দুপুর ১:২৪, শনিবার, ২৩শে মার্চ, ২০১৯ ইং
/ আরচ্যারি / সলিডারিটি আরচ্যারি শুরু শনিবার
সলিডারিটি আরচ্যারি শুরু শনিবার
ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৯



তৃতীয়বারের মত আইএসএসএফ সলিডারিটি আরচ্যারির আসর বসছে বাংলাদেশে। রেকর্ড ২৬টি দেশের প্রায় দেড় শতাধিক আরচারের পদচারনায় শনিবার থেকে চারদিন মুখরিত হবে টঙ্গির শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার স্টেডিয়াম। দেশের আরচারদের অংশগ্রহণ বাংলাদেশ আরচারিতে এটাই প্রথম। এর আগে দু’বার এ আসর বসেছিল ঢাকায় মওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে। আজ বুধবার জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান, আরচারি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কাজী রাজীব উদ্দিন আহমেদ চপল। এ সময় ফেডারেশনের সভাপতি লে. জেনারেল (অব.) মইনুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

সবশেষ আসরে ১৮টি দেশ অংশ নিয়েছিল। এবার বেড়েছে আরও আটটি। এবারের আসরে অংশ নিতে যাওয়া দেশগুলো হলো- আলবেনিয়া, আজারবাইজান, আলজেরিয়া, চাঁদ, ক্যামেরুন, জার্মানী, ভারত, ইরান, ইরাক, কাজাখস্তান, কেনিয়া, কিরগিজস্তান, সৌদী আরব, মালয়ি, মরক্কো, নেপাল, পাকিস্তান, সুদান, সিরিয়া, থাইল্যান্ড, তাজিকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান, চাইনিজ তাইপে, সংযুক্ত আরব আমিরাত, উগান্ডা ও স্বাগতিক বাংলাদেশ।

রিকার্ভ ও কম্পাউন্ড বিভাগে পুরুষ ও মহিলা একক, দলীয় ও মিশ্র দলের খেলা হবে। দু’বিভাগে পাঁচটি করে দশটি ইভেন্টে ৩০টি স্বর্ণ, রুপা ও ব্রোঞ্জের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। রিকার্ভ বিভাগ ৭০ মিটার ও কম্পাউন্ড বিভাগের খেলা ৫০ মিটারে হবে। স্বাগতিক বাংলাদেশের আরচাররা হলেন- রোমান সানা, ইমদাদুল হক মিলন, হাকিম আহমেদ রুবেল, তামিমুল ইসলাম, বিউটি রায়, নাসরিন আক্তার, দিয়া সিদ্দিকী, ইতি খাতুন, শেখ সজিব, অসীম কুমার দাস, আবুল কাশেম মামুন, মিলন মোল্যা, সুস্মিতা বনিক, বন্যা আক্তার, শ্যামলী রায় ও তামান্না পারভীন।

আজ বিকেলে সুদান, মালয়ি ও চাঁদের আরচাররা ঢাকায় এসে পৌঁছান। চপল জানান, আগের দু’আসরের চেয়ে এবারের আসর ভিন্ন। কারণ এখানে জার্মানির মতো বিশ্বমানের আরচাররা আসছেন। তাই আগেভাগে স্বর্ণপদকের প্রতিশ্রুতি দিতে পারছি না। তবে আমাদের ছেলে মেয়েরা মুখিয়ে রয়েছে স্বর্ণপদক জিততে। তাছাড়া আমরা পদকের চেয়ে খেলার মান আমরা বৃদ্ধি করতে চাই। তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সরাসরি খেলা দেখানোর চেষ্টা করা হবে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :