রাত ১০:২৯, মঙ্গলবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং
/ বিশ্বকাপ ফুটবল / রাশিয়া বিশ্বকাপ: ভেন্যুর কথা-৪
রাশিয়া বিশ্বকাপ: ভেন্যুর কথা-৪
এপ্রিল ৩, ২০১৮

‘গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’ বিশ্বকাপ ফুটবল আসর শুরু হতে আর বেশি দিন বাকী নেই। বিশ্বকাপ ফুটবলকে সামনে রেখে এখন থেকেই আমরা নিয়মিত আপনাদের দিয়ে যাব টুকিটাকি খবরা-খবর। আর এই গ্রেটেস্ট শো শুরু হবে আগামী ১৪ জুন রাশিয়াতে। আগামী ১৫ জুলাই ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে বিশ্বকাপ ফুটবলের। বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচ হবে রাশিয়ার ১১টি ভেন্যুর ১২টি স্টেডিয়ামে। রাশিয়া বিশ্বকাপের ভেন্যুগুলোর কথা জানিয়ে যাচ্ছি আমরা নিয়মিত। আজ রয়েছে কাজান অ্যারেনার কথা। জানাচ্ছেন, ফারদিন আল সাজু

মস্কোর পূর্বাঞ্চলীয় এলাকা তাতারিস্তানের রাজধানী এবং এখানকার সবচেয়ে বড় শহর হলো কাজান। আর এই কাজানেই হলো বিশ্বকাপের আর‌ও একটি ভেন্যু কাজান অ্যারেনা। স্টেডিয়ামের দর্শক ধারণ ক্ষমতা ৪৪,৭৭৯ জন। ভলগা এবং কাজানকা নদীর তীরে অবস্থিত কাজান শহর। এই স্টেডিয়ামটি দেখতে কিছুটা ‌ওয়েম্বলি এবং আর্সেনালের অ্যামিরেটস স্টেডিয়ামের মতো। বিশ্বকাপ ফুটবলের জন্য ২০১০ সালে এই স্টেডিয়ামটি পুন:সংস্কার করা হয় এবং ২০১৩ সালে এই স্টেডিয়ামটিকে প্রস্তুত বলে ঘোষণা করা হয়। এই স্টেডিয়ামটি প্রস্তুত করতে রাশিয়ার খরচ হয় প্রায় ৫০ মিলিয়ন ডলার।


তৈরি হ‌ওয়ার পর থেকে এই মাঠটি রুবিন কাজানের হোম ভেন্যু হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে।

এই কাজান অ্যারেনায় বিশ্বকাপের মোট ছয়টি খেলা হবে। তার মধ্যে গ্রুপ পর্বের চারটি আর দ্বিতীয় রাউন্ডের একটি এবং কোয়ার্টার ফাইনলের একটি ম্যাচ।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :