বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শুরু করতে চান ডমিঙ্গো

বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শুরু করতে চান ডমিঙ্গো

দরজায় কড়া নাড়ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ। এরই মধ্যে সিরিজের জন্য প্রস্তুতিও শুরু হয়ে গেছে দুই দলের। ক্যারিবিয়দের দলটির বেশিরভাগ ক্রিকেটার নবীন হলেও, তাদের মোটেও হাল্কাভাবে নিচ্ছে না স্বাগতিক বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজের জন্য ১৮ সদেস্যর বাংলাদেশ দলে এবার নতুন মুখ রাখা হয়েছে তিনজন। এই সিরিজ দিয়েই ভবিষ্যতের পরিকল্পনা শুরু করতে চায় টিম ম্যানেজমেন্ট, এমনটাই জানালেন জাতীয় দলের কোচ।

ডমিঙ্গো বলেন, ‘২০২৩ বিশ্বকাপ পরিকল্পনা শুরু করতে চাই এই সিরিজ দিয়েই। যদিও বিশ্বকাপ শুরু হতে এখনো অনেক দেরি। এরপরও আমরা কিছু ব্যাটসম্যান এবং বোলারদের নিয়ে কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষা চালাতে চাই। আমি খেলোয়াড়দের সাথে ইতোমধ্যে কথা বলেছি। তারা তাদের দায়িত্ব সম্পর্কে জানে। এখনো একাদশ জানাইনি, কিন্তু আজই, গণমাধ্যম জানার আগেই তারা জেনে যাবে তাদের কার পজিশন কোথায় হবে। শান্ত দারুণ ফর্মে আছে। সাকিবকে ফিরে পাওয়াও দারুণ। বিশ্বকাপে তিন নম্বরে অবিশ্বাস্য ব্যাটিং করেছে। কিন্তু এই মুহূর্তে আমি তিন অভিজ্ঞ সাকিব, মুশফিক ও রিয়াদকে চার, পাঁচ ও ছয়ে ভাবছি। এতে মিডল অর্ডার পরিপক্বতা পাবে, আর উপমহাদেশে মিডল অর্ডার বড় ভূমিকা রাখে।’

সাকিবকে চারে পাঠিয়ে শান্তকে কেন ওয়ান ডাউনে নামানোর পরিকল্পনা, ডমিঙ্গো পরিস্কার করেছেন সেই বিষয়ও। তিনি বলেন, ‘শান্ত তরুণ, ভালো একজন খেলোয়াড় যে ইদানিং সে ভালো খেলছে। আমাদের তরুণ ব্যাটসম্যানদের তো গড়ে তুলতে হবে। এই অঞ্চলে শীর্ষ তিন পজিশনই ব্যাটসম্যানদের গড়ে তোলার আদর্শ জায়গা।’

ডমিঙ্গো আরও বলেন, ‘সাকিব অনেকদিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেনি। চার নম্বর পজিশন তাকে দম ফেলার সুযোগ দিবে। আমরা সবাই জানি সে বিশ্বমানের খেলোয়াড়। এই ব্যাটিং লাইনআপ তো স্থায়ী হচ্ছে না। বিশ্বকাপের আগে অনেক সময় আছে, আমাদের অনেক পরীক্ষানিরীক্ষা করতে হবে।’
 
ঘরের মাঠে বরাবরই বাংলাদেশ খেলে থাকে বেশিরভাগ স্পিনার নিয়ে। এই ধারা থেকেও বেরিয়ে পেসারদের নিয়েও বাড়তি মনোযোগ দিতে চান কোচ। তিনি বলেন, 'অতীতে স্পিনার নিয়ে বাংলাদেশ ঘরের মাঠে অনেক সাফল্য পেয়েছে। এখন থেকে পেসারদের দিকে আরো মনোযোগ দিতে হবে। প্রতি ম্যাচে অন্তত আমি ৩ পেসার খেলানোর পক্ষে। এতে করে বিদেশের মাটিতে পেসারদের ভালো খেলার আত্মবিশ্বাস বাড়বে।'
 
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজটি চ্যালেঞ্জিং হবে বলেও জানিয়েছেন জাতীয় দলের হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। ২০২৩ বিশ্বকাপ ক্রিকেট সামনে রেখে দলে পরীক্ষা-নিরীক্ষাও চালাতে চান আসন্ন সিরিজে। বিকেলে ভার্চুয়াল এক সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় দলের হেড কোচ এসব কথা বলেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD