বিকাল ৫:২৭, বৃহস্পতিবার, ২৩শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ আর্ন্তজাতিক / ইটালির কান্না সুইডেনের বিশ্বকাপ যাত্রা
ইটালির কান্না সুইডেনের বিশ্বকাপ যাত্রা
নভেম্বর ১৪, ২০১৭

শেষ পর্যন্ত রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব থেকেই বাদ পড়লো চারবারের চ্যাম্পিয়ন ইতালি। পুর‌ো ম্যাচে প্রতিপক্ষ সুইডেনের ‌ওপর চাপিয়ে খেললে‌ও গোলের দেখা পায়নি জিয়ানলুইগি বুফনের দল। তাতে ইটালিকে কান্নায় ভাসিয়ে মূল পর্বে জায়গা পেলো সুইডেন।

মিলানের সান সিরোয় সোমবার রাতে বাছাইপর্বের প্লে-অফের ফিরতি লেগের ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছে। প্রথম লেগে ঘরের মাঠে ১-০ গোলে জেতায় বিশ্বকাপের টিকেট পায় সুইডেন। ১৯৫৮ সালের পর এবারই প্রথম বিশ্বকাপে উঠতে ব্যর্থ হলো ইতালি। তাদের ব্যর্থতায় ১২ বছর পর আবার‌ও বিশ্বকাপে সুইডেন।

পুরো ম্যাচে ৭৬ শতাংশ সময় বল দখলে রেখে ২৭টি শট নেয় ইতালি, যার ছয়টি ছিল লক্ষ্যে; কিন্তু সাফল্য রয়ে যায় অধরাই। ইতালিয়ানদের ঠেকিয়ে রেখে নিশ্চিতভাবেই প্রশংসার দাবিদার সুইডেনের রক্ষণভাগ। তবে প্রতিপক্ষের ডি-বক্সে চিরো ইম্মোবিলে ও আলেসান্দ্রো ফ্লোরেন্সিদের বারবার সুযোগ নষ্টের দৃশ্যও ছিল দৃষ্টিকটু।

বাছাইপর্ব থেকেই ছিটকে পড়ার লজ্জা এড়াতে অন্তত দুই গোলের ব্যবধানে জয় দরকার ছিল ইটালির। কঠিন সে লক্ষ্যে বল দখলে রেখে শুরু থেকে আক্রমনাত্মক ফুটবল খেলা ইতালি ৪০ মিনিটে প্রথম উল্লেখযোগ্য সুযোগ পায়। দুরূহ কোণ থেকে ইম্মোবিলের শট পা দিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক। দ্বিতীয়ার্ধেও একইভাবে একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে স্বাগতিকরা, যার প্রতিটিই ভেস্তে যায় প্রতিপক্ষের রক্ষণে। সুইডেনের গোলরক্ষক ওলসেনও ছিলেন দুর্ভেদ্য প্রাচীর হয়ে।

৮৩ মিনিটে ফ্লোরেন্সির ক্রসে পারোলোর দারুণ হেড ঝাঁপিয়ে ঠেকান গোলরক্ষক। খানিক পর স্তেফান এল শারাউইয়ের আরেকটি শটও ফেরান ওলসেন।

২০০৬ জার্মান বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর গত দুই আসরে গ্রপ পর্ব পার হতে ব্যর্থ হয় ইতালি। আর এবার ছিটকে পড়লো বাছাইপর্ব থেকে। নিশ্চিতভাবেই নিজেদের সমৃদ্ধ ফুটবল ইতিহাসে কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে এই পরাশক্তিরা।

রাশিয়া বিশ্বকাপ খেলে বিদায় নেওয়ার ইচ্ছা ছিল জানলুইজি বুফনের। সেটা আর হচ্ছে না। তবে ম্যাচ শেষে ইতালির অধিনায়ক আবেগময় কণ্ঠে নিজের জন্য নয়, দু:খপ্রকাশ করলেন দেশের ফুটবলের জন্য। সেই সঙ্গে অবসেরর ঘোষণা‌ও দেন তিনি।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :