সন্ধ্যা ৬:৪০, মঙ্গলবার, ২৫শে জুন, ২০১৯ ইং
/ আর্ন্তজাতিক / দুর্দান্ত জয়ে শুরু বাংলাদেশের
বিশ্বকাপ ক্রিকেট
দুর্দান্ত জয়ে শুরু বাংলাদেশের
জুন ৩, ২০১৯



ইংল্যান্ডের মাটিতে গৌরবময় ইতিহাস গড়লো বাংলাদেশ। নিজেদের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়া ম্যাচে, লন্ডনের ওভালে শক্তিশালী দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২১ রানে হারিয়ে জয় দিয়েই বিশ্বকাপ মিশন শুরু করলো টাইগাররা। টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করে, সাকিব-মুশফিকের ১৪২ রানের রেকর্ড জুটিতে ৬ উইকেটে ৩৩০ রান তোলে বাংলাদেশ। জবাবে, মুস্তাফিজ-সাইফুদ্দিনদের বোলিংয়ে ৩০৯ রানে থামে ৮ উইকেট হারানো প্রোটিয়ারা। ম্যাচ সেরা হন, বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

নিজেদের প্রথম ম্যাচেই দক্ষিণ আফ্রিকা পরাস্ত- এ যেনো স্বপ্ন দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু বাংলাদেশের। আর টানা দুই ম্যাচ হেরে প্রোটিয়াদের সেমিফাইনাল খেলার স্বপ্নটাও এখন হুমকির মুখে।

৩৩১ রানের টার্গেট ছুঁতে হলে বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকাকে রীতিমতো রেকর্ডই করতে হতো। কারণ বিশ্বকাপে ২৯৬ রানের চেয়ে বেশি তাড়া করার রেকর্ড নেই প্রোটিয়াদের। বাংলাদেশের দেয়া টার্গেটে নেমে, ডি কক, মার্করামরা আশার আলো ছড়িয়েছিলেন। পরে সেই আলোর সলতেটা আরো বাড়িয়ে মশালে পরিণত করেন অধিনায়ক ফ্যাফ ডুপ্লেসিস। কিন্তু দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬২ রান করা ডুপ্লেসিসের উইকেট ভেঙে প্রোটিয়াদের আশায় জল ঢালেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

ওয়ানডেতে দ্রুততম সময়ে সাকিবের আড়াইশ’ উইকেট ও পাঁচ হাজার রানের রেকর্ডের দিনে, ৮ উইকেট হারানো প্রোটিয়াদের ইনিংস থামে ৩০৯ রানে।

এর আগে, টস হেরে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশের তামিম-সৌম্যর জুটিটা জমেছিল দারুণ। লুঙ্গি এনগিদি ও কাগিসু রাবাদাকে তুলোধুনো করে সাত ওভারে দলের স্কোর ৫০ রান। তবে অযথাই বলে খোঁচা দিয়ে দলের ৬০ রানে, ১৬ রানের পুঁজিতে তামিমের বিদায়।

সৌম্য সরকারও বেশিক্ষণ টেকেন নি। ৩০ বলে ৪২ করা সৌম্য, ক্রিস মরিসের বলে ডি ককের দারুণ এক ক্যাচে পরিণত হন।
পরে সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম বাংলাদেশকে দাঁড় করিয়ে দেন শক্ত ভিতের উপর। দুজনেই করেন ফিফটি। তাদের ১৪২ রানের পার্টনারশিপ বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ। শততম ম্যাচ খেলতে নামা প্রোটিয়া স্পিনার ইমরান তাহিরের শিকার হওয়ার আগে সাকিব ৮৪ বলে করেন ৭৫ রান। আর দলকে ২৫০ রানে রেখে সাজঘরে ফেরার আগে মুশফিক ৮০ বলে করেন ৭৮।

তাদের দেখানো পথেই হাটেন মাহমুদুল্লাহ ও মোসাদ্দেক। ২০ বলে মোসাদ্দেক ২৬ রান করে বিদায় নিলেও, ৩৩ বলে ৪৬ রান করে অপরাজিত থাকেন মাহমুদুল্লাহ। তাতে বিশ্বকাপ ক্রিকেটে এবং ওয়ানডেতেও নিজেদের সর্বোচ্চ ৩৩০ রানের লড়াকু পুঁজি পায় ৬ উইকেট হারানো বাংলাদেশ। নিজেদের সব রেকর্ড ভেঙে টাইগাররা নতুন রেকর্ড গড়ে বিশ্ব ক্রিকেট মঞ্চে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :