সকাল ৬:০৬, শুক্রবার, ২৪শে মার্চ, ২০১৭ ইং

এক নজরে

ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের সবচেয়ে জমজমাট আসর আইপিএল। এই আসরে খেলে থাকেন বিশ্বের নামিদামি ক্রিকেটার। বেশ জমে ওঠে এই টুর্নামেন্ট। কিন্তু এই আসর কি থাকছে? এমন প্রশ্নও অবান্তর নয়! কারণ তো আছেই।

বিসিসিআইয়ের কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটর যেসব নতুন নিয়ম-নীতি চূড়ান্ত করেছে, সেখানে উল্লেখ নেই কোনো ঘরোয়া টি-টোয়েন্টির কথা। তার মানে, আইপিএলকে বাতিল বাতিল করে দিল বিসিসিআই! ভারতের আরেকটি টুর্নামেন্টও তাহলে বাদ পড়ে যায়, সেটা হলো সৈয়দ মুশতাক আলী ট্রফি।

বিসিসিআইয়ের নতুন সংবিধানের অধ্যায় পাঁচ ২৫ (২) বলছে, রঞ্জি, ইরানি, দিলীপ, দেওধর, বিজয় হাজারে ও বিশ্ববিদ্যালয়ের টুর্নামেন্ট বিজি ট্রফি নিয়ে কাজ করবে বিসিসিআইয়ের পাঁচ সদস্যের সিনিয়র টুর্নামেন্ট কমিটি। সেখানে উল্লেখ করা হয়নি ভারতের কোনো টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট।

ইচ্ছাকৃতভাবেই ঘরোয়া টি-টোয়েন্টির কথা বাদ দেয়া হলো? নাকি ভুল করে এমনটা হলো? ভারতীয় গণমাধ্যম এ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে।

প্রসঙ্গত, বিসিসিআইয়ের অধীনে এখন দুটি ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট হয়। টুর্নামেন্ট দুটি হলো- আইপিএল ও সৈয়দ মুশতাক আলী ট্রফি।

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হাতে সাব্বির-তাসকিনরা

বিশ্বকাপের পরই আইসিসির সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ টুর্নামেন্ট চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। র‌্যাংকিংয়ে থাকা সেরা আটটি দল নিয়ে ১ জুন থেকে ইংল্যান্ডে শুরু হবে আইসিসির দ্বিতীয় সেরা এই ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো দেশকে পেছনে ফেলে এবার বাংলাদেশ খেলবে আইসিসির প্রেস্টিজিয়াস এই টুর্নামেন্টটিতে।

গত ২ মার্চ থেকে শুরু হয়েছে আইসিসি ট্রফির বিশ্ব ভ্রমণ। অংশগ্রহণকারী ৮টি দেশের মোট ১৯টি শহর প্রদক্ষিণ করবে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ট্রফিটি। ২ মার্চ ভারতের মুম্বাই থেকে শুরু হয় ‘নিশান আইসিসি ট্রফি ট্যুর’। এরপর বাংলাদেশ হয়ে এই ট্রফিটি এখন আছে শ্রীলঙ্কায়। আর বাংলাদেশ দলও আছে লঙ্কা সফরে।

তাই নিজের দেশে এই ট্রফিটি দেখতে না পারলেও শ্রীলঙ্কায় পৌঁছানোর পর ট্রফিটি হাতে নিয়ে ছবি তুলেছে টাইগার তারকা সাব্বির-তাসকিন-সৌম্যরা। পর নিজের ফেরিফাইড ফেসবুক পেইজে এ ছবি শেয়ার দেন সাব্বির।

ক্রিকেট

সরি’ বলতে পারেন না কোহলি!

ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার ক্রিকেটীয় বাকযুদ্ধ যেন থামছেই না। অস্ট্রেলিয়ার সংবাদ মাধ্যম ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির। কোহলিকে নিয়ে একের পর এক বিতর্ক ছড়িয়েই যাচ্ছে তারা। এবার অজি ক্রিকেট বোর্ড প্রধান জেমস সাদারল্যান্ডও সেই দলে যোগ দিলেন।

কোহলির সমালোচনা করে সাদারল্যান্ড বলেন, ‘কোহলি বোধহয় ‘সরি’ শব্দটাও ঠিক মতো বলতে জানে না!’ বেঙ্গালুরু টেস্টের পর ডিআরএস বিতর্ক থেকে এখনও বের হতে পারেনি ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। কাঁদা ছোঁড়াছুড়ির এক পর্যায়ে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ কোহলিকে মিথ্যাবাদীও বলেছেন। অস্ট্রেলিয়া সংবাদমাধ্যমে আশা করেছিলো, কোহলি হয়তো দুঃখ প্রকাশ করবেন। কিন্তু তিনি তা করেননি।

তাই কিছুটা হতাশ হয়েই সাদারল্যান্ড এই কথা বলেছেন। স্থানীয় একটি রেডিওতে সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘জানি না কোহলি ঠিকমতো সরি বলতে জানে কি না! এই টেস্ট সিরিজ শেষ হওয়ার পর দুই দলের অনেকেই আইপিএলে নিজেদের মধ্যে মিটমাট করে নেওয়ার সুযোগ পাবে। সেটা যেন বিফলে না যায়। অনেকটা সময় তারা এক সাথে থাকবে। সেখানেই হয়তো ভালো কিছু দেখতে পাবো আমরা।’

ফুটবল

ফুটবলের শ্রেষ্ঠ অভিনেতা নেইমার!

গত বছরের নভেম্বরে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচের সেল্টিকের মুখোমুখি হয়েছিল বার্সেলোনা। সেই ম্যাচে সেল্টিকের রক্ষণসৈনিক মিকায়েল লাস্টিগের সামান্য স্পর্শেই পড়ে গিয়েছিলেন কাতালানদের ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। বার্সেলোনার ব্রাজিলিয়ান তারকার এমন কৌশলগত ডাইভে খুব ক্ষেপে গিয়েছিলেন লাস্টিগ।

এবার সেই ম্যাচের স্মৃতিচারণ করে নেইমারকে ফুটবলের শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন মিকায়েল লাস্টিগ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সে সবসময় খুব সামান্য স্পর্শেই মাটিতে পড়ে যায়। আপনি তাকে ছুঁতেই পারবেন না। আমি বলব ফুটবলের শ্রেষ্ঠ অভিনেতা নেইমার!’ মাঠে অভিনয় করার অভিযোগ এর আগেও পেয়েছেন নেইমার। ২০১৩ সালে এই সেল্টিকের তৎকালীন কোচ নেইল লেননও ব্রাজিলিয়ান এই তারকার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তুলেছিলেন।

সেই ম্যাচের এই দৃশ্যটি এখনও ভুলতে পারেননি লাস্টিগ। ছবি : সংগৃহীত

কিন্তু নেইমার নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেননি। বরং সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এখন আরও সুনিপুন কৌশলে তা সম্পন্ন করেন নেইমার। ডাইভ দেওয়ার অপরাধে চলতি মৌসুমেও স্প্যানিশ কোপা ডেল রে’র ম্যাচে হলুদ কার্ড দেখেছেন ২৫ বছর বয়সী এই ব্রাজিলিয়ান। শুধু তাই নয়, চলতি মৌসুমে ইতোমধ্যেই ৯৯বার প্রতিপক্ষের ফুটবলার কর্তৃক ফাউলের শিকার হয়েছেন নেইমার। যা ইউরোপের সেরা পাঁচ লিগের মধ্যে সর্বাধিক।

২০১৩ সালে স্বদেশী ক্লাব সান্তোস ছেড়ে বার্সেলোনায় নতুন করে ঠিকানা গড়েন নেইমার। এরপর থেকেই আর পেছনের দিকে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। অসাধারণ পারফরম্যান্স উপহার দিয়ে কাতালান ক্লাবটির আক্রমণভাগের অন্যতম ভরসা হয়ে উঠেন তিনি। চলতি মৌসুমেও রীতিমতো উড়ছেন নেইমার। কাতালান ক্লাবটির হয়ে ৩৫ ম্যাচ খেলে প্রতিপক্ষের জালে বল ঢুকিয়েছেন ১৪বার। সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন আরও ১৯টি।

ছবি : সংগৃহীত

যে কারণেই নেইমারের এমন পারফরম্যান্সে মুগ্ধ বার্সেলোনারই সাবেক ডিফেন্ডার জুলিয়ানো বেলেত্তি। তার মতে, খুব শিগগীরই এই গ্রহের সেরা ফুটবলার হিসেবে বিবেচিত হবেন নেইমার। এ ব্যাপারে তার যুক্তিগুলো হলো, ‘নেইমার খুব ভালো করেই চাপ সামলাতে পারে। মাঠে সে অনেক বেশি অভিজ্ঞ। তাছাড়া বিশ্বের সেরা ক্লাবে খেলে সে। আর সে ব্রাজিলিয়ান যা অবশ্যই তার জন্য বড় গুন। আসছে বছরগুলোতে আরও পরিণত নেইমারকেই দেখতে পারবো আমরা।’

ফেইসবুক

গলফ
দাবা
লন-টেনিস
হকি
হ্যান্ডবল
আর্ন্তজাতিক
সাক্ষাৎকার
সাঁতার
এ্যাথলেটিকস্