সন্ধ্যা ৬:৩৫, মঙ্গলবার, ২৫শে জুন, ২০১৯ ইং
/ video / চ্যাম্পিয়ন্স লিগ চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল
চ্যাম্পিয়ন্স লিগ চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল
জুন ২, ২০১৯



টটেনহ্যাম হটস্পারকে ২-০ গোলে হারিয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জিতেছে লিভারপুল। মাত্র ৩৫ ভাগ বল দখলে রেখেও চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জয়ের ঘটনা এটাই প্রথম। এ নিয়ে ষষ্ঠবারের মতো ইউরোপিয়ান ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করলো অলরেডরা।

ফাইনালে ‘অপয়া’- এই তকমাটা এবার মুছে ফেললেন ইয়ুর্গেন ক্লপ। টানা ছয়টি ফাইনাল হারের পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা তাঁর কাছে ধরা দিলো ‘লাকি সেভেন’ হিসেবে। এতে ১৪ বছর পর ইউরোপিয়ান ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্ব আবারো ফিরে পেলো লিভারপুল।

স্কোর লাইন কখনো কখনো ভুল বার্তাও দেয়। তাই স্পেনের অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানোতে টটেনহ্যাম ভালো খেললেও জয়ী দলের নাম লিভারপুল। ম্যাচের প্রথম মিনিটেই স্পার শিবিরে হোঁচট। যদিও পেনাল্টিটি অনেকের চোখেই বিতর্কিত। স্পট কিক থেকে মোহাম্মদ সালাহ পেলেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তাঁর পঞ্চম গোল। ফাইনালের ইতিহাসে যা দ্বিতীয় দ্রুততম গোল।

৬৫ ভাগ বলের দখল আর ১৬ শট নিয়েও মরিও পচেত্তিনোর দল গোলবঞ্চিত, লিভারপুল গোলরক্ষক এলিসন বেকারের অনবদ্য নৈপুণ্যে। সন হিউং মিন, লুকাস মৌরা, ক্রিস্টিয়ান এরিকসনদের একের পর হতাশ করেছেন ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক।

উল্টো ৮৭ মিনিটে সেমিফাইনালের নায়ক ভিভিক অরিগি নিশ্চিত করেন লিভারপুলের শিরোপা জয়। চ্যাম্পিয়নস লিগে প্রতিপক্ষের জালে তিন শট নিয়ে তিনটিতেই গোল করার কীর্তি গড়লেন বেলজিয়ান তারকা।

এতে টটেনহ্যামের স্বপ্নের শিরোপা থেকে গেলো অধরাই! আর যে সালাহ, গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে কেঁদে মাঠ ছেড়েছিলেন, তাঁর মুখে শোভা পেলো চওড়া হাসি। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মাঠ রঙিন হলো লিভারপুলের লাল রংয়ে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :