রাত ২:২৪, সোমবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
/ ফিফা ওয়াল্ড কাপ ২০১৮ / হ্যারি কেনের হ্যাটট্রিকে নকআউটে ইংল্যান্ড
হ্যারি কেনের হ্যাটট্রিকে নকআউটে ইংল্যান্ড
জুন ২৪, ২০১৮



অধিনায়ক হ্যারি কেনের দারুণ হ্যাটট্রিকে নবাগত পানামাকে ৬-১ গোলে হারিয়ে ‘জি’ গ্রুপ থেকে বেলজিয়ামের পর বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে উঠলো ইংল্যান্ড। দুটি গোল করেন জন স্টোনস। বিশ্বকাপে এইটিই ১৯৬৬ সালের চ্যাম্পিয়নদের সবচেয়ে বড় জয়। বড় ব্যবধানে হারলেও পানামার ফিলিপে ব্যালয় বিশ্বকাপে চতুর্থ বেশি বয়সী খেলোয়াড় হিসেবে গোল করে নিজেকে অমরত্ব দেন।

সবচেয়ে বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ার আনন্দ ইংলিশ শিবিরে। তবে অধিনায়ক হ্যারি কেনের উল্লাসটা একটু বেশিই। পানামার বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করে তিনি যে এখন ইংলিশ লিজেন্ড জিওফ হাস্ট ও গ্যারি লিনেকারের কাতারে।

নিঝনি নভোগ্রোদ স্টেডিয়ামে, সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গেই গতি-স্কিল আর টার্গেটে বল পাঠানোর পাল্লায় ইংলিশদের চেয়ে পিছিয়ে পড়ে পানামা। তাতে ৮ মিনিটেই প্রতিপক্ষের রক্ষণভাগের ভুলে ইংলিশদের এগিয়ে নেন জন স্টোনস। আন্তর্জাতিক ম্যাচে এটি তার প্রথম গোল।

এরপর অ্যাকশনে নামেন ইংল্যান্ডের হ্যাটট্রিক হিরো অধিনায়ক হ্যারি কেন। প্রথম গোল ২২ মিনিটে স্পটকিকে। তাতে দলের লিড ২-০। এরপর প্রথমার্ধের শেষ নয় মিনিটে আরো তিন গোল করে ৫-০ তে এগিয়ে বিরতিতে যায় সাউদগেটের দল। যেখানে টটেনহাম তারকার অবদান আরো এক গোল।

ম্যাচের ৬২ মিনিটেই এবারের আসরে রোনালদোর পর হ্যাটট্রিকের দেখা পেয়ে যান কেন। বিশ্বকাপে তৃতীয় ইংলিশ হিসেবে এই গৌরবের ভাগীদার হলেন তিনি। তাতে দুই ম্যাচে পাঁচ গোল করে রোনালদো আর লুকাকুর সঙ্গে গোল্ডেন বুট জয়ের দাবীও জানিয়ে রাখলেন।

বিধ্বস্ত পানামার সান্তনা এক গোল শোধ দেয়া। ৭৮ মিনিটে বিশ্বকাপে চতুর্থ বেশি বয়সী খেলোয়াড় হিসেবে ফিলিপে ব্যালয় নাম লেখান স্কোরারের তালিকায়।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :