সকাল ১১:৫৫, বুধবার, ১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং
/ আর্ন্তজাতিক / মুমিনুলের সেঞ্চুরিতে স্বস্তিতে বাংলাদেশ
বাংলাদেশ-‌ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট
মুমিনুলের সেঞ্চুরিতে স্বস্তিতে বাংলাদেশ
নভেম্বর ২২, ২০১৮



চট্টগ্রামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের প্রথম দিন শেষে ৮ উইকেটে ৩১৫ রান তুলেছে বাংলাদেশ। মুমিনুল হকের অষ্টম টেস্ট সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহের ইঙ্গিত দিয়েছিলো টাইগাররা। তবে শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের বোলিংয়ে দিনের শেষ সেশনে ম্যাচে ফেরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

মুমিনুলের অষ্টম টেস্ট সেঞ্চুরিতে চা বিরতির আগ পর্যন্ত দিনটি যতটা ছিলো বাংলাদেশের পক্ষে; শেষ সেশনে শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের বোলিং তোপে ঠিক ততই ঝুঁকে যায় ক্যারিবীয়দের দিকে। তবুও প্রথম দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩শ’ পার হয়।

সকালটা ছিলো হতাশার। লিটন দাসের পরিবর্তে একাদশে সুযোগ পেয়ে আরো একবার ব্যর্থ সৌম্য সরকার। টানা চতুর্থ ইনিংসে দু’অঙ্কে পৌঁছানোর আগেই বিদায় নেয়া এই বাঁহাতি এবার অবশ্য রানের খাতাই খুলতে পারেননি।

ইমরুলের সাথে জুটিটা বেশ ভালোই জমেছিলো মুমিনুলের। কিন্তু দলের খাতায় শতরান পার হতেই সাজঘরে ব্যক্তিগত ৪৪ রান করা ইমরুল। বিরতির আগ মুহূর্তে উইকেট হারানোর পুনরাবৃত্তি।

বিরতির পর মিথুনও ফিরে গেলে আবারো চাপে স্বাগতিকরা। তবে সাকিবের সাথে জুটি গড়ে আরও একবার ত্রানকর্তা মুমিনুল। চট্টগ্রামের মাটিতে খেলতে নামলেই এই বাঁহাতি যেনো অপ্রতিরোধ্য হয়ে ওঠেন। চট্টগ্রামে ষষ্ঠ আর ক্যারিয়ারের অষ্টম টেস্ট সেঞ্চুরিটি তিনি পেয়ে যান চা বিরতির আগেই। সেই সাথে বিরল এক অবস্থানেও পৌঁছেছেন প্রিন্স অব কক্সবাজার। এ বছর সর্বোচ্চ সংখ্যক সেঞ্চুরির রেকর্ডে বিরাট কোহলির সাথে আছে তার নামও। ২০১৮ সালে চতুর্থ সেঞ্চুরি পেলেন মুমিনুল।

কিন্তু চা বিরতির পরই পাল্টে যায় ম্যাচের চিত্র। শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের এক ওভারেই সাজঘরে মুমিনুল আর মুশফিক। ১২০ রানে মুমিনুলের বিদায়ের পর মাত্র ৪ রানে থামে মুশফিকের ইনিংস। স্বাগতিকদের বড় স্কোরের আশা শেষ হয়ে যায় ডানহাতি এই ফাস্ট বোলারের পরের দু’ওভারে সাকিব আর মাহমুদুল্লাহ ফিরে গেলে।

তবে ইনজুরি কাটিয়ে দু’মাস পর মাঠে ফেরা সাকিবের ৬৮ বলে ৩৪ রানের ইনিংসটি দর্শকদের মনে স্বস্তি ফিরিয়েছে তার সুস্থতার ইঙ্গিতে।

অভিষিক্ত নাঈম হাসান আর তাইজুল দিনের বাকী সময়টায় হাল ধরলে স্বাগতিকদের সংগ্রহ তিনশো পেরোনোর পাশাপাশি প্রথম দিন শেষ হয়নি বাংলাদেশের ইনিংস। তাদের অবিচ্ছিন্ন ৫৬ রানের জুটিতে দিনশেষে স্বাগতিকদের সংগ্রহ ৮ উইকেটে ৩১৫।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :