রাত ৪:১৮, সোমবার, ২৪শে মার্চ, ২০১৯ ইং
/ ব্যাডমিন্টন / সমাপনী অনুষ্ঠানে অব্যবস্থাপনা
বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল চ্যালেঞ্জ ব্যাডমিন্টন
সমাপনী অনুষ্ঠানে অব্যবস্থাপনা
ডিসেম্বর ১৫, ২০১৮



বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল চ্যালেঞ্জ ব্যাডমিন্টনের পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে অব্যবস্থাপনা ও বিশৃংখলা দেখা দেয় চরম আকারে। এটি নিয়ে হাসাহাসি করেন বিদেশী খেলোয়াড় ও কর্মকর্তারা‌ও। পুরস্কার মঞ্চে চ্যাম্পিয়নকে দাঁড় করিয়ে রেখে রানারআপ খেলোয়াড়কে পুরস্কার দেয়ার ঘোষণা করা হয়। কিছুক্ষণ পর অবশ্য রানার আপকে মঞ্চ থেকে নামিয়ে দেয়া হয়। এমনকি বিদেশী সেমিফাইনালিষ্ট জুটিকে ভুল করে রানার্সআপ ভেবে গিফট দিলেও তা ফিরিয়ে নেয়া হবে বলে তাদেরকে জানানো হয়।

চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপদের জন্য প্রাইজমানি থাকলেও মেডেল ছিল না। দেয়া হয় সস্তা দামের ক্রেস্ট। সেমিফাইনালিষ্টদের ব্রোঞ্জজয়ী করা হলেও ক্রেস্টে লেখা ছিল সেমিফাইনালিষ্ট। পুরস্কার পাওয়াদের ডামি চেক দেয়া হয় পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানের শেষে। পুরস্কার হিসেবে স্বল্পমুল্যের লাঞ্চ বক্স ও ব্লেন্ডার মেশিন দেখে হাসাহাসিও বিদেশীরা করেন।

এর পরেই একটি অনাকাক্সিক্ষত ঘটনায় সবাই হতবাক হয়ে যান। অনুষ্ঠান শেষে ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন বাহার ও মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান শাহজালাল মুকুল সুভেন্যির বিতরনকে কেন্দ্র করে বাক বিতন্ডয় জড়িয়ে পড়েন। টুর্নামেন্টের রেফারি মালদ্বীপের আলী আবদুল করিমও হতবাক হন। পরে অবশ্য পরিস্থিতি শান্ত হয়। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত নানা অব্যবস্থানার মধ্যে দিয়ে শেষ হয় আন্তর্জাতিক আসর।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :