সকাল ১১:৫৬, বুধবার, ১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং
/ অলিম্পিক (বিওএ) / শ্যূটিংই বাংলাদেশের ভরসার
কমনওয়েলথ গেমস
শ্যূটিংই বাংলাদেশের ভরসার
মার্চ ২৫, ২০১৮



২১তম কমন‌ওয়েলথ গেমসে বাংলাদেশ ভরসা রাখছে শ্যূটিংয়েই। আর সেই সম্ভাবনার কথা মাথায় রেখে শ্যূটাররা সবার আগে অস্ট্রেলিয়া পৌঁছেছেন। দেশটির গোলকোস্টে ৪ থেকে ১৫ এপ্রিল বসবে কমনওয়েলথ গেমসের ২১তম আসর। বাংলাদেশ এবার অংশ নিচ্ছে ৬ ডিসিপ্লিনে। বাকি ৫ ডিসিপ্লিন হলো- অ্যাথলেটিক্স, সুইমিং, ভারোত্তোলন, বক্সিং ও কুস্তি।

আজ রোববার বিওএ ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে গেমসে অংশগ্রহণ ও সম্ভাবনা নিয়ে কথা বলেন কর্মকর্তারা। তবে প্রত্যাশা যা সবই শ্যূটিংকে ঘিরে। এ ডিসিপ্লিন থেকেই বাংলাদেশ পদক পেতে পারে। সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা ও সহ-সভাপতি এবং কন্টিনজেন্টের সেফ দ্য মিশন নাজিমউদ্দিন চৌধুরীর এ প্রত্যাশার কথা জানান।

খেলোয়াড়, কোচ, কর্মকর্তা মিলিয়ে ৪১ সদস্যের দল যাবে অস্ট্রেলিয়ায়। বাংলাদেশ কন্টিনজেন্টের সবচেয়ে বড় দল শ্যূটিংয়ের। ১৩ শ্যূটারের সঙ্গে আছেন ৩ কোচ ও ২ অফিসিয়াল। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬ সদস্যের দল যাবে ভারোত্তোলনে। দলে ৫ ভারোত্তোলকের সঙ্গে যাচ্ছেন এক কোচ।

সম্ভাবনা আছে বলেই বড় একটা দলই পাঠানো হয়েছে শ্যূটিংয়ে। ১৩ জন শ্যূটার অংশ নেবেন ৮ টি ইভেন্টে। কন্টিনজেন্টের সেফ দ্য মিশন নাজিমউদ্দিন চৌধুরী বাংলাদেশ শ্যুটিং স্পোর্ট ফেডারেশনেরও সভাপতি।

অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের ঘোষণা দেয়া আছে আগেরই। আন্তর্জাতিক গেমসে স্বর্ণ জিতলে ১০ লাখ, রূপা জিতলে ৫ লাখ ও ব্রোঞ্জ জিতলে ৩ লাখ টাকা পুরস্কার দেয়া হয়। রোববার সেটা মনে করিয়ে দিলেন বিওএর মহাসচিব।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :