সন্ধ্যা ৭:০৭, বৃহস্পতিবার, ১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং
/ ফুটবল / গ্রুপ সেরা আরামবাগ
ফেডারেশন কাপ ফুটবল
গ্রুপ সেরা আরামবাগ
নভেম্বর ৪, ২০১৮



স্পোর্টস রিপোর্টার

এর আগে, দুটি দলই একটি করে ম্যাচ জিতেছিল। তিন পয়েন্ট নিয়েই কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত হয়েছিল চট্টগ্রাম আবাহনী ও আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের। তাই গ্রুপ পর্বে এসে দু’দলের দ্বৈরথটি ছিল গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াই। সে লড়াইয়ের মূল সময় ছিল ২-২ গোলে ড্র। গোল ব্যবধান সমান থাকায় গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন খুঁজে নিতে টাইব্রেকারের সাহায্য নিতে হয় রেফারীকে। ভাগ্য নামের সে খেলায় জয় পায় আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। চট্টগ্রাম আবাহনীকে ৪-২ (২-২) গোলে পরাস্ত করে টানা দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে ‘এ’ গ্রুপ সেরা হয়েই কোয়ার্টার ফাইনালে পা রাখে ক্লাবপাড়ার দলটি।

বন্দরনগরীর দলটি এক জয়ে ৩ পয়েন্ট সংগ্রহ করেছে। রানার্সআপ হিসেবে শেষ আটে পৌঁছায় তারা‌ও। আগামী ৮ নভেম্বর আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ সেমি ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে ‘সি’ গ্রুপ রানার্সআপ দলের বিরুদ্ধে। আর চট্টগ্রাম আবাহনীকে ১০ নভেম্বর লড়তে হবে ‘সি’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন দলের সাথে।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে রহমতগঞ্জ এমএফএসকে ৩-১ গোলে পরাজিত করেছে আরামবাগ। চট্টগ্রাম আবাহনীও একই দলের বিরুদ্ধে সমান ব্যবধানে জয় পায়। তাই এ ম্যাচটি গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ে পরিনত হয়েছিল। আজ রোববার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে দিনের একমাত্র ম্যাচে শিরোপা প্রত্যাশী চট্টগ্রাম আবাহনীর মুখোমুখি হয় আরামবাগ। ম্যাচে ফেবারিট ছিল বন্দরনগরীর দলটি। ৮ মিনিটে গোলও পেয়ে যায় তারা। দলের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড আওয়ালা মাগালান গোল করে লিড এনে দিয়েছিলেন (১-০)।

প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার ৬ মিনিট আগেই ব্যবধান দ্বিগুন করে বড় জয়ের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন চট্টগ্রাম আবাহনীর গাম্বিয়ার মিডফিল্ডার মমদুবাহ। বাপ্রান্ত দিয়ে একক প্রচেষ্টায় বল নিয়ে বাম পায়ের অসাধারণ শটে আরামবাগের জালে বল পাঠান (২-০)।

তবে প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে এক গোল পরিশোধ করে আরামবাগ ম্যাচে ফেরার চেষ্টায় কিছুটা সফল হয়। নিজেদের সীমানায় কেস্ট কুমার বোস আরামবাগ মিডফিল্ডার জাহিদ হোসেনকে ফাউল করলে রেফারি নাহিদ পেনাল্টির বাঁশি বাজান। স্পট কিক থেকে গোল করে সমর্থকদের উল্লাসে মাতিয়ে তোলেন উজবেক ফুটবলার নরমাটুভিচ (২-১)।

দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে ম্যাচে সমতা ফেরানোর জন্য প্রানান্তর চেষ্টা করে আরামবাগ। তবে তারা সফল হয় ৮৫ মিনিটে। মিডফিল্ডার শাহরিয়ার বাপ্পির অসাধারণ ভলিতে সমতা আনে আরামবাগ (২-২)। ম্যাচের বাকি সময় গোল না হওয়ায় ২-২ গোলে ড্র হয় খেলাটি। ফলে বাইলজ অনুযায়ী গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন নির্ধারণে খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। পেনাল্টি শ্যূট আউটে জয় পায় আরামবাগ।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :