সন্ধ্যা ৭:১৮, বুধবার, ১৭ই জুলাই, ২০১৯ ইং
/ আরচ্যারি / দেশে ফিরে সংবর্ধিত রোমান সানা
দেশে ফিরে সংবর্ধিত রোমান সানা
জুন ১৮, ২০১৯



দ্বিতীয় অ্যাথলেট হিসেবে বাংলাদেশকে সরাসরি অলিম্পিকে নিয়ে যাওয়ার নায়ক আরচ্যার রোমান সানা দেশে ফিরেই হলেন সংবর্ধিত। সংবর্ধনায় তিনি ভবিষ্যতে সাফল্য অব্যাহত রাখার অঙ্গীকার করেন। এই সাফল্যের জন্য স্পন্সর প্রতিষ্ঠান সিটি গ্রুপ রোমান সানাকে দুই লাখ টাকা অর্থ পুরস্কার দেয়।

নেদারল্যান্ডস জয় করে দেশে ফিরলেন ওয়ার্ল্ড আরচ্যারি চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জপদক জয়ী রোমান সানা। ফিরেই তিনি ক্রীড়াপ্রেমী এবং ক্রীড়া কর্মকর্তাদের ভালোবাসা আর শুভেচ্ছায় সিক্ত হন।

বিশ্বকাপের কোনো আসরে প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে ব্রোঞ্জজয়ী রোমান সানাকে এ সময় স্পন্সর প্রতিষ্ঠান সিটি গ্রুপ দুই লাখ টাকা অর্থ পুরস্কার দেয়। এ সময় বিওএ মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা আচ্যারিকে সব ধরণের সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন।

এর আগে, গত রোববার নেদারল্যান্ডসে, ওয়ার্ল্ড আরচারি চ্যাম্পিয়নশিপে ইটালির নেসপলি মাওরোকে ৭-১ সেট পয়েন্টে হারিয়ে ব্রোঞ্জ জেতেন রোমান সানা। তার আগেই অবশ্য ওয়ার্ল্ড আরচারির সেমিফাইনালে উঠে আগামী ২০২০ সালে টোকিও অলিম্পিকে সরাসরি খেলার যোগ্যতা অর্জন করেন তিনি। পল্টনের শেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্সে এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে রোমান সানা আগামী দিনেও সাফল্যেও ধারা অব্যাহত রাখার চেষ্টা করবেন বলে জানান। তিনি বলেন, ‘এই সংবর্ধান আমাকে টোকিও অলিম্পিকে ভালো খেলায় অনুপ্রাণিত করবে। আশাকরি আমাদের পুরুষ রিকার্ভ দলটিও খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে। আগামী বছরের জুনে অলিম্পিকের আগের জার্মানীর বার্লিনে ওয়ার্ল্ড আরচারি চ্যাম্পিয়নশিপেই যোগ্যতা যাচাই হবে।’

অলিম্পিকে সুযোগ পাওয়ার মুহূর্তটিকে এভাবেই ব্যাখ্যা করলেন বাংলাদেশ আনসারের তীরন্দাজ রোমান, ‘যখন আমি সেমিফাইনালে উঠে অলিম্পিকে খেলার যোগ্যতা অর্জন করলাম, তখন কেঁদেই ফেলেছিলাম। ঢাকায় এসে মায়ের সঙ্গে কথা হয়েছে। মা’ও খুব কেঁদেছেন আমার কথা শুনে।

এবার আর কোনো ওয়াইল্ড কার্ড নয়, কোয়ালিফাই করেই বাংলাদেশের দ্বিতীয় ক্রীড়াবিদ হিসেবে অলিম্পিকে খেলবেন আরচার রোমান সানা। গলফার সিদ্দিকুর এবার রোমান সানা বাংলাদেশকে সরাসরি অলিম্পিকে খেলার সুযোগ করে দিলেন। পে অফ:



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :