দুপুর ১:১১, শনিবার, ২৩শে মার্চ, ২০১৯ ইং
/ আর্ন্তজাতিক / রিয়ালের বিদায় কোয়ার্টারে টটেনহ্যাম
রিয়ালের বিদায় কোয়ার্টারে টটেনহ্যাম
মার্চ ৬, ২০১৯



উপরের ছবিতে গ্যারেথ বেলের এই হতাশা দেখলেই বুঝা যায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগে টানা তিনবারের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদের অবস্থা। আয়াক্স আমস্টারডমের কাছে ৪-১ গোলে হেরে তারা উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ষোলো থেকেই বিদায় নেয়। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সবচেয়ে সফল দল রিয়াল মাদ্রিদের এই পরাজয়ে কষ্ট নিয়ে মাঠ ছাড়েন দর্শকরা। প্রথম লেগে ২-১ গোলের জয়ের পরও ফিরতি লেগে ঘরের মাটিতে বড় হারে রিয়াল বিদায় নেয় ৫-৩ ব্যবধানে। অন্যম্যাচে, বরুশিয়া ডর্টমুন্ডককে ১-০ গোলে হারিয়ে দুই লেগ মিলিয়ে ৪-০ ব্যবধানে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে টটেনহ্যাম হটস্পার।

কে ভেবেছিলো, এই ম্যাচটার শেষ দৃশ্যটা এমন হবে! দুর্দশার বৃত্তে আটকে পড়া রিয়াল মাদ্রিদের শূন্য হাতে মৌসুম শেষের সব আয়োজন।

অথচ এই দুর্দশা থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর মঞ্চ প্রস্ততই ছিলো। ঘরের মাঠ, নিজেদের দুর্গে খেলা; প্রথম লেগের জয়ে বেশ খানিকটা এগিয়েই ছিলো, টুর্নামেন্টের সবচেয়ে সফল আর গেলো পাঁচ বছরে চারবার শিরোপা জয়ী দলটি।
কিন্তু গেলো এক মাসে দু’বার ঘরের মাটিতে চির প্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার কাছে ধরাশায়ী হওয়ার রেশ যেনো আয়াক্সের বিপক্ষেও থেকে গেলো।

সবশেষ ১৯৯৫-তে রিয়ালের বিপক্ষে জয় ছিলো আয়াক্সের। সে দলটির মাঠে খেলতে নেমেই কিনা ম্যাচের ৭ মিনিটেই হাকিম জিয়েচের গোলে এগিয়ে যায় ডাচ ক্লাবটি। ১৮ মিনিটের মধ্যে দু’গোল করে প্রথম লেগের ফল পাল্টেও দেয় তারা। নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবার ঘরের মাটিতে ১৮ মিনিটের মধ্যে দুই গোল হজম করেছে রিয়াল।
মডরিচ, বেনজেমা, টনি ক্রুসরা একের পর এক সুযোগ নষ্টের মহড়া দিতে থাকায় ম্যাচে ফেরা আর হয়নি লা ব্লাঙ্কোদের। উল্টো ৬২ মিনিটে ডুসান ট্যাডিচ কবর রচনা করেন রেকর্ড তের বারের চ্যাম্পিয়নদের।

মার্কে অ্যাসেনসিওর সান্তনার গোলটিও কোনো ভূমিকা রাখতে পারেনি দু’মিনিট পর ল্যাসি শ’নের দুর্দান্ত ফ্রিকিকের গোলের কারণে। তাতে ২০০৯-১০ মৌসুমের পর প্রথমবার সেমিফাইনালের আগেই বিদায় নিলো সান্তিয়াগো সোলারির শিষ্যরা। আর এতে ১৫ বছর পর নিজেদের মাঠে টানা তিনবার পরাজিত হলো রিয়াল মাদ্রিদ।

এদিকে, দিনের অন্যম্যাচে, জার্মান জায়ান্ট বরুশিয়াকে তাদেরই মাটিতে হারিয়েছে ইংলিশ ক্লাব টটেনহ্যাম হটস্পার। প্রথম লেগের ৩-০ গোলের জয়ের সাথে ইনজুরি থেকে ফেরা হ্যারি কেনের গোলে দুই লেগ মিলে ৪-০ ব্যবধানে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠে তারা।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :