সন্ধ্যা ৬:১২, মঙ্গলবার, ২৫শে জুন, ২০১৯ ইং
/ আর্ন্তজাতিক / ভারতের কাছে অজিদের হার
ভারতের কাছে অজিদের হার
জুন ১০, ২০১৯



বিশ্বকাপের হাই ভোল্টেজ ম্যাচে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে ৩৬ রানে হারিয়ে চলতি বিশ্বকাপে টানা দ্বিতীয় জয় পেলো চ্যাম্পিয়ন ভারত। প্রথমে ব্যাট করে, ম্যাচ সেরা শিখর ধাওয়ানের সেঞ্চুরিতে ৫ উইকেটে ৩৫২ রানের বিশাল স্কোর গড়ে বিরাট কোহলির দল। জবাবে, স্টিভ স্মিথ, ওয়ার্নার ও অ্যালেক্স ক্যারির ফিফটিতেও ৩১৬ রানে অলাউট হয় অস্ট্রেলিয়া।

বিশ্বকাপে টানা দুই ম্যাচ জিতে তৃতীয়টিতে ধাক্কা খেলো অস্ট্রেলিয়া। ভারতের কাছে ৩৬ রানের পরাজয়ে ওয়ানডে ক্রিকেটে টানা ১০ ম্যাচ পর জয়রথ থামল অজিদের।

অবশ্য ৩৫৩ রানের টার্গেটে নেমে সতর্ক সূচনাই ছিলো অস্ট্রেলিয়ার দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ ও ডেভিড ওয়ার্নারের। ৩৬ রান করে রান আউটে কাটা পড়েন অধিনায়ক ফিঞ্চ। পরে ওয়ার্নার-স্মিথ ৭২ রানের জুটি গড়ে দলকে শক্ত ভিতের ওপর দাঁড় করিয়ে দেন।

ওয়ার্নার ৫৬ রানে সাজঘরে ফিরলেও, আশার আলো হয়ে জ্বলছিলো উসমান খাজা ও স্টিভ স্মিথের ব্যাট। কিন্তু ৪২ রানের খাজা আর ৬৯ রানে থাকা স্মিথকে প্যাভিলিয়নে ফিরিয়ে অজিদের লড়াইটাই থামিয়ে দেন ভারতীয় বোলারা। শেষ দিকে টেল এন্ডারদের চেষ্টা দলের পরাজয়ই শুধু কমিয়েছে। ভুবনেশ্বর কুমার ও বুমরাহ তিনটি করে উইকেট নিলে, ৩১৬ রানে অল আউট হয় অস্ট্রেলিয়া। তাতে ১৯৯৯ সালের পর বিশ্বকাপে আবারও রান তাড়া করতে নেমে হেরে গেল অস্ট্রেলিয়া।

এর আগে, ওভালে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে, ২০ রান করেই, শচীন টেন্ডুলকারের পর দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দু’হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন রোহিত শর্মা। তবে ইনিংসটি সমৃদ্ধ করতে পারেননি রোহিত। ৫৭ রান করে সাজঘরে ফেরেন কোল্টার নাইলের বলে। তার আগে, শিখর ধাওয়ানের সাথে দলের স্কোরে যোগ করেন ১২৭ রান।

ভারতের ইনিংসের পরের সময়টা ছিল শিখর ধাওয়ান-ময়। অজি বোলারদের শাসন করে ৯৬ বলে তুলে নেন সেঞ্চুরি। এটি তার ক্যারিয়ারের ১৭তম শতরান। ১৯৯৯ সালে অজয় জাদেজার পর দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি করলেন ধাওয়ান। এতে বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ২৭টি সেঞ্চুরি করার রেকর্ডও গড়লো টিম ইন্ডিয়া। দ্বিতীয় স্থানে থাকা অস্ট্রেলিয়ার সেঞ্চুরি ২৬টি।

অধিনায়ক বিরাট কোহলির সাথে ৯৩ রানের জুটি গড়ে মিচেল স্টার্কের বলে ১১৭ রানে করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ধাওয়ান। ততক্ষণে অবশ্য ২ উইকেটে ২২০ রান নিয়ে শক্ত ভিতের উপর দাঁড়িয়েছে ভারত।

পরে হার্দিক পান্ডের ২৭ বলে ৪৮, মহেন্দ্র সিং ধোনির ১৪ বলে ২৭ আর বিরাট কোহালির ৭৭ বলে ৮২ রানে ৩৫২ রানের পুঁজি পায় ভারত।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :