ভোর ৫:৩৩, মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০১৮ ইং
/ আর্ন্তজাতিক / ইতিহাস গড়ে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন
এশিয়া কাপ নারী ক্রিকেট
ইতিহাস গড়ে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন
জুন ১০, ২০১৮

মালয়েশিয়ায় নারী এশিয়া কাপে নতুন ইতিহাস গড়লো বাংলাদেশ। শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে, ছয়বারের চ্যাম্পিয়ন ভারতকে ৩ উইকেটে হারিয়ে টি-টোয়েন্টির শিরোপা জিতেছে লাল সবুজের দল। আগে ব্যাট করে ৯ উইকেটে ১১২ রান তোলে সাবেক চ্যাম্পিয়নরা। জবাবে, শেষ বলে ম্যাচ জিতে নেয় সালমা খাতুনের দল। ম্যাচ সেরা রুমানা আহমেদ। আর সিরিজ সেরা হন ভারতের হারমানপ্রীত।

জয় তখন মাত্র দু’রানের দূরত্বে। বিশ্বজুড়ে জাহানারা আর সালমাদের জন্য প্রার্থনা ছিলো কোটি বাঙ্গালীর। শেষ বলে তারা যখন রানের পেছনে ছুটছিলেন, উইকেটের টাচলাইন স্পর্শ করার আকুলতা ছুঁয়ে গেছে টেলিভিশন সেটের সামনে থাকা প্রতিটি ভক্তের হৃদয়। বাদ যাননি তামিম, মাশরাফিরাও।

দেশের ক্রিকেট ইতিহাসে এখন পর্যন্ত এটাই সেরা সাফল্য। যে মালয়েশিয়ায় ১৯৯৭-এ আইসিসি ট্রফি জিতে ক্রিকেটের নতুন অধ্যায় লিখেছিলো ছেলেরা। সেখানেই এশিয়ার পরাশক্তি ভারতের শ্রেষ্ঠত্ব গুড়িয়ে নতুন পথচলা শুরু হলো নারীদের।

যার ভিত্তি গড়ে দিয়েছিলেন বোলাররা। টস জিতে প্রতিপক্ষকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে মাত্র ৩২ রানে চার উইকেট তুলে নিয়ে বাংলাদেশ জানান দিয়ে রাখে জিততে নেমেছে, শুধু লড়াই করতে নয়।

এশিয়া কাপের প্রতিটি আসরেই চ্যাম্পিয়ন ভারতের প্রমান করার ছিলো গ্র“প পর্বে বাংলাদেশের বিপক্ষে হারটি শুধুই দুর্ঘটনা। তবে স্নায়ুর পরীক্ষায় ব্যর্থ ভারতীয়রা ৭৪ রান তুলতেই ৭ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে। তবু মান রক্ষা হারমানপ্রীতের ৫৬ রানের ইনিংসে। রুমানা, খাদিজা নেন দুটি করে উইকেট।

জবাবে, উদ্বোধনী জুটিতে শামীমা আর আয়েশা তুললেন ৩৫ রান। সপ্তম ওভারেই এদুজন ফিরে গেলে কিছুটা বিপদে বাংলাদেশ।

তবে বলের সাথে রানের ব্যবধানটা বাড়তে দেননি কোন ব্যাটসম্যানই। নিগার সুলতানা ২৪ বলে ২৭ রান করে দলের জয়ের ভিত্তিটা মজবুত করে দেন। ২২ বলে ২৩ রান করে রুমানা যখন আউট হন দল তখন মাত্র দু রানের দুরত্বে।

হাতের নাগালে থাকা শিরোপাটা ফসকে যেতে দেননি জাহানারা এবং সালমা। আর তাতেই দ্বিপক্ষীয় সিরিজের বাইরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথম শিরোপা ঘরে আসে বাংলাদেশের।

ফল: বাংলাদেশ ৩ উইকেটে জয়ী

ম্যাচ সেরা: রুমানা আহমেদ

সিরিজ সেরা: হারমানপ্রিত কাউর



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :