দীর্ঘ ছুটিতে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা

দীর্ঘ ছুটিতে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা

টানা সিরিজ খেলা এবং জৈব সুরক্ষা বলয়ের টানা ধকল শেষে লম্বা ছুটি পেয়েছেন ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফরা। তিন সপ্তাহের ছুটি শেষে একেবারে ওমানে গিয়ে শুরু হবে বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ ক্যাম্প।

১০ সেপ্টেম্বর নিউজিল্যান্ড সিরিজ শেষ হওয়ার পরের দিন থেকেই ছুটিতে যান ক্রিকেটাররা। কোচরা ছুটি নিয়ে চলে গেছেন নিজ নিজ দেশে। জিম্বাবুয়ে সফর, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সিরিজের টানা খেলার পর ক্রিকেটারদেরও মিলেছে কাঙ্ক্ষিত অবসর। ছুটিয়ে কাটিয়ে বিশ্বকাপ খেলতে আগামী ৩ অক্টোবর ওমানে যাবে বাংলাদেশ দল।

এর আগে ঘরের মাঠে আর কোন অনুশীলন ক্যাম্প রাখা হয়নি। ১৭ অক্টোবর ওমানে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচের আগে নিজেদের প্রস্তুত করার জন্য দুই সপ্তাহ সময় পাবে বাংলাদেশ। বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী জানান, ওমানে ঠিকভাবে প্রস্তুত হতে পরিকল্পনা সাজিয়েছেন তারা। তিনি বলেন, 'ওমানে স্থানীয় একটি দলের সঙ্গে আমরা প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার চেষ্টা করছি। এছাড়া আইসিসির দুটি অফিসিয়াল ম্যাচ আছে। আশা করি ভালোভাবেই দলের প্রস্তুতি হবে।'

বিশ্বকাপের আগে লম্বা সময়ের এই ছুটির পেছনে আরেকটি কারণও জানিয়েছেন বিসিবি প্রধান নির্বাহী। বিশ্বকাপের পর পরই আছে ঠাসা সূচি। নভেম্বর-ডিসেম্বরে সিরিজ খেলতে আসবে পাকিস্তান। এরপর আছে বাংলাদেশের নিউজিল্যান্ড সফর। মার্চে আছে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর। এর ফাঁকে বিপিএল আয়োজনেরও চিন্তা আছে। কাজেই এই সময়টায় ক্রিকেটারদের রাখা হয়েছে চাপমুক্ত।

ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেন, টানা খেলার ধকলের পর ছুটিতে কতটা প্রয়োজনীয়, 'এই ছুটিটা তাদের প্রাপ্য ছিল। বিশ্বকাপের আগে সবার সতেজ থাকা দরকার। অনেক সময় খেলার বাইরে থাকা অনেক কাজে দেয়।'

১৭ অক্টোবর স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ। প্রথম রাউন্ডে বাংলাদেশের অন্য দুই প্রতিপক্ষ স্বাগতিক ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি। প্রথম পর্ব পেরিয়ে সুপার টুয়েলভসে উঠলে 'বি' গ্রুপে বাংলাদেশ প্রতিপক্ষ হিসেবে পাবে ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, নিউজিল্যান্ডের মতো দলগুলকে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD