সকাল ৬:৩৭, মঙ্গলবার, ১২ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
/ ফুটবল / আবারও মেসির পা ভাঙল দুর্বৃত্তরা
আবারও মেসির পা ভাঙল দুর্বৃত্তরা
ডিসেম্বর ৫, ২০১৭

আর্জেন্টিনাকে বলতে গেলে একাই রাশিয়া বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে জায়গা করে দিলেন তিনি। হয়তো কোনো ট্রফি এখনও জাতীয় দলের জার্সি গায়ে জিততে পারেননি; কিন্তু ইকুয়েডরের বিপক্ষে সেদিন যদি হ্যাটট্রিকটা না করতেন, তাহলে আর্জেন্টিনার তো বিশ্বকাপই খেলতে পারার কথা না। লিওনেল মেসির জনপ্রিয়তা ওই ম্যাচের পরই আর্জেন্টিনায় বেড়েছে হু হু করে।

কিন্তু এখনও নিজ দেশে কারও কারও যে মেসি প্রিয় নন, তার আরও একবার প্রমাণ মিলল। বুয়েন্স আয়ার্সের রিও দে লা প্লাতা নদীর ধারে পাসেও দি লাস গ্লোরিয়াসে অবস্থিত মেসির মুর্তিটি আবারও ভেঙে ফেলা হলো। বল পায়ে মেসির ছুটে চলা প্রতিকৃতিকে উপজীব্য করেই মুর্তিটি তৈরি করা হয়েছে। বসানো হয়েছে পাসেও দি লাস গ্লোরিয়াসে। যেখানে আর্জেন্টিনার ক্রীড়া জগতের আরও অনেক বিখ্যাত মানুষের মুর্তি রয়েছে।

দেখা গেলো রোববার রাতে দুর্বৃত্তরা মেসির মুর্তির দুটি পা’ই ভেঙে ফেলেছে। সকালে দেখা গেলো দুই পা হারিয়ে মুর্তিটি মুখ থুবড়ে পড়ে রয়েছে পাশে। এর আগে গত জানুয়ারিতেও একবার ভাঙা হয়েছিল মেসির মুর্তিটি। গত বছর জুনে পাসেও ডি লাস গ্লোরিয়াসে প্রথম স্থাপন করা হয়েছিল মেসির এই আবক্ষ মুর্তিটি। এরপর জানুয়ারিতেই দুর্বৃত্তদের হামলার শিকার হয় এটি।

পাসেও দি লাস গ্লোরিয়াসে রয়েছে টেনিসের গ্যাব্রিয়ালা সাবাতিনি, গুলিরেমো বিয়াস, এনবিএ তারকা মানু গিনোবিল্লি, রাগবি তারকা হুগো পোর্তা, ফিল্ড হকির লুসিয়ানা আইমার, গলফের রবার্তো ডি ভিনসেঞ্জো, ফর্মুলা ওয়ানের পাসকুয়াল পেরেজ, মোটর স্পোর্টস তারকা হুয়ান ম্যানুয়েল ফাঞ্জিলোদের সঙ্গে মেসি। অন্য মূর্তির গায়ে আঁচড় না পড়লেও মেসির ওপর বারবার কেন এমন হামলা হচ্ছে৷ কেন? বুয়েন্স আয়ার্সের পুলিশ রয়েছে পুরোপুরি ধোঁয়াশার মধ্যে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :