রাত ৯:৩৯, মঙ্গলবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং
/ আর্ন্তজাতিক / গ্যাটলিনের কাছে নিভে গেলো বোল্টের আলো
গ্যাটলিনের কাছে নিভে গেলো বোল্টের আলো
আগস্ট ৬, ২০১৭

পারলেন না উসাইন বোল্ট। জীবনের শেষ ১০০ মিটার দৌড়ে তাঁর অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাস্টিন গ্যাটলিনের কাছে হেরে গেলেন কিংবন্তি এই অ্যাথলিট। জীবনের শেষ ১০০ মিটার দৌড়ে পরাজয়ই সঙ্গী হয়ে থাকল বোল্টের। তৃতীয় হয়ে ট্র্যাক ছাড়তে হল তাঁকে।
লন্ডনে একশো মিটারের ট্র্যাকে শেষ বারের মতো দৌড়তে দেখা গেল তাঁকে। শনিবার রাতের পরে সেই কথাটা এখন বাস্তব। উসাইন বোল্ট আর একশো মিটারে দৌড়বেন না। ট্র্যাকে আর একবার তাঁকে অবশ্য দেখা যাবে। যখন একশো মিটার রিলেতে দৌড়বেন তিনি।

সেমিফাইনাল বা ফাইনালে মোটেই নিজের সেরা ফর্মের কাছেধারে ছিলেন না বোল্ট। সেমিফাইনালে দ্বিতীয় হলেন। তার আগে হিটেও নিজের ফর্ম নিয়ে খুশি ছিলেন না বোল্ট। হবেনই বা কী করে, ক্যারিয়ারের শেষ মিটে তাঁর লক্ষ্য একটাই বরাবরের মতো সোনা জিতে শেষ করা। কিন্তু ১০০ মিটারের হিটে শুরুটা এতটাই খারাপ হল তাঁর, যে ৫০ মিটার পর্যন্ত তিনি পাঁচ নম্বরে ছিলেন। শেষ ৫০ মিটারে সবাইকে ছাপিয়ে ১০.০৭ সেকেন্ডে হিট জিতলেও সন্তুষ্ট হওয়ার জায়গা নেই।
লন্ডন স্টেডিয়ামে ৯.৯২ সেকেন্ডে সবার আগে দৌড় শেষ করেন গ্যাটলিন। ৯.৯৪ সেকেন্ডে রূপা জিতেন যুক্তরাষ্ট্রের ক্রিস্টিয়ান কোলম্যান। আর ৯.৯৫ সেকেন্ডে তৃতীয় হন বোল্ট। ২০০৫ সালে হেলসিঙ্কির আসরের এক যুগ পর বিশ্ব অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে ১০০ মিটারে সেরা হলেন গ্যাটলিন।
দুই বছর পর পর হওয়া এই প্রতিযোগিতায় ২০১১ সালে ১০০ মিটারে ডিসকোয়ালিফাইড হয়েছিলেন বোল্ট। ওই একটি হতাশার অধ্যায় ছাড়া ২০০৯ থেকে এই আসরের আগ পর্যন্ত বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ্সের প্রতিটি ১০০ মিটার, ২০০ মিটার ও ৪*১০০ মিটার রিলে দৌড়ে সেরা ছিলেন তিনি।

সাফল্যমণ্ডিত ক্যারিয়ারের মতো শেষটাও রাঙানোর প্রত্যাশায় ছিলেন ১০০ ও ২০০ মিটারের রেকর্ড টাইমিংয়ের মালিক। লক্ষ্য ছিল অ্যাথলেটিক্সের সবচেয়ে বড় এই আসরে ১০০ মিটারে চতুর্থ সোনা জয়ের; কিন্তু হলো না স্বপ্নপূরণ। এখানে তার সোনার পদক রয়ে গেল ১১টিই।
ডোপিংয়ের কারণে দু-দুবার নিষিদ্ধ হয়েছেন গ্যাটলিন। কিন্তু প্রতিবারই ফিরেছেন বীরের বেশে। তারপরও এবারের ফেরাটা কি স্বপ্নেও দেখেছিলেন তিনি? গত এক দশকে ট্র্যাকের রাজত্বটা যে নিজের করে নিয়েছিলেন বোল্ট। সেই কিংবদন্তিতুল্য বোল্টের বিদায়ী ইভেন্টে সোনার হাসি হাসলেন ৩৫ বছর বয়সী গ্যাটলিন। তবে বোল্টকে শ্রদ্ধা জানাতে ভোলেননি। দৌড় শেষে ‘অমর বোল্টের’ সামনে নতজানু ভঙ্গিতে জানিয়েছেন সম্মান!
বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে গ্যাটলিনের এটা তৃতীয় সোনার পদক। ২০০৫ আসরে ১০০ ও ২০০ মিটারে সেরা হয়েছিলেন ২০০৪ এথেন্স অলিম্পিকের ১০০ মিটারের চ্যাম্পিয়ন।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :