রুদ্ধশ্বাস জয় কোলকাতার

রুদ্ধশ্বাস জয় কোলকাতার

আবুধাবিতে নাটকীয় জয় পেলো কোলকাতা নাইট রাইডার্স। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হাতের মুঠো থেকে জয় ছিনিয়ে নিলো বলিউড বাদশা শাহরুখের দল। টানটান উত্তেজনার ম্যাচ জিতলো ২ রানে। কোলকাতার ৬ উইকেটে ১৬৪ রানের জবাবে পাঞ্জাব ৫ উইকেট তোলে ১৬২ রান। আগের ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে জয় তুলে নেওয়ার পর আজ শনিবার কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে রুদ্ধশ্বাস জয় পায় কোলকাতা নাইট রাইডার্স।

শেষ ওভারে ওভারে জয়ের জন্য পাঞ্জাবের দরকার ছিল ১৪ রান। কিন্তু সুনীল নারিনের বিরুদ্ধে এই রান তুলতে পারলেন না কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ব্যাটসম্যানরা। শেষ বল ছক্কা মারলে ম্যাচ গড়াত সুপার ওভারে। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল চেষ্টাও করেছিলেন। কিন্তু কয়েক মিলিমিটারের ব্যবধানে বল বাউন্ডারির ভিতরে পড়ে। ফলে শেষ বলে চার মারলেও জয় অধরাই থাকে লোকেশ রাহুলদের। সেই সঙ্গে টানা পাঁচ ম্যাচ হেরে প্লে-অফ থেকে আরও দূরে সরে গেল প্রীতি জিন্তার দল।

এই জয়ে ৬ ম্যাচের চারটি জিতে ৮ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের তিন নম্বরে উঠে এল কোলকাতা নাইট রাইডার্স। আগের ম্যাচেও বোলারদের হাত ধরে চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে জয় ছিনিয়ে নিয়েছিল কেকেআর। এদিনও বোলাররা নাইটদের অপ্রত্যাশিত জয় উপহার দিল। ১৬৫ রান তাড়া করতে নেমে লোকেশ রাহুল ও মায়াঙ্ক আগারওয়াল ১১৫ রান তোলার পর নাইটদের ম্যাচ জয় ছিল অলীক কল্পনা। কিন্তু সেখান থেকেও কেকেআর-কে ম্যাচ জেতালেন বোলাররা।

পাঞ্জাব ইনিংসের ১৮ তম ওভারে নাারিন মাত্র ২ রান খরচ করে নিকোলাস পুরানকে তুলে নিয়ে নাইটদের ম্যা্চে ফেরান। সুতরাং শেষ দু’ ওভারে জয়ের জন্য কিংস ইলেভেনের দরকার ছিল ২০ রান। ক্রিজে রাহুল। এই অবস্থায় নাইটদের ম্যাচ জয়ের সম্ভাবনা কম ছিল। কিন্তু প্রসিদ্ধ কৃষ্ণা ১৯ তম ওভারে মাত্র ৬ রান দিয়ে ২টি উইকেট তুলে নিয়ে নাটদের ম্যাচ জয়ের আশা জাগায়। তাঁর শেষ ডেলিভারিতে বোল্ড হন রাহুল। ৫৮ বল খেলে ৭৪ রান করে রাহুল আউট হন। তাঁর ওপেনিং পার্টনার আগরওয়াল ৩৯ বলে ৫৬ রান করেন।

শেষ ওভারে কিংস ইলেভেনের জয়ের জন্য দরকার ছিল ১৪ রান। কিন্তু নারিনের ওভারে মাত্র ১১ রানই করতে পারেন ম্যাক্সওয়েল। ফলে ২ রানে রুদ্ধশ্বাস জয় ছিনিয়ে নেয় কেকেআর।

এদিন প্রথমে ব্যাটিং করে ক্যাপ্টেন দীনেশ কার্তিকের দুরন্ত ফিফটিতে ৬ উইকেটে ১৬৪ রান তুলেছিল কোলকাতা। ২২ বল হাফ-সেঞ্চুরি করে ৫৮ রানে ফেরেন কার্তিক। এছড়াও ওপেনার শুভমন গিল ৫৭ রানের গুরুত্বরপূর্ণ ইনিংস খেলে কেকেআর-কে লড়াইয়ের জায়গায় পৌঁছে দেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD