রাত ৮:৩৮, শুক্রবার, ১৭ই আগস্ট, ২০১৮ ইং
/ বিশ্বকাপ ফুটবল / টিম টু ‌ওয়াচ: পর্তুগাল
টিম টু ‌ওয়াচ: পর্তুগাল
মে ১৯, ২০১৮



বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে খুব একটা বেশি দেরী নেই। দলগুলো নিজেদের প্রস্তুত করতে ব্যস্ত সময় পার করেছ। বেশিরভাগ দলই বিশ্বকাপের জন্য চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেছে। যারা এখন‌ও করেনি আগামী ৪ জুনের মধ্যে তারা‌ও চূড়ান্ত করে ফেলবে দল। বিশ্বকাপের দলগুলোর কথা জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু। আজ রয়েছে, পর্তুগালের কথা।

ইউরোপের দেশ পর্তুগাল ।১৯৬৬ সালে চূড়ান্তপর্বে অংশ নিয়ে প্রথমবারেই তৃতীয় স্থান পায় তারা। বিশ্বকাপে এটাই এখন পর্যন্ত পর্তুগিজদের সেরা সাফল্য। এবার রাশিয়া বিশ্বকাপে পর্তুগালের নেতৃত্ব দেবেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এক দশক ধরে তিনি আধিপত্য করে যাচ্ছেন ফুটবল বিশ্বে। ৩৩ বছর বয়সী এই তারকার নেতৃত্বে ২০১৬ সালে ইউরোপের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে পর্তুগিজরা। এবার পালা বিশ্বকাপে সেরা হওয়ার।

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো হলেন পর্তুগাল দলের তালিসমান। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলা এই ফরোয়ার্ড একাই প্রতিপক্ষ শিবিরে ধ্বস নামতে পারেন, ছড়াতে পারেন আতঙ্ক‌ও। তিনি রিয়াল মাদ্রিদের সর্বোচ্চ গোলদাতা। দেশের জার্সি গায়ে ১৫০ টির অধিক গোল করেছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এরই মধ্যে পাঁচটি ব্যালন ডি’অর জিতেছেন। হোসে মোরিনহো সম্প্রতি মন্তব্য করেছিলেন যে রাশিয়াতে এবার পর্তুগালের সাফল্য নির্ভর করছে রোনালদোর উপরই।

তাই র্নিদ্বিধায় বলা যেতেই পারে পর্তুগালের সব আলোচনার কেন্দ্রে আছেন রোনালদো। তিনিই পর্তুগালের সাফল্যের প্রাণ ভোমরা। তবে মজার ব্যাপার হলো্ ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও লুইস ফিগোর পর পর্তুগালের হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছেন ন্যানি। তাকে রাখা হয়নি স্কোয়াডে। তিনি অবশ্য গেল বছরের কনফেডারেশনস কাপের পর থেকে জাতীয় দলের হয়ে আর খেলেননি। ২৩ সদস্যের স্কোয়াডে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ থেকে চারজন খেলোয়াড় রাখা হয়েছে। তারা হলেন ম্যানসিটির ফরোয়ার্ড বার্নার্ডো সিলভা, লেস্টারসিটির মিডফিল্ডার আদ্রিয়েন সিলভা, সাউদাম্পটনের রাইট ব্যাক সেডরিক সোয়ারেস এবং ওয়েস্টহ্যামের মিডফিল্ডার জোয়াও মারিও।

বিশ্বকাপে ‘বি’ গ্রুপে রয়েছে পর্তুগাল। এই `গ্রুপ অফ ডেথে’ তাদের প্রতিপক্ষ স্পেন, মরক্কো ও ইরান। আগামী ১৬ জুন স্পেনের বিপক্ষে পর্তুগাল তাদের প্রথম ম্যাচ খেলবে। ২০ জুন মরক্কো আর ২৬ জুন শেষ ম্যাচে পর্তুগালের প্রতিপক্ষ ইরান।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :