আন্তর্জাতিক অনলাইন দাবা সমাপ্ত

আন্তর্জাতিক অনলাইন দাবা সমাপ্ত

প্রথম আসর সফলভাবে শেষ করতে পারায় প্রতি বছর ‘জয়তু শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক অনলাইন দাবা’ প্রতিযোগিতা আয়োজন করা হবে বলে জানান বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশন ও সাউথ এশিয়ান দাবা কাউন্সিলের সভাপতি ও বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. বেনজীর আহমেদ। তিনদিনের আন্তর্জাতিক এই ইভেন্ট শেষে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে একথা বলেন তিনি।

এছাড়া মুজিববর্ষে বড় পরিসরে আন্তর্জাতিক দাবা টুর্নামেন্ট আয়োজন করবে বাংলাদেশ। আজ রবিবার এমনটি জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। এদিন রাজধানীর একটি হোটেলে জয়তু শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক অনলাইন দাবা টুর্নামেন্ট প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী ও সমাপনী অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে এই দাবা টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪ তম জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে সফলভাবেই শেষ হলো ‘জয়তু শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক অনলাইন দাবা টুর্নামেন্ট’। চ্যাম্পিয়ন হন ইন্দোনেশিয়ার গ্র্যান্ড মাস্টার মেঘারেন্ত সুসান্ত। ১৪ টি দেশের তারকা দাবাড়–দের ভিড়ে ফিদে মাস্টার সুব্রত বিশ্বাস বাংলাদেশীদের মধ্যে সবচেয়ে ভাল অবস্থানে। যদিও প্রতিযোগিতায় তার অবস্থান ১২ তম। তবে বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশন ও সাউথ এশিয়ান দাবা কাউন্সিলের সভাপতি ও পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. বেনজীর আহমেদ জানান, এই অনলাইন দাবায় ভাল অভিজ্ঞতা হয়েছে বাংলাদেশীদের। এবারের টুর্নামেন্ট সফলভাবে আয়োজন করতে পারায় প্রতিবছর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে আন্তর্জাতিক অনলাইন টুর্ণামেন্ট আয়োজনের ঘোষণা‌ও দেন তিনি।

পুরষ্কার বিতরণীয় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। দাবাকে এগিয়ে নিতে সবধরণের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, ‘দাবা খেলায় উপমহাদেশে প্রথম গ্র্যান্ড মাস্টার আমাদের দেশের সন্তান। আমাদের দেশে ইতোমধ্যে ১৪০০ জনের মতো স্বীকৃত দাবা খেলোয়াড় রয়েছে। দাবার এই টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ জানাই। যারা অংশগ্রহণ করেছে তাদের প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানাই। আশা করছি, দাবা খেলায় সামনে বাংলাদেশ বিশ্ব মঞ্চে বড় কিছু অর্জন করবে। আমাদের পরিকল্পনা আছে, আমরা মুজিববর্ষে বড় পরিসরে একটি আন্তর্জাতিক দাবা টুর্নামেন্ট আয়োজন করব।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪ তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে সাউথ এশিয়ান দাবা কাউন্সিল ও কানাডিয়ান ইইনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের উদ্যোগে তিন দিনব্যাপী এই দাবা চ্যাম্পিয়নশিপের আয়োজন করা হয়। স্বাগতিক বাংলাদেশসহ মোট ১৫ টি দেশের ১৭ জন গ্র্যান্ডমাস্টারসহ ৭৪ জন দাবাড়ু এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




bangladesherkhela.com 2019
Developed by RKR BD