ভোর ৫:৪৭, সোমবার, ২০শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং
/ অলিম্পিক (বিওএ) / বর্জ্যে তৈরি অলিম্পিকের পদক
বর্জ্যে তৈরি অলিম্পিকের পদক
ডিসেম্বর ১১, ২০১৮



আশ্চর্য হলে‌ও সত্যি ২০২০ সালের জাপান অলিম্পিকের পদক জয়ীরা পুরস্কার হিসেবে পাবেন বর্জ্য থেকে বানানো পদক। জাতিসঙ্ঘের ২০১৬-র রিপোর্ট অনুযায়ী সারা বিশ্বে ইলেকট্রনিক বর্জ্যের পরিমাণ ছিল সাড়ে ৪ কোটি টন। আর প্রতি বছরে সেই বর্জ্যের পরিমাণ বাড়ছে ৩-৪ শতাংশ করে। জাপান এই বর্জ্যকেই কাজে লাগিয়ে ২০২০-তে টোকিও অলিম্পিক্সের পদক তৈরির কাজ করছে।

সোনা, রুপা ও ব্রোঞ্জ মিলিয়ে প্রায় ৫ হাজার পদক দেওয়া হবে প্রতিযোগীদের। আয়োজকরা জানিয়েছেন, পদক তৈরিতে যে পরিমাণ সোনা, রুপা এবং ব্রোঞ্জ লাগবে তার সবটাই আসবে ‘আরবান মাইনিং’-এর মাধ্যমে। অর্থাত্ ইলেকট্রনিক বর্জ্য থেকে। তাই অলিম্পিক্স আয়োজক দেশ জাপান এই বর্জ্য থেকেই সোনা-রুপো-ব্রোঞ্জ সংগ্রহ করে সেই পদক বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আয়েজকরা জাপানের নাগরিকদের কাছে ইলেকট্রনিক বর্জ্য দান করার আহ্ববান‌ও জানিয়েছেন।

চলতি বছলের এপ্রিল থেকেই এই প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে। আয়োজকরা এখনও পর্যন্ত ইলেকট্রনিক বর্জ্য থেকে সাড়ে ১৬ কেজি সোনা এবং ১৮০০ কেজি রুপা সংগ্রহ করেছেন।

অবশ্য এই প্রথম নয়, এর আগেও রিসাইকেল জিনিস দিয়ে অলিম্পিক্সের পদক তৈরি করা হয়েছে। ২০১৬-র রিও অলিম্পিকে রুপার পদক বানাতে যে পরিমাণ রুপা লেগেছিল তার প্রায় ৩০ শতাংশ অব্যবহৃত আয়না, এক্স-রে প্লেট থেকে। ওই অলিম্পিকের ব্রোঞ্জের যে পদক তৈরি হয়েছিল তাতে ব্যবহৃত ৪০ শতাংশ তামা এসেছিল টাঁকশালের বর্জ্য থেকে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :