সন্ধ্যা ৭:৪৮, সোমবার, ২৭শে মে, ২০১৯ ইং
/ ফুটবল / এমন গোল আর‌ও করতে চাই: মনিকা চাকমা
এমন গোল আর‌ও করতে চাই: মনিকা চাকমা
মে ৬, ২০১৯



গত ৩০ এপ্রিল বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ নারী আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপের সেমিফাইনালে মঙ্গোলিয়ার বিপক্ষে এক গোল করে তাঁক লাগিয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশ দলের মিডফিল্ডার মনিকা চাকমা। বাংলাদেশের এক মেয়ের পায়ে দারুণ এই গোলটি ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকে। শেষ পর্যন্ত এক বাংলাদেশির বদৌলতে ‘ফ্যানস ফেবারিট’-এর সৌজন্যে গোলটি পৌঁছে গেছে বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার কাছে। শুধু তা-ই নয়, এবারের সপ্তাহে ‘ফ্যানস ফেবারিট’ নামের ফিফার ক্যাটাগরিতে প্রকাশ পাওয়া পাঁচটি সেরা ঘটনার একটি বাংলাদেশের মেয়ের গোল। ফিফা মনিকাকে উপাধি দিয়েছে ‘ম্যাজিকাল চাকমা’ বলে। গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মনিকা কথা বলেছন সেই গোল আর তার পারফরম্যান্সের কথা।

প্রশ্ন : মঙ্গোলিয়ার বিপক্ষে করা আপনার গোলটি নিয়ে তো বেশ মাতামাতি হচ্ছে, ফিফার ফ্যানস ফেভারিটেও জায়গা করে নিয়েছে সেটি?

মনিকা চাকমা : আমি শুনেছি এটা, শুনে খুব ভালো লেগেছে। ফিফা তো ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা। সেখানে আমার গোল পৌঁছে গেছে জেনে আসলেই খুব ভালো লেগেছে। আমার জন্য এটা অন্য রকম এক পাওয়া।

প্রশ্ন : ভলিতে এমন নিখুঁত গোলটা কিভাবে হলো, অনুশীলন করেছিলেন?

মনিকা : অনুশীলনে এভাবে আসলে গোল হয় না। আমাদের মূল অনুশীলন সেশনের পর কোচ ১০ মিনিট অতিরিক্ত সময় দেন ডেড বল অনুশীলনের জন্য। কিন্তু সেখানে তো আসলে এ রকম পরিস্থিতি তৈরি করা সম্ভব না। আসলে ম্যাচেও আমি ভাবিনি যে ওটা গোল হয়ে যাবে, আমি শুধু পোস্টে রাখতে চেয়েছিলাম।

প্রশ্ন : আপনার গোলগুলোর মধ্যে এটাই কি সেরা?

মনিকা : আমার মনে হয় না এর আগে এর চেয়ে ভালো গোল আমি করেছি। মিয়ানমারে অনূর্ধ্ব-১৬ খেলতে গিয়ে কর্নার থেকে সরাসরি গোল করেছি। অনেককে দিয়ে গোল করিয়েছিও। তবে আমার করা এটাই সেরা গোল। সব সময়ই এমন গোল করতে চাই।

প্রশ্ন : আপনি তো মিডফিল্ডে খেলেন, সব সময়ই কি এই গোলের চেষ্টাটা থাকে?

মনিকা : আমি খেলি হোল্ডিং পজিশনে। মারিয়া খেলে আক্রমণাত্মক মিডফিল্ডার হিসেবে। তবে আমি আর মারিয়া জায়গা বদল করে খেলি প্রায়ই। তো যখন ওপরে যাই ওই সময়টুকুই চেষ্টা করি কাজে লাগাতে। তখনই গোলের চেষ্টাটা থাকে।

প্রশ্ন : হোল্ডিং পজিশন না আক্রমণই আপনার বেশি পছন্দ?

মনিকা : হোল্ডিংয়ে খেলতে ভালো লাগে। কোচ আমার জন্য যেটা ভালো হয় সেটাই খেলতে বলেন।

প্রশ্ন : ফাইনালটা খেলতে না পারার আফসোস নিশ্চয় আছে?

মনিকা : হ্যাঁ, আমরা ফাইনালটা জিতেই চ্যাম্পিয়ন ট্রফিটা নিতে চেয়েছিলাম।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :