ইংরেজদের বিপক্ষে ভারতের ‘বিরাট’ জয়

ইংরেজদের বিপক্ষে ভারতের ‘বিরাট’ জয়

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বিরাট জয় পেলো ভারত। চিপকে দ্বিতীয় টেস্টে ইংল্যান্ডকে দুরমুশ করে চার টেস্টের সিরিজে সমতা ফেরাল স্বাগতিক দল। সাড়ে তিন দিনেই ইংল্যান্ডকে শেষ করে দেন বিরাটের স্পিনাররা। ভারতের তিন স্পিনার ১০ উইকেট ভাগ করে নেন। অভিষেকেই পাঁচ উইকেট তুলে নেন অক্ষর প্যাটেল। তিন উইকেট নেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। দু’ বছর পর কামব্যাক টেস্টে দু’ উইকেট তুলে নেন কুলদীপ যাদব।

চিপকেই প্রথম টেস্ট ২২৭ রানে হেরেছিল ভারত। কিন্তু ৩১৭ রানে দ্বিতীয় টেস্ট জিতে চার টেস্টের সিরিজে সমতা ফেরাল কোহলিরা। রানের হিসেবে এটাই ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়। একই সঙ্গে এটি ভারতের পঞ্চম সর্বোচ্চ রানের টেস্ট জয়। দ্বিতীয় ইনিংসে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের দুর্দান্ত সেঞ্চুরির পর চিপকে ভারতের জয়টা শুধু ছিল সময়ের অপেক্ষা। প্রথম ইনিংসে ১৯৫ রানে এগিয়ে থাকার সুবাদে ইংল্যান্ডের সামনে ৪৮২ রানের ‘অসম্ভব’ টার্গেট দিয়েছিল ভারত।

টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে এত রান তাড়া করে কোনও দল জেতেনি। ইংল্যান্ডও পারল না। ভারতের স্পিনের থ্রি মাস্কেটিয়ার্সের বিরুদ্ধে ১৬৪ রানে শেষ হয়ে যায় ইংল্যান্ড। সর্বোচ্চ মঈন আলির। ৯ নম্বরে ব্যাটিং করতে নেমে ১৮ বলে পাঁচটি ছয় ও তিনটি বাউন্ডারির সাহায্যে ঝোড়ো ৪৩ রান করেন। শুধু তাই নয়। ইংল্যান্ড ইনিংসের সর্বোচ্চ পার্টনারশিপ আসে দশম উইকেটে। স্টুয়ার্ট ব্রডকে নিয়ে ১৯ বলে ৩৮ রান যোগ করেন আলী। ইংনিসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্কোর ক্যাপ্টেন জো রুটের ৩৩ রান। ইংল্যান্ডের পাঁচ ব্যাটসম্যান দু’ অংকের রানে পৌঁছতে পারেননি। অভিষেক টেস্টে ৬০ রান দিয়ে পাঁচ উইকেটে তুলে নেন বাঁ-হাতি স্পিনার অক্ষর।

অস্ট্রেলিয়া সফরে একইভাবে সিরিজে প্রত্যাবর্তন করেছিল টিম ইন্ডিয়া। অ্যাডিলেডে প্রথম টেস্টে লজ্জাজনক হারের পর মেলবোর্নে দ্বিতীয় টেস্ট জিতে সিরিজে সমতা ফিরিয়েছিল ভারত। তারপর সিডনি টেস্ট ড্র এবং ব্রিসবেন সিরিজে টেস্ট জিতে চার টেস্টে সিরিজ ২-১ পকেটে পুরেছিল টিম ইন্ডিয়া। ইংল্যান্ড সিরিজেও একই রকম হলে অবাক হওয়ার কিছু নেই। চার টেস্টের সিরিজের বাকি দু’টি টেস্ট আমদাবাদে মোতেরা স্টেডিয়ামে। ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হতে চলা তৃতীয় টেস্ট ডে-নাইট।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD