সকাল ১১:৫৪, বুধবার, ১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং
/ আর্ন্তজাতিক / হুমকিতে ঘরছাড়া প্লাস্টিক মেসি
হুমকিতে ঘরছাড়া প্লাস্টিক মেসি
ডিসেম্বর ৭, ২০১৮



তালেবানি হুমকিতে ঘরছাড়া এখন প্লাস্টিক মেসি। সম্প্রতি দক্ষিণ-পূর্ব গজনি প্রদেশে হানা দিয়েছে তালেবানরা। হাজার হাজার আফগান পরিবার সেই হামলার হাত থেকে বাঁচতে ঘরবাড়ি ছেড়ে পালাতে বাধ্য হয়েছেন। তাদের মতো গৃহহারা এখন এই সাত বছরের শিশু ও তার পরিবার। নিজেদের সর্বস্ব ছেড়ে আসতে বাধ্য হন তাঁরা। আহমাদির বাবা-মা জানান, মেসির সঙ্গে দেখা করে বিখ্যাত হওয়ার কারণে তাঁদের পরিবার ও সাত বছরের ছোট্ট আহমাদি আলাদা করে আছেন তালেবানি জঙ্গিদের নিশানায়।

২০১৬ সালে আফগানিস্তান শিশু মুর্তোজা আহমাদির আর্জেন্টাইন তারকা খেলোয়াড় লি‌ওনেল মেসির প্রতি ভালবাসা সারা বিশ্বকে নাড়িয়ে দিয়েছিল। মেসির প্রতি ভালবাসার কারণে প্লাস্টিক কাগজ দিয়ে আর্জেন্টিনার জার্সি বানিয়ে পড়তো সাত বছরের ছোট্ট দরিদ্র শিশু মুর্তোজা আহমাদি। ছবিতে দেখা গিয়েছিল যুদ্ধ-বিধ্বস্ত আফগানিস্তানে আহমদি একটি আকাশি নীল-সাদা পলিথিন দিয়েই মেসির জার্সি তৈরি করেছে। তাতে স্কেচপেন দিয়ে মেসির নাম ও তাঁর জার্সি নম্বর মিলিয়ে ১০ লেখা। সেই ছবি নজর এড়ায়নি স্বয়ং মেসিরও। কাতারে বার্সেলোনার এক প্রদর্শনী ম্যাচে ইউনিসেফের মাধ্যমে তাঁকে ডেকে এনে মেসি তাঁর সই করা একটি জার্সি ও একটি ফুটবল উপহার দিয়েছিলেন তাঁকে। মেসির হাত ধরে সেই ম্যাচে ম্য়াস্কট হিসাবে মাঠেও নেমেছিল আহমদি। কিন্তু ‘প্লাস্টিক মেসি’র সেই স্বপ্ন পূরণের পর এখন জীবনে নেমে এসেছে দুঃস্বপ্ন।

তার মা সফিকা জানিয়েছেন, তাঁরা হাজারা গোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত, যারা শিয়া-পন্থী। তাই সুন্নিপন্থী তালেবানিদের ‘নভেম্বর অপারেশনে’ নিশানা করে তাদের প্রদেশে। এক রাতে তালেবানিদের গোলা-বারুদের শব্দ পেয়েই প্রাণটুকু সম্বল করে তাঁরা বাড়ি ছেড়ে পালান। আপাতত কাবুল শহরে এক অস্থায়ী আস্তানায় আশ্রয় নিয়েছেন। আহমাদির মা জানিয়েছেন, তালেবানি জঙ্গিরা তাঁদের বিখ্যাত সন্তানেকে বিশেষভাবে খুঁজছে। খোলাখুলি হুমকি দিয়ে রেখেছে মুর্তোজা আহমাদিকে ধরতে পারলে তাঁর দেহ কেটে টুকরো টুকরো করে ফেলা হবে। তালেবানরা কোনোদিনই খেলাধুলা পছন্দ করে না। তাদের আমলে কাবুল স্টেডিয়ামকে ব্যবহার করা হতো মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার জন্য।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :