বিকাল ৪:১৩, শুক্রবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
/ এশিয়ান গেমস / নারী কাবাডিতে পদকের স্বপ্ন শেষ!
এশিয়ান গেমস ২০১৮
নারী কাবাডিতে পদকের স্বপ্ন শেষ!
আগস্ট ১৯, ২০১৮



ইন্দোনেশিয়া থেকে প্রতিনিধি

সবশেষ এশিয়ান গেমসেও পদক জিতে দেশের মুখ উজ্জ্বল করেছিলো বাংলাদেশ নারী কাবাডি দল। এবারও একই ইভেন্ট থেকে ব্রোঞ্জ পদক জয়ের স্বপ্ন দেখিয়ে দেশ ছেড়েছিলেন মালেকা-শারমীনরা। কিন্তু টার্ফে নেমে হতাশই করলেন আব্দুল জলিলের শিষ্যরা।চাইনিজ তাইপের কাছে ২৮-৪৩ পয়েন্টের বড় ব্যবধানে হেরে পদক জয়ের স্বপ্ন অনেকটা ধূসর হয়ে যায় লাল-সবুজদের।

 

গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ দুই ম্যাচে শক্তিশালী ইরান ও দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে লড়তে হবে। এই দুই দলের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের জয় পাওয়া অনেকটাই ‘অলিক কল্পনা’। আগামীকাল সোমবার স্থাণীয় সময় সকাল সাড়ে ১১টায় ইরানের মুখোমুখি হবে মহিলা কাবাডি দল।

জাকার্তার গারুদা স্টেডিয়ামে সকাল সাড়ে ১১টায় শুরু হওয়া ম্যাচে প্রথমার্ধেই চাইনিজ তাইপে এগিয়ে যায় ম্যাচে। ১৬-২৩ পয়েন্টে লিড নেয়া দলটি দ্বিতীয়ার্ধে একের পর এক বোনাস পয়েন্ট তুলে নিয়ে প্রথম সাক্ষাতেই বাংলাদেশকে পরাজিত করে পদক জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে। দুই দলের লড়াইয়ে অনেক কিছুই স্পষ্ট হয়েছে। বয়স র্পাথক্য, ফিটনেস লেবেল চোখে পড়ার মতো।

লাল-সবুজদের পারফর্ম্যান্স দেখে হতাশ ভারত কাবাডি ফেডারেশনের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর প্রাসাদ রাও। জানান, ‘তোমাদের খেলোয়াড়দের এভারেজ বয়স অনেক বেশী। ফিটনেস লেবেলেও পিছিয়ে। পুরনো নিয়মেই আবদ্ধ রয়েছে বাংলাদেশ। এভাবে চলতে থাকলে একটা সময় কাবাডি থেকে হারিয়ে যেতে হবে।’

প্রতিপক্ষ হিসেবে চাইনিজ তাইপে পুরোপুরি অচেনা বাংলাদেশের কাছে। তবুও আত্মবিশ্বাসী ছিলেন মালেকারা। কিন্তু গত এশিয়ান গেমসে ছয় দলের মধ্যে ৬ষ্ঠ হওয়া দলটি যে কি পরিমান উন্নতি করেছে সেটা কল্পনাও করা যায়নি। গত এশিয়ান গেমসে ব্রোঞ্জ পদক জয় করা বাংলাদেশের উপর আধিপাত্য ধরে রেখেই ম্যাচ জিতে নেয় তাইপে। রেইডিং-ক্যাচিংয়ে অসামান্য দক্ষতা দেখিয়েছে তারা।

ম্যাচ শেষে একরাশ হতাশা নিয়েই কোচ আব্দুল জলিন বলেন, ‘ওদের বিরুদ্ধে জয়ের আশা নিয়েই এখানে এসেছিলাম। কিন্তু সেটা হয়নি। আসলে আমরা যতোটা উন্নতি করেছি, তারচেয়ে অনেক বেশী উন্নতি করেছে চাইনিজ তাইপে। আমরা ২০১৬ সালের জানুয়ারীতে সবশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছিলাম। এরপর ৩০ মাস পর আবারো আন্তর্জাতিক ম্যাচে মাঠে নেমেছে মেয়েরা। এভাবে বিরতি দিয়ে খেলতে ভালো কিছু প্রত্যাশা করা যায় না। তাছাড়া চলতি এ আসরকে সামনে মাত্র এক মাসের প্রস্তুতি নিয়ে ইন্দোনেশিয়া এসেছে দল। তাহলে কিভাবে জয় প্রত্যাশা করতে পারি আমরা।’

প্রথম ম্যাচ হেরে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয়ার শঙ্কায় থাকা বাংলাদেশের লক্ষ্য এখন দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে একটি জয় তুলে নিয়ে দেশে ফেরা।

অন্যদিকে, পুরুষ কাবাডি ইভেন্টে ভারতের কাছে ৫০-২১ পয়েন্টের বড় ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ পুরুষ দল।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :