সাঁতারে আর‌ও রেকর্ড

সাঁতারে আর‌ও রেকর্ড

যেনো রেকর্ডের জন্যই আয়োজিত হচ্ছে বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস। প্রতিযোগিতার পঞ্চম দিনেও রেকর্ডের ছড়াছড়ি। সাইক্লিংয়ে হয়েছে পাঁচটি, সাঁতারে চারটি ও ভারোত্তোলনে দুটি করে রেকর্ড গড়েন প্রতিযোগীরা। এদিকে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নতুন করে বেড়ে যাওয়ায়, স্বাস্থ্যবিধি মেনে খেলা আয়োজন করছেন ফেডারেশনের কর্মকর্তারা।

‘বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমস’ সাঁতারের তৃতীয় দিন আরোও চারটি রেকর্ড হয়েছে। ২০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে নৌবাহিনীর কাজল মিয়া, ৪০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে সেনাবাহিনীর ফয়সাল আহমেদ, ৫০ মিটার ব্যাকস্ট্রোকে সেনাবাহিনীর জুয়েল আহমেদ ও ৪x১০০ মিটার ফ্রিস্টাইল রিলে ইভেন্টে নৌবাহিনী দল রেকর্ডগুলো গড়ে। এ নিয়ে তিন দিনে মোট ১০টি রেকর্ড হল। সাঁতারের প্রথম ও দ্বিতীয় দিনে তিনটি করে রেকর্ড হয়।

মিরপুর সৈয়দ নজরুল ইসলাম জাতীয় সুইমিং কমপ্লেক্সে ৫ এপ্রিল, সোমবার ছেলেদের ২০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে ২ মিনিট ১০.৯২ সেকেন্ড সময় নিয়ে রেকর্ড গড়েন কাজল মিয়া। সেনাবাহিনী জুয়েল আহমেদের ২০১৯ সালে (২ মিনিট ১১.৫৭ সেকেন্ড) গড়া রেকর্ড ভাঙ্গেন তিনি।

এ ইভেন্টে জুয়েল আহমেদও নিজের পুরনো রেকর্ড টাইমিংকে টপকে গেছেন। ২ মিনিট ১১.১৭ সেকেন্ডে রুপা জিতেছেন কুষ্টিয়া থেকে উঠে আসা এ সাঁতারু। নৌবাহিনীর জাহিদুল ইসলাম ব্রোঞ্জ জিতেছেন, তার টাইমিং ২ মিনিট ১৬.৩৮ সেকেন্ড।

৪০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে রেকর্ড গড়তে ফয়সাল আহমেদ সময় নেন ৪ মিনিট ১৮.২৩ সেকেন্ড। ২০১৯ সালে নিজের গড়া রেকর্ড (৪ মিনিট ১৮.২৫) ভেঙ্গেছেন ফয়সাল। রুপা জয়ের পথে নৌবাহিনীর রবিউল আউয়ালের টাইমিং ছিল ৪ মিনিট ২০.০৮ সেকেন্ড। নৌবাহিনীর আরেক সাঁতারু কাজল মিয়া ব্রোঞ্জ জিতেছেন ৪ মিনিট ৩১.১৬ সেকেন্ড সময় নিয়ে।

৫০ মিটার ব্যাকস্ট্রোকে রেকর্ড গড়তে জুয়েল আহমেদের সময় লেগেছে ২৭.৯৭ সেকেন্ড। ২০১৯ সালে ২৮.১২ সেকেন্ড সময় নিয়ে আগের রেকর্ডের মালিক ছিলেন সেনাবাহিনীর এ সাঁতারুরই। এ ইভেন্টে রুপা জয়ের পথে নৌবাহিনীর মাহমুদুন্নবী নাহিদের টাইমিং ছিল ২৮.১৭ সেকেন্ড। সেনাবাহিনীর আবু সালেক আহমেদ ২৮.২৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন।

ছেলেদের ৪x১০০ মিটার ফ্রিস্টাইল রিলে ইভেন্টে রেকর্ড নতুন করে লিখিয়েছে নৌবাহিনী। ২০১৯ সালে গড়া আগের রেকর্ড ছিল ৩ মিনিট ৩৮.৪৫ সেকেন্ডর। সোমবার আসিফ রেজা, মাহমুদুন্নবী নাহিদ, অনিক ইসলাম ও মাহফিজুর রহমান সাগর রেকর্ড গড়তে সময় নেন ৩ মিনিট ৩৭.৩৮ সেকেন্ড। এ ইভেন্টে সেনাবাহিনী ৩ মিনিট ৪৯.২০ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা জিতেছে। কিশোরগঞ্জের ভাটি বাংলা সুইমিং ক্লাব ৪ মিনিট ৭.২৫ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছে।

নারীদের ৪x১০০ মিটার ফ্রিস্টাইল রিলে ইভেন্টে লিমা আক্তার, সোনালী খাতুন, মাহফুজা খাতুন শীলা, সোনিয়া খাতুনকে নিয়ে গড়া নৌবাহিনী দল সোনা জিতেছে, টাইমিং ছিল ৪ মিনিট ৩৬.০৪ সেকেন্ড। ৪ মিনিট ৪৪.৪২ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা জিতেছে সেনা বাহিনী। রুপা জয়ের পথে বিকেএসপি দল সময় নিয়েছে ৪ মিনিট ৫০.৭৭ সেকেন্ড।

তৃতীয় দিন নারীদের ২০০ মিটার বাটরফ্লাইয়ে সোনা জিতেছেন নৌবাহিনীর সোনিয়া আক্তার। এজন্য তার সময় লেগেছে ২ মিনিট ৪২.৫৩ সেকেন্ড। রুপা জয়ী সেনাবাহিনীর ফাতেমা আক্তারের টাইমিং ২ মিনিট ৫৩.২৭ সেকেন্ড। ব্রোঞ্জ জয়ের পথে সেনাবাহিনীর আরেক সাঁতারু মুসলিমা খাতুন সময় নেন ৩ মিনিট ১২.৯০ সেকেন্ড।

১ মিনিট ৭.০১ সেকেন্ড সময় নিয়ে ছেলেদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে সোনা জিতেছেন সেনাবাহিনীর সুকুমার রাজবংশী। নৌবাহিনীর আরিফুল ইসলাম ১ মিনিট ৭.৪৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা জিতেছেন। ব্রোঞ্জ জয়ের পথে আরিফুল ইসলামের সহোদর ও নৌবাহিনী সতীর্থ শরিফুল ইসলামের সময় লাগে ১ মিনিট ৮.৫৮ সেকেন্ড।

২০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ের পর ৪০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে দিনের দ্বিতীয় সোনা জিতেছেন নৌবাহিনীর সোনিয়া আক্তার টুম্পা। ৮০০ মিটার বাটারফ্লাই ও ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইল ইভেন্ট নিয়ে তিনদিনে এটা ছিল তার চতুর্থ ব্যক্তিগত সোনা।

নিজের চতুর্থ সোনা জয়ের পথে ৫ মিনিট ৭.৮৯ সেকেন্ড সময় নিয়েছেন সোনিয়া আক্তার টুম্পা। সেনাবাহিনীর নাঈমা আক্তার ৫ মিনিট ১৯.৮৫ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা জিতেছেন। ব্রোঞ্জ জয়ী সেনাবাহিনীর আরেক সাঁতারু শারমিন সুলতানার টাইমিং ছিল ৫ মিনিট ২৭.০৯ সেকেন্ড।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD