রাত ১১:৫৮, সোমবার, ২৪শে জুন, ২০১৯ ইং
/ আর্ন্তজাতিক / বার্সার জয় জুভেন্টাসের ড্র
উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ
বার্সার জয় জুভেন্টাসের ড্র
এপ্রিল ১১, ২০১৯



লুক শ’র একমাত্র আত্মঘাতী গোলে শনিবার রাতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে হারিয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালের পথে এগিয়ে গেলো স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা। কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে, ১২ মিনিটেই সুয়ারেজের হেড রুখতে গিয়ে, নিজেদের মাঠেই উল্টো প্রতিপক্ষকে জয়ের সুযোগ করে দেন শ’। আরেক ম্যাচে, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর গোলের পরও আয়াক্স আমস্টারডমের সাথে ১-১-এ ড্র করেছে জুভেভেন্টাস।

গেলো দশ বছরে দু’বার রেড ডেভিলদের চোখের জলে ভাসিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জয়ের সুখস্মৃতি নিয়ে ওল্ড ট্রাফোর্ডে খেলতে নামে বার্সেলোনা। কিন্তু ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ঘরের মাঠ কাতালানদের জন্য মোটেও দুর্ভেদ্য দূর্গ হতে পারলো না। ম্যাচের বয়স বারো মিনিট হতেই লুইস সুয়ারেজের হেড রুখতে গিয়ে উল্টো নিজেদের জালেই জড়িয়ে দেন লুক শ’। বড় ব্যবধানে জয়ের স্বপ্ন তখন অতিথিদের।

রেড ডেভিলদের মাটিতে প্রথম জয়ের পথে খুব একটা বাধা পেরোতে হয়নি স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নদের। কারণ মাঝমাঠে পল পগবা থেকে আক্রমণে রোমেলো লুকাকু, সবাই ছিলেন শতভাগ ব্যর্থ। গোটা ম্যাচে ইউনাইটেডের একটা শটও গোলমুখে ছিলো না। ৬৫ ভাগের বেশি সময় বলের দখল রাখা বার্সাও অবশ্য আক্রমণ আর ইতিবাচক খেলা দিয়ে মন ভরাতে পারেনি সমর্থকদদের। তবে মহামূল্যবান অ্যাওয়ে গোল নিয়ে চার মৌসুম পর আবারো সেমিফাইনালের স্বপ্ন এখন মেসি-সুয়ারেজদের। আর আগের রাউন্ডে পিএসজি ফিরতি লেগে বিদায় করলেও এবার তা অনেক বেশি কঠিন হবে সোলশায়ারের দলের জন্য।

এদিকে, রিয়াল মাদ্রিদকে বিদায় করে শেষ আটে উঠলেও আয়াক্সকে হারানোটা খুব বেশি কঠিন হওয়ার কথা ছিলো না ইতালিয়ান জায়ান্ট জুভেন্টাসের জন্য। কিন্তু নিজেদের মাঠে বাঘ হয়ে ওঠা আয়াক্স জুভদের দাঁড়াতেই দেয়নি। ষাটভাগের বেশি বলের দখলের সাথে গোটা ম্যাচে প্রায় কুড়িটি আক্রমণে অতিথিদের নাজেহাল করে তোলে ডাচ ক্লাবটি।

তবে বিরতির আগে ঠিকই কাঙ্খিত গোলটি আদায় করে নেন জুভেন্টাসের পর্তুগিজ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। অবশ্য দু’মিনিটের বেশি লিড ধরে রাখতে পারেনি ম্যাসিমিলিয়ানো অ্যালিগ্রির দল। বিরতি থেকে ফিরেই ম্যাচে সমতা ফিরিয়েছেন ডেভিড নেরেস। দিবালা-মানজুকিচ-কস্টা-মাতুইদি ম্যাচে কোনো অবদান রাখতে না পারলে ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নদের।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :