সন্ধ্যা ৭:০৮, বৃহস্পতিবার, ১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং
/ হকি / অবশেষে মোহামেডান হকি লিগ চ্যাম্পিয়ন
অবশেষে মোহামেডান হকি লিগ চ্যাম্পিয়ন
অক্টোবর ৩০, ২০১৮



অবশেষে জট খুলেছে ঘরোয়া হকির সবচেয়ে মর্যদাপূর্ন আসর প্রিমিয়ার হকি লিগের। অচলাবস্থার মধ্যে দিয়ে লিগ শেষ হওয়ার চারমাস পর চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে। রানার্সআপ আবাহনী লিমিটেড। অসমাপ্তভাবে শেষ হওয়া লিগের শেষ ম্যাচে মোহামেডানের প্রতিপক্ষ মেরিনার্স ইয়াং হয়েছে তৃতীয়।

আজ মঙ্গলবার বিমানবাহিনীর ফ্যালকন হলে হকি ফেডারেশনের গভর্নিং বডির (জিবি) এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবদুস সাদেক। সভা শেষৈ তিনি জানান, মোহামেডানকে চ্যাম্পিয়ন ও পয়েন্ট টেবিল অনুসারে আবাহনীকে রানার্সআপ ঘোষণা করা হয়েছে। আবদুস সাদেক বলেন, সব হিসেব-নিকেষ করেই জিবি সভায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কর্মকর্তারা। সবাই এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়েছেন। আমার মনে হয় সবার উচিত এই সিদ্ধান্ত মেনে নেয়া।

গত ৭ জুন ম্যাচে ১-০ গোলে এগিয়েছিল মোহামেডান। আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে গন্ডগোলের কারণে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে গোল শোধ দিয়ে ম্যাচে সমতা (১-১) এনেছিল মেরিনার্স। ওই গোল নিয়েই শুরু হয় গন্ডগোল। এনিয়ে কম জল ঘোলা হয়নি হকি অঙ্গণে। লিগ কমিটির সভাও হয়েছিল। সভায় কমিটির চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন পদত্যাগও করেন। এর পরেই শিরোপা বঞ্চিত করার অভিযোগ করেছিল মেরিনার্স ইয়াং। গত সপ্তাহে সংবাদ সম্মেলন করে ক্লাবের পক্ষে কর্মকর্তারা অভিযোগ করেছিলেন চ্যাম্পিয়নশপি নিয়ে ষড়যন্ত্র চলছে। তবে লিগ কমিটির সভায় শিরোপা নিষ্পত্তির সিদ্ধান্তটি জিবি মিটিংয়ে ঠেলে দেয়া হয়।

প্রিমিয়ার হকির শেষ ম্যাচের আগ পর্যন্ত পয়েন্ট টেবিলে ৩৯ পয়েন্ট করে নিয়ে শীর্ষে ছিল ১৪ ম্যাচ খেলা মোহামেডান ও এক ম্যাচ বেশি খেলা আবাহনী লিমিটেড। আর ১৪ ম্যাচ খেলা মেরিনার্সের পয়েন্ট ছিল ৩৬। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ফাইনাল ম্যাচটি বন্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত ১-১ গোলে ড্র ছিল। তাই মোহামেডান ও মেরিনার্সকে এক পয়েন্ট করে দেয়া হয়। ফলে আগের ৩৯ পয়েন্টের সঙ্গে এক পয়েন্ট যোগ করে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় মোহামেডান। আর ৩৯ পয়েন্টে থাকা আবাহনী রানার্সআপ এবং ৩৭ পয়েন্ট পাওয়া মেরিনার্স তৃতীয় হয়।

মোহামেডানকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণার মধ্যে দিয়ে অবসান হলো প্রিমিয়ার হকি লিগের জটিলতা। গত ৭ জুন মোহামেডান ও মেরিনার্সের অসমাপ্ত ম্যাচের ফল ছিল ১-১। আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে গোলোযোগ হলে ৪৪ মিনিট পর আর খেলা হয়নি। অনেক জটিলতার পর বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের নির্বাহী কমিটির সভায় ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র ঘোষণা করলে মোহামেডান ৪০ পয়েন্ট নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়।

ওই ম্যাচের আগে মোহামেডান ও আবাহনী ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের যৌথভাবে শীর্ষে ছিল। মেরিনার্সের পয়েন্ট ছিল ৩৬। ম্যাচে মেরিনার্স জিতলে তিন ক্লাবের পয়েন্ট সমান হতো। তখন প্লে-অফের মাধ্যমে হতো শিরোপা নির্ধারণ। ম্যাচ ড্র ঘোষণা করায় মোহামেডানের পয়েন্ট ১ বেড়ে দাঁড়ায় ৪০। আবাহনী ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে হয়েছে রানার্সআপ। মেরিনার্সের এক পয়েন্ট বেড়ে এখন হয়েছে ৩৭। গতবারের চ্যাম্পিয়ন লটির অবস্থান তৃতীয়। প্রায় ৫ মাস আগের অসমাপ্ত ম্যাচের সিদ্ধান্ত দিতে না পেরে হকি লিগ কমিটি বিষয়টি পাঠায় নির্বাহী কমিটিতে। মঙ্গলবার বিমান বাহিনীর ফ্যালকন হলে অনুষ্ঠিত সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়েছে।

দুই দলের গোলোযোগে খেলা শেষ না হওয়ার বিষয়টিও আলোচনা হয়েছে সভায়। বিষয়টি নিয়ে ডিসিপ্লিনারি কমিটিকে একটি প্রতিবেন দিতে বলেছে নির্বাহী কমিটি। ১৫ দিনের মধ্যে এই কমিটির দেয়া প্রতিবেদনের ভিত্তিতে কোনো দলের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে কিনা সে সিদ্ধান্ত নেবে ফেডারেশন।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :