে দিয়েই জার্সি খুলে মাঠের বাইরে চলে যান। তাকে জড়িয়ে ধরে উল্লাস চলে কোচ, কর্মকর্তা ও খেলোয়াড়দের। এ উল্লাস বাঁধভাঙা, বাঁধনহারা। এ উল্লাস যে ৩০ বছর পর জার্মান কাপের শিরোপা জয়ের।

প্লে-অফ কোলকাতা

আইপিএলে ডু আর ডাই ম্যাচে হায়দ্রাবাদকে ৫ উইকেট হারিয়েছে বলিউড বাদশা শাহারুখ খানের দল কোলকাতা নাইট রাইডার্স। তাতে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে থেকেই প্লে-অফ নিশ্চিত করলো কোলকাতা।

হায়দ্রাবাদের দেয়া ১৭৩ রানে টার্গেটে নেমে আক্রামণাত্মক ব্যাটিং করে দুই ওপেনার সুনিল নারাইন ও ক্রিস লিন। মাত্র ৩.৪ ওভারে দলের স্কোরেজমা করেন তারা ৫২ রান। সুনিল নারাইন ভয়ংকর হবার আগে ১০ বলে ২৯ রান করেন। তাকে প্যাভিলিয়নের পথ দেখান সাকিব আল হাসান। এরপর ক্রিস লিন ও রবিন উথাপ্পা দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে লক্ষের কাছে চলে আসে কলকাতা। ক্রিস লিন দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৫ রান করেন। রবিন উথাপা করেন ৪৫ রান। শেষ পর্যন্ত ২২ বলে ২৬ রান করে দলেকে জিতেয়ে মাঠ ছাড়েন অধিনায়ক দিনেশ কার্তিক।হাদ্রাবদের হয়ে প্রথম খেলতে নামা কার্লোস ব্রেথওয়েট ২১ রানে তুলে নেন ২ উইকেট।

এর আগে রাজিব গান্ধি আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে, ব্যাটিং নেমে ভালো শুরু এনে দেন শিখর ধাওয়ান ও শ্রীবৎস গোস্বামী। উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৭৯ রান। শ্রীবৎস গো্স্বামী ২৬ বলে ৩৫ রানে আউট হলে, পাঁচ চার ও এক ছক্কায় ৩৯ বলে ফিফটি তুলে নেনে শিখর ধাওয়ান। ৩৬ রান করেন হায়দ্রাবাদের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসান। ব্যাট হাতে সাকিব করেন ৭ বলে দুই চারে করেন ১০ রান। শেষ পর্যন্ত হায়দ্রাবাদের ইনিংস থামে ১৭২ রানে।

এফএ কাপের শিরোপা চেলসির

এডেন হ্যাজার্ডের দেয়া একমাত্র গোলে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে হারিয়ে এফএ কাপের শিরোপা জিতলো চেলসি। সেই সঙ্গে ‘ব্লু’দের কোচ আন্তেনিও কোন্তের বিদায়টাও হলো জয় দিয়েই। এটি চেলসির অষ্টম এফএ কাপ জয়।

উইম্বিতে প্রতিযোগিতার ফাইনালে আধিপত্য ছিল দু’দলেরই। তবে খেলার ২২ মিনিটে এগিয়ে যায় চেলসি। নিজেদের বিপদ সীমায় রেড ডেভিলদের ডিফেন্ডার ফিল জোন্স, অবৈধভাবে চেলসির এডেন হ্যাজার্ডকে বাধা দিলে রেফারি পেনাল্টির নির্দেশ দেন। স্পটকিকে দলকে এগিয়ে দেন হ্যাজার্ড।

জলে ভেজা বিদায় বুফনের

জুভেন্টাসের জার্সিতে জিয়ানলুইগি বুফনের ক্যারিয়ার শেষ হলো জয় দিয়ে। মৌসুমে নিজেদের শেষ ম্যাচে ভেরোনাকে ২-১ গোলে হারিয়ে শিরোপা উল্লাস করেছে তুরিনের ক্লাবটি। আর নিজের শেষ ম্যাচে অশ্রুসিক্ত বিদায় বললেন বুফন।

গত তিন রাউন্ডের মতো আজ শনিবার ঘরের মাঠেও জুভেন্টাসের প্রথমার্ধের পারফরফম্যান্স ছিল হতাশাজনক। বিরতির আগে প্রতিপক্ষের গোলরক্ষককে তেমন কোনো পরীক্ষাতেই ফেলতে পারেনি তারা।

তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই দুই গোলে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় স্বাগতিকরা। ৪৯ মিনিটে ইতালিয়ান ডিফেন্ডার দানিয়েলে রুগানির গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর ৫২ মিনিটে দারুণ ফ্রি-কিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন বসনিয়ার মিডফিল্ডার মিরালেম পিয়ানিচ। ৭৬ মিনিটে ব্যবধান কমান ইতালিয়ান ফরোয়ার্ড আলেস্সিও চেরচি।

৮৪ মিনিটে অতিথিদের ডি-বক্সে তাদের এক খেলোয়াড়ের হাতে বল লাগায় পেনাল্টি পায় জুভেন্টাস। কিন্তু সুইস ডিফেন্ডার স্তেফান লিখটস্টাইনারের স্পট কিক বাঁয়ে ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক নিকোলাস। তবে তাতে জয় আটকায়নি চ্যাম্পিয়নদের।

এরই সঙ্গে শেষ হলো ইতালির হয়ে বিশ্বকাপ জয়ী গোলরক্ষক বুফনের জুভেন্টাস অধ্যায়। ২০০১ সালে পারমা থেকে তুরিনের ক্লাবটিতে যোগ দেওয়ার পর থেকে নয়টি সিরি’আ সহ মোট ১৮টি শিরোপা জিতেছেন ৪০ বছর বয়সী এই ফুটবলার।

বুফনের বিদায়ী ম্যাচ দেখতে মাঠে ছিলেন তিন সন্তান লিওপোলডো, লুইস থমাস ও ডেভিড লি। ছিলেন এখনকার সঙ্গী ইলারিয়া ডি’অ্যামিকো এবং সাবেক স্ত্রী এলিনা সেরেডোভা।

কোহলিদের বিদায়

আইপিএলে প্লে-অফের ‌ওঠার ম্যাচে রাজস্থান রয়্যালসের কাছে ৩০ রানে হেরে আসর থেকে বিদায় নিলো বিরাট কোহলির দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। এতে প্লে-অফের খুব কাছে এখন রাহনেরা। প্লে-অফের জন্য তাদের তাকিয়ে থাকতে হবে মুম্বাই ম্যাচের দিকে।

রাজস্থানের দেওয়া ১৬৫ রানের টার্গেটে ভালো সূচনা করে ব্যাঙ্গালুরু। তবে ম্যাচ সেরা গোপালের বোলিং তোপে ১৩৪ রানে থেমে যায় বেঙ্গালুরু ইনিংস। বিরাট কোহলি ৪ রানে গৌতমের বলে আউট হলে দ্বিতীয় উইকেটে পার্থিব প্যাটেলের সাথে ৫৫ রানের পার্টনারশিপ গড়েন এবি ডি ভিলিয়ার্স। ৩৩ রান করে প্যাটেল প্যাভিলিয়নে ফিরলে আর কোন ব্যাটসম্যান ডি ভিলিয়ার্সকে যোগ্য সঙ্গ দিতে পারেনি। ডি ভিলিয়ার্স সর্বোচ্চ ৫৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন। রাজস্থানের রয়্যালসের শ্রেয়াস গোপাল নেনে ১৬ রানে ৪ উইকেট।

আপরদিকে প্রথমে ব্যাটিং নেমে রাহুল ত্রিপাঠির ৫৮ বলে ৮০ রান। অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানের ৩১ বলে ৩৩ রান এবং প্রিটোরিয়ার ব্যাটসম্যান হেইনরিচি ক্লাসেনের ২১ বলে ৩২ রানের উপর ভর করে ১৬৪ রান স্কোর বোর্ড জমা করে রাজস্থান।

পথশিশুদের বিশ্বকাপ

পাকিস্তানকে টাইব্রেকারে হারিয়ে পথশিশুদের বিশ্বকাপ জিতেছে উজবেকিস্তান। নির্ধারিত সময়ের খেলা ১-১ গোলে ড্র হওয়ার পর, টাইব্রেকারে ৬-৫ গোলের জয় নিয়ে শিরোপা জিতে উজবেকিস্তান। রাশিয়ার মস্কোতে পথশিশুদের এই ফাইনাল ম্যাচে সরাসরি দেখেছে প্রায় এক লাখ ২২ হাজার দর্শক। ফিফা বিশ্বকাপের আগে পথশিশুদের এই টুর্নামেন্ট মুগ্ধ করেছে দর্শকদের।

পথ শিশুদের তৃতীয় বিশ্বকাপ জিতলো উজবেকিস্তান। পথ শিশুদের নিয়ে এই টুর্নামেন্টটা শুরু হয়েছিলো আট বছর আগে দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপের সময়। ২০১০ সালে ফিফা বিশ্বকাপ শুরুর আগে অনুষ্ঠিত হয়েছিলো পথ শিশুদের বিশ্বকাপ। ২০১৪ সালে ব্রাজিলের পর এবার রাশিয়াতেও অনুষ্ঠিত হলো এই বিশ্বকাপ।

পরিবার থেকে ছিন্ন ১৪-১৬ বছর বয়সীরাই মূলত এই টুর্নামেন্টে অংশ নিয়ে থাকে। খেলায় অনুষ্ঠিত হয় সেভেন-এ সাইড ফরমেটে। ২০১০ সালে শুরুটা ছোট আকারে হলেও ক্রমেই বাড়ছে পথশিশুদের বিশ্বকাপের জনপ্রিয়তা। মস্কোতে পথশিশুদের বিশ্বকাপে এবার অংশ নিয়েছিলো ২৩ টি দেশের প্রায় দুই শতাধিক খেলোয়াড়।

হতে পারে এটা ফুটবলেরই সার্থকতা। এমনিতেই ফুটবল বিশ্বকাপ নিয়ে দর্শকদের আগ্রহের কমতি নেই। সেই সুযোগে পথশিশুদের কিছু আনন্দ উপহার দিতেই মলূত এই টুর্নামেন্টের আয়োজন।

তিনবার এই প্রতিযোগীতা সফলভাবেই শেষ হয়েছে। লক্ষ্য ভবিষ্যতে আরও বড় আকারে এর আয়োজন করা। তবে এই টুর্নামেন্টের ভবিষ্যত অনেকটাই নির্ভর করছে সব দেশের দর্শকদের আগ্রহের ওপর।

বিশ্বকাপ ‌ওয়াগ

আগামী মাসেই শুরু হয়ে যাবে বিশ্বকাপ আসর। মনমাতানো ফুটবলশৈলিতে মেতে থাকবে পুরো বিশ্ব। অখ্যাত-অজ্ঞাত কোনো কোনো খেলোয়াড় আসবেন পাদপ্রদীপের আলোয়। কেউ আবার হারিয়ে‌ও যাবেন ব্যর্থতা সাথী করে কালের অতলে। শুধু ফুটবলারই নয়, তাদের প্রনোদনাদায়ী স্ত্রী কিংবা বান্ধবীরা‌ও থাকবেন রাশিয়ায়, বিশ্বকাপ চলাকালে। তারা‌ও রূপেরচ্ছ্বটায় চমকে দেবেন ফুটবল বিশ্বকে। এবার রয়েছে, ফুটবলারদের স্ত্রী ‌ও গার্লফ্রেন্ডদের (‌ওয়াগ) কথা।

তারকাদের সঙ্গে নিশ্চয়ই থাকবেন তাদের সঙ্গিনীরা। পর্তুগালের ফরোয়ার্ড ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর কল্যাণে যে এবার লিভারপুলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতে হ্যাট্টট্রিক করবে রিয়াল মাদ্রিদ সে বিষয়টা ইতোমধ্যেই অনুমেয়।

টানা পাচ বছর রাশিয়ান মডেল ইরিনা শায়কের সঙ্গে ডেটিং করার পর ২০১৫ সালে ঘটে বিচ্ছেদ। রোনালদো এখন থাকছেন স্প্যানিশ মডেল ২২ বছর বয়সী জর্জিনা রডরিগুয়েজের সঙ্গে।

এদিকে, রিয়াল মাদ্রিদের চির প্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার সুপারস্টার পাচবারের বিশ্বসেরা খেলোয়াড় লি‌ওনেল মেসি, গত বছর বিয়ে করলেন, স্বদেশী বান্ধবী আন্তোনেল্লা রোকুজ্জোকে। মেসির সঙ্গে সঙ্গে রোকুজ্জো‌ও যে গ্যালারি মাতাবেন সেটা বলাই বাহুল্য।

লিভারপুল ‌ও ইংল্যান্ডের মিডফিল্ডার অ্যালেক্স অক্সল্যাড-চেম্বারলিন, মেয়েদের ব্যান্ড ‘লিটল মিক্সয়ের’ গায়িকা পেরি অ্যাড‌ওয়ার্ডস, টটেনটহ্যাম তারকা ডালে আলী সম্পর্কে জড়িয়েছেন ২৩ বছর বয়সী মডেল রুবি মেইয়ের সঙ্গে এবং এক সন্তানের জনক ম্যানচেস্টার সিটির রাহিম স্ট্যার্লিং বান্ধবী পেগি মিলানকে নিয়ে যাচ্ছেন রাশিয়ায়।

তাদের সঙ্গে থাকছেন রাশিয়া জাতীয় দলের গোলকিপার ইগরের স্ত্রী কেতেরিনা আখিনফেভ, মিডফিল্ডার ডিমিত্রি’র স্ত্রী অ্যানাস্তাসিয়া কোসটেঙ্কো। তিনি আবার মিস রাশিয়া সুন্দরী প্রতিযোগিতায় রানার্সআপ হয়েছিলেন।

এইসব সুন্দরীদের সঙ্গে গ্যালারিতে উপস্থিত থাকবেন নানা দেশের, নানা বর্নের সুন্দরীরা‌ও। তাতে বলা যায়, মাঠের খেলার মতোই মাঠের বাইরে‌ও আলোচনায় থাকবে এবারের রাশিয়া বিশ্বকাপ।

টিম টু ‌ওয়াচ: পর্তুগাল

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, পর্তুগালের কথা।

ইউরোপের দেশ পর্তুগাল ।১৯৬৬ সালে চূড়ান্তপর্বে অংশ নিয়ে প্রথমবারেই তৃতীয় স্থান পায় তারা। বিশ্বকাপে এটাই এখন পর্যন্ত পর্তুগিজদের সেরা সাফল্য। এবার রাশিয়া বিশ্বকাপে পর্তুগালের নেতৃত্ব দেবেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এক দশক ধরে তিনি আধিপত্য করে যাচ্ছেন ফুটবল বিশ্বে। ৩৩ বছর বয়সী এই তারকার নেতৃত্বে ২০১৬ সালে ইউরোপের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে পর্তুগিজরা। এবার পালা বিশ্বকাপে সেরা হওয়ার।

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো হলেন পর্তুগাল দলের তালিসমান। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলা এই ফরোয়ার্ড একাই প্রতিপক্ষ শিবিরে ধ্বস নামতে পারেন, ছড়াতে পারেন আতঙ্ক‌ও। তিনি রিয়াল মাদ্রিদের সর্বোচ্চ গোলদাতা। দেশের জার্সি গায়ে ১৫০ টির অধিক গোল করেছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এরই মধ্যে পাঁচটি ব্যালন ডি’অর জিতেছেন। হোসে মোরিনহো সম্প্রতি মন্তব্য করেছিলেন যে রাশিয়াতে এবার পর্তুগালের সাফল্য নির্ভর করছে রোনালদোর উপরই।

তাই র্নিদ্বিধায় বলা যেতেই পারে পর্তুগালের সব আলোচনার কেন্দ্রে আছেন রোনালদো। তিনিই পর্তুগালের সাফল্যের প্রাণ ভোমরা। তবে মজার ব্যাপার হলো্ ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও লুইস ফিগোর পর পর্তুগালের হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছেন ন্যানি। তাকে রাখা হয়নি স্কোয়াডে। তিনি অবশ্য গেল বছরের কনফেডারেশনস কাপের পর থেকে জাতীয় দলের হয়ে আর খেলেননি। ২৩ সদস্যের স্কোয়াডে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ থেকে চারজন খেলোয়াড় রাখা হয়েছে। তারা হলেন ম্যানসিটির ফরোয়ার্ড বার্নার্ডো সিলভা, লেস্টারসিটির মিডফিল্ডার আদ্রিয়েন সিলভা, সাউদাম্পটনের রাইট ব্যাক সেডরিক সোয়ারেস এবং ওয়েস্টহ্যামের মিডফিল্ডার জোয়াও মারিও।

বিশ্বকাপে ‘বি’ গ্রুপে রয়েছে পর্তুগাল। এই `গ্রুপ অফ ডেথে’ তাদের প্রতিপক্ষ স্পেন, মরক্কো ও ইরান। আগামী ১৬ জুন স্পেনের বিপক্ষে পর্তুগাল তাদের প্রথম ম্যাচ খেলবে। ২০ জুন মরক্কো আর ২৬ জুন শেষ ম্যাচে পর্তুগালের প্রতিপক্ষ ইরান।

এফএ কাপের ফাইনাল আজ

ইংলিশ এফ এ কাপের ফাইনালে আজ শনিবার রাতে মুখোমুখি হচ্ছে চেলসি এবং ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। দু’দলের জন্যই ম্যাচটি গৌরব রক্ষার। এ মৌসুমে একটি শিরোপাও ঘরে তুলতে পারেনি ইংলিশ এই দুই জায়ান্ট ক্লাব।

হোসে মরিনহো তবু লিগ টেবিলের দুইয়ে থেকে আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলা নিশ্চিত করেছেন। তবে কন্তের চেলসি পাঁচে থেকে হারিয়েছে সেই সুযোগও। দুই কোচের জন্যই ট্রফিটি তাই নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার।

কোচিং ক্যারিয়ারে ১৩ মৌসুমে মাত্র দুবার কোনো শিরোপা ছুঁতে পারেননি মরিনহো। সেই সংখ্যাটা এবার বাড়াতে চান না তিনি। অন্যদিকে শেষ চার মৌসুমে ক্লাবের হয়ে কোনো না কোনো শিরোপা জিতেছেন কন্তে। সেই ধারাবাহিকতাই রক্ষা করতে চাইবেন আজ। তবে সব কিছু নির্ভর করছে ওয়েম্বলিতে যে দল সুযোগগুলো কাজে লাগাতে পারবে তার ওপর। বাংলাদেশ সময় রাত সোয়া দশটায় শুরু হবে ম্যাচটি।

রাশিয়া বিশ্বকাপে বল গার্ল

রাশিয়া বিশ্বকাপে ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েরা‌ও বল বয়ের কাজ করবে। এবার উদ্বোধনী ম্যাচেই বল বয়ের মতো বল গার্লের কাজ করবে তাতারিস্তানের আগরিজের (Agryz) ফুটবল দলের মেয়েরা। বিশ্বকাপের উদ্বোধনী খেলা দিয়েই প্রথমবারের মতো নারীরা, ছেলেদের মতো মাঠের বাইরে বল কুড়িয়ে ফেরত দেবে।

উদ্বোধনী ম্যাচের জন্য বাছাই করা সেই বালিকারা গত বৃহস্পতিবার কাজানে ট্রফি ট্যুরে অংশ নেয়। দেশব্যাপি এক প্রতিযোগিতার মধ্য থেকে এইসব বালিকাদের বল বয় হিসেবে বাছাই করা হয়। ১৩ থেকে ১৬ বছর বয়সী অপেশাদার নারী ফুটবল খেলোয়াড়দের মধ্য থেকে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। আর গত সপ্তাহের শুরুতে ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

অবশ্য সাধারণ ছেলেরাই বল বয়ের কাজ করে আসে। কিন্তু এবার বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধনী দিনে দেখা যাবে নতুন দৃশ্য। আগামী ১৪ জুন লুঝনিকি স্টেডিয়ামে, স্বাগতিক রাশিয়া এবং সৌদি আরবের মধ্যকার খেলার দিয়ে নতুন ইতিহাস রচিত হবে ফুটবলে। তা হলো, প্রথমবারের মতো নারীরা নামবে বল বয় হিসেবে।

পৃথিবীর ছয়টি মহাদেশের ৫১টি দেশের ৯১টি শহরে তিনমাসের ভ্রমণ শেষে রাশিয়ায় পৌছেছে ফিফা বিশ্বকাপ ট্রফি। তাছাড়া স্বাগতিক রাশিয়ার ১৬টি শহর এবং ১৬ হাজার কিলোমিটার (৯,৯০০ মাইল) ঘুরেছে বিশ্বকাপ ট্রফি। মেয়েদের বল বয়ের কাজ করার মতো স্বাগতিক দেশে দীর্ঘ ট্রফি ট্যুর করে নতুন রেকর্ড‌ও গড়ে এবারের ফিফা বিশ্বকাপ ট্রফি।

শিরোপা উল্লাস করছে অ্যাথলেটিকো

ফ্রান্সের লিওঁতে গত বুধবার রাতে ইউরোপা লিগের ফাইনাল ৩-০ গোলে জিতেছে দিয়েগো সিমেওনের দল অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। শেষ নয় বছরে এই নিয়ে তৃতীয়বার ইউরোপিয় ক্লাব ফুটবলের দ্বিতীয় সেরা প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হলো অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। ২০০৯-১০ ও ২০১১-১২ মৌসুমে আগের শিরোপা দুটি জিতেছিল মাদ্রিদের দলটি। দেশে ফিরে গিয়ে এখন তারা শিরোপা উল্লাস করছে।

বিশ্বকাপে আবার‌ও হুমকি আইএসের

সন্ত্রাসী গ্রুপ দায়েস/আইএস আবার‌ও লি‌ওনেল মেসি এবং ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে হত্যার হুমকি দিয়েছে। এরআগে, গত বছরের অক্টোবর মাসে মেসি এবং নেইমারকে হত্যার হুমকি দিয়েছিল সন্ত্রাসী এই গ্রুপটি।

তখন তারা একটি পোস্টার‌ও প্রকাশ করেছিল। তাতে দেখা যায়, মেসি এবং নেইমারকে মাঠের ‌ওপর হত্যা করছে মুখোশ পড়া সন্ত্রাসীরা। এবার যে পোস্টারটি প্রকাশ করে আইএস তাতে লেখা ‘রক্তে পূর্ণ হবে এই মাঠ।’

রিয়ালের বার-বি-কিউ পার্টি

অনুশীলন সেশনেই বার-বি-কিউ পার্টি করল রিয়াল মাদ্রিদের খেলোয়াড়রা। ভালদেবেবাসে শুক্রবার অনুশীলনে এসে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বার-বি-কিউ পার্টিতে অংশ নেয় জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা। যদি‌ও রবিবার লা লিগায় ভিয়া রিয়ালের সঙ্গে এবং আগামী সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল রয়েছে তাদের।

দলের খেলোয়াড়রা বার-বি-কিউয়ের খাবারগুলো খুব মজা করে খেয়েছেন। পার্টিটা পরিবারের সবাইকে নিয়ে উপভোগ করেছেন তারা। পেশাদার খেলোয়াড়দের ডায়েটের যে ব্যাপার থাকে, তার কোনো বাধ্যবাধকতা ছিল না ঐ পার্টিতে।

এই পার্টিকে বলা যায় রিয়াল মাদ্রিদের সৌভাগ্যের প্রতীক‌ও। ২০১৬ ‌ও ২০১৭ সালে মিলান ‌ও কার্ডিফে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের আগে এমনি পার্টি করেছিল ‘লা ব্ল্যঙ্কো’রা।

পিএসজিতে বুফন!

জুভেন্টাস ছাড়লে‌ও ফুটবল যে ছাড়ছেন না বুফন, তা আগেই জানিয়েছিলেন। তাকে দলে পেতে মুখিয়ে ছিল ইংলিশ দল আর্সেনাল এবং ম্যানচেস্টার সিটি। তবে ৪০ বছর বয়সী অভিজ্ঞ এই ইটালিয়ান গোলকিপারের জায়গা হচ্ছে ফ্রান্সের লিগ ‌ওয়ানের দল প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ে।

ফ্রান্সের দৈনিক ‘লা ইকুইপ’ জানিয়েছে, বুফনের সেখানে যোগ দে‌ওয়ার বিষয়ে দুই দলের মধ্যে (জুভেন্টাস ‌ও পিএসজি) সমঝোতা হয়েছে। বেশ কিছুদিন ধরে পিএসজি তাদের গোল লাইনে শক্তি বাড়ানোর জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছিল।

রাশিয়া বিশ্বকাপ জিতবে জার্মানি!

রাশিয়া বিশ্বকাপ জিতবে জার্মানি! খেলা শুরুর আগেই এমনটা জানিয়েছে কম্পিউটার। অক্টোপাস পলের মতো এখন থেকেই বিশ্বকাপ জয় নিয়ে ভবিষ্যতবাণী দেয়া শুরু করেছে কম্পাউটার। কম্পিউটারে বিভিন্ন দলের শক্তি-সামর্থ এবং প্রতিপক্ষের নাম দিয়ে দেয়া হয়।
একটা টেবিলের মাধ্যমে ফলাফল আসে। বিশ্বকাপের কোন্ দল কোন্ পর্যায় পর্যন্ত যেতে পারবে। এবং শতকরা কতভাগ তারা সফল হবে, সেই সব ফলাফল‌ও বের হয়।

তাতে দেখা যায়, বর্তমান জার্মানির বিশ্বকাপ জেতার সম্ভাবনা শতকরা ২৪ ভাগ। তাদের পরেই আছে ব্রাজিল এবং স্পেন। কম্পিউটার জানায়, ব্রাজিলের বিশ্বকাপ জেতার সম্ভাবনা ১৯.৮ ভাগ। আর স্পেনের ১৬.১ ভাগ।

তবে বিশ্বের আরেক জনপ্রিয় দল লি‌ওনেল মেসির আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ের সম্ভাবনা ৪.৯ ভাগ। জার্মানি, ব্রাজিল, স্পেন তো বটেই। আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ জয়ের ক্ষেত্রে ইংল্যান্ড, ফ্রান্স এবং বেলজিয়ামের পর সপ্তম স্থানে আছে। এটা শুধুই পরিসংখ্যান বিবেচনা করে কম্পিউটারের এক ধারণা মাত্র। আসল ফলাফল তো হবে রাশিয়ায়, জুন-জুলাই মাসে।

গার্দিওয়ালাকে রেখে দিল ম্যানচেস্টার

ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে নতুন চুক্তি করেছেন পেপ গার্দিওয়ালা। ২০২১ সাল পর্যন্ত ইংল্যান্ডের ক্লাবটিতে থাকবেন এই স্প্যানিশ কোচ। ৪৭ বছর বয়সী গার্দিওয়ালার অধীনে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের সদ্য সমাপ্ত মৌসুমে শিরোপা জেতার পাশাপাশি ১০০ পয়েন্ট অর্জনের রেকর্ড গড়ে সিটিজেনরা।

চুক্তি নিয়ে গার্দিওয়ালা বলেন, ‘আমি খুবই খুশি। এখানে কাজ করাটা আনন্দের।’

লিগ শিরোপা জেতার আগে গার্দিওয়ালার দল ফাইনালে আর্সেনালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে জয় করে লিগ কাপের শিরোপা।

প্রিমিয়ার লিগের পুরো মৌসুম জুড়ে মাত্র ১৪ পয়েন্ট হারানো সিটি গোল করে ১০৬টি, ম্যাচ জিতে ৩২টি। দুটিই প্রিমিয়ার লিগের রেকর্ড।

দলটাকে আরও ভাল অবস্থানে নিয়েই যেতে চান বার্সেলোনা ও বায়ার্ন মিউনিখে দায়িত্ব পালন করে আসা স্প্যানিশ কোচ গার্দিওয়ালা।

টিম টু ‌ওয়াচ: মিশর

বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, মিশরের কথা।

২৮ বছর পর মিশর এবার বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে উন্নীত হয়। এবার তারা ফিরেছে দারুণ গৌরবে। মোহাম্মদ সালাহ হলেন মিশর দলের তালিসমান। লিভারপুলের ২৫ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডই এবারের ইংলিশ লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা। বাছাই পর্বের ছয় ম্যাচে মোহাম্মদ সালাহ গোল করেছেন পাঁচটি। তাতে র্নিদ্বিধায় বলা যেতেই পারে মিশরের সব আলোচনার কেন্দ্রে আছেন সালাহ। তিনিই মিশরীয়দের সাফল্যের প্রাণ ভোমরা। বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে ওঠার পথে কঙ্গোকে ২-১ গোলে হারায় মিশর। আর সেই ম্যাচে সালাহ পেনাল্টিতে দলের পক্ষে জয়সূচক গোলটি করেন।

মজার ব্যাপার হলো সালাহ দলে সাহায্য করার মতো তেমন উচুমাপের কাউকেই পাননি। যেমন রবের্তো ফিরমেনো কিংবা সাদিও মানের মতো কেউ দলে থাকলে কাজটা আরো সহজ হয়ে যেতো তার জন্য। তবু তিনি একাই বহন করে চলেছেন মিশরকে এগিয়ে নিয়ে যাবার দায়িত্ব।

এদিকে, গ্রুপ এ তে মিশরের সঙ্গে আছে উরুগুয়ে, সৌদি আরব এবং স্বাগতিক রাশিয়া। তাই তাদেরকে নিয়ে খুব একটা উচ্চাশা করা যাচ্ছে না। তবে আপাতত এই গ্রুপকে ‘গ্রুপ অফ ডেথ‘ই বলা হচ্ছে। কারণ প্রতিটি দলেরই একে অন্যকে হারানোর ক্ষমতা আছে। আর দলের কোচ হেক্টর কুপার ডিফেন্সের ওপরই ভরসা করছেন। মিশর যদি ডিফেন্স শক্ত রাখার কাজে সব সময় ব্যস্ত থাকে তবে রাশিয়া বিশ্বকাপে লিভারপুলের সালাহকে খুঁজে পাওয়া একটু কঠিণই হবে।

আশার কথা আর্সেনালের মিডফিল্ডার মোহামেদ এলনেনি কিংবা স্টোক সিটির উইঙ্গার রামদার সোবি ঠিকমতো জ্বলে উঠতে পারলে বিপক্ষ দলের জন্য কঠিণ এক চ্যালেঞ্জের নাম হবে মিশর।

প্লে-অফের পথে ব্যাঙ্গালুরু

সাকিবদের বিপক্ষে বাঁচা-মরার লড়াইয়ে ১৪ রানে জয় পেয়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। তাতে ১৩ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের পঞ্চম স্থানে উঠে এলো বিরাট কোহলির দল।

ব্যাঙ্গালুরুর দেওয়া ২১৯ রানে টার্গেটে দুর্দান্ত সূচনা এনে দেন দু্‌ই ওপেনার শিখর ধাওয়ান ও অ্যালেক্স হেলস। ধাওয়ান ১৫ বলে ১৮ রানে করে আউট হন। এবি ডি ভিলিয়ার্সের দুর্দান্ত ক্যাচে পরিণত হ‌ওয়ার আগে ২৪ বলে ৩৭ রান করেন অ্যালেক্স হেলস। এরপর অধিনায়ক কেন
উইলিয়ামসের সাথে ১৩৫ রানে জুটি গড়েন মানিশ পান্ডিয়া। কেন উইলিয়ামসন ৮১ রানে আউট হলে ম্যাচ চলে যায় ব্যাঙ্গালুরু হাতে। শেষে ওভারে হায়দ্রাবাদের জয়ে প্রয়োজন ছিলো ২০ রান। তবে সেই ওভারে মাত্র ৫ রান দিয়ে ব্যাঙ্গালুরুকে ১৪ রানের জয় এনে দেন মোহাম্মদ সিরাজ। মানিশ পান্ডিয়া শেষ পর্যন্ত অপারিজিত থাকেন ৬২ রানে।

এর আগে চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে টসে হরে ব্যাটিং নেমে মাত্র ৬ রানে পার্থিব প্যাটলের উইকেট হরায় ব্যাঙ্গালুরু। অধিনায়ক বিরাট কোহলি‌ও ১২ রানের বেশি সংগ্রহ করতে পারেন নি। পরে মঈন আলীকে সাথে নিয়ে তৃতীয় উইকেট ১০৭ রানের জুটি গড়েন এবি ডি ভিলিয়ার্স। ম্যাচ সেরা ডি ভিলিয়ার্স ৩৯ বলে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৯ রান করেন। মঈন আলির ব্যাট থেকে আসে ৬৫ রান। শেষদিকে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের ১৭ বলে ৪০ রান ও সরফরাজ খানের ৮ বলে ২২ রানের ঝড়‌ে ৬ উইকেটে ২১৮ রান তোলে ব্যাঙ্গালুরু। হায়দ্রাবাদের হয়ে রাশিদ খান ২৭ রানে নেন ৩ উইকেট। তবে সাকিব আল হাসান ছিলেন উইকেট শূন্য। এদিকে, ৪ ওভারে ৭০ রান দিয়ে এবারের আসরে রেকর্ড গড়েন বাসিল থাম্পি।

সাকিবের পর আফ্রিদির নাম প্রত্যাহার

চলতি মাসের ৩১ তারিখে লর্ডসে ওয়েস্টে ইন্ডিজের বিরুদ্ধে অনুষ্ঠেয় প্রীতি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে বিশ্ব একাদশে জয়াগা পেয়েছিলেন পাকিস্তানের অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি। তবে হাঁটুর ইঞ্জুরির কারণে বিশ্ব একাদশে খেলতে পারেবেন না ৩৮ বছর বয়সি এই অলরাউন্ডার।

আফ্রিদি এক টুইটার বার্তায় জানান, ‘আমি হাটুর ইনজুরিতে পড়েছি। আমার সুস্থ হতে তিন থেকে চার সপ্তাহ সময় লাগবে। তাই আমি এই ম্যাচটা মিস করবো। অন্যাদিকে বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান তার ব্যাক্তিগত কারন দেখিয়ে আগেই নিজের নাম প্রত্যাহার করে নেন। তার পরিবর্তে একাদশে জয়গা পেয়েছেন নেপালের অফ স্পেনার সন্দীপ লামেচান।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ঘুর্নিঝড় হারিকেন ইরমা ও মারিয়ার আঘাতে লন্ডভন্ড হয়ে যায় দীপপুঞ্জ ‌ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুটি ক্রিকেট স্টেডিয়াম।ধ্বংসস্তেপের পরিনত হওয়া স্টেডিয়াম দুটি সংস্করনের জন্য তহবিল গঠনের লক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বিশ্ব একাদশের মধ্যকার চ্যারাটি ম্যাচের আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি, মেরিলিবোর্ন ক্রিকেট ক্লাব(এমসিসি) এবং ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড(ইসিবি)।

রিল্যাক্স ফিরমিনো

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের আগে দারুণ সময় কাটাচ্ছেন লিভারপুলের ব্রাজিলিয়ান তারকা খেলোয়াড় রবের্তো ফিরমিনো। ২৬ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে ছুটে গেছেন স্পেনের ইবিজায়।

সেমিফাইনালের প্রথম লেগে রোমাকে ৫-২ গোলে পরাজিত করার ম্যাচে দুটি গোল করেছিলেন ফিরমিনো। আগামী সপ্তাহে কিয়েভে রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে লড়াইয়ের আগে তাই স্ত্রী লারিসা পেরেইরাকে নিয়ে বেড়াতে যান ফিরমিনো। গত বছরই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তারা।

প্রতিপক্ষ সম্পর্কে ফিরমিনো বলেন, ‘একটা দারুণ ফাইনাল ম্যাচ হবে। আমরা রিয়াল মাদ্রিদ সম্পর্কে জানি। তারা জয় ছাড়া অন্যকিছু ভাবে না। স্প্যানিশ লিগের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও। তারা একটি চম‍তকার দল। তাদের বিপক্ষে খেলাটা সমসময়ই এক চ্যালেঞ্জের।’

টি-টোয়েন্টি সিরিজে‌ও হার বাংলাদেশের নারীদের

‌ওয়ানডের মতো টি-টোয়েন্টি সিরিজে‌ও দক্ষিণ আফ্রিকায় হার দিয়ে শুরু হলো বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটারদের। তিন ম্যাচের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে দক্ষিণ আফ্রিকা নারী ক্রিকেট দলের কাছে ১৭ রানে হারলো বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট দল। এতে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেলো স্বাগতিকরা।

দক্ষিণ আফ্রিকার দেওয়া ১২৮ রানের টার্গেটে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি সানজিদা ও শামিমা। ৫ রান করে শামিমা প্যাভিলিয়নে ফিরলে বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে পারেননি সানজিদা ইসলামও। সানজিদা ১৭ বলে করেন ৮ রান। এরপর রুমানা আহেমেদ ও ফারজানা হকের ৭২ রানের জুটি দলকে শক্ত অবস্থানে নিয়ে যায়। কিন্তু মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যাদের ব্যার্থতায় শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেটে ১১০ রানে থামে বাংলাদেশের নারীরা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেন রুমানা আহেমদ। ফারজানা করেন ৩৫ রান।

এর আগে কিম্বারলির ডায়মন ওভাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে ব্যাট করে, লিজেল লি’র ৪৬, লরা উলভার্টের ৩০ রান ও সুন লুম’য়ের ২৮ রানে ভর করে ৬ উইকেটে ১২৭ রান সংগ্রহ করে দক্ষিণ আফ্রিকার নারীরা। বাংলাদেশের খাদিজা ২৩ রানে নেন ৩ উইকেট।

আগামী ১৯ মে দ্বিতীয় ‌ও ২০ মে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হবে দু’দল।

জুভেন্টাস ছাড়ায় লিভারপুল-সিটিতে ডাক বুফনের

ফুটবল নয়; জুভেন্টাস ছাড়লেন অধিনায়ক জিয়ানলুইগি বুফন। এরপর তিনি অন্য কোনোখানে খেলবেন। সর্বকালের অন্যতম সেরা এই গোলকিপার আজ বৃহস্পতিবার আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে, জুভেন্টাসের সভাপতি আন্দ্রে আগনেল্লিকে নিয়ে দল ছাড়ার ঘোষণা দেন। তবে জুভেন্টাসকে গুডবাই বলার পরই তার সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেছে দুই ইংলিশ জায়ান্ট লিভারপুল ‌ও ম্যানচেস্টার সিটি।

আগামী শনিবার সিরিএ তে ভেরোনার বিপক্ষে ম্যাচটিই জুভেন্টাসে বুফনের বিদায়ী ম্যাচ হয়ে থাকবে। এরপর তিনি অন্য কোনো দল খুজে নেবেন। এ সময় বুফন বলেন, দু’সপ্তাহ আগে‌ও না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। কিন্তু খেলার ব্যাপারে এখন অনেক দল আগ্রহ দেখিয়েছে। আর এই প্রস্তাবগুলো এসেছে ক্লাব সভাপতি আগনেল্লির মাধ্যমেই। আমি টানা তিনদিন খুব ঠান্ডা মাথায় ভেবেছি। সিদ্ধান্ত পাল্টেছি। খেলা চালিয়ে যাব।

১৯৯৫ সালে পারমার হয়ে ইটালিয়ান ফুটবল লিগ সিরিএ-তে বুফনের অভিষেক হয়। ২০০১ সালে তিনি জুভেন্টাসে যোগ দেন। তারপর থেকে এই দলেই আছেন।

গত নভেম্বরে বিশ্বকাপ প্লে অফে সুইডেনের কাছে পরাজিত হয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে উঠতে না পারায় ৪০ বছর বয়সী গোলকিপার বুফন জাতীয় দল থেকে অবসরে যান। আগামী ৪ জুন নিজেদের মাঠ আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে একটি প্রীতি ম্যাচ খেলার মধ্য দিয়ে জাতীয় দলকে গুডবাই বলবেন বুফন।

ইউরোপা চ্যাম্পিয়ন অ্যাথলেটিকো

ফ্রান্সের লিওঁতে বুধবার রাতে ইউরোপা লিগের ফাইনাল ৩-০ গোলে জিতেছে দিয়েগো সিমেওনের দল। শেষ নয় বছরে এই নিয়ে তৃতীয়বার ইউরোপিয় ক্লাব ফুটবলের দ্বিতীয় সেরা প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হলো অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। ২০০৯-১০ ও ২০১১-১২ মৌসুমে আগের শিরোপা দুটি জিতেছিল মাদ্রিদের দলটি।

গ্রিজম্যান: ইউরোপা লিগ জয়ের পর স্ত্রীকে আদর করছেন

প্রতিপক্ষের ভুলে খেলার ২১ মিনিটে গোল পায় অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। নিজেদের ডি-বক্সের সামনে গোলরক্ষকের পাস মিডফিল্ডার জাম্বো আগিসা নিয়ন্ত্রণে নিতে ব্যর্থ হলে গাবি বল ধরে বাড়ান গ্রিজমানকে। দ্রুত ডি-বক্সে ঢুকে নিচু শটে দলকে এগিয়ে দেন ফরাসি এই ফরোয়ার্ড।

দ্বিতীয়ার্ধের চতুর্থ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন গ্রিজমান। কোকের পাস ডি-বক্সে পেয়ে কিছুটা এগিয়ে সঙ্গে লেগে থাকা ডিফেন্ডারকে কোনো সুযোগ না দিয়ে আগুয়ান গোলরক্ষকের ওপর দিয়ে জালে বল পাঠান তিনি। চলতি মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে গ্রিজমানের এটা ২৯তম গোল।

৮৯ মিনিটে কোকের পাস ডি-বক্সে পেয়ে নিখুঁত কোনাকুনি শটে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে শিরোপা নিশ্চিত করেন অ্যাথলেটিকোর অধিনায়ক গাবি।

নিষেধাজ্ঞার কারণে ডাগআউটে ছিলেন না দলের কোচ দিয়েগো সিমিওনে। তবে ম্যাচ শেষের সঙ্গে সঙ্গে নেমে আসেন মাঠে, যোগ দেন শিরোপা উৎসবে। ২০১২ সালে তার অধীনেই এই প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় শিরোপাটি জিতেছিল অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ।

প্রীতি ম্যাচে বার্সেলোনার জয়

প্রীতি ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার দল মামেলোডি সানডাউনকে ৩-১ গোলে পরাজিত করেছে স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা। নেলসন ম্যান্ডেলার জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত এই প্রীতি ম্যাচটি খেলতে বুধবার সকালে দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গে পৌছায় কাতালানরা।

দারুণ নৈপুণ্যে স্বাগতিকদের মামেলোডি সানডাউনকে ধরাশায়ী করে আবার রাতেই স্পেনে ফেরে বার্সেলোনা।

এফএনবি স্টেডিয়ামে, খেলার তিন মিনিটে বার্সাকে এগিয়ে দেন উসমান দেম্বেলে। ১৯ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন লুইস সুয়ারেজ। ৬৭ মিনিটে আন্দ্রে গোমেজ বার্সেলোনাকে ৩-০ গোলে এগিয়ে দেন।

খেলার ৭৬ মিনিটে মামেলোডি সানডাউনের পক্ষে একটি গোল শোধ করেন শিবুসিশো ভিলাকাজি। আর এই ম্যাচটি উপভোগ করার জন্য স্টেডিয়ামে উপস্থিত ছিলেন ৭৬ হাজার দর্শক।

রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে মুম্বাইয়ের জয়

আইপিএলে প্লে-অফে উঠার লড়াইয়ে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে ৩ রানে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের চতুর্থ স্থানে উঠে আসলো মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।এই জয়ে ১৩ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে প্লে-অফের দৌড়ে এখন মুস্তাফিজদের দল মুম্বাই।

মুম্বাইয়ের দেওয়া ১৮৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে, ১১ বলে ১৮ রান করে গেইল আউট হন। পরে অ্যারন ফিঞ্চকে নিয়ে ১১১ রানের জুটি গড়েন লোকেশ রাহুল। ফিঞ্চ ব্যাক্তিগত ৩৫ বলে ৪৬ রানে বুমরাহ বলে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়েনে ফেরেন। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৯৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন লোকেশ রাহুল। শেষ ওভারে পাঞ্জাবের জয়ে প্রয়োজন ছিলো ১৭ রান। কিন্তু শেষ ওভারে মাত্র ১৩ রান তুলতে পারে পাঞ্জাব। এতে ৩ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মুস্তাফিজের মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। মুম্বাইয়ের বোলার ম্যাচ সেরা জাসপ্রিত বুমরাহ ১৫ রানে তুলে নেন ৩ উইকেট।

প্রীতি জিনতার এই হাসি শেষ র্পযন্ত থাকে নি

এর আগে, মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে কাইরন পোলার্ডের ২৩ বলে ৫০, সুর্যকুমার যাদবের ১৫ বলে ২৭ ও ইশান কিশানের ১২ বলে ২০ রানের উপর ভর করে ৮ উইকেট ১৮৬ রান সংগ্রহ মুম্বাই।

আবার‌ও আবাহনীর পরাজয়

এএফসি কাপে নিজেদের শেষ ম্যাচেও হারলো আবাহনী লিমিটেড। নিজেদের মাঠে, ভারতের ব্যাঙ্গালুরু এফসির কাছে ৪-০ গোলে পরাজিত হয়েছে তারা। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে, উভয়ার্ধে দুটি করে গোল হজম করে সাইফুল বারী টিটুর দল।

খেলার ১৩ মিনিটেই কাউন্টার অ্যাটাক থেকে গোল করে ব্যাঙ্গালুরুকে এগিয়ে দেন, ড্যানিয়েল সেগোভিয়া। এই গোলের ৩ মিনিট পরই নিশু কুমার ব্যবধান দ্বিগুণ করেন। দুই গোলে পিছিয়ে থেকে খেলায় ফেরার চেষ্টা করে আবাহনী। কিন্তু সফল হয়নি। উল্টো ৫৮ মিনিটে নিশু কুমার আরো এক গোল করে ব্যাঙ্গালুরুকে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন। ৬০ মিনিটে অধিনায়ক সুনীল ছেত্রীর গোলে ৪-০ ব্যবধাণে জয় নিশ্চিত করে ব্যাঙ্গালুরু এফসি।

এই জয়ে ’ই গ্রুপে’ ১৫ পয়েন্ট নিয়ে সবার শীর্ষে উঠে গেলো ভারতের দলটি।

রাশিয়া বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড দল

রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য ইংল্যান্ডের কোচ গ্যারেথ সাউদগেট ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছেন। জাতীয় দলে একেবারে নতুন হিসেবে জায়গা পেয়েছেন গোলকিপার বার্নলির নিক পোপ এবং লিভারপুলের রক্ষণভাগের খেলোয়াড় ট্রেন্ট আলেক্সজান্ডার-আর্নল্ড। তাছাড়া ৫ জনকে স্ট্যান্ডবাই হিসেবে রাখা হয়েছে।

জি গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ইংলিশরা আগামী ১৮ জুন তিউনিসিয়ার মুখোমুখি হবে। গ্রুপে অন্য দুই প্রতিপক্ষ পানামা ‌ও বেলজিয়াম। ১২ জুন রাশিয়া যা‌ওয়ার আগে, আগামী ২ জুন উইম্বলিতে 'থ্রি লায়ন'রা নাইজেরিয়া এবং ৭ জুন এলান্ড রোডে কোস্টারিকার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলবে।

ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ দল

গোলকিপার: জ্যাক বাটল্যান্ড, জর্ডান পিকফোর্ড ‌ও নিক পোপ।

রক্ষণভাগ: ট্রেন্ট আলেক্সজান্ডার-আর্নল্ড, গ্যারি কাহিল, ফ্রাবিয়ান ডেলফ, ফিল জোন্স, হ্যারি মাগুইরি, ড্যানি রোজ, জন স্টোনস, কাইরান ট্রিপিয়ের ‌ও অ্যাশলে ইয়ং।

মিডফিল্ডার: ডালে আলী, এরিক ডায়ার, জর্ডন হেন্ডারসন, জেসি লিংগার্ড ‌ও রুবেন লুফটস-চিক।

আক্রমণভাগ: হ্যারি কেন, মার্কাস রাশফোর্ড, রাহিম স্টার্লিং, জেমি ভার্ডি ‌ও ড্যানি ‌ওয়েলবেক।

স্ট্যান্ডবাই: টম হিটন, জেমস তারকা‌ওয়াস্কি, লুইস কুক, জ্যাক লিভারমুর ‌ও এডাম লালানা।

আর্জেন্টিনার ২৩ সদস্য চূড়ান্ত করার গুজব

রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য আর্জেন্টিনার ২৩ সদস্যের দল চূড়ান্ত করার গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। দলের কোচ সাম্পা‌ওলির ৩৫ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণার পরই দিনই এই গুজব ছড়িয়ে পড়ে। অবশ্য এ বিষয়ে ফক্স স্পোর্টস একটি সংবাদ প্রকাশ করার পরই এমনটা ঘটে।

ফক্স স্পোর্টস তাদের সংবাদে জানায়, হোর্হে সাম্পা‌ওলি ইতোমধ্যেই ২৩ জনের চূড়ান্ত দল আর্জেন্টিনা ফুটবল এসোসিয়েশনের কাছে জমা দিয়েছেন। আর এএফএ কর্মকর্তারা চূড়ান্তভাবে নির্বাচিতদের অনুশীলন ক্যাম্পে জানিয়ে‌ও দিয়েছেন। প্রকাশিত সেই রিপ‌োর্ট অনুযায়ী, নিচের এই খেলোয়াড়রা বিশ্বকাপ মিস করবেন অথবা রিজার্ভ বেঞ্চে থাকবেন।

গোলরক্ষক : নাহুয়েল গুজম্যান।

রক্ষণভাগ : জার্মান পেজ্জেল্লা, রামিরো ফুয়েনস মোরি ও ক্রিস্টিয়ান আনসালদি।

মধ্যমভাগ : ম্যাক্সিমিলিয়ানো মেজা, এনজো পেরেজ, লিওনার্দো পারেদেস, রদ্রিগো বাট্টাগলিয়া ও পাবলো পেরেজ।

আক্রমণভাগ : মাওরো ইকার্দি, দিয়েগো পেরোত্তি ও লাউটারটো মার্টিনেজ।

আগামী সোমবার আর্জেন্টিনার ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করার কথা রয়েছে। তখনই জানা যাবে, আসল সত্যটা। এমনটা হলে আর্জেন্টিনার চূড়ান্ত দল হবে নিচের মতো।

আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দল

গোলরক্ষক : সার্জিও রোমেরো, উইলফার্ডো কাবাল্লেরো ও ফ্রাঙ্কো আরমানি।

রক্ষণভাগ : গ্যাব্রিয়েল মার্কাদো, এডুয়ার্ডো সালভিয়ো, জাভিয়ার মাশ্চেরানো, নিকোলাস ওটামেন্ডি, ফেদেরিকো ফাজিও, মার্কোস রোহো, নিকোলাস তাগলিয়াফিকো ‌ও মার্কোস আকুনা।

মধ্যমভাগ : ম্যানুয়েল লানজিনি, রিকার্ডো সেঞ্চুরিওন, গুইদো পিজারো, এভার বানেগা, জিওভানি লো সেলসো, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া ‌ও ক্রিস্টিয়ান পাভুন।

আক্রমণভাগ : লিওনেল মেসি, পাওলো দিবালা, সার্জিও আগুয়েরো ‌ও গঞ্জালো হিগুয়েন।

প্লে-অফের পথে কলকাতা

আইপিএলে রাজস্থান র‌য়্যালসকে ৬ উইকেটে হারিয়ে লিগ টেবিলের তৃতীয় স্থানে উঠে আসলো শাহারুখ খানের কলকাতা নাইট রাইডার্স। এই জয়ে ১৩ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে প্লে-অফের খেলার পথে শক্ত অবস্থানে রইলো নাইটরা।

রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে ১৪৩ রানের টার্গেটে নেমে ইনিংসের প্রথম বলে ছয় মেরে কলকাতাকে শুভ সূচনা এনে দেন ‍সুনিল নারাইন। তবে বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি তার ব্যাট। ৭ বলে ২১ রানে আউট হন তিনি। তবে শেষ পর্যন্ত ক্রিস লিন ও অধিনায়ক দিনেশ কার্তিকের দৃঢ়তায় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে কলকাতা। নাইট রাইডার্সদের হয়ে সর্বোচ্চ ক্রিস লিন ৪২ বলে করেন সর্বোচ্চ ৪৫ রান। দিনেশ কার্তিক অপরাজিত থাকেন ৩১ বলে ৪১ রান করে।

কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে কুলদিপ যাদবের বোলিংয়ের তোপে মাত্র ১৪২ রানে গুাটিয়ে যায় রাজস্থান রয়্যালসের ইনিংস। রাজস্থানের হয়ে জস বাটলার ২২ বলে সর্বোচ্চ ৩৯ রান করেন। রাহুল ত্রিপাঠি করেন ২৭ রান। কলকাতার বোলারদের মধ্য কুলদিপ যাদব ২০ রানে ৪ উইকেট নিয়ে রাজস্থানের ব্যাটিংয়ে ধ্বস নামান।

অভিষেক টেষ্টে আইরিশদের লড়াকু হার

অভিষেক টেস্টে ম্যাচ সেরা কেভিন ও’ব্রায়েনের সেঞ্চুরির পরও পাকিস্তানের কাছে ৫ উইকেটে হারলো স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড।

ডাবলিন টেস্টে ম্যাচের শেষ ইনিংসে ১৬০ রানের টার্গেটে নেমে পাকিস্তান ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল ১৪ রানেই। কিন্তু অভিষিক্ত ইমাম-উল-হক ও বাবর আজম জুটি দলকে এগিয়ে নেয় জয়ের পথে।

৩ উইকেট হাতে নিয়ে ১৩৯ রানে এগিয়ে থেকে শেষ দিন শুরু করেছিল আয়ারল্যান্ড। তবে আর আর লড়াই চালিয়ে যেতে পারেনি তারা।

দেশের টেস্ট অভিষেকে সেঞ্চুরির কীর্তি গড়া কেভিন ও’ব্রায়েন ফেরেন আগের দিনের ১১৮ রানেই। ৩৩৯ রানে গুটিয়ে যায় আইরিশরা। ৬৬ রানে ৫ উইকেট নিয়ে মোহাম্মদ আব্বাস স্বাগতিক শিবিরে ধ্বস নামান। ষষ্ঠ টেস্টে এই পেসার দ্বিতীয়বার ইনিংসে ৫ উইকেট নিলেন।

রান তাড়ায় নামা পাকিস্তানকে নতুন বলে নাড়িয়ে দেন দুই আইরিশ পেসার টিম মারটাঘ ও বয়েড র‌্যানকিন। প্রথম ইনিংসে চার উইকেট নেওয়া মারটাঘ ফেরান আজহার আলি ও আসাদ শফিককে। মাঝে র‌্যানকিনের শিকার হারিস সোহেল। ৫ ওভারের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়ে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের সামনে তখন কঠিন চ্যালেঞ্জ। আর আইরিশদের সামনে ইতিহাসের হাতছানি। শেষ পর্যন্ত তরুণ দুই ব্যাটসম্যানের ব্যাটে সেই চ্যালেঞ্জ জিতেছে পাকিস্তান।

অভিষিক্ত ওপেনার ইমাম-উল-হক ও বাবর আজম চতুর্থ উইকেটে ১২৬ রানের জুটিতে ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেন। বাবর ৫৯ রানে রান আউট হলে ভাঙে এই জুটি। শেষ পর্যন্ত আইরিশরা পরাজয় মানে ইমাম উল হকের অপরাজিত ৭৪ রানের কাছে। ৫ উইকেটে ১৬০ রান করে জয় পায় পাকিস্তান।

প্রধান নির্বাচক ইনজামাম-উল-হকের ভাতিজা বলে ইমামের টেস্ট দলে জায়গা পাওয়া নিয়ে ছিল অনেক সমালোচনা। অভিষেকে দলকে জেতানো অপরাজিত ইনিংসে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান দিলেন সমলোচনার জবাব আর যোগ্যতার প্রমাণ।

এর আগে, আয়ারল্যান্ডের ১৩০ রানের জবাবে প্রথম ইনিংসে ৯ উইকেটে ৩১০ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করেছিল পাকিস্তান।

তেভেজের অবসর ভাবনা

আগামী বছর ফুটবল থেকে অবসর নিতে যাচ্ছেন আর্জেন্টিনার তারকা ফুটবলার কার্লোস তেভেজ। ২০১৯ সাল পর্যন্ত বোকা জুনিয়র্সের সঙ্গে চুক্তি তার। চুক্তি শেষেই বুট-মোজা তুলে রাখার ইচ্ছে তার।

চীনা সুপার লিগের দল সাংহাই শিনহুয়ায় একটি ছোট মৌসুম শেষ করে তেভেজ গত জানুয়ারি মাসে দ্বিতীয়বারের মতো বোকা জুনিয়র্সে ফেরেন। সাংহাই শিনহুয়ায় তিনি ছিলেন সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পা‌ওয়া খেলোয়াড়।

ফেদেরার আবার‌ও এক নম্বর

মার্চ থেকে কোর্টের বাইরে। কোনো খেলাতেই নেই রজার ফেদেরার। তবু গতকাল প্রকাশিত এটিপি নতুন র‌্যাংকিংয়ে সবার শীর্ষে উঠে এলেন সুইস তারকা রজার ফেদেরার।

এদিকে, মাদ্রিদ ‌ওপেনের দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে বিদায় নে‌ওয়ায়, সাবেক এক নম্বর তারকা নোভাক জকোভিচ ছয় ধাপ পিছিয়ে ১৮তম স্থানে নেমে গেছেন। ২০০৬ সালের অক্টোবরের পর এটাই তার সবচেয়ে বাজে র‌্যাংকিং।

কলকাতা-রাজস্থান লড়াই আজ

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ-আইপিএলে আজকের একমাত্র ম্যাচে কলকাতা নাইট রাইডার্সের মুখোমুখি হবে রাজস্থান রয়্যালস। কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে আটটায় শুরু হবে ম্যাচটি। প্লে অফ খেলতে হবে দুই দলের জন্যই এই ম্যাচে জয় পা‌ওয়া জরুরী। ১২ ম্যাচে উভয় দলের সংগ্রহ ১২ পয়েন্ট করে।

এদিকে, কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে কাল ১০ উইকেটে হারিয়েছে বিরাট কোহিলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালুরু। এই জয়ে ১২ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে প্লে-অফে উঠার আশাটা জিইয়ে রাখলো ব্যাঙ্গালুরু।

টসে হেরে ব্যাট করে মাত্র ৮৮ রানে গুটিয়ে যায় পাঞ্জাবের ইনিংস। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২৬ রান করেন অ্যারন ফিঞ্চ। লোকশ রাহুল ২১ ও ক্রিস গেইল করেন ১৮ রান। ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে ম্যাচ সেরা উমেশ যাদব ২৩ রানে ৩ উইকেট নেন।

৮৯ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে দুর্দান্ত খেলেতে থাকেন দুই ওপেনার বিরাট কোহলি ও পার্থিব প্যাটেল। তাদের ব্যাটিংয়ে মাত্র ৮.১ ওভারে কোন উইকেট না হারিয়ে জয়ের লক্ষে পৌঁছায় ব্যাঙ্গালুরু। অধিনায়ক বিরাট কোহলি অপরাজিত থাকেন ২৮ বলে ৪৮ রান করে। আর পার্থিবের ব্যাট থেকে আসে ২৪ রান।

আর্জেন্টিনার প্রাথমিক দল ঘোষণা

ব্রাজিলের পর রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য দল ঘোষণা করেছে আর্জেন্টিনা‌ও। তবে কোচ জর্জ সাম্পা‌ওলি ৩৫ জনের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছেন। আগামী ৪ জুনের মধ্যে ২৩ সদস্যের পাকা স্কোয়াড ঘোষণা করা হবে।

সাম্পাওলি স্ট্রাইকার হিসেবে সেরা অস্ত্রদেরই নিয়েছে। লিওনেল মেসির পাশাপাশি আছেন সার্জিও আগুয়েরো, গঞ্জালো হিগুয়েন, পাওলো দিবালা ও মাউরো ইকার্দি।

১৪ জুন থেকে শুরু হওয়া বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা রয়েছে গ্রুপ ডি তে। যেখানে প্রতিপক্ষ হিসেবে আছে আইসল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া ও নাইজেরিয়া। ১৬ জুন আইসল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলবে আলবেসেলেস্তারা।

আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ দল :

গোলরক্ষক: সার্জিও রোমেরো, উইলফার্ডো কাবাল্লেরো, নাহুয়েল গুজম্যান ও ফ্রাঙ্কো আরমানি।

রক্ষণভাগ : গ্যাব্রিয়েল মার্কাদো, এডুয়ার্ডো সালভিয়ো, জাভিয়ার মাশ্চেরানো, নিকোলাস ওটামেন্ডি, জার্মান পেজ্জেল্লা, ফেড্রিকো ফাজিও, মার্কোস রোহো, রামিরো ফুয়েনস মোরি, নিকোলাস তাগলিয়াফিকো, মার্কোস আকুনা ও ক্রিস্টিয়ান আনসালদি।

মধ্যমভাগ : ম্যানুয়েল লানজিনি, রিকার্ডো সেঞ্চুরিওন, ম্যাক্সিমিলিয়ানো মেজা, লুকাস বিগলিয়া, গুইদো পিজারো, এনজো পেরেজ, এভার বানেগা, জিওভানি লো সেলসো, লিওনার্দো পারেদেস, রদ্রিগো বাট্টাগলিয়া, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া, ক্রিস্টিয়ান পাভোন ও পাবলো পেরেজ।

আক্রমণভাগ: লিওনেল মেসি, পাওলো দিবালা, সার্জিও আগুয়েরো, গঞ্জালো হিগুইন, মাওরো ইকার্দি, দিয়েগো পেরোত্তি ও লাউটারটো মার্টিনেজ।

ব্রাজিলের বিশ্বকাপ দল

রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য ২৩ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে ব্রাজিল। চোট কাটিয়ে ফেরার অপেক্ষায় থাকা নেইমারের পাশে আক্রমণভাগে শাখতার দোনেৎস্কের তাইসনকে দলে রেখেছেন কোচ তিতে। ষষ্ঠ বিশ্বকাপ জয়ের মিশনে ইউক্রেনের ক্লাব শাখতারের মিডফিল্ডার ফ্রেডও আছেন ব্রাজিল দলে।

রাইট-ব্যাক পজিশনে রিয়াল মাদ্রিদের মার্সেলোর সঙ্গে আছেন আথলেতিকো মাদ্রিদের ফেলিপে লুইস। আর লেফট-ব্যাক দানি আলভেস চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়ায় ডাক পেয়েছেন করিন্থিয়ান্সের ফাগনার ও ম্যানচেস্টার সিটির ড্যানিলো।

আগামী ২৬ মে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মুখোমুখি লড়বে রিয়াল মাদ্রিদ ও লিভারপুল। এই দুই দলের খেলোয়াড় ছাড়া তিতের ডাক পাওয়া সবাই আগামী ২১ মে ব্রাজিলে একত্রিত হবে। আর এক সপ্তাহ পর লন্ডনে টটেনহ্যাম হটস্পারের ট্রেনিং সেন্টারে ঘাঁটি করবে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। তারপর আগামী ৩ জুন অ্যানফিল্ডে ক্রোয়েশিয়া ও ১০ জুন ভিয়েনায় অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে নেইমাররা। আগামী ১৭ জুন সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ জয়ের মিশন শুরু করবে ব্রাজিল।

‘ই’ গ্রুপে তাদের অন্য প্রতিদ্বন্দ্বী কোস্টারিকা, সার্বিয়া ‌ও সুইজারল্যান্ড।

২৩ সদস্যের ব্রাজিল দল

গোলকিপার: আলিসন, কাসিও ও এদেরসন।

ডিফেন্ডার: দানিলো, ফাগনার, ফিলিপে লুইস, মার্সেলো, মার্কিনিয়োস, মিরান্দা, চিয়াগো সিলভা ও পেদ্রো জেরোমেল।

মিডফিল্ডার: রেনাতো আউগুস্তো, কাসেমিরো, ফিলিপে কৌতিনিয়ো, ফের্নানদিনিয়ো, পাওলিনিয়ো, উইলিয়ান ও ফ্রেদ।

ফরোয়ার্ড: রবের্তো ফিরমিনো, গাব্রিয়েল জেসুস, নেইমার, দগলাস কস্তা ও তাইসন।

বুধবার ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ দল

রাশিয়া বিশ্বকাপের জন্য মোটামুটিভাবে ইংল্যান্ড দল ঠিক হয়ে আছে। তবে আগামী বুধবার ২৩ সদস্যের দল ঘোষণা করবেন কোচ গ্যারেথ সাউদগেট। থ্রি লায়নদের হয়ে কোন কোন খেলোয়াড় বিশ্বকাপ দলে থাকতে পারেন সম্ভ্যাব্য সেই দল দিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম স্পোর্টসম্যান। তারা জানিয়েছে, সাউদগেটের দলের সঙ্গে হুবহু মিল না-ই থাকতে পারে। তবে বেশিরভাগেরই সেই দলে থাকার সম্ভাবনা বলে জানায়, সংবাদ মাধ্যমটি।

ইংল্যান্ড দলের সদস্যরা হলেন:

গোলকিপার:

জর্ডন পিকফোর্ড (এভারটন), জ্যাক বাটল্যান্ড (স্টোক সিটি) ‌ও জো হার্ট (‌ওয়েস্ট হ্যাম)।

ডিফেন্ডার:

জন স্টোনস (ম্যানচেস্টার সিটি), কিলি ‌ওয়াকার (ম্যানচেস্টার সিটি), কাইরান ট্রিপিয়ার (টটেনহ্যাম), হ্যারি মাগুইরি (লেস্টার সিটি), ফিল জোনস (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), ট্রেন্ট আলেক্সজান্ডার-আর্নল্ড (লিভারপুল), ড্যানি রোজ (টটেনহ্যাম) ‌ও রায়ান বারটেন্ড (সাইদাম্পটন)।

মিডফিল্ডার:

জন হেন্ডারসন (লিভারপুল), এরিক দিয়ার (টটেনহ্যাম), ডালে আলী (টটেনহ্যাম), রাহিম স্টার্লিং (ম্যানচেস্টার সিটি), জেমস লিংগার্ড (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), রুবেল লুফটাস-চিক (ক্রিস্টাল প্যালেস), জনজো সেলভি (নিউ ক্যাসল) ‌ও অ্যাডাম লালানা (লিভারপুল)।

স্ট্রাইকার:

হ্যারি কেন (টটেনহ্যাম), জেমি ভার্দি (লেস্টার সিটি), মার্কাস রাশফোর্ড (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড) ‌ও জ্যাডন সাঙ্কো (বুরুশিয়া ডর্টমুন্ড)।