রাত ৪:৫৯, মঙ্গলবার, ১৯শে আগস্ট, ২০১৯ ইং
/ বিশ্বকাপ ফুটবল / টিম টু ওয়াচ: ব্রাজিল
বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮
টিম টু ওয়াচ: ব্রাজিল
মে ৩১, ২০১৮



বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, ব্রাজিলের কথা।

বিশ্বকাপের ইতিহাসে সবচেয় সফল একটি দল ব্রাজিল। ফুটবলের সবচেয় বড় আসর বিশ্বকাপের বেশিভাগ রেকর্ডই তাদের দখলে। এখন‌ও পর্যন্ত পাঁচবার (১৯৫৮, ১৯৬২, ১৯৭০, ১৯৯৪ ‌ও ২০০২ সালে) বিশ্বকাপ জিতেছে এবং একমাত্র দল হিসাবে চারটি ভিন্ন মহাদেশে শিরোপা অর্জন করেছে। এছাড়া বিশ্বকাপ মঞ্চে তারা দুইবার (১৯৫০ ‌ও ১৯৯৮ সালে) রানার্স আপ হয়। বিশ্বকাপের সবগুলো আসরে অংশ গ্রহন করার রেকর্ডটিও তাদের দখলে। সবচেয়ে বেশিবার (চার) ফিফা কনফেডারেশন্স কাপ জেতার রেকর্ডটিও সেলেসাওদের। তাই বলা যেতেই পারে, ‘The English invented it, the Brazilians perfected it.’ অর্থাৎ ইংল্যান্ডের আবিস্কার আর ব্রাজিলের পরিপুর্ণতা দান। প্রতিটি বিশ্বকাপেই ফেভারিটের তকমা তাগানো থাকে সেলেসা‌ওদের। তাই প্রতিপক্ষ যেকোন দলের জন্য ত্রাসের এক নাম ব্রাজিল।

শুধুমাত্র রেকর্ড কিংবা সফলতার জন্য ব্রাজিল এতো জনপ্রিয় তা নয়; ইতিহাসের সেরা সব ফুটবলার খেলেছেন এই দলে। পেলে, গ্যারিঞ্চা, সক্রেটিস, রোনালদো, রোনালদিনহো, রিভালদো, রোমারি‌ও, জিকো, কাকা থেকে শুরু করে বর্তমান সময়ের নেইমার আলো ছাড়িয়েছেন হলদ জার্সি গায়ে। তাদের অবদানের কারণে আজ ফুটবলের সৌন্দর্য্য বেড়েছে বহুগুন। তাই তো সারা বিশ্বের মানুষ বিশ্বকাপের আসরটি এলেই যেন, তাদের দেশের পতাকা উড়িয়ে দলটিকে শ্রেষ্ঠত্ব ঘোষণা করে থাকে। তাদের খেলা দেখতে টিভির পর্দার বা স্টেডিয়ামগুলোতে জড়ো হয় সবচেয়ে বেশি মানুষ। রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্রজিলকে নিয়ে মানুষের কৌতুহল যেন একটু বেশিই!

বিশ্বকাপ আর ব্রাজিল শব্দ দুটো প্রায় সমার্থক। পেন্টা জয়ের পর এবার হেক্সা জেতার মিশনে কোচ তিতে ২৩ সদস্যর শক্তিশালী দল ঘোষণা করেছেন। রয়েছে সেরাদের সেরা তারকারা। এবারে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে দলের সর্বোচ্চ গোলদাতা গ্যাব্রিয়েল জেসুসকে অধিনায়ক করা হয়েছে। তিনি শুধু বিশ্বকাপ বাছাইপর্বেই নয়, ম্যানচেস্টার সিটির এই ফরোয়ার্ড আলো ছড়িয়েছেন চলতি মৌসুমে। করেছেন ১৮টি গোল এবং বাছাইপর্বে দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৭টি গোল করেন তিনি। এই ফর্ম প্রতিপক্ষের মাথা ব্যাথার কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। তাছাড়া দলে আছেন বিশ্বের সবেচেয়ে দামী স্ট্রাইকার নেইমার।

নেইমারই ব্রাজিল দলের তালিসমান। ২৬ বছর বয়সি এই স্ট্রাইকার নিঃসন্দেহে বর্তমানে ব্রাজিল দলের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় এবং আস্থার প্রতীক। শুধু ব্রজিলই নয়,অনেকের মতে বর্তমান সময়ে নেইমারই বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। তাকে তুলনা করা হয় ব্রাজিল দলের সাবেক কিংবদন্তি পেলের সাথে। ব্রাজিলের জার্সি গায়ে নেইমার যে কতটা ভয়ংকর তা ইতোমধ্যে সবাই দেখেছে। প্রতিপক্ষ দলের জন্য একটি আতঙ্কের নাম নেইমার। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে তার ফর্ম ছিলো চোখ ছানাবড়া হ‌ওয়ার মতো। একাই করেছেন ৬ গোল এবং করিয়েছেন বেশ কিছু গোল। যদিও ইঞ্জুরির কারণে বিশ্বকাপ খেলাটাই মাটি হতে বসেছিল নেইমারের। ছিল কিছুটা সংশয়। কিন্তু সব উড়িয়ে দিয়ে তাকে নিয়েই চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেন কোচ তিতে। মূলত: তিনিই হলেন ব্রাজিল দলের প্রাণ ভোমরা। তিনি পিএসজির হয়ে এবারে মৌসুমে করেছেন ২৮ গোল যেখানে তিনি ১৭টি ম্যাচেই সেরা খেলোয়াড় হন। মাত্র ১৯ বছর বয়সে ২০১১ ও ২০১২ সালে দক্ষিণ আমেরিকার বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বচিত হন এই প্রতিভাবান খেলোয়াড় নেইমার।

এছাড়াও ২০১১ সালে ম্যাগাজিন প্লাসা তাকে নির্বাচন করে ব্রাজিলিয়ান লিগের সেরা খেলোয়াড় হিসেব। জেতেন গোল্ডেন বল। ২০১৫ সালে ব্যালন ডি অরের তিন জনের সংক্ষিপ্ত তালিকায় জায়গা হয় নেইমারের। এবারের বিশ্বকাপে নেইমারকে ঘিরেই ব্রজিলিয়নদের স্বপ্ন আকাশ ছোঁয়া। তার সাথে আক্রামনভাগে থাকবেন লিভারপুলের বাজির ঘোড়া রবার্তো ফিরমিনো। ইতোমধ্যেই ইংলিশ লিগে গোল করেছেন ২৯ টি। পাশাপাশি দলে জয়গা করে নিয়েছেন ম্যানচেস্টার সিটির ফার্নান্দিনহো এবং চেলসির উইলিয়ান। মাঝমাঠে আছেন কুতিনহো। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে ৬ গোল করে চূড়ান্ত দলে নিজের নাম পাকা করে ফেলেছেন। তার সাথে মাঝমাঠ নিয়ন্ত্রণে আছেন ক্যাসমিরো, আগউগুস্তো ‌ও ফ্রেড।

রক্ষণভাগের গুরু দ্বায়িত্ব থাকবে থিয়াগো সিলভার কাঁধে। বর্তমানে সিলভা বিশ্বের অন্যতম সেরা ডিফেন্ডার। তার সাথে সেন্টারব্যাকে থাকবেন মার্সেলো, গিল, মারকুইনহোস, মিরান্ডা ‌ও দানি আলভেসরা। তাদের ডিফেন্স ফাকি দিয়ে গোল করা যে কোন দলের জন্য অনেকটা কষ্টসাধ্য।

বিশ্বকাপের ই গ্রুপে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা খেলবে সুইজারল্যান্ড, সার্বিয়া ও কোস্টারিকার বিপক্ষে। আগামী ১৮ জুন সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারে শিরোপা মিশন শুরু কবে ব্রাজিল।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :