সকাল ৬:৩৯, মঙ্গলবার, ১২ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
/ ক্রিকেট / মিরপুরের উইকেট বিপিএল উপযোগি নয় : নারিন
মিরপুরের উইকেট বিপিএল উপযোগি নয় : নারিন
ডিসেম্বর ৫, ২০১৭

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট মানেই ধুম-ধাড়াক্কা ব্যাটিং, চার-ছক্কার ফুলঝুড়ি। ভারতের আইপিএল তো এ কারণেই সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় হয়েছে। প্রতিটি ওভারেই দু-তিনটি চার-ছক্কা না হলেও সেটি যেন জমেই না। ২০ ওভারের খেলায় রান উঠবে কম করে ১৭০-১৮০। কখনও কখনও সেটা ছাড়িয়ে যাবে ২০০ থেকে ২২০ পর্যন্ত।

কিন্তু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএলে) সব সময়ই কেন যেন এই একটি ক্ষেত্রে পিছিয়ে। মার-মার কাট-কাট ব্যাটিং দেখার চেয়ে দেখতে হয় উইকেট বাঁচাতেই আপ্রাণ চেষ্টা করছেন ব্যাটসম্যানরা। কখনও ৯৭, কখনও ৬৭ রানে অলআউট হচ্ছে কোনো কোনো দল। বিশেষ করে মিরপুর শেরে বাংলার উইকেটে গড়ে রান উঠছে বড় জোর ১৩০ থেকে ১৪০ করে। দু-একটা ম্যাচে যে রান উঠছে না তা নয়। তবে গড়পড়তা হিসেব করলে, সেগুলো ধরার মধ্যেই আসবে না।

গত কয়েকদিন বিপিএলে সবচেয়ে আলোচিত বিষয় উইকেট। চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রায় প্রতিটি ম্যাচেই রান উঠেছিল। রানের বন্যা বয়ে গিয়েছিল; কিন্তু ঢাকা ফেরার পর যেন বিপিএল আবারও ম্যাড়মেড়ে। এ পরিস্থিতিতে কুমিল্লা এবং রংপুরের ম্যাচের দিন তো সংবাদ সম্মেলনে রীতিমত ঝড় তুলেছিলেন দুই অধিনায়ক তামিম ইকবাল এবং মাশরাফি বিন মর্তুজা। উইকেটের তুমুল সমালোচনা করেন এই দুই ব্যাটসম্যান।

যদিও এ বিষয়ে উইকেট এবং কিউরেটরের সাফাই গেয়েছেন বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক। তিনি সাফাই গাইলেও ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে খেলতে আসা বিদেশি ক্রিকেটার সুনিল নারিনও কঠোর সমালোচনা করলেন বিপিএলের উইকেটের। সোমবার সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে নারিন জানিয়ে দিলেন, মিরপুরের উইকেট কোনোভাবেই বিপিএলের জন্য আদর্শ নয়।

মিরপুরের উইকেট সম্পর্কে নারিন বলেন, ‘মিরপুরের উইকেট দেখে আমি বিস্মিত। যদিও আমি এখানে বল করে অভ্যস্ত। তবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের জন্য এটি মোটেও আদর্শ উইকেট নয়।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :