সকাল ১০:০১, রবিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং

এক নজরে

আরো একটি অঘটনের জন্ম দিয়ে দুবাই ‌ওপেন চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতলেন বেলিন্দা বেনচিচ। প্রতিযোগিতার ফাইনালে শনিবার পেত্রা কেভিতোভাকে ৬-৩, ১-৬ ‌ও ৬-২ গেমে পরাজিত করে সাড়ে তিন বছর পর কোনো ডব্লিউটিএ শিরোপা জয় করেন অবাছাই বেলিন্দা বেনচিচ।

৪৫ তম বাছাই সুইস তারকা বেলিন্দা কয়েক বছর যাবত ইনজুরির সাথে যুদ্ধ করছিলেন। অবশেষে আগের ফর্মে ফিরেন। পরাজিত করেন দ্বিতীয় বাছাই সিমোনা হালেপ, দুইবারের চ্যাম্পিয়ন এলিনা সভেতোলিনা এবং কেভিতোভাকে। অবশেষে দুবাই ‌ওপেনের শিরোপা তার।

এতে ২০১৫ সালে টরেন্টোতে রজার্স কাপের শিরোপা জয়ের পর কোনো টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হলেন বেলিন্দা বেনচিচ। আর এই শিরোপা জয়ের পথে তিনি পরাজিত করেন শীর্ষ দশে থাকা চারজন খেলোয়াড়কে।

মেসির ৫০তম হ্যাটট্রিক

লা লিগায় সেভিয়ার বিপক্ষে বার্সেলোনার জয়ে সবচেয়ে বড় ভুমিকা অধিনায়ক লিওনেল মেসির। তার হ্যাটট্রিকে আন্দালুসিয়ান দলটির বিপক্ষে ৪-২ গোলের বড় ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে কাতালানরা। লা লিগায় এটি লি‌ওনেল মেসির পঞ্চাশতম হ্যাটট্রিক।

লা লিগায় সেভিয়ার বিপক্ষে এই ম্যাচটি ছিল লিওনেল মেসির ৩৫ তম ম্যাচ। পিছিয়ে পড়া বার্সাকে খেলার ২৬ মিনিটে সমতায় ফেরান বার্সার আর্জেন্টাইন তালিসমান লি‌ওনেল মেসি। এটি ছিল সেভিয়ার বিপক্ষে মেসির ৩৪ তম গোল। এরপর দ্বিতীয়ার্ধে তিনি আর‌ও দুই গোল করে ৩৫ ‌ও ৩৬ তম গোল করার পাশাপাশি হ্যাটট্রিক পুরণ করেন। লা লিগায় এটি মেসির হ্যাটট্রিকের হাফ সেঞ্চুরি।

এতে যেকোনো দলের চেয়ে সেভিয়াকে বেশি গোল দে‌ওয়ার রেকর্ড গড়লেন লি‌ওনেল মেসি। তবে সেভিয়ার পরেই বেশি গোল দিয়েছেন মেসি অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদকে।

লি‌ওনেল মেসির বেশি গোলের তালিকা

সেভিয়া                              ৩৫ ম্যাচে                 ৩৬ গোল

অ্যাথলেটিকো                      ৩৩ ম্যাচে              ২৮ গোল

ভ্যালেন্সিয়া                           ৩১ ম্যাচে              ২৭ গোল

রিয়াল মাদ্রিদ                       ৩৭ ম্যাচে               ২৬ গোল

এস্পানি‌ওল                           ২৭ ম্যাচে               ২৩ গোল

বিলবা‌ও                                 ৩১ ম্যাচে              ২৩ গোল ‌

ওসাসুনা                                 ১৪ ম্যাচে              ২৩ গোল

লেভান্তে                                 ১৭ ম্যাচে              ২০ গোল

রিয়াল বেটিস                          ১৭ ম্যাচে              ২০ গোল

লা করুনা                                ১৫ ম্যাচে             ২০ গোল

ক্রিকেট

শ্রীলঙ্কার ইতিহাস গড়া সিরিজ জয়

পোর্ট এলিজাবেথে দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৮ উইকেটে হারিয়ে প্রথমবারের মতো সেদেশে স্বাগতিকদের হোয়াইটওয়াশ করার স্বাদ পেলো শ্রীলঙ্কা। প্রোটিয়াদের ঘরের মাঠে যা ছিলো বিশ্বের তৃতীয় আর প্রথম এশীয় দল হিসেবে সিরিজ জয়ের ঘটনা। ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার পর মাত্র তৃতীয় দল হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকায় সিরিজ জয়ের কৃতিত্ব দেখাল শ্রীলঙ্কা। ২০১৫-১৬ মৌসুমে ইংল্যান্ড সিরিজের পর এই প্রথম দেশের মাটিতে হারল দক্ষিণ আফ্রিকা।

দ্বিতীয় ইনিংসে স্বাগতিকরা মাত্র ১২৮ রানে গুটিয়ে যাওয়ায় সফরকারীদের সামনে জয়ের টার্গেট ছিলো ১৯৭ রানের। ২ উইকেটে ৬০ রান নিয়ে ম্যাচের তৃতীয় দিন ব্যাটিংয়ে নেমে, ইতিহাস গড়েই মাঠ ছাড়েন ওশাদা ফার্নান্দো এবং কুশল মেন্ডিস। এ দুজন তৃতীয় উইকেটে যোগ করেন ১৬৩ রান। ৭৫ রানে ফার্নান্দো আর মেন্ডিস অপরাজিত থাকেন ৮৪ রানে। প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকার ২২২ রানের জবাবে লঙ্কানরা তুলেছিলো ১৫৪। ম্যাচ সেরা হন কুশল মেন্ডিস আর সিরিজ সেরা কুশল পেরেরা।

১৯৯২ সাল থেকে দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট খেলছে এশিয়ার দেশগুলো। এতোদিন সেরা সাফল্য ছিল কেবল পাকিস্তান ও ভারতের একটি করে সিরিজ ড্র। এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকায় কেবল একটি টেস্ট জেতা লঙ্কানরা এবার দুই ম্যাচের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করে দিল স্বাগতিকদের।

ফুটবল

মেসির ৫০তম হ্যাটট্রিক

লা লিগায় সেভিয়ার বিপক্ষে বার্সেলোনার জয়ে সবচেয়ে বড় ভুমিকা অধিনায়ক লিওনেল মেসির। তার হ্যাটট্রিকে আন্দালুসিয়ান দলটির বিপক্ষে ৪-২ গোলের বড় ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে কাতালানরা। লা লিগায় এটি লি‌ওনেল মেসির পঞ্চাশতম হ্যাটট্রিক।

লা লিগায় সেভিয়ার বিপক্ষে এই ম্যাচটি ছিল লিওনেল মেসির ৩৫ তম ম্যাচ। পিছিয়ে পড়া বার্সাকে খেলার ২৬ মিনিটে সমতায় ফেরান বার্সার আর্জেন্টাইন তালিসমান লি‌ওনেল মেসি। এটি ছিল সেভিয়ার বিপক্ষে মেসির ৩৪ তম গোল। এরপর দ্বিতীয়ার্ধে তিনি আর‌ও দুই গোল করে ৩৫ ‌ও ৩৬ তম গোল করার পাশাপাশি হ্যাটট্রিক পুরণ করেন। লা লিগায় এটি মেসির হ্যাটট্রিকের হাফ সেঞ্চুরি।

এতে যেকোনো দলের চেয়ে সেভিয়াকে বেশি গোল দে‌ওয়ার রেকর্ড গড়লেন লি‌ওনেল মেসি। তবে সেভিয়ার পরেই বেশি গোল দিয়েছেন মেসি অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদকে।

লি‌ওনেল মেসির বেশি গোলের তালিকা

সেভিয়া                              ৩৫ ম্যাচে                 ৩৬ গোল

অ্যাথলেটিকো                      ৩৩ ম্যাচে              ২৮ গোল

ভ্যালেন্সিয়া                           ৩১ ম্যাচে              ২৭ গোল

রিয়াল মাদ্রিদ                       ৩৭ ম্যাচে               ২৬ গোল

এস্পানি‌ওল                           ২৭ ম্যাচে               ২৩ গোল

বিলবা‌ও                                 ৩১ ম্যাচে              ২৩ গোল ‌

ওসাসুনা                                 ১৪ ম্যাচে              ২৩ গোল

লেভান্তে                                 ১৭ ম্যাচে              ২০ গোল

রিয়াল বেটিস                          ১৭ ম্যাচে              ২০ গোল

লা করুনা                                ১৫ ম্যাচে             ২০ গোল


ভিডিও
জার্মানির দু:সময় কাটছেই না
ব্রাজিলের কাছে হার আর্জেন্টিনার
More Video
ফেইসবুক

হ্যান্ডবল
গলফ
দাবা
হকি
লন-টেনিস
আর্ন্তজাতিক
সাক্ষাৎকার
সাঁতার
এ্যাথলেটিকস্