সন্ধ্যা ৭:১৩, বৃহস্পতিবার, ১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং
/ আর্ন্তজাতিক / বরোদার বিস্ময়বালক
বরোদার বিস্ময়বালক
অক্টোবর ৩১, ২০১৮



গুজরাটের বরোদায় ক্রিকেটার তৈরির কারখানা গড়েছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক কোচ মহিন্দর অমরনাথ। তাও বেশ কয়েক বছর আগে। সেখানে যে ক্রিকেটার গড়ে তোলার কাজটা ঠিকঠাকই হচ্ছে তা প্রমাণ পা‌ওয়া গেল। মহিন্দর অমরনাথ অ্যাকাডেমির খুদে ক্রিকেটার প্রিয়াংশু মলিয়া ভারতীয় ক্রিকেটের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের ঝলক দেখিয়ে গেলেন। গায়কোয়াড় অনূর্ধ্ব-১৪ টুর্নামেন্টে অমরনাথের ছাত্র প্রিয়াংশু মলিয়া খেললেন অবিশ্বাস্য এক ইনিংস। যোগী ক্রিকেট অ্যাকাডেমির বিরুদ্ধে মহিন্দর লালা অমরনাথ অ্যাকাডেমির হয়ে দুই দিনের ম্যাচে এই ১৪ বছর বয়সী ক্ষুদে ব্যাটসম্যান করলেন ৫৫৬ রান।

শুধু ব্যাট নয়, বল হাতেও যেন অতিমানব হয়ে উঠেছিল প্রিয়াংশু। তাঁর স্পিন খেলতে রীতিমতো নাকানি-চোবানি খেতে হয় বিপক্ষ দলের ব্যাটসম্যানদের। প্রথম দিনেই যোগী অ্যাকাডেমি ৫২ রানে গুটিয়ে যায়। তাও প্রিয়াংশুর দাপটে। ৪ উইকেট তুলে নেন এই ক্ষুদে অফ স্পিনার। এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে ব্যক্তিগত ৪০৮ রানে অপরাজিত থেকে দিন শেষ করেন প্রিয়াংশু। দ্বিতীয় দিন আরও ১৪৮ রান যোগ করে ১৪ বছরের ব্যাটসম্যান। ৪ উইকেটে ৮২৬ রান তোলে অমরনাথ অ্যাকাডেমি। প্রিয়াংশু একাই অপরাজিত ৫৫৬ রান করেন। ৩১৯ বলে ৯৮টি চার আর ১ ছক্কায় সাজানো তাঁর এই অবিশ্বাস্য ইনিংস।

দ্বিতীয় ইনিংসে ৮৪ রানে শেষ হয়ে যায় যোগী অ্যাকাডেমি। এক ইনিংস ও ৬৮৯ রানে অমরনাথ অ্যাকাডেমি বড় জয় তুলে নেয়। গত বছর এই একই টুর্নামেন্টেও দারুণ পারফরম্যান্স করেছিল প্রিয়াংশু। গতবারও ডাবল সেঞ্চুরি ছিল তাঁর। তাই এবার নিজের জন্য আরও বড় লক্ষ্যমাত্রা রেখেছিলেন তিনি। এতো ভাল ইনিংস খেলে উঠে প্রিয়াংশু বললেন, ‘প্রথমে যখন সেঞ্চুরি করলাম তখন মনে মনে দুশো করব বলে টার্গেট নিলাম। তার পর দুশো করার পর তিনশো করার জন্য লক্ষ্যমাত্রা রাখলাম। এভাবে একশো করার টার্গেট নিয়ে এগোতে থাকলাম। তাতে চাপও কমল, আবার মনোযোগও বহাল ছিল।’

প্রিয়াংশুর ধৈর্য প্রচুর। আর এটাই এই ক্ষুদে ব্যাটসম্যানকে এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে মনে করেন অমরনাথ। শিষ্যের এমন ইনিংসের সাক্ষী থাকার পর তিনি বলেন, ‘ওর স্টান্ট, ব্যাটিং স্টাইল দেখে প্রথমদিন থেকেই আশার আলো দেখেছিলাম। ক্রিকেটের প্রতি ওর প্যাশন রয়েছে। যত বড় হবে তত পরিণত হবে।’

প্রিয়াংশুর বাড়ি রাজকোটে। কিন্তু অমরনাথের অ্যাকাডেমিতে প্র্যাকটিসের জন্য সে আপাতত বরোদায় চলে এসেছে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :