সন্ধ্যা ৭:০৫, বৃহস্পতিবার, ১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং
/ ক্রিকেট / দেড়দিন আগেই জিম্বাবুয়ের কাছে হার বাংলাদেশের
দেড়দিন আগেই জিম্বাবুয়ের কাছে হার বাংলাদেশের
নভেম্বর ৬, ২০১৮



বাজে আর কান্ড-জ্ঞানহীন ব্যাটিংয়ের খেসারত দিয়ে সিলেট টেস্টে জিম্বাবুয়ের কাছে হেরেই গেলো বাংলাদেশ। শক্তির দিক দিয়ে পিছিয়ে থাকা জিম্বাবুয়ের কাছে ১৫১ রানের বড় ব্যবধানে পরাজিত হলো মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। বাংলাদেশের কাছে সর্বশেষ চার টেস্টেই হেরেছে জিম্বাবুয়ে। তারা এবার পরাজয়ের লজ্জা দিলো টাইগারদের।

বিশাল টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে আজ মঙ্গলবার ম্যাচের চতুর্থ দিনে ধারাবাহিকভাবে উইকেট হারাতে থাকে বাংলাদেশ। দিনের প্রথম ঘণ্টাতেই সিকান্দার রাজার স্পিনে লেগ বিফোর হন লিটন দাস (২৩)। ভাঙে ৫৬ রানের ওপেনিং জুটি। তিন নম্বরে নামা মুমিনুল হক দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যর্থ। মাত্র ৯ রান করে জার্ভিসের বলে বোল্ড হন ‘টেস্ট স্পেশালিস্ট’ খ্যাত এই ব্যাটসম্যান। একপ্রান্ত আগলে ভালোই খেলছিলেন ইমরুল কায়েস। কিন্তু ব্যক্তিগত ৪৩ রানে তিনি সেই সিকান্দার রাজার বলে সুইপ করতে গিয়ে উইকেট হারান তিনি। ৮৩ রানে প্রথম সারির তিন ব্যাটসম্যান হারিয়ে বিপাকে পড়ে বাংলাদেশ।

এরপর নিয়মিত বিরতিতেই উইকেট পড়তে থাকে। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এই ইনিংসেও ব্যর্থ। ১৬ রান করে সিকান্দার রাজার শিকার হন তিনি। সুযোগ পেয়েও কিছু করে দেখাতে পারেননি নাজমুল হোসেন শান্ত (১৩)। সিকান্দার রাজার তৃতীয় শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেন এই তরুণ ব্যাটসম্যান। ১১১ রানেই ৫ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

সিলেট টেস্টের কোনো ইনিংসেই দলকে নির্ভরতা দিতে পারলেন না ‘মি. ডিপেন্ডেবল’ খ্যাত মুশফিকুর রহিম। প্রথম ইনিংসে ৩১ রান করার পর দ্বিতীয় ইনিংসে দল যখন হারের মুখে আছে, মুশি তখন ব্যক্তিগত ১৩ রানে মাভুতার বলে উইলিয়াম মাসাকাদজার তালুবন্দি হলেন। মেহেদী মিরাজও (৭) মুশির পথ অনুসরণ করে মাভুতার বলে ক্যাচ তুলে দিলেন পতন হলো ৭ম উইকেটের।

তাইজুল ইসলাম আর নাজমুল ইসলাম অপু দুজনের কেউই রানের খাতা খুলতে পারেননি, ‘ডাক’ মেরেছেন। তাদের উইকেটে পেয়েছেন ডেব্যুটেন্ট উইলিয়াম মাসাকাদজা এবং মাভুতা। ৩৮ রান করা আরিফুল হককে চাকাভার গ্লাভসবন্দি করে বাংলাদেশের কফিনে শেষ পেরেকটা ঠুকে দেন ৪ উইকেট নেওয়া মাভুতা। ১৬৯ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। ১৫১ রানের বড় জয় নিয়ে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল জিম্বাবুয়ে। আগামী ১১ নভেম্বর মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে হবে সিরিজের দ্বিতীয় ‌ও শেষ টেস্ট।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :