রাত ২:০৩, রবিবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং
/ ফুটবল / চার গোল দিয়েও খুশি নন কিশোর ফুটবলারদের কোচ
চার গোল দিয়েও খুশি নন কিশোর ফুটবলারদের কোচ
আগস্ট ১৯, ২০১৭

চার গোলের জয়-শুরুর ম্যাচে এমন ফল একজন কোচের জন্য খুশিরই বটে। তবে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল দলের কোচ মোস্তফা আনোয়ার পারভেজ শুক্রবার শ্রীলংকাকে উড়িয়ে দিয়েও খুশি হননি। ছেলেদের কাছে আরো গোল প্রত্যাশা ছিল তার। গোল পাওয়ার স্বস্তির চেয়ে সুযোগ হারানোর অস্বস্তিটাই বেশি কোচের। পরের ম্যাচগুলোয় তিনি আরো বেশি গোল প্রত্যাশা করছেন তার শিষ্যদের কাছে।

শুক্রবার নেপালের কাঠমাণ্ডুতে চতুর্থ সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলংকার বিরুদ্ধে বাংলাদেশের করা চার গোলের তিনটিই ফরোয়ার্ড ফয়সাল আহমেদ ফাহিমের। ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়ও হয়েছেন সিরাগঞ্জের এ কিশোর। ফাহিম প্রসঙ্গে মোস্তফা আনোয়ার ফয়সাল বলেছেন, ‘ওর খেলা সম্পর্কে আমার আগে থেকেই ধারণা ছিল। দুর্দান্ত খেলেছিল গত বছর মালয়েশিয়ায় সুপার মক কাপে। শুধু ফয়সাল নয় এই দলে আরও জনা পাঁচেক ফুটবলার আছে, যাদের ওপর ভরসা করতে পারি। আমি খুশি ফয়সাল ম্যাচ সেরা হয়েছে বলে।’

বাংলাদেশ দলের কোচ পারভেজ ভালো করেই জানেন, ট্রফি ধরে রাখায় তাদের সামনে বড় বাধা হয়ে দাঁড়াবে ভারত, যাদের হারিয়ে দুই বছর আগে এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ হয়েছিল প্রথম চ্যাম্পিয়ন। তো ভারত কেমন দল তা তো দেখতে হবে তাই না? তাই তো শনিবার ‘বি’ গ্রুপের ভারত-মালদ্বীপ ম্যাচটি মাঠে বসেই দেখেছেন মোস্তফা আনোয়ার পারভেজ। তবে একা নন, পুরো দল নিয়ে আনফা কমপ্লেক্সে গিয়েছিলেন কোচ। ভারতের কিশোরদের গোল করা দেখে হয়তো আফসোসেই পুড়েছেন পারভেজের শিষ্যরা। সুযোগ কাজে লাগিয়ে মালদ্বীপের জালে গুনে গুনে ৯ গোল দিয়েছে ভারত।

তবে ভারত নয়, আপাতত বাংলাদেশের মাথায় ভুটানের বিপক্ষে ম্যাচ। মঙ্গলবার এ দলটির বিপক্ষে গ্রুপের শেষ ম্যাচ খেলতে নামবে লাল-সবুজ জার্সিধারী কিশোররা। শেষ ম্যাচ জিতলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই সেমিফাইনালে পা রাখবে তারা।

ভুটানের বিপক্ষে ম্যাচটি অন্য কারণেও অনেক গুরুত্ব আছে বাংলাদেশের জন্য। গত বছর অক্টোবরে এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের প্লে-অফের ফিরতি ম্যাচে ভুটানের কাছে জাতীয় দল হেরেছিল ৩-১ গোলে। কিশোররা নিশ্চয়ই চাইবে সিনিয়রদের হয়ে হারের প্রতিশোধ নিতে!

ভুটানের বিরুদ্ধে বড় ব্যবধানে জয়ের লক্ষ্য নিয়েই খেলতে নামবে বাংলাদেশ। তবে কোচ শুধু এ ম্যাচটিকেই নয়, গুরুত্ব দিতে চান সব ম্যাচেই, ‘শুধু এই ম্যাচ নয়, পুরো টুর্নামেন্টই গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে বাফুফে। যদি আমরা ফাইনালে উঠতে পারি তাহলে বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন নেপালে আসবেন।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :